২০০৬ সালের পর ব্রিটিশ রাজদম্পতি পাকিস্তানে
১৬অক্টোবর,বুধবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ব্রিটিশ রাজ পরিবারের ভবিষ্যৎ উত্তরাধিকার প্রিন্স উইলিয়াম ও তার স্ত্রী কেট মিডলটন পাঁচদিনের সফরে পাকিস্তান আছেন। সোমবার সন্ধ্যায় তিনি পাকিস্তান পৌঁছান। পাঁচদিনের সফরের আজ মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেন প্রিন্স উইলিয়াম ও তার স্ত্রী কেট মিডলটন। ২০০৬ সালে প্রিন্স চার্লস ও তার স্ত্রী ক্যামেলিয়ার সফরের পর এই প্রথম কোনো ব্রিটিশ রাজদম্পতি আনুষ্ঠানিকভাবে পাকিস্তানে গেলেন। তাদের সম্মানে পাক প্রধানমন্ত্রী বিশেষ ভোজের আয়োজন করেন। প্রিন্স উইলিয়ামের প্রয়াত মা প্রিন্সেস ডায়ানা ইমরান খানের বান্ধবী ছিলেন। তিনি ১৯৯৬ ও ১৯৯৭ সালে শওকত খান মেমোরিয়াল ক্যান্সার হাসপাতালের সহায়তা তহবিল সংগ্রহে সেসময় পাকিস্তান সফর করেন। নীল কুর্তা পরে আসা মিডলটন পরবর্তীতে অভ্যর্থনার জন্য সবুজ ও সাদা ম্যাচ করা পোশাক পরেন। রাজদম্পতির সঙ্গে এসময় পাকিস্তানে ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত থমাস ড্রিউ ছিলেন। এর আগে সোমবার সফরের প্রথমদিন পাকিস্তানের স্কুলের ছোট ছোট বাচ্চাদের সঙ্গে দেখা করেন ডিউক এবং ডাচেস অব ক্যামব্রিজ। তারা সরকারি স্কুলের প্রাক-প্রাথমিকের ছেলে-মেয়েদের সঙ্গে কথা বলেন।
মেক্সিকোয় মাফিয়াদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ১৪ পুলিশ নিহত
১৫অক্টোবর,মঙ্গলবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মেক্সিকোর পশ্চিমাঞ্চলে মাফিয়াদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ১৪ জন পুলিশ নিহত এবং আরও তিনজন আহত হয়েছে। আদালতের নির্দেশ মেনে মাইকোয়াকান রাজ্যে এল আগুয়াহে শহরে পুলিশ অভিযান চালানোর সময় এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। ধারণা করা হচ্ছে, ওই হামলা পেছনে শক্তিশালী অপরাধী গ্রুপ জাসিলকো নুয়েভা জেনেরাসিওন কার্টেলের (সিজেএনজি) হাত রয়েছে। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, হামলাকারীদের খুঁজে বের করা হবে। মেক্সিকোর এই অঞ্চল বেশ সহিংস, বিশেষ করে ড্রাগ ব্যবসায়ীদের মধ্যে এখানে প্রায় গোলাগুলির ঘটনা ঘটে থাকে। খবরে বলা হয়েছে, এল আগুয়াহে শহর দিয়ে পুলিশের ভ্যান যাওয়ার সময় তাদের ওপর হামলা চালানো হয়। জানা গেছে, ভারী অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে একদল লোক কয়েকটি পিক-আপ ট্রাক দিয়ে পুলিশের গাড়িটি ঘিরে ফেলে। পরে তারা পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে এবং সেটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। পুলিশের গাড়ির ওপর ওই হামলার পর সিজেএনজি গ্রুপ এক বার্তায় জানায়, তাদের গ্রুপের বন্দুকধারীরা ওই হামলা চালিয়েছে। এক সপ্তাহ আগে সিজেএনজি গ্রুপের নেতা মাইকোয়াকান রাজ্য পুলিশের হাতে নিহত হয়েছিল। ওই শহরে লড়াইরত দুটি কার্টেল গ্রুপ জাসিলকো নুয়েভা জেনেরাসিওন কার্টেল (সিজেএনজি) ও নাইটস টেম্পলারের একটি স্প্লিন্টার গ্রুপ লস ভিয়াগ্রাসের কাছে এল আগুয়াহে শহরটি কৌশলগতভাবে বেশ গুরুত্বপূর্ণ। উল্লেখ্য, গত বছরের ডিসেম্বরে ক্ষমতায় আসার পর থেকে মাদক সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছেন মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস মানুয়েল লোপেজ ওবরাদোর।
৫ টাকার বিনিময়ে ভরপেট খাবার
