রবিবার, ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২১
শহীদ মিনারে একসঙ্গে ৫ জনের বেশি নয়: ডিএমপি কমিশনার
১৮,ফেব্রুয়ারী,বৃহস্পতিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে দল পর্যায়ে সর্বোচ্চ পাঁচজন ও ব্যক্তি পর্যায়ে দুইজনের বেশি প্রবেশ করা যাবে না বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। ডিএমপি কমিশনার বলেন, সুনির্দিষ্ট কোনও হুমকি নেই। তারপরও জঙ্গি কার্যক্রমের ওপর কঠোর নজরদারি রাখা হবে। একই সাথে এদিন শহীদ মিনার কেন্দ্রিক তিন স্তর বিশিষ্ট নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে এসব কথা বলেন তিনি। মাস্ক ছাড়া শহীদ মিনারে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না জানিয়ে ডিএমপি কমিশনার বলেন, বিশেষ পরিস্থিতিতে আমরা এবার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করতে যাচ্ছি। চারিদিকে করোনা পরিস্থিতি, ভ্যাকসিনেশন চলছে, তাতে ভীতি রয়েছে। তাই একজন ব্যক্তিও মাস্ক ছাড়া শহীদ মিনারে প্রবেশ করতে পারবেন না। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও শহীদ মিনার এলাকায় যান চলাচল বরাবরের মতো নিয়ন্ত্রণ করা হবে। সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে। তিনি বলেন, এবার পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থার পাশাপাশি পুলিশের এলিট ফোর্স র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের সদস্যরাও থাকবেন। শহীদ মিনার ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার প্রতিটি ইঞ্চি জায়গা সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে নজরদারি করা হবে। এজন্য ডিএমপি কন্ট্রোল রুম থেকে তা মনিটরিং করা হবে। পাশাপাশি বোম ডিসপোজাল ইউনিট, সোয়াটসহ অন্যান্য ইউনিটগুলো সক্রিয় থাকবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন কাউন্টার টেরোরিজম প্রধান ও ডিএমপি’র অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম, গোয়েন্দা প্রধান এ কে এম হাফিজ আক্তার, অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম) কৃঞ্চপদ রায়সহ পুলিশে অন্য কর্মকর্তারা।
কঠোর হাতে খাদ্যে ভেজাল বন্ধ করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ
১৮,ফেব্রুয়ারী,বৃহস্পতিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: কঠোর হাতে খাদ্যে ভেজাল বন্ধ করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে জাতীয় নিরাপদ খাদ্য দিবস-২০২১ উপলক্ষে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে আয়োজিত অনুষ্ঠান থেকে এ নির্দেশ দেন তিনি। ভেজাল বন্ধে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, একদিকে যেমন তাদের বোঝানো, তাদের ভেতরে সচেতনতা সৃষ্টি, অপরদিকে কঠোর হস্তে সেটা দমনও করতে হবে। দুই দিকেই ব্যবস্থা নেওয়া একান্তভাবে দরকার। সেই ব্যবস্থা আপনাদের নিতে হবে। এ বিষয়ে ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, ভেজালের ব্যাপারে আমি বলবো যে যারা ব্যবসা করতে চায় বা ব্যবসা করছে, দুই পয়সা বেশি কামাই করার জন্য তারা এ ভেজাল দিতে থাকে বা পঁচা গন্ধ খাবার আবার ব্যবহার করে। এ ব্যাপারে একদিকে যেমন সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। আপনাদের যেটা খরচ হবে, সেটা নিয়েন, লাভের অংশটা ওভাবে হিসেব করেন। কিন্তু এভাবে ভেজাল দিয়ে মানুষের ক্ষতি করবেন না। অনলাইনে খাদ্য সরবরাহকারীদের ওপর নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশ দিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, অনলাইনে কিন্তু অনেক কেনা বেচা হচ্ছে। এমনকি খাবারও ঘরে ঘরে সাপ্লাই দেওয়া হচ্ছে। যারা করছে, সঠিক খাদ্যটা দিচ্ছে কি না, সে ব্যাপারে নজরদারি বাড়ানো একান্ত প্রয়োজন।
একুশে পদক দেয়া হবে শনিবার
