ছয় মাসে ১২ শিশুসহ ৫৪ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে ইসরায়েল
৩১জুলাই২০১৯,বুধবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চলতি বছরের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত অন্তত ৫৪ জন ফিলিস্তিনি নাগরিককে হত্যা করেছে ইসরায়েলি বাহিনী। মঙ্গলবার ফিলিস্তিন ভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন আল মিজান সেন্টারের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। খবর তুরস্কের বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সির। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাজা উপত্যকায় চালানো এই হত্যাকাণ্ডে নিহতদের মধ্যে ১২ শিশু ও ৪ জন নারীও রয়েছেন। সেখানে বলা হয়, এসব হত্যাকাণ্ড সংঘটনে ইসরায়েলি সেনারা অত্যন্ত শক্তিশালী মারণাস্ত্র ব্যবহার করেছে। সংস্থাটি বলছে, গাজায় বসবাসরত ফিলিস্তিনিদের ওপর দখলদারদের হামলা-আক্রমণ পর্যবেক্ষণ করে চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসের পরিসংখ্যান এটি। তারা আরও জানায়, জানুয়ারি থেকে ইসরায়েলিদের হামলায় ৫৪ জন ফিলিস্তিনি মুসলিম নিহত হয়েছে। পাশাপাশি আহত হয়েছে কমপক্ষে তিন হাজার ৭২৩ জন বেসামরিক নাগরিক। তাদের মধ্যে রয়েছে এক হাজার ২২৬ শিশু ও ১৭৯ জন নারী। আল মিজান সেন্টার জানিয়েছে, গাজা উপত্যকা সীমান্ত বেষ্টনীর কাছে প্রতি সপ্তাহে অনুষ্ঠিত মিছিল গ্রেট মার্চ অব রিটার্ন-এ ইসরায়েলি সৈন্যদের আক্রমণে সবচেয়ে বেশি ফিলিস্তিনি হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। হামলার পাশাপাশি গত ছয় মাসে গাজা থেকে ২২ শিশুসহ ৮০ জন ফিলিস্তিনিকে আটক করা হয়েছে। এমনকি আটককৃতদের মধ্যে মুহাম্মাদ রবি ইলইয়ান নামে তিন বছর বয়সী এক শিশুও রয়েছে।
সিঙ্গাপুরে ডেঙ্গু রোগী ৮ হাজার ৯ জনের মৃত্যু
৩০জুলাই২০১৯,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: এ বছর সিঙ্গাপুরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত নয়জন প্রাণ হারিয়েছেন। গতকাল সোমবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও জাতীয় পরিবেশ সংস্থা(এনইএ) এক যৌথ বিবৃতিতে এ কথা জানায় বলে স্থানীয় গণমাধ্যম চ্যানেল নিউজ এশিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া নয় ব্যক্তির মধ্যে চারজন পুরুষ গত ৩০ জুন থেকে ১৬ জুলাইয়ের মধ্যে মারা গেছেন। নয়জনের মধ্যে হৌগ্যাং এভিনিউ ফাইভ এলাকায় ৩০ জুন ডেঙ্গুতে প্রথম ব্যক্তি (৭০) মারা যান। এরপর ওই এলাকায় ১২ জুলাই পর্যন্ত আরো চারজন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়। গত ১৬ জুন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে আরো তিন ব্যক্তির মৃত্যু হয়। ইউনোস ক্রিসেন্ট এলাকার বাসিন্দা ৭৭ বছর বয়সী এক ব্যক্তি এই তিনজনের একজন। এরপর ২০ জুলাই পর্যন্ত এই এলাকায় ছয়জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হন। এনইএ কর্তৃপক্ষ জানায়, ২৮ জুন ইউনোস ক্রিসেন্ট এলাকা ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে আটটি মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করা হয়। এনইএ আরো জানায়, বেডক রিজার্ভয়ার রোডে বসবাসরত ৬৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তি ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। ওই এলাকায় ২০ জুলাই পর্যন্ত ছয়জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয় বলে এনইএ জানায়। এনইএ কর্তৃপক্ষ এলাকাটি থেকে ১১টি মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করে। এগুলোর মধ্যে পাঁচটি প্রজননস্থল ছিল বাসাবাড়ির প্রাঙ্গণে। সিঙ্গাপুরে ডেঙ্গুতে মারা যাওয়া সর্বশেষ চারজনের মধ্যে সম্প্রতি যিনি মারা গেছেন তাঁর বয়স ৪৬ বছর। ২০১৬ সালে সিঙ্গাপুরে ডেঙ্গুতে সবচেয়ে বেশি ১২ জনের মৃত্যু হয়। এর আগে চলতি বছরের শুরুতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা যান পাঁচজন। গত মাসে ৮৪ বছর বয়সী এক নারী ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। মে মাসে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা যান ৬৩ বছর বয়সী এক ব্যক্তি। মার্চে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা যান ৭১ বছরের এক বৃদ্ধা। আর ফেব্রুয়ারিতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারান আরো দুজন। এনইএ কর্তৃপক্ষ জানায়, চলতি বছরের ২০ জুলাই পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন আট হাজার ২০ জন।
