শুক্রবার, এপ্রিল ১৬, ২০২১
নিরাপদ খাবার নিশ্চিত করতে না পারলে জাতি অসুস্থ ও মেধাশূণ্য হয়ে পড়বে- চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার
১০,জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ এনডিসি বলেছেন, সুস্থভাবে বেঁচে থাকতে হলে নিরাপদ খাবারের বিকল্প নেই। নিরাপদ খাবার নিয়ে সচেতনতার বিষয়ে আমরা এখনো শূণ্যের কোটায়। যে খাবার খেলে মানুষ অসুস্থ হবেনা সেটাই নিরাপদ খাবার। শাক-সব্জি, ফলমুলসহ অন্যান্য নিরাপদ খাবার নিশ্চিত করতে না পারলে জাতি অসুস্থ ও মেধাশূণ্য হয়ে পড়বে। আমরা প্রতিদিন যে খাবারগুলো খাচ্ছি সেগুলো কতটুকু পুষ্টিকর ও নিরাপদ তা আগে জানতে হবে। ভেজাল খাবার মানবদেহ বা জনস্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। প্রতিনিয়ত ভেজাল খাবার খেয়ে মানুষ ক্যান্সারসহ অন্যান্য জঠিল রোগে আক্রান্ত হয়ে অকালে প্রাণ হারাচ্ছে। মানুষ সচেতন না হলে শুধু আইন ও মোবাইল কোর্ট দিয়ে নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা সম্ভব নয়। জন্মের পর থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত অনিরাপদ খাবারের বিরুদ্ধে সবাইকে সচেতন হতে হবে। জীবন ও স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নিরাপদ খাবার অবশ্যই প্রয়োজন। মুজিব বর্ষ উপলক্ষে আজ ১০ জানুয়ারী ২০২১ ইংরেজি রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে আয়োজিত- খাদ্যের নিরাপদতা শীর্ষক বিভাগীয় পর্যায়ের সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের সহযোগিতায় বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ সেমিনারের আয়োজন করেন। তিনি বলেন, দেশের মানুষের খাদ্য, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও বাসস্থান নিশ্চিত করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর থেকে সারাদেশে খাদ্যের মান বজায় রাখার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের একার পক্ষে নিরাপদ খাবার উপহার দেয়া সম্ভব নয়, এটির জন্য প্রয়োজন সমন্বিত উদ্যোগ। ভেজাল খাবার খেলে কি হবে তা আমরা ও আমাদের সন্তানদেরকে জানতে হবে। খাবার উৎপাদন বা তৈরীকালে ভেজাল দ্রব্য না মেশানোর বিষয়ে শ্রমিকরা সচেতন হলে আমরা বিষমুক্ত খাবার পেতে পারি। মানব ধ্বংসকারী ভেজাল খাবার আমরা বর্জন করবো। সকলেই সুস্থ থাকতে হলে নিরাপদ খাদ্যাভাস গড়ে তোলার কোন বিকল্প নেই। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ও সরকারের অতিরিক্ত সচিব মোঃ আব্দুল কাইউম বলেন, দুষিত ও অনিরাপদ খাবার আমাদেরকে সবসময় অসুস্থ করে তুলছে। ভেজাল খাবার মানবদেহ বা জনস্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। নানান ধরনের কেমিকেল মেশানো ও চকচকে দৃষ্টিনন্দন খাবারের প্রতি আকৃষ্ট হওয়া যাবেনা। রাস্তা-ঘাটে নোংরা পরিবেশে তৈরী করা খাবার সম্পূর্ণ পরিহার করতে হবে। নিজেরা সচেতন হয়ে পরিবারকে সচেতন করতে হবে। নিরাপদ খাদ্যে যারা ভেজাল মেশাবে তাদেরকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে। নিরাপদ খাদ্য আইন,২০১৩ বাস্তবায়নে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। খাবার খাওয়ার আগে ও পরে ভালো করে হাত ধুয়ে নিতে হবে। নানান ধরনের কেমিকেল, ফরমালিন মেশানো ও চকচকে দৃষ্টিনন্দন খাবারের প্রতি আকৃষ্ট হওয়া যাবেনা। রাস্তা-ঘাটে নোংরা পরিবেশে তৈরী করা খাবার সম্পূর্ণ পরিহার করতে হবে। অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মোহাম্মদ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে ও বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের নিরাপদ খাদ্য অফিসার নাজমুস সুলতানা সীমার সঞ্চালনায় অনুষ্টিত সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ও সরকারের অতিরিক্ত সচিব মোঃ আব্দুল কাইউম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের পরিচালক (মান) আবু সাঈদ মোঃ নোমান। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য প্রফেসর ড. আবদুল আলীম। সেমিনারে বক্তব্য রাখেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদালয়ের অনুজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ জুবাইদুল আলম, সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালক নুসরাত সুলতানা, বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) মোঃ দেলোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এল.এ) ড. বদিউল আলম, সিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মির্জা সায়েম মাহমুদ, জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ হাসান, ক্যাবর সভাপতি এস.এম নাজের হোসাইন, রাউজান পৌর মেয়র দেবাশীষ পালিত ও বনফুল গ্রুপের পরিচালক আরিফুল ইসলাম প্রমূখ। সেমিনারে সরকারের বিভিন্নস্তরে কর্মরত কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ, ক্যাব, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিরা অংশ নেন।
ওপিএ লিটারেসি স্কুল ছাত্রদের মাঝে বই বিতরণ
১০,জানুয়ারী,রবিবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রামের সেন্ট প্লাসিডস স্কুলের প্রাক্তন ছাত্রদের সংগঠন ওল্ড প্লাসিডিয়ানস এসোসিয়াশেন (ওপিএ) দ্বারা পরিচালিত ওপিএ লিটারেসি স্কুল ছাত্রদের মাঝে সরকারি বই বিতরণ এবং এস.পি.এস ১৯৮৯ ব্যাচের সৌজন্যে বিনামূল্যে শিক্ষা সামগ্রী ও দুপুরের খাদ্য বিতরণী অনুষ্ঠান গত ৭ জানুয়ারি সেন্ট প্লাসিডস স্কুল প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সহ সভাপতি নেওয়াজ এ খান রিমনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আনিছ উল্লাহর সঞ্চালনায় পরিচালিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সেন্ট প্লাসিডস স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ব্রাদার সুব্রত লিও রোজারিও সি.এস.সি। বিশেষ অতিথি ছিলেন ওপিএ লিটারেসি স্কুলের প্রধান শিক্ষক ব্রাদার চন্দন গোমেজ সি.এস.সি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আয়োজিত আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি প্রসেনজিত দত্ত রাজু, যুগ্ম সম্পাদক জোবায়ের হোসাইন, ট্রেজারার ইমরুল কায়েস, সদস্য : শওকত দোভাষ, ডেভিড পিনহারিও, ওয়াসিম শরীফ, এএসএম মামুনুর রহমান, রায়হান মোর্শেদ, প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক ওপিএন এরল গোমেজ, সিনিয়র সিলভাস্টার বার্নাভেট, এসপিএস ১৯৮৯ ব্যাচের পক্ষ থেকে ওপিএন আবু মোহাম্মদ আবিদ চৌধুরী প্রমুখ। সভায় বক্তারা ছাত্রদের নতুন বই খাতা নিয়ে বছরের শুরু থেকেই পড়া-লেখায় মনোনিবেশ করার আহ্বান জানান। সভা শেষে ১৯৯৩ ব্যাচের ওপিএন হোসাইন মো. আরিফের সৌজন্যে সাবান বিতরণ করা হয়। এতে লিটারেসি স্কুলের শিক্ষক, অভিভাবক ও সিনিয়র ওপিএন এবং সংগঠনের অনেক সদস্য উপস্থিত ছিলেন।- প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ষড়যন্ত্র কখনো থেমে ছিলনা- আ জ ম নাছির উদ্দীন
১০,জানুয়ারী,রবিবার,মো.মহিউদ্দিন চৌধুরী,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, স্বাধীনতার আগে বা পরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে বাঙালির কাছ থেকে মুছে ফেলার ষড়যন্ত্র চলে আসছে | তাকে হত্যা করার মধ্য দিয়ে বাঙালীর স্বাধীনতার স্বপ্ন ধুলিস্যাৎ করে ফেলা যাবে পাকিস্তানিরা তা মনে করে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতে বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়| এমনকি তার ফাঁসির প্রক্রিয়াও চুড়ান্ত করে রেখেছিল তারা| কিন্তু তা হয়নি| বঙ্গবন্ধু ছিলেন বাঙ্গালীর স্বপ্নের বাতিঘর | সাড়ে সাত কোটি বাঙালী সেদিন তাদের বাতিঘরের নিশান দেখে এগিয়ে গেছে স্বাধীনতার পথে| ছিনিয়ে এনেছে স্বাধীনতা সূর্যকে| আজ ১০ জানুয়ারি সকালে থিয়েটার ইন্সটিটিউট হলে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগ আয়োজিত বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন| সভায় চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দীন চৌধুরী বলেন, ২৯০ দিন পাকিস্তানের কারাগারে প্রতি মুহূর্তে মৃত্যুর প্রহর গুনতে গুনতে লন্ডন-দিল্লি হয়ে ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি মুক্ত স্বাধীন স্বদেশের মাটিতে ফিরে আসেন বাঙালির ইতিহাসের বরপুত্র শেখ মুজিবুর রহমান। সেই থেকে ১০ জানুয়ারি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। আমাদেরকে জাতির জনকের সেই ত্যাগ তিতিক্ষা আদর্শকে বুকে ধারন করে এগিয়ে যেতে হবে| আলোচনা সভায় চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগ শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল হক মিয়া, থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা কাজী আলতাফ হোসেন,হারুনুর রশিদ, মো আবছার, মো ইফতেখার আলম,মো ইসকান্দর মিয়া,হাজী আবু তৈয়ব সিদ্দিকি,শেখ সোহরাওয়ার্দী,কাজী রাশেদ আলী জাহাঙ্গীর , সেলিম রেজা,নুরুল আলম, আবুল হাশেম বাবুল প্রমুখ | সভায় চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগ সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য ,কার্যনির্বাহী সদস্য ,থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন জমা দিলেন আইয়ুব বাবুল
১০,জানুয়ারী,রবিবার,পটিয়া সংবাদদাতা,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: আসন্ন পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ থেকে মেয়র পদে মনোনয়ন ফরম জমা দেন দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি,৮০/৯০ দশকের সাবেক ছাত্রনেতা আইয়ুব বাবুল। উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আলী আকবর সিদ্দিকী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সদস্য বেলাল নূরী,তসলিম উদ্দিন রানা,পৌরসভা আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল জলিল,,দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী যুবলীগের আহ্বায়ক এডভোকেট গুলশানআরা জিমি,পটিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ এরশাদ,শাপলা কুড়ির আসর পটিয়া উপজেলার সভাপতি আব্দুল করিম,, চট্টগ্রাম মহানগর সাবেক ছাত্রলীগের নেতা এস এম রেজাউল করিম,ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ কায়েছ,ওয়াসিম,আব্দুল্লাহ আল নোমান,আরিফ,জাহেদ হোসেন,সাজ্জাদ প্রমুখ।
সেইলর চট্টগ্রাম সিটি হাফ ম্যারাথন ২০২১ সম্পন্ন
০৯,জানুয়ারী,শনিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরীর পতেঙ্গা সি-বিচে সম্পন্ন হল সেইলর চট্টগ্রাম সিটি হাফ ম্যারাথন ২০২১। শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত এই হাফ ম্যারাথনে আয়রনম্যান খেতাব জয়ী মোহাম্মদ শামসুজ্জামান আরাফাতসহ সারা বাংলাদেশ থেকে দুটি ভিন্ন ক্যাটাগরিতে ২৬০ জন প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন। সমুদ্র সুরক্ষার অঙ্গীকারের প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে টিম চট্টগ্রামর আয়োজনে এই প্রতিযোগিতার টাইটেল স্পন্সর ছিল সেইলর। ২১ দশমিক ১ কি.মিতে ১৫০ জন ও সাড়ে ৭ কি.মিতে ১১০ প্রতিযোগী ম্যারাথনে অংশগ্রহণ করেন। প্রতিযোগিতায় পুরুষদের পাশাপাশি নারী প্রতিযোগীদের অংশগ্রহণও চোখে পড়ার মতো। ভোর সকাল ৬টায় রিং রোডে ম্যারাথন শুরু হয়ে পতেঙ্গা বিচ থেকে প্রায় ১০ কি.মি দূরে হালিশহর বিচ পর্যন্ত রাস্তা ঘুরে এসে ২১ দশমিক ১ কিলোমিটার দৌড় সম্পন্ন হয়। প্রতিযোগিতায় ২১ দশমিক ১ কি.মি প্রথম পাঁচজন পুরুষ ও প্রথম তিন নারীর প্রাইজমানি ও ক্রেস্ট, সাড়ে ৭ কি.মি প্রথম তিনজন পুরুষ ও নারী দুই বিভাগের জন্য প্রাইজমানি ও ক্রেস্ট, পঞ্চাশোর্ধ বয়সের প্রথম তিনজনের জন্য সম্মাননা স্মারকের ব্যবস্থা করা হয়।। ম্যারাথন শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, সেইলরর প্রধান পরিচালনা কর্মকর্তা (সিওও) রেজাউল কবির, মার্কেটিং লিড মো. সাইদুজ্জামান ও টিম চট্টগ্রামর সংগঠকরা উপস্থিত ছিলেন।
