তুর্কী অর্থনীতি ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি দিলেন ট্রাম্প
০৮অক্টোবর,মঙ্গলবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সীমা ছাড়িয়ে গেলে আবারো তুরস্ককে দেখে নেয়া হবে, টুইটারে এই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। উত্তর-পশ্চিম সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের অবাক করা ঘোষণা দেয়ার পর একের পর এক টুইট বা্র্তায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।যদিও সেনা প্রত্যাহারের এই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ট্রাম্পের রিপাবলিকান সহযোগীরা।বিবিসি সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটকে ঠেকাতে কুর্দি বাহিনী যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান সহযোগী।দেশটি এক হাজারের মতো মার্কিন সেনা মোতায়েন রয়েছে। স্টেট ডিপার্টমেন্টের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সীমান্ত এলাকা থেকে এরই মধ্যে ডজন দুয়েক সৈন্য প্রত্যাহার করা হয়েছে। ধারাবাহিক টুইটে ট্রাম্প বলেন, মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সুযোগে তুরস্ক যদি সীমান্ত পার হয়ে কুর্দি যোদ্ধাদের ওপর হামলার চিন্তা করে, তাহলে ভুল করবে। এদিকে, কুর্দিনিয়ন্ত্রিত যোদ্ধাদের প্রধান গ্রুপটি মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তকে ভালোভাবে নিতে পারেনি। তারা একে পিঠে ছুরি মারার সঙ্গে তুলনা করেছে। সেনা প্রত্যাহারের ফলে সিরিয়ায় আইএস-এর উৎপাত বাড়বে বলেই সমালোচকরা মনে করছেন। তবে ট্রাম্প বলেছেন, এমন কিছু করলে তুরস্ক ভুল করবে। আগেও তুরস্কের অর্থনীতিতে বেশ বড়ো রকম ধাক্কা দিয়েছে ট্রাম্প।তার আগে বেশ কিছু ইস্যুতে দুই দেশের সম্পর্কে অবনতি ঘটতে থাকে।তারই ধারাবাহিকতায় গত বছর তুরস্কের বেশ কিছু পণ্যের ওপর শুল্কবৃদ্ধি করে যুক্তরাষ্ট্র। পাশাপাশি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে তুরস্কের শীর্ষ কর্মকর্তাদের ওপর।
ভারতের হাতে নতুন ইসরায়েলি অস্ত্র- কিলার
০৭অক্টোবর,সোমবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নতুন অস্ত্র নিয়ে নিজের ভাণ্ডার সমৃদ্ধ করছে ভারত। এবার দেশটির অস্ত্রভাণ্ডারে যোগ হয়েছে এক শক্তিশালী অস্ত্র। জানা গেছে, এই অস্ত্রের সাহায্যে শত্রুরুক্ষের অত্যাধুনিক ট্যাংক এবার ধ্বংস হবে চোখের নিমেষে। ট্যাংক আক্রমণ মোকাবিলা করার জন্য এবার সীমিত সংখ্যক ইসরায়েলি স্পাইক অ্যান্টি-ট্যাংক গাইডেড মিসাইল পেল ভারতীয় সেনাবাহিনী। তবে ভারতীয় সেনা এই অস্ত্র ব্যবহার করবে সীমিত সময়ের জন্য। দেশীয় প্রযুক্তির মানবচালিত পোর্টেবল ট্যাংক কিলার তৈরি না হওয়া পর্যন্ত ইসরায়েলি ট্যাংক কিলার ব্যবহার করা হবে। জানা গেছে, প্রথম ধাপে ২১০ স্পাইক মিসাইল ও এক ডজন লঞ্চার এসে পৌঁছেছে।২০২০ সালে ভারতীয় সেনাবাহিনীকে মানব-পোর্টেবল এটিজিএম দেওয়ার ব্যাপারে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ডিআরডিও। গত মাসেই তিনটি সফল ট্রায়াল হয়েছে। তবে সেই অস্ত্র হাতে পাওয়ার আগে ইসরায়েলি ট্যাঙ্ক কিলারে আস্থা রাখছে ভারতীয় সেনা।
গ্লোবাল মেন্টাল হেলথ-এ শীর্ষ ৪০তম ইনোভেটিভ নেত্রী সায়মা ওয়াজেদ হোসেন
০৩অক্টোবর,বৃহস্পতিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গ্লোবাল মেন্টাল হেলথ-এ শীর্ষ ১০০ ইনোভেটিভ নেত্রীদের তালিকায় ৪০তম অবস্থানে আছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল অ্যাডভাইজরি কমিটি ফর অটিজম অ্যান্ড নিউরোডেভেলপমেন্টাল ডিসঅর্ডারের চেয়ারপারসন সায়মা। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের কলাম্বিয়া ইউনিভার্সিটির গ্লোবাল মেন্টাল হেলথ প্রোগ্রামসের ফাইভ অন ফ্রাইডে গত ২০ সেপ্টেম্বর তালিকাটি প্রকাশ করে। সায়মার সম্পর্কে তালিকাটিতে বলা হয়, তিনি ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশনের (ডব্লিউএইচও) এক্সপার্ট অ্যাডভাইজরি প্যানেল অন মেন্টাল হেলথের একজন সদস্য। এতে বলা হয়, সায়মা সম্প্রতি ডব্লিউএইচও এর দক্ষিণপূর্ব এশিয়া অঞ্চলের গুডউইল অ্যাম্বাসেডর ফর অটিজম হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। এতে আরও বলা হয়, বাংলাদেশে অটিজমে আক্রান্ত মানুষের মুখপাত্র হিসেবে তার ইনোভেটিভ কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ এই পদে নির্বাচিত হন তিনি। মানসিক রোগীদের প্রতি সংবেদনশীল মানুষ এবং তাদের জন্য নিঃস্বার্থভাবে কাজ করা আইনজীবী, নেতা, শিল্পী, বিজ্ঞানী, শিক্ষাবিদ ও চিকিৎসকরা তালিকাটিতে ঠাঁই পেয়েছেন।
ভারতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার বাংলাদেশি যুবতী
০২অক্টোবর,বুধবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশের এক যুবতী কাজের সন্ধানে চোরাইপথে ভারতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। খবর ভারতীয় গণমাধ্যম আজকালের। সেপ্টেম্বর মাসে বাংলাদেশ থেকে কাজের সন্ধানে চোরাইপথে পশ্চিমবঙ্গের বনগাঁয় যান এই বাংলাদেশি যুবতী। সেখান থেকে তিনি চলে যান গুজরাটের সুরাটে। সুরাটে কাজের পরিস্থিতি সুবিধাজনক না হওয়ায় দেশে ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। এই কারণে বনগাঁয় ফিরে আসেন বাংলাদেশের যুবতী। কিন্তু বৈধ কাগজপত্র ছিল না তার কাছে। তাই সীমান্ত পার করানোর জন্য বনগাঁর নরহরিপুরের দুই দালালের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তিনি। এই দুই দালাল দুদিন পর তাকে চোরাইপথে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেবেন বলে জানান। তারা এই সময়ে তাকে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করে পালিয়ে যান। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, এই বাংলাদেশি যুবতী পরে পেট্রাপোল থানায় গিয়ে ধর্ষণের কথা জানিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। আরও জানা যায়, ধর্ষণের শিকার এই বাংলাদেশি যুবতীকে আটকে রেখে পেট্রাপোল থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করে। অভিযুক্তরা এখনও গ্রেপ্তার হননি।
সৌদিকে এরদোয়ানের চ্যালেঞ্জ
০১অক্টোবর,মঙ্গলবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সাংবাদিক জামাল খাশোগির খুনিদের সৌদি আরব দায় মুক্তি দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান। রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) দ্য ওয়াশিংটন পোস্টে লেখা এক নিবন্ধে এরদোগান এমন অভিযোগ করেন। এরদোগান বলেন, ‘ইস্তানবুলের সৌদি কনস্যুলেটে সংঘটিত নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের ঘটনা বের করে আনতে তুরস্ক তার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবে। তুরস্ক এখনও এটা জানতে চায় খাশোগির মরদেহ কোথায় রাখা হয়েছে? কার নির্দেশে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে?’ সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় এজেন্টরাই এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে ইঙ্গিত দেন এরদোগান। ২০১৮ সালের ২ অক্টোবর তুরস্কের সৌদি কনস্যুলেটে গিয়ে গুপ্তহত্যার শিকার হন জামাল খাশোগি। এর আগে মার্কিন গণমাধ্যম সিবিএসের ৬০ মিনিট নামে একটি সাক্ষাৎকারধর্মী অনুষ্ঠানে সম্প্রতি সোদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান বলেছেন, সৌদি আরবের শাসক হিসেবে খাশোগি হত্যার পুরো দায় আমার। কিন্তু পরে আবার সুর পাল্টে