উচ্চ প্রযুক্তি লঞ্চ সিস্টেম সহ তৃতীয় এয়ারক্র্যাফ্ট ক্যারিয়ার তৈরি করছে চীন
তৃতীয় এয়ারক্র্যাফ্ট ক্যারিয়ার তৈরি করছে চীন, সতর্ক ভারত আন্তর্জাতিক মহলকে উত্তপ্ত করে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলো তাদের সামরিক শক্তিকে আরও শক্তিশালী করতে ব্যস্ত। আর তারই জের ধরে এবার উচ্চ প্রযুক্তি লঞ্চ সিস্টেম সহ তৃতীয় এয়ারক্র্যাফ্ট ক্যারিয়ার তৈরি করছে চীন। ভারত মহাসাগর ও দক্ষিণ চীন সাগরে স্থিত আধুনিক অস্ত্র ধ্বংস করার জন্য এই সিস্টেম আনছে চীন৷ ২০১১ সালে শেষ হয় চীনের প্রথম এয়ারক্র্যাফ্ট তৈরির কাজ। এর পর সাংহাই শিপইয়ার্ডে প্রায় দু'বছর ধরে চীনের দ্বিতীয় এয়ারক্র্যাফ্ট নির্মিত হয়। এবছর সেটি লঞ্চ করার কথা। কিন্তু তার আগেই তৃতীয় এয়ারক্র্যাফ্টের কথা ঘোষণা করে দিল চীন। সরকারি সূত্রে খবর, নতুন এই এয়ারক্র্যাফ্ট তৈরির কাজ আরও জটিল ও চ্যালেঞ্জিং। বাকি দু'টি এয়ারক্র্যাফ্ট থেকে এটি অনেকটাই আলাদা হবে এটি। এদিকে, এই ধরনের এয়ারক্র্যাফ্ট পরিচালনার জন্য পাইলটদেরও ট্রেনিং দিচ্ছে চীন। জানা গেছে, ২০৩০ সালের মধ্যে ৪টি এয়ারক্র্যাফ্ট বানানোর টার্গেট নেওয়া হয়েছে। তবে তৃতীয় এয়ারক্র্যাফ্ট কবে লঞ্চ করবে, সে বিষয়ে এখনও কিছু বলতে পারছে না তারা। এ ব্যাপারে চীনের একটি সংবাদমাধ্যমে আরও প্রকাশ হয়েছে, অ্যান্টি মিসাইল, অ্যান্টি শিপ, মর্ডার্ন ডিফেন্স ও অ্যান্টি সাবমেরিন অস্ত্র আটকাতে নতুন অস্ত্র আনছে চীন। সংবাদমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, চীনের এই অস্ত্র তাড়াতাড়ি তৈরি হয়ে যাবে। খুব শিগগিরই হয়তো দক্ষিণ চীন ও ভারত মহাসাগরে এর ব্যবহার চোখে পড়বে। এছাড়া চীনের সরকারি সূত্রে জানা গেছে, হেলকপ্টারের পরিকল্পনা আর করতে চাইছে না চীনা সেনারা। এখন তারা আরও উন্নত প্রযুক্তির দিকে নজর দিয়েছে। সেই কারণেই চীনে নতুন প্রযুক্তি আবিষ্কারের কাজ চলছে। জাহাজে সেনা ও কর্মীদের থাকার পরিবেশ যাতে আরও ভালো হয়, সেদিকেও নজর দেওয়া হচ্ছে।
রেকর্ড তুষার ঝড়ে ১৭ জনের মৃত্যু, ক্ষতিগ্রস্ত ৬ কোটি মার্কিনী
১৯২১ সালের পর রেকর্ড তুষার ঝড়ে বিপর্যস্ত গোটা উত্তর আমেরিকা। এতে কমপক্ষে ১৭ মার্কিনী মারা গেছে। বাতিল করা হয়েছে ছয় হাজার ফ্লাইট। যুক্তরাষ্ট্রের উত্তরাঞ্চলের কোথাও কোথাও ২৪ ইঞ্চি পর্যন্ত বরফের স্তর জমেছে। ওই এলাকার ৬ কোটি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। স্থানীয়ভাবে এই তুষার ঝড়কে বোমা সাইক্লোন বলা হচ্ছে। বিরূপ আবহাওয়ায় শুক্রবার সকাল পর্যন্ত নিউইয়র্ক এবং নিউজার্সিসহ বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের চার হাজারের বেশি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। নতুন