শুক্রবার, এপ্রিল ১৬, ২০২১
চীনে জিপিএইচ ইস্পাতের বিলেট রফতানির প্রথম চালান জাহাজে
১৮নভেম্বর,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চীনে বিলেট রফতানির মধ্য দিয়ে রফতানিতে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করলো বাংলাদেশের জিপিএইচ ইস্পাত। বুধবার (১৮ নভেম্বর) ডিজিটাল প্লাটফর্মে চীনে বাংলাদেশ থেকে প্রথম বিলেট রফতানির শিপমেন্টের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তারা এমন মন্তব্য করেন। শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন বলেন, করোনাকালীন দুঃসময়ের মধ্যেও জিপিএইচ ইস্পাত বিলেট রফতানি করে দেশ ও জাতির জন্য সম্ভাবনা ও সুসংবাদ বয়ে এনেছে। তারা ইস্পাত জগতে বিশাল কর্মযজ্ঞ সৃষ্টি করেছে। আন্তর্জাতিক বাজারে রফতানি বাড়ানোর জন্য তিনি বিভিন্ন দূতাবাসগুলোকে সক্রিয় করার আহ্বান জানান। বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জিপিএইচ ইস্পাতের বিলেট রফতানির তথ্যটি পৌঁছে দেব। রফতানি বাস্কেটে জিপিএইচ ইস্পাত নতুন আইটেম সংযুক্ত করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। বানিজ্য মন্ত্রী নিজেকে একজন রফতানিকারক উল্লেখ করে বলেন, পোশাক শিল্পের মতো উৎপাদিত ইস্পাত সামগ্রী রফতানি করে জিপিএইচ ইস্পাত বৈদেশিক মুদ্রা আয়, বিদ্যুৎ ও গ্যাসসাশ্রয়ী পরিবেশবান্ধব সবুজ কারখানা সৃজন করেছে। এ প্রেক্ষাপটে জিপিএইচ ইস্পাতকে এমএস বিলেট ও এমএস প্রোডাক্ট রফতানিতে নগদ প্রণোদনা দেওয়ার আবেদনের বিষয়টি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বিশেষ বিবেচনায় রয়েছে। অনুষ্ঠানের এ পর্যায়ে শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন। তখন প্লান্ট থেকে বেলুন উড়ানো হয়। চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবল আলম বলেন, জিপিএইচ ইস্পাত আমাদের প্রবীণ সদস্য ও উদীয়মান শিল্পপ্রতিষ্ঠান। তারা নন ট্রেডিশনাল আইটেম বিলেট রফতানি করছে। বিলেট রফতানি করে বেসরকারি খাতের জন্য আন্তর্জাতিক সম্মান বয়ে এনেছে। তাদের আগামীতে চট্টগ্রাম চেম্বার অধিকতর সহায়তা দেবে। শুভেচ্ছা বক্তব্যে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল এসএম আবুল কালাম আজাদ বলেন, আজ শুধু জিপিএইচ ইস্পাতের নয়, চট্টগ্রাম বন্দরেরও গর্বের দিন। এতে করে নতুন শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলো অনুপ্রাণিত হবে। কারখানা পরিদর্শনের অভিজ্ঞতা দিয়ে তিনি বলেন, জিপিএইচ ইস্পাত তাদের অসাধারণ দক্ষতা ও সক্ষমতা দিয়ে স্টেট অব আর্ট প্রযুক্তির আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন পণ্য উৎপাদন করছে। ট্রেড ও ট্র্যারিফ কমিশন চেয়ারম্যান মুনসি শাহাবুদ্দিন আহামেদ বলেন, মুজিবশতবর্ষ ও শেখ হাসিনার মিশন ও ভিশন বাস্তবায়নে এটি একটি নতুন সংযোজন। স্বাগত বক্তব্যে জিপিএইচ গ্রুপ চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, রফতানির জন্য আন্তর্জাতিক মান অর্জন পূর্বক জিপিএইচ ইস্পাত অব্যবহৃত বিলেট রফতানি করে বৈদেশিক মুদ্রা আয়, প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে প্রায় এক লাখ লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে যাচ্ছি। একই সঙ্গে ২০২০-২১ অর্থবছরে ৭০-১০০ মিলিয়ন ইউএস ডলারের সমপরিমাণ রফতানি উন্নীত করার পরিকল্পনা করেছি। সরকারি নীতিমালার সহায়তা পেলে বৈদেশিক বিনিয়োগ আকর্ষণে সক্ষম হব। আমরা আশা করবো বাংলাদেশের অন্যান্য ইস্পাত উৎপাদক প্রতিষ্ঠানগুলো একই সঙ্গে রফতানিতে এগিয়ে আসবে। জিপিএইচ ইস্পাতের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলমগীর কবির বলেন, আমাদের গুণগতমান ধরে রেখে বিশ্বব্যাপী ব্রান্ডিং করতে হবে। তিনি এ ব্যাপারে গণমাধ্যমের সহায়তা কামনা করেন। তিনি অতীতের দীর্ঘ শ্রমে ঘামে গড়ে ওঠা এ প্লান্টের জন্য শ্রমিক কর্মচারীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। জিপিএইচ ইস্পাতের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আলমাস শিমুল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ২০৪১ এর মিশন ও ভিশন ২০২০ এসে জিপিএইচ ইস্পাত বাস্তবায়ন করেছেভ। তিনি শিল্পমন্ত্রী, বাণিজ্যমন্ত্রী, ট্রেড ও ট্র্যারিফ কমিশন চেয়ারম্যান, চট্টগ্রাম চেম্বার প্রেসিডেন্ট, বন্দর চেয়ারম্যানসহ সব স্টেক হোল্ডারদের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। অনুষ্ঠানে জিপিএইচ ইস্পাতের পরিচালক এমএ রউফ, মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান, আব্দুল আহাদ, আজিজুল হক রাজু, স্বতন্ত্র পরিচালক মোকতার আহামদ উপস্থিত ছিলেন। সঞ্চালনা করেন নির্বাহী পরিচালক (এফঅ্যান্ডবিডি) কামরুল ইসলাম। সূত্র: বাংলা নিউজ
মাস্ক না পরায় চট্টগ্রামে ৮০ জনকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত
১৮নভেম্বর,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মুখে মাস্ক না পরায় চট্টগ্রামে ৮০ জনকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার (১৮ নভেম্বর) নগরের কোতোয়ালী, নিউ মার্কেট, জামাল খান, জিইসি এবং দামপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত এই জরিমানা করেন। অভিযানে নেতৃত্ব দেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. উমর ফারুক, রেজওয়ানা আফরিন এবং নুরজাহান আক্তার সাথী। ম্যাজিস্ট্রেট মো. উমর ফারক নগরের কোতোয়ালী এবং নিউ মার্কেট এলাকায় পরিচালিত অভিযানে নেতৃত্ব দেন। তিনি মাস্ক না পরায় ৫৩ জনকে ৯ হাজার ৩৩০ টাকা জরিমানা করেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানা আফরিন নগরের জামাল খান এবং জিইসি মোড় এলাকায় পরিচালিত অভিযানে নেতৃত্ব দেন। তিনি মাস্ক না পরায় ২০ জনকে ১ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করেন। নগরের দামপাড়া এলাকায় পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নুরজাহান আক্তার সাথী। তিনি মাস্ক না পরায় ৭ জনকে ৪৭০ টাকা জরিমানা করেন।
৫৫-তে পা দিল শাটলের ক্যাম্পাস চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়
১৮নভেম্বর,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সাফল্য, গৌরব আর ঐতিহ্যের ৫৪ বছর পেরিয়ে ৫৫ বছরে পা দিয়েছে শাটলের ক্যাম্পাস খ্যাত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি)। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও বিভিন্ন সংগঠন সীমিত পরিসরে আয়োজন করতে যাচ্ছে নানা অনুষ্ঠানমালার। যার মধ্যে রয়েছে আজ বুধবার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কর্তৃক সকালে ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, কেক কাটা ও উপাচার্যের সম্মেলন কক্ষে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা। এছাড়া বিকালে শহরের চারুকলা ইনস্টিটিউটে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন করবে চবি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন। স্বল্প পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে এতে থাকবে বেলুন ওড়ানো, কেক কাটা ও আলোচনা সভা। ১৯৬৬ সালের ১৮ নভেম্বর চারটি বিভাগ নিয়ে চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের জঙ্গল পশ্চিম-পট্টি মৌজার ২১০০ একর জায়গাজুড়ে পাহাড়ের কোলঘেঁষে যাত্রা শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়টি। শিক্ষার্থী সংখ্যার দিক দিয়ে এটি তৃতীয় বৃহত্তম এবং আয়তনে দেশের সবচেয়ে বড় বিশ্ববিদ্যালয়। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে রয়েছে ৪৮টি বিভাগ ও সাতটি ইনস্টিটিউট। যাতে রয়েছে ২৩ হাজার ৫৫৪ জন শিক্ষার্থী ও ৯২৫ জন শিক্ষক। আরও রয়েছে ৪ লক্ষাধিক বইয়ের বিশাল সংগ্রহশালা নিয়ে প্রতিষ্ঠিত সমৃদ্ধ লাইব্রেরি। যেখানে আছে দেশ-বিদেশের দুষ্প্রাপ্য ও দুর্লভ অনেক বই, সাময়িকী, পত্রপত্রিকা, জার্নাল ও পা-ুলিপি। বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে তিনটি ভিন্নধর্মী নিজস্ব জাদুঘর। যাতে দেখা মেলে দুর্লভ অনেক সংগ্রহের। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে শিক্ষার্থী পরিবহনের জন্য নিজস্ব শাটল ট্রেন। যা বিশ্বের দ্বিতীয় কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের নেই। এছাড়া রয়েছে দৃষ্টিনন্দন রাজনীতি, বিনোদন, সাংস্কৃতিক কর্মকা-ের আঁতুরঘর খ্যাত ঝুপড়ি, ঝুলন্ত সেতু, পাহাড়, ঝরণা, লেক, শতাধিক প্রজাতির পাখি, বানর, মায়া হরিণ, শূকর, সজারুসহ বিভিন্ন প্রজাতির বন্যপ্রাণি ও আড়াইশ প্রজাতির বৃক্ষের সংগ্রহ। আগামী ৫ বছরের মধ্যে ৪০০ প্রজাতির বৃক্ষের সংগ্রহশালা হতে যাচ্ছে এখানে। এছাড়াও জীববৈচিত্র্যের অনিন্দ্য সুন্দর মনোমুগ্ধকর অনেক স্থাপনা রয়েছে এখানে। এরমধ্যে স্বাধীনতা স্মারক ভাস্কর্য, শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিস্তম্ভ, শহীদ মিনার। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশমুখেই রয়েছে স্মৃতিস্তম্ভ- স্মরণ। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে তৈরি- বঙ্গবন্ধু চত্বর এবং মুক্তিযুদ্ধ ভাস্কর্য- জয় বাংলা। মহান মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে দেশের যে কোনো আন্দোলন-সংগ্রামে রয়েছে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা। মহান মুক্তিযুদ্ধে চবির ১৫ জন শিক্ষক-শিক্ষার্থী তাদের জীবন বিলিয়ে নিজেদের ত্যাগের স্বাক্ষর রেখেছিলেন। মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য শহীদ মুক্তিযোদ্ধা মো. হোসেন পেয়েছেন বীরপ্রতীক খেতাব। এছাড়া ৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান, ৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধ, ৯০-এর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনসহ দেশের ক্রান্তিলগ্নে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ছিল দৃঢ়চেতা। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিত্ব বিকাশে এখানে রয়েছে উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী, অঙ্গন, আবৃত্তি মঞ্চ, উত্তরায়ণ, সাংস্কৃতিক ইউনিয়ন, সব্যসাচী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ফটোগ্রাফিক সোসাইটি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল অব ডিবেট, সিইউ মুনা, বিজ্ঞান ক্লাব, প্রথম আলো বন্ধুসভাসহ বিভিন্ন অঞ্চলভিত্তিক সংগঠন। ৫৪ বছরের এ পথচলায় চবি জন্ম দিয়েছে অসংখ্য রথী-মহারথীর। যাদের মধ্যে রয়েছে নোবেল জয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস, ভৌত বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. জামাল নজরুল ইসলাম, সমাজবিজ্ঞানী ড. অনুপম সেন, সৈয়দ আলী আহসান, মুর্তজা বশীর, ঢালী আল মামুন, অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান, অধ্যাপক আবুল ফজল, আলাউদ্দিন আল আজাদ, সাবেক ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান প্রমুখ। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে আছেন বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ফজলে কবির। যিনি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকও ছিলের একই বিভাগের শিক্ষার্থী, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ছিলেন রসায়ন বিভাগের ছাত্র। প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদী রক্ষা ও গবেষণায় অবদানের জন্য এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মনজুরুল কিবরিয়া পেয়েছেন বিভিন্ন সম্মাননা পুরস্কার, শিক্ষক ড. মো. শাহাদাত হোসেনের নতুন মাছের প্রজাতি আবিষ্কার ও শনাক্তকরণ, শিক্ষক ড. শেখ আফতাব উদ্দিনের কম খরচে সমুদ্রের পানি সুপেয় করার পদ্ধতি আবিষ্কার, অধ্যাপক ড. সাইদুর রহমান চৌধুরীর বঙ্গোপসাগর নিয়ে মানচিত্র তৈরি এবং ড. আল আমিনের লেখা বই যুক্তরাষ্ট্রের ছয়টি বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়ের রেফারেন্স বুক হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে, যা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থানকে নিয়ে গেছে এক অনন্য উচ্চতায়। ব্যাঙের নতুন প্রজাতি আবিষ্কার করে সর্বকনিষ্ঠ বিজ্ঞানী হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছেন সাবেক ছাত্র সাজিদ আলী হাওলাদার, দেশের সীমানা ছাড়িয়ে চবির কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র শাখাওয়াত হোসেন ও তার দলের নাম ছড়িয়ে পড়েছে সমগ্র বিশ্বে, সাফ গেমসে স্বর্ণপদকজয়ী মাহফুজা খাতুন শিলা এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ছিলেন। এছাড়া গুগলে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে যোগ দেওয়া সুমিত সাহা এ বিশ্ববিদ্যালয়েরই ছাত্র। পড়ালেখার পাশাপাশি খেলাধুলা ও বিতর্ক অঙ্গনে এখানকার শিক্ষার্থীদের রয়েছে ঈর্ষণীয় সাফল্য।
বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট খুলে জালিয়াতি, তিনজন গ্রেপ্তার
১৭নভেম্বর,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটের আদলে ভুয়া একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জালিয়াতির ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- সিএন্ডএফ প্রতিষ্ঠান খান এন্টারপ্রাইজের মালিক গোলাম মওলা খান, তার ছোট ভাই গোলাম রসুল খান ও ভুয়া ওয়েবসাইট ডেভেলপার আবুল খায়ের পারভেজ। সিআইডির চট্টগ্রাম অঞ্চলের বিশেষ পুলিশ সুপার মুহাম্মদ শাহনেওয়াজ খালেদ গতকাল সোমবার এসব তথ্য জানান। গ্রেপ্তারকৃতরা আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। মুহাম্মদ শাহনেওয়াজ খালেদ বলেন, নগরীর চট্টেশ্বরী সড়ক থেকে গত রবিবার গোলাম মওলা খানকে গ্রেপ্তার করা হয়। একই জায়গা থেকে সোমবার গোলাম ফারুককে ও মোগলটুলি থেকে আবুল খায়ের পারভেজকে প্রেপ্তার করা হয়। প্রসঙ্গত, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নকল ওয়েবসাইট তৈরির পর সেটিতে পণ্য খালাসের ভুয়া ক্লিয়ারিং পারমিট (সিপি) আপলোড করে সেই তথ্য চট্টগ্রাম কাস্টমসে দাখিলের ম্যাধমে পণ্য খালাস নিতে চাইলে এ জালিয়াতি চক্র ধরা পড়ে। পরে ওই প্রতারক চক্রের মালয়েশিয়া থেকে আমদানি করা চীনাবাদাম ও অলিভের একটি চালানে নেসলে গুঁড়োদুধ নিয়ে আসায় ৭৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। সেই চালান খালাস করতে প্রতারক চক্র বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিপি দাখিল করে। কিন্তু দাখিল করা নথিপত্র কাস্টমসের সন্দেহ হলে যাচাই বাছাই করতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে খোঁজ নেয়া হয়। তখনই জানা যায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে জালিয়াতি চক্রের পণ্য খালাসের সিপি দেয়া হয়নি। পরে চট্টগ্রাম কাস্টমস আরো তদন্ত করে জানতে পারে দাখিল করা সিপি ভুয়া এবং যে ওয়েবসাইটে সিপি পাওয়া গেছে সেটিও ভুয়া।
আকবরশাহ থেকে নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
১৭নভেম্বর,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরের আকবরশাহ এলাকার একটি বাসা থেকে নূর টিনা (২২) নামে এক নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) বিকাল ৪টার দিকে আকবরশাহ থানাধীন গোলপাহাড় এলাকার রমজানের মায়ের কলোনীর একটি বাসা তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নূর টিনা গাইবান্ধা জেলার পূর্ব প্রতাপ সদুল্যাপুর এলাকার মো. আল আমিনের স্ত্রী। তিনি স্বামীর সঙ্গে গোলপাহাড় এলাকার রমজানের মায়ের কলোনীতে ভাড়া থাকতেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। আকবরশাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জহির হোসেন বলেন, গোলপাহাড় এলাকার রমজানের মায়ের কলোনীর একটি বাসা থেকে নূর টিনা এক নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
মিরসরাই প্রেস ক্লাবের সাহিত্য সম্পাদক ও সাংবাদিক দিদারুল আলমের বাবার ইন্তেকাল
১৭নভেম্বর,মঙ্গলবার,মিরসরাই প্রতিনিধি,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: মিরসরাই প্রেস ক্লাবের সাহিত্য সম্পাদক ও প্রিয় নিউজের চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান মুহাম্মদ দিদারুল আলমের বাবা আবু তাহের ভূঁইয়া ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) সাড়ে ৬টায় চট্টগ্রাম শহরের মেট্রোপলিটন হাসপতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তর বয়স হয়েছিল ৭২ বছর। পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আবু তাহের ভূঁইয়া কিডনী রোগ সহ নানা রোগে ভুগছিলেন দীর্ঘদিন। তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় সোমবার তাকে চট্টগ্রাম শহরের মেট্রোপলিটন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকাল সাড়ে ৬ টায় তার মৃত্যু হয়। আবু তাহের ভূঁইয়া সাবেক ডাকঘর পরিদর্শক (প্রশাসন) কর্মরত ছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, এক মেয় ও আত্মীয়-স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। এদিকে আবু তাহের ভূঁইয়ার মৃত্যুতে মরহুমের পরিবারের প্রতি শোক প্রকাশ করেছেন মিরসরাই প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য শারফুদ্দীন কাশ্মীর, সভাপতি মো. নুরুল আলম, সাধারণ সম্পাদক এনায়েত হোসেন মিঠু, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর হোসেন চৌধুরী তপু, সামাজিক সংগন শান্তিনীড় সভাপতি আশরাফ উদ্দিন, সিনিয়র সহ-সভাপতি নিজাম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদ মৃদুল দাশ, মিরসরাইনিউজডটকম পরিবার সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন।
মাতারবাড়ি বন্দরের কাজ শুরু
১৭নভেম্বর,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বহুল আলোচিত মাতারবাড়ি বন্দর উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ আজ থেকে শুরু হয়েছে উল্লেখ করে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এসএম আবুল কালাম আজাদ বলেছেন, এ বন্দরের ফলে ঢাকা থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত যে অর্থনৈতিক বেল্ট গড়ে উঠছে তা বেগবান হবে। গতকাল সোমবার বিকেলে চট্টগ্রাম বন্দর ভবনের সামনে মাতারবাড়ি পোর্ট ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট এর জাপানি কনসালটেন্ট নিপ্পন কোয়েইর সাথে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের প্রথম সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। বন্দর চেয়ারম্যান বলেন, মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণ সময়ের দাবি ছিল। এই প্রকল্প ২০২৬ সালে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ২০২৫ সালের মাঝামাঝি থেকে কাজ শুরু করবে মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর। এখানে ৪ থেকে ১০ হাজার কন্টেইনার নিয়ে বড় জাহাজ ভিড়তে পারবে। বছরে ৮ থেকে ১৪ লক্ষ কন্টেইনার হ্যান্ডেলিং করা যাবে এই বন্দর থেকে। দেশের ৯২ শতাংশ আমদানি-রপ্তানির কার্যক্রম পরিচালিত হয় চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে উল্লেখ করে এসএম আবুল কালাম আজাদ বলেন, মিরশরাই ইপিজেড পুরোদমে চালু হয়ে গেলে এবং দেশের আমদানি-রপ্তানি বেড়ে গেলে ভবিষ্যতে চট্টগ্রাম বন্দর সেই বিপুল পরিমান পণ্য হ্যান্ডেলিং করতে পারবে না। এ কারণেই ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর, বে-টার্মিনাল, পতেঙ্গা কন্টেইনার টার্মিনালের মত সব বড় বড় প্রজেক্ট বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। শুধু তাই নয় ১শ বছরের ডেল্টা প্ল্যান নিয়ে কর্মযজ্ঞ চলছে। যাতে ভবিষ্যতে দেশের আমদানি-রপ্তানি স্বাভাবিক গতিতে চলে। সেই ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়ন শুরু হলো মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মানের কাজ দিয়ে।
আজ নাজিরহাট কলেজের অধ্যক্ষ গোপালকৃঞ্চ মুহুরীর ১৯তম মৃত্যু বার্ষিকী
১৭নভেম্বর,মঙ্গলবার,সজল চক্রবর্তী,ফটিকছড়ি,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: আজ মঙ্গলবার বীর মুক্তিযোদ্ধা, চট্টগ্রামন্থ নাজিরহাট কলেজের অধ্যক্ষ গোপাল কৃষ্ণ মুহুরীর ১৯তম মৃত্যু বার্ষিকী। ২০০১ সালে ১৬ নভেম্বর তৎকালীন জোট সরকারের লেলিয়ে দেয়া জামাত -শিবির ও এনডিপির সন্ত্রাসীরা ঐদিন কাক ডাকা ভোরে তাঁর বাসভবনে ঢুকে মাথায় গুলি করে নির্মম ভাবে হত্যা করার মাধ্যমে নির্মম ও বর্বরোচিত ঘটনার ইতিহাস সৃষ্ঠি করে। নিন্দনীয় ও ঘৃণীত হোক এ কালো ইতিহাস। শ্রদ্ধাবনতঃ চিত্তে প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী স্বরণ করেছেন জাতির এই শ্রেষ্ঠ সন্তানকে।
করোনা: চট্টগ্রামে নতুন আক্রান্ত ১৫৭
১৭নভেম্বর,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ১ হাজার ৩৮২টি নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৫৭ জন। এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২২ হাজার ৮৮৩ জন। এইদিন চট্টগ্রামে করোনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (১৬ নভেম্বর) রাতে সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, এইদিন কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাব ও চট্টগ্রামে ৮টি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা হয়। এতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৬৮টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৯জন করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ৫৯৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে শনাক্ত হয় ১৫জন। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ৪২৯টি নমুনা পরীক্ষা করে ৬২জন করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাব ৮৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ৭জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। তা ছাড়া ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৬৯টি নমুনা পরীক্ষা করে ২২জন, শেভরণ ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ৩৮টি নমুনা পরীক্ষা করে ২০জন এবং চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ৩৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ১১জন করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) ১টি নমুনা পরীক্ষা করে এতে নমুনাটি নেগেটিভ পাওয়া যায়। কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ৬১টি নমুনা পরীক্ষা করে ১ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব মিলেছে। চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, গত ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় ১৫৭জন নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। এইদিন নমুনা পরীক্ষা করা হয় ১ হাজার ৩৮২টি। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নগরে ১৩৩জন এবং উপজেলায় ২৪জন।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর