শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ২৬, ২০২১
মারা গেলেন জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী
২৮এপ্রিল,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম:মারা গেলেন জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী (৭৮)। (ইন্নালিল্লাহে...... রাজেউন)। সোমবার (২৭ এপ্রিল) রাত ৩টার দিকে ঘুমের মধ্যে অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরীর সাড়া না পেয়ে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খ্যাতিমান প্রকৌশলী জামিলুর রেজা চৌধুরীকে ২০১৮ সালে জাতীয় অধ্যাপক হিসেবে নিয়োগ দেয় বাংলাদেশ সরকার। ১৯৯৬ সালের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক এই উপদেষ্টা পদ্মা সেতু প্রকল্পের বিশেষজ্ঞ প্যানেলের প্রধান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। কাজের স্বীকৃতি হিসেবে তিনি একুশে পদক লাভ করেন।
প্রবাসীরা যেন চাকরি না হারান, কূটনীতিক তৎপরতার নির্দেশ ১১ রাষ্ট্রদূতকে
২৭এপ্রিল,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা ভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দুর্দশাগ্রস্ত প্রবাসীদের জন্য খাদ্য সহায়তা প্রদানের পাশাপাশি প্রবাসী শ্রমিকরা যেন পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আগের চাকরিতে পুনর্বহাল হতে পারেন সে জন্য সব ধরনের কূটনৈতিক তৎপরতা গ্রহণের নির্দেশনা দিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সোমবার (২৭ এপ্রিল) মধ্যপ্রাচ্যের ১১ রাষ্ট্রদূত ও মিশনপ্রধানের সাথে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সের সময় এ নির্দেশনা দেওয়া হয়। দেশগুলো হলো- সৌদি আরব, কাতার, কুয়েত, জর্ডান, লেবানন, ইরাক, ইরান, লিবিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও ওমান। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে প্রবাসী শ্রমিকদের কেউ যদি ফেরত আসে তবে যেন তাদের ন্যায্য বেতন ও ভাতা পেতে পারে সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা ও কূটনৈতিক তৎপরতা অব্যাহত রাখতে বললেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় তিনি বলেন, আমরা প্রবাসীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সেবা দিব। ড. মোমেন প্রবাসী বাংলাদেশীদেরকেও দুর্দশাগ্রস্ত প্রবাসীদের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানান। এসময় তিনি সকল প্রবাসীকে করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহবান জানান। ভিডিও কনফারেন্সে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো: শাহরিয়ার আলম, পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন উপস্থিত ছিলেন। এসময় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশের সকল বৈদেশিক মিশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সতর্কতার সাথে দায়িত্ব পালনের আহবান জানান।
সরকারি খরচে ১০ বছরে পাঁচ লাখ দরিদ্র-অসহায় মানুষকে আইনি সহায়তা
২৭এপ্রিল,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দশ বছরে পাঁচ লাখ সাত হাজার চল্লিশ জন দরিদ্র -অসহায় মানুষকে বিনামূল্যে আইনগত সহায়তা প্রদান করেছে সরকার। ২০০৯ সাল থেকে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আইন মন্ত্রণালয়ের অধীন জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার মাধ্যমে এ সহায়তা প্রদান করা হয়। একই সময়ে সংস্থাটি ৩৫ কোটি ৩৬ লাখ ১৩ হাজার ৪২২ টাকা দরিদ্র-অসহায় মানুষকে ক্ষতিপূরণ আদায় করে দিতে সক্ষম হয়েছে। আর্থিকভাবে অসচ্ছল, সহায় সম্বলহীন এবং নানাবিধ আর্থ-সামাজিক কারণে বিচারপ্রাপ্তিতে অসমর্থ জনগোষ্ঠীর আইনি অধিকার নিশ্চিতকল্পে তাদেরকে আইনগত সহায়তা প্রদানের উদ্দেশ্যে ২০০০ সালে প্রণয়ন করা হয় আইনগত সহায়তা প্রদান আইন, ২০০০। সংস্থাটি বিগত ১০ বছরে ৬৪ টি জেলা লিগ্যাল এইড অফিসের মাধ্যমে ৩ লাখ ৮৪ হাজার ৮২৩ জনকে, সুপ্রীম কোর্ট লিগ্যাল এইড অফিসের মাধ্যমে ২০ হাজার ৯২ জনকে, জাতীয় হেল্প লাইন কলসেন্টারের ১৬৪৩০নম্বরে ফোন কলের মাধ্যমে ৮৩ হাজার ৯১৮ জনকে এবং ঢাকা ও চট্টগ্রাম শ্রমিক আইনগত সহায়তা সেলের মাধ্যমে ১৮ হাজার ২০৭ জনকে আইনগত সহায়তা প্রদান করেছে। একই সময়ে সংস্থাটি ১ লাখ ২৬ হাজার ৪৯২ টি লিগ্যাল এইড মামলা নিষ্পত্তি করেছে। আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক এর নির্দেশনায় জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার জাতীয় হেল্প লাইন কলসেন্টার (১৬৪৩০) বর্তমানে ২৪ ঘন্টা খোলা রাখা হয়েছে এবং জনগণকে আইনি পরামর্শ সেবা দেওয়া হচ্ছে। আইনি সহায়তা গ্রহণ সহজীকরণের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৬ সালের ২৮ এপ্রিল এ কল সেন্টার উদ্বোধনের পর থেকে অফিস চলাকালীন এ কল সেন্টার থেকে আইনি পরামর্শ সেবা দেওয়া হচ্ছিল। সাম্প্রতিক করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে ২৪ ঘন্টা চালু রাখা হয়েছে। এছাড়া “ডিজিটাল লিগ্যাল এইড” সেবা প্রদানের জন্য ২০১৮ সালের অক্টোবরে ‘বিডি লিগ্যাল এইড’ নামে একটি অ্যাপ চালু করেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। এতে দেশের যে কোনো প্রান্ত থেকে অ্যাপটির সাহায্যে ঘরে বসেই বিনা খরচে আইনি সহায়তা পাচ্ছেন অসহায় ও অসচ্ছল বিচারপ্রার্থী জনগণ। লিগ্যাল এইডে আইনি সহায়তা চেয়ে আবেদন জানানোর পর দ্রুততম সময়ের মধ্যে আবেদন গ্রহণের বার্তা জানিয়ে দেয় সংস্থাটি। আবেদনকারীর আবেদন অনুমোদন পেলে সঙ্গে সঙ্গে তার মোবাইলে ফোনে কল কিংবা মেসেজ দিয়ে এ তথ্যও জানিয়ে দেওয়া হয়।
বিএনপি তাদের বিষোদগারের রাজনীতি পরিহার করতে পারেনি: তথ্যমন্ত্রী
২৭এপ্রিল,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পবিত্র রমজানে বিষোদগার ও মিথ্যাচারের রাজনীতি পরিহার করতে বিএনপির প্রতি আহবান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। সোমবার বিকেলে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দেয়া বক্তব্যে মন্ত্রী এ আহবান জানান। তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনাভাইরাস মোকাবেলায় মানুষের জীবন রক্ষা, খাদ্য সহায়তাদান ও অর্থনীতিকে চাঙ্গা রাখতে জিডিপির ৩ দশমিক ৫ শতাংশের বেশি প্রণোদনা ঘোষণাসহ যেসব পদক্ষেপ নিয়েছেন, তা আজ সমগ্র বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম ও বিশ্বখ্যাত ম্যাগাজিন ফোর্বস-ও প্রধানমন্ত্রীর এসকল কর্মকাণ্ডের প্রশংসা করেছে। কিন্তু আমরা দেখছি, বিএনপি তাদের বিষোদগারের রাজনীতি পরিহার করতে পারেনি এবং গতকাল রিজভী সাহেব যে ভাষায় কথা বলেছেন, আমি তাকে অনুরোধ জানাবো রমজান মাসে কথাবার্তায় একটু সংযমী হবার জন্য। তিনি আরও বলেন, রমজান মাসে বিষোদগার ও মিথ্যাচারের রাজনীতি পরিহার করে ঐক্যবদ্ধভাবে আমাদের জনগণের পাশে দাঁড়ানো প্রয়োজন। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমাদের দলের পক্ষ থেকে ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে এবং দলের পক্ষ থেকে যে কমিটি করার কথা বলা হয়েছে, তারা দলের এই ত্রাণ বিতরণ করছে। ইতোমধ্যেই লক্ষ লক্ষ মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছানো হয়েছে। সেই সংখ্যাটাও সহসাই জানানো হবে। দলের কমিটিকে সরকারি ত্রাণের সাথে এজন্য সমন্বয় করতে বলা হয়েছে। যাতে একজন ব্যক্তিই বারবার ত্রাণ না পায় আবার যেন কেউ বাদ না যায়। এসময় আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা ও উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান উপস্থিত ছিলেন।
এত বড় মানবিক গুণ আমাদের অনেক বিত্তশালীর মাঝেও দেখা যায় না: প্রধানমন্ত্রী
২৭এপ্রিল,সোমবার,মো.ইরফান চৌধুরী,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভিক্ষা করে জমানো টাকা করোনা দুর্গতদের মাঝে দান করা শেরপুরের সেই ভিক্ষুকের প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভিক্ষুক নাজিমুদ্দিন এক মহৎ দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। সোমবার গণভবন থেকে রাজশাহী বিভাগের অন্তর্গত জেলাগুলোর জনপ্রতিনিধি ও সরকারি কর্মকর্তাদের সাথে ভিডিও কনফারেন্স চলাকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতি উপজেলার ভিক্ষুক নাজিমুদ্দিনের মানবিকতার ঘটনা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ করোনার মধ্যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন ভিক্ষা করে খাওয়া একজন সাধারণ মানুষ। এক সময় কৃষি কাজ করলেও দুর্ঘটনায় পা ভেঙে যাওয়ার পর কাজ করতে না পারায় এখন ভিক্ষা করেন তিনি। ভিক্ষা করে করে মাত্র ১০ হাজার টাকা জমা করেছিলেন ঘর ঠিক করবেন বলে। কিন্তু সেই মানুষটা নিজের জমানো সব টাকা তুলে দিয়েছেন করোনাভাইরাসে যারা ক্ষতিগ্রস্ত তাদের সাহায্যের জন্য। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি মনে করি ভিক্ষুক নাজিমুদ্দিন সারা বিশ্বে এক মহৎ দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। এত বড় মানবিক গুণ আমাদের অনেক বিত্তশালীর মাঝেও দেখা যায় না। কিন্তু একজন নিঃস্ব মানুষ যার কাছে এ টাকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, এ টাকা দিয়ে আরও দুটো জামা কিনতে পারতেন, ঘরে খাবার কিনতে পারতেন। কিন্তু তা না করে তিনি তার শেষ সম্বলটুকু দান করেছেন। বাংলাদেশের মানুষের মাঝে এখনও মানবিক বোধটা আছে। কিন্তু সেটা আমরা পাই কাদের কাছে? যারা নিঃস্ব তাদের কাছে। অনেক সময় দেখি বিত্তশালীরা হা-হুতাশ করে বেড়ায়। তাদের নাই নাই অভ্যাসটা যায় না। তাদের চাই চাই ভাবটাই সবসময় থেকে যায়, যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী। সোমবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে এ ভিডিও কনফারেন্স শুরু হয়। এতে অংশ নেয়া অন্য জেলাগুলো হলো- চাঁপাইনবাবগঞ্জ, জয়পুরহাট, নওগাঁ, নাটোর, পাবনা, রাজশাহী এবং সিরাজগঞ্জ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস।
বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা ৭ মে পর্যন্ত বর্ধিত
২৭এপ্রিল,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনার ছড়িয়ে পড়ারোধে বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা ৭ মে পর্যন্ত বাড়িয়েছে। সোমবার এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক ফ্লাইটে যাত্রী পরিবহনের (শিডিউল পেসেঞ্জার ফ্লাইট) ক্ষেত্রে বিমান চলাচল নিষেধাজ্ঞা ৭ মে পর্যন্ত বর্ধিত করা হলো। এ নিষেধাজ্ঞা পূর্বের ন্যায় বাহরাইন, ভুটান, হংকং, ভারত, কুয়েত, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ, ওমান, কাতার, সৌদি আরব, শ্রীলঙ্কা, সিংগাপুর, থাইল্যান্ড, তুরস্ক, ইউএই, ইউকে (মোট ১৬টি দেশ)-এর সাথে বিদ্যমান বিমান চলাচল রুটের ক্ষেত্রে কার্যকর হবে। একই সাথে অভ্যন্তরীণ যাত্রী পরিবহনের ক্ষেত্রে বিমান চলাচল নিষেধাজ্ঞা আগামী ৭ মে পর্যন্ত বর্ধিত করা হলো। কার্গো, ত্রাণ-সাহায্য, এয়ার অ্যাম্বুলেন্স, জরুরি অবতরণ ও স্পেশাল ফ্লাইট পরিচালনার কার্যক্রম চালু থাকবে।
গাজীপুরে শ্রমিকদের বিক্ষোভ, অগ্নিসংযোগ
২৭এপ্রিল,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনাভাইরাসের ঝুঁকির মধ্যে কারখানা খোলা রেখে রাত ১১টা পর্যন্ত কাজ করিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে ও বকেয়া বেতনের দাবিতে গাজীপুরে সোমবারও বিক্ষোভ করেছেন তৈরি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা। সকালে গাজীপুর মহানগরের ভোগড়া বাইপাস এলাকায় চারটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে শ্রমিকদের বিক্ষোভের কারণে জরুরি পণ্যবাহী গাড়িগুলো আটকা পড়ে মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ এসে শ্রমিকদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়ে এবং একটি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ করেন। পরে অতিরিক্ত সংখ্যক পুলিশ শ্রমিকদের ধাওয়া দিয়ে মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গাজীপুর শিল্প পুলিশের ইন্সপেক্টর ইসলাম হোসেন জানান, শিল্প পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জালাল উদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে অতিরিক্ত সংখ্যক পুলিশ নিয়ে তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।
এখন পর্যন্ত করোনা পরীক্ষায় কিট প্রয়োগ সমর্থন করেনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা
২৭এপ্রিল,সোমবার,আহাম্মদ হোসেন ভুইয়া,নিউজ একাত্তর ডট কম: ওষুধ প্রশাসনের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান বলেছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখন পর্যন্ত করোনা পরীক্ষায় কিট প্রয়োগ সমর্থন করেনি। তাই বাংলাদেশেও এখনও এ ধরণের কিট নিয়ে পরীক্ষা করা হচ্ছে না। আজ সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান। জেনারেল মাহবুবুর রহমান বলেন, গণস্বাস্থ্যের যে কিট তা ট্রায়াল পর্যায়ের। হস্তান্তর করার মতো না। তাই এখনও হস্তান্তর করা হয়নি। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী পরোক্ষভাবে ঘুষের অভিযোগ করেছেন। এ প্রসঙ্গ টেনে ওষুধ প্রশাসন ডিজি বলেন, আমরা তো সর্বাত্মক সহযোগিতা করা জন্য আছি। অসত্য তথ্য দেয়া দুঃখজনক এবং তা প্রত্যাখ্যান করি। তারা ১৮ই মার্চ আবেদন করেছিলেন। ১৯ তারিখেই আমরা অনুমোদন করেছি। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র মিথ্যা তথ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিকে হেয় করার চেষ্টা করছে বলেও অডিভযোগ করেন মাহবুবুর রহমান।

জাতীয় পাতার আরো খবর