বঙ্গমাতা বঙ্গবন্ধুর শুধু জীবন সঙ্গীই না রাজনৈতিক সাথীও ছিলেন
০৮আগস্ট,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিনে তাকে ইতিহাসের মহামানবের সঙ্গে তুলনা করেছেন। তিনি বলেন, ছিলেন বঙ্গবন্ধুর সব আন্দোলন সংগ্রামের সহযোগী। (ফজিলাতুন্নেছা মুজিব) শুধু বঙ্গবন্ধুর জীবন সঙ্গীই ছিলেন না, ছিলেন বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সাথীও। বঙ্গমাতা ছিলেন বঙ্গবন্ধুর সব আন্দোলন সংগ্রামের সহযোগী। বৃহস্পতিবার বনানীতে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৯তম জন্মদিন উপলক্ষে তার কবরস্থানে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ মন্তব্য করেন তিনি।ওবায়দুল কাদের বলেন, তিনি পেছন থেকে বঙ্গবন্ধুকে সাহস যুগিয়েছেন, তাকে সমর্থন দিয়ে গেছেন। তিনি পরিবার ও দলকে সামলে নেয়ার জন্য কাজ করেছেন।এসময় আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকেও বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হযয় পরে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব আত্মার শান্তি ও দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনয় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাসিম, তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ প্রমুখ।
দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
০৮আগস্ট,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাজ্যে তার সরকারি সফর শেষে আজ সকালে দেশে ফিরেছেন। প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইট সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব ইমরুল কায়েস গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।সকাল ১০ টা ৪৫ মিনিটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি, ২০২ ফ্লাইটে ঢাকায় ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার বিকাল ৬টা ২০ মিনিটে (লন্ডনের স্থানীয় সময়) বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইট প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ঢাকার পথে লন্ডনের হিথ্রো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারি সফরে ১৯ জুলাই লন্ডনে যান।
ঈদের আগের তিনদিন রাত ৮টা পর্যন্ত ব্যাংক খোলা থাকবে
০৭আগস্ট,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ঈদের আগের তিন দিন কোরবানির হাটের নিকটবর্তী ব্যাংক শাখা খোলা রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বুধবার (৭ আগস্ট) দেশের সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠানো এক প্রজ্ঞাপনে বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়। এতে বলা হয়, আগামী শুক্রবার, শনিবার ও রোববার কোরবানির হাটের নিকটবর্তী ব্যাংকের সব শাখাসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোর সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করে সকাল ১০টা হতে রাত ৮টা পর্যন্ত ব্যাংক খোলা রাখতে হবে। হাটগুলোতে আর্থিক লেনদেনের নিরাপত্তার বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সাপ্তাহিক ও সাধারণ ছুটির তিন দিন (৯, ১০, ১১ আগস্ট) দায়িত্বরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের যুক্তিসঙ্গত ভাতা দিতে হবে। এবারের ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে ১২ আগস্ট সোমবার। গত ২ আগস্ট শুক্রবার চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।
বাংলাদেশ-ভারতের অমীমাংসিত বিষয়ে বৈঠকে বসছেন দুই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
০৭আগস্ট,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার অমীমাংসিত বিষয়, সীমান্তে চোরাচালানসহ নানা বিষয়ে আলোচনা করতে দুই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক বসছে বুধবার (৭ আগস্ট)। বৈঠকে অংশ নিতে এরই মধ্যে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে পৌঁছেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। দুই মাস আগে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব নেন অমিত শাহ। তার দায়িত্ব গ্রহণের পর বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে এটিই হবে তার প্রথম বৈঠক। বৈঠকের বিষয়ে সরকারি বার্তা সংস্থা বাসস এর এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, সীমান্তে চোরাচালান, সীমান্তে পাচার, সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলা, জাল মুদ্রা এবং সরকারি কর্মকর্তাদের সক্ষমতা বৃদ্ধির মতো বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া সফরে উভয় দেশের অমীমাংসিত বিষয়গুলো নিয়ে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান এবং ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ আলাদা বৈঠকে আলোচনাও করতে পারেন। এর আগে তিন দিনের সরকারি সফরে মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) সন্ধ্যায় নয়াদিল্লি পৌঁছান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান ভারতের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জি কে রেড্ডি এবং ভারতে বাংলাদেশের হাইকমিশনার সৈয়দ মুয়াজ্জেম আলী।
বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭৮তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ
০৬আগস্ট,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাঙালির জীবনের প্রতিটি মর্মকথা, চলন, বলন, আবেগ-অনুভূতিতে মিশে আছেন বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। বলা হয়- বাঙালি তখনই প্রকৃত বাঙালি হয়ে ওঠে, যখন তার ভেতরে রবীন্দ্রনাথ বাসা বাঁধেন। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তো সেই জন, যিনি বাঙালিকে বিশ্বের কাছে বিস্তৃত করেছেন, মর্যাদার আসনে আসীন করেছেন। তার অজস সৃষ্টিকর্মের মধ্য দিয়েই তৈরি হয়েছে বাঙালি জাতির মানসপট। আজ ২২শে শ্রাবণ। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭৮তম প্রয়াণ দিবস। ১৯৪১ সালের ৬ আগস্ট বাংলা ১৩৪৮ সালের ২২ শ্রাবণ কলকাতার জোড়াসাঁকোর ঠাকুরবাড়িতে বর্ষণমুখর দিনে মৃত্যুকে আলিঙন করেন বিশ্বকবি। আর তাই তো তিনি লিখেছেন- মৃত্যু দিয়ে যে প্রাণের/ মূল্য দিতে হয়/ সে প্রাণ অমৃতলোকে/ মৃত্যুকে করে জয়। বিশ্বকবি জন্ম-মৃত্যুর মাঝে খুব সামান্যই তফাত দেখেছেন। তাই তো নৈবেদ্য কাব্যগ্রন্থে মৃত্যু কবিতায় তিনি বলেন, মৃত্যু অজ্ঞাত মোর/ আজি তার তরে/ ক্ষণে ক্ষণে শিহরিয়া কাঁপিতেছি ডরে/ এত ভালোবাসি/ বলে হয়েছে প্রত্যয়/ মৃত্যুরে আমি ভালো/ বাসিব নিশ্চয়। অন্য এক কবিতায় রবীন্দ্রনাথ বলেছেন- প্রেম-আকর্ষণে/ যত গূঢ় মধু মোর অন্তরে বিলসে/ উঠিবে অক্ষয় হয়ে নব নব রসে,/ বাহিরে আসিবে ছুটি- অন্তহীন প্রাণে/ নিখিল জগতে তব প্রেমের আহ্বানে/ নব নব জীবনের গন্ধ যাবো রেখে/ নব নব বিকাশের বর্ণ যাবো এঁকে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের হাত ধরেই বাংলা সাহিত্য নতুন রূপ লাভ করে। গল্প, উপন্যাস, কবিতা, প্রবন্ধে তিনি তুলে আনেন চিরায়ত বাঙালিকে। নতুন সুরে ও বিচিত্র গানের বাণীতে বাঙালির আবেগ-অনুভূতিকে অম্লান করে তোলেন। অসাধারণ সব দার্শনিক চিন্তাসমৃদ্ধ প্রবন্ধে- সমাজ ও রাষ্ট্রনীতিসংলগ্ন গভীর জীবনবাদী চিন্তাজাগানিয়া তত্ত্ব ও তথ্য উপস্থাপন করেছেন তিনি। এমনকি চিত্রকলায়ও রবীন্দ্রনাথ চিরনবীন। তিনি ছিলেন একাধারে কবি, নাট্যকার, কথাশিল্পী, চিত্রশিল্পী, গীতিকার, সুরকার, সঙ্গীত পরিচালক, গল্পকার ও ভাষাবিদ। জীবনের শেষ পর্যায়ে তিনি চিত্রকর হিসেবেও খ্যাতি অর্জন করেন। তার কাছ থেকেই আমরা পেয়েছি আমাদের জাতীয় সঙ্গীত আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি। গীতাঞ্জলি কাব্যগ্রন্থের জন্য প্রথম এশীয় হিসেবে ১৯১৩ সালে তিনি সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাংলা ১২৬৮ সালের ২৫ বৈশাখ (ইংরেজি ১৮৬১ সালের ৮ মে) কলকাতার জোড়াসাঁকোর ঠাকুরবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন।
মিন্নির জামিন শুনানি ৮ আগস্ট
০৬আগস্ট,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বরগুনার চাঞ্চল্যকর রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির জামিন আবেদনের শুনানি পিছিয়ে আগামী বৃহস্পতিবার (০৮ আগস্ট) নির্ধারণ করেছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার (০৬ আগস্ট) এ দিন ঠিক করেন বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ। ওইদিন এ মামলায় আদালত বিস্তারিত শুনবেন বলে শুনানির দিন পেছানো হয় বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জেড আই খান পান্না। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রেজাউল করিম। এর আগে সোমবার (০৫ আগস্ট) সকালে মিন্নির জামিন আবেদনের কথা জানিয়েছিলেন জেড আই খান পান্না। পরে আবেদন উপস্থাপন করা হলে মঙ্গলবার শুনানির জন্য রেখেছিলেন আদালত। গত ৩০ জুলাই বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আসাদুজ্জামান জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন। পরে জামিন পেতে সোমবার হাইকোর্টে আবেদন করেন মিন্নি। গত ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে স্ত্রীর সামনেই রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে। গুরুতর আহত রিফাতকে ওইদিন বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বিকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ ও পাঁচ-ছয়জনকে অজ্ঞাত আসামি করে বরগুনা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপর গত ১৬ জুলাই মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বরগুনার মাইঠা এলাকার বাবার বাসা থেকে বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরসহ মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদ ও তার বক্তব্য রেকর্ড করতে বরগুনা পুলিশ লাইন্সে নিয়ে যায় পুলিশ। এরপর দীর্ঘ ১০ ঘণ্টার জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রাত ৯টায় মিন্নিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর ১৭ জুলাই বুধবার বিকাল ৩টার দিকে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মিন্নিকে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে মিন্নির পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী। গত ২২ জুলাই বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রথমবার মিন্নির জামিনের আবেদন করেন অ্যাডভোকেট মো. মাহবুবুল বারী আসলাম। পরে ওই দিনই শুনানি শেষে আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন। এরপর ৩০ জুলাই ফের জামিন আবেদন করেন মিন্নি। এ আবেদনও নামঞ্জুর করেছেন আদালত।
মার্কিন রাষ্ট্রদূতের বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন
০১আগস্ট,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত (এইচ.ই.ইরাল আর মিলার) H.E. Eral R. Miller- এর নেতৃত্বে তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। এ সময় প্রতিনিধি দলের সাথে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি সাংবাদিকদের কাছে তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, প্রথমবারের মতো তিনি জাতির পিতার সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে এখানে এসেছেন। জাতির পিতার মাজারে আসতে ও শ্রদ্ধা জানাতে পেরে তিনি নিজেকে গর্বিত মনে করছেন বলে জানান। বিকেলে স্থানীয় সার্কিট হাউজে প্রতিনিধি দলটি গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের সাথে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। বৃহস্পতিবার রাতে তারা গোপালগঞ্জ সার্কিট হাউজে কাটাবেন এবং আগামীকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় মুকসুদপুর উপজেলার বানিয়ারচর গির্জা পরিদর্শন করবেন।
জাল নোট চক্রের ১৫ সদস্য গ্রেপ্তার
০১আগস্ট,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পুলিশ মহাপরিদর্শকের নামে বড় বড় প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতানোসহ ডাকাত, ভুয়া ডিবি, জাল নোট চক্রের মোট ১৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে ৯০ লাখ ২০ হাজার জাল টাকা, ২৬ লাখ ভারতীয় রুপি, জাল নোট তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান, ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার আব্দুল বাতেন। তিনি বলেন আসন্ন কোরবানির ঈদকে কেন্দ্র করে গরুর হাট ও গরু আমদানির জন্য ভারতে এসব জাল টাকা ব্যবহার করতো চক্রটি। অন্যদিকে, ঈদ উপলক্ষ্যে বিভিন্ন ব্যাংকে নিজেদের লোক দিয়ে তথ্য সংগ্রহ করে ডাকাতি করতো এই চক্রটি।
বঙ্গবন্ধুর রক্তের ঋণ শোধ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
০১আগস্ট,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রক্তের ঋণ শোধ করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (১ আগষ্ট) ধানমন্ডি ৩২ নম্বরস্থ রাসেল স্কয়ারে শোকের মাসে কৃষক লীগ আয়োজিত রক্তদান কর্মসূচীর উদ্বোধনকালে লন্ডনে অবস্থানরত প্রধানমন্ত্রী টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যুক্ত হন। রক্তদান কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি অনুষ্ঠানস্থল থেকে লন্ডনে চিকিৎসার জন্য অবস্থান করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মোবাইল যোগে সংযুক্ত করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জাতির পিতা রক্ত দিয়ে গেছেন। তিনি বলেছিলেন প্রয়োজনে তিনি রক্ত দিবেন, ঠিকই তিনি রক্ত দিয়ে গেছেন। বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে তার রক্তের ঋণ শোধ করতে হবে। দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে, যখন কোন একটি ভালো কাজ হয়, দেশের মানুষের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন হয় তখন আমি চিন্তা করি আমার আব্বার আত্মাটা শান্তি পায়। নিশ্চয়ই তিনি বেহেস্ত থেকে দেখেন। তিনি বলেন, জাতির পিতার আদর্শ, তার লক্ষ ও চিন্তা চেতনাকে বাস্তবায়ন করে দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করার জন্য ক্ষমতায় এসেছি। কতটুকু পেরেছি বাংলার মানুষ তা বিচার করবেন। সারা দেশে ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়ার প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ডেঙ্গুর প্রভাব থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আমি কতগুলো নির্দেশনা দিয়েছি। আমি মনে করি আমাদের পার্টির মানুষ পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা থেকে শুরু করে মশার বংশ বিস্তার যাতে না হতে পারে এর যথাযথ পদক্ষেপ নেবে এবং নিজেদের, পরিবারকে সুরক্ষিত রাখা, ঘরবাড়ি, সুরক্ষিত করা হয় সেজন্য সকলকে আমি আহ্বান জানাচ্ছি। স্বেচ্ছায় রক্ত দানের পরামর্শ দিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, শোকের মাস বারবার আমাদের মধ্যে ফিরে আসে আর বারবার আমাদের মনে করিয়ে দেয় আমরা কি হারিয়েছি। আজকে শোকের মাসের প্রথম দিন। আমাদের আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন গুলো নানা কর্মসূচি পালন করেছে। সেই অনুযায়ী কৃষক লীগ রক্তদান ও বৃক্ষরোপন কর্মসূচি করছে। তিনি বলেন, মুমূর্ষু রোগীর জীবন রক্ষায় ত্যাগ স্বীকার যেকোনো মানুষের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, মানবতার। ১৫ আগস্ট সামনে রেখে রক্তদান কর্মসূচি পালন করে যাচ্ছি। রক্ত দিলে রক্ত কমে না বরং বাড়ে। শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের দলের সকল নেতাকর্মী, মুজিব আদর্শকে যারা বিশ্বাস করে। আমি তাদেরকে আহ্বান করবো, রক্ত দান করতে। আর্তমানবতার সেবায় আত্মত্যাগ করা প্রতিটি মানুষের কর্তব্য। এ থেকে যে তৃপ্তি পাওয়া যায়, যে আনন্দ পাওয়া যায়- ভোগে তা পাওয়া যায় না। দলীয় সকল নেতাকর্মীকে তিনটি করে গাছ লাগানোর পরামর্শ দিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, আজকে এই দিনকে শুধু রক্তদান কর্মসূচি নয়, বৃক্ষরোপন কর্মসূচি ঘোষনা করছি। জলবায়ু পরিবর্তনের হাত থেকে আমাদের দেশকে রক্ষা করতে হবে। বাংলাদেশে প্রতিনিয়ত আমরা নানারকম বন্যা-খরার মুখোমুখি হয়, এই বাংলাদেশকে বাঁচাতে হলে বাংলাদেশে আরও ব্যপকভাবে বৃক্ষরোপন করতে হবে। তিনি বলেন, ৮৪-৮৫ সাল থেকে আমরা বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি পালন করে যাচ্ছি। ব্যাপকভাবে বৃক্ষ রোপন করুন। জন প্রতি অন্তত পক্ষে তিনটি করে বৃক্ষ রোপন করবেন। একটি বনজ, একটি ভেষজ এবং একটি ফলজ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলি প্রমুখ।

জাতীয় পাতার আরো খবর