ডিএনসিসি উপনির্বাচনের তফসিলের কার্যকারিতা তিন মাসের জন্য স্থগিত
ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদে উপনির্বাচনের তফসিলের কার্যকারিতা তিন মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। ডিএনসিসির সম্প্রসারিত অংশের কাউন্সিলর নির্বাচনের সার্কুলারের কার্যক্রমও স্থগিত করা হয়েছে। আজ বুধবার সকালে পৃথক দুটি রিট আবেদনের ওপর শুনানি শেষে বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি জাফর আহমেদের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন। ৯ জানুয়ারি মেয়র পদে উপনির্বাচনের জন্য ঘোষিত তফসিল ও ১৮টি সম্প্রসারিত অংশে কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর নির্বাচনে সার্কুলার কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, এ মর্মে রুল চেয়েছেন হাইকোর্ট। গত ৩০ নভেম্বর মেয়র আনিসুল হকের আকস্মিক মৃত্যুর পর ডিএনসিসির মেয়র পদে উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী, আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি ডিএনসিসির মেয়র পদসহ ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনে নতুন যুক্ত হওয়া ১৮টি করে ৩৬টি সাধারণ ওয়ার্ড এবং ৬টি করে ১২টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডেরও ভোট হওয়ার কথা ছিল। ৯ জানুয়ারি তফসিল ঘোষণার এক সপ্তাহের ব্যবধানে এর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে গতকাল পৃথক রিট হয়। একটি রিটের আবেদনকারী ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আতাউর রহমান। অপর রিট আবেদনকারী হলেন বেরাইদ ইউপির চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম। আদালতে আতাউরের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান খান, সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী আহসান হাবিব ভূঁইয়া। জাহাঙ্গীরের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী কামরুল হক সিদ্দিকী, সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী রাশিদা চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোখলেছুর রহমান। হাইকোর্টের আদেশ বিষয়ে রিট আবেদনকারী মোস্তাফিজুর রহমান খান আজ প্রথম আলোকে বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচনের তফসিল, ১৮টি কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত ৬টি কাউন্সিলর নির্বাচনের সার্কুলার তিন মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। নির্বাচন কমিশনের আইনজীবী তৌহিদুল ইসলাম আজ প্রথম আলোকে বলেন, আদেশের বিষয়টি নির্বাচন কমশিনকে অবহিত করা হয়েছে। কমিশন পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবে। কমিশনের সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। জাহাঙ্গীর আলমের করা রিট আবেদনে ৯ জানুয়ারি উত্তর সিটি করপোরেশনের উপনির্বাচনের জন্য ঘোষিত তফসিল ও সার্কুলার কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, এ মর্মে রুল চাওয়া হয়েছে। রুল হলে তা বিচারাধীন থাকা অবস্থায় ঘোষিত তফসিল ও সার্কুলারের কার্যক্রম স্থগিত চাওয়া হয়েছে। রিটে প্রধান নির্বাচন কমিশনার, স্থানীয় সরকারসচিব ও নির্বাচন কমিশন সচিবকে বিবাদী করা হয়েছে। রিট আবেদনের যুক্তিতে দেখা যায়, ইউনিয়ন পরিষদের (৮ নম্বর) এলাকা থেকে বাদ দিয়ে ৩৭ থেকে ৫৪ নম্বর ওয়ার্ড উত্তর সিটি করপোরেশনে যুক্ত করা হয়। ওয়ার্ডগুলোর ভোটার তালিকা এখনো প্রস্তুত করা হয়নি। অথচ মনোনয়নপত্র আহ্বান করা হয়েছে। মনোনয়নপত্র জমার শেষ দিন হচ্ছে ১৮ জানুয়ারি, যা একজন স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রস্তুতির জন্য পর্যাপ্ত নয়। নির্বাচিত কাউন্সিলরদের মেয়াদ কত দিন হবে, তা এখনো নির্ধারিত হয়নি। এ অবস্থায় ইসির তফসিল ঘোষণা আইনসম্মত হয়নি। রিট আবেদনের ভাষ্য, ২০০৯ সালের স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইনের ৪ ধারা অনুসারে ২০১৬ সালের ২৮ জুন আটটি ইউনিয়ন পরিষদ এলাকাকে সিটি করপোরেশনে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। আবেদনকারী (জাহাঙ্গীর আলম) একজন ইউপি চেয়ারম্যান, এখনো তিনি দায়িত্ব পালন করছেন। ওই এলাকা উত্তর সিটি করপোরেশনভুক্ত করা হলেও ইউপি চেয়ারম্যানের কাছ থেকে দায়িত্ব বুঝে নেওয়া হয়নি। এমনকি তাঁর অব্যাহতিসংক্রান্ত কোনো গেজেটও হয়নি। গত ২৬ জুলাই স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের এক গেজেটে ৩৭ থেকে ৫৪ নম্বর ওয়ার্ডকে উত্তর সিটি করপোরেশনে সম্প্রসারিত করা হয়। রিট আবেদনকারী নির্বাচনে প্রার্থী হতে ইচ্ছুক। নির্বাচনে প্রার্থী হতে হলে আইন অনুসারে ৩০০ জন ভোটারের নাম, স্বাক্ষর ও ওয়ার্ড উল্লেখসহ সমর্থনসংক্রান্ত তথ্য দিয়ে প্রার্থীকে মনোনয়নপত্র জমা দিতে হয়। ভোটার তালিকা প্রকাশিত না হলে আবেদনকারী প্রার্থী হতে পারছেন না। অপর রিট আবেদনকারী আতাউর রহমানের আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান খান প্রথম আলোকে বলেন, গত জুলাইয়ে নতুন করে ১৮টি ওয়ার্ড যুক্ত হয়ে উত্তর সিটি করপোরেশন সম্প্রসারিত হয়। যার মধ্য দিয়ে ওয়ার্ড সংখ্যা ৩৬ থেকে ৫৪-তে দাঁড়ায়। আইন অনুসারে মেয়রের পদসহ করপোরেশনের শতকরা ৭৫ ভাগ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদের নির্বাচন হলে ও নির্বাচিত কাউন্সিলরদের নাম গেজেটে প্রকাশিত হতে হবে। কিন্তু সম্প্রসারিত ওয়ার্ডে নির্বাচন না হওয়ায় ৭৫ শতাংশ পূর্ণ হচ্ছে না। অন্যদিকে, ১৮টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের মেয়াদ কত দিন হবে, তা উল্লেখ নেই। এখানে আংশিক মেয়াদে নির্বাচনের সুযোগ নেই। কারণ, শুধু আকস্মিক শূন্যতায় আংশিক মেয়াদে নির্বাচন হতে পারে। অথচ এসব ওয়ার্ডের ক্ষেত্রে আকস্মিক শূন্যতা হয়নি। তাই এই মুহূর্তে এসব ওয়ার্ডে বর্তমান আইনে নির্বাচনের সুযোগ নেই বলে জানান এই আইনজীবী। তিনি বলেন, নির্বাচন হলে ডিএনসিসি ও মেয়র পদ সঠিকভাবে গঠিত হবে না। আবেদনকারী ২০১৫ সালে ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন, যার মেয়াদ ২০২১ সাল পর্যন্ত। ইউপি এলাকা সিটি করপোরেশনে যুক্ত হওয়ার পর সে ক্ষেত্রে কী হবে, তাও স্পষ্ট নয়। এসব যুক্তিতে নির্বাচনের ওই তফসিল স্থগিত চেয়ে রিটটি করা হয়।
উত্তরা মেডিকেলের ৫৭ শিক্ষার্থীর পড়তে বাধা নেই
রাজধানীর উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে সাধারণ কোটায় ভর্তি হওয়া ৫৭ শিক্ষার্থীর একাডেমিক কার্যক্রম চলতে কোনো বাধা নেই। বুধবার ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ হাইকোর্টের আদেশ নিষ্পত্তি করে রায় দেন। আদালত এ সময় রিটকারীর সন্তানকেও ভর্তির আদেশ দেন। আদালতে মেডিকেল কলেজের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস। রিটের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দীন। এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে সাধারণ কোটায় ভর্তিকৃত ৫৭ শিক্ষার্থীর একাডেমিক কার্যক্রমে ৩০ দিনের নিষেধাজ্ঞা দেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে ওই কলেজে আগে আসলে আগে ভর্তির সুযোগ এই পদ্ধতিতে ভর্তির প্রক্রিয়া কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। স্বাস্থ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষকে আগামী ১০ দিনের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়। রাজধানীর উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজে ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে মেধা স্কোর অনুযায়ী ছাত্র ভর্তি না করে আগে আসলে আগে ভর্তির সুযোগ ভর্তির জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। ১৭ ডিসেম্বর বেলা ১১টার মধ্যে আগে আসলে আগে ভর্তির সুযোগ পাবেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। ওই দিন বেলা ১১টার পর তারিকুল ইসলাম নামের এক শিক্ষার্থী, যার মেধা স্কোর ২৫৭, সে কলেজে গিয়ে জানতে পারে এরই মধ্যে ৫৭ শিক্ষার্থীর ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে গেছে। ভর্তির সর্বনিম্ন স্কোর ছিল ২৫০.৪৫। তারিকুলের দাবি, মেধা স্কোর অনুযায়ী ভর্তি করলে সে ভর্তির সুযোগ পেত। পরে গত ২ জানুয়ারি তারিকুলের বাবা নজরুল ইসলাম আধুনিক মেডিকেল কলেজের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পদ্ধতি চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন।
আজ আদেশ হতে পারে খালেদার জিয়া ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পক্ষে আদালতে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়েছে। অন্য আসামি ও রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে আজ আদেশ দেয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। মঙ্গলবার এ মামলার অপর দুই আসামি কাজী সালিমুল হক ও শরফুদ্দিন আহমেদের পক্ষে যুক্তিতর্ক শুরু হলেও তা আজ বুধবারের জন্য তা মুলতবি ঘোষণা হয়। এর পরই রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান কৌঁসুলি আইনী পয়েন্টে জবাব দেবেন। এ দিকে বেগম জিয়ার স্থায়ী জামিন ও ব্যক্তিগত কারণে আদালতে না আসার দুটি আবেদন নামঞ্জুর করেছে আদালত। মামলার পরবর্তী দিন আজ বুধবার আদেশের সম্ভাবনা আছে। রাজধানীর বকশীবাজারের আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামানের আদালত মঙ্গলবার এ আদেশ প্রদান করেছেন। এই দশ দিনে বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষে পাঁচ আইনজীবী যুক্তিতর্কে অংশ নিয়েছেন। এরা হলেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, এ জে মোহাম্মদ আলী, খন্দকার মাহবুব হোসেন ও আব্দুর রেজ্জাক খান। রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান কৌঁসুলি মোশাররফ হোসেন কাজল জনকণ্ঠকে বলেন, আমি আশা করছি আজই মামলার আইনী পয়েন্টে যুক্তিতর্ক শেষ করতে পারব। আইনী পয়েন্টে যুক্তিতর্ক শেষ হলেই আজই মামলার আদেশ দেয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এ দিকে মঙ্গলবার বেগম জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ যুক্তিতর্ক বলেন, এটা কোন মামলাই না। বিভিন্ন দেশে রাজনৈতিক নেতাদের ঘায়েল করার জন্য এমন মামলা করা হয়ে থাকে। খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রেও তা-ই হয়েছে। এতে আমাদের নেত্রীর কোন ক্ষতি হবে না। বরং তার জনপ্রিয়তা বাড়বে। তিনিই হবেন বাংলাদেশের আগামী প্রধানমন্ত্রী। এর আগে বেলা ১১টা ৩৭ মিনিটে রাজধানীর বকশীবাজারের আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামানের আদালতে উপস্থিত হন খালেদা জিয়া। এ সময় তিনি জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির দুই মামলায় হাজিরা প্রদান করেন। বেলা ১১টা ৪৩ মিনিটে তার পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন শুরু করেন তার আইনজীবী। মওদুদ আহমদ আরও বলেন, দুদকের অধীনে মামলাটি করা হলেও এর প্রক্রিয়া, অনুসন্ধান ও তদন্তকাজে দুদক আইনের যথাযথ অনুসরণ করা হয়নি। তাই এ মামলা চলারই কথা না। এসব বিবেচনায় আদালত খালেদা জিয়াকে নিঃশর্ত ও সম্মানজনক খালাস দেবেন আশা করি। এ দিকে মওদুদ আহমেদ যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে আসামিপক্ষের আরেক আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া খালেদা জিয়াকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দেয়ার আবেদন জানান। এ সময় তিনি বলেন, ব্যক্তিগত ও পারিবারিক অসুবিধার কারণে খালেদা জিয়া আগামী দুদিন তার ব্যক্তিগত উপস্থিতি থেকে অব্যাহতি চেয়েছেন। এর আগে আদালত তার অস্থায়ী জামিন মঞ্জুর করেছিলেন। এবার স্থায়ী জামিনের আদেশ দেয়া হোক। এর বিরোধিতা করে রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান কৌঁসুলি মোশাররফ হোসেন কাজল স্থায়ী জামিন আবেদনের বিরোধিতা করেন। তিনি বলেন , এর আগে খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে মামলার কার্যক্রম পরিচালনা করা যাবে না মর্মে হাইকোর্ট থেকে একটি আদেশ আনেন আসামির আইনজীবীরা। ওই আদেশ উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, হাইকোর্ট এ মামলার সব কার্যক্রম খালেদা জিয়ার উপস্থিতিতে পরিচালনার জন্য আদেশ দিয়েছেন। তাই তাকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দেয়ার ক্ষেত্রে রাষ্ট্রপক্ষের আপত্তি আছে। দুই আইনজীবীর শুনানি শেষে খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি ও স্থায়ী জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে দেন আদালত। এর আগে, ১১ জানুয়ারি নবম দিনের মতো জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদার পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। এ দিন তার যুক্তি উপস্থাপন শেষ না হওয়ায় পরবর্তী যুক্তি উপস্থাপনের জন্য ১৬, ১৭ ও ১৮ জানুয়ারি দিন ধার্য করেন আদালত। অপরদিকে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলাতেও যুক্তি উপস্থাপনের জন্য একই দিন ধার্য করেন আদালত। ১৯ ডিসেম্বর জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার যুক্তি উপস্থাপন শুরু হয়। এ দিন রাষ্ট্রপক্ষ খালেদা জিয়াসহ সব আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি চেয়ে যুক্তি উপস্থাপন শেষ করেন। এরপর ২০, ২১, ২৬, ২৭ ও ২৮ ডিসেম্বর এবং ৩ , ৪, ১০ ও ১১ জানুয়ারি খালেদার পক্ষে যুক্ত উপস্থাপন করেন তার আইনজীবীরা। মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, এতিমদের জন্য বিদেশ থেকে আসা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের দুই কোটি দশ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০০৮ সালের তিন জুলাই রমনা থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ২০১০ সালের পাঁচ আগস্ট খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন দুদকের উপ-পরিচালক হারুন আর রশীদ। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ খালেদা জিয়াসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে আদালত। মামলায় খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান ছাড়া অন্য আসামিরা হলেন- মাগুরার সাবেক সংসদ সদস্য কাজী সালিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান। এ ছাড়া জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে ২০১০ সালের আট আগস্ট তেজগাঁও থানায় আরও একটি মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক হারুন-অর-রশীদ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক বাসুদেব রায়। এ মামলার অন্য আসামিরা হলেন- খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী (পলাতক), হারিছের তখনকার সহকারী একান্ত সচিব ও বিআইডব্লিউটিএর সাবেক নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান। খালেদা জিয়া, সালিমুল হক কামাল ও শরফুদ্দিন আহমেদ এ মামলায় জামিনে আছেন। খালেদার বড় ছেলে তারেক রহমান গত নয় বছর ধরে দেশের বাইরে, তার বিরুদ্ধে এ মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে আদালত। এ ছাড়া কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও মমিনুর রহমান মামলার শুরু থেকেই পলাতক।
ডিএনসিসির উপনির্বাচন স্থগিত চেয়ে করা রিটের বিষয়ে আজ আদেশ দেবেন হাইকোর্ট
ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উপনির্বাচন স্থগিত চেয়ে করা রিটের বিষয়ে আজ আদেশ দেবেন হাইকোর্ট। বুধবার দুপুরে প্রাথমিক শুনানি শেষে বিচারপতি নাঈমা হায়দার চৌধুরী ও বিচারপতি জাফর আহমেদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ আদেশের এদিন ধার্য করেন। সীমানা সংক্রান্ত জটিলতা নিষ্পত্তি করার আগেই উত্তর সিটির উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করায় সিটি করপোরেশনে নতুন অন্তর্ভুক্ত ভাটারা এবং বেরাইদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বাদী হয়ে হাইকোর্টে এ রিটটি দায়ের করেন। রিটে নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে। ২৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণের জন্য তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।
প্রণব মুখার্জিকে ডি-লিট ডিগ্রি প্রদান
ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জিকে সম্মানসূচক ডি-লিট ডিগ্রি প্রদান করেছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়। মঙ্গলবার দুপুুরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আবদুর রব হল মাঠে এ সম্মানসূচক ডিগ্রি তার হাতে তুলে দেওয়া হয়। ডিগ্রি গ্রহণ শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন তিনি।বক্তৃতায় প্রণব মুখার্জি শিক্ষার মান বিশেষ করে উচ্চশিক্ষার মান ও গবেষণার প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি বলেন, আমি যখন ভারতের ত্রয়োদশ রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করি। তখন শতাধিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান হিসেবে সেসব প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বও আমার উপর বর্তায়। এটি পালন একটি বড় কাজ। এছাড়া বক্তব্যে তিনি গণতন্ত্রের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করে বলেন, 'গণতন্ত্রের মধ্য দিয়ে দেশের উন্নয়নকে এগিয়ে নেওয়া যায়।'
শুধু পরিবেশ দূষণ নয়, এর চেয়ে আরও বড় দূষণ রয়েছে মানুষের মনে ও চিন্তায় : প্রণব
মানুষের মনের ও চিন্তার দূষণ দূর করতে হবে : প্রণব বাংলাদেশ সফররত ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি বলেছেন, শুধু পরিবেশ দূষণ নয়, এর চেয়ে আরও বড় দূষণ রয়েছে মানুষের মনে ও চিন্তায়। এই দূষণ দূর করতে হবে। একমাত্র শিল্পী, স্রষ্টা, লেখক, কবি, সাহিত্যিকরাই চিন্তার ও মনের সেই দূষণ দূর করতে পারেন উল্লেখ করে তিনি বলেন,ভয়াবহ এই দূষণের হাত থেকে বাঁচানোর দায়িত্ব স্রষ্টাদের। সাহিত্যিক, কবি, লেখকরা নতুন পৃথিবী সৃষ্টি করবে। তিনি আরও বলেন, যুগ যুগ ধরে মানব সভ্যতার ইতিহাস এ কথা বলে গেছে যে হিটলার, মুসোলিনিরা নয়, সভ্যতার ইতিহাস নির্মাণ করে গেছেন প্রফেট, ক্রাইস্ট, বুদ্ধা। দিগ্বিজয়ী বীরেরা নয়, সভ্যতার ইতিহাসের দিক নির্মাণ করেছেন লেখক-কবি-সাহিত্যিক তথা শিল্পীরা। সোমবার বিকেলে রাজধানীর বাংলা একাডেমি চত্ত্বরে নজরুল মঞ্চে আয়োজিত আন্তর্জাতিক বাংলা সাহিত্য সম্মেলন-১৪২৪- এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার আলম এবং সম্মেলনের আহবায়ক এমিরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। আরও বক্তব্য রাখেন সম্মেলনের প্রধান সমন্বয়কারী নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু এবং বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের শিল্পী যোগেন চৌধুরী ও সংসদ সদস্য সরজু রাই। ভারতের প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি বলেন, একটি বড় যুদ্ধে যত মানুষ মারা যায়, গত এক দশকে তার চেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছে শুধু সন্ত্রাসবাদের কারণে। বাংলাদেশের (তৎকালীন পূর্ববাংলা) মানুষ রক্ত দিয়ে বাংলা ভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, শুধু একুশে ফেব্রুয়ারি নয়, যারা আন্দোলন করে বাংলা ভাষাকে রক্ষা করেছেন তাদেরকে আমরা শ্রদ্ধা জানাই। গর্বের বিষয় একুশে ফেব্রুয়ারি আজ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি পেয়েছে। ভাষা আন্দোলনে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে প্রণব মুখার্জি বলেন, হাজার বছরের বাঙালি ঐতিহ্য, সংস্কৃতি, ভাষা ও সাহিত্যকে তারা লুট হয়ে যেতে দেননি। আগ্রাসকদের হাতে ধ্বংস হয়ে যেতে দেননি। সংস্কৃতিকে তারা রক্ষা করেছেন। মাতৃভাষার অধিকারকে প্রতিষ্ঠায় বুকের রক্ত ঢেলেছে বাঙালি। তিনি আরও বলেন, পরীক্ষা পাসের জন্য দিগিজয়ী বীরদের নিয়ে পড়াশোনা করা যায়, পাসের পর তা বেমালুম ভুলে যাই। কিন্তু শিল্পীর ছবি, কবিতা বা প্রিয় উপন্যাস কখনো ভোলা যায় কি? যে গান, সানাই বা সরোদের সুর আমাদের প্রিয়, তা কখনো ভুলতে পারি আমরা? ১৯৬৯ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত তাঁর দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের স্মৃতিচারণ করে প্রণব মুখার্জি বলেন, আমি পড়ুয়া, পড়তে ভালবাসি। তবে রাজনৈতিক জীবনে পড়তে পারিনি। তবে ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনে এত বই রয়েছে যে তিনবার রাষ্ট্রপতি হলেও তা পড়ে শেষ করা যাবে না। ভারতের রাষ্ট্রপতি হিসাবে রাষ্ট্রপতি ভবনের স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি ভবনে আধুনিক ভারতবর্ষের প্রচুর কাগজপত্র, অনেক দুষ্প্রাপ্য গোপনীয় রেকর্ড, পড়বার জন্য প্রচুর উপাদান পেয়ে গেলাম। হিসাব করে দেখলাম এসব পড়তে গেলে তো এক প্রেসিডেন্সিয়াল টার্মে হবে না, তিনটা টার্ম লাগবে। তার আগেই ঈশ্বরের সমন এসে যাবে। আমি ভাবলাম, যতটা পারা যায়, আমি পড়ব।
আজ আদালতে হাজিরা খালেদা জিয়ার
দুর্নীতির দুই মামলায় হাজিরা দিতে আজ মঙ্গলবার (১৬ই জানুয়ারি) আদালতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে খালেদা জিয়া রাজধানীর বকশীবাজারের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামানের আদালতে যাবেন। এদিন খালেদা জিয়ার পক্ষের আইনজীবী হিসেবে যুক্তি উপস্থাপন করবেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ। এর আগে, গত বছর ১৯ ডিসেম্বর জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার যুক্তি উপস্থাপন শুরু হয়। গত ২০,২১, ২৬, ২৭ ও ২৮ ডিসেম্বর এবং ৩,৪,১০ ও ১১ জানুয়ারি খালেদা জিয়ার পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করেন তার আইনজীবীরা। গত ১১ জানুয়ারি যুক্তি উপস্থাপন শেষে আদালত পরবর্তী তারিখ হিসেবে ১৬, ১৭ ও ১৮ই জানুয়ারি দিন ধার্য করেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে প্রণব মুখার্জির সৌজন্য সাক্ষাৎ
বাংলাদেশকে বিনিয়োগের জন্য আকর্ষণীয় জায়গা বলে অভিহিত করেছেন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি। সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে গণভবনে বৈঠককালে তিনি এ মন্তব্য করেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম এ তথ্য জানিয়েছেন। গণভবনে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে প্রেস সচিব জানান, বেলা ১২ টার দিকে গণভবনে প্রবেশ করেছেন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। এসময় প্রণব মুখার্জির কাছে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক অগ্রগতির কথা তুলে ধরেছেন প্রধানমন্ত্রী। জবাবে প্রণব মুখার্জি বলেছেন, বাংলাদেশ বিনিয়োগের জন্য আকর্ষণীয় জায়গা। এছাড়াও রোহিঙ্গা সঙ্কট ও তাদের আশ্রয় দেওয়ার সার্বিক পরিস্থিতির কথাও তুলে ধরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব আরও জানান, বৈঠকের সময় প্রধানমন্ত্রীকে নিজের অবসরকালীন সময় বই পড়ে কাটানোর ব্যাপারে জানিয়েছেন প্রণব মুখার্জি। তিনি বলেছেন, আগে রাজনৈতিক ও সাংবিধানিক ব্যস্ততার কারণে সময় পেতাম না। এখন অনেক সময় পাই, অবসরের পর বই পড়ছি। আমার জীবন কেমন কাটছে তা প্রধামন্ত্রীকে জানিয়েছি। বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে পারিবারিক মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেন ভারতের এ সাবেক রাষ্ট্রপতি। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন মেয়ে শর্মিষ্ঠা মুখার্জি। এর আগে সকালে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্দা জানান প্রণব মুখার্জি। এরপর বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করেন তিনি। উল্লেখ্য, ঢাকা আন্তর্জাতিক সাহিত্য সম্মেলনের আমন্ত্রণে পাঁচ দিনের ব্যক্তিগত সফরে ঢাকায় এসেছেন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি। ১৪ জানুয়ারি (রবিবার) বিকাল ৪টায় জেট এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে করে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন তিনি। আগামী ১৮ জানুয়ারি তার ঢাকা ত্যাগ করার কথা রয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।
ভোলা যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি
দ্বীপ জেলা ভোলায় নির্মাণ করা হয়েছে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার সর্বোচ্চ ওয়াচ টাওয়ার। উদ্বোধনের অপেক্ষায় স্বাধীনতা যাদুঘরটিও। আগামীকাল ২ দিনের সফরে ভোলায় পৌঁছে রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ এ সকল স্থাপনার উদ্বোধন করবেন। জেলার এই উন্নয়ন কার্যক্রমে রাষ্ট্রপতি অংশগ্রহণ করায় আনন্দিত ভোলাবাসী। নিরাপত্তাসহ সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক। উদ্বোধনের অপক্ষোয় ভোলার চরফ্যাশনে নির্মিত দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার সর্বোচ্চ ওয়াচ টাওয়ার, জ্যাকব টাওয়ার। মঙ্গলবার রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ এটি উদ্বোধন করবেন। পরে অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজ ও টিচার্স ট্রেনিং কলেজ ভবনের উদ্বোধন শেষে বিকেলে টি বি মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে এক সুধী সমাবেশে বক্তব্য রাখবেন রাষ্ট্রপতি। রাতে চরফ্যাশনের চর কুকরী মুকরীতে নবনির্মিত একটি রেস্ট হাউজে রাত্রি যাপন করবেন তিনি। পরদিন সকালে চর কুকরী মুকরীতে একটি ইকোপার্কের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন শেষে সদর উপজেলায় নির্মিত স্বাধীনতা যাদুঘর উদ্বোধন করবেন রাষ্ট্রপতি।রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তায় ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসক। জেলা প্রশাসক মোহা. সেলিম উদ্দিন বলৈন, নিরাপত্তার ব্যপক প্রস্তুতি। প্রায় এক হাজারের উর্ধ্বে বিভিন্ন পর্যায়ে নিরাপত্তাকর্মী কাজ করবেন। স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং বন ও পরিবেশ উপমন্ত্রী আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব জানান রাষ্ট্রপতির আসাকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। তিনি বলেন, এখানে তাকে সম্মান জানানোর জন্য, বরণ করার জন্য এখানে টি বি স্কুলের মাঠে গার্ড অফ অনার এবং টাওয়ার পরিদর্শনসহ ও বেশ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উদ্বোধনের সকল প্রস্তুতি আমরা এরইমধ্যে গ্রহণ করে ফেলেছি। রাষ্ট্রপতির সফরকালে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদসহ স্থানীয় সংসদ সদস্যরা উপস্থিত থাকবেন।

জাতীয় পাতার আরো খবর