শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ২৬, ২০২১
ভারতে বার্ড ফ্লু আতঙ্ক, চার রাজ্যে সংক্রমণ
০৫,জানুয়ারী,মঙ্গলবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভারতের মধ্য প্রদেশ, রাজস্থান, হিমাচল প্রদেশের পর এবার কেরালায় বার্ড ফ্লুর আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। কেরালার আলাপুঝা ও কোয়াট্টাম জেলায় একাধিক মরা হাঁসের শরীরে বার্ড ফ্লুর সন্ধান পাওয়া গেছে বলে দেশটির প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কন্ট্রোল রুম খুলেছে সরকার। খবর ভারতীয় গণমাধ্যমের। গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই দুই জেলায় ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহ থেকে ব্যাপকভাবে হাঁস মরার খবর পাওয়া যায়। সেই সময় ওই মরা হাঁস ভোপালে এইচ৫এন৮ পরীক্ষা করতে পাঠানো হয়। ৮টি নমুনার মধ্যে ৫টিতে বার্ড ফ্লু ধরা পড়ে। কেরালার নেনদুরের একটি হাঁসের খামারে প্রায় ১ হাজার ৫০০ হাঁসের মৃত্যু হয়। কুট্টানন্দ এলাকার হাঁসের খামারেও বার্ড ফ্লু ছড়িয়ে পড়ার খবর পাওয়া যায়। এখন পর্যন্ত এই ঘটনায় প্রায় ১২ হাজার হাঁসের মৃত্যু হয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। রোগ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় আরও ৩৬ হাজার হাঁস মারা হতে পারে বলে কেরালা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। সরকার জানিয়েছে, যাদের গৃহপালিত পশু মারা হচ্ছে, তাদের ক্ষতিপূরণ দেবে রাজ্য সরকার। কিছুদিন আগে রাজস্থান ও মধ্য প্রদেশে কাকের মড়ক দেখা দিয়েছিল। সেখানেও পরীক্ষা করে দেখা যায়, বার্ড ফ্লু-তে আক্রান্ত হয়ে কাকের মৃত্যু হচ্ছে। রাজস্থান ও মধ্য প্রদেশ মিলিয়ে প্রায় ৩০০ কাকের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। এই দুই রাজ্যের রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে বিশেষ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। সেখানে বার্ড ফ্লু আক্রান্ত এলাকা চিহ্নিত করতে কাজ করছে প্রশাসন। হিমাচল প্রদেশেও পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাচ্ছে। সেখানকার পরিযায়ী পাখির মধ্যে বার্ড ফ্লু-র সংক্রমণ দেখা দিয়েছে, যার ফলে এখন পর্যন্ত প্রায় ১ হাজার ৭০০ পরিযায়ী পাখির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। পরিযায়ী পাখিদের মৃত্যু বার্ড ফ্লু-তেই হয়েছে, সেটা নিশ্চিত করেছে প্রশাসন। প্রদেশটির বন দফতর সংরক্ষণ বিভাগের প্রধান অর্চনা শর্মা গণমাধ্যমকে জানান, বরেলির ভারতীয় পশুপালন গবেষণা কেন্দ্রের পরীক্ষায় দেখা গেছে, বার্ড ফ্লু-রয়েছে এই পরিযায়ী পাখিদের শরীরে। যদিও একেবারে নিশ্চিত হতে ভোপালে প্রধান পরীক্ষা কেন্দ্রের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকেও অবহিত করা হয়েছে। অন্যদিকে হিমাচলের কাংড়া জেলায় সংক্রমণ এড়াতে ইতোমধ্যেই মুরগি, মাছ, মুরগির ডিম বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে রাজ্য সরকার। জেলার চারটি সাবডিভিশনে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশটির চারটি রাজ্যে বার্ড ফ্লুর সংক্রমণ সীমাবদ্ধ থাকলেও সেটা যে আরও ছড়িয়ে পড়বে না তার কোনো নিশ্চয়তা না থাকায় রীতিমতো চিন্তিত হয়ে পড়েছে দেশটির সরকার।
সিরিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় ৭ সেনাসহ ৯ জন নিহত
০৪,জানুয়ারী,সোমবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সিরিয়ায় বাসে সন্ত্রাসী হামলায় সাতজন সরকারি সেনাসহ কমপক্ষে নয়জন নিহত হয়েছে। ব্রিটেন ভিত্তিক একটি যুদ্ধ পর্যবেক্ষক সংস্থা রোববার একথা জানায়। খবর এএফপির। সিরিয়ার অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস (এসওএইচআর) জানিয়েছে, হামলায় উত্তরের শহর রাক্কা থেকে রাজধানী দামেস্কে চলাচলে নিয়োজিত যানবাহনটি লক্ষ্য করে পরিচালিত ওই হামলায় দুজন বেসামরিক নাগরিকও নিহত এবং অপর অন্তত: ১৬ জন আহত হয়েছে। এসওএইচআর-এর পরিচালক রামি আবদেল রহমান এএফপিকে বলেছেন, সেনা ও সম্ভবত তাদের কিছু আত্মীয়স্বজনবাহী একটি বাসকে লক্ষ্য করে এই হামলা চালানো হয়। এক সপ্তাহের কম সময় মধ্যে এটি একই ধরণের দ্বিতীয় হামলা। তবে সিরিয়ার সরকারী বার্তা সংস্থা সানা বলেছে, ওই সন্ত্রাসী হামলায় নিহত নয়জনই বেসামরিক নাগরিক। এখনো পর্যন্ত কেউ এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। গত মাসে পূর্বাঞ্চলীয় দেইর এজোর প্রদেশে ইসলামিক স্টেটের এক হামলায় আট কর্মকর্তাসহ প্রায় ৪০ সেনা সদস্য নিহত হয়।
ভ্যাকসিন নষ্ট করার অভিযোগে মার্কিন ফার্মাসিস্ট গ্রেফতার
০২,জানুয়ারী,শনিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনাভাইরাস ভ্যাকসিনের ৫০০ ডোজ নষ্ট করার অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিন অঙ্গরাজ্যের এক ফার্মাসিস্টকে বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ইচ্ছাকৃতভাবে নষ্ট করার উদ্দেশ্যে তিনি ডোজগুলো হিমাগার থেকে সরিয়ে ফেলেন বলে ধারণা করছে পুলিশ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। খবর রয়টার্সের। গত সপ্তাহে গ্র্যাফটনের অরোরা মেডিক্যাল সেন্টার থেকে ভ্যাকসিনের ৫৭টি শিশি হিমাগারের বাইরে পাওয়া গেলে ওই ফার্মাসিস্টকে বরখাস্ত করা হয়। তবে তার পরিচয় জনসম্মুখে প্রকাশ করা হয়নি। প্রতিটি শিশিতে ১০ ডোজ করে ভ্যাকসিন ছিল। ভ্যাকসিনগুলো হিমাগার থেকে বের করে রাখার বিষয়টি জানতে পারার আগে ৬০ ডোজ ভ্যাকসিন বিভিন্ন ব্যক্তিদের প্রদান করা হয়েছিল। জানতে পারার পর বাকি ৫০০ ডোজ ভ্যাকসিন ফেলে দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। অরোরা হেলথ কেয়ার মেডিক্যাল গ্রুপের প্রেসিডেন্ট চিকিৎসক জেফ বার জানিয়েছেন, ভ্যাকসিনগুলোর প্রস্তুতকারী মডার্না ইনকর্পোরেশন হাসপাতালকে নিশ্চিত করেছে যে হিমাগারের বাইরে রাখার ফলে গ্রহণকারীরা কোভিড-১৯ থেকে সুরক্ষা না পাওয়া ছাড়া আর কোনো ঝুঁকি নেই। ভ্যাকসিন নষ্ট করার উদ্দেশ্য কী হতে পারে তা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বা আইন প্রয়োগকারী সংস্থা নিশ্চিত করতে পারেনি। যারা অকার্যকর ডোজগুলো নিয়েছেন তাদের আবার ভ্যাকসিন নেয়ার জন্য জানানো হয়েছে। এই ঘটনার ফলে ডোজগুলো গ্রহণকারী ৫৭০ জন ব্যক্তির ভাইরাসের বিরুদ্ধে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে উঠতে কিছু দেরি হবে। বৃহস্পতিবার এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে জেফ বার বলেছেন, ওই ফার্মাসিস্ট ভ্যাকসিনগুলো হিমাগার থেকে বাইরে রাখা ছাড়া সেগুলোতে আর কিছু করেছেন অথবা অন্য ডোজগুলোর কোনো ক্ষতি করেছেন এমন কোনো প্রমাণ তারা পাননি। হাসপাতালের কর্মকর্তারা জানান, গত সপ্তাহের রবিবার (২৬ ডিসেম্বর) ওই ফার্মাসিস্টকে যখন জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তখন তাৎক্ষণিক জবাবে তিনি বলেন এটি একটি অনিচ্ছাকৃত ভুল। কিন্তু আরও অনুসন্ধান করা হলে বুধবার তিনি স্বীকার করেন, ইচ্ছাকৃতভাবেই হিমাগার থেকে ভ্যাকসিন সরিয়েছেন। পুলিশ জানিয়েছে, মিলওয়াকি শহরের গ্র্যাফটনের বাসিন্দা ওই ফার্মাসিস্টকে বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করে ওজওয়াকি কাউন্টি কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বেপরোয়াভাবে নিরাপত্তায় হুমকি তৈরি, প্রেসক্রিপশন ওষুধে ভেজাল দেয়া ও সম্পত্তিতে নাশকতা তৈরির গুরুতর অভিযোগ আনা হয়েছে।
তবু সিডনিতে নিউ ইয়ারের আলোক ঝলকানি
০১,জানুয়ারী,শুক্রবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা মহামারির বিভীষিকা এখনও শেষ হয়নি। তবে এরমধ্যেই চলে এলো নতুন বছর। স্বাভাবিকভাবেই প্রতি বছরের মতো এবার জমকালো আয়োজনে নতুন বছরকে বরণ করা হচ্ছে না। সারা বিশ্বে প্রায় ৮০ মিলিয়ন মানুষকে আক্রান্ত এবং প্রায় ১৮ লাখ মানুষের জীবন কেড়ে নিয়েছে কোভিড-১৯ নামের ভাইরাস। ফলে মানুষের মধ্যে আগের সেই উৎসব কিংবা উদযাপনের আগ্রহ তুলনামূলক কম। বরং অনেক দেশে এখন একপ্রকার শোকের মাতম চলছে। করোনা সংক্রমণের ভয় এ বছরের নিউ ইয়ার উদযাপনে বাঁধ সেধেছে। বিশেষ করে বড় পরিসরে মানুষজনের উপস্থিতি এবার হচ্ছে না। কারণ অধিকাংশ দেশেই এখন করোনা সংক্রমণ রোধে বিভিন্ন বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। দেশে দেশে জারি হয়েছে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা। তবে নতুন বছর তথা ২০২১ সালে পৃথিবী এই ধাক্কা কাটিয়ে উঠবে, এই আশা নিয়ে সংক্ষিপ্ত পরিসরে এরইমধ্যে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে উৎসব শুরু হয়ে গেছে। এই যেমন অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে। এই শহরেই বিশ্বে সবার আগে শুরু হয়েছে নিউ ইয়ার উদযাপন। করোনা পরিস্থিতির অবনতির কারণে সিডনিতে উৎসব আয়োজনে অনেক কাটছাঁট করা হয়েছে। বাতিল করা হয়েছে গণজমায়েত। তবে প্রথামাফিক আতশবাজিতে আলোকোজ্জ্বল সিডনির দেখা ঠিকই মিলেছে। এদিকে ভ্যাটিক্যান সিটির কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিয়েছে, প্রতি বছরের মতো এবার নিউ ইয়ার ইভ এবং নিউ ইয়ার্স ডের কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দেবেন না পোপ ফ্রান্সিস। ডান পায়ে ব্যথা অনুভব করায় ভ্যালিক্যান সিটির অনুষ্ঠানে হাজির থাকতে পারবেন না তিনি। এর আগে করোনার সংক্রমণ রোধে এবারের নতুন বছর উদযাপনের সব অনুষ্ঠান বাতিল করেছে নিউজিল্যান্ড। যদিও সর্বপ্রথম নতুন বছরকে স্বাগত জানানো দেশগুলোর মধ্যে প্রথম সারিতেই আছে দেশটি। ২০২১ সালের প্রথম সূর্যের দেখা পাবে প্রশান্ত মহাসাগরের ওশেনীয় দ্বীপ রাষ্ট্র কিরিবাতি এবং সামোয়া। আর এর ২৬ ঘণ্টা পর অর্থাৎ সবার শেষে নতুন বছর শুরু হয় যুক্তরাষ্ট্রের বেকার দ্বীপপুঞ্জ ও হাউল্যান্ড দ্বীপপুঞ্জে।
ইয়েমেনে নয়া সরকারের মন্ত্রীরা দেশে ঢুকতেই হামলা, নিহত ২২
