সোমবার, জুলাই ১৩, ২০২০
আরও ১ হাজার ২৫৬ জনকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ
২জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নতুন করে আরও ১ হাজার ২৫৬ জনকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ করেছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়। জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইন ২০০২-এর ৭(ঝ) ধারা অনুযায়ী জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল এর ৬৬তম সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক মঙ্গলবার এই গেজেট প্রকাশ করা হয়। প্রায় দেড় লাখ আবেদন থেকে তিন ধাপে দীর্ঘ প্রক্রিয়ায় যাচাই-বাছাই শেষে এ গেজেট প্রকাশ করা হলো। মুক্তিযোদ্ধাদের এ গেজেট বাংলাদেশ সরকারি মুদ্রণালয় (বিজি প্রেস) এর ওয়েবসাইটে (www. bgpress.gov.bd) পাওয়া যাবে। উপজেলা যাচাই-বাছাই কমিটি ও বিভাগীয় কমিটির যাচাই-বাছাই শেষে জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল এর সভায় এ তালিকা অনুমোদন হয়। নতুন তালিকাভুক্ত মুক্তিযোদ্ধাগণ রাষ্ট্রের প্রদত্ত সকল সুযোগ-সুবিধা প্রাপ্য হবেন।
করোনায় আরও এক পুলিশ সদস্যের মৃত্যু চট্টগ্রামে
২জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: পরশুরামের মর্তুজা আব্দুল কাইয়ুম (৫০) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। তিনি চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) সদরঘাট থানায় উপ-পরিদর্শক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চট্টগ্রামের আন্দরকিল্লা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মর্তুজা আব্দুল কাইয়ুম পরশুরাম উপজেলার রাজষপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক ইউপি সদস্য আবু তাহেরের ছেলে। মৃত্যুকালে আব্দুল কাইয়ুম দুই ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন। পুলিশ ও তপরিবার সূত্রে জানা গেছে, তার শরীরে করোনা উপসর্গ দেখা দিলে চট্টগ্রামের আন্দর কিল্লা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে নমুনা পরীক্ষায় তার করোনা পজিটিভ আসে। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকালে তিনি মারা যান। তার মরদেহ পরশুরামে নিজ গ্রামের বাড়িতে নেওয়া হয়েছে। পরশুরাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াছমিন আক্তার জানান, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নিজ গ্রাম রাজষপুরে জানাজা শেষে তার মরদেহ দাফন করা হবে। এর আগে গতকাল সোমবার পরশুরাম উপজেলার বাসিন্দা মো মামুন নামে আরেক পুলিশ সদস্য মারা যান। তিনিও চট্টগ্রামে কর্মরত ছিলেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে উপজেলার মির্জানগর ইউনিয়নের নিজ গ্রাম কালিকাপুরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন করা হয়।
সুযোগ থাকা সত্ত্বেও হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ : তথ্যমন্ত্রী
২জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন,চিকিৎসার সুযোগ থাকা সত্ত্বেও হাসপাতাল থেকে রোগী ফিরিয়ে দেয়া শাস্তিযোগ্য অপরাধ। তিনি আজ দুপুরে রাজধানীতে বাংলাদেশ সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয় সভাকক্ষে সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে একথা বলেন। বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে স্বাস্থ্যসেবা পাওয়া দুরূহ হয়ে পড়েছে এমন বিষয়ে সাংবাদিকেরা মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, যারা এই সময়ে রোগীদেরকে স্বাস্থ্যসেবা দেয়ার ক্ষেত্রে পিছ-পা হচ্ছে এবং তাদের অবহেলার কারণে রোগীরা মৃত্যুবরণ করছে, তারা আসলে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করছে। আমি আশা করবো যে, বেসরকারি হাসপাতালগুলোসহ কোন হাসপাতালই এ ধরণের আচরণ করবে না। এখনই