বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারবর্গের উদ্যোগে অস্বচ্ছল মানুষের মাঝে উপহার বিতরণ
১৩,জুলাই,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ১৩ জুলাই চট্টল শার্দুল মরহুম জহুর আহমদ চৌধুরীর ৪৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দামপাড়া পল্টন রোডস্থ মরহুমের বাসভবনে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারবর্গের উদ্যোগে অস্বচ্ছল মানুষের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অস্বচ্ছল মানুষের মাঝে এই উপহার তুলে দেন।বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারবর্গের চেয়ারম্যান মো জসিম উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্ব ও মহাসচিব উত্তম বড়ুয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে মুক্তি যোদ্ধা মাহফুজ আহমদ, মোহাম্মদ আলী,কুতুবউদ্দিন চৌধুরী, মো মাসুম, মো মঞ্জু, মো নাসির, মো বাবুল, মো মিন্টু, খালেদ মোহাম্মদ আলী টিটু, রনি সরকার, মে তাকিব,মো ফয়সাল, মো আকবর, মিন্টু দেব,হাবিবুর রহমান হাবিব, নূর হোসেন দুলাল,শেখ সাদি,মো বেলাল,সুজন বড়ুয়া, মেজবাহ উদ্দিন আজাদ, শেখ ফরিদ, মো আজিজ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম মহানগর ইউনিটের সহকারী কমান্ডার খোরশেদ আলম,মো সাজ্জাদ হোসেন ফয়সাল, জাহেদ হাসান, মো দাউদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। দোয়া মোনাজাত পাঠ করেন মোহাম্মদ আলী।
করোনায় আক্রান্ত সিএমপির উপ-কমিশনার মিজান আর নেই
১৩,জুলাই,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনো ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) উপ-কমিশনার মিজানুর রহমান মৃত্যুবরণ করেছেন। সোমবার (১৩ জুলাই) ভোরে ঢাকার রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (জনসংযোগ) মির্জা সায়েম মাহমুদ নিউজ একাত্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ কর্মকর্তা মির্জা সায়েম মাহমুদ জানান, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৮ জুন রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি হন সিএমপির নগর গোয়েন্দা (দক্ষিণ) বিভাগের উপ-কমিশনার মিজানুর রহমান। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার ভোরে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার মিজানুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন পুলিশ কমিশনার মো. মাহবুবর রহমান। এক শোক বার্তায় তিনি মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন। তার শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।
৯ নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ডের ১১০০ মহিলার মাঝে মেয়রের সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ
১২,জুলাই,রবিবার,শারমিন আকতার,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন বস্তি উন্নয়ন ও দারিদ্র্য হ্রাসকরণ কর্মসূচির আওতায় ৯ নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ডের ১১০০ জন মহিলার মাঝে কোভিড-১৯ সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। আজ ১২ জুলাই ওয়ার্ড কার্যালয় প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। মেয়র নিজ হাতে উপস্থিত ৩০০ জনের মাঝে সুরক্ষা সামগ্রীগুলো তুলে দেন। বাকি ৮০০ জনকে স্থানীয় প্রতিনিধিদের মাধ্যমে বিতরণ করা হবে। অনুষ্ঠানে কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসিম, সংরক্ষিত কাউন্সিলর আবিদা আজাদ, মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম, জাইকা'র বস্তি উন্নয়ন ও দারিদ্র্য হ্রাসকরণ কর্মসুচির সিনিয়র কর্মকর্তা সনজিত কুমার দাশ, চসিক বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা মইনুল হোসেন আলী চৌধুরী জয়, উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহবায়ক এস এম আলমগীর প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
নগরে মোটরসাইকেল চুরি, রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় গ্রামে বিক্রি
১২,জুলাই,রবিবার,রাজিব দাশ,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম মহানগরের বিভিন্ন এলাকা থেকে চুরি করেন মোটর সাইকেল। চুরির পর এসব মোটর সাইকেল নিয়ে যাওয়া হয় গ্রাম এলাকায়। এসব মোটর সাইকেলের জাল কাগজপত্র তৈরি করা হয়। পরে ভুয়া নাম্বার প্লেট বসিয়ে বিক্রি করা হয়। বিক্রির সময় বলা হয় এসব মোটর সাইকেল পুলিশ আটক করবে না। আটক করলেও স্থানীয় বড় ভাইয়েরা ছাড়িয়ে নেবেন। কিছু রাজনৈতিক নেতার ছত্রছায়ায় মূলত তারা এমন অপকর্ম করে আসছে। শুক্রবার থেকে শনিবার (১১ জুলাই) পর্যন্ত নগরের বিভিন্ন এলাকায় ও মিরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ এলাকা থেকে মোটরসাইকেল চোর চক্রের সাত সদস্যকে গ্রেফতারের পর এসব তথ্য জানতে পেরেছে পুলিশ। গ্রেফতার সাতজন হলো- মেহেদি হাসান হৃদয় (২২), সমীর কান্তি বণিক (২৮), মিজানুর রহমান সম্রাট (২৫), বেলায়েত হোসেন বাদশা (২২), অনিক দেবনাথ (২১), রেজাউল করিম বাচ্চু (৪৫) এবং মো. আসাদুজ্জামান (৩০)। তাদের কাছ থেকে চারটি চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (কোতোয়ালী জোন) নোবেল চাকমার নেতৃত্বে পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুজ্জামান, উপ-পরিদর্শক (এসআই) সজল দাশসহ একটি টিম তাদের গ্রেফতার করে। কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান, শুক্রবার সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জুবলী রোড এলাকায় অভিযান চালিয়ে মেহেদি হাসান হৃদয় ও সমীর কান্তি বণিককে আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি চাবি উদ্ধার করা হয়। কোতোয়ালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুজ্জামান নিউজ একাত্তরকে বলেন, নগরের বিভিন্ন এলাকায় মোটর সাইকেল চুরি করে এ চক্রের সদস্যরা। কোতোয়ালী থানার বিভিন্ন এলাকা থেকে মোটরসাইকেল চুরির সময় ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরায় ধরা পড়া কিছু ফুটেজ আমরা সংগ্রহ করেছি। ফুটেজে দেখা গেছে- লক করা একটি মোটর সাইকেলের ঘাড় ভেঙে মাস্টার চাবি দিয়ে চালু করে কয়েক মিনিটের মধ্যে পালিয়ে যায়। গ্রেফতার বেলায়েত হোসেন বাদশা বিরুদ্ধে একটি, মিজানুর রহমান সম্রাটের বিরুদ্ধে চারটি এবং অনিক দেবনাথের বিরুদ্ধে একটি মামলা রয়েছে বলে জানান মো. কামরুজ্জামান। কোতোয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সজল দাশ বলেন, এ চক্রের সদস্যরা চট্টগ্রাম মহানগরের বিভিন্ন এলাকা থেকে চুরি করেন মোটর সাইকেল। চুরির পর এসব মোটর সাইকেল নিয়ে যাওয়া হয় গ্রাম এলাকায়। এসব মোটর সাইকেলের জাল কাগজপত্র তৈরি করা হয়। পরে ভুয়া নাম্বার প্লেট বসিয়ে বিক্রি করা হয়। বিক্রির সময় বলা হয় এসব মোটর সাইকেল পুলিশ আটক করবে না। আটক করলেও স্থানীয় বড় ভাইয়েরা ছাড়িয়ে নেবেন। কিছু রাজনৈতিক নেতার ছত্রছায়ায় মূলত তারা এমন অপকর্ম করে আসছে।
প্রবাসীরাই বাংলাদেশের অর্থনীতিতে রক্ত সঞ্চালন করে যাচ্ছেন: মেয়র আ জ ম নাছির
১১,জুলাই,শনিবার,রাজিব দাশ,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, প্রবাসীরা দেশের অর্থনীতির চালিকাশক্তি। তাদের পরিশ্রমের টাকায় দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এই প্রবাসীরাই বাংলাদেশের অর্থনীতিতে রক্ত সঞ্চালন করে যাচ্ছেন। দেশের উন্নয়নে তাদের অবদান অপরিসীম। এই দুর্যোগকালীন সময়ে জুন মাসে রেমিটেন্স আদায়ের হার ছিল সর্বোচ্চ। প্রবাসী বাংলাদেশীরা সারাবিশ্বে মেধা ও মানবিকতার স্বাক্ষর রাখছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এক কোটিরও বেশি প্রবাসী রয়েছে, তারা তাদের শ্রম আর মেধার স্বাক্ষর রাখতে পারছে বলেই সেখানে তারা সাফল্যের সাথে থাকতে পারছে। তিনি আজ ১১ জুলাই, শনিবার সকালে নগরীর চান্দগাঁওস্থ খাজা রোডে নাসির মোহাম্মদ চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে চট্টগ্রাম সমিতি, উত্তর আমেরিকার উদ্যোগে গৃহহীন হতদরিদ্র ও এতিমদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে চট্টগ্রাম সমিতি, উত্তর আমেরিকার উপদেষ্টা কামরুদ্দিন আহমদ, সভাপতি আবদুল হাই, সহ-সভাপতি খোকন কে চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন, মুজিবুদ্দৌলা চৌধুরী,গোলাম রব্বানী, মোহাম্মদ আলী, এনাম চৌধুরী, সামসুল আলম চৌধুরী, মাসুদ হোসেন সিরাজী, মতিউর রহমান, আশরাফ আলী খান লিটন, মহিউদ্দিন লাবু, জাফর শফি, শফিউল আজম সিকদার, পরিমল কান্তি চৌধুরী, সাহাব উদ্দিন চৌধুরী লিটন, তারেক ইকবাল চৌধুরী, ফয়সাল বাপ্পী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। মেয়র নাছির বলেন, আমেরিকায় বসবাসকারী প্রবাসী বাংলাদেশীরা অনেকেই কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। সেখানকার অবস্থা আমাদের চেয়েও খারাপ। সে অবস্থায়ও দেশের মানুষের প্রতি ভালবাসার টানে যারা ত্রাণ উপহার দেওয়ার জন্য হাত বাড়িয়েছেন সত্যিকার অর্থে তারা অনেক মহৎ। মেয়র বলেন, দুর্যোগ মহামারিতে যারা মানবিক সহায়তা নিয়ে এগিয়ে আসেন তারাই শ্রেষ্ঠ মানুষ হিসেবে বিবেচিত হয়। তিনি আরো বলেন করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকল্পে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপে করোনা মোকাবিলায় আমরা সবাই একযোগে কাজ করছি। বিভিন্ন নিয়মনীতি অনুসরণ ও ছুটি থাকার দরুন অনেক দরিদ্র লোকের পক্ষে খাবার জোগাড় করা কষ্টসাধ্য হচ্ছে। সরকার তাদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণসহ যথাসম্ভব সহযোগিতা করার চেষ্টা করছে। পরিবেশ পরিস্থিতি বিবেচনায় ও প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী দুস্থদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণে আমেরিকা-চট্টগ্রাম সমিতি এগিয়ে আসায় তাদেরকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান মেয়র।
ফটিকছড়িতে পর্যটনের নতুন সম্ভাবনা হালদার বাঁধ
১১,জুলাই,শনিবার,সজল চক্রবর্ত্তী, ফটিকছড়ি (চট্টগ্রাম),নিউজ একাত্তর ডট কম: হালদা নদী, উপমহাদেশের একটি পরিচিতি নদীর নাম। মৎস্য প্রজননক্ষেত্র হিসেবে এ নদী দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বিখ্যাত একটি নদীর নাম। মৎস্য প্রজননক্ষেত্র হিসেবে এ নদী জেলে সম্প্রদায়ের কাছে আর্শীবাদ বটে, তবে ভাঙনের কবলে নিঃস্ব মানুষদের কাছে হালদা একটি আতংকের নাম। হালদার বুকে বাড়ী-ঘর, শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান বিলীন হয়েছে অগণিত। হালদা পাড়বাসী যখন সব হারিয়ে বিলীনের পথে, ঠিক সেই মুহুর্তে বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদানে হালদার দু'পাড়ে ব্লক বসিয়ে পাড়রক্ষা করা হয়েছে। এতে করে হালদা পাড়বাসীর বসতভিটা রক্ষা হওয়ার পাশাপাশি নতুন পযর্টন এলাকায় রুপান্তরিত হয়েছে এ হালদা পাড়। এ পাড়ের নাম এখন হালদা বীচ।
করোনা: চট্টগ্রামে নতুন আক্রান্ত ১৯২ জন
১১,জুলাই,শনিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে নতুন করে ১৯২ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এই দিন পরীক্ষা করা হয় ১ হাজার ৯৯টি নমুনা। এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১১ হাজার ৩৮৫ জনে। শনিবার (১১ জুলাই) সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়। প্রতিবেদন থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবসহ চট্টগ্রামের ৬টি ল্যাবে করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এরমধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ল্যাবে ১৪৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪৫ জন করোনা পজেটিভ রোগী শনাক্ত হয়। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ২২৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে শনাক্ত হয় আরও ২৫ জন। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ২৩৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৪ জন করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে (সিভাসু) ১২২টি নমুনা পরীক্ষা করে ১০ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া যায়। এছাড়া বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে ১৭৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৯ জন এবং শেভরণ ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে দুইদিনের ১৭৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ৫৮ জন শনাক্ত হয়। এইদিন কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ১৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে আরও একজন শনাক্ত হয়। চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৯৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নতুন আক্রান্ত হয়েছেন ১৯২ জন। এদের মধ্যে নগরে ১৫৮ জন এবং উপজেলায় ৩৪ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টা মৃত্যুবরণ করেছেন ২ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৫ জন।
বৃষ্টিতে ভোগান্তি, বন্দরে সতর্কতা সংকেত
১১,জুলাই,শনিবার,শারমিন আকতার,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: বন্দর নগরী চট্টগ্রামে অস্থায়ী দমকা হাওয়ার সঙ্গে বৃষ্টিতে দুর্ভোগে পড়েছেন নগরবাসী। শুক্রবার (১০ জুলাই) রাত থেকে থেমে থেমে বৃষ্টিতে নগরের কয়েকটি নিম্নাঞ্চলে সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা। শনিবার (১১ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে- চট্টগ্রামে বৃষ্টি আরও কয়েকদিন টানা থাকতে পারে। সেই সঙ্গে আকাশ আংশিক মেঘলা থেকে সাময়িকভাবে মেঘাচ্ছন্ন থাকতে পারে। চট্টগ্রামের কোথাও কোথায় অস্থায়ী দমকা হাওয়ার সঙ্গে মাঝারী থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। দক্ষিণ, দক্ষিণ পশ্চিম দিকে থেকে ঘণ্টায় ১২-১৮ কিলোমিটার বেগের বাতাস ৪৫-৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়তে পারে। পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাস কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ চৌধুরী জানান, শনিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ২৪ দশমিক ৫ মিলিমিটার বৃষ্টির রেকর্ড করা হয়েছে। তিনি বলেন, সাগর কিছুটা উত্তাল থাকায় চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া নদী বন্দরে ১ নম্বর নৌ সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এদিকে চট্টগ্রামে থেমে থেমে বৃষ্টিতে নগরের নিম্নাঞ্চলে জলাবদ্ধতা তৈরি হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন মানুষ। অনেকের নিচ তলার বাসা বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে গেছে। শনিবার সকালে কাজের প্রয়োজনে বাইরে আসা মানুষ বৃষ্টির কারণে দুর্ভোগে পড়েন। সড়কে গণপরিবহন কম থাকায় অনেকে বৃষ্টিতে ভিজেই কর্মস্থলে যোগ দেন।
চট্টগ্রামে আরও ১৬২ জনের করোনা শনাক্ত
১০জুলাই,শুক্রবার,শারমিন আকতার,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রামে ৭৮১টি নমুনা পরীক্ষায় আরও ১৬২ জনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে আরও তিন জনের। নতুন করে শনাক্ত হওয়া ১৬২ জনের মধ্যে ১১৭ জন নগরের ও ৪৫ জন বিভিন্ন উপজেলার। এ নিয়ে চট্টগ্রামে ১১ হাজার ১৯৩ জনের মধ্যে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৭ হাজার ৭৯৫ জন নগরের ও ৩ হাজার ৩৯৮ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। এদিকে, গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় চট্টগ্রাম নগরে ২ জন ও উপজেলায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন মোট ২১৩ জন। এর মধ্যে ১৫২ জন নগরের ও ৬১ জন উপজেলার বাসিন্দা। শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি এসব তথ্য জানিয়ে বলেন, বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত চট্টগ্রামের সরকারি-বেসরকারি ৬টি ল্যাব ও কক্সবাজার মেডিকেল ল্যাবে ৭৮১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৬২ জনের দেহে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এদের মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৬২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩৩ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। এর মধ্যে নগরের ১৬ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ১৭ জন আছেন। ফৌজদার হাটের বিআইটিআইডিতে ১৮১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৮ জনের দেহে করোনার জীবাণু পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ১২ জন নগরের ও ১৬ জন উপজেলা পর্যায়ের বাসিন্দা। এছাড়া চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ১৩২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৫ জনের করোনা মিলেছে। এর মধ্যে ২৩ জন নগরের ও ২ জন বিভিন্ন উপজেলার। এছাড়াও চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ইউনিভার্সিটির (সিভাসু) ল্যাবে ৭৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে চট্টগ্রামের ১৬ জনের করোনা মিলেছে। এর মধ্যে ১২ জন নগরের ও ৪ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের একজনের নমুনা পরীক্ষা করে তার করোনা শনাক্ত হয়নি। অন্যদিকে বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ১৪৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৩১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে, এর মধ্যে নগরের ২৮ জন ও উপজেলার ৩ জন আছেন। বেসরকারি শেভরণ ল্যাবে ৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ২৬ জন নগরের ও ৩ জন উপজেলার বাসিন্দা। উপজেলা পর্যায়ে নতুন শনাক্ত ৪৫ জনের মধ্যে বাঁশখালীর ৪, আনোয়ারার ১, চন্দনাইশের ১, পটিয়ার ১, রাঙ্গুনিয়ার ২, রাউজানের ৭, ফটিকছড়ির ৪, হাটহাজারীর ১৪, সন্দ্বীপের ২, মিরসরাইয়ের ৬ ও সীতাকুন্ডের ৩ জন আছেন। গত ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রামে ১৬ জন সুস্থ হয়েছেন, চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন মোট ১ হাজার ৩৪০ জন করোনা রোগী।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর