মঙ্গলবার, আগস্ট ৪, ২০২০
থার্টি ফার্স্ট নাইটে বাড়াবাড়ি না করার অনুরোধ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: থার্টি ফার্স্ট নাইটে আনন্দ করতে গিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি না করার অনুরোধ জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশেন (ক্র্যাবের) বার্ষিক সাধারণ সভায় এ কথা বলেন তিনি। নিরাপত্তা নিয়ে কোনো ধরনের হুমকি নেই বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় তিনি আনন্দ করতে গিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি না করার অনুরোধ জানান।
চলে গেলেন সাবেক হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভারতে দায়িত্বপালনকারী সদ্য সাবেক হাইকমিশনার, সাবেক পররাষ্ট্র সচিব ও রাষ্ট্রদূত সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। সোমবার দুপুর ১১টা ৫৫ মিনিটে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি ইন্তেকাল করেছেন তার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। ১৯৪৪ সালে সিলেটে জন্মগ্রহণ করেন মোয়াজ্জেম আলী। ১৯৬৬ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএস পাস করেন। তিনি পাকিস্তান সিভিল সার্ভিসে যোগ দেন এবং লাহোরের সিভিল সার্ভিস একাডেমিতে প্রশিক্ষণ নেন। ১৯৭৩ থেকে ১৯৭৪ সাল পর্যন্ত তিনি জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়, স্কুল অব অ্যাডভান্সড ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজে পড়াশোনা করেন । সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী ১৯৭১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে পাকিস্তানের দূতাবাসে কর্মরত ছিলেন। ওই সময় তিনি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রতি আনুগত্যের ঘোষণা দেন এবং ওয়াশিংটনে অস্থায়ী বাংলাদেশ সরকারের দূতাবাস প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি ১৯৬৮ সালে পাকিস্তান ফরেন সার্ভিসে যোগ দেন। তিনি ভুটান, ইরান ও ফ্রান্সে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করেছেন। ওয়াশিংটন, ওয়ারশ, জেদ্দার পাশাপাশি নয়াদিল্লি মিশনেও কাজ করেছেন তিনি। ২০০১ সালে পররাষ্ট্র সচিবের দায়িত্ব পালনের পর অবসরে যান এই কূটনীতিক। সর্বশেষ তিনি ভারতে বাংলাদেশ দূতাবাসে হাইকমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন।
থার্টি ফার্স্ট নাইটে ডিএমপির নিষেধাজ্ঞা
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে ইংরেজি নতুন বছর উদযাপন করতে বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এই নির্দেশনার কথা জানান ডিএমপি কমিশনার শফিকুল ইসলাম। ডিএমপি কমিশনার বলেন, আমাদের দেশের কালচারের সঙ্গে, আমাদের সংস্কৃতির সঙ্গে যায় সামঞ্জস্যপূর্ণ এমন ধরনের অনুষ্ঠান যেন আয়োজন করা হয়। সে ক্ষেত্রে আমাদের সার্বিক সহযোগিতা থাকবে। আর কোথাও আতশবাজি, পটকা এগুলো না ফোটানোর জন্য আমরা অনুরোধ করব। এ ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সন্ধ্যা ৬টার পর সকল যানবাহন প্রবেশ নিষিদ্ধ বলেও জানান শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন,নিরাপত্তার স্বার্থে পরিচয়ধারীদের তল্লাশি করে ছাড়া হবে। এ সময় নববর্ষ উপলক্ষে সারা দেশে পর্যাপ্তসংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হবে বলেও জানান ডিএমপি কমিশনার। তিনি জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ নগরের বিভিন্ন এলাকায় যারা বিস্ফারণের ঘটনা ঘটাচ্ছে তাদের অচিরেই গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে। সংবাদ সম্মেলনে মাদকের অপব্যবহার রোধ করতে বিশেষ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান শফিকুল ইসলাম।- আলোকিত বাংলাদেশ
ফের শৈত্যপ্রবাহের সঙ্গে আসছে বৃষ্টি!
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গত ১২ দিনের মধ্যে ১১ দিনই দেশের কোথাও না কোথাও শৈত্যপ্রবাহ বয়ে গেছে। তবে শীতে যারা কষ্ট পাচ্ছেন, তাদের জন্য কিছুটা হলেও সুসংবাদ দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সংস্থাটি পূর্বাভাস দিয়ে জানিয়েছে, আজ সোমবার শৈত্যপ্রবাহ থাকলেও আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে দেশের বেশির ভাগ এলাকায় তাপমাত্রা বাড়তে পারে। এতে আগামী দু-তিন দিন স্বাভাবিক শীতের অনুভূতি থাকতে পারে। তবে নতুন বছরের শুরুতে দেশের বেশির ভাগ এলাকায় আবারও গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। বিশেষ করে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলে বৃষ্টির পরিমাণ বেশি হতে পারে। এতে তাপমাত্রা কমবেশি যা-ই থাকুক, শীতের কষ্ট বাড়বে। এ বিষয়ে আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ আবদুর রহমান বলেন, কুয়াশা ও মেঘ কমে আসায় দিনের বেলা সূর্যের দেখা পাওয়া যাচ্ছে। যে কারণে তাপমাত্রাও বাড়ছে। তবে রাতের তাপমাত্রা আজও কিছুটা কমতে পারে। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহের কয়েক দিন বৃষ্টি হতে পারে। গতকাল শৈত্যপ্রবাহের বিস্তৃতি উত্তরাঞ্চল ছাড়িয়ে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমের জেলাগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আজ টাঙ্গাইল, মৌলভীবাজার ও কুষ্টিয়া অঞ্চলসহ রাজশাহী, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। তাপমাত্রা গতকাল আরও কমে এই মৌসুমের সর্বনিম্নে পৌঁছায়। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত বছর রেকর্ড সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল অবশ্য তেঁতুলিয়ায়। ওই বছর ৮ জানুয়ারিতে সেখানকার তাপমাত্রা ২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমেছিল। তীব্র শীতে নাকাল হয়ে পড়েছে পঞ্চগড়ের মানুষ। হাড়কাঁপানো শীতে চরম দুর্ভোগে পড়েছে নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া মানুষ। উত্তরের হিমেল বাতাসে কাবু হয়ে পড়েছেন দেশের সর্ব-উত্তরের এই জনপদের বাসিন্দারা। হিমালয়ের খুব কাছাকাছি জেলা হওয়ায় পঞ্চগড়ে উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে হিমবায়ু প্রবেশ করায় তাপমাত্রা ক্রমাগত কমে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদেরা। তীব্র শৈত্যপ্রবাহ আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকলেও গতকাল সকাল সাড়ে সাতটার দিকে পঞ্চগড়ে দেখা গেছে সূর্যের মুখ। স্থানীয় অধিবাসীদের দেখা গেছে রোদে বের হয়ে কিছুটা উষ্ণতা নিতে।
রাস্তা বন্ধ করে কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচি আমরা অ্যালাউ করবো না: ডিএমপি
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এক বছর পূর্তি উপলক্ষে বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি। কর্মদিবসে রাস্তা বন্ধ করলে জনদুর্ভোগ হবে বলে দলটিকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি বলে জানান ডিএমপি কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম। সোমবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি। ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এক বছর পূর্তি উপলক্ষে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আজ সমাবেশ করতে চেয়েছিল বিএনপি। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ডিএমপি কমিশনার বলেন, আমরা সমাবেশের অনুমতি দেইনি। অফিস খোলার দিনে রাস্তা বন্ধ করে কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি আমরা অ্যালাউ (অনুমোদন) করবো না। বিএনপির নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে ককটেল বিস্ফোরণ নিয়ে শফিকুল ইসলাম বলেন, এটা সাধারণ ককটেল। শক্তিশালী আইইডি না। এই ককটেল ফুটলে শুধু শব্দ করে। কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয় না। ডিএমপি কমিশনার বলেন, নয়াপল্টনের ব্যস্ততম সড়কে শত শত যানবাহন চলাচল করে। কোন গাড়ি থেকে কে এটি করছে সেটা বোঝা কঠিন। আমাদের গোয়েন্দা সংস্থা এ নিয়ে কাজ করছে। এছাড়া ওই এলাকাকে সিসি ক্যামেরার আওতায় নিয়ে আসা হবে। ইতিমধ্যে সে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
সংসদ সদস্য পদ ছাড়লেন তাপস
২৯ডিসেম্বর,রবিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মনোনয়ন পেয়ে ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করলেন শেখ ফজলে নুর তাপস। রোববার (২৯ ডিসেম্বর) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ঢাকা দক্ষিণে মেয়র প্রার্থী হিসেবে শেখ ফজলে নূর তাপসের নাম ঘোষণা করেন। এরপর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় সবার প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন,যারা দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নিয়ে আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন, তাদের ধন্যবাদ জানাই। ঢাকা ১০ আসনের আপামর জনগণকে কৃতজ্ঞতা জানাই; যারা সবসময় অনেক ভালোবাসা দিয়ে আলিঙ্গন করে আমার ওপর আস্থা রেখেছেন। এলাকার মানুষ যেমন ভালোবেসেছেন, আস্থা রেখেছেন; তেমনি দক্ষিণের সব জনগণ আস্থা রাখবে বলে আমি আশা করি। তাপস বলেন, ঐতিহ্যবাহী পুরনো ঢাকার জন্য আমি মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করব। আমার সংসদীয় এলাকার মানুষ আমাকে যেভাবে ভালোবেসেছে আমার ওপর আস্থা রেখেছে, আমি বিশ্বাস করি দক্ষিণ সিটির অন্তর্ভুক্ত সকল স্তরের মানুষ আমাকে সেভাবে ভালোবাসবে, তাদের সেবা করার সুযোগ দেবে এবং আমার ওপর আস্থা রাখবে। যাতে আমি উন্নত রাজধানী উপহার দিতে পারি। আওয়ামী লীগের এই মেয়র প্রার্থী বলেন, আগেও সংবাদ মাধ্যমে বলেছি, আমি উপলব্ধি করেছি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে উন্নত বাংলাদেশের জন্য নিরলস কাজ করে চলেছেন এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্য দিয়েছেন, এর জন্য উন্নত রাজধানী প্রয়োজন। আমি এই সুযোগটা গ্রহণ করতে চেয়েছি। এ সময় উত্তরের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হককে স্মরণ করেন ফজলে নূর তাপস। তার কাজ দেখে অনুপ্রাণিত হয়েছেন বলেও জানান তাপস। তিনি বলেন,আমি পূর্ণ সময় দক্ষিণের জনগণের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিতে কাজ করে যাব। অনেকের মনে ক্ষোভ থাকতে পারে মনোনয়ন না পাওয়ায়। দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে কেউ যাবেন না। সবার সহযোগিতা কামনা করছি।
সেনাবাহিনীকে যুগোপযোগী করতে চাই : প্রধানমন্ত্রী
২৯ডিসেম্বর,রবিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতির পিতার প্রণীত প্রতিরক্ষা নীতির আলোকে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর থেকে আমরা সেনাবাহিনীকে আধুনিকায়নের বিভিন্ন পদক্ষেপ নিতে শুরু করি। নতুন নতুন ডিভিশন গঠন করি। আমরা সবসময় সেনাবাহিনীকে যুগোপযোগী দেখতে চাই, আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন করতে চাই। আজ রবিবার দুপুরে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার ভাটিয়ারিতে বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমিতে অনুষ্ঠিত রাষ্ট্রপতির কুচকাওয়াজে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। শেখ হাসিনা বলেন, একটি স্বাধীন-সার্বভৌম দেশে সামরিক বাহিনীর গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম এবং অনস্বীকার্য। এ কারণেই একটি প্রশিক্ষিত, শক্তিশালী ও দক্ষ সেনাবাহিনী গড়ে তোলার লক্ষ্যে ১৯৭৪ সালে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কুমিল্লা সেনানিবাসে বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমির শুভ উদ্বোধন করেন, যা ছিল বাংলাদেশের জন্য এক ঐতিহাসিক ও যুগান্তকারী পদক্ষেপ। তিনি বলেন, আমরা সেনাবাহিনীতে নারীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছি। এখন প্রযুক্তির যুগ। আমরা প্রযুক্তির শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েছি। আমাদের সেনাবাহিনী থাকবে সবসময় যুগোপযোগী ও আধুনিক। প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে আমাদের সেনাবাহিনী গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছে। বিভিন্ন দেশ, সবাই তাদের প্রশংসা করে। তোমাদের এই সুনাম আরো এগিয়ে নিতে হবে। বিশ্বের যেকোনো প্রান্তের মানুষ শান্তি আর সমৃদ্ধির প্রতীক হিসেবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে জানবে-এটিই আমার প্রত্যাশা। অনুষ্ঠানে মাধ্যমে ২৩৪ জন বাংলাদেশি, ২৯ জন সৌদি, ১ জন ফিলিস্তিনি, ১ জন শ্রীলংকানসহ মোট ২৬৫ জন ক্যাডেট কমিশন লাভ করেন। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে কমিশনপ্রাপ্ত ক্যাডেটদের মধ্যে ৭৭তম বিএমএ দীর্ঘমেয়াদী কোর্সে ২০৭ জন পুরুষ, ২৭ জন মহিলা ক্যাডেট রয়েছেন। অনুষ্ঠানে সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, চট্টগ্রামের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন এবং চট্টগ্রামের সংসদ সদস্য, সেনাবাহিনী ও প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা ছিলেন।- আলোকিত বাংলাদেশ
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে দফায় দফায় ককটেল বিষ্ফোরণ
২৯ডিসেম্বর,রবিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মধুর ক্যান্টিনের সামনে ৩টি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। রোববার (২৯ ডিসেম্বর) সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এক প্রত্যক্ষদর্শী শিক্ষার্থী জানান, সকালে হঠাৎ করে মধুর ক্যান্টিন এলাকায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এরপর কিছুক্ষণ থেকে আবারও বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এভাবে পরপর ককটেল বিস্ফোরণ হয়েছে। এর আগে ঢাবির মধুর ক্যান্টিনের সামনে থেকে একটি অবিস্ফোরিত ককটেল উদ্ধার করা হয়। গত বৃহস্পতিবার ক্যান্টিনের পশ্চিম পাশের দরজার বাইরে ও ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটের (আইবিএ) পুরোনো গেটের সামনে থেকে ককটেলটি উদ্ধার করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে মধুর ক্যান্টিনের পশ্চিম পাশের গেটের বাইরে একটি ককটেল পড়েছিল।
এবার যে ছবি ভাইরাল
২৯ডিসেম্বর,রবিবার,অনলাইন ডেস্কনিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীর হাতিরঝিলে সম্প্রতি নজর কেড়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর পারফর্মিং আর্ট। এ নিয়ে ইতিবাচক-নেতিবাচক দুই ধরনের প্রতিক্রিয়াই পাওয়া গেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। নেটিজেনদের অনেকেই ফ্রম পোর্টফোলিও অফ ডগডনে শিরোনের ওই পারফর্মিং আর্টের ছবি পোস্ট করছেন ফেসবুকে। একই ধাঁচের এই পারফর্মিং আর্ট প্রথম দেখা যায় অস্ট্রিয়ার ভিয়েনার প্রকাশ্য রাস্তায় ১৯৬৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে। ভ্যালি এক্সপোর্ট ও পিটার উইবেল এই পারফর্মিং আর্টে অংশ নেন। এছাড়াও বিভিন্ন সময় একই ধাঁচের এ পারফর্মিং আর্ট দেখা গেছে বিশ্বের বিভিন্ন শহরের রাস্তায়। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে হাতিরঝিলে করা পারফর্মিং আর্টের শিল্পীরা হলেন টুটুল চৌধুরী ও সেঁজুতি। সেঁজুতি এটিকে সমাজতাত্ত্বিক ও আচরণমূলক কেসস্ট্যাডি হিসেবে উল্লেখ করেছেন। তিনি নিজে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পেইন্টিং ও ড্রয়িংয়ের শিক্ষার্থী। এই পারফর্মিং আর্টের উদ্দেশ্য, কার্টুনে যেমন বিভিন্ন প্রাণীকে মানুষের মতো কথা বলা ও আচরণগতভাবে দেখানো হয় তেমনি এখানে মানুষকে প্রাণী চরিত্রে দেখানো হয়েছে। সেঁজুতি জানান, এই ছবিতে একজন নারী একজন পুরুষকে গলায় রশি বেঁধে টেনে নিয়ে যাচ্ছে। এটা আমাদের নৈতিক ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বা আরো ভালো কোনো সামাজিক অবস্থার চিত্র দেখায় না। বরং সমাজ আমাদের ওপর যে সিস্টেম চাপিয়ে দিয়েছে সেটাই ফুটে উঠেছে। আমরা যে কাজটা করেছি এই কাজের প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি এবং এই কাজটাকে সাধারণ মানুষ কীভাবে নিয়েছে সেটাই আমরা দেখতে চেয়েছি।- বিডি প্রতিদিন

জাতীয় পাতার আরো খবর