পটুয়াখালীতে সেনানিবাস উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
পটুয়াখালী লেবুখালীতে দেশের ৩১তম সেনানিবাস শেখ হাসিনা সেনানিবাসর উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তিনি এই সেনানিবাস উদ্বোধন করেন। দীর্ঘ ৬ বছরেরও বেশি সময় পর প্রধানমন্ত্রীর এই সফর ঘিরে বরিশাল এখন উৎসবমুখর। প্রধানমন্ত্রীর সফরে অন্তত ৪০টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ৩২টি নতুন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের কথা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সবশেষ ২০১১ সালের ২২শে ফেব্রুয়ারি বরিশালে এসেছিলেন শেখ হাসিনা। দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠনের পর এটিই তাঁর প্রথম সফর। সফরে সেনানিবাসের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন, বিভাগীয় পাসপোর্ট অফিসসহ ৪০টি প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন তিনি। সেই সঙ্গে ৩২টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনেরও কথা রয়েছে, জানিয়েছেন বরিশালের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান। প্রধানমন্ত্রীর সফর উপলক্ষে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ। বৃহস্পতিবার বিকেলে, নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জনসভায় যোগ দেবেন শেখ হাসিনা, জানান জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ।
আমরা দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি :প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের মানুষ উন্নয়নের সুফল ভোগ করতে শুরু করেছে। আমরা দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। আমরা নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু তৈরি করছি। আমরা বিদু্যতের উন্নয়ন করেছি। বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশালের বাকেরগঞ্জে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে, বরিশালের বাকেরগঞ্জের লেবুখালীতে পায়রা নদীর তীরে নবনির্মিত সাত পদাতিক ডিভিশনের `শেখ হাসিনা সেনানিবাস` উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রায় ছয় বছর পর বরিশাল সফর করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠনের পর এটাই তার প্রথম সফর। আজ বৃহস্পতিবার সকালে বরিশাল পৌঁছে প্রধানমন্ত্রী প্রথমে বাকেরগঞ্জে শেখ হাসিনা সেনানিবাস উদ্বোধন এবং ১১টি ইউনিটের পতাকা উত্তোলন করেন। পাশাপাশি সেনানিবাসের মাল্টিপারপাস হল, এসএম ব্যারাক, অফিস ভবনসহ ১৫টি স্থাপনার ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করেন তিনি। বিকেল ৩টায় বরিশালের ঐতিহাসিক বঙ্গবন্ধু উদ্যানে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় বক্তব্য দেওয়ার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর। জনসভাস্থল থেকে ৩৯টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন ও ৩৩টি ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী। তার সফর ও জনসভা উপলক্ষে সাজানো হয়েছে বরিশাল নগরীকে। প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে কেন্দ্র করে জেলায় নেওয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তাব্যবস্থা।
বরিশাল যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
ছয় বছর পর আজ বৃহস্পতিবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) বরিশাল যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার সফর ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে প্রশাসন। সফরকালে তিনি বরিশালের বাকেরগঞ্জে নির্মিত শেখ হাসিনা সেনানিবাস ও কয়েকটি স্থাপনার উদ্বোধন করবেন। এরপর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জনসভায় ভাষণ দেবেন। দীর্ঘদিন পর বরিশালে প্রধানমন্ত্রীর সফর উপলক্ষে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ। প্রিয় নেত্রীকে স্বাগত জানাতে সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিয়েছেন দলীয় নেতা কর্মী ও সমর্থকরা। সফরকে ঘিরে গোটা বরিশালেই উৎসবের আমেজ ছড়িয়ে পড়েছে। নগরীর বিভিন্ন স্থানে লাগানো হয়েছে রঙ বেরঙের ব্যানার ফেস্টুন, নির্মাণ করা হয়েছে সুদৃশ্য তোরণ। এছাড়াও শহর পরিষ্কার, ফুটপাত রঙ ও ভাঙা সড়ক সংস্কারসহ বিভিন্ন সৌন্দর্যবর্ধন কাজ করেছে সিটি করপোরেশন। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বরিশাল সফর উপলক্ষে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধিসহ শহরের বিভিন্ন স্থানে বিশেষ নিরাপত্তা টহল বৃদ্ধি ও চেকপোস্ট বসিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সফরে প্রধানমন্ত্রী সেনানিবাস উদ্বোধনসহ বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর ও বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ মোস্তফা কামাল একাডেমিক ভবন, শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি এবং বঙ্গবন্ধু, শেখ হাসিনা ও শেরেবাংলা হল, বিভাগীয় ও জেলা শিল্পকলা একাডেমি, জেলা এবং আগৈলঝাড়া, গৌরনদী, উজিরপুর, বাকেরগঞ্জ, মুলাদী, হিজলা ও মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, বানারীপাড়ার নান্দুহার নদীর ওপর নির্মিত আরসিসি সেতু, মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও শহীদ আরজু মনি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ভবন, বরিশাল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়াম ইত্যাদি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করবেন।
