ফিরিয়ে আনা হবে তারেক রহমানকে: প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে যুক্তরাজ্য থেকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে এনে আদালতের মুখোমুখি করার অঙ্গীকার করেছেন। মঙ্গলবার বিকেলে ওভারসিজ ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটে (ওডিআই) বাংলাদেশের উন্নয়ন গল্প: নীতি, অগ্রগতি ও সম্ভাবনা শীর্ষক অনুষ্ঠানে ভাষণ দেয়ার পর প্রশ্নোত্তর পর্বে প্রধানমন্ত্রী বলেন,এ ব্যাপারে আমরা যুক্তরাজ্য সরকারের সঙ্গে কথা বলছি এবং অবশ্যই একদিন আমরা তাকে দেশে ফিরিয়ে আনবো। তাকে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। তারেক রহমানকে আশ্রয় দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাজ্য সরকারেরও সমালোচনা করেন। তিনি বলেন,যুক্তরাজ্য একটি অবাধ স্বাধীনতার দেশ এবং এটি সত্যি যে, যেকোনো ব্যক্তি এখানে আশ্রয় নিতে এবং শরণার্থী হতে পারে। তবে তারেক রহমান অপরাধের কারণে আদালত কর্তৃক একজন দন্ডিত ব্যক্তি। আমি বুঝতে পারি না, একজন দন্ডিত ব্যক্তিকে কিভাবে যুক্তরাজ্য আশ্রয় দিয়েছে। রোহিঙ্গা ইস্যু প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, তাদের প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ মিয়ানমারের সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। তিনি বলেন, প্রতিবেশী দেশ হিসেবে বাংলাদেশ মিয়ানমারের প্রতি বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ দেখিয়ে আসছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মন্ত্রীরা উভয় দেশ সফর করেছেন। সংকটের সমাধান খুঁজে বের করতে আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিয়ানমারের সকল প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। তিনি বলেন, মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে আগ্রহ দেখালেও বাস্তবে তারা কিছুই করেনি। তাই আমরা চাচ্ছি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এ ব্যাপারে মিয়ানমারের ওপর আরো চাপ সৃষ্টি করুক। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্ষা মৌসুমের আগমনে সেখানে দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। তাই সরকার সকল ব্যবস্থা নিয়েছে এবং তাদেরকে একটি ভাল জায়গায় স্থানান্তরের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে, যাতে তারা সেখানে ভালভাবে থাকতে পারে।
প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে পারেননি শেখ হাসিনা: এরশাদ
১০ টাকা কেজির চাল আর ঘরে ঘরে চাকরি দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এলে তিনি তার দেয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে পারেননি বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। তিনি বলেছেন,দেশের মানুষ ১০ টাকা কেজির চাল ৪০/৫০ টাকায় কিনছে আর বেকাররা চাকরিও পায়নি। সোমবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে নীলফামারীর জলঢাকা ডাকবাংলো মাঠে জাতীয় পার্টিতে যোগদান উপলক্ষে এক জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন। এরশাদ বলেন,উন্নয়ন যতটুকু হয়েছে সব ঢাকায়, ঢাকার বাহিরে কোনো উন্নয়ন হয়নি। আমি তিস্তা ব্যারেজ করেছিলাম, তবে তিস্তা আজ ধু ধু বালুচর। তিস্তা নদীতে এখন গরু গাড়ি চরে। তিনি আরও বলেন,বর্তমান সরকারের সময় মানুষ অত্যাচার, খুন, গুম আর জুলুম ছাড়া কিছুই পায়নি। আগামীতে জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় আসলে দেশের মানুষ শান্তিতে থাকবে। জলঢাকা উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি শাহ্ আব্দুল কাদের বুলু চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মমিনুল ইসলাম মঞ্জুর সঞ্চালনায় এসময় আরো বক্তব্য দেন, দলের কো-চেয়ারম্যান জি.এম কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর (অব.) খালেদ আক্তার, স্থানীয় সরকার ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি, রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তাফা, বিরোধী দলীয় হুইপ শওকত আলী চৌধুরী এমপি, গাইবান্ধা-১ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী, নীলফামারী-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য জাফর ইকবাল সিদ্দিকী, নীলফামারী জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব এ.কে. এম সাজ্জাদ পারভেজসহ জেলা ও উপজেলা নেতৃবৃন্দ। এর আগে বিভিন্ন দলের শতাধিক কর্মী এরশাদের হাতে ফুলের তোড়া উপহার দিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেন।
শাহবাগ চত্বরে ২৪ এপ্রিল মুক্তিযোদ্ধা মহাসমাবেশ
জাতীয় অস্তিত্ব রক্ষা, স্বাধীনতা, স্বার্বভৌমত্ব ও স্থিতিশীলতার বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করার লক্ষ্যে আগামী ২৪ এপ্রিল (মঙ্গলবার) রাজধানীর শাহবাগে মহাসমাবেশের ডাক দিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধারা। সোমবার (১৬ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবে মুক্তিযোদ্ধা মহাসমাবেশ বাস্তবায়ন পরিষদ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে একথা এ ঘোষণা দেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আবদুল আহাদ চৌধুরী। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, কোটা সংস্কারের নামে স্বাধীনতা বিরোধীদের এজেন্টরা ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে। তারা আন্দোলনের নামে মুক্তিযুদ্ধ ও জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধাদের অপমান করেছে। আবদুল আহাদ চৌধুরী বলেন, স্বাধীনতা বিরোধীরা যে ষড়যন্ত্রের জাল বুনছে এমন পরিস্থিতিতে দেশপ্রেমিক মুক্তিযোদ্ধারা চুপচাপ বসে থাকতে পারে না। স্বাধীনতাবিরোধীদের এই হীন চক্রান্তকে প্রতিহত করা এখন ঐতিহাসিকভাবে প্রয়োজন এবং তা সময়ের দাবিতে পরিণত হয়েছে। সকল মুক্তিযোদ্ধা এবং তাদের সন্তানদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, এই পরিস্থিতিতে কোনো দ্বিধা-দ্বন্দ্ব নয়, কোনো বিভাজন নয়, কোনো নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা নয়। সব মুক্তিযোদ্ধা, তাদের সন্তান এবং দেশপ্রেমিক জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই চক্রান্তকে প্রতিহত করতে হবে। আগামী ২৪ এপ্রিল ( মঙ্গলবার) দুপুর ২টায় শাহবাগ চত্বরে মুক্তিযোদ্ধা মহাসমাবেশে প্রিয় স্বাধীনতার বিরুদ্ধে সব ষড়যন্ত্র প্রতিহত করার লক্ষ্যে কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে তিনি জানান। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধা মহাসমাবেশ বাস্তবায়ন পরিষদের সদস্যসচিব মো. মিনহাজুর রহমান, আবদুস সালাম মজুমদার, সেলিম চৌধুরী প্রমুখ। এদিকে শ্রমিক কর্মচারি পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ এবং মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদ আহুত ৩০ এপ্রিল মহাসমাবেশ ও ২২ এপ্রিলের মুক্তিযোদ্ধা প্রতিনিধি সভা স্থগিত করা হয়েছে। সমন্বয় পরিষদের আহ্বায়ক ও নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান স্বাক্ষরিত পরিষদের সোমবার (১৬ এপ্রিল) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়। তবে সমন্বয় পরিষদের ১৮ এপ্রিল (বুধবার) প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারক লিপি দেয়ার কর্মসূচি বহাল রয়েছে।
জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় আসলে দেশের মানুষ শান্তিতে থাকবে:এরশাদ
১০ টাকা কেজির চাল আর ঘরে ঘরে চাকরি দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এলে তিনি তার দেয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে পারেননি বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। তিনি বলেছেন, দেশের মানুষ ১০ টাকা কেজির চাল ৪০/৫০ টাকায় কিনছে আর বেকাররা চাকরিও পায়নি। সোমবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে নীলফামারীর জলঢাকা ডাকবাংলো মাঠে জাতীয় পার্টিতে যোগদান উপলক্ষে এক জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন। এরশাদ বলেন, উন্নয়ন যতটুকু হয়েছে সব ঢাকায়, ঢাকার বাহিরে কোনো উন্নয়ন হয়নি। আমি তিস্তা ব্যারেজ করেছিলাম, তবে তিস্তা আজ ধু ধু বালুচর। তিস্তা নদীতে এখন গরু গাড়ি চরে। তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকারের সময় মানুষ অত্যাচার, খুন, গুম আর জুলুম ছাড়া কিছুই পায়নি। আগামীতে জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় আসলে দেশের মানুষ শান্তিতে থাকবে। জলঢাকা উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি শাহ্ আব্দুল কাদের বুলু চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মমিনুল ইসলাম মঞ্জুর সঞ্চালনায় এসময় আরো বক্তব্য দেন, দলের কো-চেয়ারম্যান জি.এম কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর (অব.) খালেদ আক্তার, স্থানীয় সরকার ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি, রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তাফা, বিরোধী দলীয় হুইপ শওকত আলী চৌধুরী এমপি, গাইবান্ধা-১ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী, নীলফামারী-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য জাফর ইকবাল সিদ্দিকী, নীলফামারী জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব এ.কে. এম সাজ্জাদ পারভেজসহ জেলা ও উপজেলা নেতৃবৃন্দ। এর আগে বিভিন্ন দলের শতাধিক কর্মী এরশাদের হাতে ফুলের তোড়া উপহার দিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেন।
তুলে নেওয়ার পর তিন নেতাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে
সরকারি চাকরিতে বিদ্যমান কোটা সংস্কার আন্দোলনের তিন নেতাকে তুলে নেওয়ার পর তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন জানান, আজ সোমবার বেলা পৌনে ২টার দিকে তাদের তুলে নেওয়ার পর বেলা ৩টার দিকে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে তারা বিকেল ৪টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানাবেন। আগে দুপুরে মামুন অভিযোগ করে বলেছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সংবাদ সম্মেলন শেষ করে চানখাঁরপুলের দিকে যাওয়ার সময় কোটা সংস্কার আন্দোলনের তিন নেতাকে সাদাপোশাকধারীরা মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে গেছে। কোটা সংস্কার আন্দোলনের ওই তিন নেতা হলেন- ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুর, যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক আহমদ ও যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান। তিনি বলেন, আমরা সবাই ব্রিফ শেষে একসঙ্গেই চলে আসছিলাম। আমরা আগেই খেয়াল করছিলাম, সাদা পোশাকের লোকজন আমাদের ফলো করছে। আমি ওদের বলছিলাম, যাতে ওরা একা কোথাও না যায়। প্রসঙ্গত, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী অজ্ঞাতনামা শিক্ষার্থীদের নামে শাহবাগ থানায় দায়ের করা মামলা দুই দিনের মধ্যে তুলে না নিলে আবারো আন্দোলনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। ঢাকা ববিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে সোমবার আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন থেকে বলা হয়, যদি আগামী দুই দিনের মধ্যে সেই মামলাগুলো প্রত্যাহার করা না হয়, তাহলে প্রয়োজনে আমরা আবার আন্দোলনে যাব।
বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার দেশের ক্ষমতায় :রিজভী
সবচেয়ে বড় অশুভ শক্তি এখন দেশের ক্ষমতা দখল করে বসে আছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেছেন, বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার দেশের ক্ষমতায়। তারা এটাই বোঝে না, বন্দুকের জোরে ক্ষমতায় টিকে থাকা শুভ শক্তির পরিচায়ক নয়। পহেলা বৈশাখের এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, অশুভ শক্তি যেন আর ক্ষমতায় না আসতে পারে। এ বক্তব্যের সমালোচনা করে রোববার (১৫ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, জনগণ মনে করে, দেশের সবচেয়ে বড় অশুভ শক্তি বর্তমান মহাজোট সরকার। ভোটারবিহীন অগণতান্ত্রিক শক্তি হচ্ছে সবচেয়ে নিকৃষ্ট অশুভ শক্তি। মানুষ দিন গুনছে এই অশুভ শক্তির পতনের। রিজভী সরকারের কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন, আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত স্বৈরাচারীরা কি শুভ শক্তি? জনগণের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়ে, জনগণের সব মৌলিক ও মানবাধিকার কেড়ে নিয়ে, নির্যাতন-নিপীড়ন চালিয়ে সম্পূর্ণ বন্দুকের জোরে ক্ষমতায় টিকে আছে বর্তমান সরকার। এটা কি শুভ শক্তির পরিচয় বহন করে? বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা বলেন, তাদের অবৈধ ক্ষমতা ধরে রাখতে খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠিয়েছে এই অশুভ সরকার। এখন কারাগারে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে তিলে তিলে নিঃশেষ করা হচ্ছে। তিনি অভিযোগ করেন, খালেদা জিয়া কারাগারে গুরুতর অসুস্থ হলেও এখন পর্যন্ত তাকে কোনো চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না। সরকারি মেডিকেল বোর্ড মামুলি প্রহসনের এক্স-রে ও রক্ত পরীক্ষা করে ফিজিওথেরাপির সুপারিশ করেছে। দীর্ঘদিন ধরে হাঁটু ও চোখের সমস্যার পাশাপাশি তাকে কারাগারে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে রাখায় আরো বেশ কিছু শারীরিক সমস্য দেখা দিয়েছে। রিজভী অভিযোগ করে বলেন, কারাগারে খালেদা জিয়ার ঘনিষ্ঠ আত্মীয়স্বজনকে দেখা করতেও বাধা দেয়া হচ্ছে। বিএনপি নেতা বলেন, এমনকি সরকারি মেডিকেলের চিকিৎসক বোর্ড বলেছে, তার এক্স-রে রিপোর্টগুলোতে দেখা যাচ্ছে, ঘাড়ে ও কোমরের হাড়ে সমস্যা আছে। এমতাবস্থায় আধুনিক চিকিৎসার যুগে এমআরআইসহ উন্নত পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া শুধু এক্স-রে ও রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে সুনির্দিষ্ট ও সঠিক রোগ নির্ণয় সম্ভব নয়। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারিতে খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন বিশেষ আদালত। এরপর থেকে পুরনো ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের নির্জন কারাগারে একমাত্র বন্দি হিসেবে তাকে রাখা হয়েছে। সেখানে বেগম জিয়া অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়ে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়।
আমরা কারো সঙ্গে নেই, একাই আছি :এরশাদ
জনগণের আস্থা হারিয়ে সরকার এখন দিশেহারা বলে মন্তব্য করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ বলেছেন,আমরা কারো সঙ্গে নেই, একাই আছি। আগামী সংসদ নির্বাচনে এককভাবে নির্বাচন করবো। সংসদীয় তিনশ আসনেই একক প্রার্থী দেবো। তিনি আরও বলেন,সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন ইস্যুতে আওয়ামী লীগ সরকারের সুনাম ক্ষুন্ন হয়েছে। বর্তমানের তাদের অবস্থা নাজুক। রোববার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে রংপুর পাবলিক লাইব্রেরি মাঠে জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন জাপা চেয়ারম্যান। বিএনপির অবস্থা ছিন্নভিন্ন উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, তাদের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দুর্নীতির মামলায় সাজা মাথায় নিয়ে কারাভোগ করছেন। বিএনপি এখন নেতাশূন্য দল। আগামী নির্বাচনে তারা অংশ নিতে পারবে কিনা তা নিয়ে আমার সন্দেহ আছে। আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে জনবিছিন্ন উল্লেখ্য করে জাপা চেয়ারম্যান বলেন,জাতীয় পার্টি এখন জনগণের একমাত্র আস্থার দল; এই মুহূর্তে নির্বাচন করার মতো জনপ্রিয় দল। নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হলে জনগণ ভোট দিয়ে জাতীয় পার্টিকেই দেশ পরিচালনার দায়িত্বভার অর্পণ করবে বলে আমার বিশ্বাস। সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য যে কোটা দেয়া হয়েছে তা সম্পূর্ণ যৌক্তিক। তিনি বলেন, কোটা ব্যবস্থা নিয়ে ছাত্রদের মনে দীর্ঘদিনের ক্ষোভ ছিল, তাদের মনে কষ্ট, দুঃখ ছিল। আন্দোলনের মধ্য দিয়ে তার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। তবে একেবারেই মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করা ঠিক হবে না। জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপির সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য দেন, কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি, মেজর (অব) খালেদ আখতার, শওকত চৌধুরী এমপি, সালাউদ্দিন মুক্তি এমপি, সাহানারা বেগম এমপি, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ফখর উজ জামান জাহাঙ্গীর, রংপুর প্রাইম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান ডা. আক্কাস আলী সরকার, রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সেক্রেটারি এসএম ইয়াসির, পীরগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সেক্রেটারি নুরে আলম যাদু, কাউনিয়া উপজেলা সেক্রেটারি মোশাররফ হোসেন, পীরগাছা উপজেলা সভাপতি আবু নাসের মাহবুবার রহমান, গংগচড়া উপজেলা সভাপতি সামসুল আলম, বদরগঞ্জ উপজেলা সভাপতি অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান সাবলু চৌধুরী, রংপুর সদর উপজেলা সেক্রেটারি মাসুদার রহমান মিলন প্রমুখ। পরে মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপিকে সভাপতি ও ফখর উজ জামান জাহাঙ্গীরকে সাধারণ সম্পাদক করে রংপুর জেলা জাতীয় পার্টি নব গঠিত কমিটি ঘোষণা দেয়া হয়।
গণতন্ত্রের কমতি হয়না মৌলবাদীদের ক্ষমতার বাইরে রাখলে বললেন তথ্যমন্ত্রী
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন,মৌলবাদী, জঙ্গি-সন্ত্রাসীদের ক্ষমতার বাইরে রাখলে গণতন্ত্রের কমতি হয়না বরং প্রাপ্তি ঘটে। রোববার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বিশ্বের ১০টি দেশ থেকে বাংলাদেশ সফররত ২৭ জন সাংবাদিকের সাথে মত বিনিময়কালে তিনি একথা বলেন। তিনি বলেন,চমৎকার উন্নয়নের মধ্যেও সাম্প্রদায়িক-সন্ত্রাসীদের দমনকে যারা গণতন্ত্রের কমতি বলে মনে করে তারা বিভ্রান্তিতে রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মোড় বদলকারী অর্থনৈতিক নীতি অনুসরণ ও সংবিধানের চার নীতির ওপর শক্ত অবস্থানই বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত করছে উল্লেখ করে হাসানুল হক ইনু বলেন,বিস্ময়কর উন্নয়নের এ পথে সবচেয়ে বড় বাধা ছিল সাম্প্রদায়িক অপশক্তি, খালেদা জিয়া ও বিএনপি চক্র। জঙ্গিবাদের বিরূদ্ধে সরকারের দৃঢ় অবস্থান সেই বাধা অতিক্রম করতে সাহায্য করেছে। একথা সত্য যে, অনভিপ্রেত এসব বাধা-বিপত্তি না থাকলে দেশের আরো দ্রুত উন্নয়ন সম্ভব। মুক্তিযোদ্ধা ইনু এসময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জন, পঁচাত্তর সালে বিপথগামী সামরিক চক্রের হাতে বঙ্গবন্ধুর নিহত হওয়া এবং পরবর্তী সামরিক-স্বৈরশাসনকালে অপরাধীদের বিচার থেকে অব্যাহতি দেবার কুপ্রথা থেকে বেরিয়ে এসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের বিচারের সংস্কৃতি ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংক্ষিপ্ত বিবরণ সফররত সাংবাদিকদের কাছে তুলে ধরেন। সেইসাথে টেকসই উন্নয়ন, নারীর ক্ষমতায়ন, অর্থনীতিতে সামাজিক নিরাপত্তা জাল প্রবর্তনসহ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির সফল প্রয়োগের মাধ্যমে দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তরের যাত্রারও বর্ণনা দেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভিজিট বাংলাদেশ কর্মসূচির আওতায় ১৪ থেকে ১৯ এপ্রিল বাংলাদেশ সফররত সাংবাদিকদের মধ্যে রয়েছে কানাডার কলিন রবার্টসন, কোরিয়ার মিনহিউং লি এবং সেহওয়ান পার্ক, জার্মানির কেভিন পিটার হোফম্যান, বার্ন্ট হেলজি বার্গার এবং ক্লডিয়া অ্যাসট্রিড সোলকেন, ফ্রান্সের লিদিয়ঁ বে ইসম, ইথিওপিয়ার ব্রু ইহুনবিলে মেনজিসটু, আবেত গ্রুম, আটো ক্রিসটিয়ান এবং মুলুকেন ইয়েওন্ডোসেন কিফলে, ব্রাজিলের মার্সিয়া হেলেনা গনকালভেস রোলেমবার্গ, ফাবিয়ানা কুইরোজ মেনডেস সেবান এবং জুলিয়ানো দ্যা সিলভা কর্টিনবাস। এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারতের দিবাদীপ পুরোহিত, দেবদূত ঘোষঠাকুর, অমল সরকার, প্রিয়াংকা দাসগুপ্ত, ভিনীতা পান্ডে, গৌতম লাহিড়ী, ফিলিপাইনের বাডি ও কুনানান, তুরস্কের সেইমা নাজলি গুর্বুজ, ইউসুফ সেমান ইনাঙ্ক, ড. নাজমি আগিল, ফারুক টোকাট ও আহমেদ কসকুনেইডিন ও থাইল্যান্ডের এরিক পারপার্ট। তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সুলতান মাহমুদ, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বহিঃপ্রচার অনুবিভাগের মহাপরিচালক এম দেলোয়ার হোসেন এবং তথ্য ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ সভায় যোগ দেন।
বাতাসের মতো উড়ে গেছে,বিএনপির অপরাজনীতির স্বপ্ন বললেন ওবায়দুল কাদের
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে বিএনপির অপরাজনীতির স্বপ্ন বাতাসের মতো উড়ে গেছে। রবিবার ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে তিনি এ কথা করেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা ছিল একটি সাহসী পদক্ষেপ। কোটা আন্দোলনে নোংরা রাজনীতি করতে না পেরে বিএনপি হতাশায় ডুবে গেছে। আন্দোলন করার মতো কোনো ইস্যু নেই বলেই দেশের স্থিতিশীল অবস্থাকে মেনে নিতে পারছে না বিএনপি। এসময় কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা ছাড়াই এবার দেশব্যাপী শান্তিপূর্ণভাবে পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান পালিত হয়েছে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।