নয়ন বন্ড একদিনে তৈরি হয়নি, তাকে তৈরি করা হয়েছে: হাইকোর্ট
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বরগুনা সদরে রাস্তায় ফেলে প্রকাশ্য দিবালোকে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরিফকে হত্যার নায়ক নয়ন বন্ড একদিনে তৈরি হয়নি, তাকে তৈরি করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে হাইকোর্ট। রিফাত হত্যাকাণ্ড ও নয়ন বন্ড তৈরির নেপথ্যে কারা রয়েছে তা খতিয়ে দেখার নির্দেশও দিয়েছেন আদালত। রিফাত শরীফকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার অগ্রগতি বিষয়ে বৃহস্পতিবার সকালে বরগুনা জেলার ডিসি ও এসপির প্রতিবেদন হাইকোর্টে জমা দেয়া হয়। প্রতিবেদন হাতে পেয়ে এ মন্তব্য করেন হাইকোর্ট। প্রতিবেদনে মামলার পাঁচ আসামি ও সন্দেহভাজন কয়েকজনসহ মোট ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে প্রতিবেদনে। প্রতিবেদনের অগ্রগতির শুনানিতে আদালত সন্তোষ প্রকাশ করেন। আদালত বলেন, বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড আদালত পছন্দ করেন না। হত্যার বিষয়টি পুলিশকে নিজের মত তদন্ত করার নির্দেশ দেন আদালত। এর আগে গত ২৭ জুন রিফাত হত্যা মামলার প্রতিবেদনের অগ্রগতি জানানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড গত ২ জুলাই বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন। এর পরের দিন দ্বিতীয় আসামি রিফাত ফরাজীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ দিনই তার বিরুদ্ধে ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী। এ মামলার এজাহারভুক্ত গ্রেফতাররা হলেন মামলার ২ নম্বর আসামি রিফাত ফরাজী (২৩), ৪ নম্বর আসামি চন্দন (২১), ৯ নম্বর আসামি মো. হাসান (১৯), ১১ নম্বর আসামি মো. অলিউল্লাহ অলি (২২) ও ১২ নম্বর আসামি টিকটক হৃদয় (২১)। এ ছাড়া রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে ভিডিও ফুটেজ ও অন্যান্য তথ্যের ভিত্ততে সন্দেহভাজন গ্রেফতাররা হলেন মো. নাজমুল হাসান (১৯), তানভীর (২২), মো. সাগর (১৯), কামরুল হাসান সাইমুন (২১) ও রাফিউল ইসলাম রাব্বি। প্রসঙ্গত, ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে বরগুনা সরকারি কলেজে নিয়ে যান রিফাত। কলেজ থেকে ফেরার পথে মূল ফটকে নয়ন, রিফাত ফরাজীসহ দুর্বৃত্তরা রিফাত শরীফের ওপর হামলা চালায়। এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিফাত শরীফকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে তারা। মিন্নি স্বামীকে বাঁচানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। পরে স্থানীয় লোকজন রিফাত শরীফকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে রিফাত শরীফের মৃত্যু হয়। রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি জানান, বরগুনা পৌরসভার ধানসিঁড়ি সড়কের আবুবকর সিদ্দিকের ছেলে নয়ন বন্ড ও তার প্রতিবেশী দুলাল ফরাজীর দুই ছেলে রিফাত ফরাজী ও রিশান ফরাজী এবং রাব্বি আকন তার স্বামীর ওপর হামলা করে। তিনি বলেন, আমার সামনে ওই সন্ত্রাসীরা রিফাতকে কুপিয়ে হত্যা করে। আমি শতচেষ্টা করেও আমার স্বামীকে বাঁচাতে পারিনি। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আয়শা আক্তার মিন্নির সঙ্গে দুই মাস আগে রিফাত শরীফের বিয়ে হয়। বুধবার রিফাত ও তার স্ত্রী মিন্নি সকাল ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় ওঁৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা রাম দা নিয়ে রিফাতের ওপর চড়াও হয়। রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ অভিযোগ করেছেন, পরিকল্পিতভাবে তার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বলেন, নয়ন প্রতিনিয়ত আমার পুত্রবধূকে উত্ত্যক্ত করত এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপত্তিকর পোস্ট দিত। এর প্রতিবাদ করায় আমার ছেলেকে নয়ন তার দলবল নিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে। আমার একমাত্র ছেলেকে যারা দিনে-দুপুরে কুপিয়ে হত্যা করেছে, তাদের বিচার চাই। এ ঘটনায় ১২ জনকে আসামি করে আমি মামলা করেছি। পুলিশ যেন তাদের সবাইকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনে।- আলোকিত বাংলাদেশ
