বুধবার, এপ্রিল ১, ২০২০
সরকারদলীয় এমপি সহ ২২ জনের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা
২৩অক্টোবর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে চলমান অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে সরকারদলীয় এমপি নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন, সরকারদীয় হুইপ শামসুল হক চৌধুরীসহ ২২ জনের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।আজ দুপুরে এ সংক্রান্ত চিঠি পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) বিশেষ পুলিশ সুপার (ইমিগ্রেশন) বরাবর পাঠানো হয়েছে। দুদকের এ সংক্রান্ত অনুসন্ধান দলের প্রধান ও সংস্থাটির পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন এ চিঠি পাঠিয়েছেন। চিঠিতে বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে দেশে মানিলন্ডারিংসহ বিদেশে অর্থ পাচারের অভিযোগ আছে। এ বিষয়ে দুদকের অনুসন্ধানে বিষয়টির প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। অভিযোগ সংশ্লিষ্টরা দেশ ছেড়ে অন্য দেশে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। তাই তারা যাতে দেশ ছেড়ে যেতে না পারেন সে বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষকে।যাদের নাম রয়েছে এ তালিকায়: গ্রেপ্তার হওয়া কথিত যুবলীগ নেতা এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীম, মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত নেতা খালেদ মাহমুদ ভূইয়া, মোহামেডান ক্লাবের ডাইরেক্টর ইনচার্জ মো. লোকমান হোসেন ভূইয়া, ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট, সম্রাটের সহযোগী এনামুল হক আরমান, কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতি মোহাম্মদ শফিকুল আলম (ফিরোজ), অনলাইন ক্যাসিনোর হোতা সেলিম প্রধান এবং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাবিবুর রহমানের (মিজান), গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এনামুল হক এনু ও তাঁর ভাই গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক রুপন ভূইয়া, কেন্দ্রীয় যুবলীগের বহিষ্কৃত দপ্তর সম্পাদক কাজী কাজী আনিছুর রহমান ও তাঁর স্ত্রী সুমি রহমান, লোকমান হোসেন ভূইয়ার স্ত্রী নাবিলা লোকমান, গণপূর্ত অধিদপ্তরের সাবেক প্রধান প্রকৌশলী মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, সাবেক অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আব্দুল হাই , ওয়ার্ড কাউন্সিলর এ কে এম মমিনুল হক সাঈদ এবং এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রশান্ত কুমার হালদার, এ ছাড়া এনামুল হকের সহযোগী ওয়ান্ডারার্স ক্লাবের কর্মচারী আবুল কালাম আজাদ (আজাদ রহমান), রাজধানীর কাকরাইলের জাকির এন্টারপ্রাইজের মালিক মো. জাকির হোসেন ও সেগুনবাগিচার শফিক এন্টারপ্রাইজের মালিক মো. শফিকুল ইসলামের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।
বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ,বৃদ্ধি পেতে পারে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা
২৩অক্টোবর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বঙ্গোপসাগরে একটি সুস্পষ্ট লঘুচাপের সৃষ্টি হয়েছে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর বলেছে, পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে। বুধবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসেও দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, খুলনা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম এবং সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সারাদেশের দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে। দেশের উত্তর-পশ্চিমাংশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে এবং অন্যত্র তা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে পারে। আবহাওয়ার সিনপটিক অবস্থা সম্পর্কে বলা হয়, দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পশ্চিমমধ্য বঙ্গোপসাগরের অদূরে তামিলনাড়ু-দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলে অবস্থানরত লঘুচাপটি বর্তমানে পশ্চিমমধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে সুস্পষ্ট লঘুচাপ রূপে অবস্থান করছে। লঘুচাপের বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।
নগরের সুবিধা পাবে গ্রামের মানুষ: গণপূর্তমন্ত্রী
২৩অক্টোবর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার টেকসই উন্নয়নের জন্য পরিবেশ সুরক্ষা নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমান সরকার শুধু নগর উন্নয়ন নয়, বরং নগরের সকল সুযোগ সুবিধা গ্রামে নিয়ে যেতেও বদ্ধপরিকর। নগরজীবনের আধুনিক সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে হলে আধুনিক প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহারের মাধ্যমে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও এর বহুমাত্রিক ব্যবহার নিশ্চিত করার কোনো বিকল্প নেই। আজ বুধবার ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ (আইডিইবি) ভবনে বিশ্ব বসতি দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করছিলেন। আইডিইবি সভাপতি এ কে এম এ হামিদের সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন গণপূর্ত সচিব মো. শহীদ উল্লা খন্দকার এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইডিইবির সাধারণ সম্পাদক মো. শামসুর রহমান। সেমিনারে বিষয়ের আলোকে কী-নোট পেপার উপস্থাপন করেন পল্লী উন্নয়ন একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক ড. মো. আব্দুল মতিন ও আইডিইবির রিসার্চ ফেলো ড. মো. সুলতানুল আলম। শ ম রেজাউল করিম বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ অপ্রতিরোধ্য অগ্রগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। দৃশ্যমান এ উন্নয়নের সুফল টেকসই ও জনবান্ধব করার জন্য নাগরিকদের নৈতিকতার উন্নয়ন ঘটাতে হবে।
ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরাতে মাশরাফিকে দায়িত্ব দিলেন প্রধানমন্ত্রী
২৩অক্টোবর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ও ক্রিকেটারদের মাঝে চলমান সংকট নিরসনে ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে দায়িত্ব দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গেল সোমবার বিকালে বেতন-ভাতাদি বাড়ানোসহ ১১ দফা দাবিতে ধর্মঘট ডাকেন ক্রিকেটাররা। দাবি-দাওয়া না মানা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবেন তারা। এ সময়ে সব ধরনের ক্রিকেট বর্জনের ঘোষণা দেন সাকিব-তামিমরা। এতে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ভারত সফর নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) খেলা বন্ধ হয়ে গেছে। স্বভাবতই দেশের ক্রিকেটাঙ্গন অচল হয়ে পড়েছে। একে ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে দেখছে বিসিবি। মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে স্রেফ তা জানিয়ে দেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন। এ ঘটনার পর গতকালই প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ডাকা হয় মাশরাফিকে। প্রথমে তার কাছ থেকে বর্তমান অবস্থার কথা জানেন শেখ হাসিনা। পরে তাকে ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরার বার্তা দিতে বলেন তিনি। বিসিবির সহসভাপতি মাহাবুবুল আনাম বলেন, প্রধানমন্ত্রী মাশরাফিকে ডেকেছিলেন। তার কাছ থেকে ক্রিকেটের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে বিস্তারিত শুনেছেন। এর পর তাকে ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরানোর দায়িত্ব দিয়েছেন তিনি। আন্দোলনরত ক্রিকেটারদের কাছে এরই মধ্যে সরকারপ্রধানের এ বার্তা পৌঁছে দিয়েছেন মাশরাফি। বিসিবিকেও বিষয়টি জানিয়েছেন তিনি। বোর্ডের আশা, প্রধানমন্ত্রীর বার্তা পেয়ে খেলায় ফিরবেন ক্রিকেটাররা। এনসিএল ও ভারত সফরের প্রস্তুতি ক্যাম্পে যোগ দেবেন তারা।
