চীন-রাশিয়ার বাণিজ্য বেড়েছে গেলো বছরে ২০ শতাংশ
গেলো বছর চীন আর রাশিয়ার অভ্যন্তরীণ বাণিজ্য ২০ শতাংশ বেড়েছে। এমনটাই জানিয়েছেন চীনা প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং। বেইজিংয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, চীন ও রাশিয়ার ব্যবসায়িত সম্পর্ক দিনদিনই জোরদার হচ্ছে। বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ দুই অর্থনীতির দেশের বাণিজ্য বর্তমানে ৮ হাজার কোটি ডলার। যা শিগগিরিই ১০ হাজার কোটি ডলারে পৌঁছাবে বলেও জানান তিনি। তবে বিশ্বের কাঁচামাল আমদানির বাজার অস্থিতিশীল হওয়ায় তা দুই দেশের জন্য হুমকি বলেও জানান তিনি। রাশিয়ায় চীনের রফতানি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ২শ' কোটি ডলার। রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভ মনে করেন, বর্তমান অবস্থা অব্যাহত থাকলে আগামী কয়েক বছরে এ বাণিজ্য ২০ হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়ে যাবে।
পার্লামেন্ট ভবনে টিয়ার গ্যাস ছুড়লেন বিরোধী সাংসদরা
মন্টিনিগ্রোর সঙ্গে সীমান্ত নিয়ে ভোটাভুটি বন্ধ করতে কসাভোর পার্লামেন্ট ভবনে টিয়ার গ্যাস ছুড়েছেন বিরোধী দলীয় সাংসদরা। বুধবার দেশটির সংসদে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট। সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, রাজনৈতিক দলের নেতারা যাতে পার্লামেন্ট কক্ষ ত্যাগ করেন সেজন্য তিন ক্যানিস্টার টিয়ার গ্যাস ছোড়েন সেল্ফ ডিটারমিনেশন মুভমেন্ট পার্টির এমপিরা। ২০১৫ সালের ওই চুক্তি বাস্তবায়নে সংসদে বিল পাস করতে ওই ভোট অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছিল। বিলটি পাস হতে ১২০টি সিটের এক তৃতীয়াংশ ভোটের দরকার ছিল। মুভমেন্ট পার্টির দাবি, এই বিল পাস হলে কসাভো ২০ হাজার একর জায়গা হারাবে। তবে তাদের এ দাবির সঙ্গে বিরোধী মত প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। কসাভোতে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত গ্রেগ দেলউই এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন। এক টুইটে তিনি লেখেন, সাংসদদের একত্রিত হয়ে আজকের মধ্যেই এ ভোট শেষ করার আহ্বান জানাচ্ছি আমি। ইউরোপীয় ইউনিয়নের পক্ষ থেকেও এ ঘটনার নিন্দা জানানো হয়েছে।
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর হঠাৎ যুক্তরাষ্ট্র সফর
উত্তেজনার মধ্যেই হঠাৎ ছয় দিনের ব্যক্তিগত সফরে যুক্তরাষ্ট্র সফরে গেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহিদ খাকান আব্বাসি। তার এ সফরের উদ্দেশ্য নিয়ে পাকিস্তানে নানা জল্পনার সৃষ্টি হয়েছে। সফর উদ্দেশ্যে মঙ্গলবার পাকিস্তান ত্যাগ করেন আব্বাসি। পাকিস্তানের ক্ষমতাসীন দল মুসলিম লিগ বিশেষ করে শরিফ পরিবার বর্তমানে নানামুখী রাজনৈতিক সংকট মোকাবেলা করছে। এজন্য এ সফরে ট্রাম্প প্রশাসনের শক্তিশালী ব্যক্তিদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা হতে পারে। খবর রেডিও তেহরানের। তবে পাক প্রধানমন্ত্রীর এ সফর নিয়ে তার দফতর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো তথ্য জানানো হয়নি। আব্বাসির ঘনিষ্ঠ সূত্র থেকে অনানুষ্ঠানিক জানানো হয় যে, ফিলাডেলফিয়ায় পাক প্রধানমন্ত্রীর এক বোনের অপারেশন হওয়ার কথা রয়েছে। বৃহস্পতিবার এ অপারেশন হবে এবং তাকে দেখতে এ সফরে গেছেন তিনি। এদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আগে কূটনৈতিক দায়িত্বপালন করেছেন এমন এক পাক কর্মকর্তা ভিন্ন মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, কূটনৈতিক লক্ষ্য অর্জনকে সামনে রেখে অনেক সময়ই রাষ্ট্র বা সরকারপ্রধানরা খানিকটা চুপিসারে সফর করেন।
শুধু মৃত্যুই পারবে আমাকে রাজ্য শাসন থেকে সরাতে
আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এখন বেশ পরিচিত মুখ সউদী আরবের যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন-সালমান। ধর্মীয় রীতি-নীতির দিক থেকে কঠোর এ দেশটিতে সংস্কারের ছোঁয়া এনেছেন তিনিই। এতে অনেকেরই প্রশাংসা কুড়িয়েছেন সালমান। আবার অনেকেই করেছে সমালোচনা। তবে সমালোচকদের জবাবে সউদী যুবরাজ বলেছেন, শুধু মৃত্যুই পারবে তাকে রাজ্য শাসন থেকে সরাতে। গত রোববার যুক্তরাষ্ট্রে রাষ্ট্রীয় ভ্রমণকালে এক ঘণ্টার প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলেন মোহাম্মাদ বিন-সালমান। সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার খবরে যুবরাজের বক্তব্যগুলো তুলে ধরা হয়। মোহাম্মদ বিন সালমান বলেন, একমাত্র মৃত্যুই পারবে আমাকে রাজ্য শাসন থেকে সরাতে। একমাত্র আল্লাহ বলতে পারেন মানুষ কতদিন জীবিত থাকবেন। সবকিছু যদি স্বাভাবিক থাকে তবে ক্ষমতা থেকে আমাকে কেউ সরাতে পারবেন না আশা করি। সালমান আরও বলেন,গত বছরে শুরু হওয়া দুর্নীতি দমন অভিযানে এখন পর্যন্ত ১০০ বিলিয়ন ডলার পুনরুদ্ধার হয়েছে। এখন পর্যন্ত যা করেছি তা সবই প্রয়োজন ছিলো। আইন অনুযায়ী প্রতিটি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানান মোহাম্মাদ। সূত্র : ওয়েবসাইট।
আবারও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত পুতিন
আবারও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন ভ্লাদিমির পুতিন। ভোট গণনা শেষে রাশিয়ার কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, পুতিন ৭৬ শতাংশেরও বেশি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। এ জয়ের ফলে আরো ছয় বছর রাশিয়াকে নেতৃত্ব দেওয়ার সুযোগ পেলেন পুতিন। প্রেসিডেন্ট কিংবা প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে ২০০০ সাল থেকে রাষ্ট্র পরিচালনা করে আসছেন তিনি। আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক ফলাফলে দেখা যায়, পুতিন ৭৬ শতাংশেরও বেশি ভোট পেয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বামপন্থী দলের নেতা পাভেল গ্রুদিনিন পেয়েছেন ১২ শতাংশ ভোট। কিন্তু রোববার অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেননি পুতিনের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী রাশিয়ার প্রধান বিরোধীদলীয় নেতা অ্যালেক্সি নাভালনি। জালিয়াতির মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় নির্বাচনে অংশ নিতে পারেননি তিনি। ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন করে রাশিয়ার অংশ হওয়ার পর প্রথমবারের মতো রাশিয়ার এই নির্বাচনে অংশ নিয়েছে ক্রিমিয়াবাসী। নির্বাচনের ফলাফলে দেখা যায়, পুতিনের জনপ্রিয়তা আরো বেড়ে গেছে। এর আগে ২০১২ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি ৬৪ শতাংশ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছিলেন। এবার তার থেকে ১২ শতাংশ বেশি ভোট পেয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, ২০০০ সালে প্রথম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে পুতিন টানা দুই মেয়াদে প্রেসিডেন্ট, এরপর এক মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী থাকার পর ফের টানা দুই মেয়াদ প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলেন। নির্বাচনের প্রাথমিক ফল ঘোষিত হওয়ার পর রাজধানী মস্কোয় এক সমাবেশে ভাষণ দিয়েছেন পুতিন। এতে তিনি বলেন, গত কয়েক বছরের অর্জনকে স্বীকৃতি দিয়েছেন ভোটাররা। ভোটের ফল ঘোষনার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় ছয় বছর পর আবারো প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি দাঁড়াবেন কিনা এমন প্রশ্নে তিনি হেসে ফেলেন। তিনি বলেন, আপনারা যা বলছেন তা কিছুটা মজার। আপনার কি মনে করেন ১০০ বছর না হওয়া পর্যন্ত আমি এখানে থাকবো? মোটেই না!
ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে রাশিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে
রাশিয়ায় আজ রোববার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। স্থানীয় সময় সকাল আটটায় সেখানে ভোটগ্রহণ শুরু হয় এবং তা রাত আটটা পর্যন্ত একটানা চলবে। এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আটজন প্রার্থী। তাঁরা হলেন ভ্লাদিমির পুতিন, পাভেল গ্রুদিনিইন, গ্রিগোরি ইয়াভিলিনস্কি, কেসেনিইয়া সাবচাক, বরিস তিতোভ, সেরগেই বাবুরিন, ভ্লাদিমির ঝিরিনোভস্কি ও মাক্সিম সুরাইকিন। নির্বাচনের আগে রাশিয়ান পাবলিক ওপিনিয়ন রিসার্চ সেন্টারের (ভিছেইওএম) প্রকাশিত সর্বশেষ এক জরিপে দেখা যায়, প্রায় ৭০ শতাংশ রুশ ভোটার বর্তমান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে আবার প্রেসিডেন্ট হিসেবে চান। মস্কোতে যখন শনিবার দিবাগত রাত ১১টা, তখন কামচাতকা ও চুকোত অঞ্চলে সকাল আটটা। তাই সেখানেই সবার আগে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। রাশিয়ার কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনের টুইটে বলা হয়, এই অঞ্চলের মোট ভোটারের ৭৭ ভাগই কামচাতকার তিনটি শহরে বাস করেন এবং বাকিরা উপদ্বীপের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে–ছিটিয়ে বাস করেন।
প্রথম নারী পুরোহিত কন্যাদান ছাড়াই বিয়ে পড়ালেন
পিতৃতান্ত্রিক সমাজের চিরায়ত কন্যাদান প্রথা পালন ছাড়াই পশ্চিমবঙ্গের প্রথম হিন্দু নারী পুরোহিত হিসেবে এক তরুণীর বিয়ে পড়িয়ে ব্যাপক আলোচনায় এসে নন্দিনী ভৌমিক নামের এক নারী। নন্দিনীর বিয়ে পড়ানোর এ ঘটনা রীতিমতো পশ্চিমবঙ্গের টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয়েছে। নন্দিনী ভৌমিক বলেন,আমি পিতৃতান্তিক মানসিকতা দূর করতে চাই; যেখানে কন্যাদের প্রতি পিতা-মাতার দায়িত্ব অস্বীকার করে। এই প্রথায় কন্যাকে পণ্যের মতো মনে করা হয়; তাকে দান হিসেবে তুলে দেয়া হয়। দ্য লজিক্যাল ইন্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২৪ ফেব্রুয়ারি কলকাতার অন্বিতা জনার্ধনান ও অর্ক ভট্টাচার্যের বিয়ে পড়ান নন্দিনী ভৌমিক। তার এই কাজ নারীর ক্ষমতায়নের অনন্য উদাহরণ। নন্দিনী ভৌমিকের পেশা জাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সংস্কৃতের শিক্ষক পশ্চিমবঙ্গের প্রথম এই নারী পুরোহিত। গত ৪০ বছরে প্রায় ৪০টি বিয়ে পড়িয়েছেন তিনি; সবগুলোতেই কন্যাদান প্রথাকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়েছেন তিনি। ক্লাসে শিক্ষার্থীদের পাঠদান ছাড়াও ১০ নাট্য গ্রুপের সঙ্গে জড়িত নন্দিনী ভৌমিক। ব্যস্ত জীবনের ফাঁকে বিয়ে পড়ানোর জন্য অধিকাংশ সময়ই ধর্মীয় উৎসবকে বেছে নেন তিনি। কলকাতা ও এর আশপাশে ভিন্ন ভিন্ন ধর্মের, বর্ণের ও জাতিগত গোষ্ঠীর জুটিদের বিয়ে পড়ান তিনি। ভৌমিক এ কাজের উৎসাহ পেয়েছেন তার শিক্ষাগুরু গৌরি ধর্মপালের কাছে। এমনকি বিয়ে পড়িয়ে তিনি যে অর্থ পান; তার অধিকাংশই দান করে দেন উড়িষ্যার পুড়ির কাছের বালিঘাই এতিমখানায়। ২৪ ফেব্রুয়ারি বিয়ে পড়ানোর সময় নন্দিনীর সঙ্গে ছিলেন তার দলের সদস্য, সহকর্মী, বন্ধু ও ধর্মীয় অন্য পুরোহিতরা। বিয়ের অনুষ্ঠানে নন্দিনী যখন সংস্কৃত মন্ত্র পড়েন তখন তা ইংরেজি এবং বাংলায় অনুবাদও করা হয়। ব্যাকগ্রাউন্ড বেজে উঠে রবীন্দ্র সংগীত। অর্ক বলেন,আমি শুনেছি অনেক পুরুষ পুরোহিত ভুল মন্ত্র পাঠ করেন। কিন্তু গত বছর আমার এক বন্ধুর বিয়েতে নন্দিনী ভৌমিককে বিয়ে পড়াতে দেখেছি। তিনি সংস্কৃত মন্ত্র হুবহু বাংলা এবং ইংরেজিতে অনুবাদ করে পাঠ করছিলেন। হিন্দু ধর্মীয় গ্রন্থ বিশেষ করে ঋগবেদে কন্যাদান ছাড়াই নারী পুরোহিতদের বিয়ে পড়ানোর ব্যাপারে উল্লেখ অাছে। নন্দিনী নিজেকে সামাজিক পরিবর্তনের একজন কর্মী মনে করেন; যিনি সমাজে চিন্তার প্রসার ঘটাতে চান। যা বলছেন পণ্ডিতরা সংস্কৃত ভাষার পণ্ডিত ও ভারতীয় তাত্ত্বিক নৃসিংহ প্রসাদ ভাদুরি বলেন,হিন্দু ধর্মে নারীদের পুরোহিত হওয়ার পথে কোনো ধরনের প্রতিবন্ধকতা নেই। এমনকি, বহু নারী পুরোহিতের উদাহরণ আছে; যারা বেদগুলোতে আধ্যাত্মিক ও দার্শনিক বিতর্কে অংশ নিয়েছেন। নারী পুরোহিতের বিয়ে পড়ানো আজকের তরুণদের কাছে ট্রেন্ডে পরিণত হয়েছে। তারা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নন্দিনীর সঙ্গে যোগাযোগ করতে শুরু করেছে। নন্দিনী ভৌমিক এ বিয়ে পড়ানোর আগে নিজের মেয়েরও বিয়ে পড়িয়েছেন কন্যাদান ছাড়াই। তার দলসহ শিগগিরই আরো একটি বিয়ে পড়াবেন তিনি।
কাঠমান্ডুতে বিধ্বস্ত উড়োজাহাজের ব্ল্যাকবক্স নেয়া হচ্ছে কানাডায়
কাঠমান্ডুতে বিধ্বস্ত উড়োজাহাজের ব্ল্যাকবক্স (বিমানে সংরক্ষিত ফ্লাইট ডাটা রেকর্ডার) নেপাল কানাডায় পাঠাবে বলে জানিয়েছেন বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম নাইম হাসান। তিনি জানান, তাদের এটা পরীক্ষা করার সরঞ্জামাদি নেই। ব্ল্যাকবক্সের তদন্তের রিপোর্ট পেতে সময় বেশি লাগতে পারে। বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় বেবিচকের কনফারেন্স রুমে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন তিনি। তদন্ত প্রক্রিয়া দীর্ঘ হওয়ার কারণ হিসেবে এম নাইম হাসান বলেন, ব্ল্যাকবক্স, ককপিটের ভয়েস রেকর্ডার, ইকুইপমেন্ট টেস্টসহ বিভিন্ন জায়গা থেকে বিভিন্ন উপাদান আসতে পারে। সেগুলো একত্রিত করতে দীর্ঘ সময় লাগবে। নেপাল তদন্ত করবে বলে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, আমরা হয়তো তাদের কাজের সহযোগিতা করবো। এখন থেকে নিয়মিত তাদের এভিয়েশন অথরিটির সাথে যাতায়াত থাকবে, কাজ চলবে। এটা চলমান প্রক্রিয়া। তদন্ত কি হবে না হবে এব্যাপারে বলার মতো কিছু নেই এই মুহূর্তে। এম নাইম হাসান বলেন, ময়নাতদন্ত শেষ করার পরে নিহতদের শনাক্তকরণ প্রক্রিয়াটা শুরু হবে। এটা জটিল একটা প্রক্রিয়া। কেননা উড়োজাহাজ বিধ্বস্তের কারণে নিহতদের অধিকাংশকে চেনার উপায় নেই। তাই তাদের আত্মীয়দের কাছ থেকে জিজ্ঞাসা করে জানা হচ্ছে, শরীরের কোথায় কোনো চিহ্ন বা দাগ আছে কি না। এটা জেনে নিহতদের লাশ চিহ্নিত করে হস্তান্তর করবে। তাই তারা তিন-চার দিন সময় নিয়েছেন। তবে আমরা আশা করছি, তার আগেই নিহতদের লাশগুলো ফেরত পাবো। উল্লেখ্য, নামে ব্ল্যাক বক্স হলেও ফ্লাইট রেকর্ডার কিন্তু আসলে কালো কোনো বাক্স নয়। বরং এর রং অনেকটা কমলা ধরণের। এটি অত্যন্ত শক্ত ধাতব পদার্থ দিয়ে তৈরি একটি বাক্স, যা পানি, আগুন, চাপ ও উচ্চ তাপমাত্রাতেও টিকে থাকে। এটি মূলত দুইটি অংশের সমন্বয়ে তৈরি একটি ভয়েস রেকর্ডার। বিমান চলাচলের সময় সব ধরণের তথ্য এটি সংরক্ষণ করে রাখে। এর মধ্যে দুই ধরণের তথ্য সংরক্ষিত থাকে। একটি হলো ফ্লাইট ডাটা রেকর্ডার (এফডিআর) যেটি বিমানের ওড়া, ওঠানামা, বিমানের মধ্যে তাপমাত্রা, পরিবেশ, চাপ বা তাপের পরিবর্তন, সময়, শব্দ ইত্যাদি নানা বিষয় নিজের সিস্টেমের মধ্যে রেকর্ড করে রাখে। ককপিট ভয়েস রেকর্ডার (সিভিআর) নামের আরেকটি অংশে ককপিটের ভিতর পাইলদের নিজেদের মধ্যেকার কথোপকথন, পাইলটদের সঙ্গে বিমানের অন্য ক্রুদের কথাবার্তা, ককপিট এর সঙ্গে এয়ার কন্ট্রোল ট্রাফিক বা বিভিন্ন বিমান বন্দরের সঙ্গে রেডিওতে হওয়ায় কথোপকথন রেকর্ড হতে থাকে। ফলে, কোনো বিমান দুর্ঘটনায় পড়লে এই ব্ল্যাক বক্সটি খুঁজে বের করাই হয়ে পড়ে উদ্ধারকারীদের প্রধান লক্ষ্য। কারণ এটি পাওয়া গেলে সহজেই ওই দুর্ঘটনার কারণ বের করা সম্ভব হয়। বাক্সটির রং উজ্জ্বল কমলা হওয়ায় সেটি খুঁজে পাওয়া সহজ হয়। সমুদ্রের তলদেশেও ৩০ দিন পর্যন্ত ব্ল্যাক বক্স অক্ষত থাকতে পারে।

আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর