বাংলাদেশ অনেক সংকট ও দুর্যোগ মোকাবেলায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন
২৩এপ্রিল,বৃহস্পতিবার,আহাম্মদ হোসেন ভুইয়া,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মতো একজন সাহসী এবং পরীক্ষীত নেতৃত্ব আছে বলেই বাংলাদেশ অনেক সংকট ও দুর্যোগ মোকাবেলায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। তিনি আজ ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলটির ত্রাণ উপকমিটির উদ্যোগে অসহায় গরীব মানুষের মাঝে প্রতিনিধির মাধ্যমে খাদ্য সামগ্রী বিতরণের আগে তাঁর বাসা থেকে সংযুক্ত হয়ে ভিডিও কানফারেন্সিংএ একথা বলেন। এই সংকটকালে যারা কষ্টে আছেন তাদের জন্য এই প্রয়াস অব্যাহত রাখার আহবান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, সারা বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে।তিনি বলেন, যারা কর্মহারিয়ে দিশেহারা মুখে বলতে পারেনা, তাদের খুঁজে খুঁজে বাড়ী গিয়ে ত্রাণ দিতে হবে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন,এই সংকটে দুটো বিষয়ের উপর গুরুত্ব দিতে হবে তা হলো এই যুদ্ধে করোনাকে মোকাবেলা করতে হবে এবং গরীব মানুষদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। তিনি বলেন প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ভয়কে জয় করবো ইনশাআল্লাহ। তিনি কৃষকের ধান কাটা কর্মসূচিতে কৃষকলীগ,স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ অংশ নেয়ায় ধন্যবাদ জানান। পরে দেশের আলেম ওলামা,মটরচালক লীগ,মহিলা শ্রমিকলীগ,ফটো জার্নালিস্ট, মুক্তিযোদ্ধা ও বিভিন্ন ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিদের মধ্যে খাদ্য সামগ্রিক বিতরণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী,উপদপ্তর সম্পাদক সায়েম খান ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ।
করোনাভাইরাসে ২৪ ঘণ্টায় ৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৪১৪
২৩এপ্রিল,বৃহস্পতিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মহামারি করোনাভাইরাস দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও সাতজনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে ১২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হিসেবে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আরও ৪১৪জন। ফলে করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চার হাজার ১৮৬ জন। বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। অনলাইনে বুলেটিন উপস্থাপন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা। বুলেটিন উপস্থাপনকালে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে সবাইকে বাড়িতে থাকার এবং স্বাস্থ্য বিভাগের পরামর্শ মেনে চলার আহ্বান জানানো হয়। গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস এখন গোটা বিশ্বে তাণ্ডব চালাচ্ছে। চীন পরিস্থিতি কিছুটা সামাল দিয়ে উঠলেও এখন মারাত্মকভাবে ভুগছে ইউরোপ-আমেরিকা-এশিয়াসহ বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চল। এ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের প্রায় সাড়ে ২৬ লাখ। এক লাখ ৮৪ হাজার ছাড়িয়েছে মৃতের সংখ্যা। তবে সাত লাখ ২২ হাজার রোগী ইতোমধ্যে সুস্থ হয়েছেন। গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর প্রথম দিকে কয়েকজন করে নতুন আক্রান্ত রোগীর খবর মিললেও এখন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে এ সংখ্যা। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে সরকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। নিয়েছে আরও নানা পদক্ষেপ। এসব পদক্ষেপের মূলে রয়েছে মানুষে মানুষে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, বিশেষত ঘরে রাখা। কিন্তু সশস্ত্র বাহিনী, র্যাব ও পুলিশের টহল জোরদার করেও মানুষকে ঘরে রাখা যাচ্ছে না বিধায় করোনাভাইরাসের বিস্তার উদ্বেগজনক পর্যায়ে পৌঁছাতে পারে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালকের পদত্যাগ চেয়ে আইনি নোটিশ
২৩এপ্রিল,বৃহস্পতিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা মোকাবিলায় ডাক্তার, নার্স, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্টদের যথাযথ ব্যক্তিগত নিরাপত্তার সরঞ্জাম বা পিপিই সরবরাহে ব্যর্থ হওয়ার অভিযোগ তুলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক প্রফেসর মো. আবুল কালাম আজাদের পদত্যাগ দাবি করে একটি আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. জে আর খান (রবিন) এ নোটিশ পাঠান। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সচিব, অর্থ মন্ত্রণালয় সচিব, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের (স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক) সচিব এবং স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালকের (ডিজি) সরকারি ই-মেইলে এ নোটিশ পাঠানো হয়। নোটিশে বলা হয়, করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনে হলেও বর্তমানে সে ভাইরাসের প্রভাব বাংলাদেশসহ বিশ্বজুড়ে বিস্তৃত। এই ভাইরাসের কারণে মানুষ প্রতিনিয়ত মৃত্যুর মুখোমুখি হচ্ছে। করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকার ইতোমধ্যে যাবতীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী এ ভাইরাস মোকাবিলা করাসহ দেশের মানুষকে সুরক্ষিত রাখার লক্ষ্যে নানারকম সুযোগ-সুবিধা দিয়ে আন্তরিকভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। নোটিশে বলা হয়, এ মুহূর্তে একাধিক দৈনিক পত্রিকা ও নিউজপোর্টালে প্রকাশিত খবরের আলোকে জানতে পারি, করোনা মোকাবিলায় স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ যথাযথ পদক্ষেপ নিতে প্রতিনিয়ত ব্যর্থ হচ্ছেন। এ ব্যর্থতার কারণে গত ২২ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের ১৭০ জন ডাক্তার, ১০০ জন পুলিশ, ২৮ জন সাংবাদিক, সাত জন প্রশাসনিক কর্মকর্তা, নার্সসহ তিন হাজার ৩২৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ইতোমধ্যে ১১০ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। নোটিশে আরও বলা হয়, এ ভাইরাস ব্যক্তি থেকে ব্যক্তি এবং এক গোষ্ঠী থেকে অন্য জনগোষ্ঠীতে সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এরপরও ডাক্তারদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা সরঞ্জাম অর্থাৎ পিপিই সরবরাহ করতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ব্যর্থ হয়েছেন। এছাড়াও তিনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, সাংবাদিক ও করোনা মোকাবিলায় সংশ্লিষ্টদের জন্য যথাযথ ব্যক্তিগত নিরাপত্তা সরঞ্জামের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন। যদিও দেশের সব মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষার লক্ষ্যে যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার ক্ষেত্রে বর্তমানে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ক্ষমতাবান ও দায়িত্বশীল বটে। তাই করোনায় অব্যবস্থাপনার দায় তিনি কোনোভাবে এড়াতে পারেন না। বাংলাদেশ সংবিধানের ১৫(ক), ১৮(১) এবং ৩২ অনুচ্ছেদে স্বাস্থ্য সেবার ব্যাপারে উল্লেখ রয়েছে। এরমধ্যে ৩২ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী স্বাস্থ্য সেবা মানুষের মৌলিক অধিকার, যা নিশ্চিত করার দায়িত্ব রাষ্ট্রকে দেওয়া হয়েছে। তাই সার্বিক বিবেচনায় স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক প্রফেসর মো. আবুল কালাম আজাদের ইতিপূর্বেই পদত্যাগ করা যুক্তিযুক্ত ছিল। কিন্তু তিনি তা করেননি। তাই এই নোটিশ প্রাপ্তির পর যত দ্রুত সম্ভব তাকে পদত্যাগ করতে অনুরোধ জানানো হলো। অন্যথায় তিনি তার অবিচক্ষণ কার্যকলাপের জন্য সৃষ্ট সব ধরনের ক্ষতির জন্য দায়ী থাকবেন। এ কারণে তার বিরুদ্ধে দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
আগামীকাল জানা যাবে রোজা কবে শুরু
২৩এপ্রিল,বৃহস্পতিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মুসলমানদের সিয়াম সাধনার মাস মাহে রমজান কবে থেকে শুরু হচ্ছে তা জানা যাবে আগামীকাল শুক্রবার। ওই দিন সন্ধ্যায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মুকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ সভাপতিত্ব করবেন বলে বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। বাংলাদেশের আকাশে কোথাও রমজান মাসের চাঁদ দেখে গেলে ৯৫৫৯৪৯৩,৯৫৫৫৯৪৭,৯৫৫৬৪০৭ ও ৯৫৫৮৩৩৭ ফোন নম্বরে এবং ৯৫৬৩৩৯৭ ও ৯৫৫৮৩৩৭ ফ্যাক্স নম্বরে অথবা সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক বা উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানানোর অনুরোধ জানানো হয়েছে। এদিকে বুধবার সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের আকাশে চাঁদ দেখা না যাওয়া দেশগুলিতে শাবান মাস ৩০ দিন পূর্ণ করবে। ফলে শুক্রবার থেকে সেখানকার মুসলিমরা রোজা রাখা শুরু করবেন।
যুক্তরাজ্য লেবার দলের নীতি নির্ধারণী ফোরামে টিউলিপ
২৩এপ্রিল,বৃহস্পতিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: লেবার দলকে শক্তিশালী করতে দলের উন্নয়ন বিষয়ক নীতি নির্ধারণী ফোরামে নিয়োগ পেয়েছেন বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপ সিদ্দিক এমপি। দলের ডেপুটি লিডার এবং চেয়ার এঙ্গেলা রায়না দলের উন্নয়ন বিষয়ক পার্লামেন্টারি লিড পদে টিউলিপকে নিয়োগ দেন। এ পদে থেকে তিনি ডেপুটি লিডারের পক্ষে দলের উন্নয়ন বিষয়ক বিভিন্ন বিষয়ে নীতি নির্ধারণ করবেন। এছাড়া আরও চার এমপিকে বিভিন্ন পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। দলীয় সংস্কৃতি ও অনুশীলনের পরিবর্তনের মাধ্যমে লেবার দলকে শক্তিশালী করতে এসব নিয়োগ দেওয়া হয়। নতুন দায়িত্ব পেয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় টিউলিপ সিদ্দিক এমপি বলেন, আমি এবং এঙ্গেলা রায়নার একইসময়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছি। অল্প সময়ের মধ্যে আমাদের মধ্যে ভাল বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। তার টিমের সাথে যুক্ত হতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। কেননা, পরবর্তী সরকার গঠন করতে হলে আমাদের অনেক কাজ করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপ সিদ্দিক ২০১৫ সাল থেকে হ্যাম্পস্টিড এবং কিলবার্ন আসন থেকে এমপি নির্বাচিত হয়ে আসছেন। তিনি লেবার দলের বর্তমান ছায়ামন্ত্রীসভায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন শিশু ও প্রাথমিক বয়স বিভাগের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ইতিপূর্বে টিউলিপ সংস্কৃতি, গণমাধ্যম এবং ক্রীড়া বিষয়ক ছায়া প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। মাত্র ১৬ বছর বয়সে লেবার দলের সদস্য হন এবং দলের যুবা শাখায় গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া তিনি ২০১০ সালে ক্যামডেন কাউন্সিলে প্রথম বাঙালি নারী কাউন্সিলর নির্বাচিত হন।
তারাবির নামাজ ঘরেই আদায় করতে হবে: ইফা সচিব
২২এপ্রিল,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আর কয়েকদিন পরেই আসছে পবিত্র মাহে রমজান। দেশজুড়ে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এবার ঘরেই তারাবির নামাজ আদায় করার পরামর্শ দিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন। ইসলামিক ফাউন্ডেশন বলছে, স্টাফ ছাড়া অর্থাৎ খতিব, ইমাম, মোয়াজ্জিন, খাদেমরা ছাড়া কেউ মসজিদে তারাবি নামাজ আদায় করতে পারবেন না। ঘরেই নামাজ আদায় করতে হবে। জানতে চাইলে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সচিব নূরুল ইসলাম বলেন, স্টাফ ছাড়া মসজিদে কাউকে এ্যালাউ করা হয়নি। তবে কেউ যদি ঢুকে পড়েন নামাজের জন্য, তাকে তো আর বের করে দেয়া যাবে না। করোনায় সংক্রমিত হওয়ার হাত থেকে রক্ষা পেতে সরকারের যে নির্দেশনা আছে-ঘরেই সব নামাজ আদায় করার, সেটাই মানতে হবে। এটা কাউকে মসজিদে যাওয়া থেকে বিরত রাখার জন্য নয়, বরং নিরাপদে থাকার জন্যই নির্দেশনাটি দেয়া হয়েছে। এর আগে গত ৬ এপ্রিল নামাজ ঘরে পড়ার নির্দেশনা জারি করে ধর্ম মন্ত্রণালয়। এতে পাঁচটি দফা দেয়া হয়। এগুলো হলো- করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধকল্পে মসজিদের ক্ষেত্রে খতিব, ইমাম, মোয়াজ্জিন, খাদেম ব্যতীত অন্য সব মুসল্লিকে সরকারের পক্ষ থেকে নিজ নিজ বাসস্থানে নামাজ আদায় এবং জুমার জামাতে অংশগ্রহণের পরিবর্তে ঘরে জোহরের নামাজ আদায়ের নির্দেশ দেয়া যাচ্ছে। মসজিদে জামাত চালু রাখার প্রয়োজনে খতিব, ইমাম, মোয়াজ্জিন, খাদেম মিলে পাঁচ ওয়াক্তের নামাজে অনধিক পাঁচজন ও জুমার নামাজে অনধিক ১০ জন শরিক হতে পারবেন। জনস্বার্থে বাইরের মুসল্লি মসজিদের ভেতরে জামাতে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না। অন্য ধর্মাবলম্বীদেরও ধর্মীয় উপাসনালয়ের পরিবর্তে নিজ নিজ বাসস্থানে উপাসনা করতে হবে। এদিকে সৌদি আরবে প্রধান দুই মসজিদে তারাবির নামাজ ১০ রাকাত পড়ার অনুমোতি দিয়েছে। তবে তাতেও বেশকিছু শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন শেরপুরের সেই ভিক্ষুক
২২এপ্রিল,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন কর্মহীনদের জন্য নিজের শেষ সম্বল ১০ হাজার টাকা অনুদান দিয়ে সাড়া জাগানো শেরপুরের ঝিনাইগাতীর ভিক্ষুক নজিমউদ্দিন (৮০)। উপহার হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে সরকারি জমিতে একটি ঘর দেয়া হচ্ছে তাকে। পাশাপাশি জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি দোকান ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তার ভরণ-পোষণ এবং চিকিৎসার দায়িত্ব নেয়া হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে এদিন দুপুরে শেরপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষ রজনীগন্ধায় বৃদ্ধ ভিক্ষুক নজিমউদ্দিনকে ফুলের তোড়া ও উত্তরীয় পরিয়ে দিয়ে সংবর্ধনা জানান জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব। এসময় জেলা প্রশাসক বলেন, বৃদ্ধ নজিমউদ্দিন নিজের ঘর নির্মাণের জন্য ভিক্ষাবৃত্তি করে দুই বছরে ১৫ হাজার টাকা জমান। সেখান থেকে দেশের এই ক্লান্তিলগ্নে ১০ হাজার টাকা উপজেলা প্রশাসনের করোনা তহবিলে জমা দেয়ায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাকে এই সংবর্ধনা প্রদান করা হলো। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এবিএম এহছানুল মামুন, ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার রুবেল মাহমুদ, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার আশরাফুল আলম রাসেল, শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. খায়রুল কবির সুমন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সংবর্ধিত হয়ে ও প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেয়ে ভিক্ষুক নজিমউদ্দিন বলেন, আমি আগে দিনমজুরের কাজ করে সংসার চালাতাম। পরে পঙ্গু হয়ে যাওয়ায় ভিক্ষাবৃত্তি করে সংসার চালাই। আমার স্ত্রী আবেদা খাতুনও পঙ্গু। আমার পরিবারে তিন ছেলে ও তিন মেয়ে রয়েছে। এর আগে গত মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) ভিক্ষাবৃত্তি করে নিজের বসতঘর মেরামতের জন্য দুই বছরে জমানো ১০ হাজার টাকা করোনায় বিপর্যস্ত কর্মহীন ও নিম্ন আয়ের মানুষদের জন্য ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ত্রাণ তহবিলে দান করেন উপজেলার গান্ধিগাঁও এলাকার ভিক্ষুক নজিমউদ্দিন। এ ঘটনা বিভিন্ন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিগোচর হয়। পরে আজ বুধবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে তাকে সংবর্ধনা ও প্রধানমন্ত্রীর উপহার দেয়া হয়।
বঙ্গবন্ধুর খুনি মোসলেহউদ্দিনকে শনাক্ত করে বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর জানিয়েছে এনডিটিভি
২২এপ্রিল,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পলাতক খুনি রিসালদার (বরখাস্ত) মোসলেহ উদ্দিনকে বাংলাদেশের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে খবর এসেছে। সীমান্তের কোনো একটি স্থলবন্দর দিয়ে গত সোমবার তাকে বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর করা হয় বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। ১৯৭৫ সালের ১৫ অগাস্ট পরিবারের অধিকাংশ সদস্যসহ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত যে ছয় আসামি দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিলেন, তাদের একজন মোসলেহ উদ্দিন। ওই ছয়জনের মধ্যে পলাতক থাকা আরেক আসামি অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন আবদুল মাজেদ ৭ এপ্রিল ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার হওয়ার পর ১১ এপ্রিল মধ্যরাতে কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে তার ফাঁসি কার্যকর করা হয়। মাজেদ পরিচয় গোপন করে মাস্টারমশাই পরিচয়ে কলকাতায় ২০ বছরের বেশি সময় ধরে বসবাস করে আসছিলেন। মাজেদের মতো খুনি মোসলেহ উদ্দিনও ভারতে পালিয়ে ছিলেন এবং উত্তর চব্বিশ পরগনা থেকে তাকে আটক করা হয়ে থাকতে পারে বলে দৈনিক আনন্দবাজার জানিয়েছে। সূত্রের বরাত দিয়ে এনডিটিভি বলেছে, ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা গত সোমবার সন্ধ্যায় একটি স্থলসীমান্ত দিয়ে মোসলেহউদ্দিনকে বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর করেছে। তাকে গ্রেপ্তার করতে ভারতে শীর্ষ গোয়েন্দা সংস্থাগুলো অতি গোপনীয় অভিযান চালিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের পুলিশও এ ব্যাপারে অবগত ছিল না। এছাড়া খুনিকে শনাক্ত করতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করেছে বাংলাদেশ। এর আগে গত সোমবার আনন্দবাজার এক প্রতিবেদনে জানায়, বঙ্গবন্ধুর খুনি মোসলেহ উদ্দিন পশ্চিমবঙ্গে আত্মগোপনে ছিল। ভারতের গোয়েন্দাদের সহযোগিতায় মোসলেহ উদ্দিনকে উত্তর চব্বিশ পরগনা থেকে ইতিমধ্যে আটক করা হয়েছে। তবে অন্য একটি সূত্রের বরাতে বলা হয়, মাজেদ আটক হওয়া মাত্রই নিজের মৃত্যু সংবাদ ছড়িয়ে উত্তর চব্বিশ পরগনা থেকে গা ঢাকা দেন মোসলেহ উদ্দিন। গোয়েন্দা সূত্রের বরাতে আনন্দবাজার আরও জানায়, দুই দেশেই করোনার লকডাউনের কারণে মোসলেহ উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যাওয়ায় সমস্যা হতে পারে বলে ঢাকা ভারতের গোয়েন্দাদের জানায়। আর একারণে ভারতীয় গোয়েন্দারা এই খুনিকে কার্যত তাড়িয়ে সীমান্তের কোনো একটি অরক্ষিত এলাকা দিয়ে বাংলাদেশের গোয়েন্দাদের হাতে তুলে দিয়েছেন।
ছুটি বাড়ল ৫ মে পর্যন্ত
২২এপ্রিল,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সাধারণ ও সাপ্তাহিক মিলিয়ে আরও ১০ দিন ছুটি বাড়াচ্ছে সরকার। এ হিসাবে আগামী ২৬ এপ্রিল থেকে ৫ মে পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ থাকবে।পঞ্চম দফায় ছুটি বাড়ানোর খবরটি দুপুরে ঢাকা টাইমসকে নিশ্চিত করেছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। তিনি বলেন, ছুটি আগামী ৫ মে পর্যন্ত বাড়ছে। ৬ মে বৌদ্ধপূর্ণিমা। সেটাও থাকবে। কিন্তু আমরা ছুটি দিচ্ছি ৫ মে পর্যন্ত। আনুষ্ঠানিকভাবে আগামীকাল সকালে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। প্রজ্ঞাপনে আরও বেশ কিছু বিষয় থাকবে। সেটা বিস্তারিত আগামীকাল জানাতে পারবো।প্রতিমন্ত্রী বলেন, জনসাধারণের চলাচলের ব্যাপারে আগে যেসব নির্দেশনা ছিল তেমনই থাকবে। প্রয়োজনের তাগিদে আরও কিছু নতুন বিষয় প্রজ্ঞাপনে থাকবে।ঢাকা টাইমস।