শুক্রবার, এপ্রিল ১৬, ২০২১
আধুনিক স্মার্ট বাকলিয়া গড়ার প্রতিশ্রুতি ডা. শাহাদাতের
২২,জানুয়ারী,শুক্রবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাকলিয়াকে আধুনিক স্মার্ট বাকলিয়া হিসেবে গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী শাহাদাত হোসেন। আজ শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) নগরীর বাকলিয়ার ১৭ ,১৮ ও ১৯ নম্বর ওয়ার্ডে গণসংযোগের সময় আয়োজিত বিভিন্ন পথসভায় শাহাদাত এ প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এ সময় গণসংযোগে অংশ নিয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন ও হাবিবুন নবী খান সোহেল, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্নী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বাবুল , সদস্য মীর হেলাল উদ্দিন, ১৭ নম্বর পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী এ কে এম আরিফুল ইসলাম (ডিউক) ও ১৯ নম্বর দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী ইয়াছিন চৌধুরী প্রমুখ। ধানের শীষের প্রার্থী শাহাদাত বলেন, বাকলিয়া আমার নিজের এলাকা। এখানকার মানুষের সঙ্গে আমার আত্মার সম্পর্ক। অনুন্নত বাকলিয়াকে বিএনপি ক্ষমতায় এসে শহরের রূপ দিয়েছিল। বিএনপিই অবহেলিত বাকলিয়াকে উন্নত এলাকায় পরিণত করেছিল। এরপর আর বাকলিয়ার প্রতি নজর দেয়নি বর্তমান সরকার। কথা দিচ্ছি মেয়র নির্বাচিত হলে মাদক, সন্ত্রাস ও আর্বজনামুক্ত আধুনিক-স্মার্ট বাকলিয়া গড়ে তুলব।
করোনা: ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে নতুন আক্রান্ত ৮৮ জন
২২,জানুয়ারী,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গত ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রামে ১ হাজার ৬২৯টি নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৮৮ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত ৩২ হাজার ৪৮৭ জন। এসময়ে করোনায় মৃত্যুবরণ করেনি কেউ। শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) সকালে সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, এইদিন কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাব ও চট্টগ্রামে ৮টি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা হয়। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৯৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ৬০২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে শনাক্ত হয় ৯ জন। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ৫৫৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩১ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ৩৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ২ জনের শরীরের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৫১টি নমুনা পরীক্ষা করে ১০ জন, শেভরণ ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ১৪৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ১১ জন এবং চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ২২টি নমুনা পরীক্ষা করে ৬ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। অন্যদিকে জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) ১০টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩ জনের করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। আবার কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ১১৩টি নমুনা পরীক্ষা করে কারো শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব মিলেনি। চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, গত ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় ৮৮ জন নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। এইদিন নমুনা পরীক্ষা করা হয় ১ হাজার ৬২৯টি। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নগরে ৭৯ জন এবং উপজেলায় ৯ জন।
পূর্ব মাদারবাড়ী-ফিরিঙ্গী বাজারে গণসংযোগ: বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা দিতে চান রেজাউল
২২,জানুয়ারী,শুক্রবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরীর পূর্ব মাদারবাড়ী ও ফিরিঙ্গী বাজার ওয়ার্ডে গতকাল বৃহস্পতিবার গণসংযোগ করেছেন মেয়র প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী। এসময় তিনি দৃষ্টিনন্দন নগরী গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে নৌকা প্রতীকে ভোট চান। গণসংযোগকালে বিভিন্ন পথসভায় রাখা বক্তব্যে তিনি বলেন, চট্টগ্রামে নাগরিক সেবার মানোন্নয়নে অনেক কিছু করার আছে। করোনায় আমরা সকলেই বুঝতে পেরেছি, আমাদের স্বাস্থ্যসেবার মান ও পরিধি বাড়ানো উচিৎ। মেয়র নির্বাচিত হয়ে আমি নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডের প্রত্যেকটিতে আধুনিক সুবিধাসম্পন্ন বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা ও মাতৃসদন গড়ে তুলতে চাই। সামাজিক শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে আমাদের কাজ করতে হবে। আমাদের সন্তানরা যাতে বিপথে না যায়, যাতে সুস্বাস্থ্য ও সুস্থ মানসিকতা নিয়ে বিকশিত হতে পারে তার ব্যবস্থা করতে হবে। এজন্য আমি নগরীতে পর্যাপ্ত খেলার মাঠ, বিনোদন কেন্দ্র ও সাংস্কৃতিক চর্চার ক্ষেত্র গড়ে তুলতে চাই। নগরীর যে সমস্ত রাস্তা ও গলিতে আলোর স্বল্পতা রয়েছে সেখানে পর্যাপ্ত আলোকায়নের ব্যবস্থা করতে চাই। নারী ও যুব সমপ্রদায়কে দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তরিত করতে কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে আরো অধিক হারে প্রকল্প নিতে চাই। আউট সোর্সিং এ দক্ষতা অর্জনে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে চাই। বন্দর নগরী চট্টগ্রামে তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নে সরকারের সাফল্যের সমস্ত সুবিধা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিশ্চিত করতে চাই। আবহমান কাল ধরে চট্টগ্রামের মানুষ যে সমপ্রীতির সাথে বসবাস করে আসছে তা আরো সুদৃঢ় করতে চাই। তিনি বলেন, আগামী ২৭ তারিখ সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। অন্ধগলির রাজাদের নজরদারিতে রাখতে হবে। তিনি ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে এসে স্বাধীনতা, গণতন্ত্র ও উন্নয়নের প্রতীক নৌকায় ভোট দিয়ে স্বপ্নের চট্টগ্রাম গড়তে শেখ হাসিনার কর্মযজ্ঞে অংশীদার হওয়ার আহ্বান জানান। গণসংযোগে রেজউল করিমের সাথে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, প্রচার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান, নগর আওয়ামী লীগ নতো মো. ফারুক, কাউন্সিলর প্রার্থী মো. সালাউদ্দিন, কাউন্সিলর প্রার্থী আতাউল্লা চৌধুরী, মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী লুৎফুন্নেসা দোভাষ বেবী প্রমুখ।
চসিক নির্বাচন: ২৫ জানুয়ারি থেকে সভা-সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা ইসির
২১,জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে সামনে রেখে ২৫ জানুয়ারি মধ্যরাত থেকে ২৯ জানুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় সব ধরনের সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার স্বাক্ষরিত গণবিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশনা দেয়া হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, স্থানীয় সরকার সিটি নির্বাচন বিধিমালা ২০১০ এর ৭৪ বিধান অনুসারে ভোটগ্রহণ শুরুর আগের ৩২ ঘণ্টা, ভোটগ্রহণের দিন এবং ভোটগ্রহণের পরের ৮৪ ঘণ্টা নির্বাচনী এলাকায় কোনো সভা আহ্বান, মিছিল বা শোভাযাত্রাসহ সব ধরনের নির্বাচনী প্রচারণা বন্ধ থাকবে। আগামী ২৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হচ্ছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচন। গত ৮ জানুয়ারি থেকে শুরু হয় নির্বাচনী প্রচারণা। প্রচারণা শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অর্ধশতাধিক অভিযোগ জমা পড়ে নির্বাচন কমিশনে।
চট্টগ্রামে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ৬৭ জন