নুসরাতকে যৌন হয়রানির মামলা ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তরের আদেশ
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহানের যৌন হয়রানির ঘটনায় সোনাগাজীর ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার বরখাস্তকৃত অধ্যক্ষ এস এম সিরাজ উদদৌলার বিরুদ্ধে করা মামলাটি ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তরের আদেশ দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে ফেনীর আমলি আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। আগামী ১০ জুলাই নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলার পরবর্তী তারিখ ধার্য করা হয়েছে। ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক মোহাম্মদ শাহ আলম ফেনীর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মো. জাকির হোসাইনের আদালতে এই মামলার অভিযোগপত্র জমা দেন। বৃহস্পতিবার সকালে মামলার একমাত্র আসামি সিরাজকে আমলি আদালতের বিচারিক হাকিমের এজলাসে হাজির করা হয়। তার উপস্থিতিতে অভিযোগপত্রের ওপর শুনানি শেষে মামলাটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ২৭ মার্চ বেলা পৌনে ১১টার দিকে মাদ্রাসার পিয়ন নুরুল আমিনকে দিয়ে আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহানকে অধ্যক্ষের অফিসকক্ষে ডেকে পাঠানো হয়। সেখানে নুসরাতের যৌন হয়রানি করেন অধ্যক্ষ সিরাজ। এই ঘটনায় অধ্যক্ষ সিরাজকে একমাত্র আসামি করে নুসরাতের মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে সোনাগাজী থানায় একটি মামলা করেন। এই মামলায় অধ্যক্ষ সিরাজকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। মামলা পর নুসরাত ফেনীর বিচারিক হাকিম আদালতে জবানবন্দি দেন। তদন্ত কর্মকর্তা জানান, মামলায় দুজন ম্যাজিস্ট্রেটসহ ২৯ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে।
সৌদি আরবের উদ্দেশে ৪১৯ জন হজযাত্রী নিয়ে ছাড়ল হজের প্রথম ফ্লাইট
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: সৌদি আরবের উদ্দেশে ৪১৯ জন হজযাত্রী নিয়ে ঢাকা ছেড়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রথম ফ্লাইট বিজি-৩০০১। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা ১০ মিনিটে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমানটি যাত্রা শুরু করে। বিষয়টি নিশ্চিত করে বিমানবন্দর ইমিগ্রেশন পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার আসিফ জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা ১০ মিনিটে বিজি-৩০০১ ফ্লাইটটি বিমানবন্দর ত্যাগ করে। এ সময় বিমানবন্দরে উপস্থিত থেকে উদ্বোধনী ফ্লাইটের হজযাত্রীদের বিদায় জানান বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী ও ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আবদুল্লাহ। আজ হজ ফ্লাইট বিজি-৩১০১ সকাল সোয়া ১১টায়, বিজি-৩২০১ বিকেল সোয়া ৩টায়, বিজি-৩৩০১ সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় ও শিডিউল ফ্লাইট বিজি-০০৩৫ রাত সোয়া ৮টায় হাজীদের নিয়ে যাত্রা করবে বিমান। বিমানের তথ্যমতে, এবার হজ মৌসুমে শিডিউলসহ মোট ৩৬৫টি ফ্লাইটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন হজযাত্রী পরিবহন করবে। অবশিষ্ট যাত্রী পরিবহন করবে সৌদি এয়ারলাইন্স। জানা যায়, হজ মৌসুমে দু’মাসব্যাপী ৩০৪টি ডেডিকেটেড ও ৬১টি সিডিউল ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান। ৪ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত প্রি-হজে মোট ১৮৯টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে (ডেডিকেটেড ১৫৭ ও সিডিউল ৩২)। পোস্ট হজে ১১৫টি ফ্লাইট চলবে ১৭ আগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত (ডেডিকেটেড ৮৬ ও সিডিউল ২৯)। তার মধ্যে বাংলাদেশ থেকে মদিনা ১৮টি ও মদিনা থেকে বাংলাদেশে ১৫টি সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। এ ছাড়া চট্টগ্রামে ১৯টি ও সিলেট থেকে ৩টি হজ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।
রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় ৭ দিনের রিমান্ডে রিফাত ফরাজী
৩জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার দ্বিতীয় আসামি রিফাত ফরাজীর সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ বুধবার বিকেলে রিফাত ফরাজীর সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির জানান, রিফাত শরীফ হত্যা মামলার ২ নম্বর আসামি রিফাত ফরাজীর ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে হাজির করা হয়। শুনানি শেষে আদালত সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। হত্যা মামলায় রিফাত ফরাজী এজাহারভুক্ত ২ নম্বর আসামি এবং কিলিং মিশনের পরিকল্পনাকারী। ওই হত্যার ঘটনায় সরাসরি অংশ নিয়ে রিফাত শরীফকে প্রথমে কোপানো শুরু করেন তিনি। মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে পুলিশ তাকে বরগুনা থেকে গ্রেফতার করে। গত ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্ত্রীর সামনে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে। তার স্ত্রী আয়শা আক্তার মিন্নি হামলাকারী সাব্বির আহমেদ নয়ন (নয়ন বন্ড) ও রিফাত ফরাজীর সঙ্গে লড়াই করেও তাদের থামাতে পারেননি। গুরুতর আহত রিফাতকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় নয়ন বন্ড, রিফাত ফরাজীসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে ২৭ জুন হত্যা মামলা দায়ের করেন রিফাত শরীফের বাবা মো. আ. হালিম দুলাল শরীফ।
বিচার বিভাগ সম্পূর্ণ স্বাধীন: আইনমন্ত্রী
৩জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: যে কেউ অপরাধ করলে বিচার হবে, এটাই হচ্ছে আইনের শাসন উল্লেখ করে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বিগত যে কোন সরকারের আমলের চেয়ে বর্তমানে বিচার বিভাগ স্বাধীন ও দেশে আইনের শাসন রয়েছে। বুধবার (৩ জুলাই) দুপুরে ময়মনসিংহের নান্দাইল সাব-রেজিস্টার অফিসের নবনির্মিত দ্বিতল ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, বিএনপির আমলে দেশে আইনের কোন শাসন ছিল না। সে সময় বিচার বিভাগ স্বাধীন ছিল না। খালেদা জিয়া এতিমদের টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলেই আদালত সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে তাকে সাজা দিয়েছেন। তারা ইচ্ছাকৃতভাবে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার হত্যার বিচার করেননি। তিনি বলেন,দেশের সকল সাব-রেজিস্টার অফিসগুলোকে পর্যায়ক্রমে আধুনিক ও যুগোপযোগী করে গড়ে তোলা হচ্ছে। এতে নিবন্ধন কাজে গতিশীলতা ও সেবার মান আরও বাড়বে। আইনমন্ত্রী বলেন, ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যা করার পর জিয়াউর রহমান আইন করেছিলেন যাতে হত্যাকারীদের বিচার না হয়। বরং বিচার না করে