রবিবার, মার্চ ৭, ২০২১
চট্টগ্রাম জেলার নতুন পুলিশ সুপার রশিদুল হক
১২জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের নতুন পুলিশ সুপার (এসপি) হিসেবে পদায়ন হয়েছেন এস এম রশিদুল হক। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ পুলিশ শাখা-১ অধিশাখা থেকে এক প্রজ্ঞাপনে এই বদলি আদেশ জারি করা হয়। তবে চট্টগ্রাম-৮ সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনের কারণে আগামী ১৩ জানুয়ারির পর এই আদেশ কার্যকর হবে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে। পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক বর্তমানে লালমনিরহাট জেলার পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। বর্তমানে চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতি হওয়ায় নতুন পুলিশ সুপার হিসেবে এস এম রশিদুল হককে লালমনিরহাট থেকে চট্টগ্রামে বদলি করা হয়। এছাড়া একই প্রজ্ঞাপনে চট্টগ্রাম নগর পুলিশের উপ-কমিশনার আবদুল ওয়ারীশকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার এবং চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার হারুনুর রশীদ হাযারীকে ঢাকা পিএন্ড আইএম এর পুলিশ সুপার হিসেবে বদলি করা হয়েছে।
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে Ragging বিরোধী স্কোয়াড গঠনের নির্দেশ হাইকোর্টের
১২জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে Ragging বন্ধে অ্যান্টি Ragging স্কোয়াড ও তা মনিটরিংয়ের জন্য কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে Raggingয়ের হাত থেকে শিক্ষার্থীদের মর্যাদা রক্ষায় বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তাকে কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়েছে। আজ রোববার এই সংক্রান্ত এক রিটের প্রাথমিক শুনানির পর বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন। স্বরাষ্ট্র সচিব, শিক্ষা সচিব ও বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট বিবাদীদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। আদালতে আবেদনকারী আইনজীবী ইশরাত হাসান নিজেই শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার। ইশরাত সাংবাদিকদের বলেন, আদালত তিন মাসের মধ্যে Ragging বিরোধী কমিটি ও স্কোয়াড গঠনের নির্দেশ দিয়েছে। কমিটি Raggingয়ের অভিযোগ নেবে, Ragging বন্ধে সুপারিশ করবে। আর ক্সোয়াড Ragging প্রতিরোধে বন্ধে ব্যবস্থা নিবে বা প্রতিকার দেবে। এর আগে এ বিষয়ে কমিটি গঠনের তাগিদ দিয়ে সংশ্লিষ্টদের আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিলেন অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান। নোটিশের জবাব না পেয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন তিনি।
দেশের ১৬ কোটি মানুষকে ইন্টারনেটের আওতায় আনা হবে: জয়
১২জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, দেশের ১৬ কোটি মানুষকে ইন্টারনেট নেটওয়ার্কের আওতায় নিয়ে আসা হবে। এ জন্য সরকার কাজ করছে। রোববার সচিবালয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফ্রি ওয়াইফাই জোন সংযোগ কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের ১৪৬টি সরকারি কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও ইনস্টিটিউশন একযোগে ১০ মেগাবাইট গতিসম্পন্ন এই নেটওয়ার্ক চালু কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। বর্তমানে দেশের প্রায় ১০ কোটি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন জানিয়ে সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, দেশের তরুণ শিক্ষার্থীদের সবার দাবি অনুযায়ী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক চালু করা হলো। পুরো দেশের ১৬ কোটি মানুষকে ইন্টারনেট নেটওয়ার্কের আওতায় নিয়ে আসতে কাজ করছে সরকার। আমাদের এই কার্যক্রম চলমান থাকবে বলেও জানান তিনি। প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা বিটিসিএল এর কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, শুধু সারাদেশের মানুষেকে ইন্টারনেট নেটওয়ার্কের আওতায় আনলেই হবে না। আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে যাতে ইন্টারনেটের উচ্চগতি নিশ্চিত হয়। যাতে সারাদেশের তরুণ সমাজ দ্রুতগতি সম্পন্ন ইন্টারনেট সেবা পায়। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. নূর-উর-রহমানসহ মন্ত্রণালয় ও অধীনস্থ সংস্থা বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।- বাসস