১৮,ফেব্রুয়ারী,বৃহস্পতিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: এ বছরের একুশে পদক দেয়া হবে আগামী শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি)। ওইদিন বেলা ১১টায় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে পদক হস্তান্তর অনুষ্ঠান হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হবেন। বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) এক সরকারি তথ্য বিবরণীতে এ কথা জানানো হয়েছে। এর আগে ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ সালের একুশে পদকপ্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করা হয়। বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য ২১ জন বিশিষ্ট নাগরিককে এ বছর একুশে পদক দেয়া হচ্ছে। এ বছর ভাষা আন্দোলনে তিনজন, মুক্তিযুদ্ধ ক্যাটাগরিতে তিনজন, শিল্পকলায় সাতজন, ভাষা ও সাহিত্যে তিনজন, সাংবাদিকতা, শিক্ষা, গবেষণা ও অর্থনীতিতে একজনকে একুশে পদক দেয়া হবে।
আল জাজিরার প্রতিবেদন ফেসবুক ও ইউটিউব থেকে সরানোর নির্দেশ
১৭,ফেব্রুয়ারী,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: কাতারভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল আল জাজিরায় বাংলাদেশকে নিয়ে করা প্রতিবেদন ফেসবুক-ইউটিউবসহ সকল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে দ্রুত সরাতে বিটিআরসিকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চে এ আদেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেন আইনজীবী ব্যারিস্টার রেজা-ই রাকিব। আদালতে আজ রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন শুনানি করেন। অন্যদিকে বিটিআরসির পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রেজা-ই রাকিব। আদালতে আজ আরও সংযুক্ত ছিলেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার নওরোজ মো. রাসেল চৌধুরী ও বিটিআরসির পক্ষে ব্যারিস্টার রেজা-ই রাকিব। রিটের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার এনামুল কবীর ইমন। তার সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার ফারজানা শায়লা। গত ৮ ফেব্রুয়ারি আল জাজিরার সম্প্রচার বন্ধ এবং বাংলাদেশকে নিয়ে করা প্রতিবেদন ফেসবুক ও ইউটিউব থেকে সরানোর নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার এনামুল কবীর ইমন। রিটে সংবাদমাধ্যমটির প্রচারিত অল দ্য প্রাইম মিনিস্টার্স মেন প্রতিবেদনটি ইউটিউব, টুইটার, ফেসবুকসহ সব অনলাইন প্ল্যাটফর্ম থেকে অপসারণ করার নির্দেশনা চাওয়া হয়। রিটে ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব, তথ্য ও প্রযুক্তি সচিব, বিটিআরসির চেয়ারম্যান, পুলিশ মহাপরিদর্শকসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে। ১০ ফেব্রুয়ারি আল জাজিরার প্রতিবেদন বিষয়ে মতামত শুনতে ছয়জন অ্যামিকাস কিউরি নিয়োগ দেন হাইকোর্ট। পরে ১৫ ফেব্রুয়ারি আইনজীবী এজে মোহাম্মদ আলী, কামালুল আলম, প্রবীর নিয়োগী, ব্যারিস্টার ফিদা এম কামাল, আব্দুল মতিন খসরু ও শাহদীন মালিক হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট ভার্চুয়াল বেঞ্চে অ্যামিকাস কিউরি (আদালতের বন্ধু) হিসেবে তাদের মতামত তুলে ধরেন। আল জাজিরায় গত ১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ নিয়ে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন সম্প্রচারিত হয়, যা ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করেছে। প্রতিবেদনে উচ্চপর্যায়ের ব্যক্তিদের দুর্নীতিতে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়। সরকারিভাবে এই প্রতিবেদনের তীব্র প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।
আবুল হাসনাতের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক
১৭,ফেব্রুয়ারী,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবুল হাসনাতের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় থেকে পাঠানো শোক বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়। শোকবার্তায় বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৩টার দিকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আবুল হাসনাত মারা যান। তিনি দীর্ঘদিন নানা রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। স্ত্রী, দুই ছেলে ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন তিনি। আবুল হাসনাত ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সদ্য বিদায়ী সভাপতি ও দলটির কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য। এর আগে তিনি দীর্ঘদিন বৃহত্তর লালবাগ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। সাবেক সভাপতি আবুল হাসনাতের মৃত্যুতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী ও সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির শোক প্রকাশ করেছেন।
যুক্তরাজ্যে ২০২৭ সাল পর্যন্ত জিএসপি সুবিধা পাবে বাংলাদেশ
১৭,ফেব্রুয়ারী,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: যুক্তরাজ্যে ২০২৭ সাল পর্যন্ত অগ্রাধিকার বাজার সুবিধা (জিএসপি) পাবে বাংলাদেশ বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটার্টন ডিকসন। বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্য প্রথম বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্মেলন নিয়ে ব্রিটিশ হাইকমিশনে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটার্টন ডিকসন জানান, দুই ধাপে তিন বছর করে যুক্তরাজ্যের বাজারে জিএসপি সুবিধা পাবে। প্রথম ধাপে ২০২৪ সাল আর দ্বিতীয় ধাপে ২০২৭ সাল পর্যন্ত জিএসপি সুবিধা পাবে।
দেশ এগোতে থাকলেই আঘাত আসার আশঙ্কা থাকে: প্রধানমন্ত্রী
১৬,ফেব্রুয়ারী,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যখনই দেশ এগিয়ে যেতে থাকে, মানুষ ভালো থাকার স্বপ্ন দেখতে শুরু করে, তখনই একটা আঘাত আসার আশঙ্কা থাকে। তেমন কোনো আঘাত মোকাবিলার জন্য সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান তিনি। মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় তিনি এ আহ্বান জানান। গণভবন থেকে তিনি সভায় ভার্চ্যুয়ালি যোগ দেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুদ্ধ বিধ্বস্ত বাংলাদেশে যখন ভালো পরিবেশ সৃষ্টি হলো, ব্যাপকভাবে ফসল উৎপাদন হলো, কল-কারখানা চালু হলো, উন্নয়নের পথে দেশ এগিয়ে যেতে লাগলো, তখনই ১৫ই আগস্টের মতো ঘটনা ঘটলো। আমি আজকে বঙ্গবন্ধুর প্রতি ও জাতীয় চার নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাই। প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, সবার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে একটু স্মরণ করতে চাই। বাংলাদেশের মানুষের যখন ভালো সময় আসে, দেশের মানুষ যখন ভালো থাকে, যখন মানুষের জীবনের মান একটু উন্নত হয়, তখনই আঘাত আসার আশঙ্কা থাকে। তাই সবাইকে একটু সতর্ক থাকা দরকার। শেখ হাসিনা বলেন, আজকে করোনা ভাইরাস বিশ্বব্যাপী প্রভাব ফেলেছে। মহামারি আকারে দেখা দিয়েছে। আমরা সীমিত সম্পদ দিয়ে মোকাবেলা করেছি। আমাদের ভৌগোলিক সীমানা ছোট, জনসংখ্যার দিক দিয়ে বড় দেশ, সেই দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। করোনা মোকাবিলায় যথাসাধ্য চেষ্টা করে নিয়ন্ত্রণ রাখতে সক্ষম হয়েছি। স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য আমরা বিভিন্ন ধরনের নির্দেশনা দিয়েছি। সাথে সাথে করোনা প্রতিরোধে টিকা দেওয়া শুরু করেছি। অনেক উন্নত দেশ এখনো ভ্যাকসিন আনতে পারেনি। ভ্যাকসিন নিয়ে যখন গবেষণা হচ্ছে, যে জায়গায় গবেষণা হচ্ছে সেখান থেকে ক্রয় করার জন্য আমরা চেষ্টা করেছি। এর পাশাপাশি আমরা আগাম টাকা দিয়েছি ভ্যাকসিনের জন্য। ডাব্লিউএইচও (বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার) যখন ভ্যাকসিন অনুমোদন দেবে তখনই আমরা যেন ভ্যাকসিন পেতে পারি সেই ব্যবস্থা ব্যবস্থা করেছি, যেন দেশবাসীকে ভ্যাকসিন যথাসময়ে দিতে পারি এবং আমরা এ কাজ করতে সক্ষম হয়েছি। আমি সেই জন্য সবাইকে আন্তারিক ধন্যবাদ জানাই। দেশবাসী, প্রশাসন, সশস্ত্র বাহিনী, রাজনৈতিক দল সবাই সহযোগিতা করেছে বলেই আমরা করোনা ভাইরাস মোকাবেলা করতে পেরেছি। প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, দেশবাসী আমাদের সহায়তা করেছে। তাদের সহায়তার জন্য তাদের সেবা করার সুযোগ পাচ্ছি। দেশবাসী ভোট দিয়েছে বলেই ক্ষমতায় এসে তাদের সেবা করার সুযোগ পেয়েছি। করোনা ভাইরাসে সারা বিশ্বের অর্থনীতিও অচল। উন্নত দেশও যেখানে ভ্যাকসিন দিতে পারেনি বাংলাদেশ কিন্তু সেটা পেরেছে এবং দৃষ্টান্ত আমরা দেখাতে পেরেছি।
অভিজিৎ হত্যা: পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড, একজনের যাবজ্জীবন
