ক্রিকেটারদের আরো সুযোগ-সুবিধা দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী
২৫জুন২০১৯,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ক্রিকেটারদের আরো সুযোগ-সুবিধা দেয়া হবে। সব ধরনের জাতীয় পর্যায়ের খেলোয়াড়রা অবসরের পরেও যাতে সুযোগ-সুবিধা পায় সে ব্যবস্থা করা হবে। আজ মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর শেরে বাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। আগামীতে যাতে খেলোয়াড়েরা সারাবছর খেলাধুলার সাথে থাকতে পারেন সেজন্য বিশেষ তহবিল করার নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী। ক্রিকেট খেলায় জয়ের ধারা ধরে রাখায় খেলোয়াড়দেরও প্রশংসা করেন। ক্রিকেটারদের জন্য আরো সুযোগ-সুবিধা দেয়াসহ অবসরের পরেও সব ধরনের জাতীয় পর্যায়ের খেলোয়াড়রা যাতে সুবিধা পায় সে ব্যবস্থা করার নির্দেশনা দেন তিনি। একনেক সভায় আজ ৬ হাজার ৯৬৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০টি উন্নয়ন প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়। সন্ত্রাস মোকাবেলা ও জননিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সক্ষমতা বৃদ্ধিসহ মোট ১০টি উন্নয়ন প্রকল্পের অনুমোদন দেয় জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি একনেক। একনেক সূত্রে জানা যায়, গাজীপুর সিটি করপোরেশন এলাকার রাস্তাঘাট সংস্কার, ফুটপাত, ড্রেনেজ ব্যবস্থা উন্নয়নের জন্য অর্থ বরাদ্দের অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হয়। সেই সাথে রেলওয়ের ২১টি মিটারগেজ ডিজেল ইলেক্ট্রনিক লোকোমিটিভ নব রূপায়ন প্রকল্পটিও উপস্থাপন করা হয়। এসময় সরকার প্রধান প্রকল্পগুলোর গুণগত মান নিশ্চিতসহ নির্দিষ্ট সময় শেষ করার তাগিদ দেন।
বাজারে পাস্তুরিত দুধে ডিটারজেন্ট ও অ্যান্টিবায়োটিক
২৫জুন২০১৯,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাজারে যেসব কোম্পানি পাস্তুরিত তরল দুধ বিক্রি করছে তার অধিকাংশ দুধে ডিটারজেন্ট ও অ্যান্টিবায়োটিক পাওয়া গেছে। আজ মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্সেমি বিভাগের শিক্ষক ও বায়োমেডিকেল রিসার্চ সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক আ ব ম ফারুক। যেসব কোম্পানির দুধে ডিটারজেন্ট ও অ্যান্টিবায়োটিকের সন্ধান পাওয়া গেছে সেগুলো হলো- প্রাণ, মিল্ক ভিটা, ইগলু, ইগলু চকোলেট, ইগলু ম্যাংগো, আড়ং ও ফার্ম ফ্রেশ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োমেডিক্যাল রিসার্চ সেন্টার ও ফার্মেসি অনুষদের যৌথ গবেষণায় এই তথ্য উঠে আসে। অধ্যাপক আ ব ম ফারুক বলেন, আমরা এসব কোম্পানি উৎপাদিত পাস্তুরিত ও অপাস্তুরিত কাঁচা দুধ পরীক্ষা করে তাতে ডিটারজেন্ট ও অ্যান্টিবায়োটিক পেয়েছি। তিনি বলেন, আমরা যে অ্যান্টিবায়োটিকের সন্ধান পেয়েছি সেগুলো মানুষের ব্যবহারের জন্য। মানুষ ও প্রাণির অ্যান্টিবায়োটিক সম্পূর্ণ আলাদা। মানুষের অ্যান্টিবায়োটিক প্রাণির ওপর ব্যবহার বন্ধ করা দরকার। অধ্যাপক ফারুক বলেন, অ্যান্টিবায়োটিক যে গরুকে খাওয়ানো হলো ওই গরুর দুধ ও মাংস আমরা খেলে তা আমাদের শরীরে প্রবেশ করবে। মানুষকে বাঁচাতে আপনারা এখনই গরুকে অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়ানো বন্ধ করুন। তিনি বলেন, আমাদের পরীক্ষায় পাস্তুরিত দুধের সবকটি নমুনাতে মানবচিকিৎসায় ব্যবহৃত অ্যান্টিবায়োটিক লেভোফ্লক্সসিন, সিপ্রোফ্লক্সাসিন ও এজিথ্রোমাইসিনের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। এছাড়াও অপাস্তুরিত দুধের একটি নমুনাতে ফরমালিন পাওয়া মিলেছে।আর অন্য একটিতে পাওয়া গেছে ডিটারজেন্ট। এসব দুধে অ্যান্টিবায়োটিকের উপস্থিতি অত্যন্ত উদ্বেগের বিষয়। সংবাদ সম্মেলনে দুধ ছাড়াও ফ্রুট ড্রিংকস, সরিষার তেল, সয়াবিন তেল, ঘি, গুঁড়া মশলা, শুকনা মরিচ, হলুদ, পাম অয়েল নিয়েও পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়।
প্রয়োজন ছাড়া প্রসূতির সিজার বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিট
২৫জুন২০১৯,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: গর্ভবতী মায়েদের অপ্রয়োজনীয় সিজার বন্ধের দাবিতে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন আজ মঙ্গলবার বাদী হয়ে এই রিট দায়ের করেন। রিট আবেদনটি বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের বেঞ্চে শুনানির জন্য উত্থাপন করা হয়। ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন জানিয়েছেন, আগামীকাল রিট আবেদনটির শুনানি হতে পারে। তিনি সাংবাদিকদের বলেন,ওয়ার্ল্ড হেলথ অরগানাইজেশন (ডব্লিউিএইচও), ইউনিসেফের রিপোর্টে বলা হয়েছে, গত বছর বাংলাদেশের যে পরিমাণ সিজার করা হয়েছে, তার ৭৭ শতাংশ ছিল অপ্রয়োজনীয়। এ ছাড়া গত দুবছরের তুলনায় ৫১ শতাংশ সিজার বেড়ে গেছে। কোনো কনসালটেশন না করেই এভাবে সিজার করা হচ্ছে। ফলে ভবিষ্যতে এটা বড় ধরনের সংকটে পরিণত হবে। এ কারণে রিটটি করা হয়েছে বলেও জানান তিনি। রিট আবেদনে বলা হয়, অপ্রয়োজনীয় সিজার মনিটরিংয়ে সরকারের নিস্ক্রিয়তা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না এবং অপ্রয়োজনীয় সিজার কেন বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হবে না-তা জানতে চাওয়া হয়েছে।
৪৫ দেশের মধ্যে শীর্ষে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা
২৪জুন২০১৯,সোমবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের ৪৫টি দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক উন্নয়ন বিবেচনায় বাংলাদেশ শীর্ষে অবস্থান করায় প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সদস্যরা। সোমবার (২৪ জুন) সকালে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে এডিবি প্রকাশিত প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করা হয়। এ সময় মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা তাকে শুভেচ্ছা জানান। এসময় দেশবাসীকে অভিনন্দন জানান শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, জনগণ ভোট দিয়ে নির্বাচিত করায় দেশের উন্নয়নের সুযোগ পাচ্ছে তার সরকার। দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখার তাগিদ দিয়ে কেউ যেন এই ধারা বাধাগ্রস্ত করতে না পারে সে বিষয়ে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। কাঙিক্ষত সময়ের আগেই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের বিষয়ে আশাবাদ পুনর্ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী বলেন, জনগণ নির্বাচিত করায় দেশের কল্যাণে কাজ করার সুযোগ পেয়েছে তার সরকার। উন্নয়নের ধারা কেউ যেন বাধাগ্রস্ত করতে না পারে, সেদিকে লক্ষ্য রাখতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। সকালে, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে তিনি এসব বলেন। এর আগে গত বুধবার এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক- এডিবি এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের অর্থনৈতিক অবস্থা পর্যালোচনা ও মূল্যায়ন করে তাদের প্রতিবেদনে জানায়। অর্থনৈতিক উন্নয়ন বিবেচনায় ৪৫টি দেশের মধ্যে শীর্ষে অবস্থান করছে বাংলাদেশ। ২০১৯-২০ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশ হবে বলেও জানানো হয় প্রতিবেদনে। বাংলাদেশের উচ্চ প্রবৃদ্ধির তথ্য তুলে ধরে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) বলছে, ১৯৭৪ সালের পর বাংলাদেশের অর্থনীতির দ্রুততম প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২০১৮ সালে, ৭ দশমিক ৯০ শতাংশ। এটি এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের ৪৫টি অর্থনীতির মধ্যে দ্রুততম। এডিবির আউটলুকে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে, ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি হবে ৮ শতাংশ। তবে আগামী অর্থবছরে প্রস্তাবিত বাজেটে প্রবৃদ্ধির প্রাক্কলন করা হয়েছে ৮ দশমিক ২০ শতাংশ। আট শতাংশ প্রবৃদ্ধি হলে তা নতুন রেকর্ড হবে উল্লেখ করে আউটলুকে বলা হয়েছে, এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে বাংলাদেশের দ্রুত বিকাশের ধারা অব্যাহত থাকবে। এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের ৪৫ দেশের অর্থনীতির গতিধারা মূল্যায়ন করে এডিবি তাদের এ আউটলুক প্রস্তুত করেছে। বাংলাদেশ ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধিতে পৌঁছে গেলেও দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চল প্রবৃদ্ধিতে বাংলাদেশের পেছনে পড়ে যাচ্ছে বলে এডিবির মূল্যায়নে দেখানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, দক্ষিণ এশিয়ার শ্লথ গতির কারণে ২০১৯ সালে এ অঞ্চলে প্রবৃদ্ধি হবে ৬ দশমিক ৮০ শতাংশ এবং ২০২০ সালে হবে ৬ দশমিক ৯০ শতাংশ হারে। এডিবি মনে করছে, বাংলাদেশের উচ্চ প্রবৃদ্ধির পেছনে কাজ করেছে, দক্ষ নেতৃত্ব, সুশাসন, স্থিতিশীল সরকার ও শান্ত রাজনৈতিক পরিস্থিতি, বলিষ্ঠ সামষ্টিক অর্থনৈতিক নীতিমালা ও সঠিকভাবে উন্নয়ন অগ্রাধিকার দেওয়া।
দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা ডিআইজি মিজানের
২৪জুন২০১৯,সোমবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: দুর্নীতির অভিযোগে সাময়িক বরখাস্ত পুলিশের ডিআইজি মিজানুর রহমান যাতে দেশ ত্যাগ করতে না পারে সে জন্য ইমিগ্রেশনে চিঠি দেওয়া হয়েছে। সোমবার (২৪ জুন) মিজানুর রহমান ও তার স্ত্রীসহ স্বজনদের বিরুদ্ধে সম্পদের তথ্য গোপন এবং অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলার পর পুলিশকে চিঠি দেয় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ বিষয়ে ইমিগ্রেশন পুলিশের কর্তব্যরত কর্মকর্তা (ওসি) বলেন, আমরা এখনো লিখিত কোনো বার্তা পাইনি। পেলে ব্যবস্থা নেবো। এ ব্যাপারে দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য বলেন, সম্পদের তথ্য গোপন এবং অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ডিআইজি মিজানুর রহমান, তার স্ত্রী সোহেলিয়া আনার রত্না, ছোট ভাই মাহবুবুর রহমান এবং ভাগনে পুলিশের এসআই মাহমুদুল হাসানের বিরুদ্ধে মামলাটি করা হয়েছে। দুদকের নিজস্ব অফিসে এটি প্রথম মামলা। দুদকের প্রতিবেদনে মিজানের চার কোটির বেশি টাকার অবৈধ সম্পদের তথ্য তুলে ধরা হয়। মিজানের নামে পাওয়া সম্পদের মধ্যে রয়েছে রাজধানীর বেইলি রোডের রিজ ভবনের চতুর্থ তলায় ৫৫ লাখ টাকা মূল্যের একটি ফ্ল্যাট, একই ভবনের নিচে কার পার্কিংয়ের স্পেসসহ ৫৫ দশমিক ৫১ অযুতাংশ জমি, কাকরাইলে দুই কোটি ২০ লাখ টাকা মূল্যের একটি বাণিজ্যিক ফ্ল্যাট। এ ছাড়া তিন কোটি ৪৩ লাখ ৭৪ হাজার ৪৬০ টাকা মূল্যের জমি ও দোকানের সন্ধান পেয়েছে দুদক। সিটি ব্যাংকের ঢাকার ধানমণ্ডি শাখায় মিজানের অ্যাকাউন্টে ১০ লাখ টাকাসহ বেশকিছু সম্পদ থাকার তথ্য রয়েছে প্রতিবেদনে।
ওসি মোয়াজ্জেমকে ডিভিশন দেয়ার নির্দেশ
২৪জুন২০১৯,সোমবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: নুসরাত জাহান রাফির আনা যৌন হয়রানির অভিযোগ ভিডিওতে ধারণ এবং তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেয়ার মামলায় গ্রেপ্তার ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে জেলকোড অনুযায়ী ডিভিশন দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। সোমবার (২৪ জুন) বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেন শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। আসামি মোয়াজ্জেম হোসেনের পক্ষে আইনজীবী ফারুক আহমেদ শুনানি করেন। শুনানিতে তিনি বলেন, আসামি মোয়াজ্জেম হোসেন বাংলাদেশ সরকারের নবম গ্রেডের একজন কর্মকর্তা ছিলেন। সে অনুযায়ী তিনি প্রথম শ্রেণির নাগরিক। যদিও একজন ওসি সরাসরি প্রথম শ্রেণির নাগরিক না, তবে এ বিষয়ে হাইকোর্টের একটি নির্দেশনা আছে। দয়া করে আপনি ডিভিশন দেয়ার নির্দেশ দেন। এরপর রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী নজরুল ইসলাম শামীম ডিভিশনের বিরোধিতা করে বলেন, আসামি বর্তমানে বরখাস্ত। তাই তার ডিভিশন বিষয়ে আপত্তি রয়েছে। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক কারাবিধি অনুযায়ী জেল সুপারকে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। এর আগে, গত ২০ জুন সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের জন্য কারাগারে ডিভিশন চেয়ে আবেদন করেন তার আইনজীবী ফারুক আহমেদ। এরপর বিচারক ডিভিশন আবেদনের ওপর শুনানির জন্য আজকের (২৪ জুন) দিন ধার্য করেন। উল্লেখ্য, ২৭ মে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার রীমা সুলতানা ১২৩ পৃষ্ঠার একটি প্রতিবেদন ট্রাইব্যুনালে জমা দেন। বাদীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। এরপর ১৫ দিন পলাতক ছিলেন ওসি মোয়াজ্জেম। গত ১৬ জুন দুপুরে রাজধানীর শাহবাগ থেকে ওসি মোয়াজ্জেমকে গ্রেফতার করে শাহবাগ থানা পুলিশ। ১৭ জুন তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন একই ট্রাইব্যুনাল। এর আগে গত ১৫ এপ্রিল বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন বাদী হয়ে মামালটি দায়ের করেন। বিচারক মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দেন। প্রসঙ্গত, নুসরাত জাহান রাফি সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আলিমের পরীক্ষার্থী ছিলেন। মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলার বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ এনেছিলেন তিনি। নুসরাতের মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে ২৭ মার্চ সোনাগাজী থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপর অধ্যক্ষকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মামলা তুলে নিতে বিভিন্নভাবে নুসরাতের পরিবারকে হুমকি দেয়া হচ্ছিল।-আলোকিত বাংলাদেশ
আজ বিকাল পাঁচটার মধ্যে স্বাভাবিক হবে রেল যোগাযোগ: রেল সচিব
২৪জুন২০১৯,সোমবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: মৌলভীবাজারের ট্রেন দুর্ঘটনায় সারা দেশের সাথে বিচ্ছিন্ন হওয়া সিলেটের রেল যোগাযোগ আজ বিকাল পাঁচটার মধ্যে পুনরায় চালু করার চেষ্টা করা হবে বলে জানিয়েছেন রেলসচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন। এ ঘটনার তদন্তে রেলওয়ের প্রধান মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার (পূর্ব) মিজানুর রহমানকে প্রধান করে ৪ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানান তিনি। এর আগে সকাল নয়টার দিকে কুলাউড়া জংশন রেলস্টেশন থেকে রেল সচিব মোহাম্মদ মোফাজ্জেল হোসেন এবং রেলের মহাপরিচালক মো. রফিকুল আলম সহ রেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা দুর্ঘটনাস্থলের দিকে রওনা দেন। রবিবার রাত ১২টার দিকে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল স্টেশন থেকে ২০০ মিটার দূরে কালা মিয়া বাজার সংলগ্ন একটি ব্রিজে সিলেট থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী আন্ত:নগর উপবন এক্সপ্রেস' এর ৫ টি বগি লাইনচ্যূত হয়। এরমধ্যে ৩টি বগি কালভার্ট ভেঙে খালে পড়ে যায়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত চারজন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন অন্তত শতাধিক ব্যক্তি। কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ড. জাকির হোসেন জানান, হাসপাতালে চারজনের লাশ নিয়ে আসা হয়েছে। আহত হয়েছেন শতাধিক ব্যক্তি। একটি লাশ মস্তকবিহীন ছিল বলে জানান তিনি। জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিচ্ছেন ৩০ জন আহত যাত্রী। শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মারাত্মক জখম থাকায় এদের মাঝে প্রায় ২০ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। হতাহত ব্যক্তির সংখ্যা বাড়তে পারে বলে শঙ্কা করা হচ্ছে।
