সোমবার, মার্চ ৮, ২০২১
একাধিকবার বিদ্যুৎ-জ্বালানির দাম পরিবর্তন করা যাবে
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বছরে একাধিকবার বিদ্যুৎ-জ্বালানির দামে পরিবর্তনের সুযোগ রেখে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন আইন সংশোধনের খসড়া অনুমোদন দিয়েছে সরকার। সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আগের আইনটি ছিল ২০০৩ সালের। তাতে একটা প্রভিশন ছিল, কমিশনের নির্ধারিত ট্যারিফ কোনো অর্থবছরে একবারের বেশি পরিবর্তন করা যাবে না, যদি না জ্বালানি মূল্যের পরিবর্তনসহ অন্য কোনোরূপ পরিবর্তন ঘটে। সংশোধিত আইনে এটাকে পরিবর্তন করে করা হয়েছে। কমিশন কর্তৃক নির্ধারিত ট্যারিফ কোনো অর্থবছরে কমিশনের একক বা পৃথক পৃথক আদেশ দ্বারা, প্রয়োজন অনুসারে এক বা একাধিকবার পরিবর্তন করতে পারবে। সংশোধিত আইনে শুধু এইটুকুই পরিবর্তন আনা হয়েছে। অন্যান্য যে বিধান আছে সেগুলো ঠিক আছে বলে জানান তিনি। খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ওনারা (বিইআরসি) দেখতেছেন অনেক সময়ই (বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম) পরিবর্তন করা প্রয়োজন হতে পারে। রিজিট না থেকে অপশন রইল, সেজন্যই। যদি ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটে...অনেক সিনারিও আসতে পারে, হঠাৎ করে চেইঞ্জ করা লাগতে পারে। কিন্তু আগের আইনে রিজিট (অনমনীয়) ছিল, এখন ফ্লেক্সিবল (নমনীয়) করা হলো। এর মানে এই আইন হলে বিদ্যুৎ, গ্যাস, ডিজেল, পেট্রলসহ জ্বালানির দাম বছরে একাধিকবার বাড়াতে পারবে এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন। জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এক বা একাধিকবার পরিবর্তন করতে পারবে। বাড়াতে পারবে, কমাতেও পারবে। উল্লেখ্য, বিদ্যুৎ উৎপাদন এবং গ্যাস সম্পদ ও পেট্রোলিয়ামজাত পদার্থের সঞ্চালন, পরিবহন ও বাজারজাতকরণে বেসরকারি বিনিয়োগের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি, এ খাতে ব্যবস্থাপনা, পরিচালনা, ট্যারিফ নির্ধারণে স্বচ্ছতা আনা, ভোক্তার স্বার্থ সংরক্ষণ ও প্রতিযোগিতামূলক বাজার সৃষ্টিতে কাজ করে বিইআরসি।
নেত্রীর সিদ্ধান্ত মাথা পেতে নিলাম: সাঈদ খোকন
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাবার পর নেত্রী শেখ হাসিনা আমার অভিভাবক বলে জানালেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন। খোকন বলেন, তিনি (প্রধানমন্ত্রী) যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আমি তা মাথা পেতে নিলাম। তিনি আমাকে যা দিয়েছেন তার জন্য শুকরিয়া, আলহামদুলিল্লাহ। সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) নগর ভবনে ডিএনসিসি নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পাওয়ার পর এক আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়ায় খোকন এ কথা বলেন। এর আগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন থেকে বাদ পড়েন মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। তার পরিবর্তে মেয়র পদে মনোনয়ন দেওয়া হয় ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপসকে। আওয়ামী লীগের সূত্র মতে, নগরবাসীর আশা-আকাঙ্ক্ষা পূরণ করতে না পারা, বিভিন্ন সময়ে ‍বেফাঁস মন্তব্য, মশা নিধনে ব্যর্থতা ও প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে না পারাসহ নানা কারণে তাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়নি।
মৎস্য ভবন এলাকায় পুলিশের সঙ্গে বাম জোটের সংঘর্ষ
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে বাম গণতান্ত্রিক জোটের কালো পতাকা মিছিলে লাঠিপেটা করেছে পুলিশ। এ সময় পুলিশের সঙ্গে বাম দলের নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আজ সোমবার দুপুরে মৎস্য ভবন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জুনায়েদ সাকিসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। ঘটনার পর থেকে হাইকোর্ট-মৎস্যভবন এলাকার যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) উপকমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান বলেন, বাম জোটের নেতাকর্মীদের থামাতে মৎস্য ভবন এলাকায় পুলিশ ব্যারিকেড দিয়ে রাখে। ব্যারিকেড ভেঙে নেতাকর্মীরা সামনে এগোতে চাইলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ সময় বাম জোটের নেতাকর্মীরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় পুলিশের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। তাদের চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা। এর আগে, সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে সমাবেশ শেষে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে কালো পতাকা মিছিল শুরু করে বাম গণতান্ত্রিক জোট। মিছিলটি হাইকোর্ট মোড়ে গেলে পুলিশি বাধার সম্মুখীন হয়। পরে ব্যারিকেড ভেঙে মিছিলটি মৎস্য ভবন এলাকায় পৌঁছালে আবারও বাধা দেয় পুলিশ। ফের ব্যারিকেড ভেঙে নেতাকর্মীরা যেতে চাইলে শুরু হয় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। এ সময় পুলিশ লাঠিপেটা শুরু করলে বাম জোটের কর্মীরাও চড়াও হয়। এ ঘটনায় প্রায় ২০ জন আহত হয়েছেন, যাদের হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে ভোট ডাকাতি অ্যাখ্যা দিয়ে ৩০ ডিসেম্বর কালো দিবস পালনের দাবিতে বাম গণতান্ত্রিক জোট এ মিছিল করছিল। এই জোটে রয়েছে- বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, বাসদ (মার্ক্সবাদী), গণসংহতি আন্দোলন, বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টি ও বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন।
থার্টি ফার্স্ট নাইটে বাড়াবাড়ি না করার অনুরোধ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: থার্টি ফার্স্ট নাইটে আনন্দ করতে গিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি না করার অনুরোধ জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশেন (ক্র্যাবের) বার্ষিক সাধারণ সভায় এ কথা বলেন তিনি। নিরাপত্তা নিয়ে কোনো ধরনের হুমকি নেই বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় তিনি আনন্দ করতে গিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি না করার অনুরোধ জানান।
চলে গেলেন সাবেক হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভারতে দায়িত্বপালনকারী সদ্য সাবেক হাইকমিশনার, সাবেক পররাষ্ট্র সচিব ও রাষ্ট্রদূত সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। সোমবার দুপুর ১১টা ৫৫ মিনিটে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি ইন্তেকাল করেছেন তার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। ১৯৪৪ সালে সিলেটে জন্মগ্রহণ করেন মোয়াজ্জেম আলী। ১৯৬৬ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএস পাস করেন। তিনি পাকিস্তান সিভিল সার্ভিসে যোগ দেন এবং লাহোরের সিভিল সার্ভিস একাডেমিতে প্রশিক্ষণ নেন। ১৯৭৩ থেকে ১৯৭৪ সাল পর্যন্ত তিনি জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়, স্কুল অব অ্যাডভান্সড ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজে পড়াশোনা করেন । সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী ১৯৭১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে পাকিস্তানের দূতাবাসে কর্মরত ছিলেন। ওই সময় তিনি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রতি আনুগত্যের ঘোষণা দেন এবং ওয়াশিংটনে অস্থায়ী বাংলাদেশ সরকারের দূতাবাস প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি ১৯৬৮ সালে পাকিস্তান ফরেন সার্ভিসে যোগ দেন। তিনি ভুটান, ইরান ও ফ্রান্সে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করেছেন। ওয়াশিংটন, ওয়ারশ, জেদ্দার পাশাপাশি নয়াদিল্লি মিশনেও কাজ করেছেন তিনি। ২০০১ সালে পররাষ্ট্র সচিবের দায়িত্ব পালনের পর অবসরে যান এই কূটনীতিক। সর্বশেষ তিনি ভারতে বাংলাদেশ দূতাবাসে হাইকমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন।
থার্টি ফার্স্ট নাইটে ডিএমপির নিষেধাজ্ঞা
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে ইংরেজি নতুন বছর উদযাপন করতে বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এই নির্দেশনার কথা জানান ডিএমপি কমিশনার শফিকুল ইসলাম। ডিএমপি কমিশনার বলেন, আমাদের দেশের কালচারের সঙ্গে, আমাদের সংস্কৃতির সঙ্গে যায় সামঞ্জস্যপূর্ণ এমন ধরনের অনুষ্ঠান যেন আয়োজন করা হয়। সে ক্ষেত্রে আমাদের সার্বিক সহযোগিতা থাকবে। আর কোথাও আতশবাজি, পটকা এগুলো না ফোটানোর জন্য আমরা অনুরোধ করব। এ ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সন্ধ্যা ৬টার পর সকল যানবাহন প্রবেশ নিষিদ্ধ বলেও জানান শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন,নিরাপত্তার স্বার্থে পরিচয়ধারীদের তল্লাশি করে ছাড়া হবে। এ সময় নববর্ষ উপলক্ষে সারা দেশে পর্যাপ্তসংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হবে বলেও জানান ডিএমপি কমিশনার। তিনি জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ নগরের বিভিন্ন এলাকায় যারা বিস্ফারণের ঘটনা ঘটাচ্ছে তাদের অচিরেই গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে। সংবাদ সম্মেলনে মাদকের অপব্যবহার রোধ করতে বিশেষ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান শফিকুল ইসলাম।- আলোকিত বাংলাদেশ
ফের শৈত্যপ্রবাহের সঙ্গে আসছে বৃষ্টি!
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গত ১২ দিনের মধ্যে ১১ দিনই দেশের কোথাও না কোথাও শৈত্যপ্রবাহ বয়ে গেছে। তবে শীতে যারা কষ্ট পাচ্ছেন, তাদের জন্য কিছুটা হলেও সুসংবাদ দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সংস্থাটি পূর্বাভাস দিয়ে জানিয়েছে, আজ সোমবার শৈত্যপ্রবাহ থাকলেও আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে দেশের বেশির ভাগ এলাকায় তাপমাত্রা বাড়তে পারে। এতে আগামী দু-তিন দিন স্বাভাবিক শীতের অনুভূতি থাকতে পারে। তবে নতুন বছরের শুরুতে দেশের বেশির ভাগ এলাকায় আবারও গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। বিশেষ করে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলে বৃষ্টির পরিমাণ বেশি হতে পারে। এতে তাপমাত্রা কমবেশি যা-ই থাকুক, শীতের কষ্ট বাড়বে। এ বিষয়ে আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ আবদুর রহমান বলেন, কুয়াশা ও মেঘ কমে আসায় দিনের বেলা সূর্যের দেখা পাওয়া যাচ্ছে। যে কারণে তাপমাত্রাও বাড়ছে। তবে রাতের তাপমাত্রা আজও কিছুটা কমতে পারে। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহের কয়েক দিন বৃষ্টি হতে পারে। গতকাল শৈত্যপ্রবাহের বিস্তৃতি উত্তরাঞ্চল ছাড়িয়ে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমের জেলাগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আজ টাঙ্গাইল, মৌলভীবাজার ও কুষ্টিয়া অঞ্চলসহ রাজশাহী, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। তাপমাত্রা গতকাল আরও কমে এই মৌসুমের সর্বনিম্নে পৌঁছায়। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত বছর রেকর্ড সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল অবশ্য তেঁতুলিয়ায়। ওই বছর ৮ জানুয়ারিতে সেখানকার তাপমাত্রা ২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমেছিল। তীব্র শীতে নাকাল হয়ে পড়েছে পঞ্চগড়ের মানুষ। হাড়কাঁপানো শীতে চরম দুর্ভোগে পড়েছে নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া মানুষ। উত্তরের হিমেল বাতাসে কাবু হয়ে পড়েছেন দেশের সর্ব-উত্তরের এই জনপদের বাসিন্দারা। হিমালয়ের খুব কাছাকাছি জেলা হওয়ায় পঞ্চগড়ে উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে হিমবায়ু প্রবেশ করায় তাপমাত্রা ক্রমাগত কমে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদেরা। তীব্র শৈত্যপ্রবাহ আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকলেও গতকাল সকাল সাড়ে সাতটার দিকে পঞ্চগড়ে দেখা গেছে সূর্যের মুখ। স্থানীয় অধিবাসীদের দেখা গেছে রোদে বের হয়ে কিছুটা উষ্ণতা নিতে।
রাস্তা বন্ধ করে কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচি আমরা অ্যালাউ করবো না: ডিএমপি
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এক বছর পূর্তি উপলক্ষে বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি। কর্মদিবসে রাস্তা বন্ধ করলে জনদুর্ভোগ হবে বলে দলটিকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি বলে জানান ডিএমপি কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম। সোমবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি। ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এক বছর পূর্তি উপলক্ষে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আজ সমাবেশ করতে চেয়েছিল বিএনপি। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ডিএমপি কমিশনার বলেন, আমরা সমাবেশের অনুমতি দেইনি। অফিস খোলার দিনে রাস্তা বন্ধ করে কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি আমরা অ্যালাউ (অনুমোদন) করবো না। বিএনপির নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে ককটেল বিস্ফোরণ নিয়ে শফিকুল ইসলাম বলেন, এটা সাধারণ ককটেল। শক্তিশালী আইইডি না। এই ককটেল ফুটলে শুধু শব্দ করে। কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয় না। ডিএমপি কমিশনার বলেন, নয়াপল্টনের ব্যস্ততম সড়কে শত শত যানবাহন চলাচল করে। কোন গাড়ি থেকে কে এটি করছে সেটা বোঝা কঠিন। আমাদের গোয়েন্দা সংস্থা এ নিয়ে কাজ করছে। এছাড়া ওই এলাকাকে সিসি ক্যামেরার আওতায় নিয়ে আসা হবে। ইতিমধ্যে সে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
সংসদ সদস্য পদ ছাড়লেন তাপস
২৯ডিসেম্বর,রবিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মনোনয়ন পেয়ে ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করলেন শেখ ফজলে নুর তাপস। রোববার (২৯ ডিসেম্বর) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ঢাকা দক্ষিণে মেয়র প্রার্থী হিসেবে শেখ ফজলে নূর তাপসের নাম ঘোষণা করেন। এরপর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় সবার প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন,যারা দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নিয়ে আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন, তাদের ধন্যবাদ জানাই। ঢাকা ১০ আসনের আপামর জনগণকে কৃতজ্ঞতা জানাই; যারা সবসময় অনেক ভালোবাসা দিয়ে আলিঙ্গন করে আমার ওপর আস্থা রেখেছেন। এলাকার মানুষ যেমন ভালোবেসেছেন, আস্থা রেখেছেন; তেমনি দক্ষিণের সব জনগণ আস্থা রাখবে বলে আমি আশা করি। তাপস বলেন, ঐতিহ্যবাহী পুরনো ঢাকার জন্য আমি মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করব। আমার সংসদীয় এলাকার মানুষ আমাকে যেভাবে ভালোবেসেছে আমার ওপর আস্থা রেখেছে, আমি বিশ্বাস করি দক্ষিণ সিটির অন্তর্ভুক্ত সকল স্তরের মানুষ আমাকে সেভাবে ভালোবাসবে, তাদের সেবা করার সুযোগ দেবে এবং আমার ওপর আস্থা রাখবে। যাতে আমি উন্নত রাজধানী উপহার দিতে পারি। আওয়ামী লীগের এই মেয়র প্রার্থী বলেন, আগেও সংবাদ মাধ্যমে বলেছি, আমি উপলব্ধি করেছি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে উন্নত বাংলাদেশের জন্য নিরলস কাজ করে চলেছেন এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্য দিয়েছেন, এর জন্য উন্নত রাজধানী প্রয়োজন। আমি এই সুযোগটা গ্রহণ করতে চেয়েছি। এ সময় উত্তরের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হককে স্মরণ করেন ফজলে নূর তাপস। তার কাজ দেখে অনুপ্রাণিত হয়েছেন বলেও জানান তাপস। তিনি বলেন,আমি পূর্ণ সময় দক্ষিণের জনগণের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিতে কাজ করে যাব। অনেকের মনে ক্ষোভ থাকতে পারে মনোনয়ন না পাওয়ায়। দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে কেউ যাবেন না। সবার সহযোগিতা কামনা করছি।

জাতীয় পাতার আরো খবর