আরব আমিরাতে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আলোচনা সভা
২৮জুলাই২০১৯,রবিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশ ও জাতির উন্নয়ন হয় বলে মন্তব্য করেছেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন নামের একটি সংগঠনের নেতারা। শুক্রবার রাতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের আজমানে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে নতুন কমিটির পরিচিতি সভায় বক্তারা আরো বলেন, বাংলাদেশ এখন বিশ্বের উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। সংগঠনের সভাপতি হাসান জাকিরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ডা: মাসুদ সওয়ারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি মোহাম্মদ মনসুর সবুর।
ফিলিপাইনে শক্তিশালী দুটি ভূমিকম্পে ৮ জনের মৃত্যু
২৭জুলাই২০১৯,শনিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ফিলিপাইনে শক্তিশালী দুটি ভূমিকম্পে অন্তত আটজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে আরও ৬০ জন। আজ শনিবার সকালে দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় একটি দ্বীপে ভূমিকম্প দুটি আঘাত হানে। প্রথম ভূমিকম্পটি যখন আঘাত হানে তখন বেশিরভাগ মানুষ ঘুমাচ্ছিল বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা। এতে করে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। বার্তাসংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, স্থানীয় সময় ভোর ৪টা ১৬ মিনিটে দেশটির বৃহত্তম লুজন দ্বীপের উত্তরে বাতানেস প্রদেশের ইতবায়াত নামক শহরে প্রথম ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। শক্তিশালী এ ভূমিকম্পে প্রকম্পিত হয় গোটা শহর। রিখটার স্কেলে যার মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৪। এর পর স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ৩৭ মিনিটে ইতবায়াতে দ্বিতীয় ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। এর মাত্রা প্রাথমিকভাবে ৬ দশমিক ৪ মাত্রার বলা হলেও পরে তা কমিয়ে ৫ দশমিক ৯ বলে জানানো হয়। ভূমিকম্পে বাড়িঘর ভেঙ্গে যাওয়াসহ বিভিন্ন ভবন ভয়াবহভাবে প্রকম্পিত হয়। এতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তবে প্রত্যাশিত আফটার শক হলেও সুনামির শঙ্কা নেই বলে জানিয়েছে ফিলিপাইন সরকারের ভূমিকম্পবিষয়ক দপ্তর।
চলে গেলেন তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্ট বেজি সাইদ এসেবসি
২৬জুলাই২০১৯,শুক্রবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্ট বেজি সাইদ এসেবসি মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৯২ বছর। তার কার্যালয় সূত্রে এ কথা জানা গেছে। তিনি উত্তর আফ্রিকার এই দেশের গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রথম নেতা। অভিজ্ঞ এই রাজনীতিক ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের পর সবচেয়ে প্রবীণ রাষ্ট্রপ্রধান ছিলেন। দেশটির দীর্ঘদিনের শাসক জিন আল আবিদিন বেন আলী আরব বসন্তের আন্দোলনের সময় ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার তিন বছর পর ২০১৪ সালে বেজি সাইদ তিউনিসিয়ার দায়িত্ব নেন। জুনের শেষ দিকে মারাত্মক অসুস্থ অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার তাকে নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে ফিরিয়ে আনা হয়েছিল।
ইউরোপজুড়ে তাপমাত্রা বৃদ্ধির রেকর্ড
২৫জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: শীতল ইউরোপ উপমহাদেশ ক্রমাগত গরম হয়ে উঠছে। তাপমাত্রা বৃদ্ধির হার অতীতের সব রেকর্ডকেই ছাড়িয়ে যাচ্ছে। প্যারিসসহ ফ্রান্সের বিভিন্ন স্থানের পাশাপাশি জার্মানি, বেলজিয়াম, নেদারল্যান্ডস, লুক্সেমবার্গ ও সুইজারল্যান্ডের বিভিন্ন অংশে আজ বৃহস্পতিবার তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যেতে পারে। বেলজিয়াম ও জার্মানিতে তাপমাত্রা বৃদ্ধির পরিমাণ অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। অন্যদিকে, নেদারল্যান্ডসে ৭৫ বছরের মধ্যে এবারের তাপমাত্রা সর্বোচ্চ বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে এখানেই শেষ নয়, আরো তাপমাত্রা বৃদ্ধির আশঙ্কা করা হচ্ছে। এদিকে, তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ায় বয়স্ক ও অসুস্থদের সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। কারণ, ইউরোপের শহরগুলোর বাসাবাড়ি, অফিস, স্কুল অথবা হাসপাতালগুলোতে এয়ারকন্ডিশন (এসি) তেমন একটা নেই। গরম থেকে বাঁচতে বুধবার ইউরোপের একটি কৃত্রিম ঝর্ণার পানিতে শিশুদের শরীর ভেজাতে দেখা যায়। গ্রীষ্মে ইউরোপের তেমন একটা বৃষ্টিপাত না হওয়ায় আবহাওয়া এমনিতেই রুক্ষ থাকে। ফলে গরম, বাতাস ও ঝড় থেকে সম্ভাব্য বজ্রপাতে অগ্নিকাণ্ডের বড় ধরনের ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। এত গরমের কারণ কী? যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়াবিদ রিয়ান মাউয়ে বলেন, ইউরোপে দুই মাসের মধ্যে দ্বিতীয়বারের মতো রেকর্ড তাপমাত্রা বৃদ্ধির উপকরণগুলোর সঙ্গে উত্তর আফ্রিকা থেকে আসা গরম ও শুষ্ক বাতাসের উপকরণের মধ্যে মিল রয়েছে। উত্তর আফ্রিকা থেকে আসা এ বাতাসগুলো আটলান্টিক ও পূর্ব ইউরোপের মধ্যে ঠাণ্ডা ও ঝড়ো সিস্টেমের মধ্যে আটকে গেছে। এ গরম কখন শেষ হবে? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কয়েক দিনের মধ্যেই তাপমাত্রা হ্রাস পেতে শুরু করবে। সপ্তাহ শেষে সেটা ব্যাপকভাবে হ্রাস পেতে পারে।
পারস্য উপসাগরে মার্কিন জোটে সেনা পাঠাবে না জাপান
২৪জুলাই২০১৯,বুধবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: এশিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম মিত্র জাপান জানিয়েছে, তারা পারস্য উপসাগরীয় এলাকায় বাণিজ্যিক জাহাজের নিরাপত্তা দেয়ার নামে আমেরিকা যে সামরিক জোট গঠনের চেষ্টা করছে তাতে সেনা পাঠাবে না। জাপানের মন্ত্রী পরিষদের সচিব ইয়োশিহিদি সুগা মঙ্গলবার এ কথা বলেছেন। তিনি বলেন, দেশের বর্তমান অবস্থান নিয়ে আমাদের প্রতিরক্ষামন্ত্রী তাকেশি আয়া আগে যা বলেছেন তাতে কোনও পরিবর্তন আসেনি। জাপান সরকারের মুখপাত্র সুগা বলেন, প্রতিরক্ষামন্ত্রী আয়া আগে যা বলেছেন সেখানে কোনো পরিবর্তন ঘটেনি। এর আগে প্রতিরক্ষামন্ত্রী তাকেশি আয়া গত সপ্তাহে বলেছিলেন যে, মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটে সেনা পাঠানোর কোনও পরিকল্পনা নেই তার দেশের। মধ্যপ্রাচ্যে পারস্য উপসাগরের ওপর দিয়ে চলাচল করা বাণিজ্যিক জাহাজগুলোর নিরাপত্তা ও নজরদারি বাড়ানোর লক্ষ্যে প্রস্তাবিত সামরিক জোটের জন্য যুক্তরাষ্ট্র তার মিত্রদেশগুলোর সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করছে বলে কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে। মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপেদষ্টা জন বোল্টনের চলমান টোকিও সফরের সময় মধ্যপ্রাচ্যে সেনা পাঠানোর বিষয়টি তার আলোচ্য সূচিতে গুরুত্ব পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সোমবার বোল্টন জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তারো কানো, প্রতিরক্ষামন্ত্রী আয়া এবং দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা শোতারু ইয়াচির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এদিকে জাপানি সংসদের উচ্চকক্ষের নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের জোট সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার পর এক সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন তিনি। সেখানে আবে বলেন, ইরানের সঙ্গে আমাদের দীর্ঘদিনের বন্ধুত্ব রয়েছে এবং দেশটির প্রেসিডেন্টসহ বহু নেতার সঙ্গে আমার বৈঠক হয়েছে। যেকোনো সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে আমরা উত্তেজনা কমানোর জন্য সবরকমের চেষ্টা চালাব। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র নতুন জোট গঠন করে কী করতে চায় সে সম্পর্কে পরিপূর্ণ তথ্য নেয়া দরকার।
ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন
২৩জুলাই২০১৯,মঙ্গলবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বরিস জনসন ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন। সাবেক ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন ও বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্টের মধ্যে অনুষ্ঠিত ভোটে বরিস জনসন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। দুই নেতার মধ্য থেকে সোমবার (২২ জুলাই) প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনে ভোট দেন ব্রিটেনের ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টির ১ লাখ ৬০ হাজার নিবন্ধিত নেতা। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে কনজারভেটিভ পার্টির নেতাদের মধ্যে লন্ডনের সাবেক মেয়র বরিস জনসনের জনপ্রিয়তা বেশি বলে ব্রিটিশ গণমাধ্যমে প্রকাশ পায়। দেশটির সংবিধান অনুযায়ী ক্ষমতাসীন দলের নেতাই প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন। সেই নিয়ম অনুযায়ী বুধবার (২৪ জুলাই) বিকেলে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন বরিস জনসন। উল্লেখ্য, ব্রেক্সিট ইস্যুতে সমঝোতায় পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়ে চলতি বছরের মে মাসে পদত্যাগের ঘোষণা দেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। ৭ জুন যুক্তরাজ্যের ক্ষমতাসীন দলের নেতার পদ থেকে থেরেসার সরে দাড়ানোর পর নতুন নেতা নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু করে রক্ষণশীল দল। গত ১৩ জুন থেকে শুরু চার দফার ভোটের প্রায় সবগুলোতেই এগিয়ে ছিলেন বরিস জনসন।
ফিলিস্তিনিদের ঘরবাড়ি ভেঙে দিচ্ছে ইসরায়েল
২৩জুলাই২০১৯,মঙ্গলবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের বাড়িঘর ধ্বংস করে দিচ্ছে ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ফিলিস্তিন স্বশাসন কর্তৃপক্ষ। ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, ইসরায়েলের অপরাধযজ্ঞের বিষয়ে গোটা বিশ্ব নীরব রয়েছে। তাদের এই নিরবতা ইসরায়েলিদের অপরাধ করার ক্ষেত্রে আরও বেশি উৎসাহিত করেছে। অবিলম্বে ধ্বংসযজ্ঞ থামাতে ইসরায়েলের ওপর চাপ প্রয়োগের জন্য আন্তর্জাতিক সমাজের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে স্বশাসন কর্তৃপক্ষ। স্থানীয় সময় সোমবার ভোররাত ৪টার দিকে থেকে পূর্ব বায়তুল মুকাদ্দাস বা পূর্ব জেরুজালেমের উপকণ্ঠে ফিলিস্তিনিদের বাড়িঘর ভেঙে ফেলতে শুরু করে ইসরায়েল। বাড়িঘরগুলো পূর্ব জেরুজালেমের শেষ প্রান্ত সুর বাহার এলাকায় অবস্থিত। সেখানকার বাসিন্দারা বলছেন, তারা ফিলিস্তিন স্বশাসন কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়েই বাড়িঘর নির্মাণ করেছিলেন। কিন্তু ইসরায়েল পশ্চিম তীরের অবশিষ্ট ভূমিও দখলে নিতে বাড়িঘর ভেঙে দিচ্ছে। সুর বাহারের সীমানা ঘেঁষা গ্রাম ওয়াদি হুমুসে সোমবার ৭০০ ইসরায়েলি পুলিশ ও ২০০ সেনা বাড়িঘর ধ্বংসের অভিযানে অংশ নিয়েছে। দখলদাররা কয়েকটি স্ক্যাভেটর নিয়ে অভিযান শুরু করে এবং সেখানে অন্তত ১০টি বাড়ি ভেঙে ফেলা হয়েছে। যাদের ঘরবাড়ি ভাঙা হয়েছেন তাদের একজন হলেন ইসমাইল আবাদিয়েহ। আবাদিয়েহ সাংবাদিকদের বলেছেন, তিনি পরিবার নিয়ে পথে বসে গেছেন। ফাদি আল-ওয়াহাশ নামে অন্য একজন সদ্য তার বাড়ি নির্মাণ শুরু করছিলেন। তার মধ্যেই সেটি ভেঙে ফেলা হয়েছে। তিনি বলেন, ফিলিস্তিন স্বশাসন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে প্রয়োজনীয় অনুমতি নিয়েছিলাম। আমি ভেবেছিলাম, আমি ঠিকঠাক নিয়ম মেনেই বাড়ি নির্মাণ করছি। কিন্তু তারা আমার নির্মাণাধীন বাড়ি ভেঙে দিয়েছে।

আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর