আগামীকাল শুরু হচ্ছে একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন
২৯ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন শুরু হচ্ছে যাচ্ছে বুধবার (৩০ জানুয়ারি) থেকে । বড় বিজয়ের পর এ সংসদের মাধ্যমে উন্নয়নের পাশাপাশি সুশাসন নিশ্চিত করতে চায় সরকারি দল। প্রথম অধিবেশনেই সংসদীয় কমিটি গঠিত হবে জানিয়ে ক্ষমতাসীনরা বলছে, গঠনমূলক বিরোধিতার সুযোগ সৃষ্টি করতে এসব কমিটিতেও রাখা হবে বিরোধী পক্ষের সদস্যদের। এদিকে জাতীয় পার্টি বলছে, সংসদে কার্যকর বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করে হারানো ভাবমূর্তি ফিরিয়ে আনতে চায় তারা। ২০১৪ তে বিরোধীপক্ষ বিহীন নির্বাচনের পর দশম সংসদের ২৩টি অধিবেশনে পাস হয়েছিলো দেশের সংসদীয় গণতন্ত্রের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ১৯৩টি বিল। ঐ সংসদেই সংবিধান সংশোধন হয়েছে দুবার। পাস হয়েছে বিচারপতি অপসারণে ষোড়শ সংশোধনী, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, সড়ক আইনসহ আলোচিত আইনগুলো। সদ্য সমাপ্ত একাদশ জাতীয় নির্বাচনে ব্যাপক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবার পর টানা ৩য় বার সরকার গঠন করা আওয়ামী লীগ একাদশ সংসদের মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত সুশাসন নিশ্চিত করতে চায়। কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, মানুষ চায় উন্নয়নের পাশাপাশি দেশে সুশাসন হবে। মানুষের আশা আকাঙ্ক্ষার বাস্তবায়ন হবে জাতীয় সংসদের মাধ্যমে। সরকারের এ নীতিনির্ধারক আরও জানান, সংসদের কার্যক্রমকে জবাবদিহিতার মধ্যে আনতে প্রথম অধিবেশনেই গঠন করা হবে সংসদীয় কমিটিগুলো। কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক আরো বলেন, 'বিরোধীদল যত ছোটই হোক না কেন তাদের কেউ সংসদে দাড়িয়ে কোন ন্যায়সঙ্গত কথা বললে আমরা সে কথাকে অবশ্যই গুরুত্ব দেব। দশম জাতীয় সংসদে একই সাথে সরকারের মন্ত্রীসভা এবং বিরোধীদলীয় দায়িত্ব পালন করেছে জাতীয় পার্টি। একাদশ জাতীয় সংসদের শুরু থেকেই সরকারের অংশ না হবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি। জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, 'মন্ত্রিত্বে থেকে বিরোধীদলীয় দায়িত্ব পালন করলে তা আমাদের দেশের মানুষ বিশ্বাস করতে চায় না। বিশ্লেষকরা মনে করেন সংসদের প্রাণবন্ত হওয়ার বিষয়টি সম্পূর্ণ নির্ভর করছে দুই পক্ষের রাজনৈতিক সদিচ্ছার উপর। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, 'জাতীয় পার্টি আওয়ামী লীগেরই অংশ ছিল। এভাবে বিরোধীদল গঠন করাটা মানানসই নয়। সংসদ প্রাণবন্ত হবার জন্য শুধুমাত্র দাড়িয়ে কথা বললেই হবে না, কথায় সারবত্তা থাকতে হবে। গণতন্ত্রের স্বার্থে সব পক্ষকে সংসদে যাবার আহ্বান জানান এই রাজনৈতিক বিশ্লেষক।
ভোগান্তিতে সেবাগ্রহীতারা,আবারও বন্ধ এনআইডি সেবা
২৯ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: সার্ভারে সমস্যা দেখা দেওয়ায় নির্বাচন কমিশনের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) সেবা কার্যক্রম আবারও বন্ধ হয়ে গেছে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরে এ নিয়ে দ্বিতীয় দফায় বন্ধ হলো এই কার্যক্রম। গত রোববার থেকে দ্বিতীয় দফায় এনআইডি সেবা কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। এর আগে সার্ভার ডাউন হয়ে যাওয়ার কারণে ১০ থেকে ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত টানা ১২ দিন বন্ধ ছিল এনআইডি সেবা কার্যক্রম। তবে এ বিষয়ে কোনো নোটিশ না পাওয়ায় ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে সেবা নিতে আসা সবাইকে। সোমবার সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন অফিসে গিয়ে দেখা যায় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে সেবা নিতে আসা লোকজনের ভিড়। কিন্তু সার্ভার সমস্যার কারণে ফিঙ্গার প্রিন্ট দেওয়া, কার্ড হারানো কিংবা সংশোধনের জন্য প্রয়োজনীয় কার্যক্রম করতে পারছেন না। তাঁরা জানেন না সার্ভারের সমস্যার কথা। ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে সেবাগ্রহীতাদের। এদিকে কবে থেকে এই সেবা পুনরায় চালু হবে, তাও জানানো হচ্ছে না তাঁদের। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকে। ঢাকার উত্তরা থেকে রফিকুল ইসলাম এসেছিলেন জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন করতে। তিনি বলেন, রোববার এসেছিলাম এখানে। কাজ হয়নি বলে সোমবার এসেছি। এখানকার লোকজন বলছে, সার্ভারে সমস্যা। এই রকম একটি অতি প্রয়োজনীয় জিনিস সার্ভারে সমস্যা বলে কাটানো অপরাধ। আবদুল করিম একজন স্কুলশিক্ষক। কয়েক মাস ঘোরাঘুরি করেও নারায়ণগঞ্জের জেলা নির্বাচন অফিস থেকে জাতীয় পরিচয়পত্রের নামের বানান ঠিক করতে পারেননি তিনি। জমি রেজিস্ট্রি-সংক্রান্ত ঝামেলা থাকায় কোনো উপায় না পেয়ে তিনি এসেছেন ঢাকার নির্বাচন কমিশনে। এসে শোনেন, ইন্টারনেটে ঝামেলা। তিনি বলেন, এত কষ্ট করে এলাম। এসে এই কথা শুনলাম। কষ্টও কোনো বিষয় না। এই নামের বানান ঠিক করতে না পারলে জমি রেজিস্ট্রি করতে পারছি না। কী যে মুশকিলে পড়লাম। এর পরে কবে ঠিক করতে পারব, তাও এখানকার লোকজন বলতে পারছে না। এ বিষয়ে জানতে চাইলে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনু বিভাগের মহাপরিচালক মো. সাইদুল ইসলাম বলেন, ইন্টারনেটের ব্যাপার, সার্ভারে সমস্যা হতেই পারে। তবে দ্রুতই সব সমস্যা কেটে যাবে এবং সেবা নিতে আসা লোকজন দ্রুতই সেবা পাবেন। সারা দেশে প্রতিদিন গড়ে প্রায় পাঁচ হাজারের মতো মানুষ এনআইডি সেবা নিয়ে থাকেন। সার্ভারে সমস্যা থাকায় তাঁদের সেবা পেতে সমস্যা হচ্ছে।
পাইলটকে একতরফা দায়ী করা হয়েছে নেপালের প্রতিবেদনে
২৮ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ইউএস বাংলার বিমান দুর্ঘটনার বিষয়ে নেপালের তদন্ত প্রতিবেদনে কন্ট্রোল রুমের যথাযথ নির্দেশনা না দেয়ার বিষয়টি এড়িয়ে পাইলটকে একতরফাভাবে দায়ী করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন নেপাল তদন্ত কমিটির বাংলাদেশের সদস্য সালাউদ্দিন এম রহমাতুল্লাহ। বাংলাদেশ সিভিল এভিয়েশন কার্যালয়ে রোববার (২৭ জানুয়ারি) বিকেলে নেপালের তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ বিষয়ক এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, প্রতিবেদনে বিমানটির কোনো যান্ত্রিক ত্রুটি ছিল না বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। বেবিচকের চেয়ারম্যান এয়ারভাইস মার্শাল এম নাঈম হাসান বলেন, কন্ট্রোলার আরো বেশি একটিভ হতে পারতো। কমান্ড নিয়ে পাইলটকে গাইড করতে পারতো। তারা যে তদন্ত করেছে তা ভুল নয়, তবে আমরা আরও কিছু বিষয় যোগ করেছি সেগুলো নিয়ে পর্যবেক্ষণ দেয়া উচিত ছিল কিন্তু তারা সেগুলো দেয়নি। তদন্ত কমিশনের সদস্য সালাউদ্দিন এম রহমাতুল্লাহ বলেন,বিমানের কোনো ত্রুটি ছিল না, পাইলটের দক্ষতা নিয়েও প্রশ্ন নেই। তবে, গাফিলতি ছিল কন্ট্রোল টাওয়ারের। তিনি বলেন, এটিসি সংক্রান্ত রিপোর্ট উনারা আমলে নেয়নি। আমাদের কিছু পর্যবেক্ষণ ছিল, তারা কিছুটা মেনেছেন কিছুটা মানেননি। বাংলাদেশের সুপারিশগুলো অন্তর্ভুক্ত করা না হলে প্রয়োজনে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল সংস্থা-আইকাওতে যাওয়া হবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। ২০১৮ সালের ১২ মার্চ নেপালের ত্রিভুবন বিমানবন্দরে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান দুর্ঘটনায় ৭১ জনের মধ্যে বিমান ক্রুসহ ৫১ জন যাত্রী প্রাণ হারান। ওই দুর্ঘটনার পর ধুম্রজাল সৃষ্টি হয় দুর্ঘটনার কারণ নিয়ে। বাংলাদেশ ও নেপালের পক্ষ থেকে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য আসে। এরপর এপ্রিলে প্রাথমিক প্রতিবেদনেও দুর্ঘটনার জন্য পাইলটের ওপর দায় চাপায় নেপাল। যা প্রকাশিত হয় দেশটির একটি পত্রিকায়, যদিও সেসময় প্রতিবাদ করে বাংলাদেশ। দুর্ঘটনার প্রায় এক বছরের মাথায় চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদনেও দায়ী করা হয়েছে পাইলটের ভুলকে। তবে, প্রতিবেদন নিয়ে বাংলাদেশ সিভিল এভিয়েশনের অভিযোগ, ৫৩ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে করা সুপারিশ আমলে নেয়া হয়নি।
ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে ৯ ফেব্রুয়ারির মধ্যে: স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাহিদ মালিক
২৮ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ফেব্রুয়ারির ৯ তারিখের মধ্যে ভিটামিন-এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর কর্মসূচি পালন করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাহিদ মালিক। সোমবার (২৮ জানুয়ারি) ঢাকার হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে জাপান ইস্ট-ওয়েস্ট হাসপাতালের একটি সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, হাসপাতালে রোগীর সেবার ক্ষেত্রে ডাক্তার ও নার্সদের কোনো ছাড় দেয়া হবে না। বেসরকারি খাতের স্বাস্থ্যসেবাকে আরো উন্নত করতে হবে। তিনি আরো বলেন, চার্জ সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে রাখতে হবে। অপ্রয়োজনীয় পরীক্ষা দেয়া যাবে না বলেও জানিয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী।
দুদকের মহাপরিচালককে হাইকোর্টে তলব,নিরপরাধ ব্যক্তি জেলে
২৮ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ৩৩ মামলায় প্রকৃত অভিযুক্তের জায়গায় অন্য একজন নিরপরাধ আসামিকে তিন বছর জেলে রাখায় দুদকের মহাপরিচালক (আইন)সহ চারজনকে আগামী রোববার (৩ ফেব্রুয়ারি) হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে ভুল আসামি জাহালামকে কেনো মুক্তি দেয়া হবেনা তাও জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। সোমবার (২৮ জানুয়ারি) বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের স্বপ্রণোদিত হয়ে এ আদেশ দেন। এই চারজন হলেন দুদকের মহাপরিচালক, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা, স্বরাষ্ট্র ও আইন সচিবের দুজন কর্মকর্তা। ৩ বছর জেল খাটা নিরপরাধ ভুক্তভুগীর জাহালম। তবে অভিযুক্ত যিনি তার নাম আবু সালেক। সালেকের বিরুদ্ধে সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির ৩৩টি মামলা হয়েছে। কিন্তু আবু সালেকের বদলে জেল খেটেছেন, আদালতে হাজিরা দিয়ে চলেছেন নিরাপরাধ জাহালম। যিনি পেশায় একজন পাটকলশ্রমিক। জাহালমের কারাবাসের তিন বছর পূর্ণ হবে আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি। এতদিন পরে এসে দুদক বলছে জাহালম নিরপরাধ প্রমাণিত হয়েছেন। তদন্ত করে একই মত দিয়েছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনও। ফলে একটি মামলায় তার জামিন হয়েছে। আরও ৩২টি মামলায় জামিন পাওয়ার অপেক্ষায় আছেন তিনি।
আগামী মার্চে ভারত-বাংলাদেশ পর্যটকবাহী নৌযান চালু
২৮ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: আগামী মার্চ মাসে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে পর্যটকবাহী নৌযান চালু হবে। এতে উভয় দেশের পর্যটকরা নৌপথে ভ্রমণ করবেন। বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি রোববার সচিবালয়ে তার কার্যালয়ে ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত ড. আদর্শ সোয়াইকার সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। এ প্রসঙ্গে ভারতের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত সাংবাদিকদের বলেন, ‘আগামী কিছুদিনের মধ্যে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে পর্যটকবাহী নৌযান চালু হবে। প্রথমে ভারতের পর্যটক দল নৌপথে বাংলাদেশের সুন্দরবন ভ্রমণ করবে। ভারত বাংলাদেশিদের ভিসা সহজ করতে রাজধানী ঢাকার বাইরে বিভিন্ন স্থানে ১৫টি ভিসা ইস্যু সেন্টার চালু করেছে। চলমান বর্ডার হাটের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে তা দ্রুত সমাধানের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। টিপু মুনশি বলেন, ‘বাংলাদেশে ভারতের বিনিয়োগ বাড়ছে। আগামী দিনগুলোতে একসঙ্গে কাজ করতে আমরা একমত। এতে উভয় দেশের বাণিজ্য ও সহযোগিতা বৃদ্ধি পাবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ১০০টি স্পেশাল ইকোনমিক জোনে তিনটিতে ভারত বড় ধরনের বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মংলায় ১১০ একর জমির উপর স্পেশাল ইকোনমিক জোনের কাজ অল্প দিনের মধ্যেই শুরু করবে। মিরেরসরাইয়ে এক হাজার একর জমির উপর এবং ভেড়ামারায় অপর একটি ইকোনমিক জোন গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে ভারত। তিনি বলেন, দিনাজপুরের চিলাহাটি সীমান্তে একটি স্থলবন্দর নির্মাণের জন্য বাংলাদেশ প্রস্তাব দিয়েছে। চলমান বর্ডারহাটের সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য উভয় দেশ একমত হয়েছে। চলমান বর্ডার হাটের পাশাপাশি আরো ৬টি বর্ডারহাট চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। মন্ত্রী বলেন, ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য ব্যবধান দূর করা এবং বাংলাদেশি পণ্য ভারতে রপ্তানির ক্ষেত্রে সমস্যাগুলো দূর করতে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। উভয় দেশের বর্তমান বাণিজ্য ৯৪৯২.৬৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। গত বছর ভারতের বাজারে বাংলাদেশি পণ্যের রপ্তানি উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ভারতে বাংলাদেশের পণ্যের রপ্তানির পরিমাণ ছিল ৬৭২.৪১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। গত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে তা বেড়ে দাঁড়িয়ে ৮৭৩.২৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এ সময় বাণিজ্যসচিব মো. মফিজুল ইসলাম, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (এফটিএ) মো. শফিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।
বিমানবন্দরের সামনে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফুটপাতে ট্রাক,নিহত ২
২৮ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকায় একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফুটপাতে উঠে গিয়ে দুজন নিহত হয়েছেন। আজ সোমবার সকালে বিমানবন্দর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শ্রীধান চন্দ্র রায় বলেন, গতকাল রোববার দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন পথচারী ডালিম (২০) ও মোবারক (২৭)। এসআই শ্রীধান চন্দ্র রায় আরো বলেন, বিমানবন্দরে প্রবেশের পথে একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফুটপাতে উঠে যায়। এতে ফুটপাতে থাকা দুই পথচারী ঘটনাস্থলেই মারা যান। জনতা ট্রাকের চালক ও তাঁর সহকারীকে আটক করেছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা হবে বলে জানান এসআই।
বিদ্যালয়ের শিক্ষক ৮, প্রধান শিক্ষক ছাড়া সবাই অনুপস্থিত
২৭ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, আমাদের সন্তানদের শিক্ষা নিয়ে কাউকে ছিনিমিনি খেলত দেয়া হবে না। যেকোনো মূল্যে শ্রেণিকক্ষে শিক্ষা নিশ্চিত করা হবে। রোববার সকালে চট্টগ্রাম মহানগরী ও সীতাকুণ্ডের কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আকস্মিক পরিদর্শনকালে তিনি এ কথা বলেন। খবর ইউএনবির দুদক সূত্র জানায়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ভর্তি বাণিজ্য ও বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই চট্টগ্রামে এসে তিনটি বিদ্যালয় সরাসরি পরিদর্শন করেন দুদক চেয়ারম্যান। ইকবাল মাহমুদ সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে নগরীর কাট্টলী নুরুল হক চৌধুরী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে উপস্থিত হন। সেখানে তিনি দেখেন বিদ্যালয়ের আটজন শিক্ষকের মধ্যে শুধুমাত্র ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক উপস্থিত। ছাত্র-ছাত্রীদের তিনি বিদ্যালয় প্রাঙ্গণের আশপাশে অলস সময় পার করতে দেখেন। এদিকে অভিভাবকরা দুদক চেয়ারম্যানকে কাছে পেয়ে তাদের সন্তানদের শিক্ষা নিয়ে হতাশা ব্যক্ত করেন এবং বিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনিয়মের কথা জানান। এ সময় দুদক চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের সন্তানদের শিক্ষা নিয়ে কাউকে ছিনিমিনি খেলত দেয়া হবে না। যেকোনো মূল্যে শ্রেণিকক্ষে শিক্ষা নিশ্চিত করা হবে। প্রয়োজনে দুদক দণ্ডবিধির ১৬৬ ধারা প্রয়োগ করবে। যারা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের ক্ষতিসাধন করবেন বা করার চেষ্টা করবেন এমন কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। এরপর দুদক চেয়ারম্যান যান জেলার সীতাকুণ্ডের ভাটিয়ারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। সেখানে গিয়ে দেখেন ১১ জন শিক্ষকের মধ্যে দুজন অনুপস্থিত। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষকের কাছে জানতে চাইলে তিনি অনুপস্থিতির কারণ জানাতে পারেননি। দুদক চেয়ারম্যান ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতি খাতা পরীক্ষা করে দেখেন, গতকাল যেসব শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল তাদের অনেককেই উপস্থিত দেখানো হয়েছে। আবার সকাল ১০টা পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের রোল ডাকা করা হয়নি। এ বিষয়েও স্কুল কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যাখ্যা দিতে পারেনি। পরে ইকবাল মাহমুদ একই উপজেলার শীতলপুর উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শনে যান। সেখানে তিনি জানতে পারেন, টেস্ট পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়া কোনো শিক্ষার্থীকে এবার এসএসসি পরীক্ষার সুযোগ দেয়নি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি জেনে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন। তবে নবম শ্রেণিতে এক বা একাধিক বিষয়ে অকৃতকার্য ছাত্র-ছাত্রীদের দুই হাজার টাকার বিনিময়ে দশম শ্রেণিতে উন্নীত করার বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, এটা অনৈতিক। শিক্ষাক্ষেত্রে অনৈতিকতার কোনো স্থান থাকতে পারে না।
নৌবাহিনী প্রধানের দায়িত্ব নিলেন আওরঙ্গজেব
২৭ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ নৌবাহিনীর প্রধান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন ভাইস এডমিরাল আবু মোজাফফর মহিউদ্দিন মোহাম্মদ আওরঙ্গজেব চৌধুরী। শনিবার তিনি বিদায়ী নৌপ্রধান এডমিরাল মোহাম্মদ নিজামউদ্দিন আহমেদের কাছ থেকে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নৌ সদর দফতরে দায়িত্বভার হস্তান্তর অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয়। ভাইস এডমিরাল হিসেবে পদোন্নতি নিয়ে নৌবাহিনীর প্রধান হিসেবে আওরঙ্গজেব চৌধুরী দায়িত্ব গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে নৌবাহিনীর কমান্ডার ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। প্রসঙ্গত, আওরঙ্গজেব চৌধুরী তিন বছর ধরে উপকূলরক্ষী বাহিনী-কোস্ট গার্ডের মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্বপালন করেছেন। ২০২০ সালের ২৫ জুলাই পর্যন্ত এক বছর ছয় মাসের জন্য আওরঙ্গজেব চৌধুরীকে নৌবাহিনী প্রধান পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

জাতীয় পাতার আরো খবর