১৪অক্টোবর,সোমবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্লাস্টিক এখন এই পৃথিবীর বড় হুমকি। পরিবেশ ধ্বংসকারী এই প্লাস্টিক নিয়ে চিন্তিত পরিবেশপ্রেমী থেকে প্রশাসন। শিলিগুড়িতেও ক্ষতিকারক এই প্লাস্টিকে ছেয়ে গেছে। প্লাস্টিক বন্ধে নানাভাবে শিলিগুড়িতে অভিযান চলছে। সরকারি কিংবা বেসরকারি উদ্যোগও থেমে নেই। প্রতিদিনই প্লাস্টিক বন্ধে নানা কর্মসূচি নেওয়া হয়। কোথাও সচেতনতার বার্তা দেওয়া হচ্ছে। কোথাও আবার প্রশাসন পথে নেমে কড়াও হচ্ছে। মাঝে মধ্যে চলে সাফাই অভিযান। কিন্তু তাতেও শহর থেকে প্লাস্টিক নির্মূল হয়নি।এখনও দেখা যাচ্ছে প্লাস্টিকের কারণে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে নিকাশি নালা। ক্ষতি হচ্ছে চাষাবাদের। শহরের সর্বত্রই ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে ক্ষতিকারক সব প্লাস্টিক। তাতে দৃশ্যদূষণ হচ্ছে। আজকাল এবার প্লাস্টিকমুক্ত শহর গড়তে অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে শহরের একটি সংস্থা। তারা শহরের এক জায়গায় এই ফেলে দেওয়া প্লাস্টিক জড়ো করতে এক অভিনব উপায় বের করেছে। শিলিগুড়িতে এর আগে ওই সংস্থা নিষ্কাম খালসা সেবা এবং গোথালস মেমোরিয়াল স্কুল অ্যালুমনি ৫ টাকার বিনিময়ে ভরপেট খাবার দিয়ে এসেছে। প্রতি শনিবার তারা রাস্তার পাশে স্টল খুলে এভাবে খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থা করে। এবার একই খাবার দেওয়া হবে ফেলে দেওয়া প্লাস্টিক কুড়িয়ে এনে জমা দিলে। বিশেষ করে ফুটপাথবাসী, ভবঘুরে, কুড়ানিদের কথা ভেবে এই আয়োজন। কুড়ানিরা রাস্তার পাশের প্লাস্টিক এনে জমা দিলেই বিনিময়ে ভরপেট খাওয়ানো হচ্ছে। মেনুতে থাকছে ভাত, ডাল, সবজি, চাটনি, আচার, পাঁপড়। কুড়ানিরা সারাদিন কার্যত না খেয়েই কাটায়। এবার এই কর্মসূচিতে মাত্র ৫০০ গ্রাম প্লাস্টিক কুড়িয়ে এনে জমা দিয়েই ভরপেট খাবার খেয়ে যাচ্ছে। প্রতি শনিবার শিলিগুড়ির হিলকার্ট রোডের মেঘদূত সিনেমা হলের উল্টো দিকে এই স্টল বসবে। শনিবার এই অভিনব উদ্যোগের সূচনা হওয়ায় শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে কুড়ানিরা প্লাস্টিক জমা দিয়ে খাবার খেয়ে যায়। এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন শহরবাসী। আয়োজক সংস্থার পক্ষে জিএস হোরা বলেন,যে কেউ প্লাস্টিক জমা দিতে পারবেন। সংগৃহীত প্লাস্টিক নষ্ট করা হবে। এভাবে প্লাস্টিক জমা দিলে পেটভরে খাবার মিলবে। ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা প্লাস্টিক কুড়িয়ে আনায় পক্ষান্তরে প্লাস্টিকমুক্ত শহর গড়ে উঠবে।
অর্থাভাবে জাতিসংঘের এসি, এসক্যালেটর বন্ধ
১৪অক্টোবর,সোমবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: অর্থ সংকটের কারণে এবার বিদ্যুৎ খরচ কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতিসংঘ। এরই অংশ হিসেবে এসক্যালেটর, এয়ারকুলার ও ওয়াটার কুলার বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থাটি। জাতিসংঘের ব্যবস্থাপনা বিভাগের মুখপাত্র ক্যাথরিন পোলার্ড এ তথ্য জানিয়েছে। তিনি বলেন, বিভিন্ন খাতে খরচ কমিয়ে সংস্থাটির ৩৭ হাজার কর্মীর নিয়মিত বেতন পরিশোধের জন্যই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এর আগে জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস সতর্ক করে দিয়ে বলেছিলেন, সদস্য রাষ্ট্রগুলো ঠিকমত দেনা পরিশোধ না করলে নভেম্বর মাস থেকে জাতিসংঘের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন দেয়া সম্ভব হবে না। গুতেরেস বলেন, চলতি মাসে (অক্টোবর) আমরা চরম অর্থ সংকটে পড়বো। তহবিলে যে পরিমাণ অর্থ রয়েছে তা দিয়ে নভেম্বরে বেতন দেয়া যাবে না। তিনি আরও বলেন, বিগত এক দশকেও জাতিসংঘকে এমন অর্থনৈতিক সংকটের মুখে পড়তে হয়নি। ৬০টি দেশের থেকে সংস্থাটির প্রাপ্য অর্থ মেলেনি। তাই চলতি অর্থ বছরে ১৪০ কোটি ডলারের ঘাটতির মুখে পড়তে হয়েছে। এদিকে বিদ্যুৎ খরচ কমানোর পাশাপাশি কূটনীতিকদের জন্য নির্ধারিত পানশালাটিও বিকেল ৫টার মধ্যে বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া জাতিসংঘের কর্মকর্তাদের বিমান ভ্রমণেও কড়াকড়ি আরোপ করা হচ্ছে।
