রবিবার, জুলাই ১৫, ২০১৮
পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে রেলপথ নির্মাণে চুক্তি
দেশের সর্বোচ্চ ব্যয়বহুল রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে যুক্ত হচ্ছে রেলপথ। পাবনার ঈশ্বরদী থেকে রূপপুর বিদ্যুৎ প্রকল্প পর্যন্ত এ রেলপথ নির্মাণে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণকাজের ভারী মালামাল নিরাপদে ও দ্রুত পরিবহনসহ ওই এলাকার যোগোযোগ ব্যবস্থার সার্বিক উন্নয়নে নতুন রেলপথ নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার রেলভবনে এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (পশ্চিম) মো. মজিবর রহমান এবং ঠিকাদার কোম্পানির পক্ষে শুভাষ চন্দ্র হাওলাদার চুক্তিতে সই করেন। এ প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে (জয়েন্ট ভেঞ্চার) জিপিটি-এসইএল-সিসিসিএলকে ঠিকাদার হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। ভারতের জিপিটি এবং বাংলাদেশের এসইএল ও সিসিসিএল ২৯৭ কোটি ৫৫ লাখ টাকায় ঈশ্বরদী বাইপাস টেক অব পয়েন্ট থেকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পর্যন্ত ২৬ দশমিক ৫২ কিলোমিটার ডুয়েল গেজ রেলপথ নির্মাণ করবে। রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন জানান, চুক্তি অনুযায়ী, জিপিটি-এসইএল-সিসিসিএল আগামী ১৮ মাসের মধ্যে এ কাজ শেষ করবে। তিনি বলেন, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র সরকারের একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প। এ প্রকল্পের মালামাল ও যন্ত্রপাতি পৌঁছাতে এ রেললাইন নির্মাণ করা হচ্ছে। নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান খুব দ্রুত এ কাজ শেষ করবে বলে আশাকরি। মুজিবুল হক আরো বলেন, বিজ্ঞান ও প্রযু্ক্তি মন্ত্রণালয়ের চাহিদার ভিত্তিতে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে রেল সংযোগের জন্য সিগন্যালসহ রেললাইন সংস্কার ও নির্মাণ প্রকল্পটি গ্রহণ করে বাংলাদেশ রেলওয়ে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য সার্বিক ট্রান্সপোর্ট ব্যবস্থাপনা স্থাপিত হবে। রেলমন্ত্রী বলেন, এর মাধ্যমে ঈশ্বরদী বাইপাস টেক অব পয়েন্ট থেকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পর্যন্ত ডুয়েল গেজ রেলপথ স্থাপিত হবে। সুতরাং খুব সহজেই চট্টগ্রাম ও খুলনা বন্দর থেকে মালামাল রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে পরিবহন করা সম্ভব হবে। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অধীনে এ প্রকল্পের আওতায় যে ২৬ দশমিক ৫২ কিলোমিটার নতুন রেললাইন হবে, তার মধ্যে ২২ দশমিক ০২ কিলোমিটার হবে মূল লাইন, আর ৪ দশমিক ৫ কিলোমিটার হবে লুপ লাইন। এছাড়া, ১৩টি লেভেলক্রসিং গেইট, একটি ‘বি’ শ্রেণির স্টেশন ভবন, একটি প্ল্যাটফর্ম এবং সাতটি বক্স কালভার্ট নির্মাণ করা হবে বলেও জানান তিনি। এই রেললাইন হলে চট্রগ্রাম ও খুলনা বন্দর থেকে সহজেই বিদ্যুৎকেন্দ্রে মালামাল পরিবহন করা সম্ভব হবে বলে অনুষ্ঠানে আশা প্রকাশ করেন রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. আমজাদ হোসেন। ওই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোজাম্মেল হোসেন, রেলওয়ের মহাপরিচালক আমজাদ হোসেন, সিসিসিএলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) কাজী নাবিল আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
বুধবার হজ কার্যক্রমের উদ্বোধন
অনলাইন ডেস্ক: চলতি বছর হজ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে বুধবার। রাজধানীর আশকোনায় ক্যাম্পে হজ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর হজযাত্রীদের সৌদি আরব যাওয়ার ফ্লাইট শুরু হবে ১৪ জুলাই। সোমবার বিকালে সচিবালয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান এসব কথা জানান। এর আগে এবারের হজ কার্যক্রমের সর্বশেষ অগ্রগতি পর্যালোচনায় ধর্মমন্ত্রীর সভাপতিত্বে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এ বছর থেকে সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি বেসরকারি হাসপাতালেও হাজযাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সৌদি আরব সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী হজে যাওয়ার আগে স্বাস্থ্যের পরীক্ষা করাতে হয়। হজযাত্রীরা রক্তের গ্রুপ, ব্লাড সুগার, এক্সরে এবং ইসিজি বেসরকারি হাসপাতালেও করাতে পারবেন। সোমবারের আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। হজে যেতে ঢাকায় সৌদি দূতাবাস থেকে ভিসা নেওয়ার আগে হজযাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার রিপোর্টও পাসপোর্টের সঙ্গে জমা দিতে হচ্ছে। ৩ জুলাই থেকে সরকারি হাসপাতালগুলোতে এ স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) সানিয়া তাহমিনা বলেন, স্বাস্থ্য পরীক্ষার বিষয়ে সৌদি সরকার কড়াকড়ি করেছে, এজন্য আমরা স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বেশি মনোনিবেশ করছি। এ পরীক্ষা সরকারি-বেসরকারিভাবে করাতে পারবেন। সরকারিভাবে করলেও বিনা পয়সায় করা যায় না, ইউজার ফি দিতে হয়। সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীদের জন্য পরীক্ষা করার সক্ষমতা রয়েছে। কিন্তু বিপুল পরিমাণ হজযাত্রীদের সেবা করার সক্ষমতা নেই। লিখিত বক্তব্যে ধর্মমন্ত্রী জানান, সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী এ বছর বাংলাদেশ থেকে হজে যাবেন ১ লাখ ২৬ হাজার ৭৯৮ জন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৬ হাজার ৭৯৮ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ জন হজযাত্রী যাবেন। ২১ আগস্ট (চাঁদ দেখা সাপেক্ষে) পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে। ১১ জুলাই আশকোনায় হজ কার্যক্রম শুরু হবে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হজ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন। তিনি বলেন, এবার ৫২৮টি হজ এজেন্সি হজ কার্যক্রম পরিচালনার সঙ্গে যুক্ত রয়েছে। হজ ফ্লাইট শুরু হবে ১৪ জুলাই এবং হজ ফ্লাইট শেষ হবে ১৫ আগস্ট। হজের ফিরতি ফ্লাইট শুরু হবে ২৭ আগস্ট এবং শেষ হবে ২৫ সেপ্টেম্বর। বাংলাদেশ বিমান ১৮৭টি ফ্লাইটে ৬৪ হাজার ৯৬৭ জন এবং সাউদিয়া ১৮৮টি ফ্লাইটে ৬১ হাজার ৮৩১ হজযাত্রী পরিবহন করবে। ধর্ম সচিব আনিছুর রহমান জানান, সাউদিয়া এয়ারলাইন্স থেকে ৪৬ হাজার ৭৫৫টি এবং বাংলাদেশ বিমান থেকে ৫১ হাজারের বেশি টিকিট ইস্যু করা হয়েছে। তিনি বলেন, সৌদি থেকে সময়মতো রেসপন্স না পাওয়ার কারণে কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে। তবে গেল বছরের এ সময়ের থেকে অনেক অনেকগুণ এগিয়ে আছি।
২১ দিনপর স্বর্ণ ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার
অনলাইন ডেস্ক: নিখোঁজের ২১ দিনপর নারায়ণগঞ্জ শহরের কালিরবাজার স্বর্ণপট্টি এলাকার স্বর্ণ ব্যবসায়ী প্রবীর ঘোষের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (০৯ জুলাই) রাত ১১টায় শহরের আমলাপাড়া কে বি সাহা রোডের নুরুল ইসলাম ওরফে খান্ডু মিয়ার বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। প্রবীর ঘোষ কালিরবাজার স্বর্ণপট্টির ভোলানাথ জুয়েলার্সের মালিক ভোলানাথ ঘোষের ছেলে। তারা ডাক্তার অমল বাবুর বাড়িতে ভাড়া থাকেন। জানা যায়, প্রবীর নিখোঁজ হওয়ার পর তার বাবা ভোলানাথ দাস বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় জিডি করেন। ওই জিডির তদন্ত জেলা গোয়েন্দা পুলিশকে দেয়া হয়। ডিবি পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে পিন্টু ও বাবু নামে দুইজনকে আটক করে। পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে খান্ডু মিয়ার ভবনের সেফটিক ট্যাংক থেকে প্রবীরের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) উপ-পরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
বিদেশি পতাকার ব্যবহার বন্ধে হাইকোর্টের রুল
অনলাইন ডেস্ক: ১৯৭২ সালের পতাকা আইন লঙ্ঘন করে জাতীয় পতাকা ও বিদেশি পতাকা উত্তোলন বন্ধে প্রশাসনের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। সোমবার এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. সেলিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। রিটের পক্ষে আদালতে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট গাজী ফরহাদ রেজা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল জাকির হোসেন রিপন। স্বরাষ্ট্র সচিব, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, তথ্য সচিবসহ চারজনকে আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মনজুরুল হকসহ ১৩ জন এই রিট আবেদনটি দায়ের করেন। গত ২৮ মে ফুটবল বিশ্বকাপ ২০১৮ চলাকালে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে বিদেশি পতাকার অননুমোদিত ব্যবহার বন্ধে হাইকোর্টে আরেকটি রিট দায়ের করা হয়েছিল। ওই রিট আবেদনে বলা হয়, ১৪ জুন ২০১৮ তারিখ থেকে রাশিয়ায় ফুটবল বিশ্বকাপ ২০১৮ অনুষ্ঠিত হবে। অতীতে সব সময় দেখা গেছে, ফুটবল বিশ্বকাপ চলাকালে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন দলের বাংলাদেশি সমর্থকেরা বাংলাদেশের বহু স্থানে বিদেশি পতাকা উত্তোলন করেন। বিশেষত আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, জার্মানি ইত্যাদি দেশের বড় বড় পতাকায় সারা বাংলাদেশ ছেয়ে যায়। অথচ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের পতাকা বিধিমালা, ১৯৭২-এর বিধান অনুযায়ী, বাংলাদেশে অবস্থিত বিদেশি কূটনৈতিক মিশনসমূহ ছাড়া অন্য কোনো স্থানে বিদেশি রাষ্ট্রের পতাকা উত্তোলন করতে হলে বাংলাদেশ সরকারের বিশেষ অনুমোদন গ্রহণ করতে হবে। সেই বিধান লঙ্ঘন করে ফুটবল বিশ্বকাপ চলাকালে নির্বিচারে দেশব্যাপী বিদেশি পতাকা উত্তোলন করা হয়। যা বেআইনি। অালোকিত বাংলাদেশ
শিশু একাডেমি আইনের খসড়ার নীতিগত অনুমোদন
অনলাইন ডেস্ক: মহাপরিচালকের পদ সৃষ্টি করে বাংলাদেশ শিশু একাডেমি আইন ২০১৮-এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। আগে একজন পরিচালকের নেতৃত্বে পরিচালিত হতো বাংলাদেশ শিশু একাডেমি। সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের জানান, এর আগে বাংলাদেশ শিশু একাডেমির পরিচালক নির্বাচিত হতো সাধারণ সাহিত্যিক ও শিল্প বিষয়ে অভিজ্ঞদের মধ্য থেকে। কিন্তু এখন থেকে এ প্রতিষ্ঠান মহাপরিচালকের দায়িত্ব পালন করবেন প্রশাসনের অতিরিক্ত সচিব পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তা।
মন্ত্রিসভায় কৃষিনীতি-২০১৮ অনুমোদন
অনলাইন ডেস্ক: জেনেটিক, যন্ত্রনির্ভর, ন্যানো প্রযুক্তি ও সমবায়ভিত্তিক কৃষি খামারকে গুরুত্ব দিয়ে জাতীয় কৃষিনীতি-২০১৮ এর খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার (৯ জুলাই) সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত সভাশেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, জাতীয় কৃষিনীতি-২০১৩ কে সংশোধন, পরিবর্ধন ও সমৃদ্ধ করে এবারের কৃষিনীতির খসড়া তৈরি করা হয়েছে। এবারের নীতিমালায় প্রযুক্তিনির্ভর ও সমবায়ভিত্তিক কৃষি খামারের উপর জোর দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, এ নীতিমালার লক্ষ্য হলো- নিরাপদ ও কৃষিজ উৎপাদন বাড়িয়ে খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা, লাভজনক, উৎপাদনশীল, পরিবেশবান্ধব ও টেকসই প্রবৃদ্ধি অর্জন করা। পাশাপাশি ফসলের উৎপাদনশীলতা ও কৃষকের আয় বৃদ্ধি, শস্য বহুমুখীকরণ, পুষ্টিসমৃদ্ধ নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন করা। এছাড়া দক্ষ প্রাকৃতিক সম্পদ ব্যবস্থাপনা, টেকসই প্রবৃদ্ধি ও কর্মসংস্থান সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন করাই এ নীতিমালার মূল উদ্দেশ্য বলেও জানান তিনি। সচিব আরও বলেন, ২০১৩ সালের আইনকে আরও যুগপযোগী করা হয়েছে। এতে গবেষণা কাজে ন্যানো প্রযুক্তির ব্যবহার, মানসম্মত নগরকেন্দ্রিক কৃষিসেবা, কৃষির যান্ত্রিকীকরণ, কৃষি উপকরণ, উপকারী পোকা সংরক্ষণ, সেচ ও পানি পুনঃব্যবহারের বিষয় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তিনি জানান, মন্ত্রিপরিষদের আলোচনায় পাট বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত এবং তিল ও তিষি চাষ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এছাড়া শিশু একাডেমি আইন-২০১৮ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে মন্ত্রিসভা বৈঠকে।
বিএফইউজের নির্বাচন স্থগিত করার আদেশ বাতিল
অনলাইন ডেস্ক: বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) নির্বাচন স্থগিত করার আদেশ বাতিল (ভ্যাকেইট) করে দিয়েছেন আদালত।গত ৬ জুলাই সারাদেশে বিএফইউজে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবার কর্মসূচি ছিল। সোমবার দুপুরে স্থগিতাদেশের ওপর শুনানি শেষে ঢাকার প্রথম শ্রম আদালতের বিচারক ড. মো. শাহজাহান এ আদেশ দেন। সাংবাদিকদের একটি অংশের মামলার প্রেক্ষিতে গত ৫ জুলাই নির্বাচন স্থগিত করার আদেশ দিয়েছিলেন একই আদালত। সোমবার নির্বাচন কমিশনের পক্ষে তাদের আইনজীবী মবিনুল ইসলাম শুনানি করেন। শুনানিতে তিনি বলেন, বিএফইউজে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি সততা, দক্ষতা ও নিরপেক্ষতার সঙ্গে নির্বাচন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিলেন। শ্রম অধিদফতরের মহাপরিচালক সময়ে সময়ে যে নির্দেশনা দিয়েছেন, তা-ও যথাযথভাবে পালন করা হচ্ছিল। কিন্তু বাদীপক্ষ পুরো বিষয়টির জন্য অপেক্ষা না করে তড়িঘড়ি করে আদালতে চলে আসে। আদালত বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন সময়ে সময়ে যে পদক্ষেপ নিয়েছে তাতে আমি সন্তুষ্ট।আদালত তাদের বক্তব্য শুনে নির্বাচন স্থগিত করে দেন। তবে সোমবার নির্বাচন কমিশনের পক্ষে শুনানি করে আদালত সন্তুষ্ট হন এবং নির্বাচন স্থগিত করার আদেশ বাতিল করে দেন।
সীমান্ত সম্মেলন শুরু
অনলাইন ডেস্ক: বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এবং মায়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) এর সিনিয়র পর্যায়ে ৪ দিনব্যাপী (০৯-১২ জুলাই) সীমান্ত সম্মেলন আজ সকাল সাড়ে ৯ টায় পিলখানাস্থ বিজিবি সদর দপ্তরের সম্মেলন কক্ষে শুরু হয়েছে। মায়ানমারের চীফ অব পুলিশ জেনারেল স্টাফ, পুলিশ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মায়ো থানের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের মায়ানমার প্রতিনিধিদল সম্মেলনে যোগদান করেছেন। মায়ানমার প্রতিনিধিদলে মায়ানমার পুলিশ ফোর্সের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন। অপরদিকে, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ আনিছুর রহমানের নেতৃত্বে ১৫ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল সম্মেলনে অংশগ্রহণ করছেন। বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলে বিজিবির উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ ছাড়াও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ কোষ্ট গার্ড এবং মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন। এবারের সম্মেলনের আলোচ্য বিষয়ের মধ্যে রয়েছে; অবৈধ মাদকদ্রব্য/নেশাজাতীয় দ্রব্য বিশেষ করে ইয়াবা পাচার প্রতিরোধ, সীমান্তবর্তী এলাকায় মায়ানমারের বিজিপি ও সেনাবাহিনী কর্তৃক ফায়ারিং, মায়ানমার নাগরিকদের অবৈধভাবে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ, সীমান্তবর্তী এলাকায় মায়ানমারের সামরিক হেলিকপ্টার ও ড্রোন চলাচল, শূন্য লাইন হতে মাইন/আইইডি (ইম্প্রোভাইজ্ড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস) অপসারণ, বর্ডার লিয়াজোঁ অফিস স্থাপন, প্রাকৃতিক দুর্যোগের কবলে পড়ে বা অসতকর্তাবশত: সীমান্ত অতিক্রমের কারণে আটক/কারাভোগের পর নাগরিকদের স্বদেশে প্রত্যাবর্তন, সীমান্তবর্তী এলাকায় বিভিন্ন উন্নয়নমূলক নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন এবং সীমান্তে নিরাপত্তা রক্ষায় পারস্পরিক সহযোগিতা ও আস্থা বৃদ্ধির বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন। বৈঠক শেষে আগামী ১২ জুলাই সকাল ৯ টায় যৌথ আলোচনার দলিল (জয়েন্ট রেকর্ড অব ডিসকাশন্স-জেআরডি) স্বাক্ষরিত হবে এবং একই দিনে মায়ানমার প্রতিনিধিদল ঢাকা ত্যাগ করবেন।
মাদক বিরোধী অভিযানে আটক ৮৫
অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান চালিয়ে মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ৮৫ জনকে আটক করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। রোববার সকাল ৬টা থেকে সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ডিএমপি’র বিভিন্ন থানা ও গোয়েন্দা পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করে। ডিএমপির মিডিয়া সেন্টার সূ‌ত্রে জানা গেছে, আটকের সময় তাদের কাছ থেকে ১ হাজার ৫৪৯ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ৪৬৭ গ্রাম ২ হাজার ১৫০ পুরিয়া হেরোইন, ১২১ বোতল ফেন্সিডিল, ৩ কেজি ২৪০ গ্রাম গাঁজা ও দেড় হাজার পিস নেশাজাতীয় ইনজেকশন উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আটকদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৫৪টি পৃথক মামলা হয়েছে।