বছরের প্রথম প্রহরে শুরু হাড় কাঁপানো শৈত্যপ্রবাহের অবনতি ঘটে বৃহস্পতিবার ভোরে। হিমাঙ্কের নিচে তাপমাত্রার সঙ্গে যোগ হয় ৫০ থেকে ৬০ মাইল বেগে প্রবাহিত তুষার ঝড়। যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সাউথ ক্যারলিনা, নর্থ ক্যারলিনা, উইসকনসিন, মিজৌরি, মিশিগান, নর্থ ডাকোটা, ভার্জিনিয়া, ম্যারিল্যান্ড, ডিসি, পেনসিলভানিয়া, ডেলাওয়ার, নিউজার্সি, কানেকটিকাট, ম্যাসেচুসেটস, রোড আইল্যান্ড, নিউ হ্যামশায়ার, ভারমন্ট, নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের প্রায় দেড় কোটি বাসিন্দা বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এক রকম গৃহবন্দী হয়ে পড়েছে। তীব্র ঠান্ডায় ১৭ জনের মৃত্যুর খবর দিয়ে ফেডারেল সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এর মধ্যে উইসকনসিনে ছয়, টেক্সাসে চার, নর্থ ক্যারোলিনায় চার, মিজৌরি, মিশিগান ও নর্থ ডাকোটায় একজন করে মারা গেছে। এসব এলাকায় ১২ ইঞ্চি থেকে ২৪ ইঞ্চি পর্যন্ত তুষারপাতের কথা জানিয়ে বৃহস্পতিবার রাতের জাতীয় আবহাওয়া বার্তায় বলা হয়, এছাড়া বস্টন ও লং আইল্যান্ডের উপকূলীয় এলাকায় ১২ থেকে ১৫ ফুট পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাস হয়েছে। গলে যাওয়া বরফের পানিতে ডুবে যায় বস্টনের রাস্তা। দুর্যোগের কারণে নিউইয়র্ক, বস্টন, ফিলাডেলফিয়া, বাল্টিমোর, প্রভিডেন্স, রোড আইল্যান্ডসহ ১১টি শহরের সব স্কুলে বৃহস্পতিবার ছুটি ঘোষণা করা হয়। সরকারী অফিসে উপস্থিতির ওপর ছিল না কোন বাধ্যকতা। নিউইয়র্ক, নিউজার্সি, পেনসিলভানিয়া, ম্যাসেচুসেটস ও কানেকটিকাট অঙ্গরাজ্যের বিস্তীর্ণ এলাকায় জরুরী অবস্থা জারি করা হয়। লোকজনকে জরুরী প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের না হওয়ার পরামর্শ দেন রাজ্য গবর্নরেরা। নিউইয়র্ক এবং নিউজার্সির বিভিন্ন এয়ারপোর্টের দুই হাজার ফ্লাইটসহ বস্টন, ফিলাডেলফিয়া, ভার্জিনিয়া এলাকার চার হাজার ফ্লাইট বাতিল করতে হয় বলে জানান পোর্ট অথরিটির নির্বাহী পরিচালক রিক কটন। নিউইয়র্ক সিটির জ্যামাইকা, জ্যাকসন হাইটস, চার্চ-ম্যাকডোনাল্ড, ওজনপার্ক, পার্কচেস্টার, হাডসন, নিউজার্সির প্যাটারসন, আটলান্টিক সিটি, পেনসিলভেনিয়ার ফিলাডেলফিয়া, আপারডারবি, মেলবোর্ন সিটি এলাকার সব দোকানপাট ছিল জনমানব শূন্য। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় আবহাওয়া দফতর জানায় দেশটির বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে প্রচন্ড ঠান্ড বাতাস বয়ে যাচ্ছে। চলতি সপ্তাহের শেষ পর্যন্ত সেখানে এ ধরনের আবহাওয়া থাকতে পারে।
জেরুজালেম ইস্যুর জের ধরে ফিলিস্তিনকে সহায়তা পাঠানো বন্ধের হুমকি ট্রাম্পের
জেরুজালেম ইস্যুর জের ধরে ফিলিস্তিনকে সহায়তা পাঠানো বন্ধের হুমকি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্র প্রতিবছর ফিলিস্তিনকে কোটি কোটি ডলার অর্থ সহায়তা দিলেও বিনিময়ে দেশটির পক্ষ থেকে কোনো প্রশংসা পায় না বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। শান্তি বজায় রাখার ক্ষেত্রেও আলোচনায় ফিলিস্তিনের কোনো আগ্রহ নেই বলে উল্লেখ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। গতকাল মঙ্গলবার এক টুইট বার্তায় এ মন্তব্য করেছেন ট্রাম্প। এতে তিনি বলেন, ‘শুধু পাকিস্তানই নয়, যাদের আমরা খামোখা কোটি কোটি ডলার দিই, এ রকম আরও অনেক দেশ আছে। যেমন আমরা প্রতিবছর ফিলিস্তিনকে শত মিলিয়ন ডলার দিই এবং কোনো প্রশংসা বা মর্যাদা পাই না। এমনকি তারা অনেক দিন ধরে ঝুলে থাকা বিষয়ে সমঝোতাও করতে চায় না।’ এর আগের দিন পাকিস্তানকে অর্থ সহায়তা দেওয়ার কথা জানিয়ে এক টুইট করেছিলেন ট্রাম্প। এই টুইটটি সেটারই ফলোআপ।
আগামী মাসে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠেয় উইন্টার অলিম্পিকে তার দেশ অংশ নিতে পারে- কিম জং-উন
উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং-উন সোমবার এই প্রথমবারের মতো আভাস দিয়েছেন আগামী মাসে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠেয় উইন্টার অলিম্পিকে তার দেশ অংশ নিতে পারে। পিয়ংইয়ংয়ের পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি নিয়ে দুদেশের মধ্যে বিদ্যমান উত্তেজনা সত্ত্বেও কিমের এমন আভাস দিলেন। উত্তর কোরীয় নেতা কিম জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া নববর্ষের ভাষণে বলেন, আমি আন্তরিকভাবে বিশ্বাস করি পিয়েওংচ্যাং উইন্টার অলিম্পিকটি সফলভাবেই অনুষ্ঠিত হবে।তিনি আরো বলেন, আমরা আমাদের প্রতিনিধি পাঠানোসহ বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিতে আগ্রহী। কিম বলেন, এ জন্য উভয় কোরিয়ার কর্তৃপক্ষ অদূর ভবিষ্যতে বৈঠকে বসবে।সিউলের প্রেসিডেন্ট ভবন ব্লু হাউস কিমের এই প্রস্তুবে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে। ব্লু হাউসের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমরা একে স্বাগত জানাই। এই অলিম্পিক সফলভাবেই আয়োজিত হওয়া উচিত। এটা শুধু কোরীয় উপদ্বীপেই নয়, বরং গোটা এলাকার পাশাপাশি সারা বিশ্বের শান্তিতে ভূমিকা রাখবে।পিয়েওংচ্যাং অর্গানাইজিং কমিটি ফর দ্য অলিম্পিক গেমস (পিওসিওজি)র প্রধান লি হি-বেওম বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, আমরা উত্তর কোরিয়ার অবস্থানকে উষ্ণ স্বাগত জানাচ্ছি।
লন্ডনে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে আলাদা ছুরিকাঘাতে ৪ জন নিহত হয়েছেন
লন্ডনে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে আলাদা ছুরিকাঘাতে ৪ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো একজন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। সোমবার পুলিশের বরাতে বিবিসি জানায়, থার্টি ফার্স্ট নাইটে ওয়েস্ট হ্যামের মেমোরিয়াল এভিনিউতে ২০ বছর বয়সী এক তরুণ, এবং নরউড রোডে ১৭ বছর বয়সী এক কিশোর ছুরিকাঘাতের শিকার হন। নতুন বছরের প্রথম প্রহরে ওল্ড স্ট্রিটে ছুরিকাঘাতে নিহত হন ২০ বছর বয়সী দুই তরুণ। এরমধ্যে ১৭ বছর বয়সী ওই কিশোরকে হত্যাকাণ্ডের অভিযোগে এনফিল্ড এলাকা থেকে ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। বাকি ঘটনায় জড়িতদের ধরতে তদন্ত চলছে বলে জানায় তারা।
ইরান-পাকিস্তান সীমান্তকে শান্তি এবং বন্ধুত্বের সীমান্তে রূপান্তরের যৌথ তৎপরতা চলছে
ইরান-পাকিস্তান সীমান্তকে শান্তি এবং বন্ধুত্বের সীমান্তে রূপান্তরের যৌথ তৎপরতা চলছে। এমনটাই জানিয়েছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর জনসংযোগ পরিদপ্তর আইএসপিআরের প্রধান মেজর জেনারেল আসিফ গাফুর এমনটাই জানিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, ইরান-পাকিস্তান অভিন্ন সীমান্ত নতুন সীমান্ত পথ খোলা হবে। সীমান্ত এলাকার মানুষজনের চলাচলের সুবিধার জন্য নতুন এই সব পথ খোল হবে বলে জানান তিনি। গত কয়েক বছর ধরে পাকিস্তানের মাটিতে তৎপর জঙ্গিদের হামলার শিকার হয়েছে ইরানি সীমান্ত প্রহরীরা। একাধিকবার এই জাতীয় হামলা চালানো হয়েছে। ইরানের সিস্তান-বেলুচিস্তান প্রদেশে এপ্রিলের ১০ তারিখে চালানো এক হামলায় ১০ ইরানি সীমান্ত প্রহরী শহিদ এবং দুই জন আহত হয়েছিলেন। পাকিস্তানের ভূমি থেকে চালানো এই হামলার দায় স্বীকার করেছিল জায়শ-উল-আদল নামের এক জঙ্গিগোষ্ঠী। গুপ্তহামলার পরই হামলাকারীরা পাকিস্তান সীমান্তে পালিয়ে গিয়েছিল। হামলার পরপর ইরানি প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি এবং তৎকালীন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ হামলার সঙ্গে জড়িতদের বিচার এবং শাস্তির আহ্বান জানিয়েছিলেন। এ ছাড়া, জঙ্গি তৎপরতায় জড়িতদের বিরুদ্ধে হামলা চালানোর অধিকার আছে বলেও ঘোষণা করেছিল ইরান।
বর্ণিল আয়োজনের মধ্যদিয়ে বিশ্বব্যাপী বর্ষবরণ
বিশ্বজুড়ে বর্ণিল আয়োজনের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বর্ষবরণ উৎসব। বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ২০১৮ কে বরণ করে নেয় নিউজিল্যান্ড। অকল্যান্ডের স্কাই টাওয়ারে বর্ণিল আলোকচ্ছটার মধ্য দিয়ে ইংরেজি নতুন বছরকে স্বাগত জানান তারা। এরপরই, সিডনি হারবারের ঐতিহ্যবাহী আতশবাজির মধ্য দিয়ে বিশ্বের দ্বিতীয় দেশ হিসেবে নতুন বছরকে স্বাগত জানায় অস্ট্রেলিয়া। এছাড়াও, বর্ষবরণ উৎসবে মাতে উত্তর কোরিয়া, হংকং, থাইল্যাল্ডসহ মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপসহ আরও অনেক দেশ। আন্তর্জাতিক মান সময়ের তারতম্যের করণে বিশ্বের প্রথম শহর হিসেবে নতুন বছরকে বরণ করে নেয়ার সুযোগ পায় নিউজিল্যান্ডের অকল্যান্ড শহর। ঘড়িতে স্থানীয় সময় রাত ১২টা বাজতেই প্রায় এক হাজার ফুট উচ্চতার স্কাই টাওয়ারের বর্ণিল আতশবাজির মধ্য দিয়ে নতুন বছরকে বরণ করে নেয় নিউজিল্যান্ডবাসী। মনোমুগ্ধকর ওই আতশবাজি উপভোগ করতে সেখানে আগে থেকেই জড়ো হন হাজারো মানুষ। এর কয়েক ঘণ্টা পরই বিশ্বের দ্বিতীয় দেশ হিসেবে ২০১৮ সাল বরণ করে নেয় অস্ট্রেলিয়া। ঐতিহ্যবাহী সিডনি হারবারের মনোমুগ্ধকর আর চোখ ধাঁধানো আতশবাজির মধ্য দিয়ে নতুন বছরকে স্বাগত জানানো হয়। প্রতিবারের মতো এবারেও ইংরেজি নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে সেখানে হাজির হন হাজার হাজার দেশি ও বিদেশি পর্যটক। বর্ষবরণ উৎসবের আয়োজন করা হয় উত্তর কোরিয়াতেও। রাজধানী পিয়ংইংয়ে আলোকসজ্জার পাশাপাশি প্রদর্শন করা হয় বর্ণিল আতশবাজির। বর্ষবরণের বর্ণিল সাজে সেজেছে চীনের হংকং শহরও। নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে ঘড়ির কাটায় রাত ১২টা বাজার সঙ্গেই শহরের বিখ্যাত ভিক্টোরিয়া হারবারে মনোমুগ্ধকর আতশবাজির মধ্য দিয়ে স্বাগত জানানো হয় ২০১৮ কে। এসময়, বর্ণিল আলোয় ছেয়ে যায় পুরো শহর। এছাড়াও, বর্ণিল আতশবাজি আর নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বর্ষবরণ উৎসবে মাতে থাইল্যান্ডও। ২০১৭ সালকে বিদায় জানিয়ে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় একে একে ২০১৮ সালকে বরণ করে নেয়ার অপেক্ষায় রয়েছে এশিয়া, ইউরোপ এবং আমেরিকা মহাদেশের বিভিন্ন দেশ। রাশিয়ার মস্কোয় আতশবাজির ঝলকানিতে রাতের আকাশ আলোকিত হয়ে ওঠে। এই নান্দনিক দৃশ্য দেখতে ছুটে আসেন দেশি বিদেশি পর্যটকরা। জার্মানির বার্লিনে নারীদের নিরাপত্তায় সংরক্ষিত আসনের পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কয়েক হাজার সদস্যকে মোতায়েন রাখা হয়েছে। এবারের আয়োজনে প্রায় ১ লাখ ইউরো খরচ হয়েছে বলে জানায় তারা। বর্ষবরণের উৎসব আয়োজনে কোন অংশ পিছিয়ে নেই মধ্যপ্রাচ্য। এদিন সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ের একটি অবকাশ যাপন কেন্দ্রে জমকালো আতশবাজি শো এর আয়োজন করা হয়। যুদ্ধবিধ্বস্ত ইরাকবাসীর আনন্দও বাঁধভাঙ্গা। আইএস এর পতনের পর প্রথমবারের মতো বাগদাদের স্কাইলাইনে হাজারো আতশবাজি পোড়ানো হয়। সর্বশেষ নতুন বছরকে বরণ করে নেয় সামোয়া দ্বীপ এবং যুক্তরাষ্ট্রের বেকার ও হাউল্যান্ড দ্বীপের বাসিন্দারা।
আমেরিকায় একই দিনের দুটি আলাদা ঘটনায় নিহতের সংখ্যা ৫
বন্দুকবাজের হামলার যেন শেষ নেই আমেরিকায়। একই দিনের দুটি আলাদা ঘটনায় নিহতের সংখ্যা ৫। দুটি ক্ষেত্রেই এলোপাথাড়ি গুলি চালানোর পরে আত্মঘাতী হয়েছে দুই হামলাকারী। অবশ্য প্রাথমিক তদন্তের পরে কোনওটিকেই জঙ্গি হামলা বলছে না প্রশাসন। পুলিশের অনুমান, কর্মক্ষেত্রে কোনও অপমানের প্রতিশোধ নিতেই এই জোড়া হামলা। প্রথম ঘটনাটি হিউস্টনের একটি গাড়ির দোকানে। বিএমডব্লিউএর মতো বিলাসবহুল গাড়ি সারাইয়ের ক্ষেত্রে এলাকায় রীতিমতো পরিচিত নাম বিমার প্লাস। শুক্রবার স্থানীয় সময় বিকেল ৪টে নাগাদ হঠাৎই সেখানে হানা দেয় এক বন্দুকবাজ। এক সময়ে সে এখানকারই কর্মী ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। তদন্তকারীদের অনুমান, কর্মক্ষেত্রে কোনও বিবাদের সূত্রেই দোকানে ঢুকেই সে দুই কর্মীকে লক্ষ করে গুলি চালাতে শুরু করে। তখনই খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। কিন্তু তত ক্ষণে তাণ্ডব চালিয়ে দোকানের বাইরে এসে আত্মঘাতী হয়েছে ওই হামলাকারী। ঘটনার সময়ে যে হেতু ওই দোকানে কর্মচারী-ক্রেতাদের ভাল ভিড় ছিল, তাই পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়ে উঠতে পারতো বলে অনুমান তদন্তকারীদের। নিহত দুই কর্মী ও আত্মঘাতীর পরিচয় এখনও প্রকাশ করেনি পুলিশ। নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি হিউস্টন থেকে প্রায় ১৩০০ মাইল দূরে দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়ার লং বিচ শহরের ঘটনাটিতেও। এখানকার একটি আইনি প্রতিষ্ঠানে এসে হামলা চালায় বন্দুকবাজ। ব্যস্ত বহুতলে গুলি চলছে খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। প্রাণের ভয়ে তত ক্ষণে বিস্তর হুড়োহুড়ি প়ড়ে গিয়েছে অফিস-পাড়ায়। এখানেও দুজনকে গুলি করে আত্মঘাতী হয় ওই হামলাকারী। তবে এক জনকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। ওই আইনি প্রতিষ্ঠানটির নাম প্রকাশ করেনি পুলিশ। তদন্তকারীদের অনুমান, আততায়ী অফিসেরই প্রাক্তন কর্মী। কিন্তু কীসের জেরে এমন খুনে তাণ্ডব? ভেবে তল পাচ্ছেন না স্থানীয় বাসিন্দারা। বছর চল্লিশের অ্যাগনেস দীর্ঘ দিন ধরে এই অফিস-বিল্ডিংয়েরই পাশের একটি আবাসনে থাকেন। তার কথায়, আমাদের শান্তিপূর্ণ এলাকায় যে এমন ঘটনা ঘটতে পারে, কোনও দিন ভাবতেই পারিনি। ভিতরে এলোপাথাড়ি গুলি চলছে, আর বাইরের সিঁড়ি দিয়ে লোকে হু়ড়মুড়িয়ে নামছে... আর মাথার উপর চক্কর কাটছে পুলিশের হেলিকপ্টার এটা একেবারেই ভাল ইঙ্গিত নয়। কেউ আবার বলছেন,যে কেউ যখন-তখন হাতে বন্দুক পেয়ে গেলে এটাই হওয়ার ছিল।
