আগামী ১ আগস্ট থেকে প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের আবেদন
অনলাইন ডেস্ক: প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের অধীন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রাজস্ব খাতভুক্ত 'সহকারী শিক্ষক' পদের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। আগামী ১ আগস্ট সকাল সাড়ে ১০টা থেকে অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হবে। আবেদন করা যাবে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত। আবেদনের যোগ্যতা : সহকারী শিক্ষক পদে আবেদনের জন্য পুরুষ প্রার্থীদের কমপক্ষে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রিধারী হতে হবে। নারী প্রার্থীরা উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেই আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীদের শিক্ষাজীবনে সব পরীক্ষায় কমপক্ষে দ্বিতীয় শ্রেণি বা বিভাগ বা সমমানের জিপিএ থাকতে হবে। ৩০ আগস্ট, ২০১৮ তারিখে সাধারণ প্রার্থীদের বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে। মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা সর্বোচ্চ ৩২ বছর। পার্বত্য তিন জেলা রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান ব্যতীত বাংলাদেশি নাগরিকরা আবেদন করতে পারবেন। বেতন : প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থীদের জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী ১০,২০০/-২৪,৬৮০/ টাকা, প্রশিক্ষণবিহীন প্রার্থীদের জন্য স্কেল ৯,৭০০/-২৩,৪৯০/ টাকা। আবেদনের নিয়ম : প্রার্থীরা অনলাইনে dpe.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।
বঙ্গবন্ধুর জেল জীবন নিয়ে বইয়ের মোড়ক উন্মোচন
অনলাইন ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জেলখানার জীবনের উপর একটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেছেন। তিনি আজ সকালে তাঁর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক শুরুর প্রাক্কালে ‘৩০৫৩ দিন’ শীর্ষক এই বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন। এরআগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান প্রধানমন্ত্রীর হাতে বইটি তুলে দেন। খবর বাসস’র স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীন কারা অধিদফতরের ব্যবস্থাপনা এবং জননিরাপত্তা বিভাগের তদারকিতে বইটি প্রকাশিত হয়েছে। বইটিতে বঙ্গবন্ধুর কারাজীবনের অনেক দুর্লভ ছবি ও তথ্য রয়েছে। কারা-অধিদফতর গবেষণা ও অনুসন্ধানের মাধ্যমে এসব দুর্লভ ও মূল্যবান ছবি ও তথ্য সংগ্রহ করেছে। এরআগে গত বছর বাংলা একাডেমি ‘কারাগারের রোজনামচা’ শীর্ষক বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী প্রকাশ করে। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে গত বছর ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর ৯৮তম জন্মদিনে বইটি প্রকাশ করে বাংলা একাডেমি। এতে বিশেষভাবে ১৯৬৬ থেকে ১৯৬৮ সাল পর্যন্ত জাতির পিতার কারাবাসের ঘটনা ও অভিজ্ঞতা তুলে ধরা হয়।
নিহত দুই শিক্ষার্থীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ
অনলাইন ডেস্ক: ঢাকার বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় নিহত দুই শিক্ষার্থীর পরিবারকে এক সপ্তাহের মধ্যে ক্ষতিপূরণ হিসেবে পাঁচ লাখ টাকা করে মোট ১০ লাখ টাকা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সোমবার (৩০ জুলাই) জনস্বার্থে দায়ের করা এক রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। জাবালে নূর পরিবহন কর্তৃপক্ষকে এই ক্ষতিপূরণ পরিশোধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আদালতে রিট আবেদনকারী আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস কাজল নিজে শুনানিতে অংশ নেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ফরিদা ইয়াসমিন। রিট আবেদনে স্বরাষ্ট্র সচিব, সড়ক পরিবহন সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, ঢাকার পুলিশ কমিশনার, অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক), বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) এবং জাবালে নূর পরিবহন কর্তৃপক্ষকে বিবাদী করা হয়েছে। ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল বলেন, বিদ্যমান যে ট্রাফিক আইন আছে তা যথাযথ প্রয়োগের মাধ্যমে যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না এবং শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের নিহত দুই শিক্ষার্থীর প্রত্যেকের পরিবারকে ব্যাংক ইন্টারেস্টসহ দুই কোটি করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। তিনি আরও বলেন, আদালত দুই পরিবারের তাৎক্ষণিক চাহিদা মেটানোর জন্য জাবালে নূর পরিবহনকে এক সপ্তাহের মধ্যে ৫ লাখ টাকা করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। আহত হয়ে যেসব শিক্ষার্থীরা হাসপাতালে আছেন তাদের চিকিৎসা নিশ্চিত করতে চিকিৎসা খরচ বহন করতে ওই পরিবহনকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে চালকদের ড্রাইভিং লাইসেন্স কোন যোগ্যতার ভিত্তি দেওয়া হয় এবং সড়কে চলাচলকারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বিআরটিএ কী পদক্ষেপ নিয়েছে সে বিষয়ে একটি প্রতিবেদন দাখিল করতে বিআরটিএকে নির্দেশ দিয়েছেন। এদিকে ক্ষতিপূরণের অর্থ নিহতদের পরিবার পেল কিনা তা নিশ্চিত করে পরবর্তী শুনানির দিন ১২ অগাস্ট প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে বিআরটিএকে। ওই দিন পরবর্তী আদেশের জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, রোববার (২৯ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনের বিমানবন্দর সড়কে আবদুল্লাহপুর থেকে মোহাম্মদপুর রুটে চলাচলকারী জাবালে নূর পরিবহন লিমিটেডের একটি বাসের চালক হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারান। এ সময় সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের ওপর বাসটি উঠে যায়। এতে ঘটনাস্থলে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম ও একই কলেজের ছাত্রী দিয়া খানম প্রাণ হারায়। গুরুতর আহত শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়। বাসচাপায় প্রাণহানির ঘটনায় রোববার রাতেই ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা করেন নিহত শিক্ষার্থী দিয়া খানমের (মিম) বাবা জাহাঙ্গীর আলম। দুই বাসচালক ও দুই সহকারীকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। গ্রেপ্তার হওয়া দুই বাসচালক হলেন সোহাগ ও যুবায়ের। তাঁদের রাজধানীর মিরপুর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। অালোকিত বাংলাদেশ
সারাবিশ্বের প্রশংসা কুড়িয়েছে বাংলাদেশের নারী শিক্ষার প্রসার
অনলাইন ডেস্ক: শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, বর্তমান সরকারের যুগান্তকারী পদক্ষেপের ফলে শিক্ষা খাতে ব্যাপক উন্নতির পাশাপাশি বাংলাদেশে নারী শিক্ষার প্রসার সারাবিশ্বের প্রশংসা কুড়িয়েছে। এ ক্ষেত্রে আমরা সার্কভুক্ত দেশগুলোর চেয়ে এগিয়ে আছি বলেও জানান তিনি। তিনি বলেন, সরকারের গৃহীত বিভিন্ন উদ্যোগের ফলে শিক্ষা ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব পরিবর্তন এসেছে। শিক্ষায় বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে। শিক্ষাবান্ধব সরকার উচ্চশিক্ষার চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে অনেকগুলো সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের অনুমতি দিয়েছে এবং এগুলোর গুণগত মান ধরে রাখার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। মন্ত্রী আজ রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সিটিতে প্রাইম এশিয়া ইউনিভার্সিটির তৃতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতির প্রতিনিধি হিসেবে সভাপতির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান, প্রাইম এশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান এম এ খালেক ও উপাচার্য ড. আবদুল হান্নান চৌধুরী বক্তব্য রাখেন। বাংলাদেশে কানাডার হাইকমিশনার বেনওয়া প্রিফন্টেন সমাবর্তন বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন। নাহিদ বলেন, সরকারি বা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে আমরা পার্থক্য করি না। তারা সকলেই আমাদের সন্তান এবং জাতির ভবিষ্যত। তিনি বলেন, কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এখনও ন্যূনতম শর্ত পূরণ করতে পারেনি। এভাবে তারা বেশী দিন চলতে পারবে না। ব্যবসা ও মুনাফার চিন্তা ত্যাগ করে জনকল্যাণ, সেবার মনোভাব ও দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে তাদের এগিয়ে আসার আহবান জানান শিক্ষামন্ত্রী। নুরুল ইসলাম নাহিদ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর কর্তৃপক্ষকে দেশের বাস্তবতা এবং জনগণের আর্থ-সামাজিক অবস্থা বিবেচনা করে শিক্ষার্থীদের ভর্তি ও টিউশন ফি নেয়ার অনুরোধ জানান। সমাবর্তনে ৫ হাজার ৮৫৬ জন স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীকে ডিগ্রী প্রদান করা হয়। ৬ জন শিক্ষার্থীকে চ্যান্সেলর স্বর্ণপদক, ৫ জনকে ভাইস চ্যান্সেলর ও ৪ জনকে চেয়ারম্যান স্বর্ণপদক প্রদান করা হয়।-বাসস
তিন সিটির ভোটে সন্তুষ্ট নির্বাচন কমিশন
অনলাইন ডেস্ক: সার্বিকভাবে নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে বলে জানিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, ‘তিন সিটির ভোটে সন্তুষ্ট নির্বাচন কমিশন।’ সোমবার (৩০ জুলাই) সন্ধ্যায় রাজধানীর আঁগারগাওয়ে নির্বাচন ভবনে তিন সিটি নির্বাচন (রাজশাহী, বরিশাল, সিলেট) পরবর্তী এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। সিইসি বলেন, ‘বরিশাল সিটি নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছে। সেজন্য রিটার্নিং অফিসারের পাঠানো তথ্য অনুযায়ী ভোট শুরুর পরে একটি কেন্দ্র বন্ধ করে দেওয়া হয়। সবশেষ আরও ১৫টি কেন্দ্রের ফলাফল স্থগিত করা হয়েছে। ১৩৪ কেন্দ্রের ভেতরে ২টি কেন্দ্র ছাড়া সব কেন্দ্রে সুষ্ঠু ভোট হয়েছে।’
৬৩ হাজার ৬০৪ হজযাত্রী সৌদি পৌঁছেছেন
অনলাইন ডেস্ক: চলতি বছরের পবিত্র হজ পালন করতে আজ পর্যন্ত ১৭৮টি হজ ফ্লাইটে ৬৩ হাজার ৬০৪ জন হজ যাত্রী মক্কা ও মদিনায় পৌঁছেছেন। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ২০ আগস্ট ২০১৮ সালের পবিত্র হজ পালিত হবে বলে ঢাকার হজ অফিসের কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান। তিনি বলেন, প্রতিদিন ১০টি করে হজ ফ্লাইটে প্রায় চার হাজার হজ যাত্রী সৌদি আরবে গমন করেন । হজ যাত্রীরা মক্কায় পৌঁছালে কাউন্সিলর (হজ) মুহাম্মাদ মাকসুদুর রহমান ও মক্কাস্থ মৌসুমী হজ অফিসারসহ অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত থেকে হজ যাত্রীদের স্বাগত জানান। খবর বাসস’র রোববার পর্যন্ত ১৮৮টি হজ ফ্লাইটে সর্বমোট ৬৭ হাজার ৬০৪ জন হজ যাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছবেন বলে হজ কর্মকর্তা জানান। হজ যাত্রীদের মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনার হজ যাত্রী হচ্ছেন ৩ হাজার ২২৬ জন বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীর সংখ্যা হচ্ছে ৬০ হাজার ৩৭৮ জন। ১৭৮টি হজ ফ্লাইটের মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স পরিচালিত ৮৭ টি এবং সৌদি এয়ারলাইন্স পরিচালিত হজ ফ্লাইট হচ্ছে ৯১টি। আগামী ১৫ আগস্ট পর্যন্ত হজ ফ্লাইট পরিচালিত হবে। গত ১৪ জুলাই প্রথম হজ ফ্লাইট শুরু হয়। এছাড়া হজ যাত্রীদের প্রথম ফিরতি ফ্লাইট শুরু হবে আগামী ২৭ আগস্ট এবং সর্বশেষ ফিরতি হজ ফ্লাইট হবে ২৫ সপ্টেম্বর। সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এ বছর মোট ১ লাখ ২৬ হাজার ৭৯৮ জন হজ যাত্রী সৌদি আরব যাচ্ছেন। সাইফুল ইসলাম বলেন, শনিবার সৌদি আরবে হজ প্রশাসনিক দলের দলনেতা এবং ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. হাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে হজ প্রশাসনিক দলের একটি সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় মক্কা ও মদিনার হজ ব্যবস্থাপনা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। এদিকে, সৌদি আরবে ২৮ জুলাই পর্যন্ত মক্কায় ৮জন হজ যাত্রী ইন্তেকাল করেছেন বলে হজ অফিস সূত্রে জানা যায়।
রাজশাহী- বরিশাল ও সিলেট সিটিতে ভোট ৩০ জুলাই প্রস্তুতি সম্পন্ন
অনলাইন ডেস্ক: রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে সোমবার (৩০ জুলাই)। সকাল ৮টায় শুরু হয়ে এ ভোটগ্রহণ চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটাররা যাতে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) ইতোমধ্যে এর সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। তিন সিটির প্রতিটি কেন্দ্রে ইতোমধ্যে ব্যালট পেপার, ব্যালট বাক্সসহ নির্বাচনী সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হয়েছে। নির্বাচনের দিন ভোট দেয়ার সুবিধার্থে সংশ্লিষ্ট এলাকায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। নির্বাচনে ভোটাররা যাতে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন এজন্য কমিশন সব কিছু করবে উল্লেখ করে ইসি সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বাসসকে বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে ভোট কেন্দ্রে এসে ভোট দিতে পারেন তা নিশ্চিত করা হবে। নির্বাচনে কোন ধরনের অনিয়ম বা নির্বাচনী কর্মকর্তাদের যেকোন ধরনের শৈথিল্য বরদাস্ত করা হবে না বলেও তিনি জানান। সচিব জানান, গাজীপুরের মতো এই তিন সিটিতেও ভোট গ্রহণ পরিস্থিতির তথ্য তাৎক্ষণিক জানার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। প্রিসাইডিং কর্মকর্তারা মোবাইল এসএমএসের মাধ্যমে দু’ঘণ্টা পরপর প্রয়োজনীয় সার্বিক তথ্য কমিশন সচিবালয়কে জানাবেন। কোনো কেন্দ্রে জাল ভোট বা সিল মারার ঘটনা ঘটলে বা তথ্য পেলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেবে কমিশন। ভোট কেন্দ্রে কোনো অঘটন বা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে গেলে তা তাৎক্ষণিকভাবে কর্মকর্তারা এসএমএসের মাধ্যমে কমিশনকে জানাবেন। এক্ষেত্রে কমিশন ঢাকায় বসে এসব এসএমএসের তথ্য অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবে। হেলালুদ্দীন জানান, ভোটের দিন প্রতিটি কেন্দ্রে ভোট কার্যক্রমের গতি-প্রকৃতি, ভোটার, প্রার্থী-কর্মী-সমর্থকদের গতিবিধি এবং সর্বোপরি নির্বাচনী কর্মকর্তাদের দায়িত্ব পালনসহ সব কিছু সাধারণ পোশাকে ঘুরে ঘুরে পর্যবেক্ষণ করবেন ইসির নীরব পর্যবেক্ষকরা। প্রতি তিনটি ওয়ার্ডের জন্য একজন করে ইসির নিজস্ব পর্যবেক্ষক মোতায়েন করা হয়েছে। ভোটে কোনো ধরনের অনিয়ম দেখলে তাৎক্ষণিক হস্তক্ষেপ, রিটার্নিং কর্মকর্তাকে অবহিত করা এবং প্রয়োজনে তারা কমিশনকেও ঘটনার তথ্য জানাবেন। এছাড়াও নির্বাচনের নিরাপত্তায় ভোটগ্রহণের দুই দিন আগে থেকে তিন সিটি কর্পোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে র‌্যাবের একটি টিম এবং প্রতি দুটি ওয়ার্ডে এক প্লাটুন করে ১৫ প্লাটুন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এরা নির্বাচনের পরদিন পর্যন্ত এলাকায় দায়িত্ব পালন করবেন। আরও ৪ প্লাটুন করে বিজিবি রিজার্ভ রাখা হয়েছে বলেও তিনি জানান। আচরণবিধি দেখভাল করতে নির্বাচনী এলাকায় নির্বাহী ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন করা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ১৪ জুন থেকে ৯ জুলাই পর্যন্ত ২৪ দিন ১০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তিন সিটিতে আচরণবিধি প্রতিপালন নিশ্চিত করতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেছে। ১০ জুলাই থেকে ১ আগস্ট এই ২৩ দিন ১০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তিন সিটিতে আচরণবিধি প্রতিপালন নিশ্চিত করতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করবে। এছাড়া নির্বাচনের দুই দিন আগে থেকে পরদিন পর্যন্ত আচরণ বিধি প্রতিপালন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় প্রতি সিটিতে ২০ জন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং আজ থেকে পরবর্তী চার দিন রাজশাহী ও বরিশালে ১০ জন করে এবং সিলেটে ৯ জন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োজিত থাকবে। নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনে ৩ লাখ ১৮ হাজার ১৩৮ জন ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৫৬ হাজার ৮৫ জন ও নারী ভোটার ১ লাখ ৬২ হাজার ৫৩ জন। বরিশাল সিটি কর্পোরেশনে ২ লাখ ৪২ হাজার ৬৬৬ জন ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ২১ হাজার ৪৩৬ জন ও নারী ভোটার ১ লাখ ২০ হাজার ৭৩০ জন। সিলেট সিটি কর্পোরেশনে ৩ লাখ ২১ হাজার ৭৩২ জন ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৭১ হাজার ৪৪৪ জন ও নারী ভোটার ১ লাখ ৫০ হাজার ২৮৮ জন। কমিশন সূত্র জানায়, তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে তিন স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হবে। এ নির্বাচনে ভোটের আগের দু’দিন থেকে ভোটের পরদিন পর্যন্ত মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্স পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি মোতায়েন থাকছে। প্রতিটি সাধারণ ওয়ার্ডে পুলিশ, এপিবিএন ও ব্যাটালিয়ন আনসারের সমন্বয়ে একটি করে মোবাইল ফোর্স এবং প্রতি তিন ওয়ার্ডের জন্য একটি স্ট্রাইকিং ফোর্স থাকবে। গুরুত্বপূর্ণ ভোট কেন্দ্র পাহারায় ২৪ জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হবে। বাকি সাধারণ ভোট কেন্দ্রে ২২ জন করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েনের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে চারজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন (নৌকা), বিএনপির মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন (ধানের শীষ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর মো. শফিকুল ইসলাম (হাতপাখা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. মুরাদ মোর্শেদ (হাতী)। বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে ছয়জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদেক আবদুল্লাহ (নৌকা), বিএনপির মো. মজিবুর রহমান সরোয়ার (ধানের শীষ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর ওবায়দুর রহমান মাহবুব (হাতপাখা), বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির আবুল কালাম আজাদ (কাস্তে), বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের মনীষা চক্রবর্তী (মই) ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী মো. ইকবাল হোসেন (লাঙ্গল)। সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে সাতজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বদর উদ্দীন আহম্মদ কামরান (নৌকা), বিএনপির আরিফুল হক চৌধুরী (ধানের শীষ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর ডা. মো. মোয়াজ্জেম হোসেন খান (হাতপাখা), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের-বাসদ মো. আবু জাফর (মই) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী এহসান মাহবুব জোবায়ের (টেবিল ঘড়ি), মো. এহসানুল হক তাহের (হরিণ) ও মো. বদরুজ্জামান সেলিম (বাস)। তিন সিটিতে ৫৩০ জন কাউন্সিলর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। রাজশাহী সিটিতে ৩০টি সাধারণ ও ১০টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড রয়েছে। এখানে ১৩৮টি ভোট কেন্দ্র ও ১ হাজার ২৬টি ভোট কক্ষ রয়েছে। বরিশাল সিটিতে ৩০টি সাধারণ ও ১০টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড রয়েছে। এখানে ১২৩টি ভোট কেন্দ্র ও ৭৫০টি ভোট কক্ষ রয়েছে এবং সিলেট সিটিতে ২৭টি সাধারণ ও ৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড রয়েছে। এখানে ১৩৪টি ভোট কেন্দ্র ও ৯২৬টি ভোট কক্ষ রয়েছে। সচিব জানান, আসন্ন তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বরিশালে ১০টি, রাজশাহীতে দুইটি ও সিলেটে দুইটি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হবে। রাজশাহী সিটিতে সৈয়দ আমিরুল ইসলাম, বরিশালে মুজিবুর রহমান ও সিলেটে মো. আলিমুজ্জামন রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করছেন।
২৯ জুলাই ডাক দিবস পালনের উদ্যোগ
অনলাইন ডেস্ক: ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশ ডাক বিভাগের গৌরবোজ্জ্বল দিন হিসেবে ২৯ জুলাই জাতীয় ডাক দিবস পালনের উদ্যোগ নেয়া হবে। রোববার সচিবালয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ ডাক বিভাগ এবং ফিলাটেলিক এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর উদ্যোগে ডাক টিকিট দিবস ২০১৮ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। ২০০৩ সাল থেকে ফিলাটেলিক এসোসিয়েশন ২৯ জুলাই ডাক টিকিট দিবস পালন করে আসছে। মোস্তাফা জব্বার বলেন, ১৯৭১ সালের ২৯ জুলাই ভারতীয় নাগরিক বিমান মল্লিকের ডিজাইন করা ৮টি ডাকটিকিট মুজিব নগর সরকার, কলকাতায় বাংলাদেশ মিশন ও লন্ডন থেকে প্রকাশিত হয়। স্বাধীন বাংলাদেশের অস্তিত্ব সত্য প্রতিষ্ঠার অংশ হিসেবে মুজিব নগর সরকার কূটনৈতিক প্রক্রিয়া হিসেবে স্বাধীনতার স্বপক্ষে বিশ্ব জনমত গড়ে তোলার জন্য এ উদ্যোগ গ্রহণ করে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধ আমাদের গৌরবের বিষয়। ১৯৭১ সালে মুজিব নগর সরকার ৮টি ডাকটিকিট প্রকাশ করে বিহির্বিশ্বে স্বাধীন বাংলার অস্তিত্ব প্রকাশ করেছে। ডিজাইনার বিমান মল্লিকের অবদান চির অম্লান হয়ে থাকবে। মুক্তিযুদ্ধকালীন প্রবাসী মুজিব নগর সরকারের প্রকাশিত ৮টি ডাক টিকিট ইতিহাসের অংশ হিসেবে আবারও প্রকাশ করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, স্বাধীনতার এ গুরুত্বপূর্ণ অংশটি নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে। মন্ত্রী ২৯ জুলাই ডাকটিকিট দিবস উদযাপন উপলক্ষে ডাক অধিদপ্তর প্রকাশিত পাঁচ টাকা মূল্যমানের একটি স্মারক ডাকটিকিট, দশ টাকা মূল্যমানের একটি উদ্বোধনী খাম ও পাঁচ টাকা মূল্যমানের ডাটা কার্ড অবমুক্ত করেন। এ বিষয়ে একটি বিশেষ সিলমোহর ব্যবহার করা হয়েছে। স্মারক ডাকটিকিট, উদ্বোধনী খাম ও ডাটা কার্ড রোববার থেকে ঢাকা জিপিও এর ফিলাটেলিক ব্যুরো থেকে বিক্রি করা হচ্ছে। পরবর্তীতে অন্যান্য জিপিও ও প্রধান ডাকঘরসহ দেশের সকল ডাকঘর থেকে এ স্মারক ডাকটিকিট বিক্রি করা হবে। উদ্বোধনী খামে ব্যবহারের জন্য চারটি জিপিওতে বিশেষ সিলমোহরের ব্যবস্থা আছে। অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সুশান্ত কুমার মন্ডল এবং ফিলাটেলিক এসোসিয়েশনের পক্ষে আনোয়ার হোসেন মল্লিক বক্তব্য রাখেন। অালোকিত বাংলাদেশ

জাতীয় পাতার আরো খবর