ফেলেছেন। যুবরাজ এখন বলছেন, খাশোগিকে হত্যার নির্দেশ তিনি দেননি। বিশ্ব বিখ্যাত ওই সাংবাদিককে হত্যাকাণ্ড নিয়ে এর আগে প্রকাশ্যে কথা বলেননি সৌদি আরবের কার্যত নেতা মোহাম্মদ বিন সালমান। যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ ও পশ্চিমা সরকারগুলো আলোচিত ওই হত্যাকাণ্ডের জন্য তাকেই দায়ী করে আসছিল। কিন্তু সৌদি কর্মকর্তারা দাবি করেন, এতে তার কোনো হাত ছিল না। সম্প্রতি মার্কিন গণমাধ্যম সিবিএস নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে দেশটির রাজপরিবারের কঠোর সমালোচক হিসেবে পরিচিত জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ডে নিজের জড়িত থাকার কথা পরোক্ষভাবে স্বীকার করেছিলেন। সৌদি কনস্যুলেটে এই হত্যাকাণ্ড নিয়ে বিশ্বব্যাপী আলোড়ন ওঠে। এতে বিশ্বজুড়ে যুবরাজের ভাবমর্যাদা যেমন প্রশ্নের মুখে পড়েছে, তেমনি সবচেয়ে বড় তেল সরবরাহকারী সৌদি অর্থনীতিকে বৈচিত্র্যময় করতে তার উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনাও বাধার মুখে রয়েছে।
ইন্দোনেশিয়ায় বিয়ের আগে যৌন সম্পর্ক নিষিদ্ধ আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ
২৫সেপ্টেম্বর,বুধবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ইন্দোনেশিয়ায় বিয়ের আগে যৌন সম্পর্ককে নিষিদ্ধ করতে নতুন একটি প্রস্তাবিত আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের সময় বিক্ষোভকারীদের ওপর জলকামান ও টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করেছে পুলিশ। ইন্দোনেশিয়ার সংসদের সামনে ছাড়াও অন্যান্য শহরেও এই আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ হয়েছে। ওই আইন অনুযায়ী অধিকাংশ গর্ভপাত অপরাধ হিসেব চিহ্নিত হবে এবং প্রেসিডেন্টকে অবমাননাও অবৈধ হিসেবে বিবেচিত হবে। প্রস্তাবিত বিলটি পাস হতে দেরি হলেও বিক্ষোভকারীরা মনে করছেন শেষ পর্যন্ত সংসদে বিলটি অনুমোদিত হতে পারে। প্রাথমিকভাবে মঙ্গলবার সংসদে এই বিলটির বিষয়ে ভোট হওয়ার কথা ছিল- তবে ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো শুক্রবার পর্যন্ত ভোটাভুটি স্থগিত করেন। তিনি বলেছেন, নতুন আইন বাস্তবায়নের আগে আরও বিবেচনা প্রয়োজন। বিলটি পাস হওয়ার ক্ষেত্রে বিলম্ব হলেও অনেক ইন্দোনেশিয়ানেরই আশঙ্কা সংসদে এই বিলটি পাস হতে পারে। আর কয়েকদিন আগে দেশটির দুর্নীতি দমন সংস্থা করাপশন ইর;্যাডিকেশন কমিশনর ক্ষমতা সীমিত করে আইন পাস করার ঘটনা নিয়েও ক্ষোভ রয়েছে ইন্দোনেশিয়ার মানুষের মধ্যে। প্রস্তাবিত এই বিলের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার ইন্দোনেশিয়ার অনেক শহরের রাস্তায় হাজার হাজার বিক্ষোভকারী নেমে আসেন, যাদের অনেকেই ছাত্র। মূল বিক্ষোভ হয় রাজধানী জাকার্তায়। এসময় বিক্ষোভকারীরা সংসদের স্পিকার বামবাং সোয়েসাতেয়োর সাথে দেখা করার দাবি জানান। বিক্ষোভকারীরা পুলিশের দিকে পাথর ছুঁড়লে তাদের দিকে টিয়ার গ্যাস ও জলকামান থেকে পানি নিক্ষেপ করে পুলিশ। এদিকে সুলাওয়েসি দ্বীপের ইয়োগিয়াকার্তা ও মাকাসাসহ আরও কয়েকটি জায়গায় দ্বিতীয় দিনের মত বিক্ষোভ চলেছে। অন্যদিকে জাকার্তায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পাঁচ হাজারের বেশি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
আফগানিস্তানে বোমা হামলায় নিহত ২৪, প্রাণে বেচে গেলেন প্রেসিডেন্ট
১৭সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আফগানিস্তানের পারওয়ান প্রদেশে প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনির মিছিল লক্ষ্য করে ভয়াবহ বোমা হামলা চালানো হয়েছে। আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে নির্বাচনী সমাবেশে বোমা হামলায় অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি। মঙ্গলবারের ওই হামলায় কমপক্ষে ২৪ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো ৩১ জন। হতাহতদের মধ্যে অনেক নারী ও শিশু রয়েছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকালের দিকে রাজধানীর উত্তরাঞ্চলের পারওয়ান প্রদেশের চারিকরে ওই নির্বাচনী জনসভায় প্রেসিডেন্ট গনি ভাষণ দিচ্ছিলেন। এ সময় এ হামলার ঘটনা ঘটে। তবে এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় কোনো গোষ্ঠী দায় স্বীকার করেনি। প্রাদেশিক হাসপাতালের প্রধান কর্মকর্তা আব্দুল কাশিম সানজিন বলেন, হতাহতদের মধ্যে নারী এবং শিশুও রয়েছে। তিনি বলেন, হতাহতদের অধিকাংশই বেসামরিক নাগরিক বলে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনাস্থলে অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছেছে। বিস্ফোরণে হতাহতের সংখ্যা বাড়তে পারে। নির্বাচন ঘোষণা পর থেকেই দেশটির বিভিন্ন অঞ্চলে হামলার ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। নির্বাচনকে ঘিরে এসব হামলার জন্য সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবানকে দায়ী করে আসছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। ফলে, আগামী নির্বাচনকে ঘিরে আরো বড় ধরণের হামলা হতে পারে বলে ধারণা করছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সর্বোচ্চ সংস্থা।
মমতাকে বিজেপি বিধায়কের পরামর্শ
১৫সেপ্টেম্বর,রবিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:জাতীয় নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি ইস্যুতে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে কটাক্ষ করে মন্তব্য করেছেন বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং। উত্তরপ্রদেশের বালিয়া কেন্দ্রের বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং বলেন, যে কোন মূল্যে পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি চালু করা হবে। তার অভিযোগ ভোট ব্যাঙ্কের স্বার্থেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বাংলাদেশিদের রক্ষা করে চলেছেন। সবচেয়ে ভালো হয় তিনি যদি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে যান। শনিবার সংবাদ মাধ্যমে তিনি জানান, মমতা ব্যানার্জির খারাপ দিন ঘনিয়ে আসছে এবং তার ভাষা পরিবর্তন করা উচিত। তিনি যদি মনে করেন বাংলাদেশিদের সহায়তায় রাজনীতি করবেন, তবে তার বাংলাদেশে চলে যাওয়া উচিত। তার যদি সাহস থাকে হবে তিনি যদি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন-সেটাই তার পক্ষে সবচেয়ে ভালো। সম্প্রতি লোকসভার নির্বাচনে বাংলাতে গেরুয়া শিবিরের ব্যাপক সাফল্যের দিক তুলে ধরে সুরেন্দ্র সিং জানান, লঙ্কার (শ্রীলঙ্কা) মানুষ হনুমানজিকে সেখানে প্রবেশের অনুমতি দেয়নি কিন্তু তার পরেও হনুমান সেখানে ঢুকেছিল। তেমনি সমস্ত বাধা সত্ত্বে অমিত শাহ ও যোগী আদিত্যনাথও বাংলায় প্রবেশ করেছিলেন এবং আমরা এতোগুলো আসন পেয়েছি। মমতা ব্যনার্জি বাংলার রাজনৈতিক রানী এবং রাম সেখানে প্রবেশ করেছে। তাই খুব শিগগিরই সেখানে সরকার পরিবর্তন হবে। আসামে এনআরসি চালুর উদ্যোগের প্রশংসা করে বিজেপি বিধায়ক জানান, পশ্চিমবঙ্গেও এনআরসি চালু করা হবে এবং সমস্ত বাংলাদেশি নাগরিকদের দুটো করে খাবারের প্যাকেট দিয়ে সম্মানের সঙ্গে নিজেদের দেশে পাঠানো হবে। উল্লেখ্য, আসামের পর বাংলাতেও এনআরসি চালুর দাবিতে বিজেপির নেতারা সরব হলেও মমতা তার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। এনআরসির প্রতিবাদে রাস্তায় নামতেও দেখা গেছে তাকে।

আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর