বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২, ২০২০
আমি সকলের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয় থেকে আমারা যে তালিকা পেয়েছি, সেটি না দেখেই প্রকাশ করেছি। এটিই ছিল আমার ভুল। এর জন্য সকলের কাছে আমি ক্ষমাপ্রার্থী। শুক্রবার দুপুরে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে ভবন উদ্ধোধন ও মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, প্রতিটি উপজেলায় যদি মুক্তিযোদ্ধাদের কমিটি থাকতো তাহলে এই ভুল হতো না। প্রকাশ করা তালিকায় ভুল থাকায় তা স্থগিত করা হয়েছে। অচিরেই সংশোধন করে তা প্রকাশ করা হবে। এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোশারফ হোসেন খানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, টাঙ্গাইল-৪ আসনের সংসদ সদস্য হাছান ইমাম খান সোহেল হাজারী, টাঙ্গাইল-৮ আসনের সংসদ সদস্য জোয়াহেরুল ইসলাম জোয়াহের, কালিহাতী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনছার আলীসহ মুক্তিযোদ্ধারা। নিউজ একাত্তর / ই -চৌধুরী
গাইবান্ধার এমপির মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী শোক
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: গাইবান্ধা-৩ আসনের সংসদ সদস্য ডা. মো. ইউনুস আলী সরকারের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এক শোকবার্তায় শেখ হাসিনা মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং তার শোক-সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। এছাড়াও ডা. মো. ইউনুস আলী সরকারের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। উল্লেখ্য, গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্লাপুর-পলাশবাড়ী) আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য ডা. মো. ইউনুস আলী সরকার শুক্রবার সকালে রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর।সূত্র : ইউএনবি। সাদুল্লাপুর উপজেলা আলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাহারিয়া খান জানান, ডা. মো. ইউনুস আলী সরকার সংসদীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটির সদস্য ছিলেন। এছাড়া তিনি একই আসন থেকে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। গত ১৬ বছর থেকে সাদুল্লাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন।
অপকর্মের রেকর্ড নেই এ ধরনের প্রার্থী নেব,ঢাকার পর চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নির্বাচন
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: শুক্রবার ধানমন্ডির দলীয় সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন। তিনি বলেন, যাদের বিরুদ্ধে অপকর্মের কোনো রেকর্ড নেই তাদেরকেই মনোনয়ন দেয়া হবে। যাদের অপকর্মের রেকর্ড নেই এ ধরনের প্রার্থীদের আমরা বেছে নেব। ওবায়দুল কাদের বলেন, শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় গণভবনে মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠক হবে। এতে সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। সেখানে দুই সিটিতে ১৭২ জন কাউন্সিলর ও মেয়র প্রার্থীর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব। জনপ্রিয় এবং গ্রহণযোগ্য প্রার্থীদের মনোনয়ন দেয়ার জন্য বোর্ড বসবে। ক্লিন ইমেজের প্রার্থীদের মনোনয়ন দেয়ার বিষয়ে নেত্রীরও মাইন্ড সেট আছে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে নারী-পুরুষ মিলিয়ে ১৫ জন নতুন মুখ এসেছে। কমিটি গঠনের পরপরই একটা চ্যালেঞ্জ; ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন। এরপর চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হবে। সে জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে। তিনি আরো বলেন, ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দল থেকে আহ্বান করা হয়েছিলো। মেয়র পদে এ পর্যন্ত ৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য ফরম সংগ্রহ করেছে।
আবারও শুরু হয়েছে শৈত্যপ্রবাহ,আরও কমবে তাপমাত্রা
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: দুদিনের ব্যাবধানে আবারও শুরু হয়েছে শৈত্যপ্রবাহ। সেই সঙ্গে বেড়েছে শীতের দাপট। তীব্র শীতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। শৈত্যপ্রবাহের সঙ্গেই দেশের বিভিন্ন স্থানে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি শুরু হয়েছে। এমন পরিস্থিতি অব্যাহত থাকার পাশাপাশি শৈত্যপ্রবাহ আরও ছড়িয়ে পড়ার আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। এছাড়া সারাদেশে রাত ও দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস হ্রাস পেতে পারে। এতে আগামী তিনদিন তাপমাত্রা কমবে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। শনিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত দেয়া এক পূর্বাভাসে আবহাওয়া অফিস বলছে, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ রয়েছে দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে। এ অবস্থায় চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা, বরিশাল, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও রাজশাহী বিভাগের দু'এক জায়গায় হালকা গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। পঞ্চগড়, দিনাজপুর ও নীলফামারী অঞ্চলসমূহের উপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে ও বিস্তার লাভ করতে পারে। তবে বৃহস্পতিবারের চেয়ে শৈত্যপ্রবাহের তীব্রতা কমেছে। এদিন ওইসব অঞ্চলের উপর দিয়ে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে গেলেও শুক্রবার তাপমাত্রা কিছুটা বেড়ে মৃদুতে ওঠে এসেছে। শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে তেঁতুলিয়ায় ৯ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগের দিন যেটা ৫ দশমিক ৭ ডিগ্রিতে নেমে গিয়েছিল। এদিকে ঢাকায় আবারও সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পার্থক্য সবচেয়ে কমে এসেছে ৬ দশমিক ৬ ডিগ্রিতে। ফলে শীতও বেড়েছে। শুক্রবারও সূর্যের দেখা মিলেনি। তার ওপর বাতাস বইছে উত্তর, পশ্চিম-উত্তর দিক থেকে ঘণ্টায় ৬ থেকে ১২ কিলোমিটার বেগে। ফলে মোটা কাপড় ছাড়া দিনেও বাইরে বের হওয়া যাচ্ছে না। গ্রামে রাতের বেলা শীত মানছে না লেপ মুড়িয়েও। ঠা-া বাতাসে দরজা, জানালার ফাঁক গলে সীমাহীন কষ্টের মধ্যে ফেলেছে দেশবাসীকে। বৃহস্পতিবার থেকে শুক্রবার সকাল ৯টা পর্যন্ত দেশে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে যশোরে, ১৪ মিলিমিটার।
রাজধানীতে হুজির ৬ সদস্যকে গ্রেপ্তার
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীতে হরকাতুল জিহাদ আল ইসলামী বাংলাদেশের (হুজি-বি) ৬ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে উত্তর বাড্ডার সাতারকুল এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে । প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশকে বড় ধরণের নাশকতার পরিকল্পনা ছিল বলে স্বীকার করেছেন হুজি-বির সদস্যরা। আজ শুক্রবার দুপুরে মাওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলেন এ তথ্য জানান কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম। যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে- হুজির ডাকাত দলনেতা মো. বিল্লাল হোসেন (২৫), নুর আলম (২৮), মো. রফিকুল ইসলাম (২৯), আবুল মিয়া (৩৫), আব্দুর রহমান (৩০) ও আকতার হোসেন (৩৪)। সংবাদ সম্মেলনে মনিরুল ইসলাম বলেন, সংগঠনকে শক্তিশালী করা ও কারাগারে বন্দী সদস্যদের জামিনের অর্থ সংগ্রহের উদ্দেশ্যে তারা নানা পরিকল্পনা করছিল। ইতোমধ্যে তারা দেশের বিভিন্ন স্থানে কয়েকটি ডাকাতির ঘটনায় জড়িত ছিল। এই গ্রুপের ১২ জন সদস্য গত ৪ মার্চ অস্ত্র ও বিস্ফোরকসহ গ্রেপ্তারের পর নতুন করে সংগঠিত হওয়ার চেষ্টা করেছিল। তারা ঢাকার কোনো গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপসহ বড় ধরনের নাশকতার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে বাড্ডার সাতারকুল এলাকায় মিলিত হয়েছিল। এই গ্রুপের বর্তমান দলনেতা বিল্লাল হোসেন বলেও জানান তিনি। সিটিটিসি প্রধান বলেন, ২০১৬ সালে রাজধানীর হলি আর্টিসান বেকারিতে হামলার যে সক্ষমতা জঙ্গিদের ছিল, এরপর আমরা দেশব্যাপী অভিযান পরিচালনা করে অনেক জঙ্গি আস্তানা ধ্বংস করে দিয়েছি। গ্রেপ্তার করা হয়েছে অনেককে। এখন আর জঙ্গিদের এ রকম হামলা করার সক্ষমতা নেই।