হত্যাকারীদের পুনর্বাসন ও বিদেশি দূতাবাসে চাকরির ব্যবস্থা করেছিলেন। শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় আসার পর বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার, জাতীয় চার নেতার হত্যার বিচার, যুদ্ধাপরাধীর বিচার ও একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার করেছে। দেশে বিচার বিভাগ স্বাধীন এবং আইনের শাসন আছে বলেই এগুলো সম্ভব হয়েছে। মহাপরিদর্শক (নিবন্ধন) আব্দুল মান্নান খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। আইন ও বিচার বিভাগের সচিব আবু সালেহ শেখ মোহাম্মদ জহিরুল হক, সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আবেদীন তুহিন ও কাজিম উদ্দিন আহম্মদ, ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, নান্দাইল উপজেলা চেয়ারম্যান হাসান মাহমুদ, নান্দাইল পৌর মেয়র রফিক উদ্দিন ভূইয়া প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
রাজধানীর তিন সড়কে ৭ জুলাই থেকে রিকশা বন্ধ
৩জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীর কুড়িল-সায়েদাবাদ, গাবতলী-আজিমপুর ও সায়েন্সল্যাব-শাহবাগ রুটে ৭ জুলাই থেকে রিকশা চলাচল বন্ধ থাকবে বলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন জানিয়েছেন। যানজট নিরসনে গাবতলী থেকে আসাদগেট হয়ে একদিকে আজিমপুর, অন্যদিকে সায়েন্সল্যাব থেকে শাহবাগ পর্যন্ত রিকশা চলাচল বন্ধ হতে যাচ্ছে। আগামী ৭ জুলাই থেকে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। এ ছাড়া কুড়িল বিশ্ব রোড থেকে রামপুরা হয়ে খিলগাঁও-সায়েদাবাদ পর্যন্ত রিকশাসহ অন্যান্য অবৈধ ও অননুমোদিত যানবাহন চলাচল নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বুধবার (৩ জুলাই) নগর ভবনে মেয়রের সভাপতিত্বে ঢাকা মহানগরীর গণপরিবহনে শৃঙ্খলা আনয়নে গঠিত কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন ডিএসসিসি মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। মেয়র বলেন, ঢাকা শহরের সড়কে যানবাহনের শৃঙ্খলা ফেরাতে ডিটিসিএ'র একটি কমিটি গঠিত হয় যার প্রথম বৈঠক ছিলো বুধবার। এ বৈঠকে আমরা ঢাকা শহরের বিভিন্ন সড়ক থেকে রিকশা, লেগুনা ও হিউম্যান হলারসহ বিভিন্ন অবৈধ এবং অ-অনুমোদিত যানবাহন চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেই। তারই অংশ হিসেবে প্রাথমিকভাবে রাজধানীর দুইটি রুটে- কুড়িল থেকে খিলগাঁও রামপুরা হয়ে সায়দাবাদ এবং গাবতলী থেকে আসাদগেট মিরপুর রোড হয়ে আজিমপুর ও সাইন্সল্যাব থেকে শাহবাগ পর্যন্ত সড়কে রিকশার পাশাপাশি অন্য সব অবৈধ যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত নেই। আগামী ৭ জুলাই থেকে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। একই সঙ্গে এসব সড়কের দুই পাশে ফুটপাত দখল করে স্থাপনা এবং অবৈধভাবে নির্মিত ভবন এবং অন্যান্য স্থাপনা উচ্ছেদে কাজ করা হবে বলেও জানান ডিএসসিসি মেয়র। এ সময় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমান, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনের (বিআরটিসি) চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদ ভূঁইয়া, ঢাকা পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্লাহ, ডিটিসিএ’র নির্বাহী পরিচালক রকিবুর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
গৃহবধূর প্রাণ কেড়ে নিলো ফেসবুক
৩জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের আলোচিত গৃহবধূ সাহেরা আক্তার মিতু হত্যার রহস্য উন্মোচন হয়েছে। ঘটনার চারমাস পর হত্যার রহস্য উদঘাটন করে পুলিশ। ফেসবুকে প্রেমের টানে ঘর ছেড়ে লাশ হতে হয় তাকে। কথিত প্রেমিক নারায়নগঞ্জ থেকে ময়মনসিংহে ডেকে নিয়ে গণধর্ষনের পর নির্মমভাবে খুন করে মিতুকে। ঘটনার চারমাস পর মিতু হত্যার রহস্য উদঘাটন করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন পিবিআই। মিতুর কথিত প্রেমিক ত্রিশালের বালিপাড়ার আবুল কালামের ছেলে মোখলেছ ময়মনসিংহ আদালতে দেয়া জবানবন্দিতে মিতু হত্যার কথা স্বীকার করেছে। আদালতে দেয়া জবানবন্দিতে মোখলেস জানায়, মোখলেস রেলওয়েতে হকারের কাজ করে। ফেসবুকের মাধ্যমে মিতুর সাথে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে তার। ২৪ ফেব্রুয়ারীর মিতুকে বিয়ের প্রলোভনে ঢাকার কমলাপুর রেল স্টেশনে নিয়ে আসে মোখলেস। এরপর মোখলেস তার সহযোগীদের নিয়ে সেভেন-আপ ট্রেনে করে মিতুকে ময়মনসিংহ নিয়ে যায়। রাত আনুমানিক দেড়টার দিকে তারা ত্রিশালের ধলা স্টেশনে পৌঁছে। তারপর আনুমানিক ১ কিঃমিঃ দূরে রেল লাইনের পাশে নির্জন স্থানে নিয়ে সকলে মিলে মিতুর হাত ও মুখ বেধে গণধর্ষণ করে। মেয়েটিকে পুনরায় অন্যত্র নিয়ে যাবার সময় মেয়েটি জীবন রক্ষার্থে দৌড় দিলে আসামিরা পিছন থেকে রেল লাইনের পাথর দিয়ে মিতুর মাথার পিছনে আঘাত করে। এতে মিতু পড়ে যায়। তখন পরে আহতবস্থায় আসামিরা তাকে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে রেল ব্রিজের নিচে ডোবার কাঁদা পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে গত ২৫ ফেব্রুয়ারী ময়মনসিংহ জেলার ত্রিশালের কামারিয়াপুল নামক স্থানে রেল লাইনের পাশে অজ্ঞাত হিসেবে মিতুর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ব্যাপারে ত্রিশাল থানা অজ্ঞাতনামা আসামি করে ত্রিশাল থানায় মামলা (মামলা নং-৩৫, ২৫ ধারা-৩০২/৩৪) দায়ের করা হয়। এরপর পিবিআই এর নিজস্ব উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে তার পরিচয় শনাক্ত করে মামলার তদন্ত শুরু করে। গত শনিবার রাতে হত্যায় জড়িত মোখলেসুর রহমানকে আটক করে পিবিআই। দুই সন্তানের জননী সাহেরা আক্তার মিতু সোনারগাঁয়ের লাহাপাড়া গ্রামের ব্যবসায়ী বেলায়েত হোসেনের স্ত্রী। বারসাত নামের ৭ বছরের একটি মেয়ে ও রাতুল নামের ১৫ মাসের একটি ছেলে রয়েছে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি চৌরাস্তার কথা বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আর ফিরে আসেননি। পরে উভয় পরিবারের সদস্যরা অনেক খোঁজাখুঁজির পর মিতুকে না পেয়ে ২৪ ফেব্রুয়ারি রাতেই তার স্বামী বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন- নিউজগার্ডেন
শেখ হাসিনার ট্রেনবহরে হামলার মামলায় ৯ জনের ফাঁসি
৩জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: পাবনার ঈশ্বরদীতে ১৯৯৪ সালে তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে বোমা হামলার মামলায় ৯ জনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ২৫ জনের যাবজ্জীবন এবং বাকিদের ১০ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার পাবনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ রুস্তম আলী এ রায় ঘোষণা করেন। এর আগে গত সোমবার যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছিলেন আদালত। ওইদিন জেলহাজতে থাকা বিএনপির ৩০ নেতাকর্মীর উপস্থিতিতে উভয়পক্ষের আইনজীবীরা তাদের যুক্তি তুলে ধরেন। মামলার ৫২ জন আসামির মধ্যে সাতজন মারা গেছেন। গত রোববার ৩০ জন আসামি জামিন আবেদন করলে বিচারক তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন এবং বাকি আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। আদালত সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৪ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা সাংগঠনিক সফরে খুলনা থেকে রাজশাহী অভিমুখে ট্রেনযোগে রওনা হন। পথে ঈশ্বরদী স্টেশনে তার একটি নির্ধারিত পথসভা ছিল। তাকে বহনকারী ট্রেনটি পাকশী স্টেশনে পৌঁছার পরপরই ওই ট্রেনে ব্যাপক গুলিবর্ষণ ও বোমা হামলা চালানো হয়।