কাউন্সিলর প্রার্থী সলিম উল্লাহ বাচ্চুর মতবিনিময়
০৯,জানুয়ারী,শনিবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ২২ নম্বর এনায়েত বাজার ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মো. সলিম উল্লাহ বাচ্চুর সমর্থনে গতকাল সন্ধ্যায় তার নির্বাচনী কার্যালয়ে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মো. সলিম উল্লাহ বাচ্চু। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাবেক মহানগর ছাত্রলীগ নেতা শিবু প্রসাদ চৌধুরী, যুবলীগ নেতা মো. জাহেদ, আবু তাহের রানা, মো. সাব্বির চৌধুরী, অমিত ঘোষ, তোফাজ্জল হোসেন জিকু, সজল নাথ, সাদ্দাম হোসেন, উজ্জ্বল সেন, ইয়াছির চৌধুরী, শান্তনু দাশ, মো. জোনায়েদ, রাকেশ দাশ, মৃদুল দাশ, বাবু চন্দ, নাঈম উদ্দিন, রাজীব, রনি প্রমুখ। বক্তব্যে মো. সলিম উল্লাহ বাচ্চু বলেন, আগামী ২৭ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ মনোনিত মেয়র প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরীকে নৌকা ও কাউন্সিলর পদে আমাকে ঘুড়ি মার্কায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন।- প্রেস বিজ্ঞপ্তি
কাউন্সিলর প্রার্থী আবদুল কাদেরের প্রচারণা
০৯,জানুয়ারী,শনিবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ২৮ নম্বর পাঠানটুলী ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মোহাম্মদ আবদুল কাদের গতকাল শুক্রবার এয়ার আলী জামে মসজিদে জুমার নামাজ শেষে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা হোসেন শহীদ সরোয়ার্দী, আবদুর রহিম রাজু, সাইদুল আবদুন নবী, মো. মহিউদ্দিন, সাইদুল আলম বুলবুল, সালাউদ্দিন সরকার, আবুল কালাম সর্দার, অলি আহমদ, আবদুর রশিদ, যুবলীগ নেতা মো. ইসমাইল, মো. আলমগীর, কামরুল ইসলাম রাসেল, মো. খায়ের প্রমুখ। এসময় কাউন্সিলর প্রার্থী আবদুল কাদের ব্যাটমিন্টন প্রতীকে ভোট ও সকলের সহযোগিতা চান। তিনি বলেন, বিগত দিনে আপনাদের পাশে ছিলাম। করোনাকালীন দিনে-রাতে ত্রাণ সামগ্রী উপহার দিয়েছি, দাফন-কাফন করেছি। আগামী ২৭ জানুয়ারি ব্যাডমিন্টন র‌্যাকেট প্রতীকে ভোট দিয়ে আবারো আপনাদের পাশে থাকার সুযোগ দিবেন- এই প্রত্যাশা করছি।- প্রেস বিজ্ঞপ্তি
আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী রেজাউলের প্রচারণা শুরু
০৮,জানুয়ারী,শুক্রবার,রাশেদুল আজিজ,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন আগামী ২৭ জানুয়ারী।আজ ৮ জানুয়ারী শুক্রবার থেকে শুরু হল নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণা। বহদ্দার বাড়ী জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় ও পারিবারিক কবর স্থানে পিতা-মাতা, পূর্ব পুরুষদের কবর জেয়ারত ও শাহ আমানত মাজার জেয়ারতের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের মেয়র পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।এ সময় রেজাউল করিম চৌধুরীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, সদস্য সামশুল আলম, মহানগর যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক ফরিদ মাহমুদসহ নেতাকর্মীরা। স্বচ্ছ ও স্মার্ট চট্টগ্রাম সিটি গড়ার অঙ্গীকার নিয়ে প্রচারণার শুরুতে মেয়র পদপ্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার অবদানে চট্টগ্রাম এখন উন্নয়নের মহাসড়কে অবস্থান করছে। চট্টগ্রামের উন্নয়নের এ অগ্রযাত্রাকে অধিকতর মসৃণ ও গতিশীল করতে আমি আমার দলীয় প্রতীক নৌকায় আপনাদের ভোট প্রত্যাশা করছি। এরপর তিনি নগরীর ১ নং দক্ষিন পাহাড়তলী, ২নং জালালাবাদ ও ৩নং পাঁচলাইশ ওয়ার্ডে গণসংযোগ করেন।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর