শুক্রবার, মার্চ ২২, ২০১৯
ডাক্তারদের কর্মবিরতি বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিট
অনলাইন ডেস্ক :যেকোনো পরিস্থিতে সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কর্মবিরতি বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আইনজীবী ড. বশির আহমেদ বুধবার এ রিট দায়ের করেন। রিটে স্বাস্থ্য সচিব ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে বিবাদী করা হয়েছে। রিটকারী আইনজীবী বশির আহমেদ জানান, বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চে রিট আবেদনটির শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে। তিনি বলেন, চিকিৎসা সেবার সঙ্গে মানুষের জীবন-মৃত্যুর সম্পর্ক। এ পেশায় যারা কাজ করেন তারা কিছু হলেই কর্মবিরতির ডাক দেন। সাধারণ মানুষকে এভাবে জিম্মি করে কর্মবিরতির ডাক দেওয়া বেআইনি। এ কারণে আদালতে রিট দায়ের করা হয়েছে। রিটে ডাক্তার, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কর্ম বিরতি ডাকা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারির আবেদন করা হয়েছে। তাছাড়া রিটে সকল জেলা সদরের হাসপাতালগুলোতে কমপক্ষে ৩০ শয্যা বিশিষ্ট আইসিইউ অথবা সিসিইউ ইউনিট বসানোর নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।
ইসলামি ফাউন্ডেশনে ৫৬০ মসজিদ প্রতিষ্ঠা করা হবে
অনলাইন ডেস্ক :প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ইসলামি ফাউন্ডেশনে ৫৬০ মসজিদ প্রতিষ্ঠা করা হবে। ইতোমধ্যেই সেই জায়গা ৮ হাজার কোটি টাকার মতো লাগবে তার জন্য একনেকে অনুমোদন করা হয়েছে। বুধবার (১১ জুলাই) হজ কার্যক্রম ২০১৮-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে হজসংশ্লিষ্টরাও বক্তব্য রাখেন। এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ধর্ম শিক্ষাটি হচ্ছে মানুষের কাছে সঠিকভাবে তুলে ধরা। আমাদের ধর্ম শান্তির ধর্ম। ইসলাম শান্তিতে বিশ্বাস করে। তিনি বলেন, ১৯৯১ সালে দেশে ফিরে আসার পরে একটি লক্ষ্যই ছিলো দেশের মানুষের সেবা করা। পিতা-মাতা, ভাই-বোন সব হারিয়েছি আমরা জীবনের চাওয়া পাওয়ার কিছুই নেই। শুধু একটি লক্ষ্য নিয়েই কাজ করে যাচ্ছি যে আমার বাবা এই দেশ স্বাধীন করেছিলেন। তার লক্ষ্য ছিলো দেশের মানুষ দারিদ্র মক্ত থাকবেন। আমি আমার স্বাধ্যমতো চেষ্টা করে যাচ্ছি দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে। তিনি আরো বলেন, দেশের মানুষ যাতে সৌদি গিয়ে হজ পালন করতে পারেন সেজন্য বঙ্গবন্ধু হিজবুল জাহাজ ক্রয় করেন। সে সময় যদিও তারা আমাদের স্বীকৃতি দেয়নি, তবুও সৌদি বাদশা বঙ্গবন্ধুকে পছন্দ করতে বলেই সেখানে দেশের হাজিদের হজ পালনের সুযোগ দেওয়া হয়। যা এখনো চলছে। বাংলাদেশ থেকে যারা হজ পালন করতে যান তাদের অনেক সুযোগ-সুবিধা দেবার চেষ্টা করছি। আমার বাবা দেশকে যেভাবে গড়তে চেয়েছিলেন সেভাবেই দেশকে গড়তে আমাদের প্রচেষ্টা। এসময় তিনি সকল হাজিদের কাছে দেশের সেবা যাতে ভালোভাবে করতে পারেন সেজন্য হাজিদের কাছে দোয়া চান। সূত্র : বিটিভি
বাংলাদেশে একটি স্বচ্ছ বাজার ব্যবস্থা দরকার
অনলাইন ডেস্ক :বাংলাদেশে একটি স্বচ্ছ বাজার ব্যবস্থা দরকার বলে মনে করেন ঢাকাস্থ মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া বার্নিকাট। বুধবার (১১ জুলাই) রাজধানীর ব্রাক ইন সেন্টারে ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ফোরাম বাংলাদেশের ( আইবিএফবি) বার্ষিক সাধারণ সভায় ( এজিএম) প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া বার্নিকাট বলেন, যুক্তরাষ্ট্র গত বছর বাংলাদেশে সবচেয়ে বড় বিনিয়োগকারী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে। এর পরিমাণ ২৩ শতাংশ। আমরা ব্যবসায়ীদের এখানে আনার ব্যবস্থা করেছি। এখন তাদের ধরে রাখার দায়িত্ব বাংলাদেশের। আমি ব্যবসায়ী কমিউনিটিকে একসঙ্গে কাজ করা আহ্বান জানাই। যখন বিদেশি বিনিয়োগকারীর সঙ্গে ডিল হবে তখন যেন সবার জন্য সমান লেবেল প্লেইং ব্যবস্থা থাকে। আইবিএফবির প্রেসিডেন্ট হাফিজুর রহমান খানেরর সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ড. খন্দকার বজলুল হক, ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) চেয়ারম্যান ড. মুজিব উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।
বইয়ের মোড়ক উন্মোচনে মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এম.পি, মহান মুক্তিযুদ্ধের গর্বের ইতিহাস সকলের জান
বাংলাদেশের মুক্তির সংগ্রাম ও মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস আমাদের মনোবল বৃদ্ধি, কাজের উদ্দীপনা,অনুপ্রেরণা সহ জীবনের প্রতি ক্ষেত্রে সাহস যুগিয়ে থাকে। মহান মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তি দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকার ফলে ইতিহাস বিকৃতির মাধ্যমে তরুণ প্রজন্মকে সঠিক ইতিহাস জানা থেকে বঞ্চিত করেছে । যে জাতি তার গর্বের ইতিহাস জানে না তার মতো দূর্ভাগা জাতি আর পৃথিবীতে নেই। মুক্তিযুদ্ধকে জানো সংগঠনের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম হায়দার সারা বাংলাদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে ‘বাংলাদেশের মুক্তির সংগ্রাম ও মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস’ জানানোর যে মহৎ উদ্যোগ নিয়ে কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের সঠিক ইতিহাস জানানোর জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে তা প্রশংসার দাবি রাখে এবং তরুণ প্রজন্মের মাঝে সংক্ষিপ্ত আকারে মহান মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস ছড়িয়ে দিতে তাঁর লেখা গবেষণামূলক তথ্য সমৃদ্ধ বই দুটি এত সহজ সরল ভাষায় লিখা হয়েছে যে কেউ বই দুটি পড়ে নিজের জ্ঞান ভান্ডারের পরিধি বৃদ্ধি পাশাপাশি মহান মুক্তিযুদ্ধের অনেক অজানা তথ্য সহজেই জানতে পারবে। মুক্তিযুদ্ধকে জানো এবং বঙ্গবন্ধুকে জানো, মুক্তিযুদ্ধকে জানো বই দুটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচনে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রনালয় মাননীয় মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এম.পি উপরোক্ত মন্তব্য করেন। বইয়ের মোড়ক উন্মোচনে আরো উপস্থিত ছিলেন ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি জনাব শাহরিয়ার কবির, মুক্তিযুদ্ধকে জানো সংগঠনের প্রধান সমন্বয়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহবুব মিন্টু প্রমূখ।প্রেস বিজ্ঞপ্তি
বিএনপি মিথ্যাচার করছে
অনলাইন ডেস্ক :জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিয়ে আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তার পরীক্ষা নিক বিএনপি— বললেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। বুধবার সকালে ‘রাজনীতিতে নারী নেতৃত্বের অগ্রগতি’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, খালেদা জিয়া ছাড়া বিএনপি নির্বাচনে আসবে কি-না সেটির জন্য অক্টোবের তফসিল ঘোষণা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। ইসি সচিব আওয়ামী লীগ অফিসে যায়— বিএনপি নেতাদের এ বক্তব্যকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে তিনি বলেন, এটি বানোয়াট- ডাহা মিথ্যা। নির্বাচন কমিশন সচিবকে নিয়ে বিএনপি মিথ্যাচার করছে। তিনি আরো বলেন, সরকার জনবিচ্ছিন্ন নাকি জনসমর্থনপুষ্ট তার প্রমাণ শেষ দুটি সিটি নির্বাচনের ফলাফল। জিয়াকে দণ্ড দিয়েছে আদালত- বিএনপিকে তাই আইনি লড়াই করেই মুক্ত করতে হবে দলীয় চেয়ারপারসনকে।
পিছিয়ে পড়া মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করুন
অনলাইন ডেস্ক :জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, ‘আমাদের দেশের চিকিৎসক ও রোগীর যে আনুপাতিক হার, সেটা উন্নত দেশগুলোর সঙ্গে তুলনা করলে হবে না। নানা সীমাবদ্ধতার মধ্য দিয়েও আমাদের চিকিৎসকরা রোগীদের জন্য নিবেদিতভাবে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।’ চিকিৎসকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘পিছিয়ে পড়া দরিদ্র জনগোষ্ঠীর চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে কাজ করে যাবেন। কারণ, এই কাজে আপনাদেরই গুরুত্বপূণর্ ভ‚মিকা পালন করতে হয়।’ মঙ্গলবার ঢাকা মেডিকেল কলেজের সেমিনারকক্ষে ডিএমসি দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ‘চিকিৎসা, শিক্ষা, খাদ্য, অথর্নীতি ও নারীর ক্ষমতায়ন- সবদিক থেকে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। যে কারণে বিশ্বের বুকে আমাদের দেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল।’ শিরীন শারমিন বলেন, ‘স্বাস্থ্যসেবা মানুষের দোরগোড়ায় পেঁৗছে দিতে চিকিৎসকদের ভ‚মিকা অপরিসীম। আপনাদের সেবার কারণে মাতৃমৃত্যু, শিশুমৃত্যুর হার অনেকগুণ কমেছে। অনেক ধরনের সংক্রামক রোগ আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়েছি।’ তিনি বলেন, ‘সাধারণ মানুষকে রোগ-প্রতিরোধ বিষয়ে ব্যাপকভাবে সচেতন করে তুলতে পারেন আপনারা। রোগে আক্রান্ত হওয়ার আগেই মানুষ যেন যেকোনো রোগের বিষয়ে সচেতন হয়, সে বিষয়ে কাজ করতে হবে। রোগে আক্রান্ত হওয়া থেকে মানুষ যদি পরিত্রাণ পেতে পারে, তাহলে চিকিৎসার খরচ কমে আসবে। সে কারণে চিকিৎসকরাই পারেন রোগাক্রান্ত হওয়ার আগেই সচেতনতা সৃষ্টি করতে।’ ‘স্বাস্থ্যসেবার বিষয়ে বতর্মান সরকার নানা ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে, সেসব সেবা আপনারা সাধারণ মানুষের কাছে পেঁৗছে দেবেন।’ আলোচনায় অংশ নিয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ‘স্বাস্থ্যসেবা মানুষের কাছে পেঁৗছে দিতে বতর্মান সরকার নতুন করে আরও ১০ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দিতে যাচ্ছে। তিনটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ দ্রæতগতিতে এগিয়ে চলছে। ইতোমধ্যে আমরা ১০ হাজার নাসর্ নিয়োগ দিয়েছি। এ ছাড়া এ বছর আরও পঁাচ হাজার নাসর্ নিয়োগ দেয়া হবে।’ তিনি বলেন, ‘মেডিকেল কলেজ ও জেলা পযাের্য় মানুষ চিকিৎসাসেবা ভালো করে পাচ্ছেন। তবে এ কথা স্বীকার করতে হবে যে, উপজেলা পযাের্য় স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রিক কাযর্ক্রম আরও বাড়াতে হবে। কারণ, একটি উপজেলায় ২-৩ জন চিকিৎসক দিয়ে পুরোপুরি স্বাস্থ্যসেবা দেয়া সম্ভব নয়। এ কারণে এ বিষয়ে কাযর্কর পদক্ষেপ নিতে হবে আমাদের।’ ঢাকা মেডিকেল কলেজের অ্যালামনি ট্রাস্টের চেয়ারম্যান ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. খান আবুল কালাম আজাদ, অধ্যাপক সাহারা খাতুন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচাযর্ অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া, ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান জামাল উদ্দীন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডা. শফিকুল আলম চৌধুরী প্রমুখ।
মাদক ও চোরাচালান দমনে কাজ করছে কোস্ট গার্ড
অনলাইন ডেস্ক :ব্লু ইকোনোমির গুরুত্ব অনুধাবন করে এ অঞ্চলে সমুদ্রসীমার নিরাপত্তায় সকল দেশের সঙ্গে কাজ করছে কোস্ট গার্ড। পাশাপাশি মাদক ও চোরাচালান দমনেও কাজ করছে এই বাহিনী বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।বুধবার গুলশান-২ এর ওয়েস্টিন হোটেলে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড আয়োজিত ওয়ার্কিং লেভেল মিটিংয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সময়ে সারাদেশে সন্ত্রাসবাদ, মাদকদ্রব্য, অবৈধ অস্ত্র, মানব পাচার প্রতিরোধ, অবৈধ মৎস্য আহরণসহ এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড দুর্বৃত্তকারীদের কঠোর অভিযানের মাধ্যমে প্রতিহত করেছে।অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের মহাপরিচালক রিয়ার এডমিরাল আওরঙ্গজেব চৌধুরী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি মেরিটাইম বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন এবং নিজস্ব সমূদ্রসীমা দাবি করে একটি টেরিটোরিয়াল ওয়াটার এন্ড মেরিটাইম জোনস এক্টস ১৯৭৪ প্রণয়ন কর‌েছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় ব্লু ইকোনোমি প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে।উল্লেখ্য, এই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের আয়োজনে হেড অব এশিয়ান কোস্ট গার্ড এজেন্সিজের ওয়ার্কিং লেভেল মিটিং শুরু হয়েছে। ওয়েস্টিন হোটেলে দুইদিন ব্যাপী ১৪তম এই মিটিংয়ে ১৮টি দেশের কোস্ট গার্ড অংশগ্রহণ করছে।
মুক্তিযোদ্ধা কোটায় হস্তক্ষেপ করা হবে না
অনলাইন ডেস্ক :মুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে যারা উদ্বিগ্ন, তাদের আশ্বস্ত করে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, এ সরকার যেহেতু আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী, তাই আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি মুক্তিযোদ্ধা কোটায় হস্তক্ষেপ করা হবে না। খবর বাংলা নিউজ২৪ বুধবার সচিবালয়ে তথ্য অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা সংরক্ষণ এবং মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাম্প্রতিক কার্যক্রম বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধা পরিবার বা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী জনগণের উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারণ আছে বলে মনে করি না। আদালতের সিদ্ধান্তে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা সংরক্ষণের আদেশ অগ্রাহ্য করে ভিন্নতর কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার কোনো সুযোগ নাই। যদি এটা করা হয়, তবে তা আদালত অবমাননার শামিল হবে।
জীবনে চাওয়া-পাওয়ার কিছুই নেই: প্রধানমন্ত্রী
অনলাইন ডেস্ক :প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাবা-মা, ভাই-স্বজন সবাইকে হারিয়েছি, জীবনে চাওয়া পাওয়ার আর কিছুই নেই। একটাই চাওয়া দেশের মানুষ ভালো থাকুক, সুখে থাকুক, শান্তিতে থাকুক। দেশের প্রতিটি মানুষ সুন্দরভাবে বাঁচুক, উন্নত জীবনযাপন করুক এটাই আমার চাওয়া। আজ রাজধানীর আশকোনায় হাজী ক্যাম্পে হজ ফ্লাইটের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। পচাত্তরের কালো রাত্রির কথা স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সেদিন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, আমার মা, ভাই, ভাবী, চাচাসহ স্বজন যারা বাসায় ছিলেন সবাইকে হত্যা করে খুনিরা। বাদ দেয়নি অন্ত:স্বত্বাকেও। আমি আর আমার ছোট বোন শেখ রেহানা বিদেশ থাকায় প্রাণে বেঁচে যাই। সব হারিয়ে এখন আমার চাওয়া পাওয়ার কিছুই নেই। চাওয়া শুধু দেশের মানুষের সমৃদ্ধি। বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীন করে দিয়ে গেছেন। দেশের মানুষ সুখে থাকুক, স্বাধীনতার সুফল ভোগ করুক এজন্যই কাজ করে যাচ্ছি। শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের সরকারের চাওয়া হচ্ছে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে উন্নয়ন ছড়িয়ে পড়ুক। উন্নয়নের সুবিধা দেশের সবাই ভোগ করুক। এজন্য শিক্ষা, স্বাস্থ্য, প্রযুক্তি সব কিছু মানুষের দোঁরগোড়ায় পৌছে দেওয়া হচ্ছে। আপনার নিশ্চয়ই দেখতে পাচ্ছেন গত ৯ বছরে আমরা ক্ষমতায় এসে কতটা উন্নয়ন করেছি। হজযাত্রীদের কাছে দোয়া চেয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনার আল্লাহর মেহমান। আপনারা দেশের সবার জন্য দোয়া করবেন। আমার পরিবারের জন্য দোয়া করবেন। ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিমান মন্ত্রী শাহজাহান কামাল, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বি এইচ হারুন এমপি প্রমুখ।একুশে টেলিভিশন

জাতীয় পাতার আরো খবর