দাবি মেনে নিতে আমরা প্রস্তুত, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর পাপন
২৩অক্টোবর,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ক্রিকেটারদের ১১ দফা দাবি মেনে নিতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রস্তত বলে জানিয়েছেন বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। চলমান সঙ্কট সমাধানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকের পর বিষয়টি জানান তিনি। বুধবার দুপুরে গণভবনে সমস্যা সমাধানের জন্য পাপনকে দিক নির্দেশনা দেন শেখ হাসিনা। এসময় উপস্থিত ছিলেন যু্ব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল। গেল সোমবার ১১ দফার দাবি জানিয়েছে ক্রিকেটাররা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের ক্রিকেট বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন জাতীয় পর্যায়ের ক্রিকেটারদের মুখ পাত্র সাকিব আল হাসান। টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক সাকিব, তামিম ইকবাল, মুশফিকুরর রহিম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদসহ মিরপুরে জড়ো হন প্রায় ৫০ জন জাতীয় পর্যায়ের ক্রিকেটাররা। এদিকে বুধবার গণভবন থেকে বের হয়ে সাংবাদিকদের পাপন বলেন, ক্রিকেটারদের সব দাবি মেনে নিতে প্রস্তুত আমরা। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার দরজা ক্রিকেটারদের জন্য সব সময় খোলা রয়েছে। পাপন আরও বলেন, আগে দাবি না জানিয়ে ক্রিকেটারদের ধর্মঘটে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।
লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশে সরকার বিনিয়োগ বৃদ্ধির বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে
২২অক্টোবর,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:আইন মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, শক্তিশালী নেতৃত্বের পাশাপাশি সুশাসন, স্থিতিশীল সরকার, অব্যাহত রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, সুষ্ঠু সামষ্টিক অর্থনৈতিক নীতি এবং সঠিক উন্নয়নের অগ্রাধিকার বাংলাদেশকে এক অনন্য উন্নয়নের মডেল করে তুলেছে। মরক্কোর প্রাচীন রাজধানী মারাকাসে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক বিচার সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। জাস্টিস এন্ড ইনভেস্টমেন্ট : চ্যালেঞ্জ এন্ড স্টেকস প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ২১ ও ২২শে অক্টোবর দুইদিনব্যাপী এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে তিনি বলেন, ২০০৯ সাল থেকে বাংলাদেশ আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব ও অসাধারণ সাফল্য অর্জন শুরু করে এবং তথাকথিত 'তলাবিহীন ঝুড়ি' থেকে বাংলাদেশ এখন বিস্ময়কর উন্নয়নের দেশে পরিণত হয়েছে, বিশ্বের অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশের জন্য উন্নয়নের উদাহরণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ফলস্বরূপ, বিশ্ব সম্প্রদায় বাংলাদেশকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসাবে স্বীকৃতি দিতে শুরু করেছে। তিনি বলেন, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক আউটলুক-২০১৯ বাংলাদেশকে এশীয় প্যাসিফিক অঞ্চলে দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশ হিসেবে উল্লেখ করেছে। এইচএসবিসি ২০১৮ সালের প্রতিবেদনে ভবিষ্যদ্বাণী করেছে, ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে ২৬ তম বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ এবং বিশ্বের তিনটি দ্রুততম অর্থনীতির দেশের একটি হয়ে উঠবে বাংলাদেশ। আনিসুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে রূপান্তর করতে অঙ্গীকারাবদ্ধ। ২০২১ সালের লক্ষ্য অর্জন করতে বাংলাদেশকে জিডিপির বার্ষিক প্রবৃদ্ধির হার ১০ শতাংশ অর্জন এবং তা বজায় রাখতে হবে, দারিদ্র্যসীমা ও বেকারত্বের হারকে ১৫ শতাংশে নামিয়ে আনতে হবে; কর্মসংস্থানে কৃষি, শিল্প ও সেবার খাতের অবদানকে যথাক্রমে ৩০ শতাংশ, ২৫ শতাংশ এবং ৪৫ শতাংশে রূপান্তর করতে হবে। এইসব লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশে বিনিয়োগ বৃদ্ধির বিকল্প নেই। সেজন্য সরকার বিনিয়োগ বৃদ্ধির বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। এ বছরের জানুয়ারিতে পরপর তৃতীয় বারের মতো দায়িত্ব গ্রহণের পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুর্নীতি ও সন্ত্রাসবাদের প্রতি তার জিরো টলারেন্স নীতিকে আরো জোরদার করেছেন।
এটা ষড়যন্ত্রেরই অংশ
২২অক্টোবর,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:দেশের ক্রিকেটকে ধ্বংস করতে ক্রিকেটারদের এই ধর্মঘট দাবি করে আজ দুপুরের দিকে জরুরি বৈঠকে বসেন বিসিবি পরিচালকরা। এরপরই বিকেল সংবাদ সম্মেলন করেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। সংবাদ সম্মেলনে পাপন বলেন, আমাদের কাছে দাবি না তুলে তারা যে উদ্দেশ্যে মিডিয়ার সামনে তুলে ধরলো, সে উদ্দেশ্যে আপাতত তারা সাকসেস। এসিসি-আইসিসি থেকে শুরু করে সবাই ফোন করে বলছে, বাংলাদেশের ক্রিকেট নষ্ট হয়ে গেছে। তার মানে, বাংলাদেশের ইমেজ এবং ক্রিকেটের ইমেজ নষ্ট করতে সফল হয়েছে তারা। বিসিবি সভাপতি আক্ষেপ করে বলেন, আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ না করেই খেলা বন্ধ। এমন এক সময়ে বন্ধ করলো- যখন ফিটনেস এবং ক্যাম্প শুরু করার কথা রয়েছে। নতুন কোচ এসেছে, সামনে ভেট্টরিও আসবেন। আমার মনে হয়, ওদের বিদেশি এসব কোচ পছন্দ নয়। তারা তো এমনও বলেছে, কোচই চাই না। এখন চায় দেশি কোচ। কিন্তু তাদের মতো করে তো আমরা কোচ নিয়োগ দিতে পারি না। ভারত সফরের আগে এই আন্দোলনে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন, ভারতে পূর্ণাঙ্গ সিরিজে এই প্রথম যাচ্ছে। এত কষ্ট করে একটি ফুল সিরিজ ভারত থেকে আসলো। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হচ্ছে এবং প্রথম খেলাটাই ভারতের সাথে। অথচ তার আগেই তারা বলে দিলো, আমরা খেলবো না। কখন থেকে এই ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে? পাপনের ধারণা বিসিবির এক পরিচালক (ক্যাসিনো ইস্যুতে) গ্রেফতার হওয়ার পর থেকেই এই ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। তিনি বলেন,আমাদের এক ডাইরেক্টর এরেস্ট হওয়ার পর থেকেই সবার টার্গেটে পরিণত হয়েছি আমি নিজে এবং আমার বোর্ড। তারা প্রথমে চেষ্টা করেছে নানাভাবে আমাদের ক্ষতি করার। আমাদের আক্রমণ করে যদি বাইরে পাঠানো যায়, বোর্ডকে নিষিদ্ধ করার চেষ্টা করছে। ওটাতে তারা সফল হয়নি। এখন সেকেন্ড স্টেপ চলছে। যদি কোনোভাবে ভারত সফরটা মিস করা যায়, তাহলে বড় ধরনের একটা সমস্যায় পড়তে পারি। পাপনের বিশ্বাস এটা ষড়যন্ত্রেরই অংশ। তিনি বলেন, তারা (ক্রিকেটাররা) কেন আমাদের কাছে কিছু না চেয়ে খেলা বন্ধ করলো? ক্যাম্পেও যোগ দেবে না। সবই ষড়যন্ত্রের অংশ। বাংলাদেশ ক্রিকেটকে ধ্বংস করে দিতে চাচ্ছে।
অবশেষে বসল পদ্মা সেতুর ১৫তম স্প্যান
২২অক্টোবর,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: স্প্যান নিয়ে যাওয়ার ৮ দিন পরে সব অনিশ্চয়তা কাটিয়ে অবশেষে বসানো হয়েছে পদ্মা সেতুর ১৫তম স্প্যান। সেতুর ২৩ ও ২৪ নম্বর পিলারের উপর এ স্প্যান বসানোর মধ্যদিয়ে দৃশ্যমান হলো সোয়া দুই কিলোমিটার। নদীর তলদেশে পলি কমে এলে আগামী দিনগুলোতে কাজের গতি বাড়বে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন প্রকল্প পরিচালক। প্রাথমিকভাবে একটি স্প্যান বয়ে নিয়ে পিলারের উপর তুলতে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা সময় নেয়া হলেও এবার নদীর তলদেশে পলির কথা বিবেচনায় রেখে সময় নেয়া হয়েছিলো ৪৮ ঘণ্টা। কিন্তু এত লম্বা সময়ের প্রয়োজন হবে, সেটা ধারণায় ছিল না প্রকৌশলীদের। সেতুর কাজে ব্যবহৃত ৩টি ড্রেজার কাজ করেছে ২৪ ঘণ্টা। নদীর তলদেশ থেকে পলি কেটে পরিষ্কার করা হয়েছে ক্রেন চলার পথ। কিন্তু তাতেও পর্যাপ্ত গভীরতা তৈরি করা যাচ্ছিল না। তাই বাড়তে থাকে অপেক্ষার প্রহর। গত ১৪ তারিখ জাজিরা থেকে স্প্যান নিয়ে রওয়ানা দেয়ার পর দীর্ঘ সময় ক্রেনেই ঝুলিয়ে রাখা হয় স্প্যান। আগের স্প্যানটির সঙ্গে নতুন স্প্যান জোড়া দিতে যে Rapting ক্রেন ব্যবহার করা হয় সেটিও বহন করে নেয়া যাচ্ছিল না নির্ধারিত পিলারের কাছে। এর আগেও নাব্য সঙ্কটের কারণে দ্বিতীয় স্প্যান বসাতে বাড়তি একদিন সময় লেগেছিল। কিন্তু এবার লাগল প্রায় এক সপ্তাহ। অবশেষে সমাধান আসায় মিলেছে স্বস্তি। হঠাৎ পদ্মায় বেড়ে যাওয়া পানি বয়ে এনেছে এ পলি। এমনিতে প্রতি সপ্তাহে নদীর তলদেশে জমে ৫ থেকে ৮ ফুট পলি। ড্রেজিং করে এ পলি সরিয়েই কাজ চালিয়ে নিতে হচ্ছে সেতু কর্তৃপক্ষকে।
পিআইবিতে ডেটা সাংবাদিকতা বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত
২২অক্টোবর,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশে (পিআইবি) ডেটা সাংবাদিকতা বিষয়ক তিন দিনব্যাপি (২০-২২ অক্টোবর ২০১৯) প্রশিক্ষণ কর্মশালা আজ শেষ হয়েছে। ঢাকায় কর্মরত সাংবাদিকদের নিয়ে এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটির তৃতীয় কর্মশালা এটি। মঙ্গলবার পিআইবি সেমিনার কক্ষে অনুষ্ঠিত কর্মশালার সমাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় সংসদ সদস্য ও জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মুহম্মদ শফিকুর রহমান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পিআইবি মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তবে মুহম্মদ শফিকুর রহমান বলেন, প্রশিক্ষণ সাংবাদিকদের সমৃদ্ধ করে। ডেটা ভিত্তিক সাংবাদিকতার এই প্রশিক্ষণ আমাদের গণমাধ্যমকর্মীদের দক্ষতাকে আরও শানিত করবে বলে আমার বিশ্বাস। এছাড়া এটি বাংলাদেশে ডেটা সাংবাদিকতার চর্চাকেও তরান্বিত করবে। সভাপতির বক্তব্যে পিআইবি মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ বলেন, বাংলাদেশের সাংবাদিকরা যাতে সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে যেতে পারেন, তাই ডেটা সাংবাদিকতার এ প্রশিক্ষণের আয়োজন। এ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আমাদের সংবাদকর্মীরা ডেটাভিত্তিক সাংবাদিকতার চর্চায় উৎসাহিত হবে বলে আমরা মনে করি। সরকারি অর্থায়নে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সাংবাদিকদের মান উন্নয়নে পিআইবি যে প্রশিক্ষণ সেবা সরবরাহ করছে, তা অতুলনীয়। আমরা সমৃদ্ধ ও দক্ষ গণমাধ্যমকর্মী তৈরি করতে চাই, যারা দেশকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নেবে। প্রশিক্ষণে ঢাকায় বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত মোট ৩৪ জন সাংবাদিক অংশগ্রহণ করেন। কর্মশালায় মুখ্য প্রশিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ডেটাফুল প্রকল্পের প্রজেক্ট লিড পলাশ দত্ত। কর্মশালাটির সার্বিক সমন্বয়ের দায়িত্ব পালন করেন পিআইবির সহকারী প্রশিক্ষক নাসিমূল আহসান।

জাতীয় পাতার আরো খবর