৩১ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ইয়েমেনে সৌদি মদদপুষ্ট নবগঠিত মন্ত্রী পরিষদের সদস্যদের বহনকারী একটি উড়োজাহাজ অ্যাডেন বিমানবন্দরে অবতরণের পরপরই শক্তিশালী বিস্ফোরণ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অন্তত ২২ জন নিহত এবং ৫০ জনের বেশি আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, শপথ নেওয়া নতুন সরকারের মন্ত্রীদের বহনকারী উড়োজাহাজটি রিয়াদ থেকে ইয়েমেনের অ্যাডেন বিমানবন্দরে অবতরণে পরপরই শক্তিশালী বিস্ফোরণ এবং গুলির শব্দ শোনা যায়। ইয়েমেনের প্রধানমন্ত্রী মঈন আব্দুলমালিকসহ মন্ত্রিসভার সদস্যদের নিরাপদে প্রেসিডেন্ট প্যালেসে স্থানান্তর করা হয়েছে। বিমানবন্দরে বিস্ফোরণের কয়েক ঘণ্টা পর অ্যাডেনের প্রেসিডেন্ট প্যালেসের আশপাশে দ্বিতীয় বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। যেখানে প্রধানমন্ত্রী মঈন আব্দুলমালিক ও নয়া সরকারের অন্যান্য সদস্য এবং ইয়েমেনে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সাইদ আল-জাবেরকে নিরাপত্তার জন্য নেওয়া হয়েছে। সৌদি মদদপুষ্ট ইয়েমেনের নতুন সরকারের প্রেসিডেন্ট মানসুর হাদি। তাৎক্ষণিকভাবে এ হামলার দায় কেউ স্বীকার করেনি। সৌদি নেতৃত্বাধীন কোয়ালিশন এ হামলার জন্য হুথি বিদ্রোহীদের দায়ী করেছে। প্রেসিডেন্ট প্যালেস থেকে প্রধানমন্ত্রী মঈন আব্দুলমালিক টুইটে জানিয়েছেন, আমরা এবং সরকারের সদস্যরা অস্থায়ী রাজধানী অ্যাডেনে রয়েছি। সবাই ভালো আছি। হুথি বিদ্রোহীরা ইয়েমেনের মূল রাজধানী সানাসহ দেশটির উত্তরের অংশ নিয়ন্ত্রণ করছে।
এবার আমেরিকায় শনাক্ত করোনার নতুন প্রজাতি
৩০ডিসেম্বর,বুধবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে বিধ্বস্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। যেখানে প্রায় ২ কোটি মানুষ ভাইরাসটির শিকার হয়েছেন। প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় সাড়ে ৩ লাখ ভুক্তভোগী। এখনও গড়ে বহু বহু মানুষ প্রাণ হারাচ্ছেন। কিন্তু আশার আলো নেই সুস্থতায়। এমন দুর্যোগ মুহূর্তে এবার হানা দিল নতুন প্রজাতির করোনা। দেশটির কলোরাডো রাজ্যের ২০ বছর বয়সী এক যুবকের শরীরে শনাক্ত হয়েছে ভাইরাসটি। বর্তমানে তাকে আইসোলেশনে নিয়েছে রাজ্যটির স্বাস্থ্য বিভাগ। খবর বিবিসির। স্থানীয় সময় বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) এক বিবৃতিতে কলোরাডোর গভর্নর জারেড পলিস বলেন, ‘করোনার নতুন ধরনে আক্রান্ত ব্যক্তিকে এলবার্ট হাসপাতালের আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে। উৎপত্তি নিয়ে তদন্ত চলছে। এখন পর্যন্ত ওই ব্যক্তি সংস্পর্শে আসা কারো শরীরে ভাইরাসটির নতুন রূপের উপস্থিতির প্রমাণ পাওয়া যায়নি।’ এদিকে, বিশ্বব্যাপী আতঙ্ক ছড়িয়ে চলছে করোনার নতুন ধরনের এই প্রজাতি। এখন পর্যন্ত তিনটি নতুন রূপ শনাক্ত হয়েছে। এই রূপগুলো ইতোমধ্যে বিশ্বের ১৫টি দেশে ছড়িয়েছে। যা খুবই মারাত্মকজনক সংক্রমক, এটি ৭০ শতাংশ পর্যন্ত বেশি ছড়ায়। করোনার নতুন ধরনের (স্ট্রেইন) সংক্রমণ প্রথম শনাক্ত হয় যুক্তরাজ্যে। এরপর বিভিন্ন দেশে এই ভাইরাসের অস্তিত্ব টের পাওয়া যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের আগে সবশেষ পাওয়া যায় দক্ষিণ এশিয়ার ভারতে। এর আগে বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ১৪ ডিসেম্বর যুক্তরাজ্যে শনাক্ত হয় করোনাভাইরাসের নতুন রূপ। এ পর্যন্ত দক্ষিণ-পূর্ব ইংল্যান্ডের শতাধিক জায়গায় শনাক্ত হয়েছে এই ভাইরাস। আক্রান্ত হয়েছে সহস্রাধিক মানুষ। এছাড়া অস্ট্রেলিয়া, নেদারল্যান্ডস, ইতালি, নাইজেরিয়া, সিঙ্গাপুর, ফ্রান্স, জাপান, লেবানন, কানাডা, সুইডেন, ডেনমার্ক, স্পেন ও দক্ষিণ আফ্রিকায় শনাক্ত হয়েছে ভাইরাসটির নতুন স্ট্রেন। তবে, করোনাভাইরাসের এই নতুন রূপটি খুবই সংক্রামক হলেও এতে মৃত্যুহার বেশি কিনা সেটা এখন পর্যন্ত প্রমাণিত হয়নি।
অস্বাস্থ্যকর খাবারের বাণিজ্যিক প্রসার নিষিদ্ধ করছে যুক্তরাজ্য
২৮ডিসেম্বর,সোমবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রেস্টুরেন্টের অধিক চর্বি, চিনি ও লবণযুক্ত খাবারের ‘একটি কিনলে একটি ফ্রি’ অফার এবং চিনিযুক্ত কোমল পানীয় পুনরায় ফ্রি দেয়ার মতো প্রসার নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে যাচ্ছে যুক্তরাজ্য। ২০২২ সালের এপ্রিল থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে বলে সোমবার জানিয়েছে দেশটির সরকার। খবর রয়টার্সের। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়, স্থুলতা যুক্তরাজ্যের জনস্বাস্থ্যের সবচেয়ে বড় দীর্ঘ-মেয়াদী সমস্যা। দেশটিতে প্রাপ্তবয়স্কদের তিন ভাগের দুই ভাগ অতিরিক্ত ওজনের সমস্যায় ভুগছে। অতিরিক্ত ওজন বা স্থুলতার কারণে প্রতি তিনজনের একজন শিশু প্রাথমিক বিদ্যালয় ত্যাগ করে। এ ধরণের পণ্যের প্রসারের জন্য বানানো দোকানের বিজ্ঞাপনও এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বে। এছাড়া দোকানের চেকআউট, প্রবেশমুখ ও পণ্যের সারির শেষেও এসব বিজ্ঞাপন দেখানো যাবে না। যুক্তরাজ্যের জনস্বাস্থ্য বিষয়ক মন্ত্রী জো চার্চিল বলেন, স্বাস্থ্যসম্মত পছন্দই যে সহজ পছন্দ তা নিশ্চিত করতে আমরা প্রসার নিষিদ্ধসহ বেশ কিছু ব্যবস্থা নিয়েছি। এর মাধ্যমে এমন একটি পরিবেশ তৈরি করা হচ্ছে যা প্রত্যেককে নিয়মিত স্বাস্থ্যসম্মত খাবার খেতে সহযোগিতা করবে। জাতির স্বাস্থ্যের উন্নতিতে এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। গত জুলাইতে যুক্তরাজ্য জাঙ্ক ফুডের একটি কিনলে একটি ফ্রি অফার নিষিদ্ধের প্রস্তাব দেয়। এছাড়া রাত ৯টার আগে টেলিভিশন ও অনলাইনে জাঙ্ক ফুডের বিজ্ঞাপন প্রচারেও নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেয়। গত মাসে আরও এক ধাপ এগিয়ে সরকার অস্বাস্থ্যকর খাবারের অনলাইন বিজ্ঞাপনে সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রস্তাব দেয়।
পাকিস্তানে লাশ বহনকারী হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, চার সেনা নিহত
২৭ডিসেম্বর,রবিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলে একটি সামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে দুই পাইলটসহ চার সেনাসদস্য নিহত হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। দেশটির আন্তঃবাহিনী জনসংযোগের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে বলে খবর প্রকাশ করেছে পাকিস্তানের গণমাধ্যম ডন। আইএসপিআর জানায়, সাকদু এলাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল থেকে হেলিকপ্টারটি দিয়ে আবদুল কাদের নামে এক সিপাহির লাশ আনা হচ্ছিল। গিলগিট বালটিস্তান পার্বত্য অঞ্চলের মিনিমার্গ এলাকায় যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন পাইলট মেজর এম হুসেন, কো পাইলট মেজর আয়াজ হুসেন, নায়েক ইনজিমাম আলম ও সিপাহী মুহাম্মদ ফারুক।

আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর