সন্তানরা আবার রাস্তায় নামলে পিঠের চামড়া থাকবে না: ডিএমপি কমিশনার
২১নভেম্বর,বৃহস্পতিবার,স্পেশাল প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: আমাদের সন্তানরা আবারও রাস্তায় নামলে কারও পিঠের চামড়া থাকবে না। সেটা আমি পুলিশ কমিশনারই হই কিংবা পরিবহন মালিক সমিতির বড় নেতাই হোন। বললেন ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার শফিকুল ইসলাম। বৃহস্পতিবার রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইনে ট্রাফিক সচেতনতামূলক পক্ষ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। ডিএমপি কমিশনার বলেন, সড়কে শৃঙ্খলা আনতে নতুন আইন করা হয়েছে। আমরা মালিক-শ্রমিক-পুলিশ মিলে যদি সড়কে শৃঙ্খলা আনতে না পারি, তাহলে সন্তানরা সম্মিলিতভাবে আমাদের রাস্তা থেকে তুলে দেবে। তখন রাস্তায় আপনিও নামতে পারবেন না, আমিও ডিউটি করতে পারব না। তিনি বলেন, একটা ভুল বা আমার একটা ত্রুটির কারণে এমন একজন মানুষ মারা গেল, যার বাসায় দুটি বাচ্চা রয়েছে এবং তাদের মুখে ভাত দেয়ার মতো কর্মক্ষম কেউ নেই। সেই মানুষটির কথা কি আমরা কেউ চিন্তা করি? অব্যাহতভাবে আমার সন্তান রক্তাক্ত হবে আর আমরা আনফিট গাড়ি নিয়ে, অদক্ষ চালক দিয়ে বছরের পর বছর গাড়ি চালিয়ে যাব। এটা কেউ বেশি দিন সহ্য করবে না। তিনি আরও বলেন, নতুন সড়ক-পরিবহন আইন করা হয়েছে সড়কে শৃঙ্খলা আনার জন্য। জরিমানা আদায়ের উদ্দেশ্যে নয়। ঢাকা মহানগরীতে এখন প্রতি মাসে ৬-৭ কোটি টাকা জরিমানা করি। সরকারের কাছে এ টাকা একেবারেই নগন্য। সরকারের এ টাকার প্রয়োজনই নেই। আমি ট্রাফিকে যারা আছেন তাদের বলে দিয়েছি, মামলার কোনও টার্গেট নেই। সড়কে শৃঙ্খলা থাকলে মামলার প্রয়োজন নেই। মূল বিষয় হলো সবাই যদি আইন মেনে চলেন তাহলে মামলার প্রয়োজন নেই।
সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
২১নভেম্বর,বৃহস্পতিবার,,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সশস্ত্র বাহিনী দিবসে মুক্তিযুদ্ধে শহীদ সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং সোয়া ৮ টায় প্রধানমন্ত্রী শিখা ঢাকা সেনানিবাসের শিখা অনির্বাণে পৃথকভাবে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। রাষ্ট্রপতি হামিদ শিখা অনির্বাণে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর পর কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। তিন বাহিনীর একটি চৌকস দল এ সময় অভিবাদন জানায়। বিউগলে বাজানো হয় করুণ সুর। এর পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিখা অনির্বাণে ফুল দিয়ে শহীদ সেনাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। তিন বাহিনীর একটি চৌকস দল এ সময় গার্ড অব অনার দেয়। এর আগে সশস্ত্র বাহিনীর সর্বাধিনায়ক রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং সরকারপ্রধান ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকা সেনানিবাসে পৌঁছলে তিন বাহিনীর প্রধান ও সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার তাদের স্বাগত জানান। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পর সম্মিলিতভাবে সেনাবাহিনীপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, নৌবাহিনীপ্রধান অ্যাডমিরাল আবু মোজাফফর মহিউদ্দিন মোহাম্মদ আওরঙ্গজেব এবং বিমানবাহিনীপ্রধান চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত নিজ নিজ বাহিনীর পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানান শিখা অনির্বাণে। ১৯৭১ সালের ২১ নভেম্বর বাংলাদেশের সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনী সম্মিলিতভাবে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে আক্রমণ চালায়। সেদিন থেকেই দিবসটি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। আগে তিন বাহিনী ভিন্ন ভিন্ন দিনে দিবসটি পালন করত। আশির দশকের মাঝামাঝি সময় থেকে তিন বাহিনী দিবসটিকে সম্মিলিতভাবে পালন করার সিদ্ধান্ত নেয়। সেই থেকে ২১ নভেম্বরকে সশস্ত্র বাহিনী দিবস হিসেবে পালন করা হচ্ছে। সশস্ত্র বাহিনী দিবস পালনের পেছনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা জড়িয়ে রয়েছে। মুক্তিযুদ্ধে সশস্ত্র বাহিনীর অবদানকে সাধারণ মানুষের আত্মত্যাগের সঙ্গে একীভূত করে নেওয়াই এই দিবসের মূল তাৎপর্য।
অপপ্রচারে কান না দিয়ে মোকাবিলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
২১নভেম্বর,বৃহস্পতিবার,স্পেশাল প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: গুজব ছড়িয়ে দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করছে একটি গোষ্ঠী। তাই অপপ্রচারে কান না দিয়ে মোকাবিলা করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) ঢাকা সেনানিবাসের আর্মি মাল্টিপারপাস কমপ্লেক্সে বীরশ্রেষ্ঠদের উত্তরাধিকারী এবং নির্বাচিত সংখ্যক খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের উত্তরাধিকারীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। এর আগে সকালে মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের স্মৃতির প্রতি শিখা অনির্বাণে শ্রদ্ধা জানান রাষ্ট্রপতি ও সশস্ত্র বাহিনীর সর্বাধিনায়ক মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী শেখ হাসিনা। যথাযথ মর্যাদায় দিবসটি পালন করছে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ। এর আগে রাষ্ট্রপতি ও সশস্ত্র বাহিনীর সর্বাধিনায়ক মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী শেখ হাসিনা দিবসটি উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন। আজ এ অনুষ্ঠানে ৯ জন সেনা, ২ জন নৌ এবং ৩ জন বিমান বাহিনী সদস্যকে ২০১৮-২০১৯ সালের শান্তিকালীন পদকে ভূষিত করা হয়। অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা উপদেষ্টা, সেনাবাহিনী প্রধান, নৌবাহিনী প্রধান, বিমান বাহিনী প্রধান, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার (পিএসও), প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী, সামরিক সচিব, প্রেস সচিব ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত রয়েছেন।
পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত
২১নভেম্বর,বৃহস্পতিবার,,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নতুন সড়ক পরিবহন আইন স্থগিত করে সংশোধনের দাবিতে ডাকা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট স্থগিত করা হয়েছে। বুধবার (২০ নভেম্বর) দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে ধানমন্ডিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসভবনে তার সঙ্গে পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠক শেষে ধর্মঘট স্থগিতের ঘোষণা দেন বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান ও পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক মো. রুস্তম আলী খান। সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যে দাবিগুলো যৌক্তিক সেগুলোর জন্য আমরা সময় বেধে দিয়েছি। পাশাপাশি তাদের সঙ্গে একমত হয়েছি। ড্রাইভিং লাইসেন্স নিয়ে তাদের একটি সমস্যা ছিল। তাদের সেই দাবির প্রেক্ষিতে আমরা বলেছি, তারা এখন যেই লাইসেন্স দিয়ে গাড়ি চালাচ্ছেন, সেটি দিয়েই আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত গাড়ি চালাবেন। আগামী ৩০ জুনের মধ্যেই তাদের এ সংক্রান্ত সব কাজ শেষ করতে হবে। তিনি আরও বলেন, গাড়ির ফিটনেসের বিষয় ও আইন সংশোধনীর বিষয়ে তারা আমাদের কাছে তাদের দাবি তুলে ধরেছেন। সেগুলো আমরা যোগাযোগ মন্ত্রীর কাছে পাঠাবো। তিনি সেগুলো দেখবেন। বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্তে পরিবহন নেতারা সন্তুষ্ট উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা মনে করি, আমাদের বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্তে তারা সন্তুষ্ট হয়েছেন এবং আমাদের সঙ্গে একমত হয়েছেন। তারা আমাদের আশ্বাসও দিয়েছেন যে আগামীকাল থেকে এই কর্মবিরতি তারা প্রত্যাহার করে নেবেন। বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক রুস্তম আলী খান বলেন, আমরা বৈঠকে আমাদের দাবিগুলো তুলে ধরেছেন। তারা আমাদের দাবি গুনেছেন এবং তারা নীতিগতভাবে মেনে নিয়েছেন, মন্ত্রীর কথায় আমরা কর্মবিরতি প্রত্যাহার করছি।
ক্রীড়ার উন্নয়নে খেলোয়াড়দের প্রশিক্ষণসহ নানা পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী
২০নভেম্বর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কিশোর ও যুব সম্প্রদায়ের সুস্থ মনন গড়তে সরকার ক্রীড়াখাতের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। বুধবার গণভবনে শেখ রাসেল ইন্টারন্যাশনাল ক্লাব কাপ টেনিস টুর্নামেন্টে অংশ নেয়া খেলোয়াড়দের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে এ কথা বলেন তিনি। এ সময় খেলোয়াড়দের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী জানান, ক্রীড়ার উন্নয়নে খেলোয়াড়দের প্রশিক্ষণসহ নানা পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। ফুটবল-ক্রিকেটের পাশাপাশি দেশের টেনিসও এগিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী। গণভবনের এ আয়োজনে যোগ দিয়েছিলেন টুর্নামেন্টে অংশ নেয়া দেশগুলোর বাংলাদেশে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূতরাও।
৮২টন পেঁয়াজ নিয়ে ঢাকায় প্রথম কার্গো বিমান
২০নভেম্বর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পাকিস্তানের করাচি থেকে ঢাকায় এসেছে সিল্কওয়ে এয়ারলাইন্সের একটি উড়োজাহাজ।বুধবার সন্ধ্যা ৭ টার ২০ মিনিটের দিকে উড়োজাহাজটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। ঢাকা কাস্টমস হাউসের সহকারী কমিশনার সাজ্জাদ হোসেন বলেন, সিল্কওয়ে এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে ৮২ টন পেঁয়াজ এসেছে। পেঁয়াজ আমদানী করছে সাদ ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি প্রতিষ্ঠান। পেয়াজ দ্রুত খালাসে কাস্টম হাউস প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করবে। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উদ্ভিদ সঙ্গনিরোধ কেন্দ্রের উপপরিচালক রতন কুমার সরকার বলেন, পাকিস্তান থেকে পেঁয়াজের একটি চালান এসেছে। আমরা দ্রুত খালাসের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছি।
রাজধানী সুপার মার্কেটে দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণ,ক্ষতি অর্ধ কোটি টাকা
২০নভেম্বর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: টিকাটুলীর রাজধানী সুপার মার্কেটের বর্ধিত অংশ নিউ রাজধানী সুপার মার্কেটের অর্ধশত দোকান আগুনে ভস্মীভূত হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা সোয়া ৫ টার দিকে মার্কেটের দোতালায় একটি তৈরি পোষাক বিক্রির দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।দোতালার সব দোকান তৈরি পোষাক বিক্রির দোকান বলে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। ওই সময় মার্কেট খোলা ছিল।আগুন দেখে আত্মরক্ষার্থে চিৎকার করে দোকানের ক্রেতা ও বিক্রেতারা হুড়মুড়িয়ে বেরিয়ে পড়েন। খবর পেয়ে প্রথম দফায় ফায়ার সার্ভিসের ৪ টি ইউনিট গিয়ে আগুন নেভানো শুরু করে।আগুনের লেলিহান শিখা বাড়তে থাকায় পর্যায়ক্রমে ২৫ টি ইউনিট দুই ঘণ্টার চেষ্টায় সন্ধ্যা সোয়া ৭ টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।এ আগুনে অর্ধশত দোকানের সব মালামাল পুড়ে গেছে।মার্কেটের দোকান মালিকরা ধারণা করছেন, ক্ষয়ক্ষতি প্রায় অর্ধকোটি টাকা।রাজধানী সুপার মার্কেট সংলগ্ন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মুক্তিযোদ্ধা মুরাদ কমিউনিটি সেন্টারে Rab-3 এর কার্যালয় অবস্থিত। ১৯৯৫ সালে চালু হওয়া দোতলা টিনশেড এই বিপণি বিতানে নিত্য প্রয়োজনীয় নানা পণ্যের ১৭৮৮টি দোকান রয়েছে।প্রথম দফায় নির্মিত অংশের নাম রাজধানী সুপার মার্কেট।এরপর ১০ বছর আগে এই মার্কেটের সামনের খোলা অংশে অনুরুপ ডিজাইনে স্টিল ও টিন দিয়ে তৈরি করা হয় নিউ রাজধানী সুপার মার্কেট।এই মার্কেটের দোকান মালিক সমিতির স্বঘোষিত সভাপতি ৩৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ময়নুল হক মঞ্জু সম্প্রতি চাঁদাবাজি ও দোকান দখলের অভিযোগে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হন।নিউ রাজধানী সুপার মার্কেটের দোতালায় ৬৩ টি দোকান রয়েছে।এসব দোকানে বেশিরভাগই তৈরি পোষাক ও কসমেটিক্স বিক্রি হয়।মার্কেটের নিচতলায় বেশিরভাগ দোকানে জুয়েলারি সামগ্রী বিক্রি হয়। ওয়ারী থানার ওসি আজিজুর রহমান বলেন, রাজধানী সুপার মার্কেট বন্ধ থাকে রবিবার। আগুন যখন লাগে তখন সব দোকান খোলাই ছিল। আগুনে অর্ধশতর দোকান পুড়ে গেছে।তবে এ ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষের অপারেটর আবদুল খালেক জানান, কীভাবে আগুনের সূত্রপাত হল তা এখনও স্পষ্ট নয়। বিকালে মার্কেটের পূর্ব দিক থেকে ধোঁয়া উড়তে দেখে ফায়ার সার্ভিসে ফোন দিয়ে আগুনের বিষয়টি জানায় একজন ব্যক্তি।আগুন লাগার পর পাশের অভিসার সিনেমা হল সংলগ্ন রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়।পুলিশ সদস্যরা রাস্তায় অবস্থান নিয়ে ভিড় সামলানোর চেষ্টা করেন।ওয়ারী থানার ওসি আজিজুর রহমান বলেন, আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গে আগে মার্কেটের মালামালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ চারদিকে ব্যারিকেড দিয়ে দেয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের ইউনিটগুলো আসার পর তাদেরকে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনার কাজে সহায়তা করা হয়। ফায়ার সার্ভিসের পরিদর্শক পলাশ চন্দ্র মোদক বলেন, ২৫টি ইউনিট প্রায় দুই ঘণ্টার চেষ্টায় সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ হোসাইন সাংবাদিকদের বলেন, দুই ঘণ্টার চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে আগুনের সূত্রপাত ও এর ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে।
রাজধানী সুপার মার্কেটে ভয়াবহ আগুন, নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ২২ ইউনিট
২০নভেম্বর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: টিকাটুলিতে রাজধানী সুপার মার্কেটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (২০ নভেম্বর) বিকেল ৫টা ১৫ মিনিটে আগুনের সূত্রপাত হয়।ফায়ার সার্ভিস কন্ট্রোল রুমের ডিউটি অফিসার কামরুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ২২টি ইউনিট। কামরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে তাদের ২২টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করেছে। তবে কিভাবে আগুন লেগেছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। রাজধানী সুপার মার্কেটটি মূলত টিনশেড। এখানে বিভিন্ন রকমের সামগ্রীর দোকান রয়েছে।
রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে গণপরিবহন সংকট, ভোগান্তি
২০নভেম্বর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নতুন সড়ক পরিবহন আইন সংস্কারের দাবিতে চলছে পরিবহন ধর্মঘট। গত চার দিন দেশের বিভিন্ন স্থানে পরিবহন শ্রমিকরা এ ধর্মঘট পালন করলেও আজ শুরু হয়েছে রাজধানীতে। বুধবার সকাল থেকে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে গণপরিবহন সংকট দেখা যায়। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়ছেন অফিসগামী এবং জরুরি প্রয়োজনে বাইরে আসা মানুষ। সড়কে অসংখ্য মানুষকে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। মিরপুর-মতিঝিল, মোহাম্মদপুর-সায়েদাবাদ, উত্তরা-মতিঝিল রুটে চলাচলকারী নিয়মিত বাসগুলো সড়কে প্রায় দেখাই যায়নি। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে রোকেয়া সরণি, প্রগতি সরণি, এয়ারপোর্ট রোড, কাজী নজরুল ইসলাম অ‌্যাভিনিউয়ে কিছু গাড়ি চললেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রাস্তা ছিল ফাঁকা। নামমাত্র বাস চলাচল করছে, যা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই কম। গাজীপুর থেকে মিরপুরে অফিসে আসেন ইসমাইল নামে এক চাকরিজীবী। তিনি বলেন, ‘সকালে দেড় ঘণ্টা অপেক্ষা করার পর একটা বাস পাই। যাতে করে বেড়িবাঁধ যাই। সেখান থেকে ২০০ টাকা দিয়ে অন‌্য গাড়িতে করে মিরপুর মাজার রোড অফিসে পৌঁছায়। পরিবহন ধর্মঘটের কারণে চরম ভোগান্তিতে পড়েছি। আবদুল্লাহ পুর থেকে মিরপুর ১০ নম্বরে আসেন সাইফ নামে একজন। তিনি জানান, আবদুল্লাহপুর থেকে সরাসরি কোনো বাস আসেনি। কয়েক দফা গাড়ি পরিবর্তন করে এখানে আসতে হয়েছে। এদিকে সকাল থেকে রাজধানীর বাস টার্মিনাল থেকে দূরপাল্লার কোনো বাস ছেড়ে যায়নি বলে জানা গেছে। যার ফলে চরম বিপাকে পড়েছে যাত্রীরা। পরিবহন ধর্মঘটের বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ বলেন, আমাদের তরফ থেকে ধর্মঘটে যাওয়ার মতো কোনো নির্দেশনা দেওয়া হয়নি। সকালে কিছু গাড়ি বের করা হয়েছিল বিভিন্ন স্থানে যাওয়ার জন্য কিন্তু খবর পেয়েছি ট্রাক শ্রমিকদের জন্য গাড়ি চালানো যাচ্ছে না।

জাতীয় পাতার আরো খবর