২১,জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৬৭ জনের। এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩২ হাজার ৪০৩ জন। এসময়ে করোনায় মৃত্যুবরণ করেনি কেউ। বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) সকালে সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানা যায়, চট্টগ্রামের ৭টি ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৫২৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৮৩টি, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) ল্যাবে ৮০৫টি, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ৩১১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে চবি ল্যাবে ১৯ জন, বিআইটিআইডি ল্যাবে ৮ জন, চমেক ল্যাবে ১৪ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এছাড়া, বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৪৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ৬ জন, শেভরন ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ১৩৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৫ জন এবং চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ২৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ১ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এদিন জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) ৯টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩ জনের পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। তবে এদিন চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাব কোনো নমুনা পরীক্ষা হয়নি। কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ১১০টি নমুনা পরীক্ষা করে একজনের শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব মেলেছে। চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, গত ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় ৬৭ জন নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১ হাজার ৫২৬টি। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নগরে ৫৯ জন এবং উপজেলায় ৮ জন।
বাণিজ্যবান্ধব নিরাপদ নগরী গড়ার প্রতিশ্রুতি রেজাউলের
২১,জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে ঘিরে আনুষ্ঠানিক প্রচারণার ১৩তম দিনে নগরীর পাথরঘাটা, বক্সিরহাট ও দেওয়ান বাজার ওয়ার্ডে গণসংযোগ করেছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়রপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী। গণসংযোগকালে তিনি এলাকাবাসীকে সালাম ও শুভেচ্ছা জানান এবং নৌকা প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করেন। তিন ওয়ার্ডের বিভিন্ন পথসভায় ভোটারদের উদ্দেশ্যে রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, কর্ণফুলী নদীর তীর ঘেঁষে গড়ে উঠা ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রাণকেন্দ্র বলা হয় বক্সিরহাটকে। নানা কারণে জৌলুস হারাতে বসেছে ঐতিহ্যবাহী এই ব্যবসাকেন্দ্র। দখল দূষণে চাক্তাই খাল ভরাট হয়ে চট্টগ্রামের দুঃখে পরিণত হওয়ায় আমিই প্রথম এই খাল খননের জন্য সংগ্রাম কমিটি গঠন করেছিলাম। সিডিএ তত্বাবধানে পরিচালিত চলমান জলাবদ্ধতার মেগাপ্রকল্পের মাধ্যমে সেই সংকট অচিরেই দূর হবে। মেয়র পদে নৌকায় ভোট চেয়ে রেজাউল করিম চৌধুরী আরো বলেন, নির্বাচিত হলে আমি এলাকার নিত্যদিনের যানজট, জলজট, মাদক, সন্ত্রাস ও দুর্নীতি দূর করে স্বাচ্ছন্দ্যময়, বাণিজ্যবান্ধব, নান্দনিক স্মার্ট সিটি গড়তে ব্যবসায়ী সংগঠনসহ সকল শ্রেণিপেশার লোকের পরামর্শ নিয়ে কাজ করব এবং এলাকায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নির্মাণ, বিনোদন কেন্দ্র স্থাপন ও স্বাস্থ্যসেবাসহ নানামুখী উন্নয়ন কাজ গতিশীল করব। তিনি আরো বলেন, ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগের ইশতেহারে দিন বদলের সনদ ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার জানালে তরুণ প্রজন্মের ভোটার একে স্বাগত জানায় এবং অকুন্ঠ সমর্থন ও ভোট দিয়ে নৌকাকে বিজয়ী করতে অগ্রণী ভূমিকা রাখে। অথচ দেশের স্বাধীনতায় যারা বিশ্বাসী নয় তারা ডিজিটাল বাংলাদেশ নিয়ে ঠাট্টায় মেতেছিল। অতীতেও তারা আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে দেশ বিক্রি হয়ে যাবে, মসজিদে উলুধ্বনি উঠবে- ইত্যাদি বলে অপপ্রচার চালিয়েছে। অথচ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ টানা ১২ বছর ক্ষমতায়। দেশ বিক্রি হয়নি, বরং দেশের ভূ-সীমা বেড়েছে। সমুদ্র সীমা বেড়েছে দ্বিগুণ। মসজিদে উলুধ্বনি ওঠেনি বরং শেখ হাসিনার সরকার প্রতিটি উপজেলায় আধুনিক মসজিদ প্রতিষ্ঠা করেছে, মসজিদের ইমামদের সরকারি ভাতা ও সম্মানি প্রদান করেছে। তিনি