এবার ঈদ যাত্রা স্বস্তিরই হবে
ঈদ উপলক্ষে বাড়ি যাওয়া শুরুর চতুর্থ দিনে ট্রেনের যাত্রীরা চরম দুর্ভোগের মুখে পড়েছেন। ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া বেশিরভাগ ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় ঘটেছে। ট্রেনের প্রতিটি বগি কানায়কানায় ভরাতো ছিলই, যাত্রীবোঝাই ছিল ছাদও। এ নিয়ে টিকিট কাটা যাত্রীরা অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। যাত্রীরা বলছেন, অনেক কষ্ট করে ট্রেনের টিকিট কেটেছেন। তারপরও রীতিমত যুদ্ধ করে ট্রেনে চড়তে হয়েছে। বগির ভিতর শুধু করিডরে নয়, সিটের হাতলেও অনেক যাত্রীকে বসতে হয়েছে। ফলে কোন নড়াচড়া ছাড়াই সিটে বসে তাদের ঘরে ফিরতে হচ্ছে। এদিকে, ঈদযাত্রার চতুর্থ দিনে সড়কপথের যাত্রীদের তেমন কোন দুর্ভোগ পোহাতে হয়নি। বাস যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হবে বলে যে আশংকা করা হচ্ছিল, তেমনটা হয়নি বলে জানিয়েছেন যাত্রীরা। তবে টঙ্গী থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত মহাসড়কের বিভিন্ন স্থান হাঁটুপানিতে ডুবে যাওয়ায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলাচলকারী বাসগুলোর এক থেকে দুই ঘণ্টা বিলম্ব হয়। ঢাকা থেকে বের হওয়ার পথে বিশেষ করে গাবতলী থেকে আমিনবাজার পর্যন্ত কিছুটা যানজটের মুখে পড়লেও অনেকটা স্বস্তি নিয়ে বাড়ি যেতে পেরেছেন বাসের যাত্রীরা। বুধবার রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনাল ও কল্যাণপুরের বাস কাউন্টারগুলোতে দেখা গেছে, নির্দিষ্ট সময়ে দূরপাল্লার বাসগুলো ছেড়ে গেছে। উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলমুখী বাসের কাউন্টার ব্যবস্থাপকরা জানান, বুধবার দুপুর পর্যন্ত মহাসড়কে বড় ধরনের কোনো যানজটে পড়তে হয়নি। এই অবস্থা চালু থাকলে এবার ঈদ যাত্রা স্বস্তিরই হবে।
বিমানবন্দরে ৪০ লাখ টাকা মূল্যের স্বর্ণালঙ্কার জব্দ
হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৪০ লাখ টাকা মূল্যের সোনারবার ও স্বর্ণালঙ্কার জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দার একটি টিম। মঙ্গলবার রাতে মালয়েশিয়া থেকে আগত এক যাত্রীর কাছ থেকে ৬টি সোনার বার ও ১০০ গ্রাম স্বর্ণালঙ্কার জব্দ করা হয়। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো. সহিদুল ইসলাম জানায়, মালয়েশিয়া থেকে বিএস-৩১৬ ফ্লাইট যোগে আগত যাত্রীর কাছ থেকে ৬টি সোনার বার ও ১০০ গ্রাম স্বর্ণালঙ্কার জব্দ করা হয়। জব্দকৃত সোনার ওজন ৭০০ গ্রাম। যাত্রী কোনো প্রকার ঘোষণা ছাড়াই গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করে বাইরে বের হবার সময় বিশেষ কৌশলে শরীরের মধ্যে লুকায়িত অবস্থা থেকে শুল্ক গোয়েন্দা দল তা উদ্ধার করে। তিনি জানান, সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে শুল্ক গোয়েন্দা দল গ্রিন চ্যানেলে অবস্থান গ্রহণ করে তার শরীর এবং মালামাল তল্লাশি করে সোনার বার জব্দ করে ও তাকে আটক করা হয়। জব্দকৃত সোনার মোট মূল্য ৪০ লাখ টাকা। এ বিষয়ে শুল্ক আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।
বিএনপির পক্ষে কঠিন আন্দোলন করা সম্ভব নয়
আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি যদি অংশগ্রহণ না করে তাহলে তারা অস্তিত্ব সংকটে পড়বে। এটা হবে তাদের জন্য রাজনৈতিক আত্মহত্যা। নিশ্চয়ই বিএনপি রাজনৈতিক আত্মহত্যা করতে চাইবেনা। বুধবার দুপুরে জেলার বোরহানউদ্দিন পৌরসভায় অসহায় নারীদের মাঝে নতুন শাড়ি বিতরণ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে দেড় হাজার দুস্থ নারীর মধ্যে ঈদবস্ত্র বিতরণ করা হয়। তোফায়েল আহমেদ বলেন, বিএনপির পক্ষে কঠিন আন্দোলন-সংগ্রাম করা সম্ভব নয়। কারণ জ্বালাও পোড়াও করে কোন লাভ হয়না। এটা তারা (বিএনপি) উপলব্ধি করেছে ২০১৩, ২০১৪ ও ২০১৫ সালে। হরতাল অবরোধের নামে দেশকে ধ্বংস করতে চেয়ে ব্যর্থ হয়েছে। আগামীতেও তারা ব্যর্থ হবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বোরহানউদ্দিন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাব্বতজান চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল কুদ্দুস, সহকারী পুলিশ সুপার রাসেলুর রহমান, পৌর মেয়র মো. রফিকুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রাসেল আহমেদসহ অন্যরা। এর আগে মন্ত্রী উপজেলার কাচিয়া, কুতবা, পক্ষিয়া, টবগিসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে মোট ১১ হাজার শাড়ি-লুঙ্গি বিতরণ করেন।
নির্বাচন কমিশনের অধীনেই আগামী নির্বাচন উনুষ্ঠিত হবে
আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে জয়লাভ করার কোন সম্ভাবনা নাই বিএন‌পির। তাই তারা (বিএনপি) ১/১১ কুশিলবদের সাথে নিয়ে দেশের পানি ঘোলা করতে চায় ব‌লে মন্তব্য ক‌রে‌ছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং দলের অন্যতম মুখপাত্র ড. হাছান মাহমুদ। বুধবার (১৩ জুন) জাতীয় প্রেসক্লাবের দ্বিতীয় তলায় কনফারেন্স লাউঞ্জে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত 'জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস' উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। ‌তি‌নি ব‌লেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বাধীন বিএনপি ১/১১ কুশিলবদের সাথে নিয়ে দেশে আবারও ষড়য‌ন্ত্রের বীজ বুনছে। এবং তারা (বিএনপি) তা‌দের পরম বন্ধু পা‌কিস্তান‌কে নি‌য়ে ব‌হির্বি‌শ্বের নেতাদের কা‌ছে না‌লিশ কর‌ছে। কারণ আগামী নির্বাচনে জয়লাভ করার কোনও সম্ভাবনা তা‌দের নেই। সাম্প্রতিক বিএনপির ভারত সফর প্রসঙ্গে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, অতীতের রাজনীতির ভুলের ক্ষমা চাওয়ার জন্যই ভারত গিয়েছিল বিএনপি। তিনি ব‌লেন, নির্বাচন কমিশনের অধীনেই আগামী নির্বাচন উনুষ্ঠিত হবে, এর কোন ব্যত্যয় হবে না। সেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ অংশ গ্রহণ করবে। আর য‌দি তারা (বিএন‌পি) ২০১৪ সালের মত আগামী নির্বাচ‌নে অংশগ্রহণ না ক‌রে তাহলে তারা (বিএনপি) অাত্মহননের পথ বেচে নেবে। তাই ষড়যন্ত্রের পথ পরিহার করে বিএনপিকে আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার অনুরোধ জানান তি‌নি। বিএনপি ‌বেগম খা‌লেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নি‌য়ে নোংরা রাজনী‌তি কর‌ছে দা‌বি ক‌রে সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ব‌লেন, জনগণের স্বাস্থ্য সেবা নিয়ে বিএনপির কোনো মাথাব্যথা নেই। তাঁদের মাথাব্যথা শুধুমাত্র বেগম জিয়ার হাঁটু আর কোমরের ব্যথা নিয়ে। তাই এই নোংরা রাজনী‌তি থে‌কে বিএন‌পি‌কে বেড়িয়ে আসারও আহ্বান জানান। সরকারের কাছে দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, কিছু দিন আগে বেগম খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে গিয়েছে এখন কেন যাবে না? এখন কেন ইউনাই‌টেট হাসপাতালে তাকে নিতে হবে? এর উদ্দেশ্য উদ্ঘাটন করা হোক। আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা লায়ন চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, খাদ্যমন্ত্রী অ্যাড. কামরুল ইসলাম এমপি, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড. বলরাম পোদ্দার, কৃষক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শেখ জাহাঙ্গীর আলম, জোট নেত্রী রেহানা পারভীন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানাসহ প্রমুখ।
ঈদ উপলক্ষে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেয়া হবে
বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, ঈদ উপলক্ষে যারা রাতে যাত্রা করবেন তাদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেয়া হবে। এ জন্য রাস্তায় পোশাকে ও সিভিল পোশাকে আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা থাকবে। ঈদে অজ্ঞান পার্টি ও মলম পার্টির বিরুদ্ধেও আইনশৃখলা বাহিনী যথেষ্ট তৎপর রয়েছে। ইতিমধ্যে বেশকিছু গ্যাং ধরা পড়েছে। তিনি যাত্রীদের রাস্তাঘাটে অপরিচিত কারো কাছ থেকে কোন কিছু গ্রহণ না করার জন্য অনুরোধ জানান। বুধবার দুপুরে মহাসড়কে যানজট পরিস্থিতি এবং মহাসড়কে বেশ কয়েকটি পুলিশ কন্ট্রোল রুম পরিদর্শনকালে গাজীপুর মহানগরীর চান্দনা চৌরাস্তা এলাকায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ সব কথা বলেন। আইজিপি বলেন, টঙ্গী থেকে চান্দনা চৌরাস্তা পর্যন্ত পুরো রাস্তার অর্ধেক ড্রেনের নোংরা পানিতে সয়লাব হয়ে আছে। ড্রেনেজ সিস্টেমটা আরো ভাল করা দরকার বলে মনে হয়। অবশ্য কর্তৃপক্ষ চেষ্টা করছেন। তবে সেখানেও একটা ধারণ ক্ষমতা আছে। যখন অতিরিক্ত বৃষ্টিপাত হয় তখন এ ড্রেনেজ সিস্টেমটা ঠিক মতো কাজ করতে পারে না বলে মনে হচ্ছে। এনফোর্সমেন্টের দায়িত্বে থাকা সবগুলো সংস্থা সমন্বিতভাবে কাজ করলে আর পানি যদি দ্রুতগতিতে বেরিয়ে যেতে পারে তাহলে রাস্তাটি পুরোপুরি ব্যবহার করা যাবে। পরিদর্শনকালে ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন, হাইওয়ে পুলিশের ডিআইজি আতিকুল ইসলাম, ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (প্রশাসন) আনোয়ার হোসেন, গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ, হাইওয়ে পুলিশের পুলিশ সুপার শফিকুল ইসলামসহ পুলিশের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
সবাই সুন্দরভাবে ঈদ উদযাপন করতে পারবে
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) এবং সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসার বিষয়ে কারাকর্তৃপক্ষের দেওয়া প্রস্তাবে এখনও সম্মতি জানাননি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তিনি সম্মতি জানালেই কারা কর্তৃপক্ষের দেওয়া অপশনগুলোতে চিকিৎসা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। বুধবার দুপুরে তেজগাঁও সরকারি বিজ্ঞান কলেজের একটি অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে সর্বশেষ কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তা জানতে চান সাংবাদিকরা। জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ‘দেখুন আমরা কী করতে যাচ্ছি। খালেদা জিয়াকে যারা চিকিৎসা সেবা দিয়ে থাকেন, যাদের চিকিৎসা তিনি নেন, সেই বিশেষজ্ঞ চারজনকে আমরা নিয়ে গিয়েছিলাম, সেটা আপনারা জানেন। তিনি বলেন, আমাদের সিভিল সার্জন, কারাগারের ডাক্তার সবাই একসঙ্গে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছেন। তাদের সেই প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী তার পুনরায় পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আমরা তাদেরকে জানিয়ে দিয়েছি। আমরা কোথায় নিয়ে যাবো। এখন তারা যদি সম্মতি প্রকাশ করেন, তাহলেই আমরা সেই ব্যবস্থা করবো। আমাদের আইজি প্রিজনস কিছুক্ষণ আগে জানিয়েছেন যে, খালেদা জিয়া এখনও কোনও সম্মতি দেননি। আমরা আশা করি, যেকোনও সময়েই তিনি সম্মতি প্রকাশ করবেন। তখনই আমরা আমাদের যে অপশনগুলো ছিল, সেসব অপশনে নিয়ে যাবো।’ ঈদে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিতে কোনও হুমকি আছে কিনা জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা কোনোক্রমেই আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হতে দেবো না। ২৮ রোজা চলে এসেছে। আজ পর্যন্ত কোনও ঘটনা বাংলাদেশে ঘটেনি। আশা করি, কিছু হবে না। এপর্যন্ত কোনও সুনির্দিষ্ট হুমকি নাই। সবাই সুন্দরভাবে ঈদ উদযাপন করতে পারবে। সারাদেশের মানুষ যে প্রত্যাশা করেন, সবাইকে নিয়ে তাদের আত্মীয় স্বজনদের নিয়ে তারা ঈদ উদযাপন করবেন। আমরা মনে করি, তারা সুন্দরভাবে ঈদ উদযাপন করতে পারবেন।
রাজশাহী-বরিশাল-সিলেট সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা
রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। বুধবার ইসি আনুষ্ঠানিকভাবে এই তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে। আগামী ৩০ জুলাই অনুষ্ঠেয় এই নির্বাচনে অংশ নিতে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেয়া যাবে ২৮ জুন পর্যন্ত। তফসিল অনুযায়ী, ২৮ জুন রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। মনোনয়ন বাছাইয়ের তারিখ ১-২ জুলাই। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৯ জুলাই। এরপর ভোট ৩০ জুলাই। এই তিন সিটির আগে ২৬ জুন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে। গত ১৫ মে খুলনা সিটির সঙ্গে গাজীপুরে ভোট হওয়ার কথা থাকলেও আদালতের আদেশে তা আটকে গিয়েছিল। খুলনা ও গাজীপুরের মতো রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেটেও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তাকে সংশ্লিষ্ট সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা করা হয়েছে। এই সিটি নির্বাচনের পর চলতি বছরের ৩০ অক্টোবর থেকে ২৮ জানুয়ারির মধ্যে সংসদ নির্বাচন করতে হবে ইসিকে।
শুক্রবার জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা
ঈদুল ফিতরের তারিখ নির্ধারণ ও শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখার সংবাদ পর্যালোচনা এবং এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের লক্ষ্যে বৈঠকে বসবে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি।আগামী শুক্রবার সন্ধ্যা সোয়া সাতটায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বায়তুল মোকাররম সভাকক্ষে এ সভা হবে। সভায় সভাপতিত্ব করবেন ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। বুধবার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বাংলাদেশের আকাশে কোথাও শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেলে তা নিচের টেলিফোন ও ফ্যাক্স নম্বরে অথবা অন্য কোনো উপায়ে জানানোর জন্য অনুরোধ জানিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন। টেলিফোন নম্বর: ৯৫৫৯৪৯৩, ৯৫৫৯৬৪৩, ৯৫৫৫৯৪৭, ৯৫৫৬৪০৭ ও ৯৫৫৮৩৩৭। ফ্যাক্স নম্বর: ৯৫৬৩৩৯৭ ও ৯৫৫৫৯৫১।
বেগম জিয়া কি চিকিৎসা চান ?
বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আসলেই চিকিৎসা চান কিনা তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, তিনি (খালেদা জিয়া) কি চিকিৎসা চান, নাকি চিকিৎসার নামে রাজনীতি করছেন? বুধবার সকালে রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনালের নিরাপত্তা পরিস্থিতি ও ভিজিলেন্স টিমের কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।ওবায়দুল কাদের বলেন, খালেদা জিয়া অসুস্থ, তিনি ও তার দল (বিএনপি) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) ও সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসা নিতে চান না। বাংলাদেশে সিএমএইচ-এর উপরে চিকিৎসাসেবা নেই। তিনি বলেন, তিনি যেহেতু একটি বড় দলের নেত্রী, তাই তার চিকিৎসায় সরকার শুরু থেকেই গুরুত্বে সঙ্গে বিবেচনা করে আসছে। বিএসএমএমইউ-তে রাজি না হওয়ায় সিএমএইচ’র কথা বলা হয়েছে। কিন্তু তিনি ও তার দল সেখানেও চিকিৎসা নিতে রাজি না। তাহলে কি তিনি চিকিৎসা চান না? নাকি চিকিৎসা নিয়ে রাজনীতি করছেন? তিনি আরও বলেন, শুরু থেকেই তারা খালেদা জিয়ার অসুস্থের কথা বলে আসছে। বলছে, সরকার তার চিকিৎসার বিষয়ে গুরুত্ব দিচ্ছে না। কিন্তু আপনারা দেখছেন, সরকার তাকে বিএসএমএমইউ ও সিএমএইচ-তে চিকিৎসার কথা বলছে, তারা রাজি হচ্ছে না। খালেদা জিয়া যদি না চান তাহলে আমাদের কী করার আছে? বিএনপির ভারত সফর নিয়ে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, আওয়ামী লীগ দেশ ও জনগণের রাজনীতি করে। আর বিএনপি করে নালিশ, অভিযোগ ও স্বার্থের রাজনীতি। আওয়ামী লীগ ভারত সফরে দেশের সমস্যা, রোহিঙ্গ ইস্যু, তিস্তার পানিসহ দেশের নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেছে। কিন্তু বিএনপি ভারত গেছে তাদের সাপোর্ট চাইতে। তারা দেশের জন্য যায়নি। তিনি এও বলেন, ভারত যদি বাংলাদেশে রাজনৈতিকভাবে সাপোর্ট করতো তাহলে আওয়ামী লীগই তা পেতে। কারণ, আওয়ামী লীগের সাথে ভারতের সম্পর্ক ভালো। সাপোর্টই যদি পেত তবে আওয়ামী লীগ ২০০১ সালের নির্বাচনে হেরে যেত না। তিনি আরও বলেন, বিএনপি এখন নালিশ ছাড়া কিছু করতে পারে না। দেশে বসে নালিশ, দেশের বাইরে গিয়েও নালিশ। প্রত্যেকটি বিদেশি দূতাবাসকে রীতিমতো তটস্থ রেখেছে তারা। নালিশ করে রেজাল্ট কী হবে জনগণ তা জানে। অনুরোধ করব, জনগণের আস্থা রাখার জন্য কাজ করুন, কথায় কথায় বিদেশিদের কাছে নালিশ করা বন্ধ করুন। এটা কোনো দলের দায়িত্বজ্ঞান হতে পারে না।

জাতীয় পাতার আরো খবর