মমতার পদত্যাগ চাইছে পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি
১২অক্টোবর,শনিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির পদত্যাগ দাবি করেছে বিজেপি। রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির অভিযোগে ওই দাবি জানানো হয়েছে। দলটির পক্ষ থেকে আগামী ১৫ অক্টোবর প্রেসিডেন্টের কাছে সাক্ষাতের সময় চাওয়া হয়েছে। গতকাল শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীয় বলেন, গত চারদিনে আটজন নিহত হয়েছে। এরা সবাই বিজেপি কর্মী। তৃণমূল আশ্রিত দুর্বৃত্তরা টার্গেট করে ওই ঘটনা ঘটাচ্ছে। আমরা সাহসের সঙ্গে এর মোকাবিলা করবো। তিনি বলেন, আমাদের নেতা-কর্মীরা শনিবার কলকাতায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করবে। এসব বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে সময় চাওয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপতির কাছেও সময় চাওয়া হয়েছে। বাংলার পরিস্থিতি তাদেরকে অবগত করানো হবে। আমরা দাবি করছি মমতাজীকে ইস্তফা দেয়া উচিত। এমন সরকারের ক্ষমতায় থাকার কোনও অধিকার নেই। বিশ্ব হিন্দু পরিষদের কার্যকরি সভাপতি আলোক কুমার বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিবেচনা করেই কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত রাষ্ট্রপতি শাসন জারির কথা ভাবা। গত মঙ্গলবার মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জে নিহত হন- বন্ধুগোপাল পাল (৪০) নামে এক শিক্ষক, তার গর্ভবতী স্ত্রী বিউটি পাল (৩০) ও অঙ্গন পাল (৫) নামে তাদের শিশু সন্তান। বাড়ি থেকে তিনজনের দেহ উদ্ধার হলে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। আরএসএসের দাবি, নিহত শিক্ষক তাদের কর্মী ছিলেন। তার জেরেই তাকে সপরিবারে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ সুপার মুকেশ অবশ্য বলেন, এটি একটি পারিবারিক ঘটনা, এরসঙ্গে রাজনীতির কোনও সম্পর্ক নেই। ইতোমধ্যেই তদন্তকারীদের বিশেষ দল ওই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। পরিবারের সদস্যসহ স্থানীয়দেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এদিকে চাঞ্চল্যকর ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজভবন থেকে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, রাজ্যপালের মতে, এই ঘটনার তীব্রতা এমনই যে, তাতে বিবেক কেঁপে উঠেছে! এই ঘটনা অসহিষ্ণুতা এবং ভয়ঙ্কর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির প্রতিফলন। রাজ্যপালের বিবৃতির পাল্টা জবাবে রাজ্যের মন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, সাংবিধানিক পদে থেকে রাজনৈতিক মন্তব্য করে রাজ্যপাল নিজের এখতিয়ার লঙ্ঘন করেছেন।
সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে পারবেন সৌদি নারীরা
১০অক্টোবর,বৃহস্পতিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সৌদি আরবের নারীরা দেশটির সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে পারবেন। গতকাল বুধবার নারীদের সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়ার অনুমতি দেয়া প্রসঙ্গে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক টুইট বার্তায় লিখেছে- ক্ষমতায়নের আরও এক ধাপ। সৌদি আরবের নারীরা প্রথম শ্রেণি, কর্পোরাল বা সার্জেন্টের মতো পদগুলোতে যোগ দিতে পারবেন বলে ওই টুইটে উল্লেখ করা হয়। গত বছর নারীদের দেশের নিরাপত্তা বাহিনীগুলোতে যোগ দেয়ার অনুমতি দেয় সৌদি আরব। দেশটির যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমান নারীর ক্ষমতায়নে যেসব পদক্ষেপ নিয়েছেন, এর মধ্যে রয়েছে নারীদের ড্রাইভিং লাইসেন্স দেয়া, পুরুষ অভিভাবক ছাড়াই তাদের বিদেশে ভ্রমণের অনুমতি, আবাসিক হোটেলে রুম ভাড়া নিতে পারার অনুমতি। নারীর ক্ষমতায়নে এসব সিদ্ধান্ত নেয়ার মধ্যে লজেন আল-হাতলোলসহ বেশ কয়েকজন নারী অধিকারকর্মীকে গ্রেফতার করতেও দেখা গেছে সৌদি কর্তৃপক্ষকে। বিশ্বের অন্যতম তেলসমৃদ্ধ দেশ সৌদি আরব বেশ কয়েক বছর ধরে তাদের ভাবমূর্তি বিশ্ব দরবারে উজ্জ্বলের নানা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই সঙ্গে অর্থনীতিতে তেল নির্ভরতা কমাতে পর্যটনশিল্প উন্নয়নেও অনেক পদক্ষেপ নিচ্ছে তারা।
কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানের পাশে থাকবে চীন
১০অক্টোবর,বৃহস্পতিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে সব ধরনের সহযোগিতা দেয়ার অঙ্গীকার করেছেন চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। দু দিনের চীন সফরে বুধবার শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানের পাশে থাকার ঘোষণা দেন চীনা প্রেসিডেন্ট। ভারত-পাকিস্তান আলোচনার তাগিদ দেন তিনি। তার মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছে ভারত। কাশ্মীরকে অভ্যন্তরীণ ইস্যু উল্লেখ করে তৃতীয় পক্ষের নাক গলানোর অধিকার নেই বলে জানায় নয়াদিল্লি। এদিকে ভারতে শুক্র ও শনিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক করবেন চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং।
তুর্কী অর্থনীতি ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি দিলেন ট্রাম্প
০৮অক্টোবর,মঙ্গলবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সীমা ছাড়িয়ে গেলে আবারো তুরস্ককে দেখে নেয়া হবে, টুইটারে এই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। উত্তর-পশ্চিম সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের অবাক করা ঘোষণা দেয়ার পর একের পর এক টুইট বা্র্তায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।যদিও সেনা প্রত্যাহারের এই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ট্রাম্পের রিপাবলিকান সহযোগীরা।বিবিসি সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটকে ঠেকাতে কুর্দি বাহিনী যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান সহযোগী।দেশটি এক হাজারের মতো মার্কিন সেনা মোতায়েন রয়েছে। স্টেট ডিপার্টমেন্টের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সীমান্ত এলাকা থেকে এরই মধ্যে ডজন দুয়েক সৈন্য প্রত্যাহার করা হয়েছে। ধারাবাহিক টুইটে ট্রাম্প বলেন, মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সুযোগে তুরস্ক যদি সীমান্ত পার হয়ে কুর্দি যোদ্ধাদের ওপর হামলার চিন্তা করে, তাহলে ভুল করবে। এদিকে, কুর্দিনিয়ন্ত্রিত যোদ্ধাদের প্রধান গ্রুপটি মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তকে ভালোভাবে নিতে পারেনি। তারা একে পিঠে ছুরি মারার সঙ্গে তুলনা করেছে। সেনা প্রত্যাহারের ফলে সিরিয়ায় আইএস-এর উৎপাত বাড়বে বলেই সমালোচকরা মনে করছেন। তবে ট্রাম্প বলেছেন, এমন কিছু করলে তুরস্ক ভুল করবে। আগেও তুরস্কের অর্থনীতিতে বেশ বড়ো রকম ধাক্কা দিয়েছে ট্রাম্প।তার আগে বেশ কিছু ইস্যুতে দুই দেশের সম্পর্কে অবনতি ঘটতে থাকে।তারই ধারাবাহিকতায় গত বছর তুরস্কের বেশ কিছু পণ্যের ওপর শুল্কবৃদ্ধি করে যুক্তরাষ্ট্র। পাশাপাশি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে তুরস্কের শীর্ষ কর্মকর্তাদের ওপর।