বাদ পড়াদের বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক খারাপ হবে
৩১আগস্ট,শনিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভারত শনিবার (৩১ আগস্ট) আসামের চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা প্রকাশ করেছে। এই তালিকায় ঠাঁই হয়নি ১৯ লাখ মানুষের। ফলে ভারতে অবস্থানরত এই নাগরিকদের জন্য অনিশ্চিত পরিস্থিতি তৈরি হলো। ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহসহ কিছু রাজনীতিবিদ রাজনৈতিক খেলার অংশ হিসেবে এই লোকগুলোকে বাংলাদেশ থেকে অনুপ্রবেশকারী বলে আখ্যায়িত করে থাকেন। এ অবস্থায় ভারত যদি তাদের এই লোকগুলোকে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে তাহলে দুই দেশের বর্তমান বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক নষ্ট হবে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। এ বিষয়ে চীনে বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত মুনশি ফায়েজ আহমেদ বলেন,বেশি উদ্বিগ্নতা দেখার মতো অবস্থা এখনও তৈরি হয়নি। তবে আমাদের সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে।তিনি বলেন, ভারত যদি মিয়ানমারের মতো তাদের লোকগুলোকে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে তাহলে দেশটির সঙ্গে আমাদের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কে বড় ধরনের নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। সাবেক এ রাষ্ট্রদূত বলেন, এই লোকগুলো অনেক আগে থেকে আসামে বসবাস করে আসছে। স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় তাদের নাগরিক হয়ে যাওয়ার কথা।কিন্তু বাংলাদেশের পাশের রাজ্যে বিজেপিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলো বাংলাদেশ নিয়ে রাজনীতি করে ভোট বাড়ানোর চেষ্টা করে। এ প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে এই লোকগুলোকে নাগরিক করা হয়নি। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অবস্থা অনেক ভালো এবং এখান থেকে মুসলিমদের ভারতের মতো প্রতিকূল জায়গায় যাওয়ার কোনও কারণ নেই বলে তিনি জানান। এ বিষয়ে তিনি বলেন, স্বাধীনতার পরে মুসলিমরা ভারতে গেছে এটি অবাস্তব কথা। সাবেক পররাষ্ট্র সচিব এম তৌহিদ হোসেন বলেন,ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শংকর বলেছেন এনআরসি ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এটি ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় হয়ে থাকলে কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু শঙ্কার জায়গা তৈরি হয় যখন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ প্রকাশ্যে এ বিষয়ে কথা বলেন এবং বাদপড়া লোকগুলো বাংলাদেশ থেকে অনুপ্রবেশকারী বলে অভিহিত করেন। তিনি বলেন, আমাদের সজাগ থাকতে হবে। কারণ আমরা চাই না অমিত শাহ ও তাদের অভ্যন্তরীণ রাজনীতির কারণে এই লোকগুলো আমাদের ঘাড়ে চেপে বসুক। আমাদের পার্শ্ববর্তী রাজ্যগুলোতে বাংলাদেশ কার্ড যেন ব্যবহার করা না হয় সেজন্য আমাদের সজাগ থাকতে হবে বলে তিনি মনে করেন। তিনি বলেন,বাংলাদেশের এখন উচিত হবে ভারতে এখনও অনেক জ্ঞানী-গুণী ব্যক্তি আছেন যারা বিষয়টি হাস্যকর মনে করেন। তাদের সঙ্গে যোগাযোগ বৃদ্ধি করে এ বিষয়ে তাদের মাধ্যমে সোচ্চার হওয়া প্রয়োজন।-আলোকিত বাংলাদেশ
কমতে পারে তাপমাত্রা
৩১আগস্ট,শনিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আজ শনিবার সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে। এছাড়া রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সকাল ৭টা পরবর্তী ৬ ঘণ্টার জন্য ঢাকা ও এর পার্শ্ববর্তী এলাকার দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে। আকাশ মেঘলা থাকতে পারে। বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এর আগে শুক্রবার ঢাকাসহ ৫টি অঞ্চলে তাপমাত্রা ছিল ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের উপরে। শনিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী বর্ষণ হতে পারে। এছাড়াও আবহাওয়া অফিস জানিয়েছেন, শনিবার ও রোববার বৃষ্টির পরিমাণ কিছুটা বাড়তে পারে।
আমি মৃত্যুকেও ভয় পাই না,জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণে কাজ করে যেতে চাই
৩০আগস্ট,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:শুক্রবার বিকাল ৩ টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, কারবালায় যেভাবে নির্মম হত্যাকাণ্ড চালানো হয়েছিল, ১৫ আগস্ট ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে যেন কারবালার ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটলো। আমরা দুইবোন ভাগ্যক্রমে সেদিন বেঁচে যাই। এ হত্যাকাণ্ডের মাত্র ১৫ দিন আগেই আমি বিদেশে চলে যাই।প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি কখনই ভাবতে পারিনি, যে মানুষটা তাদের পরিচয় দিয়ে গেল, একটা দেশ দিয়ে গেল, এরকম ভাবে বাংলাদেশের মানুষ এমন একজন মানুষকে হত্যা করলো। সেদিন আমরা দুটি বোন দেশে আসতে চেয়েছিলাম, কিন্তু পারিনি। আমাদের আসতে দেয়া হয়নি, আসতে বাঁধা দেয়া হয়েছিল। বঙ্গবন্ধু যখন একটা যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশকে গড়ে তুলে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন, ঠিক তখনই তাকে হত্যা করা হয়। যে জাতি ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে বিজয় অর্জনের জন্য বিশ্বব্যাপী বিজয়ী জাতি হিসাবে সন্মান পেয়েছিল, সেই জাতি পরবর্তীতে একটা খুনি জাতি হিসাবে মানুষের কাছে পরিচিত হলো।শেখ হাসিনা ভাষণের শুরুতে ১৫ অগাস্টের নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার তার মা-বাবা-ভাই এবং তাদের স্ত্রীসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের স্মরণ করেন। এ সময় তিনি আবেগাপ্লুত হয়ে যান।প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, জাতির পিতা একদা বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করে গড়ে তোলার যে স্বপ্ন দেখেছিলেন তা বাস্তবায়ন করতে আমি মৃত্যুকেও ভয় পাই না। জাতির পিতার অসম্পূর্ণ স্বপ্ন পূরণে আমি আমার শেষ নিঃশ্বাস অবদি কাজ করে যেতে চাই।
বাংলাদেশ কূটনৈতিক প্রচেষ্টার মাধ্যমে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করবে
৩০আগস্ট,শুক্রবার,স্টাফ রির্পোটার,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম:শুক্রবার সকালে চট্টগ্রামের দামপাড়া পুলিশ লাইনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিএনপি নেতারা যেভাবে রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে রাজনীতি করা শুরু করেছেন তাতে মনে হয় না রোহিঙ্গারা দেশে ফিরে যাক এটা তারা চান।।এ সময় তিনি আরও বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান করার জন্য বাংলাদেশ যে পথে হাঁটছে সেটিই সঠিক পথ। কোনও যুদ্ধ-বিগ্রহের মাধ্যমে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করা যাবে না। বাংলাদেশ কূটনৈতিক প্রচেষ্টার মাধ্যমে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করবে।অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবুর রহমানসহ পুলিশ কর্মকর্তারা বক্তব্য রাখেন।
ডিসিদের পরিবার সঙ্গে না থাকলে ব্যবস্থা: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী
৩০আগস্ট,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: যেসব জেলায় ডিসিদের সন্তানরা পড়াশোনা করে না সেখানকার স্কুল, কলেজ ও অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গুণ ও মান তদারকি ও যথাযথভাবে পরিচালনা করা হয় না। বললেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। রাজধানীর ব্র্যাক ইন মিলনায়তনে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলাদেশে সামাজিক জবাবদিহি ও ইচ্ছামূলক গণতন্ত্রের পরিস্থিতি: বর্তমান গতিপ্রকৃতি ও ভবিষ্যৎ পথরেখা শীর্ষক সমীক্ষা প্রতিবেদনের বৃহস্পতিবার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, জেলা প্রশাসকদের সঙ্গে যাতে পরিবার থাকে তা সরকার নিশ্চিত করতে চায়। যেসব জেলা প্রশাসকের (ডিসি) সাথে তার কর্মক্ষেত্রে স্ত্রী বা স্বামী ও সন্তানরা থাকেন না তাদের বিরুদ্ধে সরকার ব্যবস্থা নেবে। তিনি বলেন, পরিবার নিয়ে থাকার জন্য জেলা প্রশাসকদের সব রকম সুযোগ সুবিধা দেয়া আছে। তারা সেসব সুবিধা নিয়েও পরিবার সাথে রাখবেন না তা হতে পারে না। ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অভ গভর্নেন্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (বিআইজিডি) আয়োজিত অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও ক্যাম্পেইন ফর পপুলার অ্যাডুকেশনের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম, দ্য হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. বদিউল আলম মজুমদার, ডিএফআইডি বাংলাদেশের আনোয়ারুল হক। তাজুল ইসলাম বলেন, স্থানীয় সরকারকে শক্তিশালী হতে হবে। কারণ সেখানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে ১২৩ ধরনের সেবা মানুষকে দেয়া হয়। মন্ত্রী জানান, যেসব পৌরসভার কর্মীরা বেতন পাচ্ছেন না সেগুলোর মেয়রদের বিদেশ সফরে যেতে দেবে না মন্ত্রণালয়।
রোহিঙ্গাদের সমাবেশ নিয়ে চিন্তিত নয়
২৯আগস্ট,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:সম্প্রতি কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গাদের আয়োজিত সমাবেশ নিয়ে সরকার চিন্তিত নয় বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ব্যাংক বঙ্গবন্ধু পরিষদ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা শেষে তিনি এ কথা বলেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, হুমকির কোনো কারণই নেই, তারা এখানে আশ্রয় নিয়েছে। এখানে এগারো লাখের মতো রোহিঙ্গা রয়েছে। আমি মনে করি না এটা কোনো হুমকি। সড়ক দুর্ঘটনায় বিআইডব্লিউটিসির কর্মকর্তা কৃষ্ণা পা হারানোর পর তারা মামলা করেছে এবং দোষীদের গ্রেপ্তারের ব্যাপারে অগ্রগতির বিষয়ে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, পা হারানো বিআইডব্লিউটিসির কর্মকর্তা কৃষ্ণার দুর্ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করা হবে। এর আগে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, শেখ হাসিনাকে ১৯ বার হত্যাচেষ্টা করা হয়েছিল। ষড়যন্ত্র এখনো থেমে নেই। এজন্য আমাদের আরও সর্তক থাকতে হবে।
সব আদালতে বঙ্গবন্ধুর ছবি টানানোর নির্দেশ
২৯আগস্ট,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সুপ্রিম কোর্টসহ সারা দেশের সব আদালত কক্ষে (এজলাসে) দুই মাসের মধ্যে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি টানানো, প্রদর্শন এবং সংরক্ষণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এ সংক্রান্ত এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন রিটকারী আইনজীবী সুবীর নন্দী দাস। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার। চলতি বছরের ২১ আগস্ট হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সুবীর নন্দী দাস। রিটে দেশের প্রতিটি আদালতের এজলাসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি সংরক্ষণ ও প্রদর্শনের ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য নির্দেশনা চাওয়া হয়েছিল। একই সঙ্গে প্রতিকৃতি টাঙানোর নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছিল। রিটে আইন সচিব, গণপূর্ত সচিব, অর্থ সচিব, সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল ও হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রারকে বিবাদী করা হয়েছিল। ওইদিন আইনজীবী সুবীর নন্দী দাস বলেন,সংবিধানের ৪(ক) অনুচ্ছেদে প্রতিটি সরকারি, আধা-সরকারি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি টাঙানোর সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এ অনুচ্ছেদ উল্লেখ করে রিটটি করা হয়।
২০২১ সালের জুনের মধ্যে খুলে দেয়া হবে পদ্মা সেতু : সেতুমন্ত্রী
২৯আগস্ট,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পদ্মা সেতু নির্মাণকাজের অগ্রগতি হয়েছে ৮৩ শতাংশ। ২০২১ সালের জুনের মধ্যে সেতু চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকারের ঋণ পরিশোধের জন্য অর্থ বিভাগ ও বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের মধ্যে ঋণচুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান। তিনি বলেন, মূল সেতুর বাস্তবায়ন কাজের অগ্রগতি ৮৩ শতাংশ, আর্থিক অগ্রগতির ৭২ শতাংশ। নদী শাসন কাজের বাস্তব অগ্রগতি ৬২ শতাংশ এবং আর্থিক অগ্রগতির ৪৮ শতাংশ।