বেইজিংয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লালগালিচা সংবর্ধনা
৩জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: চীনের নেতাদের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে অংশ নিতে বেইজিংয়ে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বুধবার সকালে বেইজিংয়ে পৌঁছানোর পর শেখ হাসিনাকে লালগালিচা সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় সময় সকাল ১১টা ৫ মিনিটে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিশেষ বিমানটি বেইজিং বিমানবন্দরে অবতরণ করে। সেখানে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান চীনের ভাইস ফরেন মিনিস্টার কিং গ্যাং। বিমানবন্দরে একটি ছোট শিশু প্রধানমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানায়। এ সময় চীনের সামরিক বাহিনীর একটি সুসজ্জিত দল প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার প্রদান করে। পরে প্রধানমন্ত্রীকে মোটর শোভাযাত্রা করে দিয়াওয়ুতাই রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবনে নিয়ে যাওয়া হয়। বেইজিং সফরকালে প্রধানমন্ত্রী এখানেই অবস্থান করবেন। এর আগে স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় দিকে চীন সরকারের দেওয়া একটি বিশেষ চার্টার্ড ফ্লাইটযোগে বেইজিংয়ের উদ্দেশে দালিয়ান ত্যাগ করেন প্রধানমন্ত্রী। আজ বিকালে বেইজিংয়ের লিজেনদালি হোটেলে প্রবাসী বাংলাদেশিদের দেওয়া এক নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠান ও নৈশভোজে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামীকাল ৪ জুলাই সকালে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠান এবং গ্রেট হল অব দ্য পিপলে হিরোস মেমোরিয়ালে বীরদের প্রতি পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন তিনি। পরে তিনি চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংয়ের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করবেন এবং গ্রেট হল অব দ্য পিপলে এক চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। প্রধানমন্ত্রী একই জায়গায় চীনা প্রধানমন্ত্রী আয়োজিত এক নৈশভোজেও যোগ দেবেন। একই দিন বিকেলে প্রধানমন্ত্রী সিসিপিআইটিতে চীনা ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে বাণিজ্যবিষয়ক এক গোল টেবিল বৈঠকে অংশ নেবেন। ৫ জুলাই সকালে চীনা গবেষণা প্রতিষ্ঠান প্যানগোল ইনিস্টিটিউশন আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেবেন প্রধানমন্ত্রী। পরে বিভিন্ন চীনা কোম্পানির সিইও শেখ হাসিনার সঙ্গে তার আবাসস্থলে সাক্ষাৎ করবেন বলে জানা গেছে। এছাড়া এনপিসি চেয়ারম্যান লি ঝাংশুর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সেদিন বিকেলে প্রধানমন্ত্রী দিয়াওয়ুতাই রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবনে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করবেন এবং রাতে একই জায়গায় চীনা প্রেসিডেন্টের দেওয়া নৈশভোজে যোগ দেবেন। প্রধানমন্ত্রী তার চীন সফর শেষ করে ৬ জুলাই স্থানীয় সময় সকাল ১১টায় বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবেন। ফ্লাইটটি একই দিন বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টা ৩৫ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছানোর কথা রয়েছে। গত সোমবার পাঁচদিনের সফরে চীন সফরে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জাতীয় পাতার আরো খবর