বলেন, ব্যবসায়ীদের এখন ব্যাংকিং কাজে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়াতে হয় না। স্কুল-কলেজে ভর্তি আবেদন, পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন, ফরম পূরণ ফি প্রদান ইত্যাদি এখন ঘরে বসে করা যায়। ধনী গরীব সকলেই মোবাইল ব্যবহার করতে পারে। বিএনপি নেতার এক লক্ষ, দেড় লক্ষ টাকার সিটিসেল মোবাইলের দিন বদলে দিয়ে সর্বনিম্ন ৫০০ টাকায়ও মোবাইল এসেছে বাজারে। যারা সাবমেরিন ক্যাবলে যুক্ত হলে দেশের তথ্য পাচার হবে বলে আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি থেকে বাংলাদেশকে দূরে সরিয়ে রেখেছিল, তাদের একজন চট্টগ্রামকে ওয়াই ফাই নগরী গড়তে চান। তাকে অসংখ্য ধন্যবাদ, তিনি আওয়ামী লীগের ডিজিটালাইজেশন বুঝতে শুরু করেছেন। জনগণ বুঝে শুনে সিদ্ধান্ত নেবেন, কারা অঙ্গীকার করে রাখার জন্য আর কারা করে ভাঙ্গার জন্য। মিথ্যাচারীদের উদ্দেশ্যে বলি, তরুণ প্রজন্ম জেগে আছে। তারা বলে, আর নয় ধোঁকাবাজি এবার শুধু নৌকাবাজি। গণসংযোগকালে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা জনগণের কাছে যাবেন। আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়নের কথাগুলো বলবেন। আপনারা যদি সরকারের উন্নয়নের বার্তাগুলো জনগণের কাছে পৌঁছাতে পারেন তাহলে নিশ্চয়ই জনগণ আমাদের ভোট দিবে। গণসংযোগকালে রেজাউল করিমের সাথে উপস্থিত ছিলেন মহনগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, সহ সভাপতি এডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নঈম উদ্দিন চৌধুরী, আলতাফ হোসেন বাচ্চু, প্রচার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো. আবু তাহের, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক চন্দন ধর, মহানগর শ্রমিক লীগের সভাপতি বখতিয়ার উদ্দিন খান, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আমিন, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ফয়েজ উল্লাহ চৌধুরী, কাউন্সিলর প্রার্থী চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, হাজী নুরুল হক, মো. জাবেদ, পুলক খাস্তগীর, মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী লুৎফুন্নেসা দোভাষ বেবী, রুমকি সেনগুপ্তসহ থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিট পর্যায়ের আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এছাড়া সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
৯ ও ১০নং ওয়ার্ডে গণসংযোগকালে শাহাদাত: নির্বাচিত হলে হতদরিদ্রদের আবাসনের ব্যবস্থা করবো
২১,জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রচারণার ১৩তম দিনে গতকাল নগরের ৯নং উত্তর পাহাড়তলী ও ১০নং উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন। এ সময় তিনি নির্বাচিত হলে নগরে বসবাসরত হতদরিদ্র জনগোষ্ঠীর নিরাপদ আবাসন সমস্যার সমাধানে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। ওই এলাকার ভোটারদের উদ্দেশ্যে ডা. শাহাদাত বলেন, আপনারা দেশের জনগোষ্ঠীর একটি অংশ। এখানে ভাসমান, বস্তিবাসী ও ভূমিহীন মানুষের সংখ্যা বেশি। যারা সুবিধা ও শিক্ষা বঞ্চিত। অতীতে হতদরিদ্র জনগোষ্ঠীর ভাগ্য উন্নয়নের কোনো কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। এখানে পাহাড় ধস, সেনিটেশন, শিক্ষা, যাতায়াত ও বিভিন্ন সমস্যা দীর্ঘদিন বিরাজমান রয়েছে। নির্বাচিত হলে আপনাদের জন্য নিরাপদ আবাসনসহ অন্যান্য সমম্যার সমাধানে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করব। সকালে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, কেন্দ্রীয় সদস্য নাজিম উদ্দিন আলম ও হুম্মাম কাদের চৌধুরীসহ দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের সাথে নিয়ে ডা. শাহাদাত হোসেন উত্তর পাহাড়তলীর ওয়ার্ডের ফয়স লেক নুরিয়া মাদ্রাসার সামনে থেকে গণসংযোগ শুরু করেন। পরে আব্দুল হামিদ সড়ক, আকবরশাহ, শহীদ লেইন, দুলালাবাদ, সিডিএ মার্কেট, ডিটি রোড, অলঙ্কার মোড়, আব্দুল আলী নগর, নেছারিয়া মাদ্রাসা, জাকির হোসেন রোড, মালিপাড়া, কৈবল্যধাম আশ্রম, পূর্ব ফিরোজশাহ, বিশ্বকলোনী, জানারখীল রেল গেইট চত্বর গিয়ে শেষ হয়। এরপর উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডে মোস্তফা হাকিম হাসপাতালের সামনে থেকে গণসংযোগ শুরু করেন। বশির মো. বাড়ি সড়ক, গার্লস স্কুল, হিন্দুপাড়া, চৌধুরী বাড়ী, বিশ্বাস পাড়া, কমিউনিটি সেন্টার মোড়, পন্ডিত বাড়ি, কর্ণেলহাট মোড়, সিডিএ আবাসিক, নিউ মনসুরাবাদ, আগ্রাপাড়া, নবাববাড়ি রেস্টুরেন্ট মোড়, মনসুরাবাদ উপল ক্লাবের সামনে শেষ হয়। পথসভায় ডা. শাহাদাত বলেন, চট্টগ্রাম পর্যটন শিল্পের অপার সম্ভবনার জায়গা। এখানে রয়েছে ইতিহাসের নানা গুরুত্বপূর্ণ স্মারক, পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত ও ফয়স লেকসহ অসংখ্য পর্যটন স্পট। নির্বাচিত হলে নিরাপদ ও স্বাস্থ্য সম্মত পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে পরিকল্পিত পদক্ষেপ গ্রহণ করব। তিনি বলেন, বিএনপি সরকার থাকার সময় পাহাড়তলী চক্ষু হাসপাতাল, ইউএসটিসি, চট্টগ্রাম টেলিভিশন কেন্দ্র স্থাপনসহ ফয়সলেক ও চিড়িয়াখানাকে আধুনিকায়ন করা হয়েছিল। পরবর্তীতে পর্যটন শিল্পের বিকাশে সুপরিকল্পিত পদক্ষেপ না থাকায় এ শিল্পকে জাতীয় অর্থনীতির অন্যতম স্তম্ভ করা যায়নি। এ খাতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিলে চট্টগ্রাম পর্যটকদের স্বর্গভূমি বিবেচিত হতো। পর্যটন শিল্পকে জাতীয় আয়ের প্রধান খাত হিসেবে গ্রহণ করা সম্ভব হবে। বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও ডাকসুর সাবেক ভিপি আমান উল্লাহ আমান বলেন, আওয়ামী লীগ গণতন্ত্র হরণকারী একটি দল। তারা দিনের ভোট রাতে নিয়ে সংসদে গিয়ে মানুষের বাক স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে। মানুষের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। তারা মুখে গণতন্ত্রের কথা বলে বাকশাল কায়েম করেছে। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোট চোরদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ধানের শীষকে জয়ী করতে হবে। তিনি বলেন, ডা. শাহাদাত হোসেন একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ। চট্টগ্রামের পরিকল্পিত উন্নয়ন করতে ডা. শাহাদাতের বিকল্প নেই। এসময় উপস্থিত ছিলের নগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর, উত্তর পাহাড়তলী ওর্য়াড কাউন্সিলর প্রার্থী আবদুস সাত্তার সেলিম, উত্তর কাট্টলী ওর্য়াড কাউন্সিলর প্রার্থী রফিক উদ্দীন চৌধুরী, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী ছকিনা বেগম, বিএনপি নেতা এস কে খোদা তোতন, নাজিমুর রহমান, চাকসুর সাবেক ভিপি নাজিম উদ্দিন, বিএনপি নেতা ইসহাক কাদের চৌধুরী, আহমেদুল আলম চৌধুরী রাসেল, গাজী সিরাজ উল্লাহ, মঞ্জুর আলম চৌধুরী মঞ্জু, মো. কামরুল ইসলাম, মাইনুদ্দিন চৌধুরী মাইনু, নূরুল আকবর কাজল, আলী আজম চৌধুরী, রেহান উদ্দীন প্রধান, বেলায়েত হোসেন বুলু, জমির আহমেদ, হাবিবুর রহমান চৌধুরী, ফরিদুল আলম চৌধুরী, দিদারুল ফেরদৌস, হাবিবুর রহমান মাসুম, শহীদুল্লাহ বাহার, জিয়াউর রহমান জিয়া, আলী মর্তুজা খান, জমির উদ্দীন নাহিদ, মাসুম চৌধুরী, নুর মোহাম্মদ, মনজুর আলম, আলী আক্কাস, মো. আলাউদ্দীন, শওকত আলী বাবুল, নুর বক্স মিলন, মেজবাহ উদ্দিন, মো. ইউনুছ প্রমুখ।
৫৩৩ কোটি টাকার ইয়াবা ধ্বংস কক্সবাজারে
২০,জানুয়ারী,বুধবার,কক্সবাজার জেলা সিনিয়র প্রতিনিধি,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: কক্সবাজার ৫৩৩ কোটি টাকার ইয়াবা পানিতে গুলিয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। আজ বুধবার (২০ জানুয়ারি) দুপুরে বিজিবির কক্সবাজার রিজিয়ন সদর দপ্তর প্রশিক্ষণ মাঠে আয়োজিত- মাদকদ্রব্য ধ্বংসকরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের উপস্থিতিতে এসব মাদক ধ্বংস করা হয়। জব্দ করা প্রায় ৫৩৫ কোটি টাকার মাদকের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১ কোটি ৭৭ লাখ ৯৪ হাজার ১১২টি ইয়াবা, যার মূল্য প্রায় ৫৩৩ কোটি ২৭ লাখ টাকা। মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পাচারের সময় এগুলো জব্দ করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ । অন্যান্য মাদকের মধ্যে রয়েছে ৫ হাজার ৭৯৯ বোতল মদ, ৩৩ হাজার ৫৫৫ ক্যান বিয়ার, ১ হাজার ৭ শত ৩৬ লিটার বাংলা চোলাই মদ, ১৫ দশমিক ৭৩২ কেজি গাঁজা, ১৮ হাজার ৭ শত ৫০ পাতা সেডিল ট্যাবলেট ও ৫ হাজার পাতা জোলিয়াম ট্যাবলেট। অনুষ্ঠানের শুরুতে চেকপোস্টের কার্যক্রমের উপর ডেমো ও রিজিয়নের বিভিন্ন কার্যক্রমের উপর ভিডিওচিত্র প্রদর্শন করা হয়।অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজির আহমেদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিজিবি কক্সবাজার রিজিয়নের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজেদুর রহমান।
চসিক নির্বাচন: মাঠে থাকবেন ২০ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট
২০,জানুয়ারী,বুধবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে ২০ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। নিয়োগপ্রাপ্ত জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটরা নির্বাচন শুরুর দুই দিন আগে থেকে মাঠে থাকবেন। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের উপ-সচিব (আইন) আফরোজা শিউলী স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) নির্বাচন বিধিমালা ২০১২ এ বিধি ৮৬-তে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে ভোট গ্রহণের দুই দিন আগে (২৫ জানুয়ারি) থেকে ভোট গ্রহণের দুই দিন পর (২৯ জানুয়ারি) পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। নিয়োগপ্রাপ্ত জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটরা হলেন- ১,২ নম্বর ওয়ার্ডে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট হোসেন মোহাম্মদ রেজা, ৩, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার জাহান, ৫, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ কায়সার, ৭, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বেগম আঞ্জুমান আরা, ৯, ১০ নম্বর ওয়ার্ডে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কৌশিক আহম্মদ খন্দকার, ১১, ১২ নম্বর ওয়ার্ডে ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শারাফ উদ্দিন আহমদ, ১৩, ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে ফেনী জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল্লাহ খান, ১৫, ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে লক্ষ্মীপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রায়হান চৌধুরী, ১৭, ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে লক্ষ্মীপুর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জুয়েল দেব, ১৯, ২০ নম্বর ওয়ার্ডে বান্দরবানের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এ এস এম এমরান, ২১, ২২ নম্বর ওয়ার্ডে খাগড়াছড়ি জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সামিউল আলম, ২৩, ২৪ নম্বর ওয়ার্ডে খাগড়াছড়ি জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হাসান, ২৫, ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে নোয়াখালী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সোয়েব উদ্দীন খান, ২৭, ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে নোয়াখালী জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সাঈদীন নাঁহী, ২৯, ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে কুমিল্লা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ ইরফানুল হক চৌধুরী, ৩১, ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে কুমিল্লা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শামছুর রহমান, ৩৩, ৩৪ নম্বর ওয়ার্ডে রাঙামাটি সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যজিস্ট্রেট প্রবাল চক্রবর্তী, ৩৫, ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডে রাঙামাটি সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সবুজ পাল, ৩৭, ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে চাঁদপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. কামাল হোসাইন, ৩৯, ৪০ ও ৪১ নম্বর ওয়ার্ডে চাঁদপুর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কার্তিক চন্দ্র ঘোষ। ২৭ জানুয়ারি চসিক নির্বাচনে ৭ জন মেয়র প্রার্থীসহ মোট ২৩৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ভোটগ্রহণ হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। ৪১টি ওয়ার্ডে ভোটকেন্দ্র রয়েছে ৭৩৫টি। মোট ভোটার ১৯ লাখ ৩৮ হাজার ৭০৬ জন। এর মধ্যে নারী ৯ লাখ ৪৬ হাজার ৬৭৩ জন এবং পুরুষ ৯ লাখ ৯২ হাজার ৩৩ জন।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর