পয়সা দিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, এমনকি আদালতও কেনা যায়: নাসিম
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: এই দেশে পয়সা দিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও আইনজীবী, এমনকি আদালত পর্যন্ত কেনা যায় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম। বুধবার (১৫ মে) জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। এসময় নাসিম বলেন- ধর্ষণের বিরুদ্ধে ট্রাইব্যুনাল করে দ্রুত বিচার করুন। তাহলে দেখবেন, এসব অপরাধ কমে গেছে। বিএনপি-জামায়াতের চেয়েও ভয়ঙ্কর এসব অপরাধী। নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, শিশু হত্যা নিয়ে নাসিম বলেন, প্রতিদিন দেখছি নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, শিশু হত্যা এসব আমাদের গভীরভাবে উদ্বিগ্ন করে। সরকার যখন ক্ষমতায় থাকে, তখন কেন কী কারণে সিরিজের মতো করে এ ধরনের ঘটনা ঘটছে? এ ঘটনার ক্রিমিনালরা প্রকাশ্য ঘুরে বেড়াচ্ছে? বিএনপি এখন ছিন্নভিন্ন উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা আল্লাহর রহমতে জনগণের সমর্থনে দীর্ঘদিন ক্ষমতায় আছি। মনে রাখতে হবে, আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে চক্রান্ত যখন ব্যর্থ হয়, তখন গভীর ষড়যন্ত্র চলে। আজ আমরা আশ্বস্ত হতাম যদি বিএনপি বিরোধী দল হিসেবে থাকতো। ভয় ওখানে, বিএনপি এখন ছিন্নভিন্ন হয়ে গেছে। তার জোট ছিন্নভিন্ন হয়ে গেছে। আলোচনা সভায় সাবেক খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের প্রতিষ্ঠাকালীন সাধারণ সম্পাদক অভিনেত্রী সাহারা কবরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
ঈদে আট জোড়া স্পেশাল ট্রেন চলবে
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম :আসন্ন ঈদুল ফিতরে দেশের বিভিন্ন গন্তব্যে ৮ জোড়া বিশেষ ট্রেন চলাচল করবে। ঈদের প্রায় ১০ দিন আগে আগামী ২২ মে থেকে ২৬ মে পর্যন্ত এসব ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন। বুধবার (১৫ মে) রাজধানীর রেলভবনে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য দেন রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন। এ সময় রেলসচিব মোফাজ্জেল হোসেন ও রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রী জানান, ঈদ পরবর্তী ট্রেনের ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে ২৯ মে, চলবে ০২ জুন পর্যন্ত। এছাড়া ঈদুল ফিতর উপলক্ষে যাত্রায় সংযুক্ত হবে আট জোড়া স্পেশাল ট্রেনও। পাশাপাশি অ্যাপসের মাধ্যমে ট্রেনের ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি করা হবে বলে উল্লেখ করেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, টিকিট কালোবাজারি রুখতে ন্যাশনাল আইডি কার্ড দেখিয়ে একজন সর্বোচ্চ চারটি টিকিট কিনতে পারবেন। ঈদের আগে ও পরে মালবাহী ট্রেন বন্ধ থাকবে। মন্ত্রী বলেন, ঈদের প্রায় পাঁচদিন আগে ৩১ মে থেকে রেলওয়েতে ট্রেনের কোনো ডে-অফ থাকবে না। ফলে ৪৮টি বিশেষ ট্রিপ পরিচালিত হবে। রেলমন্ত্রী বলেন, এবার প্রথমবারের মতো কমলাপুর রেল স্টেশন ছাড়াও চারটি স্থানে টিকিট বিক্রি করা হবে। কমলাপুর থেকে সমগ্র পশ্চিমাঞ্চলগামী ট্রেনের টিকিট, বিমানবন্দর স্টেশন থেকে চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট, তেজগাঁও থেকে ময়মনসিংহ ও জামালপুরগামী ট্রেনের টিকিট, বনানী থেকে নেত্রকোণাগামী মোহনগঞ্জ ও হাওড় এক্সপ্রেসের টিকিট ও ফুলবাড়িয়া (পুরাতন রেলওয়ে স্টেশন) থেকে সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী সব আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট বিক্রি করা হবে। নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, ঈদ উপলক্ষে বিভিন্ন রুটে আট জোড়া স্পেশাল ট্রেন চলবে। ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ-ঢাকা রুটে এক জোড়া স্পেশাল ট্রেন চলবে। চট্টগ্রাম-চাঁদপুর-চট্টগ্রাম রুটে দুই জোড়া স্পেশাল ট্রেন চলবে। কলকাতা-খুলনার বন্ধন ট্রেন স্পেশাল হিসেবে চলবে খুলনা-ঢাকা-খুলনা রুটে। এছাড়া ঢাকা-ঈশ্বরদী-ঢাকা রুটে একটি, লালমনিরহাট-ঢাকা-লালমনিরহাট রুটে একটি, শোলাকিয়া স্পেশাল-১ ভৈরববাজার-কিশোরগঞ্জ-ভৈরববাজার রুটে ঈদের দিন, শোলাকিয়া স্পেশাল-২ ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ রুটে ঈদের দিন স্পেশাল ট্রেন হিসেবে চলবে। তবে স্পেশাল ট্রেনের টিকিট অ্যাপসের মাধ্যমে কেনা যাবে না বলে জানান তিনি। মন্ত্রী আরও বলেন, ২২ মে ৩১ মে’র, ২৩ মে ১ জুনের, ২৪ মে ২ জুনের, ২৫ মে ৩ জুনের ও ২৬ মে ৪ জুনের টিকিট বিক্রি করা হবে। আর ২৯ মে ৭ জুনের, ৩০ মে ৮ জুনের, ৩১ মে ৯ জুনের, ১ জুন ১০ জুনের এবং ২ জুন ১১ জুনের ফিরতি টিকিট বিক্রি করা হবে। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টিকিট বিক্রি করা হবে। রেলমন্ত্রী এও বলেন, আগামী ২৫ মে ঢাকা-পঞ্চগড় রুটে পঞ্চগড় এক্সপ্রেস চালু করা হবে। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ট্রেনটির উদ্বোধন করবেন।
রাসেলকে ৪৫ লাখ টাকা দিতে এক মাস সময় দিয়েছেন হাইকোর্ট
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম :যাত্রাবাড়ী ফ্লাইওভারে গ্রিনলাইন পরিবহনের বাসচাপায় পা হারানো প্রাইভেটকার চালক রাসেল সরকারকে ক্ষতিপূরণ দিতে আগামী ২২ মে পর্যন্ত ফের সময় বেঁধে দিয়েছেন হাইকোর্ট। ঐদিন আবার শুনানি হবে। বুধবার (১৫ মে) দুপুরে বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। গত বছর ২৮ এপ্রিল যাত্রাবাড়ীর মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারে গ্রিন লাইন পরিবহনের একটি বাস তাকে চাপা দেয়। তাকে বাঁচাতে একটি পা কেটে ফেলতে বাধ্য হয়েছে চিকিৎসকরা। ক্ষতিপূরণ চেয়ে উম্মে কুলসুমের করা এক রিট আবেদনে রাসেলকে ৫০ লাখ টাকা দিতে নির্দেশ দিয়েছিল হাইকোর্ট। পরে আপিল বিভাগেও ওই আদেশ বহাল থাকে। ৪ এপ্রিল গ্রিন লাইনের মহাব্যবস্থাপক আবদুস সাত্তার আদালতে হাজির হয়ে বলেন, তাদের প্রতিষ্ঠানের মালিক চিকিৎসার জন্য ভারতে গেছেন, ফিরবেন ৯ এপ্রিল। এরপর হাইকোর্ট রাসেলকে ৫০ লাখ টাকা পরিশোধ করে ১০ এপ্রিলের মধ্যে আদালতে হলফনামা দাখিলের নির্দেশ দেন গ্রিন লাইন কর্তৃপক্ষকে। তা না হলে গ্রিন লাইনের সব বাস জব্দ করা হবে বলেও হুঁশিয়ার করে আদালত। বুধবার শুনানির শুরুতেই কিন্তু রিটকারী আইনজীবী উম্মে কুলসুম আদালতকে বলেন, গ্রিন লাইন কর্তৃপক্ষ কোনো ধরনের যোগাযোগই করেনি। গ্রিন লাইনের আইনজীবী অজি উল্লাহ তখন বলেন, টাকা দিতে তাদের এক মাস সময় প্রয়োজন। বিচারপতি তখন বলেন, উনি অসুস্থ, কিন্তু উনার ব্যবসা তো থেমে নেই, ব্যবসা তো চলছে। আজকে যদি একটা কিছু নিয়ে আসতেন তাহলে আমরা বুঝতাম একটা মানবিকতা আপনারা দেখিয়েছেন। কিন্তু কিছুই দেন নাই এখন পর্যন্ত। বিকালে আইনজীবী অজি উল্লাহ পাঁচ লাখ টাকার একটি চেক দেখিয়ে বলেন, এই চেক আমরা এখন হাতে হাতে দিতে চাচ্ছি। ১৫ তারিখ এটা ক্যাশ করা যাবে। এরপর রাসেল সরকারকে ডেকে বিচারপতি জানতে চান তার কোনো ব্যাংক অ্যাকাউন্ট আছে কি না। রাসেল অ্যাকাউন্ট আছে জানালে বিচারপতি তাকে চেক নিতে বলেন এবং ওই চেক বুঝে নেয়ার বিষয়ে বিবাদীপক্ষকে লিখিতভাবে জানাতে বলেন। তখন বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান তখন বলেন, ওসব আমরা শুনতে চাই না। এক মাস সময় দিলম। এর মধ্যে বাকি টাকা দিয়ে দিবেন। একইসঙ্গে রাসেলের অন্য পায়ের চিকিৎসার জন্য অবিলম্বে ব্যবস্থা নিতে গ্রিন লাইন কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন আদালত। এ সময় গ্রিন লাইনের মালিককে সামনে ডাকে বিচারপতি বলেন, আপনি একটা ব্যবসা চালান, আপনার পরিবহনের সুমান আছে। আমরাও কখনও কখনও ওই পরিবহনে চড়েছি। ধরে নিলাম এই ঘটনায় তার দায় আছে, কিন্তু একটা দায় সবারই আছে। ওর চিকিৎসা করানোর একটা মানবিক দায়িত্ব আছে। হাজী আলাউদ্দিন তখন বলেন, রাসেল সরকারের ঘটনার পর আমিও পারিবারিকভাবে তিনটা অ্যাক্সিডেন্টের মুখোমুখি হয়েছি। আমার বড় ছেলের চোখ চিরতরে নষ্ট হয়ে গেছে। আমার স্ত্রীর কিডনি নষ্ট হয়ে গেছে। আমিও এক মাস ধরে অসুস্থ। আমার যে ব্যবসা, তা এখন লসে আছে। আদালতের আদেশের পর রাসেল সরকার সাংবাদিকদের বলেন, টাকা বড় কথা না। সব থেকে বড় কথা হল মানুষের একটা অঙ্গ। যে অঙ্গ একমাত্র উপরওয়ালা ছাড়া আর কেউ দিতে পারে না। আমি যদি আজ পাঁচ কোটি টাকা দিয়েও পা লাগাই, তাহলেও আমি আগের জীবনে ফিরে যেতে পারব না।
পুলিশবাহিনীকে হামলার টার্গেট করেছে জঙ্গিরা-আইজিপি
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম :পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, জঙ্গি গোষ্ঠীরা পুলিশসহ আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের ওপর হামলার টার্গেট করছে। তাই সারা দেশে বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা। পুলিশ বাহিনীকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সতর্ক থাকার কথা বলা হয়েছে। আজ সকালে পুলিশ সদরদপ্তরে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) কার্যরির্বাহী কমিটির সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়ে এ কথা বলেন তিনি। আইজিপি বলেন, পুরো বিশ্বে জঙ্গিরা এখন দলবদ্ধ হয়ে হামলার প্রবণতা থেকে বের হয়ে আসছে তারা একাকী হামলা মানে লোন উলফ পদ্ধতিতে হামলা চালাচ্ছে। এই প্রবণতা রোধ করা প্রায় অসম্ভব। তিনি বলেন, পুলিশ জঙ্গিদের সকল কর্মকান্ড নজরদারি ও নিয়ন্ত্রণে রেখেছে। তবে পুরোপুরিভাবে জঙ্গিদের নির্মূল করা সম্ভব হয়নি। হলি আটিংজানে জঙ্গি হামলার পর মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি হয়েছে। জঙ্গি বা সন্দেহবাজনদের নিয়ে মানুষ তথ্য দিলে একাকী হামলার প্রবণতাও প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে।
খালেদা জিয়াকে নতুন কারাগারে নেওয়ার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:পুরনো ভবনের স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশ ছেড়ে কেরানীগঞ্জের নতুন কারাগারে নতুন ভবনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে রাখার খবরে বিএনপির অখুশি হওয়ার কোনো কারণ দেখছেন না আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারকে জাদুঘরে রূপান্তরিত করতে খালেদা জিয়াকে কেরানীগঞ্জের কারাগারে নেওয়ার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে বলেও জানান আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক। বুধবার (১৫ মে) সচিবালয়ে ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলীর সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ প্রশ্নের জবাবে একথা জানান। বর্তমানে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন খালেদা জিয়া দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে পুরনো কারাগারে বন্দি ছিলেন।
হাইকোর্ট বলেছেন দুধের উপরে প্রতিবেদন দিতে
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:হাইকোর্ট বলেছেন, কোন কোন কোম্পানির দুধে স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর উপাদান রয়েছে সেটা আমাদেরকে জানতে হবে। কারণ যদি সেটা আমরা না জানতে পারি তাহলে জনগণকে সচেতন করা যাবে না। জনগণের অধিকার রয়েছে- তার স্বাস্থ্যর জন্য কোনটি ভাল সেটা বেছে নেয়ার। বুধবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন। এর আগে আদালতে বিএসটিআইএর আইনজীবী এম আর হাসান দুধ নিয়ে শাহলিনা ফেরদৌসের করা গবেষণা রিপোর্ট নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। তিনি বলেন, এই গবেষণা রিপোর্টে বলা হয়েছে- দুধের ৯৬টি স্যাম্পলের মধ্যে ৯৩টিতে ক্ষতিকর উপাদান পাওয়া গেছে। যা নিয়ে সারাদেশে হইচই পড়ে যায়। কিন্তু এই রিপোর্ট কতটা সঠিক এবং ল্যাবরেটরির নিয়ম কানুন মেনে স্যাম্পলগুলো সংগহ করা হয়েছিল কিনা সেটা জানা দরকার। এর পরে আদালত আগামী ২১ মে শাহলিনা ফেরদৌসকে আদালতে হাজির হয়ে তার গবেষণার বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। একই সঙ্গে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষকে দুধের উপরে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।
ধর্ষণকারীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নিন :নাসিম
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, আমরা সব বিষয়ে সফল হলেও একটি বিষয় নিয়ে উদ্বিগ্ন। দেশে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ বেড়ে গেছে। যা বিএনপির চেয়ে ভয়ঙ্কর। তাই আইনমন্ত্রীকে আমি অনুরোধ করছি, ট্রাইব্যুনাল করে এদের বিচার করুন। তিনি বলেন, ৭১র ঘাতকদের যদি ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে বিচার করা যেতে পারে, তাহলে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণকারীদের কেন ট্রাইব্যুনাল করে বিচার করা যাবে না। এরা বিএনপির-জামায়াতের চেয়েও ভয়ঙ্কর। আমি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে বলবো এরা ক্রিমিনাল। এদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নিন। বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিএনপি এখন ছিন্নভিন্ন হয়ে গেছে। যখন কোনো দল রাজনৈতিকভাবে ছিন্নভিন্ন হয়ে পড়ে, তখন ভয় হয়। কোনো দল রাজপথে সক্রিয় না থাকলে ষড়যন্ত্র করে। তাই ভয় পাই। তাদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে। মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিএনপি হত্যা ও ক্যু এবং ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ক্ষমতা এসেছে। শুধু তাই নয়, আওয়ামী লীগকেও হত্যা ও ক্যুর মাধ্যমে ক্ষমতা চ্যুত করেছে। তারা রাজপথের পরাজিত সৈনিক। তারা যেকোনো ষড়যন্ত্র করতে পারে। এ জন্য তদের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। সংগঠনের সভাপতি শাহারা বেগম কবরির সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা এ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ কামাল চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দিলীপ রায়, প্রচার সম্পাদক আক্তার হোসেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।
বৃহস্পতিবার থেকে লঞ্চের কেবিনের আগাম টিকিট বুকিং শুরু
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঈদে ঘরমুখো নৌ-যাত্রীদের লঞ্চের কেবিনের আগাম টিকিট বুকিং শুরু হচ্ছে আগামীকাল। টিকিট পাওয়া যাবে ১৮ থেকে ২০ রমজান পর্যন্ত। আর বিআইডব্লিউটিসির স্টিমারের টিকিট বুকিং শুরু হতে পারে ১৫ রমজান থেকে। টিকিট কালোবাজারে যাতে না যায় সে ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে লঞ্চ কর্তৃপক্ষ। একদিকে তুলনামূলক ভাড়া কম আর অন্যদিকে আরামদায়ক । এসব কারণে বরিশালসহ উপকূলীয় এলাকার বেশিরভাগ মানুষের যাতায়াত নৌ-পথেই। তাই ঢাকা-বরিশাল নৌ-পথে লঞ্চের কেবিনের টিকিট পাওয়া কঠিন। তার ওপর ঈদে থাকে আবার বাড়তি চাহিদা। এ কারণে লঞ্চের কেবিন অগ্রিম বুকিং এ বেশি আগ্রহ থাকে যাত্রীদের। এবার ১০ রমজান থেকে লঞ্চের কেবিনের অগ্রিম টিকিট বুকিং শুরু হবে বলে জানান, এই লঞ্চ মালিক। লঞ্চ মালিক মঞ্জুরুল আহসান ফেরদৌস বলেন, এবার ঈদে আগে আসলে আগে কেবিন পাবে এই ভিত্তিতে স্টক থাকা পর্যন্ত টিকিট বিক্রি শুরু করা হয়েছে। আর ২০ রমজানের মধ্যে শেষ হবে কেবিনের অগ্রিম টিকিট বুকিং। নিজাম শিপিং লাইনস ম্যানেজার মোঃ হুমায়ুন কবির বলেন, কেবিনের টিকিট যেন কালোবাজারির হাতে না যায়, সেদিকে খেয়াল রাখছি।' এদিকে স্টিমারের কেবিন বুকিং ১৫ রোজা থেকে শুরু হতে পারে বলে জানালেন বিআইডব্লিউটিসি'র কর্মকর্তা । বিআইডব্লিউটিসি সহ-মহাব্যবস্থাপক সৈয়দ আবুল কালাম আজাদ বলেন, 'এবারও ঈদের এক সপ্তাহ পূর্বে বিআইডব্লিউটিসির স্টিমারের সার্ভিস চালু হওয়ার কথা রয়েছে। এবার ঈদে ঢাকা-বরিশাল রুটে মোট ২৪ থেকে ২৫টি লঞ্চ ও ৫টি স্টিমার চলার কথা রয়েছে।
আবারও বাংলাদেশি কর্মী নেবে মালয়েশিয়া
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: আবারও বাংলাদেশি কর্মী নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে মালয়েশিয়া সরকার। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও মানবসম্পদমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রীর বৈঠকে এ আশ্বাস পাওয়া গেছে। ৩০ ও ৩১ মে দুই দেশের ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠকে বিষয়টি চূড়ান্ত হতে পারে। গতকাল মঙ্গলবার প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মালয়েশিয়ার প্রশাসনিক রাজধানী পুত্রাজায়ায় দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তানশ্রি দাতো সেরি উতামা মহিউদ্দিন ইয়াসিন এবং মানবসম্পদমন্ত্রী তান কুলাসেগারানের সঙ্গে তাদের কার্যালয়ে পৃথক বৈঠক করেন প্রবাসীকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদ। বৈঠকে মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের শ্রমবাজার শিগগিরই উন্মুক্ত হবে বলে উভয় পক্ষ আশাবাদ ব্যক্ত করে নীতিগতভাবে একমত পোষণ করে। এ সময় মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত বাংলাদেশি কর্মীদের স্বার্থসংশ্লিষ্ট নানা বিষয় নিয়েও অর্থবহ আলোচনা হয়। বর্তমানে স্থগিত শ্রমবাজার উন্মুক্তকরণ প্রসঙ্গে মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী সফররত প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রীকে বলেন, এ বিষয়ে তাদের সরকার সব সময়ই ইতিবাচক মনোভাব পোষণ করে। শিগগিরই বিষয়টি মালয়েশিয়ার মন্ত্রিপরিষদে উত্থাপন করা হবে। প্রসঙ্গক্রমে মালয়েশিয়ার সরকারের পক্ষ থেকে আগামী ৩০ ও ৩১ মে দুদেশের যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপের একটি বৈঠকের প্রস্তাব করা হয়েছে। সেখানেই শ্রমবাজার বিষয়ে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ হবে। ঢাকার বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বৈঠকে উভয় পক্ষই মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত অনিয়মিত বিদেশি কর্মীদের হয়রানি ও বঞ্চনাসহ নানা সমস্যার দ্রুত সমাধানে গুরুত্বারোপ করেন। প্রসঙ্গত, মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের শ্রমবাজার উন্মুক্ত করার লক্ষ্যে দেশটির সঙ্গে আলোচনা করতে প্রবাসীকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদ গত শনিবার মালয়েশিয়া সফরে যান। তিনি আগামীকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দেশটিতে অবস্থান করবেন। এ সময়কালে সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে বৈঠক চলবে তার। বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বৈদেশিক শ্রমবাজার মালয়েশিয়া। সেখানে আট মাসেরও বেশি সময় ধরে নতুন কর্মী প্রেরণ বন্ধ আছে।

জাতীয় পাতার আরো খবর