আগামী ৪৯ বছরের জন্য বিনা মূল্যে তারতুস নৌঘাঁটির অবকাঠামো ব্যবহার করতে পারবে রাশিয়া
সিরিয়ার একটি নৌঘাঁটি ৪৯ বছরের জন্য ব্যবহারের অনুমতি পেয়েছে রাশিয়া। এ জন্য ক্রেমলিনকে অর্থ দিতে হবে না দামেস্ককে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সিরিয়ার সঙ্গে করা এ-সংক্রান্ত একটি সামরিক চুক্তি সম্প্রতি অনুমোদন করেছেন। এতে সিরিয়ার তারতুস নৌঘাঁটির উন্নয়ন ও এর পুরোপুরি ব্যবহারের সুযোগ পেল রাশিয়া। তাস অনলাইনের খবরে জানানো হয়, তারতুস নৌঘাঁটির আধুনিকীরণের লক্ষ্যে চলতি বছরের জানুয়ারিতে দামেস্কে চুক্তি সই করে রাশিয়া ও সিরিয়া। রুশ স্টেট ডুমায় এ চুক্তির বিল উত্থাপন করা হলে তা ২১ ডিসেম্বর পাস হয়। পরে ফেডারেল কাউন্সিলের অনুমোদন পাওয়ার পরই ২৬ ডিসেম্বর গেজেট আকারে প্রকাশ করা হয়। চুক্তি অনুযায়ী, আগামী ৪৯ বছরের জন্য বিনা মূল্যে তারতুস নৌঘাঁটির অবকাঠামো ব্যবহার করতে পারবে রাশিয়া। উভয় পক্ষের সম্মতিতে এই চুক্তি আবার স্বয়ংক্রিয়ভাবে নবায়ন করা যাবে। নৌঘাঁটির রক্ষণাবেক্ষণ, পুনর্নির্মাণ ও আধুনিকীকরণের কাজ শেষে সেখানে পারমাণবিক শক্তি চালিত জাহাজ ও ডুবোজাহাজসহ সর্বোচ্চ ১১টি রুশ রণতরি নোঙর করতে পারবে। তারতুস নৌঘাঁটির অবকাঠামো উন্নয়ন হলে মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠায় এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন রুশ ফেডারেল কাউন্সিলের প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা কমিটর প্রধান ভিক্টর ভান্দারেভ। রুশ গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, রাশিয়া ও সিরিয়া উভয় দেশই তারতুস নৌঘাঁটির সুফল পাবে। আমরা এ অঞ্চলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারব। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ভূমধ্যসাগরের তীর ঘেঁষে অবস্থিত সিরিয়ার তারতুস নগর। লাতাকিয়ার পরই তারতুস সে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বন্দর নগর। সোভিয়েত ইউনিয়নের সময় থেকেই তারতুসে রুশ নৌবাহিনীর ঘাঁটি ছিল। ১৯৭১ সালে দুই দেশের মধ্যে স্বাক্ষর হওয়া চুক্তি মোতাবেক এখনো এই নৌঘাঁটি ব্যবহার করছে রাশিয়া। সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর বাইরে তারতুসে হচ্ছে রাশিয়ার একমাত্র সামরিক ঘাঁটি। সিরিয়ায় আইএসের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান চালাতে ২০১৫ সালে বিমানবাহিনীর একটি দল গঠন করা হয়। রাশিয়া দাবি করছে, এ অভিযানে সিরিয়ার লাতাকিয়া, পালমিরা, রাক্কা, দেইর আল-জর ও আলেপ্পো আইএসমুক্ত করেছে রাশিয়া।

আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর