সোমবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২১
সারাদেশেই ছাত্রদের হাফ ভাড়া নিশ্চিত করতে হবে: জিএম কাদের
১ ডিসেম্বর , বুধবার , নিজস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও সংসদে বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের বলেছেন, শুধু রাজধানী নয়, সারাদেশেই শর্তহীনভাবে ছাত্রদের হাফ ভাড়া নিশ্চিত করতে হবে। বুধবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে বনানী কার্যালয়ে ব্যারিস্টার খাজা তানভির আহমেদের নেতৃত্বে অর্ধশত নেতা-কর্মী জাতীয় পার্টিতে যোগদান উপলক্ষে তিনি একথা বলেন। জাপা চেয়ারম্যান বলেন, হাফ ভাড়ার জন্য ছাত্ররা রাজপথে আন্দোলন করছে, ছাত্রদের হাফ ভাড়ার আন্দোলন যৌক্তিক। ছাত্রদের আন্দোলনে সাধারণ মানুষ রাজধানীর সড়কে আটকে সীমাহীন ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন, কিন্তু কারো যেন কিছুই করার নেই। ছাত্রদের হাফ ভাড়ার দাবিতে কোনো শর্ত গ্রহণযোগ্য নয়। তিনি বলেন, সড়কের নৈরাজ্য বন্ধ করতে হবে। তেলের দাম বাড়ার পর থেকে সরকারের সঙ্গে আলোচনায় যে হারে ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে, শ্রমিকরা তার চেয়েও বেশি ভাড়া আদায় করছেন। অযৌক্তিকভাবে ভাড়া বাড়িয়েছে সিএনজি চালিত বাসও। প্রতিবাদ করলে যাত্রীদের লাঞ্ছিত করে পথে নামিয়ে দিচ্ছেন শ্রমিকরা। তিনি আরও বলেন, পরিবহন মালিক ও শ্রমিকরা এক শ্রেণির নেতার কাছে জিম্মি হয়ে আছেন। সরকার সাধারণ মানুষের স্বার্থ না দেখে, পরিবহন মালিকদের সঙ্গে আঁতাত করে ভাড়া বাড়িয়ে দিয়েছে। সরকার জনগণের পক্ষে কাজ করছে না, সাধারণ মানুষ মনে করছে সরকারও পরিবহন মালিকদের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে। এ সময় সড়ক পথের চাঁদাবাজি বন্ধ করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান জাপা চেয়ারম্যান। তিনি বলেন, আগামী দিনের রাজনীতিতে জাতীয় পার্টির জন্য সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে। দেশের মানুষ জাতীয় পার্টিকে আবরও রাষ্ট্র ক্ষমতায় দেখতে চায়, তাই প্রতিদিন বিশিষ্টজনরা জাতীয় পার্টিতে যোগ দিচ্ছেন। জাতীয় পার্টি স্বার্থের রাজনীতি করে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা দেশ ও দেশের মানুষের জন্য রাজনীতি করছি। ১৯৯০ সালের পর থেকে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশের মানুষকে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েচিল তা রক্ষা করতে পারেনি। দেশের মানুষ বলতে শুরু করেছে, এরশাদের আমলেই তারা ভাল ছিলেন। তারা জাতীয় পার্টিকেই আবারও রাষ্ট্র ক্ষমতায় দেখতে চায়। এ সময় মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, ৩০০ আসনেই প্রার্থী দিতে কাজ করছে জাতীয় পার্টি। তাই সাধারণ মানুষের সঙ্গে যাদের সম্পর্ক ভাল, তারাই দলীয় মনোনয়ন পাবেন। নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, জোটের কথা ভুলে কাজ করুন, কারো সঙ্গেই জোট হবে না। জাতীয় পার্টি এককভাবেই নির্বাচনে অংশ নেবে। এ সময় তিনি দলকে আরও শক্তিশালী করতে নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন জাপা প্রেসিডিয়াম সদস্য এটিইউ তাজ রহমান, অ্যাড. মো. রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, যোগদানকারীদের মধ্যে ব্যারিষ্টার খাজা তানভির আহমেদ ও সামছুল ইসলাম মজনু।
শিক্ষার্থীদের জন্য বিআরটিসি বাসের ভাড়া অর্ধেক করা হচ্ছে : সেতুমন্ত্রী
২৬নভেম্বর ২০২১, শুক্রবার , নিজস্ব সংবাদদাতা, নিউজ একাত্তর: শিক্ষার্থীদের দাবীর প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে বিআরটিসি বাসের ভাড়া শতকরা পঞ্চাশ ভাগ কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আজ তার সরকারি বাসভবনে সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সরকার জনগণের সরকার। জনঘনিষ্ঠ এবং যৌক্তিক কোন দাবীতে তিনি সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হওয়ার পর শিক্ষার্থীরা হাফ ভাড়ায় বিআরটিসি বাসে যাতায়াত করতে পারবে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ভ্রমণকালে ছাত্র-ছাত্রীদের অবশ্যই নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ইস্যুকৃত ছবিযুক্ত বৈধ পরিচয়পত্র সাথে রাখতে হবে এবং প্রয়োজনে প্রদর্শন করতে হবে। তিনি বলেন, সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা বিআরটিসি বাসে চলাচলের ক্ষেত্রে এ সুবিধা পাবে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের দিনে এ সুবিধা প্রযোজ্য হবে না উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, শিগগিরই এ বিষয়ে বিআরটিসি প্রজ্ঞাপন জারি করবে। ওবায়দুল কাদের বলেন, বেসরকারি মালিকানাধীন বাস-মিনিবাসে চলাচলে শিক্ষার্থীদের কনসেশন দেয়ার বিষয়টি আলোচনার জন্য আগামীকাল বিআরটিএ’তে পরিবহন মালিক এবং শ্রমিক ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দসহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে একটি সভা অনুষ্ঠিত হবে। সামাজিক দায়বদ্ধতা এবং শিক্ষার্থীদের দাবীর প্রতি সংবেদনশীল থেকে পরিবহন মালিকরা ইতিবাচক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
সাংবাদিকের ওপর হামলার অভিযোগে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার
২৩নভেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার , নিজস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর: বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের সাংবাদিক মো. রিশাদ হুদার ওপর হামলার ঘটনায় ধানমন্ডি থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নাজিম আহম্মেদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সাংবাদিক রিশাদ হুদা বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদার ছেলে। তিনি জানান, শনিবার বিকেল শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটের পেছনে মোটরসাইকেলের হর্ন দেওয়ায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নাজিম আহম্মেদ ক্ষিপ্ত হন তার ওপরে। এ সময় গাড়ি থেকে নেমে তাকে গালিগালাজ করেন নাজিম। এর এক পর্যায়ে নাজিম ও তার সহযোগীরা মারধর শুরু করে রিশাদকে। এ বিষয়ে শনিবার রাতেই শাহবাগ থানায় রিশাদ হুদা বাদী হয়ে নাজিম আহম্মেদকে প্রধান আসামি করে মামলা করেন। পরে অভিযুক্ত সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নাজিমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এদিকে আহত সাংবাদিক রিশাদের চিকিৎসা চলছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।
মওলানা ভাসানীই স্বাধীনতার বীজ বপন করেছিলেন: ন্যাপ মহাসচিব
১৭ নভেম্বর ২০২১, বুধবার , নিজস্ব সংবাদদাতা, নিউজ একাত্তর: বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেছেন, স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর সততা, দেশপ্রেম ও দূরদর্শিতাসম্পন্ন ক্ষমতা কার না জানা। দূরদর্শিতাসম্পন্ন ক্ষমতার বলেই হয়তো তিনি পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার এক দশক পর এবং স্বাধীনতা যুদ্ধের ১৩ বছর আগেই ঐতিহাসিক কাগমারী সম্মেলনে ১৯৫৭ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি সর্বপ্রথম পাকিস্তানকে আসসালামু আলাইকুম জানিয়ে দিয়েছিলেন যার অর্থই ছিলো পূর্ব বাংলা থেকে বিদায় হও। এ বাক্যের মাধ্যমে সেদিনই তিনি স্বাধীনতার বীজ বপন করে দিয়েছিলেন স্বাধীনতাকামী প্রতিটি বাঙালির মনে। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে সেই বীজ বৃক্ষে পরিণত হলো, ডালপালা ছড়ালো, ফল দিতে শুরু করলো ৭০-৭১ সালে। মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার (১৭ নভেম্বর) টাঙ্গাইলের সন্তোষে মরহুমের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন ও ফাতেহা পাঠ শেষে এ কথা বলেন তিনি। গোলাম মোস্তফা বলেন, ইদানিং এক শ্রেণির বিবেক বর্জিত বুদ্ধিজীবী ও লেখক ইতহাস বিকৃতির মাধ্যমে মওলানা ভাসানীর চরিত্র হননের চেষ্টা করছে। তাদের একজন হলেন ড. মোহাম্মদ হান্নান। তিনি তার রচিত বাংলাদেশের ছাত্র আন্দোলনের ইতিহাস বইয়ে মওলানা ভাসানী সম্পর্কে বিকৃত ও মিথ্যা তথ্য উপস্থাপনের মাধ্যমে মূলত মওলানা ভাসানীর চত্রি হননের চেষ্টা করেছেন। এ বিষয়ে প্রখ্যাত রাজনীতিক বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) প্রেসিডিয়াম সদস্য হায়দার আকবর খান রনো বার বার তাকে অবহিত করলেও তিনি তা সংশোধন করেননি। ন্যাপ মহাসচিব বলেন, লেখক মওলানা ভাসানী সম্পর্কে লিখেছেন বাষট্টির ছাত্রআন্দোলনের সময়ে যে ৯ নেতার বিবৃতি প্রকাশিত হয়েছিল, তাতে মওলানা ভাসানীর স্বাক্ষর ছিল না। এ ব্যাপারে তিনি বিস্ময় প্রকাশ করে ইঙ্গিত দিয়েছেন যে সরকারের সঙ্গে ভাসানীর সখ্য ছিল বলেই তিনি এ বিবৃতিতে স্বাক্ষর দিতে সম্মত হননি। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। তিনি বলেন, প্রকৃত সত্য হলো, ৯ নেতার বিবৃতিতে ভাসানীর সই থাকার কোনো প্রশ্নই ওঠে না। কারণ, তিনি বন্দি ছিলেন। ১৯৫৮ সালের ১২ অক্টোবর মওলানা ভাসানীকে টাঙ্গাইল থেকে গ্রেফতার করে আইয়ুব সামরিক সরকার। তারপরে তিনি ঢাকায় একটানা বন্দি ছিলেন ১৯৬২ সালের ৩ নভেম্বর পর্যন্ত। পরবর্তী সময়ে কৃষকদের কয়েকটি দাবি নিয়ে অনশন করলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তিনতলায় ১০ নম্বর কেবিনে বন্দি ছিলেন তিনি। ৯ নেতার বিবৃতি সই হয়েছে ১৯৬২ সালের ২৪ জুন। অতএব একজন বন্দি নেতাকে সরকারের সহযোগী হিসেবে প্রমাণ করার চেষ্টা করাটা যথার্থ কি-না, তা পাঠকেরাই বিচার করবেন। তিনি বইয়ের লেখক মোহাম্মদ হাননানের উদ্দেশ্যে বলেন, ইতিহাস লেখায় হাত দেওয়ার আগে কিছুটা গবেষণাও করা দরকার। কোনো বিশেষ ব্যক্তি বা রাজনৈতিক নেতাকে কারো পছন্দ হতে পারে অথবা না হতে পারে। কিন্তু তথ্য সঠিক না হলে তাকে ইতিহাসবিদ বা গবেষক কোনোটাই বলা যায় না। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, বাংলাদেশ ন্যাপ সমাজকল্যাণ সম্পাদক মিতা রহমান, সাথি ইসলাম প্রমুখ। - নিউজ একাত্তর/ এম.সিএইচ
জনগণ যাদের ত্যাগ করেছে তারাই এখন দেউলিয়া : ওবায়দুল কাদের
১৪নভেম্বর ২০২১, রবিবার , নিজস্ব সংবাদদাতা, নিউজ একাত্তর: যারা জনগণের পাশে যেতে ভয় পায় এবং জনগণও যাদের ত্যাগ করেছে তারাই এখন দেউলিয়া বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, যারা নিজেরা দেউলিয়া হয়ে এখন সর্বহারাতে রূপ নিতে যাচ্ছে তাদের অন্যদের নিয়ে কথা বলা হাস্যকর। প্রকৃতপক্ষে বিএনপিই এখন দেউলিয়া হয়ে গেছে। ওবায়দুল কাদের আজ রোববার সকালে খুলনা সড়ক জোনের অধীনে দুইটি সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে এসব কথা বলেন। আওয়ামী লীগ দেউলিয়া হয়ে গেছে বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্য জনগণের মধ্যে বিনোদনের উৎসে পরিণত হয়েছে। বিএনপি মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও নির্বাচন ও আন্দোলনে যেতে ভয় পায়, এজন্য তো তারাই দেউলিয়া। তিনি বলেন, যে দল বিদেশীদের হস্তক্ষেপ চেয়ে বিবৃতি দেয় তাদের দেউলিয়াত্ব চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিতে হয় না। এর আগে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে খুলনা সড়ক জোনের অধীনে নবনির্মিত দুইটি সেতুর উদ্বোধন করেন। সাতক্ষীরা-আশাশুনি-গোয়ালডাঙ্গা-পাইকগাছা সড়কের উপর প্রায় ৩৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ৩০৫ মিটারের দৈর্ঘ্যের মানিকখালী সেতু এবং কুষ্টিয়া (ত্রিমোহনি) মেহেরপুর-চুয়াডাঙ্গা -ঝিনাইদহ সড়কের মাথাভাঙা নদীর উপর প্রায় সাড়ে ২২ কোটি ৬৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ১৪০ মিটার দৈর্ঘ্য ও ১২.২৫ মিটার প্রস্থের মাথাভাঙা সেতু রয়েছে। সেতুমন্ত্রী বলেন, সেতু দুইটি যথেষ্ট গুরুত্ব বহন করে,কারণ মাথাভাঙা সেতুটির ফলে বাংলাদেশের প্রথম রাজধানী মুজিবনগরের সাথে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থা নিরবচ্ছিন্ন হয়েছে এবং মুজিবনগরে প্রস্তাবিত যে স্থল বন্দর বাস্তবায়িত হবে সেটির সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হবে। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী খুলনা-যশোর মহাসড়কের দুরবস্থার দূর করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়ে বলেন, যত দ্রুত সম্ভব খুলনা-যশোর সড়কের কাজ শেষ করতে হবে। - নিউজ একাত্তর/এম.পিএইচ
গৃহহীন মানুষদের জন্য যুবলীগ আশ্রয় কর্মসূচি চালিয়ে যাবে: শেখ পরশ
১২নভেম্বর ২০২১, শুক্রবার, নিজস্ব সংবাদদাতা, নিউজ একাত্তর, ঢাকা: যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ বলেছেন, যতদিন দেশে একজন গৃহহীন মানুষ থাকবে ততদিন যুবলীগ আশ্রয় কর্মসূচী চালিয়ে যাবে। বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ ঘর দাতা ও গ্রহীতাদের নামের তালিকা ঘোষণা করে এসব কথা বলেন। যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিভিন্ন জেলায় গৃহহীন পরিবারের মাঝে ২২টি ঘর হস্তান্তর করা হয়। আশ্রয় প্রকল্পের ঘরের তালিকা ঘোষণার পরে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ বলেন, প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার গৃহহীনদের গৃহদানের অনুসরণে এই কর্মসূচি। যুবলীগের আগে কোন রাজনৈতিক সংগঠন এই রকম যুগান্তকারী পদক্ষেপ নেয়নি। আমি একটু খবর নেওয়ার চেষ্টা করেছি কোথাও দেখি নাই কোন সংগঠন এইভাবে গৃহহীন মানুষের জন্য ঘর তৈরি করে দিয়েছে। সংগঠনের তরফ থেকে এই প্রথম বাংলাদেশে যুবলীগ এই যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছে। অনেকে মনে করছেন এটা জাতীয় উন্নয়নে এমনকি এসডিজি উন্নয়নেও প্রভাব ফেলবে। এটা মানুষের জীবন মান উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে। তিনি আরও বলেন, এই প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী একাধিক কারণে ভীষণভাবে তাৎপর্যপূর্ণ। একদিকে আমাদের প্রাণপ্রিয় বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী, অন্যদিকে স্বাধীনতার মহানায়ক, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শতবর্ষ পূর্তি। স্বাধীনতা ও বঙ্গবন্ধু শব্দ দুইটি একে অপরের পরিপূরক আমাদের কাছে। বঙ্গবন্ধু ছাড়া স্বাধীণতা শুধু সম্পূর্ণ নয়, অসম্ভব। তিনি আরও বলেন, আজ বঙ্গবন্ধুকন্যা, আমাদের প্রাণপ্রিয় প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রিয়তা ও দূরদর্শীকতার কারণে আমরা ১৩ বছর ধরে রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালন করছি। তার নেতৃত্বে আমরা উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে মর্যাদা পেয়েছি। বঙ্গবন্ধুও চেয়েছিলেন একটা ন্যায় ও সমতার ভিত্তিতে সমাজ ব্যবস্থা গঠন। যেই সমাজ গঠনে বাংলার যুবসমাজ একাধারে কারিগর হিসাবে ভূমিকা রাখবে এবং একই সাথে সমাজ ব্যবস্থার রক্ষক হিসেবেও ভূমিকা রাখবে। তিনি বলেন, আমার বাবা শেখ ফজলুল হক মণি কে নিয়ে আমরা পারিবারিকভাবে অত্যন্ত গর্ববোধ করি। গর্ববোধ করি প্রথমত একারণে যে তিনি আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে একজন অন্যতম সংগঠক, মুজিব বাহিনীর প্রধান। তিনি ৬ দফাসহ ৬০ এর দশকের সকল আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন, জেল খেটেছেন। দ্বিতীয়ত এবং সর্বোপরি, তিনি বীরের বেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের সাথে চলে গেছেন। তিনি তার ৩৫ বছরের জীবনে বঙ্গবন্ধুর বিশ্বস্ত সৈনিক হিসাবে মাথা উঁচু করে হেঁটেছেন। এখনো আমরা তাকে বীরের বেশেই কল্পজগতে বিচরণ করতে দেখি। এখানেই আমাদের সান্তনা। এখানেই আমাদের শক্তি। এসময় কেন্দ্রীয়, মহানগর ও বিভিন্ন ওয়ার্ড যুবলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। - নিউজ একাত্তর/এম. ইয়াসির
তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই
১১ নভেম্বর ২০২১, নিজস্ব সংবাদদাতা, ঢাকা ঃ বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমরা খুব পরিস্কার করে বলেছি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই। আমরা বলেছি জনগণ যেন ভোট দিতে পারে সেই ব্যবস্থা ফিরিয়ে আনতে হবে। এটিই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য।বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নসরুল হামিদ মিলনায়তনে বিএনপির স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন জাতীয় কমিটি আয়োজিত আজকের প্রেক্ষাপটে ঐতিহাসিক ৭ নভেম্বর বিপ্লব ও সংহতি দিবসের তাৎপর্য শীর্ষক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন। মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে আবার ৭৫-এর বাকশালের মতো গভীর ষড়যন্ত্র চলছে। গত একযুগে আমাদের সব গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করা হয়েছে। আপনারা দেখেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের যে ব্যবস্থা ছিল, এই দেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতির প্রেক্ষাপটে দেশনেত্রী খালেদা জিয়া সেটা মেনে নিয়েছিলেন। সেটা বাতিল করে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর মাধ্যমে মানুষের মতামতের ভিত্তিতে সরকার ও পার্লামেন্ট গঠন করার যে বিষয়টি ছিল সেটা পুরোপুরি ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। নির্বাচন ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে।
সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে নির্বাচন হবে: ওবায়দুল কাদের
২৮সেপ্টেম্বর ২০২১, নিজেস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : সংবিধান অনুযায়ী বাংলাদেশে যথা সময়ে নির্বাচন হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন মতিয়া চৌধুরী। ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলাদেশ একটি গণতান্ত্রিক দেশ। বিশ্বে অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশের মতো বাংলাদেশেও সংবিধান অনুযায়ী যথা সময়ে নির্বাচন হবে। নির্বাচন নিয়ে কেউ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চাইলে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সব বিশৃঙ্খলার জবাব দেবেন। নিউজ একাত্তর/বিল্পব
শেখ হাসিনার জন্মদিনে আ.লীগের কর্মসূচি ঘোষণা
২৭সেপ্টেম্বর ২০২১, নিজেস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আগামীকাল মঙ্গলবার। দিনটি যথাযোগ্য মর্যাদায় নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালন করবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে আওয়ামী লীগ। এছাড়াও মঙ্গলবার বাদ জোহর কেন্দ্রীয়ভাবে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ দেশের সকল মসজিদে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। একইসঙ্গে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ বিহার (মেরুল বাড্ডা), ২৮ সেপ্টেম্বর প্রথম প্রহরে (২৭ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে) খ্রিস্টান অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ (সিএবি), মিরপুর ব্যাপটিস্ট চার্চ (২৯ সেনপাড়া, পর্বতা, মিরপুর-১০), সকাল ৬টায় তেজগাঁও জকমালা রাণীর গীর্জা এবং বিকেল ৫টায় ঢাকেশ্বরী মন্দিরে বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হবে। এসব কর্মসূচিতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন। একই দিনে ঢাকাসহ সারাদেশে সকল সহযোগী সংগঠন আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল, বিশেষ প্রার্থনা ও আলোকচিত্র প্রদর্শনীসহ দিবসটির তাৎপর্য অনুযায়ী যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি মেনে বিভিন্ন উপযোগী কর্মসূচি পালন করবে। শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত এসব কর্মসূচি পালন করার জন্য আওয়ামী লীগের সকল সহযোগী সংগঠন, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং সংস্থাসমূহের সকল স্তরের নেতাকর্মী, সমর্থক ও সর্বস্তরের জনগণের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। একইসঙ্গে আওয়ামী লীগের সকল জেলা, মহানগর, উপজেলা, পৌর, ইউনিয়ন, ওয়ার্ডসহ সমস্ত শাখার নেতৃবৃন্দকে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে যথাযথ সুরক্ষাবিধি মেনে অনুরূপ কর্মসূচি গ্রহণ করে দিবসটি পালন করার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। নিউজ একাত্তর/ভুঁইয়া

রাজনীতি পাতার আরো খবর