জনপ্রিয় প্রার্থীকেই দল থেকে মনোনয়ন দেওয়া হবে
২৬ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের আসন্ন নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর পদে কোন বিতর্কিত প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার কাঞ্চন এলাকায় ভোগরা-জয়দেবপুর-মদনপুর (ঢাকা-বাইপাস) সড়কের পিপিপির আওতায় নির্মাণাধীন ছয় লেন বিশিষ্ট এক্সপ্রেসওয়ে সড়কের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা জানান। মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, দুই সিটিতে মেয়র পদে বিজয়ী হতে পারবেন এমন জনপ্রিয় প্রার্থীকেই দল থেকে মনোনয়ন দেওয়া হবে। ওবায়দুল কাদের জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে বিভিন্ন সংস্থা ও তার নিজস্ব টিম দিয়ে প্রার্থীদের জনপ্রিয়তা সম্পর্কে জরিপ করেছে জনমত যাচাই করেছেন। ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে করতে নির্বাচন কমিশনকে সরকারের পক্ষ থেকে সকল প্রকার সহায়তা করা হবে। সরকার এবং সরকারি দল এই দুই সিটির নির্বাচনে কোন হস্তক্ষেপ করবে না বলেও আশ্বস্ত করেন তিনি। এক্সপ্রেসওয়ে সড়কের নির্মাণ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, ঢাকা এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণ কাজ নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই শেষ হবে । মদ্ধবর্তী সময়ে প্রকল্পের অর্থ বরাদ্দ নিয়ে কিছু জটিলতা সৃষ্টি হওয়ায় নির্মান কাজ কিছুটা ধীরগতিতে চলেছিল। তবে অর্থ বরাদ্দের বিষয়টি ইতিমধ্যে সমাধান হওয়ায় নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। মন্ত্রী জানান, চীনের বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সিচুয়ান রোড এন্ড ব্রিজ গ্রুপ কর্পোরেশন লিমিটেড, দেশের শামীম এন্টারপ্রাইজ প্রাইভেট লিমিটেড এবং ইউডিসি কনস্ট্রাকশন লিমিটেড যৌথভাবে ২০১৮ সালের ৬ ডিসেম্বর পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ চুক্তি স্বাক্ষর করেছে এক্সপ্রেস ওয়ে নির্মাণ কাজের জন্য। পিপিপির আওতায় ঢাকা বাইপাস সড়কের নির্মাণকাজ আগামী তিন বছরের মধ্যেই শেষ হবে। নির্মাণ ব্যয় প্রসঙ্গে মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, এই প্রকল্পটির নির্মান কাজে প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। এর মধ্যে ২শ ২৩ কোটি টাকা অর্থমন্ত্রণালয় অনুদান হিসেবে বরাদ্দ দিবে। বাকি টাকা পিপিপির আওতায় চুক্তিপত্র বদ্ধ বিদেশি দুইটি কোম্পানি বহন করবে । জমি অধিগ্রহণ ও সার্ভিস চার্জ হিসেবে সড়ক ও জনপথ বিভাগ পাঁচশত কোটি টাকা ব্যয় করবেন। বাকি বাকি ৩হাজার ২শ ৭৬ কোটি টাকা বেসরকারি বিনিয়োগকারীরা বিনিয়োগ করবেন। ২০২২ সালের মধ্যে ঢাকা-বাইপাস সড়কের ৬ লেন বিশিষ্ট এক্সপ্রেস সড়ক নির্মাণ কাজ শেষ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
মাহবুব তালুকদারের পদত্যাগ করে কথা বলা উচিত ছিল: তথ্যমন্ত্রী
২৬ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মাহবুব তালুকদার তার ব্যর্থতার যেসব কথা বলেছেন, পদত্যাগ করে তা বলা উচিত ছিল। তিনি বলেন, মাহবুব তালুকদার তার পদে (অবস্থানে) থেকে এ ধরনের কথা বলা আত্মপ্রবঞ্চনা। মন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে তার দফতরে রাজনৈতিক ও সমসাময়িক বিষয়ে সংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন। নির্বাচন প্রক্রিয়া এবং নির্বাচন কমিশন সংস্কার এগুলো আওয়ামী লীগের দাবির ভিত্তিতেই হয়েছে উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, আওয়ামী লীগের দাবির প্রেক্ষিতে ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা হয়েছে। নির্বাচন প্রক্রিয়া এবং নির্বাচন কমিশনেও অনেক সংস্কার হয়েছে। সংস্কার একটি চলমান প্রক্রিয়া, যুগের এবং সময়ের প্রয়োজনে এ সংস্কার যেকোন সময়ই হতে পারে। ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণকে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর থেকে যেসব সিটি কর্পোরেশন এবং অন্যান্য নির্বাচন হয়েছে তার সব কটি সুষ্ঠু ও অবাধ হয়েছে। মন্ত্রী বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে বলেই বিএনপির প্রার্থী অনেক স্থানে জয়লাভ করেছে। সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনও অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে হবে বলেও আমার দৃঢ় বিশ্বাস। কারণ, ইসি অত্যন্ত সুষ্ঠু ও স্বাধীনভাবে কাজ করছে।
ভিপি নূরকে নিরাপত্তা দিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে লিগ্যাল নোটিশ
২৬ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নূরের অবিলম্বে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও প্রক্টরের প্রতি লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) এ নোটিশ পাঠান সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. মনিরুজ্জামান। ওই নোটিশে বলা হয়েছে, নোটিশ পাওয়ার ৭ দিনের মধ্যে নূরের যথাযথ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় এ বিষয়ে হাইকোর্টে রিট করা হবে। এর আগে, রোববার (২২ ডিসেম্বর) দুপুরে ভিপি নুরুল হককে তার ডাকসুর কক্ষে ঢুকে বাতি নিভিয়ে পেটান মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতাকর্মীরা। ভিপি নূরসহ আহতদের অভিযোগ, ছাত্রলীগ এ হামলায় সরাসরি অংশ নেয়। এ সময় নূরের সঙ্গে থাকা ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের অন্তত ৩০ জনকে বেধড়ক মারধর করা হয়। দুজনকে ছাদ থেকে ফেলে দেয়া হয়। তাদের মধ্যে রোববার রাত পর্যন্ত ১৪ জন হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। চলতি বছরের শুরুতে অনুষ্ঠিত ডাকসু নির্বাচনে অধিকাংশ পদে ছাত্রলীগ প্রার্থীরা জয়ী হলেও ভিপিসহ দুটো পদে জয়ী হন কোটা সংরক্ষণ আন্দোলনকারীদের প্যানেলের দুই প্রার্থী। এরপর থেকে বিভিন্ন সময় হামলার মুখে পড়েন নূর।
বাংলার আকাশ মুক্ত রাখার শপথ বাস্তবায়ন করবেন, এটাই প্রত্যাশা
২৬ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,স্পেশাল প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকে আপনারা বাংলার আকাশ মুক্ত রাখার শপথ বাস্তবায়ন করবেন। নতুন প্রজন্মের উদীয়মান কর্মকর্তা হিসেবে বিমান বাহিনীকে আপনারা নিয়ে যাবেন সফলতার শিখরে। এই প্রত্যাশাই থাকবে। বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) যশোরে বিমান বাহিনী একাডেমিতে বক্তব্য রাখার সময় নবীন কর্মকর্তাদের উদ্দেশে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিমানবাহিনীর ক্যাডেটদের শীতকালিন রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনীকে গুরুত্ব দিয়ে আরও আধুনিক বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার কাজ করছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সশস্ত্র বাহিনীর উন্নয়নের বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও আওয়ামী লীগ সরকারের পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন,বঙ্গবন্ধুকে হত্যার ২১ বছর পর সরকার গঠন করি। ক্ষমতায় এসে আওয়ামী লীগ বিমান বাহিনীর উন্নতির পদক্ষেপ নেয়। ৯৬ সালে আমরা ক্ষমতায় এসে তৎকালীন সবচেয়ে আধুনিক যুদ্ধবিমান মিগ-টোয়েন্টিনাইন কিনি। বিমান বাহিনীসহ সব বাহিনীকে আধুনিক করতে যুদ্ধবিমানসহ বিভিন্ন ধরনের সরঞ্জাম কেনা হয়েছে। এখন বিমান বাহিনী অনেক বেশি দক্ষ ও চৌকশ। ক্যাডেটদের প্রশিক্ষণের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। যাতে তারা বিভিন্ন বিষয়ে গ্র্যাজুয়েশন করতে পারে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ মনে করিয়ে দিয়ে তিনি ক্যাডেটদের উদ্দেশে বলেন,সৈনিক জীবন অত্যন্ত কঠিন জীবন, তবে পথ হারানো যাবে না। আমি আশা করি এই কথা আপনারা সবসময় মনে রাখবেন। বিমান বাহিনী অ্যাকাডেমি থেকে যে প্রশিক্ষণ আপনারা গ্রহন করেছেন তার যথেষ্ট অনুশীলন আপনারা বাস্তব জীবনেও রাখবেন। ২০২০ সালে জাতির পিতার জন্মশত বার্ষিকী আমরা উদযাপন করব। ২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী পালন করবো। এই অনুষ্ঠানগুলোর মধ্য দিয়ে আমাদের স্বাধীনতার পতাকা আরও সমুজ্জ্বল হবে। বিশ্ব দরবারে আমরা দেশকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাব এটাই আমাদের লক্ষ্য।

জাতীয় পাতার আরো খবর