সময় আর্তমানবতার সেবায় হাতকে প্রসারিত করা বলেন তিনি। তবে অনেক ডাক্তার, নার্সসহ স্বাস্থ্যকর্মীরা এই পরিস্থিতির মধ্যেও নিজের জীবনকে বিপন্ন করে মানুষকে স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন, তাদেরকে আমি ধন্যবাদ জানাই, অভিনন্দন জানাই, তারা সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে কাজ করছেন বলেন তথ্যমন্ত্রী। হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করা হয় মানুষকে সেবা দেয়ার জন্য, মানুষকে সেবা না দিয়ে হাসপাতাল যদি হাত গুটিয়ে নেয়, সেটিকে তখন আর হাসপাতাল বলা যায় না উল্লেখ করে ড. হাছান বলেন, আমি নিজেও ব্যথিত যে, প্রায়ই আমরা কাগজে ও অন্যান্য সংবাদ মাধ্যমে দেখতে পাচ্ছি- অনেক রোগী একটার পর আরেকটা হাসপাতালে যাচ্ছেন, কিন্তু হাসপাতাল ভর্তি নিচ্ছে না। তিনি বলেন, আজকেও কাগজে দেখলাম, সিলেটে একে-একে ছয়টি প্রাইভেট হাসপাতালে একজন রোগী গেছেন, তাকে কোন হাসপাতালে ভর্তি নেয়নি। সেই রোগী শেষে এম্বুলেন্সের মধ্যেই মৃত্যুবরণ করেছেন। এগুলো অত্যন্ত দুঃখজনক এবং প্রাইভেট বা যেকোন হাসপাতালের এ ধরণের আচরণ অগ্রহণযোগ্য। এ বিষয়ে সতর্কবার্তা দিয়ে মন্ত্রী বলেন, সরকার এগুলো পর্যবেক্ষণ করছে, ইতোমধ্যেই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, কেউ রোগীদেরকে স্বাস্থ্যসেবা দিতে অবহেলা করলে তাদের ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এখনও পর্যন্ত হুশিয়ারির মাধ্যমে তাদেরকে সেবামুখী করার চেষ্টা করা হলেও অবহেলার ঘটনা ক্রমাগত ঘটতে থাকলে অতি শিগগিরই কঠোর ব্যবস্থা নেবে সরকার। সপ্রতি রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে অগ্নিকান্ডে হতাহতের ঘটনা নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, এ ঘটনায় ফায়ার সার্ভিস প্রাথমিক তদন্তে বলেছে, এখানে ইউনাইটেড হাসপাতালের গাফলতি ছিল। সুতরাং যে পাঁচজন মারা গেছেন, তাদের মৃত্যুর দায় কোনভাবেই ইউনাইটেড হাসপাতাল এড়াতে পারে বলে আমি মনে করি না। উপস্থিত সাংবাদিকেরা এসময় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকান্ডের পর চলমান স্মরণকালের সবচেয়ে বড় বিক্ষোভের বিষয়ে তথ্যমন্ত্রীকে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, আমি এ বিষয়ে মন্তব্য করতে চাই না, কারণ এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ বিষয়। আমি এবিষয়ে বলতে চাইনি, কিন্তু যেহেতু আপনারা প্রশ্ন করেছেন এবং যেহেতু বাংলাদেশে পান থেকে চুন খসলেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিবৃতি দেয়, মানবাধিকার নিয়ে নানা প্রশ্ন তোলে, এমনকি বিশ্বের অন্যান্য দেশের মানবাধিকার নিয়েও তারা প্রতিবছর রিপোর্ট পেশ করে, সেজন্য বলছি উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান বলেন, সেখানে গত ২৫ মে পুলিশ যেভাবে একজন আফ্রিকান-আমেরিকানকে গলার ওপর চেপে ধরে তাকে হত্যা করলো, এটি সেখানকার মানবাধিকারের কি পরিস্থিতি, তা চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গদের সংখ্যা অনেক কম হলেও পুলিশের হাতে মৃত্যুবরণকারী কৃষ্ণাঙ্গদের সংখ্যা শ্বেতাঙ্গদের তিনগুণ, উল্লেখ করেন মন্ত্রী। তিনি আরো বলেন, এছাড়া আপনারা জানেন যে, সেখানে যারা অভিবাসী হতে অবৈধভাবে প্রবেশ করে, তাদের সন্তানদের বাবা-মার কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করে বাবা-মাকে তাদের দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয়া হয়। আর মাসের পর মাস, বছরের পর বছর শিশুদেরকে আটকে রাখার পর দেখা যায়, তারা তাদের বাবা-মাকে চেনে না। এসব অমানবিক কাজই সেখানকার মানবাধিকারের পরিস্থিতির প্রকৃত চিত্র আমাদেও চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়।
একদিনেই ১৫ মৃত্যু চট্টগ্রামে
২জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা শনাক্তে নিত্যদিন নতুন রেকর্ড গড়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। নতুনভাবে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ২ হাজার ৯১১ জন করোনাভাইরাস আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। যা একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড। এর আগে গত ৩১ মে (রোববার) দেশে সর্বোচ্চ ২৫৪৫ জন করোনারোগী শনাক্ত হয়। সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, দেশে মহামারী ভাইরাসটিতে সর্বমোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫২ হাজার ৪৪৫ জন। একই সময়ে দেশে আরো ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে চট্টগ্রাম বিভাগেরই ১৫ জন। ৩৭ জনের মৃত্যু দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে একদিনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যক মৃত্যুর রেকর্ড। আগে মৃত্যুর সর্বোচ্চ রেকর্ডটি ৩১ মে-তেই হয়েছিল। সেদিন দেশে সর্বোচ্চ ৪০ জনের মৃত্যুর তথ্য জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ফলে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসের সংক্রমণে প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়াল ৭০৯। মঙ্গলবার (২ জুন) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন হেলথ বুলেটিনে অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান। দেশে পিসিআর মেশিনের মাধ্যমে ৫২টি ল্যাবের পরীক্ষার তথ্য তুলে ধরে তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস শনাক্তে ১৪ হাজার ৯৫০টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এরমধ্যে নমুনা পরীক্ষা করা হয় ১২ হাজার ৭০৪টি। এ নিয়ে এযাবত মোট নমুনা পরীক্ষা দাঁড়াল ৩ লাখ ৩৩ হাজার ৭৩টিতে। তিনি আরো জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরো ৫২৩ জন। সবমিলিয়ে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১১ হাজার ১২০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় যারা মারা গেছেন তাদের বিশ্লেষণ তুলে ধরে ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, এদের মধ্যে চট্টগ্রাম বিভাগের সর্বোচ্চ ১৫ জন। এছাড়া ঢাকা বিভাগের রয়েছেন ১০ জন, সিলেটে চারজন, বরিশালে তিনজন, রাজশাহীতে দুজন, রংপুরে দুজন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে একজন। এদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ২৮ জন এবং বাড়িতে মারা গেছেন নয়জন। মৃত ৩৭ জনের মধ্যে ৩৩ পুরুষ এবং চারজন নারী। তাদের বয়স বিশ্লেষণে জানানো হয়, মারা যাওয়াদের মধ্যে ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সসীমার মধ্যে একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের চারজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের একজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে নয়জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের ১০ জন এবং আশি ঊর্ধ্ব রয়েছেন দুজন। অন্যদিকে, শুধুমাত্র চট্টগ্রাম জেলায় সোমবার (১ জুন) পর্যন্ত করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩১৫১ জন। যাদের মধ্যে ২২৭ জন সুস্থ হলেও মারা গেছেন ৭৬ জন।
মোবাইলে কথা বলায় খরচ বাড়তে পারে আরও
২জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আর নয়দিন পরই মোবাইলে কথা বলায় খরচ বেড়ে যেতে পারে। বর্তমানে মোবাইলে কথা বলায় ১০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আছে। এটি ৫ শতাংশ বাড়িয়ে আগামী বাজেটে ১৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হতে পারে। আগামী ১১ জুন ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার দিনক্ষণ নির্ধারিত রয়েছে। সম্পূরক শুল্ক বাড়ানো হলে সেটি ওইদিন থেকেই কার্যকর হবে। মোবাইলে কথা বলা ও এসএমএসে বর্তমানে ১৫ শতাংশ ভ্যাট, ১ শতাংশ সারচার্জ, ১০ শতাংশ সম্পূরক শুল্কসহ মোট কর দিতে হয় ২৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ। সম্পূরক শুল্ক আরও বাড়ানো হলে সেটি গ্রাহকদের পকেট থেকেই কাটা হবে। এর আগে চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে মোবাইল সিম বা রিম কার্ডের মাধ্যমে যেসব সেবা দেওয়া হয়, তার বিপরীতে সম্পূরক শুল্ক ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১০ শতাংশ করা হয়েছিল।