গণভবন থেকে আখেরি মোনাজাতে অংশ নিলেন প্রধানমন্ত্রী
১২জানুয়ারী,রবিবার,স্পেশাল প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: টঙ্গীর তুরাগ পাড়ে শেষ হয়েছে ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতে অংশ নেন। রোববার বেলা ১১টার দিকে এ আখেরি মোনাজাত শুরু হয়। প্রায় ৪০ মিনিট এ মোনাজাত পরিচালনা করেন তাবলিগ জামাতের শীর্ষ খতিব হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ জোবায়ের। ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতে অংশ নেন তার অনুসারীসহ দেশি-বিদেশি লাখ লাখ মুসল্লি। মোনাজাতে ইহকালে শান্তি, পরকালের মাগফেরাত এবং বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করা হয়। মোনাজাত উপলক্ষে ১৬টি বিশেষ ট্রেন সার্ভিসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ১৭ থেকে ১৯ জানুয়ারি বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে মাওলানা সাদ কান্ধলভীর অনুসারীরা অংশ নেবেন।
জঙ্গি দমনের মতো মাদকও নিয়ন্ত্রণ হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
১২জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, আমরা জঙ্গি সন্ত্রাস যেভাবে দমন করতে পেরেছি, মাদকও সেভাবে নিয়ন্ত্রণ করবো। আজ রোববার দুপুর ১২টায় সেগুনবাগিচায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ এর সদর দপ্তরে ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মাদক সমাজকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। আমাদের যুব সমাজ এই মাদকে শেষ হয়ে যাচ্ছে। যদি এটিকে নিয়ন্ত্রণ করা না যায়, আমাদের পুরো সমাজ শেষ হয়ে যাবে। তাই আমরা স্কুল কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাদকের বিরুদ্ধে প্রচারণা চালাচ্ছি। তিনি বলেন, মাদক বন্ধের জন্য পুলিশ-বিজিবি নৌবাহিনী আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রত্যেকটি সংস্থা কাজ করে যাচ্ছে। মাদকের যারা সাম্রাট হবে তারা কেউ রেহাই পাবে না। অনেককেই গ্রেফতার করে জেলে প্রেরণ করা হয়েছে। যারা এখনও পলাতক তাদের খুব শিগগিরই আইনের আওতায় আনা হবে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছি। ২০০৮ সালের আগে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতায় আসার পূর্বে ঘোষণা করেছিলেন নির্বাচিত হলে মাদককে নির্মূল করবেন। সেই ঘোষণার আলোকে মাদকের ভয়াবহ বিস্তার রোধ করার জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমরা মাদকের ডিমান্ড হ্রাস করার জন্য সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। তিনি বলেন, টিভিসি নির্মিত হয়েছে। সামনে আরো অনেক কিছু হবে। মাদক নিয়ে যারা কাজ করছে তারা যত বড় শক্তিশালী হোক কেউ রেহাই পাবে না। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. জামাল উদ্দিন আহমেদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব মোঃ শহীদুজ্জামান, রিপাবলিক অব কোরিয়ার নারকোটিকস ডিভিশন এর ডিরেক্টর উন জাই প্রমুখ। উল্লেখ্য, বাংলাদেশে মাদক সংক্রান্ত অপরাধ কমিয়ে সুস্থ ও সুন্দর পরিবেশ নির্মাণ, সক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে মাদকের বিস্তার রোধ ও মাদকের বিরুদ্ধে জনমত সৃষ্টি করার লক্ষ্যে দি কোরিয়া ইন্টারন্যাশনাল কর্পোরেশন এজেন্সি (কয়কা) এর সহায়তায় ৩৭ কোটি ২০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে কারিগরি সহায়তা প্রকল্প বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে। এর মাধ্যমে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কার্যক্রম অটোমেশনের আওতায় আসবে।
আত্মসমর্পণের পর কারাগারে পলাতক মোর্শেদ