১৬,ফেব্রুয়ারী,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বিজ্ঞান মনস্ক লেখক ব্লগার অভিজিৎ রায়কে হত্যা মামলার পাঁচ আসামির মৃত্যুদণ্ড ও একজনের যাবজ্জীবন দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমান এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- বরখাস্ত হওয়া মেজর সৈয়দ জিয়াউল হক, আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে শাহাব, মোজাম্মেল হোসেন ওরফে সাইমুম, আরাফাত রহমান ওরফে সিয়াম, শফিউর রহমান ফারাবী, আকরাম হোসেন ওরফে আবির ওরফে আদনান। তাদের মধ্যে মেজর জিয়া ও আকরাম পলাতক। গত ৪ ফেব্রুয়ারি এ মামলায় উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়। ওইদিনই আদালত রায়ের জন্য এ দিন ধার্য করেন। ২০১৯ সালের ১৩ মার্চ আদালতে এ মামলায় অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। এরপর একই বছর ১ আগস্ট অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরুর নির্দেশ দেন আদালত। ওই বছরের ২৮ অক্টোবর অভিজিতের বাবা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক অজয় রায়ের সাক্ষ্যের মাধ্যমে এ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। অবশ্য একই বছর ৯ ডিসেম্বর অজয় রায় পরলোকগমন করেন। গত ২০ জানুয়ারি মামলাটিতে সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়। রাষ্ট্রপক্ষে ৩৪ সাক্ষীর মধ্যে মোট ২৮ জন সাক্ষ্য দেন। ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি রাত সোয়া ৯টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের পাশে অভিজিৎকে সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে জখম করে। আহতাবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে রাত সাড়ে ১০টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ ঘটনায় পরে অভিজিতের বাবা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক অজয় রায় শাহবাগ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
ফায়ার সার্ভিসের ২০ কর্মকর্তার পদোন্নতি
১৫,ফেব্রুয়ারী,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পদোন্নতি পেয়েছেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের ২০ জন কর্মকর্তা। তাদেরকে তৃতীয় শ্রেণির সাব-অফিসার পদ থেকে দ্বিতীয় শ্রেণির স্টেশন অফিসার পদে (১৫তম গ্রেড থেকে ১২তম গ্রেডে) পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে জানানো হয়, স্টেশন অফিসার পদটি দ্বিতীয় শ্রেণির কর্মকর্তার পদ হওয়ায় এ পদে পদোন্নতির জন্য বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন সচিবালয়ের মতামত প্রয়োজন হয়। এজন্য ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের প্রেরিত পদোন্নতি প্রস্তাবের বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পিএসসির মতামত চাওয়া হয়। গত ৭ ফেব্রুয়ারি ২৯ নম্বর স্মারকপত্রের মাধ্যমে পিএসসি উল্লিখিত পদোন্নতির বিষয়ে সুপারিশ পাঠায়। সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ পদোন্নতি সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি)। এর ফলে ২৫ শতাংশ পদোন্নতি কোটায় ২০ জন কর্মকর্তা দ্বিতীয় শ্রেণির ফায়ার স্টেশন প্রধান হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করেন। পদোন্নতিপ্রাপ্তরা ফায়ার-ফাইটার (সাবেক ফায়ার-ম্যান ও সমমান) পদে যোগদান করেছিলেন। এ সংক্রান্ত এক প্রতিক্রিয়ায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) যুগ্ম-সচিব মো. হাবিবুর রহমান বলেন, অধিদফতরের মহাপরিচালকের নির্দেশনায় আমরা এই পদোন্নতি দিতে পেরে আনন্দিত। এ বিষয়ে অধিদফতরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ হোসাইন বলেন, পদোন্নতি প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন করায় সুরক্ষা সেবা বিভাগ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমি মনে করি, এই পদোন্নতি ভালো কাজের স্বীকৃতি। তিনি পদোন্নতিপ্রাপ্তদের শুভ কামনা জানান এবং নতুন পদে তারা তাদের দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে এর প্রতিদান দেবেন বলে আশা প্রকাশ করেন।

জাতীয় পাতার আরো খবর