শনিবার শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে
২১জুন২০১৯,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:শনিবার জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন কার্যক্রমের মাধ্যমে ৬ মাস থেকে ৫ বছর বয়সী দেশের দুই কোটি ২০ লাখ শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক এ তথ্য জানিয়ে বলেন, ক্যাম্পেইনের দিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টিকাদান কেন্দ্র খোলা থাকবে।দেশব্যাপী এক লাখ ২০ হাজার স্থায়ী কেন্দ্রসহ অতিরিক্ত ২০ হাজার ভ্রাম্যমাণ কেন্দ্রের মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালিত হবে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ভ্রাম্যমাণ কেন্দ্রগুলো বাসস্ট্যান্ড, লঞ্চঘাট, ফেরিঘাট, ব্রিজের টোল প্লাজা, বিমানবন্দর, রেলস্টেশন, খেয়াঘাট ইত্যাদি স্থানে অবস্থান করবে। দুর্গম এলাকায় ক্যাম্পেইন সফল করার জন্য পরবর্তী চারদিন বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।
বাজেটে স্বচ্ছতার প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে:সুজন
২১জুন২০১৯,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:বাজেট এখন ছক বাঁধা বাজেটে পরিণত হয়েছে। কাঠামোগত সংষ্কারের পাশাপাশি মানুষের কল্যাণে বাজেট নতুন করে সাজানো দরকার বলে মন্তব্য করেছেন সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার। শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাজেট ২০১৯-২০ ও নাগরিক ভাবনা গোলটেবিল শীর্ষক বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন। বদিউল আলম মজুমদার বলেন, যাদের টাকায় সরকারি কর্মকর্তাদের বেতন হয়ে থাকে, দেশের উন্নয়নের জন্য বাজেট দেয়া হবে আর সেই বাজেটে সাধারণ জনগনের জন্য কিছু থাকবে না এটা হতে পারে না। বাজেট শুধু দিলেই হবে না সেই বাজেটে সাধারণ জনগণের জন্য কি আছে সেটা নিশ্চিত করা দরকার। তিনি বলেন, আয়-ব্যয়ের হিসাব পেলেও বাজেটে স্বচ্ছতার প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। বাজেটে সুশাসন ও জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠা করা দরকার। দরকার মানুষের অবস্থান ও অবস্থানের জন্য বাজেটে বরাদ্দ বাড়ানো। বিশেষ করে দরকার দরিদ্র মানুষের জন্য মানসম্মত শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও পুষ্টি বৃদ্ধির জন্য বিনিয়োগ বাড়ানো। বর্তমানে আমাদের বাজেট হয়ে গেছে অনেকটা ছকবাধা, তাই বাজেটের কাঠামোগত সংস্কার দরকার বলে আমি মনে করি। সুজন সভাপতি ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা এম হাফিজউদ্দিন খান বলেন, পৃথিবীর অন্য কোনো দেশে বাজেট নিয়ে সংসদে এত আলোচনা হয় না। কিন্তু বাজেট আলোচনায় প্রান্তিক মানুষের সমস্যা নিয়ে খুব বেশি আলোচনা হয় না। আমরা দেখেছি, বাজেটে কৃষকের সমস্যা দেখা হয়নি। ধানের উৎপাদন মূল্য কম হওয়ার জন্য ভর্তুকি দেয়ার দরকার ছিল, সে বিষয়ে পর্যাপ্ত পদক্ষেপ বাজেটে নেয়া হয়নি। অর্থনীতিবীদ ড. আনু মুহাম্মদ বলেন, জুন-জুলাই অর্থবছরের সময়সীমা হওয়ায় নানান ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। জুনে বর্ষাকাল শুরু হওয়ায় প্রকল্প খরচ বাড়ে। পাকিস্তানসহ দু তিনটা দেশ ছাড়াও কোথাও জুন-জুলাই অর্থবছর নেই। তাই এর পরিবর্তন করা দরকার। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো ছাড়া অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে আমাদের পক্ষে নির্ভরযোগ্য তথ্য পাওয়ার সুযোগ নেই। তাই, পরিসংখ্যান ব্যুরোর সামর্থ্য বৃদ্ধির পদক্ষেপ নেয়া দরকার।বৈঠকে সাবেক সচিব আব্দুল লতিফ মণ্ডল, জুনাইদ সাকি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রাশেদ আল মাহমুদ তিতুমীর, সুজনের কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার বক্তব্য রাখেন।

জাতীয় পাতার আরো খবর