কী পেলাম, কী পেলাম না তা নিয়ে ভাববেন না
২১ডিসেম্বর,শনিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজনীতির মাধ্যমে সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ শনিবার আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্বে কাউন্সিল অধিবেশনের শুরুতে তিনি এই আহ্বান জানান। রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন প্রাঙ্গণে দলটির কাউন্সিল অধিবেশন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সকাল সাড়ে ১০টায় শুরু হওয়া কাউন্সিল অধিবেশনে সভাপতিত্ব করছেন শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী বলেন, রাজনীতি করতে এসে কী পেলাম, কী পেলাম না তা নিয়ে ভাবা যাবে না। সাধারণ মানুষের অধিকার যেন আদায় হয়, আপনারা সেভাবে কাজ করবেন। মানুষের আস্থা বিশ্বাস যাতে অর্জন করা যায় সে লক্ষ্যে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন দলটির সভানেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বাংলাদেশকে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। সেজন্য সংগঠনকে শক্তিশালী করে গড়ে তুলতে হবে। তিনি আরও বলেন, শীতের তীব্রতা বেড়েছে। সকালে রাজধানীতে তাপমাত্রা ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে এসেছে। আমরা চাচ্ছি কর্মসূচি সংক্ষিপ্ত করে দ্রুত শেষ করতে। বিকেলের আগেই নতুন কমিটির নেতা নির্বাচিত করা হবে জানিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, এই অধিবেশনের শেষ পর্যায়ে আপনারা নতুন নেতা নির্বাচন করবেন। আমরা চাচ্ছি, কর্মসূচিগুলো সংক্ষিপ্ত করে বিকেলের আগেই নতুন নেতা নির্বাচনের কাজ সম্পন্ন করতে। এর আগে, টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় থাকা আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধন করেছেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করেন তিনি।- আলোকিত বাংলাদেশ
ফের সভাপতি শেখ হাসিনা, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের
২১ডিসেম্বর,শনিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে শেখ হাসিনা ও সাধারণ সম্পাদক পদে ওবায়দুল কাদের পুননির্বাচিত হয়েছেন। এর ফলে শেখ হাসিনা টানা নবমবারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হলেন। আর দ্বিতীয়বারের মতো সাধারণ সম্পাদক হলেন ওবায়দুল কাদের। আজ শনিবার দলের ২১তম জাতীয় সম্মেলনের মাধ্যমে তারা নির্বাচিত হন। সভাপতি হিসেবে শেখ হাসিনার নাম প্রস্তাব করেন সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু, আর তা সমর্থন করেন পীযুষ ভট্টাচার্য। পরে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়ে যায়। আর সাধারণ সম্পাদক পদে ওবায়দুল কাদেরের নাম প্রস্তাব করেন যুগ্ম সাধারণ জাহাঙ্গীর কবির নানক। আর তা সমর্থন করেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান। পরে নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ূন অন্যান্য কাউন্সিলরদের জিজ্ঞাসা করলে তারাও ওবায়দুল কাদেরের নামই বলেন। এতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ওবায়দুল কাদেরকে দলের সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান। এর আগে আজ শনিবার সকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে কাউন্সিলের দ্বিতীয় অধিবেশনে শুরু হয়। উদ্বোধনী ভাষণে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ মেনেই সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করে গড়ে তুলতে হবে। সংগঠনকে শক্তিশালী করে গড়ে তুলতে দলের নেতাকর্মী ও উপস্থিত কাউন্সিলরদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, দীর্ঘ পথ পরিক্রমায় মানুষের আস্থা অর্জন করেছি। সবাইকে মনে রাখতে হবে মানুষ যেন স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে। সারা দেশ থেকে আসা দলের সাত হাজার ৭৩৭ কাউন্সিলর এ অধিবেশনে যোগ দেন। গতকাল শুক্রবার (২০ ডিসেম্বর) আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধন করা হয়। ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দুই দিনব্যাপী এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন এবং উদ্বোধনী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর উদ্বোধনী অধিবেশনে সভাপতির বক্তব্য রাখেন তিনি। এছাড়া সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন দলটির সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
আওয়ামী লীগ কখনও মাথা নত করেনি: প্রধানমন্ত্রী
২১ডিসেম্বর,শনিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগ কখনও কারও সামনে মাথা নত করেনি। ৮১ সালে দায়িত্ব দিয়েছিলেন।পরিবারের সবাইকে হারিয়ে সেই দায়িত্ব পালনে চেষ্টা করেছি। বললেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ শনিবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে সকালে কাউন্সিল অধিবেশনের দ্বিতীয় অধিবেশনে শুরুতে ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ মেনেই সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করে গড়ে তুলতে হবে। সংগঠনকে শক্তিশালী করে গড়ে তুলতে দলের নেতাকর্মী ও উপস্থিত কাউন্সিলরদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, দীর্ঘ পথ পরিক্রমায় মানুষের আস্থা অর্জন করেছি। সবাইকে মনে রাখতে হবে মানুষ যেন স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে। সারা দেশ থেকে আসা দলের সাত হাজার ৭৩৭ কাউন্সিলর এ অধিবেশনে উপস্থিত রয়েছেন, যেখানে কাউন্সিলররা নতুন নেতৃত্ব নিয়ে কথা বলার সুযোগ পাবেন। গতকাল শুক্রবার (২০ ডিসেম্বর) আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধন করা হয়। ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দুই দিনব্যাপী এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন এবং উদ্বোধনী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর উদ্বোধনী অধিবেশনে সভাপতির বক্তব্য রাখেন তিনি। এছাড়া সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন দলটির সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
প্রতিশ্রুতি পূরণ করাই সম্মেলনের উদ্দেশ্য : কাদের
১৯ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগ গত নির্বাচনে জাতির কাছে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, তা পূরণ করাই সম্মেলনের অন্যতম উদ্দেশ্য হবে বলে মন্তব্য করেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ বৃহস্পতিবার সকালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনের প্রস্তুতি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান। ওবায়দুল কাদের বলেন,জাতির কাছে আমাদের নেত্রী যে এজেন্ডা উপস্থাপন করেছেন, নির্বাচনি যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সেই প্রতিশ্রুতি আমরা অক্ষরে অক্ষরে পালন করব এবং আমাদের নেত্রীর ভিশন বাস্তবায়নে উপযোগী শক্তি হিসেবে একটা ব্যালেন্স করে আওয়ামী লীগকে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাব। এ সময় দল শক্তিশালী না হলে সরকার শক্তিশালী হবে না বলেও মন্তব্য করেন সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, বিদায়ী কমিটির সফলতার পাশাপাশি ব্যর্থতাও আছে। তবে এটি মূল্যায়ন করবে কর্মী এবং দেশের জনগণ। এর আগে সম্মেলন প্রস্তুতি পরিদর্শনে প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, দলে সহ-সম্পাদক পদ আর থাকছে না। উপদেষ্টামণ্ডলীর সংখ্যা ৪১ থেকে বাড়িয়ে ৫১ করা হবে বলেও জানান ড. রাজ্জাক।
প্রশিক্ষণ ছাড়া কোনো কর্মী বিদেশ যাবে না: প্রধানমন্ত্রী
১৯ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নারী কর্মীসহ অভিবাসী কর্মীরা বিদেশ গিয়ে নির্যাতনের শিকার হলে, তার জন্য দায়ী রিক্রুটিং এজেন্সিসহ সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রশিক্ষণ ছাড়া আর কোনো কর্মী বিদেশে যাবে না। বিদেশে যাওয়ার আগে সব কিছু যাচাই-বাছাই করে যাবেন। বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। দক্ষ হয়ে বিদেশ গেলে, অর্থ সম্মান দুই-ই মেলে এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে প্রতি বছরের মতো বাংলাদেশেও গতকাল বুধবার বিভিন্ন আয়োজনে দিনটি পালিত হয়। বিদেশে যাওয়ার আগে সব কিছু যাচাই-বাছাই করার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের গ্রাম-বাংলার মানুষ অনেক সময় দালালের খপ্পরে পড়ে সোনার হরিণের খোঁজে সব কিছু বিক্রি করে বিদেশ চলে যায়। যেহেতু এখন চাকরি থেকে শুরু করে সবকিছু যাচাই-বাছাইয়ের সুযোগ আছে, তাই দালালের খপ্পরে না পড়ে বিদেশ যাওয়ার আগে অবশ্যই যাচাই-বাছাই করে দেখবেন। তিনি আরও বলেন, শুধু অর্থ উপার্জনের দিকে দৃষ্টি দিয়ে অযথা কর্মীদের বিদেশে পাঠাবেন না। নারীকর্মীসহ অভিবাসী কর্মীরা বিদেশে গিয়ে নির্যাতনের শিকার হলে দায়ী রিক্রুটিং এজেন্সির সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এমনকি বিদেশে যারা এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট, আমরা ওই দেশকে অনুরোধ করবো তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে। তিনি বলেন,এখন থেকে বিদেশ যেতে হলে প্রশিক্ষণ নিয়ে যেতে হবে। প্রশিক্ষণ না নিয়ে আর বিদেশে যাওয়া যাবে না। এদিকে আমরা ব্যাপক নজরদারি করছি। এর আগে আমরা লক্ষ্য করেছি, অনেকেই প্রশিক্ষণ না নিয়ে প্রশিক্ষণের কথা বলে বিদেশ যেত। কিন্তু এখন থেকে প্রশিক্ষণ নেওয়া ছাড়া আর যাওয়া যাবে না। প্রশিক্ষণ নেওয়া বাধ্যতামূলক। এজন্য আমি প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়কে বলব, আরও বেশি গভীরভাবে নজর দিতে, যেন তারা সঠিক প্রশিক্ষণ নিয়ে বিদেশে যায়।
রাজাকারের তালিকা করতে ৬০ পয়সাও খরচ হয়নি: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী
১৯ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজাকারের তালিকা তৈরি করতে ৬০ পয়সাও খরচ হয়নি বলে দাবি করেছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। আজ বৃহস্পতিবার সকালে একটি বেসরকারি টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ দাবি করেন। প্রকাশিত রাজাকারের তালিকা তৈরি করতে ৬০ কোটি টাকা খরচ হয়েছে বলে গতকাল বিভিন্ন গণমাধ্যম সংবাদ প্রকাশ করে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এমন সংবাদ প্রকাশ করা হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী বলেন, শুনেছি কারও কাছে, কেউ বলছে ৬০ কোটি, ৬০ পয়সাও না। যারা বলছে, যদি আমি কথার প্রমাণ পাই তারা বলছে, হয় তারা নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করবে, না হয় তাদের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করা হবে। ৬০ কোটির জায়গায় ৬০ পয়সাও না। এ সময় পুনরায় যাচাই-বাছাই করে সময় নিয়ে রাজাকারের তালিকা প্রকাশ করা হবে বলে জানান মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী। তবে রাজাকারদের তালিকা তৈরিতে ৬০ কোটি টাকা খরচের বিষয়ে জানতে চাইলে গতকাল বুধবার এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজী হননি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। উল্লেখ্য, বিজয় দিবসের আগের দিন গত রোববার সংবাদ সম্মেলন করে ১০ হাজার ৭৮৯ জন রাজাকারের নামের তালিকা প্রকাশ করেন আ ক ম মোজাম্মেল হক। কিন্তু তালিকায় বিভিন্ন মুক্তিযোদ্ধাদের নাম আসায় সেটি নিয়ে প্রশ্ন উঠে। অবশেষে তুমুল সমালোচনার মধ্যে প্রকাশিত রাজাকারের তালিকা বুধবার স্থগিত করেছে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়। পরবর্তী তালিকা ২৬ মার্চ প্রকাশ করা হবে বলেও জানানো হয়েছে। এদিকে, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত তালিকাটি রাজাকারদের নয় বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে দাবি করা হয়েছে। আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, এটি কোনো রাজাকারের তালিকা নয়। মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়কে রাজাকার, আলবদর, আল শামসের তালিকা দেওয়া হয়নি; দালাল আইনে অভিযুক্তদের তালিকা দেওয়া হয়েছে। নোট দেওয়া সত্ত্বেও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় সবার নাম প্রকাশ করায় এর পুরো দায় ওই মন্ত্রণালয়ের।
শীত জেঁকে বসেছে দেশজুড়ে
১৯ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকাসহ সারা দেশেই জেঁকে বসেছে শীত। তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে সারা দেশে। উত্তরের জেলাগুলোতে কনকনে হিমেল হাওয়ায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় খেটে খাওয়া মানুষ বিপাকে পড়েছে সবচেয়ে বেশি। শীতের তীব্রতায় স্বাভাবিক জীবনযাত্রা স্থবির হয়ে পড়েছে। উত্তরাঞ্চলে কয়েকটি জেলায় সূর্যের মুখ দেখা যায়নি গতকাল। আবহাওয়া অফিস বলছে, গতকাল বুধবার থেকে তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে। আগামী দু-এক দিনের মধ্যে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে আসবে। ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত মৃদু শৈত্যপ্রবাহ থাকবে। আবহাওয়া কর্মকর্তা আফতাব উদ্দিন কালের নিউজ একাত্তরকে বলেন, রাজধানীসহ সারা দেশেই শীত পড়তে শুরু করেছে। মৃদু শৈত্যপ্রবাহ থাকবে ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত। তারপর পরিস্থিতির উন্নতি ঘটবে। এদিকে গতকাল সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ১০.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি জানান, দুই দিন ধরে কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে শৈত্যপ্রবাহ। হিমেল হাওয়ার প্রভাবে জবুথবু অবস্থা সবার। গতকাল জেলার তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রিতে নেমে আসে।
তালিকাটি স্বাধীনতাবিরোধীদের নয়, দালাল আইনে অভিযুক্তদের : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
১৮ডিসেম্বর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্প্রতি স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকা নামে যে তালিকা প্রকাশ করেছে সেটি আসলে রাজাকারের তালিকা নয় বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের কাছে এ কথা বলেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, এটি কোনো স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকা নয়, আলবদর, আলশামস এর তালিকা নয়। দালাল আইনে অভিযুক্তদের তালিকা এটি। নোট দেয়া সত্ত্বেও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সবার নাম প্রকাশ করায় এর পুরো দায় ওই মন্ত্রণালয়ের। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি। গত ১৫ ডিসেম্বর, রবিবার মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ১০ হাজার ৭৮৯ ব্যক্তির নাম প্রকাশ করে সেটিকে স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকা বলে উল্লেখ করে। ওই তালিকায় গেজেটেড মুক্তিযোদ্ধাদের নামও রয়েছে। বিষয়টি প্রকাশে আসার পরই ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়। এরপর দুই মন্ত্রণালয় একে অপরের দিকে আঙুল তোলা শুরু করে।
মাদক-চোরাচালান বন্ধে বিজিবিকে সতর্ক থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
১৮ডিসেম্বর,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশের স্বার্থ সমুন্নত রেখে নিষ্ঠা, আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালনে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার সকালে বিজিবি দিবসের অনুষ্ঠানে এই আহ্বান জানান তিনি। বিজিবি সদর দপ্তর পিলখানায় আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে সীমান্ত রক্ষার পাশাপাশি মাদক ও চোরাচালান বন্ধে বিজিবি সদস্যদের সতর্ক থাকারও তাগিদ সরকার প্রধান। দেশের সীমান্ত রক্ষায় অতন্দ্রপ্রহরীর দায়িত্ব পালনে পেশাদারিত্ব ও কর্মদক্ষতায় বর্ডার গার্ড অব বাংলাদেশ, বিজিবি পরিণত হয়েছে একটি গতিশীল ও চৌকস বাহিনী হিসেবে। বিজিবি দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে, পিলখানার বীরউত্তম আনোয়ার হোসেন প্যারেড মাঠে আসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুরুতে প্যারেড পরিদর্শন ও অভিবাদন গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করেন। কুচকাওয়াজ পরিদর্শন শেষে, বীরত্ব ও কৃতিত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ৬০ জন বিজিবি সদস্যের হাতে পদক তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী। পরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দেশ সেবায় বিজিবির ভূমিকার প্রশংসা করেন শেখ হাসিনা। এসময় আরো বেশি দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে শৃঙ্খলার সাথে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দেন সরকার প্রধান। পরে মোটর শোভাযাত্রা ও স্বাধীনতা ও উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় বিজিবি এর ওপর সম্মিলিত প্রদর্শনী উপভোগ করেন শেখ হাসিনা।