খালেদার রায়ের সঙ্গে সরকারের কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই :ওবায়দুল কাদের
খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপি অপরাজনীতি করছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। বুধবার সন্ধ্যা আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে খালেদার রায় নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই তিনি খালেদার অরফানেজ ট্রাস্ট সংক্রান্ত মামলার লিখিত তথ্যচিত্র তুলে ধরেন। পরে তিনি বলেন, খালেদার রায়ের সঙ্গে সরকারের কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। কাদের বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে অনেকগুলো ইনফরমেশন আছে, বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে তথ্য আছে- তারা নাশকতা করার সরঞ্জাম জড়ো করছে এবং নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড হতে পারে। এই তথ্যের ভিত্তিতে জনগণের নিরাপত্তা রক্ষা করার জন্য পুলিশকে সতর্ক হতে হয়েছে এবং নিরাপত্তা বাহিনীকে সারাদেশে কঠোর অবস্থানে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, এ মামলার রায় নিয়ে অপতৎপরতা চালানো হলে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যথাযথ ব্যবস্থা নিবে।
আগামী রোববার ইতালি সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
আগামী রোববার ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটি সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই সফরে রোমভিত্তিক ইন্টারন্যাশনাল ফান্ড ফর অ্যাগ্রিকালচার ডেভেলপমেন্টের (ইফাড) বার্ষিক গভর্নিং কাউন্সিলের বৈঠকে যোগ দেবেন তিনি। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, আগামী ১২ থেকে ১৪ ফেব্রুয়ারি এ কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে রোমভিত্তিক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ফান্ড ফর অ্যাগ্রিকালচার ডেভেলপমেন্টের বার্ষিক কাউন্সিল। সেই সভায় যোগ দিতে ইতালির প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে শেখ হাসিনা এ সফরে যাচ্ছেন। সফরকালে শেখ হাসিনা ইতালির প্রধানমন্ত্রী পাওলো জেনতিলনির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন। বৈঠকে দুই দেশের বাণিজ্য, বিনিয়োগ, পর্যটন ও পরিবেশ খাতে সহযোগিতা বিষয়ে আলোচনা হবে। এরপর ভ্যাটিকান সিটি সফরে যাবেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে ভ্যাটিকান রাষ্ট্রপ্রধান পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গেও বৈঠক করবেন।
সারা দেশে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে :আইজিপি
আগামীকাল ৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায়কে কেন্দ্র করে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে পুলিশ। কাল দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও নিয়ন্ত্রণাধীন থাকবে। আজ রাজধানীর পুলিশ সদর দপ্তরে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। প্রেস ব্রিফিংয়ে লিখিত বক্তব্যে আইজিপি বলেন, ৮ ফেব্রুয়ারি একটি মামলার রায়কে কেন্দ্র করে ঢাকাসহ সারা দেশের মানুষের মধ্যে এক ধরনের প্রচ্ছন্ন উদ্বেগ বা উৎকণ্ঠার সৃষ্টি হয়েছে বলে গণমাধ্যমসহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক, প্রিন্ট ও সোশ্যাল মিডিয়া সূত্রে জানা যাচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষা এবং জননিরাপত্তা নিশ্চিত করার স্বার্থে বাংলাদেশ পুলিশ এরই মধ্যে দেশব্যাপী সর্বাত্মক প্রচেষ্টা গ্রহণ করেছে, গ্রহণ করা হয়েছে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা পরিকল্পনা। নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে ঢাকা মহানগরীসহ সব বিভাগ, জেলা ও উপজেলায়। আমরা মনে করি আগামীকাল ৮ ফেব্রুয়ারি দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও নিয়ন্ত্রণাধীন থাকবে। আমরা আশা করি সংশ্লিষ্ট সবাই আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকবেন। তারপরও যদি কোনো ব্যক্তি বা গোষ্ঠী কর্তৃক জননিরাপত্তা ও জনশৃঙ্খলা অবনতি করার অপচেষ্টা করা হয় আমরা আইনগতভাবে তা মোকাবিলা করব। নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টির যেকোনো অপচেষ্টা পুলিশ কঠোরভাবে পেশাদারত্বের সাথে মোকাবিলা করবে। কোনো অবস্থাতেই এ ধরনের অপচেষ্টা সহ্য করা হবে না। আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, আমরা সম্মানিত দেশবাসীকে আশ্বস্ত করতে চাই, দেশের আইনশৃঙ্খলা এবং জননিরাপত্তা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ পুলিশ সক্ষম এবং প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমরা সম্মানিত নাগরিকবৃন্দকে কোনো গুজবে কান না দিয়ে অথবা ভীত না হয়ে স্বাভাবিক কার্যক্রম বজায় রাখার অনুরোধ করছি। কোথাও সন্দেহজনক কোনো কিছু পরিলক্ষিত হলে নিকটস্থ পুলিশকে অথবা জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ অবহিত করার অনুরোধ জানাচ্ছি। সর্বোপরি দেশের স্বাভাবিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বজায় রাখার স্বার্থে সম্মানিত নাগরিকগণের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করছি।
জনবহুল স্থানে ওয়াইফাই নিশ্চিত করা হবে :তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী
২০১৮ সালের মধ্যেই দেশের প্রতিটি ইউনিয়ন অপটিক্যাল ফাইভার ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগের আওতায় আসবে। বিশ্ববিদ্যালয়, মার্কেটসহ জনবহুল স্থানে ওয়াইফাই নিশ্চিত করা হবে। বুধবার অ্যালিফ্যান্ট রোডে মাল্টিপ্লাস প্লাজায় কম্পিউটার সিটি সেন্টারে তথ্যপ্রযুক্তি প্রদর্শনী ডিজিটাল আইসিটি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি বাস্তবায়নের ফলে বাংলাদেশ তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে নেতৃত্বের জায়গায় পৌঁছেছে। বাংলাদেশের সফটওয়্যার আয়ারল্যান্ড পুলিশ বিভাগসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ব্যবহার করছে। বাংলাদেশের সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়াররা দেশে বসেই জাপানের এক হাজার ফ্ল্যাট বাড়ির নিরাপত্তা দিচ্ছেন। ফেব্রুয়ারিতেই নেপাল ও নাইজেরিয়ায় বাংলাদেশ কম্পিউটার রপ্তানি করতে যাচ্ছে। এ সময় তিনি দেশব্যাপী ইন্টারনেট সুপার হাইওয়ে তৈরি করার আশাবাদও ব্যক্ত করেন। মোস্তাফা জব্বার আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন সূচিত হয়েছে। আমরা কম্পিউটার আমদানিকারক দেশ থেকে এখন রপ্তানিকারক দেশে পরিণত হয়েছি। তথ্যপ্রযুক্তি থেকে বাংলাদেশ আটশ মিলিয়ন ডলার আয় করছে। দেশে এখন প্রায় সাড়ে আট কোটি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। ব্রডব্যান্ডের মূল্য প্রতি জিবিপিএস ২৭ হাজার টাকা থেকে কমিয়ে প্রায় তিনশ টাকায় নির্ধারণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, ইন্টারনেট এখন নতুন প্রজন্মের শক্তি। ইন্টারনেট সম্প্রসারণের পাশাপাশি ইন্টারনেট নিরাপত্তা নিয়েও আমরা কাজ করছি। নিরাপদ ইন্টারনেট নিশ্চিত করতেও আমরা সক্ষম হবো। দেশে ফেসবুক ব্যবস্থাপনার নিজস্ব কোনো প্রযুক্তি নেই। আমরা এ বছরের মাঝামাঝি তা অর্জনে সক্ষম হবো। অনুষ্ঠানে ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের উপাচার্য অধ্যপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী, বৃহত্তর অ্যালিফ্যান্ট রোড দোকান মালিক সমিতির প্রধান উপদেষ্টা মোস্তফা মহসীন মন্টু, এফবিসিসিআই সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন), মো. হেলাল উদ্দিন, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সভাপতি আলী আশফাক এবং ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার ২০১৮ এর আহ্বায়ক তৌফিক এহসান বক্তৃতা করেন। পরে মন্ত্রী ডিজিটাল আইসিটি মেলার উদ্বোধন করেন এবং মেলায় বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন।
সোহেলকে গ্রেফতার কর হয়নি :ডিএমপি
বিএনপি নেতা হাবিবুন-নবী খান সোহেলকে গ্রেফতার কর হয়নি। বিএনপির পক্ষ থেকে যে প্রোপাগান্ডা চালানো হচ্ছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, অপপ্রচার।এসব কথা বলেছেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।বুধবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ডিএমপি হেড কোয়ার্টারে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। ডিএমপি কমিশনার বলেন, পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেনি।বিভিন্ন মাধ্যমে যে খবরগুলো আসেতেছে তা সত্য নয়। আমি সব ইউনিটের সঙ্গে কথা বলেছি, কেউ তাকে গ্রেফতার করেনি। জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করার জন্য এরকম অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।গণগ্রেফতারের অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ বিষয়ে তিনি বলেন, কোনো গণগ্রেফতার হচ্ছে না।৩০ জানুয়ারি পুলিশ ভ্যানে হামলা চালিয়ে আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা ভিডিও ফুটেজ দেখে দেখে গ্রেফতার করা হচ্ছে।

জাতীয় পাতার আরো খবর