একদিনে রেকর্ড ২৯১১ জন শনাক্ত, দেশে করোনা রোগী ৫২ হাজার ৪৪৫
২জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৯১১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ৩৭ জন। এ নিয়ে করোনা শনাক্ত হয়ে দেশে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৭০৯ জন। দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫২ হাজার ৪৪৫ জন। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১.৩৫ শতাংশ। দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৪,৯৫০ টি। আজ মঙ্গলবার দুপুরে করোনার সর্বশেষ অবস্থা নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানানো হয়। এর আগে, গতকাল সোমবার দেশে ২ হাজার ৩৮১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যায় ২২ জন। গত ২ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের পরীক্ষা শুরু করে। ৮ মার্চ দেশে প্রথম রোগী শনাক্ত হয়।
মানুষ যাতে খেয়ে-পরে বাঁচতে পারে সেজন্যই এই সিদ্ধান্ত: প্রধানমন্ত্রী
২জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মানুষ যেন খেয়ে-পরে যাতে বাঁচতে পারে সেজন্যই স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় ফেরার সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যেতে হবে বলেও জানান তিনি। মঙ্গলবার (০২ জুন) সকালে শেরে-ই বাংলা নগরে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির- একনেক বৈঠকের শুরুতেই এই কথা বলেন তিনি। সকাল সাড়ে ১০টার কিছু পরে প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয় একনেক বৈঠক। এ সময় কোভিড-উনিশের জরুরি পরিস্থিতিতে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এনইসি সম্মেলন কক্ষে এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী, সচিবসহ নীতিনির্ধারকরা।
আবরার হত্যা: জিয়নের জামিন নামঞ্জুর
২জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা মামলায় বহিষ্কৃত বুয়েট ছাত্রলীগের ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিয়নের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। মঙ্গলবার (২ জুন) ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এবং ভার্চয়াল কোর্টের বিচারক আবু জাফর কামরুজ্জামান এ আদেশ দেন। জিয়নের পক্ষে জামিন শুনানি করেন তার আইনজীবী ফারুক আহাম্মদ। শুনানিতে তিনি বলেন, আসামি অসুস্থ। দীর্ঘদিন ধরে কারাগারে রয়েছেন। করোনা ভাইরাসের কারণে যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে। তাই আমি আসামির জামিন চাচ্ছি। তার জামিন মঞ্জুর করেন। রাষ্ট্রপক্ষে সংশ্লিষ্ট আদালতের প্রসিকিউটর আবু আব্দুল্লাহ ভূঁইঞা জামিন আবেদনের বিরোধিতা করেন। শুনানি শেষে আদালত জামিন আবেদন নাকচ করেন। গত ২২ মার্চ দ্রুত এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইবনালে মামলার নথি পৌঁছালে বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান অভিযোগ গঠনের ৬ এপ্রিল দিন ধার্য করেন। তবে ক=রোনা ভাইরাসের কারণে আদালতের কার্যক্রম বন্ধ থাকায় অভিযোগ গঠন শুনানি আর হয়নি। গত বছর ১৩ নভেম্বর মামলায় ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) লালবাগ জোনাল টিমের পরিদর্শক মো. ওয়াহিদুজ্জামান। মামলায় অভিযুক্ত ২৫ জনের মধ্যে এজাহারভুক্ত ১৯ জন ও এজাহার বহির্ভূত ৬ জন। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ৮ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তদন্ত চলাকালে মামলায় অভিযুক্ত ২৫ জনের মধ্যে ২১ জনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তারা হলেন- বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল, সহ-সভাপতি মুহতাসিম ফুয়াদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান রবিন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অনিক সরকার, ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন, উপ-সমাজসেবা সম্পাদক ইফতি মোশাররফ, উপ-আইন সম্পাদক অমিত সাহা, শাখা ছাত্রলীগ সদস্য মুনতাসির আল জেমি, মুজাহিদুর রহমান মুজাহিদ, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভির ও ইসতিয়াক আহম্মেদ মুন্না, আবরারের রুমমেট মিজানুর রহমান মিজান, শামসুল আরেফিন রাফাত, মনিরুজ্জামান মনির, আকাশ হোসেন, হোসেন মোহাম্মদ তোহা, মাজেদুর রহমান, শামীম বিল্লাহ, মোয়াজ আবু হুরায়রা, এ এস এম নাজমুস সাদাত ও এস এম মাহমুদ সেতু। এছাড়া মোর্শেদ অমত্য ইসলাম নামে পলাতক এক আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করলে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। এরমধ্যে ছাত্রলীগ হত্যাকাণ্ডে সম্পৃক্তদের সংগঠন থেকে বহিষ্কার করে। গ্রেফতারদের মধ্যে ইসতিয়াক আহম্মেদ মুন্না, অমিত সাহা, মিজানুর রহমান মিজান, শামসুল আরেফিন রাফাত ও এস এম মাহমুদ সেতু ছাড়া বাকি সবাই এজাহারভুক্ত আসামি। এরমধ্যে ৮ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। তারা হলেন- ইফতি মোশাররফ সকাল, মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন, অনিক সরকার, মুজাহিদুর রহমান, মেহেদি হাসান রবিন, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভীর, মনিরুজ্জামান মনির ও এএসএম নাজমুস সাদাত। এখন পলাতক রয়েছেন আর তিন আসামি। তারা হলেন- মোর্শেদুজ্জামান জিসান, এহতেশামুল রাব্বি তানিম ও মোস্তবা রাফিদ। এরমধ্যে মোস্তবা রাফিদের নাম এজাহারে ছিল না গত ৬ অক্টোবর রাতে বুয়েটের শেরে বাংলা হলে ছাত্রলীগের কিছু উচ্ছৃঙ্খল কর্মীর হাতে নির্দয় পিটুনির শিকার হয়ে মারা যান বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ। এ ঘটনায় পরদিন নিহতের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে চকবাজার থানায় একটি মামলা করেন।
করোনাকালে সরকারের ত্রাণ সহায়তা পেয়েছে সোয়া ৬ কোটি মানুষ
২জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা ভাইরাসের দুর্যোগে সারাদেশের সাধারণ মানুষের কষ্ট লাঘবে ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত রেখেছে সরকার। এ পর্যন্ত সারাদেশে প্রায় দেড় কোটি পরিবারের সোয়া ছয় কোটি মানুষকে ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হয়েছে। ৬৪ জেলা প্রশাসন থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ১ জুন পর্যন্ত সারাদেশে চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে প্রায় এক লাখ ৯২ হাজার মেট্রিক টন। এতে উপকারভোগী পরিবার সংখ্যা ১ কোটি ৪১ লাখ ১৮ হাজার ৪৮৮টি এবং উপকারভোগী লোকসংখ্যা ৬ কোটি ২৩ লাখ ১৪ হাজার ৪০৯ জন। নগদ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে প্রায় ১১০ কোটি টাকা। এর মধ্যে নগদ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ৮৬ কোটি ৪৩ লাখ ৭২ হাজার টাকা এবং বিতরণ করা হয়েছে প্রায় ৭৫ কোটি ৭১ লাখ ১৮ হাজার টাকা। এতে উপকারভোগীর পরিবার সংখ্যা ৮৪ লাখ ৭ হাজার ১০৭টি এবং উপকারভোগী লোক সংখ্যা ৩ কোটি ৭৬ লাখ ১৫ হাজার ৭৯ জন। শিশুখাদ্য সহায়ক হিসেবে বরাদ্দ ২৩ কোটি ৯৪ লাখ টাকা এবং এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে প্রায় ১৯ কোটি ৩১ লাখ ৫৩ হাজার টাকা। এতে উপকারভোগী পরিবার সংখ্যা ৬ লাখ ১০ হাজার ২৫১টি এবং লোক সংখ্যা ১২ লাখ ৮৪ হাজার ২০০ জন।

জাতীয় পাতার আরো খবর