১২জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ রাব্বীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় পলাতক মোর্শেদ আমত্য আত্মসমর্পণ করেছেন। আজ রোববার (১২ জানুয়ারি) ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম ইয়াসমিন আরার আদালতে আত্মসমর্পণ করে আইনজীবীর মাধ্যমে জামিনের আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আসামিপক্ষের আইনজীবী ইমরুল হাসান এ তথ্য জানান। চাঞ্চল্যকর এ হত্যার মামলার ৪ আসামিকে আদালতে হাজির হতে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেন আদালত। আগামি ১৩ জানুয়ারি এ বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য রয়েছে। এর আগে পলাতক আসামিদের গ্রেফতার সংক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আদালত গত ৩ ডিসেম্বর তারিখ ধার্য করেন। ওই দিন আসামিরা পলাতক রয়েছে দেখিয়ে প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ। এজন্য আদালত সম্পত্তি ক্রোক পরোয়ানা জারি করেছেন। কিন্তু আসামিদের ব্যক্তিগত কোনো মালামাল না থাকায় সম্পত্তি ক্রোক করা যায়নি। গত ১৩ নভেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মো. ওয়াহিদুজ্জামান ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। গত ১৮ নভেম্বর ডিবি পুলিশের দেয়া চার্জশিট গ্রহণ করেন আদালত। মোর্শেদ অমত্য ইসলাম, মুহাম্মদ মোর্শেদ-উজ-জামান মণ্ডল ওরফে জিসান, এহতেশামুল রাব্বি ওরফে তানিম ও মুজতবা রাফিদ পলাতক থাকায় আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। প্রসঙ্গত, ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের পানি-চুক্তির সমালোচনা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ায় গত ৬ অক্টোবর রাতে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের নির্যাতনের মুখে প্রাণ হারান বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ। ওই দিন রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের নিচতলা ও দুইতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরদিন দুপুর দেড়টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে আবরারের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ লাশের ময়নাতদন্ত করেন। তিনি বলেন, ছেলেটিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এই ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে রাজধানীর চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরবর্তিতে মামলার তদন্তের স্বার্থে এজহার বহির্ভুত কয়েকজনকেসহ আটক করে পুলিশ। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ২২ জনকে গ্রেফতার করা হলো।
আখেরি মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা
১২জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনায় এবং আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনে বিশ্বের অর্ধশতাধিক দেশের দুই সহস্রাধিক প্রতিনিধিসহ লাখো লাখো মুসল্লির মহাসমাবেশ বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত শেষ হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম এই ধর্মীয় সমাবেশ শেষ হলো। আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন তাবলিগ জামাতের শীর্ষ বুজুর্গ ও কাকরাইল মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ যোবায়ের। ইজতেমার প্রথম পর্বে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব-আমিরাত, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, চাঁদ, ইথিওপিয়া, ফ্রান্স, জার্মানি, ভারত, পাকিস্তান, রাশিয়া, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ আফ্রিকা, স্পেন, সুইজারল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, কাজাখস্তান, খিরকিজস্তান, মালয়েশিয়া, মরক্কো, নেপাল, কেনিয়া, কুয়েত, কাতার, বাহরাইন, জর্দান, দুবাইসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসল্লিরা অংশ নিয়েছিলেন। বিভিন্ন ভাষা-ভাষী ও মহাদেশ অনুসারে ইজতেমা ময়দানে বিদেশি মেহমানদের ভিন্ন ভিন্ন তাঁবু নির্মাণ করা হয়েছে। সেখানে তাদের জন্য প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধার ব্যবস্থা রাখা হয়। বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু হবে আগামী ১৭ জানুয়ারি। এ পর্বের আয়োজক বিশ্ব তাবলিগ জামাতের সাবেক আমির মাওলানা সাদ কান্ধলভীর অনুসারীরা।
আজ আবুধাবি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
১২জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আবুধাবি সাসটেইনাবিলিটি সপ্তাহে যোগ দিতে সরকারি সফরে আজ রোববার সংযুক্ত আরব আমিরাত যাচ্ছেন। তিনি বিকেল ৫টায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-০২৭ ভিভিআইপি ফ্লাইটে আবুধাবির উদ্দেশে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছাড়বেন প্রধানমন্ত্রী। এ দিন স্থানীয় সময় রাত ৮টা ৫৫ মিনিটে আবুধাবি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছানোর কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর। সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ইমরান বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানাবেন। এরপর বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে মোটর শোভাযাত্রা সহযোগে প্রধানমন্ত্রীকে নেওয়া হবে সফরকালীন আবাসস্থল শাংগ্রি-লা হোটেলে। সোমবার (১৩ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় আবুধাবি জাতীয় প্রদর্শন কেন্দ্রে আবুধাবি সাসটেইনাবিলিটি সপ্তাহ এবং জায়েদ সাসটেইনাবিলিটি পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিকেলে সফরকালীন আবাসস্থল শাংগ্রি-লা হোটেলে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূতদের নিয়ে দূত সম্মেলনে অংশ নেবেন শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম, আবুধাবির ক্রাউন প্রিন্স শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের স্থপতি ও প্রতিষ্ঠাতা রাষ্ট্রপতির স্ত্রী শেখ ফাতিমা বিনতে মুবারাক আল কেতবির সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ দিন বিকেলে আবুধাবি জাতীয় প্রদর্শন কেন্দ্রে দি ক্রিটিক্যাল রোল অব ওমেন ইন ডেলিভারিং ক্লাইমেট বিষয়ক কী নোট সাক্ষাৎকার পর্বে অংশগ্রহণ করবেন শেখ হাসিনা। এরপর স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে ৫টায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-১১০২ ভিভিআইপি ফ্লাইটে ঢাকার উদ্দেশে আবুধাবি ছাড়বেন প্রধানমন্ত্রী। স্থানীয় সময় রাত ১২টার দিকে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তজার্তিক বিমানবন্দর পৌছানোর কথা প্রধানমন্ত্রীর। আবুধাবি সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরসঙ্গীদের মধ্যে রয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মোহাম্মদ তোফাজ্জল হোসেন মিয়া, স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স (এসএসএফ) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মজিবুর রহমানসহ আরও অনেকে।
আখেরি মোনাজাত দিয়ে শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব
১২জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: তুরাগ নদীর তীরে দেশ এবং মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা করে আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে প্রথম পর্বের বিশ্ব ইজতেমা শেষ হয়েছে। মোনাজাত পরিচালনা করছেন কাকরাইল জামে মসজিদের খতিব ও তাবলীগ জামাতের কেন্দ্রীয় শূরা সদস্য হাফেজ মাওলানা জুবায়ের আহমেদ। এর আগে আজ রোববার (১২ জানুয়ারি) বেলা ১১টা ৮ মিনিটে আখেরি মোনাজাত শুরু হয়। মোনাজাতে অংশ নেন দেশি-বিদেশি লাখো মুসল্লি। আখেরি মোনাজাতের সময় আমিন আমিন ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠে তুরাগের দুই পাড়সহ গোটা এলাকা। মোনাজাতে অংশ নেন সকল বয়সের নারী-পুরুষ। এ সময় আগত মুসল্লিরা দুই হাত তুলে অনেকে কান্নায় ভেঙে পড়েন। এর আগে গত শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) সকালে আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয় বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। রোববার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতের পর চার দিন বিরতি দিয়ে আগামী শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) থেকে শুরু হবে ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। শেষ হবে ১৯ জানুয়ারি। দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন ভারতের মাওলানা সা’দ কান্দলভি। আখেরি মোনাজাতে অংশ নেয়ার জন্য গতকাল রাত থেকেই ইজতেমা ময়দানে মুসল্লিরা আসা শুরু করেন। সকাল থেকে শুরু হয় হেদায়েতি বয়ান।

জাতীয় পাতার আরো খবর