এ কেমন নিষ্ঠুর শিশু হত্যা!
৬জুলাই২০১৯,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীর ওয়ারীতে সন্ধ্যায় সামিয়া আফরিন সায়মার (৭) নিখোঁজের পর মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় মামলা হয়েছে। শনিবার (৬ জুলাই) সকালে শিশুটির বাবা আব্দুস সালাম অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে ওয়ারী থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশের ওয়ারী জোনের সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ সামসুজ্জামান মামলার তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। এদিকে ঘটনার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়ি দারোয়ানসহ চারজনকে পুলিশ আটক করেছে বলে জানা যায়। ওয়ারী থানার এসআই হারুনুর রশিদ জানান, শিশু সামিয়ার গলায় দাগ রয়েছে। এছাড়া ঠোঁটে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তাক্ত চিহ্ন পাওয়া গেছে। তাকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পুলিশ বলছে, শুক্রবার রাতে একটি বহুতল ভবনের নয় তলার ফাঁকা ফ্ল্যাটে সায়মার মরদেহ পাওয়া যায়। ওই ভবনের ষষ্ঠ তলায় সায়মা তার পরিবারের সঙ্গে থাকত। এর আগে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় ওয়ারীর বনগ্রাম মসজিদ এলাকার একটি নির্মাণাধীন ভবন শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত সায়মা সিলভারডেল স্কুলের ছাত্রী ছিল। নবাবপুরে ব্যবসা করেন তার বাবা আব্দুস সালাম। জানা যায়, গতকাল শুক্রবার মাগরিবের নামাজের আগে থেকে সায়মা নিখোঁজ হন। পরে তার মরদেহ নির্মাণাধীন ভবনের অষ্টম তলার একটি কক্ষ থেকে উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানায়, তাদের ধারণা মেয়েটিকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়। -আলোকিত বাংলাদেশ
সোমবার সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী
৬জুলাই২০১৯,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: চীনে পাঁচদিনের সরকারি সফর নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করতে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার বিকেল ৪টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এই সংবাদ সম্মেলন শুরু হবে বলে জানিযেছেন প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতা লেখক মো. নজরুল ইসলাম। খবর বাসসের ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) বার্ষিক মিটিংয়ে যোগাদানসহ চীনের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে আলোচনার উদ্দেশ্যে গত ১ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাঁচদিনের সরকারি সফরে চীনে যান। বৃহস্পতিবার চীনের গ্রেট হল অব পিপলে দেশটির প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংয়ের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠক শেষে দুই নেতার উপস্থিতিতে বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার অংশ হিসেবে ৯টি চুক্তি স্বাক্ষর হয়। উভয় দেশের মন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসব চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। শুক্রবারই বেইজিংয়ের দিয়ায়োতাই রাষ্ট্রীয় অতিথিশালায় চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া তিনি একই স্থানে চীনা প্রেসিডেন্টের দেওয়া এক ভোজ সভায় যোগ দেন। চীন সফর শেষে বেইজিং ক্যাপিটাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে স্থানীয় সময় শনিবার সকাল ১১টার দিকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তাকে বহনকরা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ভিভিআইপি ফ্লাইটটি বাংলাদেশ সময় শনিবার দুপুরে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর অবতরণ করবে বলে আশা করা হচ্ছে।
আজ দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী
৬জুলাই২০১৯,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংর আমন্ত্রণে চীনে তার ৫ দিনের সরকারি সফর শেষে আজ শনিবার (৬ জুলাই) দেশে ফিরবেন। স্থানীয় সময় বেলা ১১টায় প্রধানমন্ত্রী এবং তার সফরসঙ্গীদের নিয়ে বাংলাদেশ বিমানের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইট (বিজি-১৭২৩) ঢাকার উদ্দেশে বেইজিং ক্যাপিটাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করবে। বিমানটির বাংলাদেশ সময় অপরাহ্নের পর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের কথা রয়েছে। খবর বাসসের চীন সফরে চীনের প্রেসিডেন্ট জিং জিনপিং এবং প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি চীনের দালিয়ান শহরে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) অ্যানুয়াল মিটিংয়ে যোগদান করেন এবং কোঅপারেশন ইন দি প্যাসিফিক রিম শীর্ষক প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে মিয়ানমারকে বোঝানোর বিষয়ে বেইজিং ঢাকাকে আশ্বস্ত করে। দীর্ঘায়িত রোহিঙ্গা সমস্যা দ্রুত সমাধানের বিষয়ে বৈঠকে চীনের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে একমত পোষণ করে বলেন,এতে কোন সন্দেহ নাই যে, এটা (রোহিঙ্গা সমস্যা) বাংলাদেশের জন্য একটি বড় সমস্যা। তিনি এই সমস্যা দ্বিপাক্ষিক সমাধানের পক্ষে নিজস্ব অভিমত ব্যক্ত করে এ বিষয়ে চীনের সহযোগিতা অব্যাহত রাখার কথাও উল্লেখ করেন। বেইজিংয়ে অবস্থানকালিন শেখ হাসিনা কমিউনিস্ট পার্টি অব চায়নার (সিপিসি) মিনিস্টার ফর ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স সঙ্গ তায়োর সঙ্গেও সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এ সময় সিপিসি মিনিস্টার প্রলম্বিত রোহিঙ্গা সমস্যাটি সমাধানের বিষয়ে মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সূকী এবং অন্যান্য মিয়ানমারের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে তাঁর দলের আলোচনার বিষয়ে শেখ হাসিনাকে আশ্বস্থ করেন। প্রধানমন্ত্রীর এই সফরে ঢাকা এবং বেইজিংর মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা সংক্রান্ত ৯টি চুক্তি স্বাক্ষর হয়। ৪ জুলাই চীনা প্রধানমন্ত্রী এবং ক্ষমতাসীন সিপিসির কার্যালয় গ্রেট হল অব দ্যা পিপলে চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিংয়াং এর সঙ্গে শেখ হাসিনার দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে শেষে দুই নেতার উপস্থিতিতে এই চুক্তিগুলো স্বাক্ষরিত হয়। যার মধ্যে রয়েছে- রোহিঙ্গাদের খাদ্য সহায়তার জন্য এলওসি (লেটার অব এক্সচেঞ্জ) এবং অর্থনৈতিক ও কারিগরি সহযোগিতা, বিনিয়োগ, বিদ্যুৎ, সংস্কৃতি এবং পর্যটন সংক্রান্ত চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক। রোহিঙ্গা শরণার্থীদের খাদ্য সাহায্য সংক্রান্ত এলওসির আওতায় মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের জন্য চীন ২ হাজার ৫শ মেট্রিক টন চাল সরবরাহ করবে বলে পররাষ্ট্র সচিব জানান। স্বাক্ষরিত অন্য দলিলগুলো হলো- ২.সাংস্কৃতিক বিনিময় ও পর্যটন কর্মসূচি নিয়ে সমঝোতা স্মারক। ৩.ইয়ালু ঝাংবো ও ব্রহ্মপুত্র নদীর তথ্য বিনিময় সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক ও তা বাস্তবায়নের পরিকল্পনা। ৪.ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ ও শক্তিশালীকরণ নিয়ে ফ্রেমওয়ার্ক এগ্রিমেন্ট। ৫. বাংলাদেশ ও চীন সরকারের মধ্যে অর্থনীতি ও কারিগরি সহযোগিতা বিষয়ক চুক্তি। ৬. ইনভেস্টমেন্ট কোঅপারেশন ওয়ার্কিং গ্রুপ প্রতিষ্ঠা নিয়ে সমঝোতা স্মারক। ৭.পিজিসিবি প্রকল্পের আওতায় বিদ্যুৎ গ্রিড নেটওয়ার্ক জোরদার প্রকল্পের জন্য ফ্রেমওয়ার্ক এগ্রিমেন্ট। ৮. ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ ও শক্তিশালীকরণ নিয়ে গভর্নমেন্ট কনসেশনাল লোন এগ্রিমেন্ট। ৯. ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ ও শক্তিশালীকরণ নিয়ে প্রিফারেনশিয়াল বায়ার্স ক্রেডিট লোন এগ্রিমেন্ট। এ ছাড়াও শেখ হাসিনা ডব্লিউইএফর প্রতিষ্ঠাতা এবং নির্বাহী চেয়ারম্যান ক্লাউস সোয়াব এবং বিভিন্ন চীনা কম্পানার সিইওদের সঙ্গেও বৈঠক করেন। তা ছাড়াও তিনি প্রবাসী বাংলাদেশীদের আয়োজনের অনুষ্ঠিত নাগরিক সংবর্ধনায় যোগ দেন এবং তিয়েনমেন স্কয়ারে চীনা বিপ্লবের বীরদের স্মৃতিস্তম্ভে পুস্পাঞ্জলি অর্পণ করে তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। প্রসঙ্গত, শেখ হাসিনা গত ১ জুলাই ৫ দিনের সরকারি সফরে ঢাকা থেকে চীনে পৌঁছেন।
রাজধানীতে বাসচাপায় পুলিশের এএসআই নিহত
৬জুলাই২০১৯,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বাসচাপায় খাইরুল (৩০) নামে ট্রাফিক পুলিশের এক সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) নিহত হয়েছেন। খাইরুল দায়িত্বরত অবস্থায় ছিলেন। শুক্রবার (৫ জুলাই) দিনগত রাত আড়াইটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন যাত্রাবাড়ী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহিম। আব্দুর রহিম জানান, রাতে যাত্রাবাড়ী থানার সামনের রাস্তায় দায়িত্ব পালন করছিলেন খাইরুল। এ সময় ভৈরব নামের একটি বাস তাকে ধাক্কা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। এ অবস্থায় স্থানীয়রা ওই পুলিশ সদস্যকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ৩টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তিনি জানান, নিহতের মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।
দুদকের সহকারী পরিচালক সাইদুজ্জামান সাময়িক বরখাস্ত
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক মো. সাইদুজ্জামানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) দুপুরে দায়িত্ব অবহেলা ও অসদাচারণের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। জানা গেছে, দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় আকস্মিকভাবে কমিশনের প্রধান কার্যালয়ের তৃতীয় তলায় স্থাপিত অভিযোগ কেন্দ্র (হটলাইন ১০৬) পরিদর্শনে যান। এসময় তিনি সহকারী পরিচালক মো. সাইদুজ্জামানকে কোনো প্রকার অনুমতি ছাড়াই অনুপস্থিত পান। তাৎক্ষণিকভাবে কমিশনের প্রধান নির্বাহী ও চেয়ারম্যান কমিশনের প্রশাসন অনুবিভাগকে ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। এ পরিস্থতিতে ওই কর্মকর্তার কার্যকলাপে দুর্নীতি দমন কমিশনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে বিধায় তাকে দুর্নীতি দমন কমিশন চাকরি বিধিমালা, ২০০৮ এর বিধি অনুযায়ী দায়িত্ব পালনে অবহেলা ও অসদাচরণ এর অভিযোগে চাকরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।
লাইফ সার্পোটে এরশাদ
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল সোয়া ৪টায় তাকে লাইফ সার্পোটে নেয়া হয়। বিষয়টি জানিয়েছেন জাপার সাবেক মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলু। এদিকে শুক্রবার বাদ জুমা বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে পল্লীবন্ধুর সুস্থতা কামনায় দোয়া শেষে গণমাধ্যমকে ব্রিফ করবেন জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের এমপি। এর আগে বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী অফিসে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে সর্বশেষ গণমাধ্যমকে ব্রিফিং করেন জিএম কাদের। চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, চিকিৎসকদের প্রত্যাশানুযায়ী শারীরিক উন্নতি হচ্ছে না পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের। তবে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) চিকিৎসকরা তাকে বিশ্বমানের চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন। এখানকার চিকিৎসকরা দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেই পল্লীবন্ধুর চিকিৎসা দিচ্ছেন। সিএমএইচের চিকিৎসকরা মনে করলেই তাকে বিদেশ নেয়া হবে অথবা বিদেশ থেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাকা হবে। জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, এরশাদের ফুসফুসের সংক্রমণ প্রত্যাশানুযায়ী কমছে না। প্রয়োজন অনুযায়ী কিডনি কাজ করছে না। এ কারণে তার শরীরে কিছুটা পানি জমেছে। কিন্তু সিএমএইচের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে চিকিৎসা দিতে। তিনি বলেন, পল্লীবন্ধুকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা। আগামীকাল শুক্রবার দেশের সব মসজিদ, মন্দির, গির্জা, প্যাগোডাসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের রোগমুক্তি ও সুস্থতা কামনায় দোয়া প্রার্থনা করতে দলীয় নেতাকর্মী এবং দেশবাসীর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান।
তারেক রহমানই বিএনপিকে একবারে ধ্বংস করে দিচ্ছেন :তথ্যমন্ত্রী
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:লন্ডন সফররত তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, 'বিএনপি এবং তাদের রাজনীতি ধ্বংস করার জন্য আওয়ামী লীগকে কিছুই করতে হচ্ছেনা। বরং আদালতে সাজাপ্রাপ্ত, দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত লন্ডনে বসবাসরত অপরাধী তারেক রহমানই বিএনপিকে একবারে ধ্বংস করে দিচ্ছেন।' বুধবার সন্ধ্যায় যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগ আয়োজিত লন্ডনের জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, 'বিগত সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী দিয়েও বিএনপি মূলত নির্বাচন করেনি। তার কারণ হল, আওয়ামীলীগের উন্নয়ন, সুশাসন, অর্থনৈতিক বিপ্লব, গরীব জনগণের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন। তারেক রহমান লন্ডনে বসে স্কাইপের মাধ্যমে বিএনপির রাজনীতি করেন, বক্তব্য দেন, যা বাংলাদেশের মহামান্য আদালত দেশে প্রচার নিষিদ্ধ করেছেন। অবৈধভাবে হাজার হাজার কোটি টাকার মনোনয়ন বাণিজ্য করা যার মতলব, সে কি করে দলকে ক্ষমতায় আনবে!' তিনি আরও বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বিশ্বের মধ্যে ব্যতিক্রম এই কারণে যে, তিনিই প্রথম স্বামী-পরিত্যক্তা, বিধবা গরীব নারীদের ভাতা চালু করেছেন। স্বামী-পরিত্যক্তা নারীকে ভাতা দেওয়া, বিশ্বের কোথাও নেই। বাংলাদেশ এখন আর বিশ্বে তলাবিহীন গরীব দেশ হিসেবে শিরোনাম হয়না, হয় বিশ্বে যখন বাংলাদেশের নারীরা ফুটবলে চমক লাগিয়ে দেয়, ক্রিকেটে বিশ্বকাপে যখন অঘটন ঘটিয়ে ফেলে, তথ্যপ্রযুক্তি এবং অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে ৭ এর ঘর অতিক্রম করে, তখন শিরোনাম হয় বাংলাদেশ। আর এসবই কেবল তখনই হয়, একজন শেখ হাসিনা যখন আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হন, দেশের নেতৃত্ব দেন।' সভাশেষে লন্ডন টাইমসের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, 'স্মার্ট কার্ড এবং সকল নাগরিক সেবা যেভাবে ও যে পদ্ধতিতে দিলে জনগণ এবং সকলের কাছে সহজে পৌঁছে যায়, আওয়ামীলীগ সরকার সেভাবেই কাজ করছে।' অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'তারেক রহমান সাজাপ্রাপ্ত আসামি। তাকে বাংলাদেশে প্রত্যর্পণের ব্যাপারে ব্রিটিশ সরকার বাংলাদেশ সরকারকে সহায়তা করবে বলে আশা করি।' যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান শরীফের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুকের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সংসদ সদস্য এডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, যুগ্ম-সম্পাদক নঈমুদ্দিন রিয়াজ, আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা হরমুজ আলী, আবদুল আহাদ চৌধুরী, মহিলা যুবলীগ নেত্রী সাজিয়া সুলতানা স্নিগ্ধাসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিক লীগ ও ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ। এর আগে, এক সপ্তাহের সরকারি সফরে মঙ্গরবার লন্ডনে পৌঁছান তথ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি যুক্তরাজ্যের সিভিল সার্ভিস কলেজ ও বিবিসি'র সদর দপ্তর পরিদর্শন করেন। বিবিসি বাংলায় একটি সাক্ষাতকারও দেন। বৃহস্পতিবার তিনি যুক্তরাজ্যের চেয়ারম্যান অব পার্লামেন্টারি স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিজিটাল, কালচারাল, মিডিয়া এন্ড স্পোর্টস ডেমিয়েন কলিন্স'র সঙ্গে বৈঠকে দুই দেশের তথ্য, গণমাধ্যম, সংস্কৃতি ও ডিজিটাল প্রযুক্তি বিষয়ক সহায়তাবৃদ্ধির বিষয়ে আলোচনা করেন। যুক্তরাজ্য থেকে বেলজিয়াম ও ফ্রান্স সফরকালে ব্রাসেলসে বসবাসরত বাঙালি জনগোষ্ঠীর সঙ্গে সভা ও প্যারিসে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের সদস্যদের প্রশিক্ষণ পরিদর্শন করবেন ড. হাছান মাহমুদ। সফরশেষে ৯ জুলাই মঙ্গলবার তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।
বাংলাদেশ-চীনের মধ্যে ৯ চুক্তি স্বাক্ষর
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: রোহিঙ্গাদের খাদ্য সহায়তার জন্য এলওসিসহ (লেটার অব এক্সচেঞ্জ) বাংলাদেশ এবং চীনের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার অংশ হিসেবে ৯টি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। বৃহস্পতিবা (৪ জুলাই) সকালে চীনের গ্রেট হল অব পিপলে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংয়ের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক শেষে এই চুক্তিগুলো স্বাক্ষরিত হয়। খবর বাসসের। বৈঠক শেষে দুই নেতার উপস্থিতিতে উভয় দেশের মন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এতে স্বাক্ষর করেন। বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক একথা জানান। চুক্তিগুলো হলো- ১. রোহিঙ্গা শরণার্থীদের খাদ্য সাহায্য সংক্রান্ত এলওসি। এর আওতায় মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের জন্য চীন দুই হাজার ৫০০ মেট্রিক টন চাল সরবরাহ করবে বলে পররাষ্ট্র সচিব জানান। ২. সাংস্কৃতিক বিনিময় ও পর্যটন কর্মসূচি নিয়ে সমঝোতা স্মারক। ৩. ইয়ালু ঝাংবো ও ব্রহ্মপুত্র নদীর তথ্য বিনিময় সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক ও তা বাস্তবায়নের পরিকল্পনা। ৪. ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ ও শক্তিশালীকরণ নিয়ে ফ্রেমওয়ার্ক এগ্রিমেন্ট। ৫. বাংলাদেশ ও চীন সরকারের মধ্যে অর্থনীতি ও কারিগরি সহযোগিতা বিষয়ক চুক্তি। ৬. ইনভেস্টমেন্ট কো-অপারেশন ওয়ার্কিং গ্রুপ প্রতিষ্ঠা নিয়ে সমঝোতা স্মারক। ৭. পিজিসিবি প্রকল্পের আওতায় বিদ্যুৎ গ্রিড নেটওয়ার্ক জোরদার প্রকল্পের জন্য ফ্রেমওয়ার্ক এগ্রিমেন্ট। ৮. ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ ও শক্তিশালীকরণ নিয়ে গভর্নমেন্ট কনসেশনাল লোন এগ্রিমেন্ট। ৯. ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ ও শক্তিশালীকরণ নিয়ে প্রিফারেনশিয়াল বায়ার্স ক্রেডিট লোন এগ্রিমেন্ট।
নয়ন বন্ড একদিনে তৈরি হয়নি, তাকে তৈরি করা হয়েছে: হাইকোর্ট
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বরগুনা সদরে রাস্তায় ফেলে প্রকাশ্য দিবালোকে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরিফকে হত্যার নায়ক নয়ন বন্ড একদিনে তৈরি হয়নি, তাকে তৈরি করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে হাইকোর্ট। রিফাত হত্যাকাণ্ড ও নয়ন বন্ড তৈরির নেপথ্যে কারা রয়েছে তা খতিয়ে দেখার নির্দেশও দিয়েছেন আদালত। রিফাত শরীফকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার অগ্রগতি বিষয়ে বৃহস্পতিবার সকালে বরগুনা জেলার ডিসি ও এসপির প্রতিবেদন হাইকোর্টে জমা দেয়া হয়। প্রতিবেদন হাতে পেয়ে এ মন্তব্য করেন হাইকোর্ট। প্রতিবেদনে মামলার পাঁচ আসামি ও সন্দেহভাজন কয়েকজনসহ মোট ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে প্রতিবেদনে। প্রতিবেদনের অগ্রগতির শুনানিতে আদালত সন্তোষ প্রকাশ করেন। আদালত বলেন, বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড আদালত পছন্দ করেন না। হত্যার বিষয়টি পুলিশকে নিজের মত তদন্ত করার নির্দেশ দেন আদালত। এর আগে গত ২৭ জুন রিফাত হত্যা মামলার প্রতিবেদনের অগ্রগতি জানানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড গত ২ জুলাই বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন। এর পরের দিন দ্বিতীয় আসামি রিফাত ফরাজীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ দিনই তার বিরুদ্ধে ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী। এ মামলার এজাহারভুক্ত গ্রেফতাররা হলেন মামলার ২ নম্বর আসামি রিফাত ফরাজী (২৩), ৪ নম্বর আসামি চন্দন (২১), ৯ নম্বর আসামি মো. হাসান (১৯), ১১ নম্বর আসামি মো. অলিউল্লাহ অলি (২২) ও ১২ নম্বর আসামি টিকটক হৃদয় (২১)। এ ছাড়া রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে ভিডিও ফুটেজ ও অন্যান্য তথ্যের ভিত্ততে সন্দেহভাজন গ্রেফতাররা হলেন মো. নাজমুল হাসান (১৯), তানভীর (২২), মো. সাগর (১৯), কামরুল হাসান সাইমুন (২১) ও রাফিউল ইসলাম রাব্বি। প্রসঙ্গত, ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে বরগুনা সরকারি কলেজে নিয়ে যান রিফাত। কলেজ থেকে ফেরার পথে মূল ফটকে নয়ন, রিফাত ফরাজীসহ দুর্বৃত্তরা রিফাত শরীফের ওপর হামলা চালায়। এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিফাত শরীফকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে তারা। মিন্নি স্বামীকে বাঁচানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। পরে স্থানীয় লোকজন রিফাত শরীফকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে রিফাত শরীফের মৃত্যু হয়। রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি জানান, বরগুনা পৌরসভার ধানসিঁড়ি সড়কের আবুবকর সিদ্দিকের ছেলে নয়ন বন্ড ও তার প্রতিবেশী দুলাল ফরাজীর দুই ছেলে রিফাত ফরাজী ও রিশান ফরাজী এবং রাব্বি আকন তার স্বামীর ওপর হামলা করে। তিনি বলেন, আমার সামনে ওই সন্ত্রাসীরা রিফাতকে কুপিয়ে হত্যা করে। আমি শতচেষ্টা করেও আমার স্বামীকে বাঁচাতে পারিনি। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আয়শা আক্তার মিন্নির সঙ্গে দুই মাস আগে রিফাত শরীফের বিয়ে হয়। বুধবার রিফাত ও তার স্ত্রী মিন্নি সকাল ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় ওঁৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা রাম দা নিয়ে রিফাতের ওপর চড়াও হয়। রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ অভিযোগ করেছেন, পরিকল্পিতভাবে তার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বলেন, নয়ন প্রতিনিয়ত আমার পুত্রবধূকে উত্ত্যক্ত করত এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপত্তিকর পোস্ট দিত। এর প্রতিবাদ করায় আমার ছেলেকে নয়ন তার দলবল নিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে। আমার একমাত্র ছেলেকে যারা দিনে-দুপুরে কুপিয়ে হত্যা করেছে, তাদের বিচার চাই। এ ঘটনায় ১২ জনকে আসামি করে আমি মামলা করেছি। পুলিশ যেন তাদের সবাইকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনে।- আলোকিত বাংলাদেশ

জাতীয় পাতার আরো খবর