বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২, ২০২০
জাতীয় সংসদ ভবনে খোকার জানাজা সম্পন্ন
০৭নভেম্বর,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও অবিভক্ত ঢাকার সাবেক মেয়র মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার দ্বিতীয় জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) বেলা সোয়া ১১টার দিকে জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় খোকার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা ২৬ মিনিটে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে নিউইয়র্ক থেকে দুবাই হয়ে তার মরদেহ ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়। নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে মেমোরিয়াল স্লোন ক্যাটারিং ক্যানসার সেন্টার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন সাদেক হোসেন খোকা। সেখানে বাংলাদেশ সময় সোমবার (৪ নভেম্বর) দুপুর ১টার দিকে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। মঙ্গলবার নিউইয়র্ক সময় রাত ১১টা ২০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় বুধবার সকাল ১০টা ২০ মিনিটে) সাদেক হোসেন খোকার মরদেহবাহী এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ইকে ২০২ নম্বর ফ্লাইটটি দুবাইর পথে রওনা হয়। সেখান থেকে একই এয়ারলাইন্সের ইকে ৫৮২ নম্বর ফ্লাইটে বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকায় অবতরণ করে। বিমানবন্দরে সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ গ্রহণ করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। এ সময় বাইরে ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলনসহ দলের কয়েকশত নেতাকর্মী। খোকার শ্যালক শফিউল আলম আজম খান জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে তার মরদেহ ঢাকায় আনা হয়েছে। তার শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী, জুরাইন কবরস্থানে বাবার কবরের পাশে মায়ের কবরে তাঁকে দাফন করা হবে।
এমপি বাদলের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক
০৭নভেম্বর,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম-৮ আসনের সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মইন উদ্দিন খান বাদলের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোক প্রকাশ করেছেন। বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) সকালে এক শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন প্রধানমন্ত্রী। একই সঙ্গে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান তিনি। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে ভারতের বেঙ্গালুরুর নারায়ণ হৃদরোগ রিসার্চ ইনস্টিটিউট অ্যান্ড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান এই সংসদ সদস্য। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। এদিকে, মইন উদ্দীন খান বাদলের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। এছাড়াও শোক জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। দুই বছর আগে ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে গুরুতর অসুস্থ ছিলেন মইন উদ্দীন খান বাদল। হার্টেরও সমস্যা ছিল। দুই সপ্তাহ আগে নিয়মিত চেকআপের জন্য তাঁকে ভারতে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।
একাদশ সংসদের পঞ্চম অধিবেশন শুরু আজ
০৭নভেম্বর,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: একাদশ জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশন আজ বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) বিকেল সোয়া চারটায় শুরু হবে। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সংবিধানের ৭২ অনুচ্ছেদের (১) দফায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে গত ১৬ অক্টোবর এ অধিবেশন আহ্বান করেন। সংসদ সচিবালয় থেকে জানানো হয়েছে এটি হবে সংক্ষিপ্ত অধিবেশন। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে এ অধিবেশন আহ্বান করা হয়েছে। সংবিধান অনুযায়ী জাতীয় সংসদের এক অধিবেশন শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে পরবর্তী অধিবেশন বসতে হবে। ফলে এ অধিবেশন ৫ থেকে ৭ কার্যদিবস পর্যন্ত চলতে পারে। আজ বিকাল সোয়া তিনটায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠেয় কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে এ অধিবেশনের কার্যকাল এবং কার্যক্রম নির্ধারণ করা হবে। এর আগে গত ৮ সেপ্টেম্বর বর্তমান সংসদের চতুর্থ অধিবেশন শুরু হয়ে গত ১২ সেপ্টেম্বর শেষ হয়। এটি ছিল সংসদের সবচেয়ে স্বল্পকালীন ৪ কার্যদিবসের অধিবেশন। এর আগে সবচেয়ে স্বল্পকালীন অধিবেশন ছিল ৫ কার্যদিবসের। স্বল্পকালীন ওই অধিবেশনে মোট ৫টি বিল উত্থাপন করা হয়। আর একটি গুরুত্বপূর্ণ বিল পাস করা হয়। সূত্র: বাসস
দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণ না করতে পারলে মিথ্যা অভিযোগকারীদের শাস্তি: প্রধানমন্ত্রী
০৭নভেম্বর,বৃহস্পতিবার,স্পেশাল প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণ না করতে পারলে মিথ্যা অভিযোগকারীদের শাস্তি দেয়া হবে। আজ বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে তিনি এই কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে দুস্থ ও অসচ্ছল সাংবাদিকদের আর্থিক সহায়তা দেয়ার জন্য এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রধানমন্ত্রী বলেন, মুখে বললেই হবে না দুর্নীতিকারীর বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট প্রমাণ দিতে হবে। যদি না দিতে পারে তাহলে অভিযোগকারীদের বিরুদ্ধে শাস্তি হবে। এভাবে দিনের পর দিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে সেটা আমি বরদাশত করতে পারি না। তিনি বলেন, আমি দেখছি কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় ভিসির বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে। ভিসিকে দুর্নীতিবাজ বলছে। যারা দুর্নীতির অভিযোগ আনছে তাদের এই অভিযোগ প্রমাণ করতে হবে, তাদের তথ্য দিতে হবে। তারা তথ্য দিলে আমরা ব্যবস্থা নিব। কিন্তু তারা তথ্য দিতে পারবে না দুর্নীতি দুর্নীতি বলে ক্লাসের সময় নষ্ট করবে, ক্লাস চলতে দিবে না, ইউনিভার্সিটি চলতে দিবে না, অন্দোলনের নামে ভিসির বাড়ি আক্রমণ, অফিসে আক্রমণ করবে। আমি বলবো এটার এক ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড।
চলচ্চিত্র পরিচালক অরণ্য পলাশকে তথ্যমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা
০৬নভেম্বর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে গিয়ে নিঃস্ব হওয়া অরণ্য পলাশকে অর্থ সহায়তা দিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বুধবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে চলচ্চিত্র পরিচালক অরণ্য পলাশের হাতে নিজের পক্ষ থেকে ১ লাখ টাকা (নগদ অর্থ) তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী। এ সময় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন ও চলচ্চিত্র) মো. মিজান-উল-আলম, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, অরণ্য পলাশ নির্মিত গন্তব্য চলচ্চিত্রের প্রযোজক এলিনা শাম্মীসহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। চলচ্চিত্রের প্রযোজক ও অভিনেত্রী এলিনা শাম্মী বলেন, কোনো চেক না সিনেমার প্রযোজক হিসেবে পুরো ১ লক্ষ টাকা আমার হাতে তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী। এই টাকা আমি পরিচালক অরণ্য পলাশকে সবার সামনে তখনই দিয়ে দিয়েছি। মূলত পরিচালকের এই ধরনের দুর্দশা দেখে ও জেনে তথ্যমন্ত্রী ব্যক্তিগতভাবে এই সাহায্য করেছেন। চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে গিয়ে নিঃস্ব হওয়া অরণ্য পলাশ রাজধানীর একটি রেস্তোরাঁয় ওয়েটারের কাজ করছেন। এই সংবাদটি কয়েকটি আগে গণমাধ্যমেও প্রকাশ হয়। অরণ্য পলাশের এই পরিস্থিতি দেখে মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী, সচিব-সবার সাথে আলোচনা করার পর তথ্যমন্ত্রী পরিচালক অরণ্য পলাশকে সহায়তার কথা চিন্তা করেন। অনুদান পেয়ে অরণ্য পলাশ বলেন, একটি নিউজের কারণে আজ আমি আমার গন্তব্য সিনেমাটি নিয়ে নতুন করে স্বপ্ন দেখার সুযোগ পাচ্ছি। তথ্যমন্ত্রী আমাকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন, এটা আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া। সিনেমাটি মুক্তির পথ আরও সুগম হলো। ব্যক্তিগতভাবে তথ্যমন্ত্রীর পক্ষ থেকে এই সহায়তা পান পরিচালক অরণ্য পলাশ। কারণ, মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সহায়তা করতে হলে একটা প্রক্রিয়া অবলম্বন করতে হয়। সরকার যে অনুদান দেয়, সেটার একটা কমিটি আছে। সে কমিটির মাধ্যমে অনুদান অনুমোদিত হতে হয়। কমিটির সাথে তথ্যমন্ত্রী কথা বলে এই সিনেমা যেন মুক্তি পায় এবং সেজন্য আরো কি ধরনের খরচ দরকার, আর কী সহায়তা দরকার তা কমিটির সাথে আলোচনা করবেন বলেও গণমাধ্যমকে জানান তথ্যমন্ত্রী।
কৃষক লীগের নতুন সভাপতি সমির চন্দ্র চন্দ ও সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম
০৬নভেম্বর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: কৃষক লীগের নতুন সভাপতি হিসেবে সমীর চন্দ চন্দ্র ও সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি নির্বাচিত হয়েছেন। আজ বুধবার (৬ নভেম্বর) বিকেলে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে কৃষক লীগের ১০ম জাতীয় সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে তাদের নাম ঘোষণা করা হয়। এর আগে ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশন শুরু হয়। এসময় সেখানে উপস্থিত কাউন্সিলররা কৃষক লীগের সভাপতি পদে সদ্য সাবেক সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লাসহ ১৩ জন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে ১১ জনের নাম প্রস্তাব করেন। এরপর সভাপতি পদে একজন ও সাধারণ সম্পাদক পদে একজন নির্বাচিত করার জন্য প্রার্থীদের ২০ মিনিটের সময় বেঁধে দেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। দ্বিতীয় অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, উপদপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়াসহ আরও অনেকে।
নিষিদ্ধ হলো জঙ্গি সংগঠন-আল্লার দল
০৬নভেম্বর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: জঙ্গি সংগঠন আল্লাহর দল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করে দলটির ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। মঙ্গলবার জননিরাপত্তা বিভাগের উপসচিব (রাজনৈতিক শাখা-২) মল্লিকা খাতুন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ আদেশ জারি করা হয়েছে। প্রজ্ঞাপনটি গেজেট আকারেও প্রকাশ করা হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সরকারের কাছে এ মর্মে প্রতীয়মান হয় যে,আল্লাহর দল নামক জঙ্গি দল বা সংগঠনটির ঘোষিত কার্যক্রম দেশের শান্তি শৃঙ্খলার পরিপন্থী। ইতোমধ্যে সংগঠনটির কার্যক্রম জননিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে বিবেচিত হওয়ায় বাংলাদেশে এর কার্যক্রম নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হলো। এ আদেশটি অবিলম্বে কার্যকর হবে বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়। এর আগে গত ৩ নভেম্বর সচিবালয় বিটে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের (বিএসআরএফ) বিএসআরএফ সংলাপ অনুষ্ঠানে জঙ্গি সংগঠন,আল্লাহর দল নিষিদ্ধ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
বেসরকারি চাকরিজীবীরাও পাবেন পেনশন
০৬নভেম্বর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, সরকার অবশ্যই সবার জন্য পেনশন চালু করতে চায়। এ জন্য ইতোমধ্যে প্রাথমিক কাজ শুরু করেছে সরকার। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর বারিধারায় গার্ডিয়ানা হোটেলে ইন্ট্রোডিউসিং অ্যা ইউনিভার্সাল পেনশন স্কিম ইন বাংলাদেশ : ইন সার্চ অব অ্যা ফ্রেমওয়ার্ক শীর্ষক এক আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে এ কথা বলেন তিনি। পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আমরা ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছি। আমার জানা মতে, আমাদের অর্থ মন্ত্রণালয়ের ভেতরে ছোট একটি সেল বা প্রতিষ্ঠান আছে, যারা এ বিষয়টা নজরে রেখে প্রাথমিক কাজ শুরু করেছে। এম এ মান্নান বলেন, যে বিষয়টা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে, জেনে বা না-জেনেই হোক, এর মধ্যে আমরা চলে এসেছি। প্রায় ৫০ থেকে ৬০ শতাংশ মানুষকে আমরা নানাভাবে ছুঁয়ে যাচ্ছি। তার মানে বেশি এলাকা আমরা কাভার করে ফেলেছি। আর সামান্য বাকি। আমার মনে হয়, আমরা পারব। সভার আয়োজন করে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) ও অক্সফাম ইন বাংলাদেশ। সর্বজনীন পেনশন কীভাবে বাস্তবায়ন করা যায়, বাংলাদেশের মানের অন্য দেশগুলো কীভাবে এটা চালাচ্ছে, অর্থের সংস্থান কীভাবে করা যায় আয়োজকদের কাছে এ ধরনের বুদ্ধিবৃত্তিক পরামর্শগুলো প্রত্যাশা করেন পরিকল্পনামন্ত্রী। মন্ত্রী বলেন, সবাই এখানে অংশ নিতে পারবে না। আমাদের এখনও ১১-১২ শতাংশ মানুষ আছে, যাদের আমরা হতদরিদ্র বলি। যাদের কোনো নিট আয় নাই। আমাদের রাজনৈতিক শক্তির প্রথম টার্গেট ওই নিচের ১১-১২ ভাগ মানুষকে টেনে উপরে আনা। তারা কন্ট্রিবিউট করতে পারবে না, তাই আসতে পারবে না, সেই ধরনের চিন্তায় আমরা যাব না। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদ, বিশ্ব ব্যাংকের সাবেক লিড ইকোনমিস্ট জাহিদ হোসেন, সিপিডির বিশেষ ফেলো দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য ও অধ্যাপক মুস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ।
আবরারের মৃত্যু : ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে আইনি নোটিশ
০৩নভেম্বর,রবিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রথম আলোর শিশু কিশোর বিষয়ক ম্যাগাজিন কিশোর আলোর বর্ষপূর্তিতে এসে ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্র নাইমুল আবরারের মৃত্যুর ঘটনায় ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। দৈনিক প্রথম আলোর প্রকাশক, সম্পাদক এবং সাময়িকী কিশোর আলোর সম্পাদককে এ ক্ষতিপূরণ দিতে বলা হয়েছে। কলেজটির সাবেক শিক্ষার্থী ওবায়েদ আহমেদের পক্ষে আজ রোববার (৩ অক্টোবর) রেজিস্ট্রি ডাকযোগে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ফাইজুল্লাহ ফয়েজ এ নোটিশ পাঠিয়েছেন। দৈনিক প্রথম আলোর প্রকাশক ও সম্পাদক, সাময়িকী কিশোর আলোর সম্পাদক, তথ্য মন্ত্রণালয় সচিব, শিক্ষা মন্ত্রণালয় সচিব ও বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সচিব বরাবর এ নোটিশ পাঠানো হয়েছে। নোটিশে ক্ষতিপূরণের পাশাপাশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কোন ধরনের অনুষ্ঠান পরিচালনার ক্ষেত্রে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয় সচিব, শিক্ষা মন্ত্রণালয় সচিব এবং বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সচিবকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। এছাড়াও নোটিশ পাওয়ার তিনদিনের মধ্যে দৈনিক প্রথম আলোর প্রকাশক, সম্পাদক এবং সাময়িকী কিশোর আলোর সম্পাদকের কাছে ঘটনার ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। এছাড়াও এ ঘটনায় ক্ষতিপূরণের ১০ কোটি টাকা নিহত নাইমুল আবরার রাহাতের পরিবারকে হস্তান্তর করতে বলা হয়েছে। ক্ষতিপূরণ না দিলে প্রয়োজনীয় আইন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে। উল্লেখ্য, গত ১ নভেম্বর বিকেলে ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজের ক্যাম্পাসে দৈনিক প্রথম আলোর সাময়িকী কিশোর আলোর একটি অনুষ্ঠান চলাকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যায় নাইমুল আবরার।-আরটিভি অনলাইন

জাতীয় পাতার আরো খবর