শুক্রবার, এপ্রিল ১৬, ২০২১
চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত আরও ৬৭
০৬,অক্টোবর,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের সরকারি ও বেসরকারি ৮টি ল্যাবে ও কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবে চট্টগ্রামের ৮০৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬৭ জনের দেহে কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়। চট্টগ্রামে সর্বমোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৯ হাজার ১৮৩ জন। মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) সকালে সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনের এ তথ্য জানা যায়। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৭৯টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৭ জন কোভিড-১৯ পজিটিভ শনাক্ত হয়। তারমধ্যে ৪ জন নগরীর ও ১৩ জন উপজেলার বাসিন্দা। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ২৫৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে শনাক্ত হন ১০ জন। তারমধ্যে ৯ জন নগরীর ও ১ জন উপজেলার বাসিন্দা। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ৩১৯টি নমুনা পরীক্ষায় ১৭ জন পজিটিভ পাওয়া গেছে। এরমধ্যে ১৪ জন নগরীর ও ৩ জন উপজেলার বাসিন্দা। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে ৫৩টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪ জন পজিটিভ শনাক্ত হয়। পজিটিভ শনাক্ত হওয়া ৪ জনই নগরীর বাসিন্দা। ইম্পেরিয়াল হাসপাতালের ল্যাবে ৩১টি নমুনা পরীক্ষায় ৪ জন করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। তারা সবাই নগরীর বাসিন্দা। শেভরন ল্যাবে ৩৭টি নমুনা পরীক্ষায় ৮ জন করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। তারাও সবাই নগরীর বাসিন্দা। চট্টগ্রাম মা ও শিশু জেনারেল হাসপাতালের ল্যাবে ১৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এরমধ্যে ৪ জনের পজেটিভ শনাক্ত হয় এবং তারা সবাই নগরীর বাসিন্দা। আরটিআরএলে ২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২ জনেরই কোভিড-১৯ পজিটিভ শনাক্ত হয়। তারা ২ জনের ১ জন নগরীর ও ১ জন উপজেলার বাসিন্দা। এছাড়া কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবে চট্টগ্রামের ১৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে উপজেলার ১ জন আক্রান্ত হিসেবে কেউ শনাক্ত হয়েছে। চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, গত ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় ৬৭ জন নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। গতকাল (রোববার) মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৮০৬ জনের। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নগরে ৪৮ জন এবং উপজেলায় ১৯ জন। শেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ১ জনের মৃত্যু হয়েছে।
সিএমপির শীর্ষ ১৪ পদে রদবদল, ১২ এসআইকে বদলি
০৫,অক্টোবর,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) তিন উপ-কমিশনার (ডিসি), আট অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) ও তিন সহকারী কমিশনার (এসি) পদমর্যাদার কর্মকর্তার রদবদল হয়েছে। সোমবার (০৫ অক্টোবর) বিকেলে সিএমপি কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীরের পৃথক আদেশে এসব রদবদল হয়। সিএমপির উপ-কমিশনার (সদর) আমির জাফর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আদেশে সিএমপির গোয়েন্দা বিভাগের ডিসি (উত্তর) আলী হোসেনকে গোয়েন্দা বিভাগের ডিসি (দক্ষিণ) হিসেবে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, গোয়েন্দা বিভাগের ডিসি (পশ্চিম) মনজুর মোরশেদকে গোয়েন্দা বিভাগের ডিসি (বন্দর) হিসেবে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এবং গোয়েন্দা বিভাগের ডিসি (বন্দর) এসএম মোস্তাইন হোসেনকে এস্টেট অ্যান্ড বিল্ডিং বিভাগের ডিসি হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এর আগে এসএম মোস্তাইন হোসেন এস্টেট অ্যান্ড বিল্ডিং বিভাগের ডিসি হিসেবে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতেন। ডিসি (প্রসিকিউশন) এমএন নাসিরুদ্দিনকে ডিসি (অপরাধ) পদে বদলি করা হয়েছে এবং তাকে ডিসি (প্রসিকিউশন) হিসেবে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সিএমপির দক্ষিণ জোনের এডিসি শাহ মুহাম্মদ আবদুর রউফকে গোয়েন্দা বিভাগের এডিসি (দক্ষিণ), গোয়েন্দা বিভাগের এডিসি (দক্ষিণ) মির্জা সায়েম মাহমুদকে গোয়েন্দা বিভাগের এডিসি (উত্তর) ও অতিরিক্ত দায়িত্বে এডিসি (পিআর), কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের এডিসি পলাশ কান্তি নাথকে দক্ষিণ জোনের এডিসি, গোয়েন্দা বিভাগের এডিসি (উত্তর) আসিফ মহিউদ্দিনকে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের এডিসি, ট্রাফিক বন্দর জোনের এডিসি অলক বিশ্বাসকে বন্দর জোনের এডিসি, এস্টেট অ্যান্ড বিল্ডিং বিভাগের এডিসি নাদিরা নূরকে উত্তর জোনের এডিসি, উত্তর জোনের এডিসি আশিকুর রহমানকে ট্রাফিক বন্দর বিভাগের এডিসি এবং পিওএম-বন্দর জোনের এডিসি নুতান চাকমাকে এমটি বিভাগের এডিসি হিসেবে পদায়ন করা হয়েছে। সিএমপির এস্টেট অ্যান্ড বিল্ডিং বিভাগের সহকারী কমিশনার (এসি) মমতাজ উদ্দিনকে ট্রাফিক পশ্চিম বিভাগের এসি, ট্রাফিক পশ্চিম বিভাগের এসি কীর্তিমান চাকমাকে বন্দর জোনের এসি এবং বন্দর জোনের এসি মো. কামরুল হাসানকে এস্টেট অ্যান্ড বিল্ডিং বিভাগের এসি হিসেবে পদায়ন করা হয়েছে। উপ-কমিশনার (সদর) আমির জাফর বলেন, সিএমপির তিন ডিসি, আট এডিসি ও তিন এসি পদে রদবদল হয়েছে। সিএমপি কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীর স্যার এসব আদেশ দিয়েছেন। এদিকে রোববার (০৪ অক্টোবর) পুলিশ সদর দফতরের এক আদেশে সিএমপিতে কর্মরত ১২ জন উপ-পরিদর্শককে (এসআই), ১১ সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই), দু্ই সার্জেন্ট ও এক এটিএসআইকে বিভিন্ন রেঞ্জ ও অন্য ইউনিটে বদলি করা হয়েছে। বদলি আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে, ৭ অক্টোবরের মধ্যে নতুন কর্মস্থলে যোগ না দিলে ৮ অক্টোবর থেকে তাদেরকে স্ট্যান্ড রিলিজ হিসেবে গণ্য করা হবে। পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (পার্সোনাল ম্যানেজমেন্ট-৩) মো. মাহাবুবুল করিম স্বাক্ষরিত ওই আদেশে সিএমপির এসআই গোলাম মোহাম্মদ নাসিম হোসেনকে নৌ-পুলিশে, এসআই মোহাম্মদ আলাউদ্দিনকে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশে, এসআই সজল কান্তি দাশকে বরিশাল রেঞ্জে, এসআই মোশাররফ হোসাইনকে রেলওয়ে পুলিশে, এসআই আতাউর রহমানকে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশে, এসআই শহীদের রহমানকে রেলওয়ে পুলিশে, এসআই আকরাম হোসেন সুমনকে টুরিস্ট পুলিশে, এসআই আবু মুসাকে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশে, এসআই নিদুল চন্দ্র কপালিকে নৌ পুলিশে, এসআই আবু সাঈদকে রেলওয়ে পুলিশে, এসআই মো. হাবিবুর রহমানকে সিলেট রেঞ্জে এবং মো. আবদুল হককে ময়মনসিংহ রেঞ্জে বদলি করা হয়েছে। পুলিশ সদর দফতরের আরেক আদেশে সিএমপির এএসআই সুকান্ত দস্তিদারকে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশে, এএসআই মো. নাছের আহম্মদকে টুরিস্ট পুলিশে, এএসআই মো. খোরশেদ আলমকে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশে, এএসআই আবু মুছাকে রেলওয়ে পুলিশে, এএসআই কামাল হোসেনকে রেলওয়ে পুলিশে, এএসআই জুয়েল বড়ুয়াকে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশে, এএসআই নয়ন কান্তি দাশকে রেলওয়ে পুলিশে, এএসআই প্রনীত চাকমাকে টুরিস্ট পুলিশে, এএসআই রুমি বড়ুয়াকে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশে, এএসআই মো. বখতিয়ারকে রেলওয়ে পুলিশে ও এএসআই মো. মনির হোসেন ভুঞাকে রেলওয়ে পুলিশে বদলি করা হয়েছে। পৃথক আদেশে সিএমপির ট্রাফিক বিভাগের সার্জেন্ট জাহিদুর রহমানকে খুলনা রেঞ্জে ও সার্জেন্ট মোহাম্মদ আব্দুল আজিজকে বরিশাল রেঞ্জে এবং পৃথক আরেকটি আদেশে সিএমপির এটিএসআই মো. ফরিদ উদ্দীনকে রেলওয়ে পুলিশে বদলি করা হয়েছে।
আকবরশাহে অস্ত্রসহ কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য আটক
০৫,অক্টোবর,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরীর আকবরশাহে মো. ফরহাদ হোসেন (২৫) নামের এক কিশোর গ্যাং সদস্যকে আটক করেছে Rab। রবিবার ( ০৪ অক্টোবর) সকাল সাড়ে নয়টায় জয়ন্তিকা আবাসিক এলাকায় থেকে তাকে আটক করে Rab। আটক মো. ফরহাদ হোসেন চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার মুছাপুর এলাকার মৃত আবুবক্কর সিদ্দিকের ছেলে। Rabর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. মাশকুর রহমান জানান, অভিযানে আটককৃত আসামীর দেহ তল্লাশী করে তার হাতে থাকা একটি পিস্তল সদৃশ্য এবং একটি চাকু উদ্ধারসহ আসামিকে আটক করা হয়। আসামিকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় তারা পথচারীদের মালামাল ও টাকা পয়সা ডাকাতি করার উদ্দেশ্যে সমাবেত হয়েছে। আটককৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত মালামাল সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আকবরশাহ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।
পুরাতন রেল স্টেশনে পিস্তলসহ ৮ ছিনতাইকারী গ্রেফতার
০৫,অক্টোবর,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরীর পুরাতন রেল স্টেশন এলাকা থেকে একটি পিস্তল, ৬ টি ছোরা ও একটি চাপাতিসহ ৮ জন ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (৫ অক্টোবর) ভোর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। বিষয়টি নিউজ একাত্তরকে নিশ্চিত করেন কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসিন। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মো. বদিউল আলম প্রকাশ বদি (২৬), মো. তারেক (২৭), মো. মামুন (২২), জুয়েল দাশ (২৬), মো. আসিফ হোসেন প্রকাশ সাকিব (২০), মেহেদী হাসান (২৩), রিপন দত্ত (২০) ও মো. সোহেল (২৫)। ওসি মোহাম্মদ মহসিন জানান, আসামিরা প্রত্যেকে পেশাদার ছিনতাইকারী। নগরীর বিভিন্ন এলাকায় তারা ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধ করে বেড়ায়। গ্রেফতারের আগেও তারা পুরাতন রেল স্টেশন এলাকায় ডাকাতির উদ্দেশ্যে একত্র হয়। তাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।
ধর্ষণ ও মাদক বন্ধে অবিলম্বে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে: ভাড়াটিয়া, ভোক্তা ও নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ
০৪,অক্টোবর,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মাদকবিরোধী অভিযান চালানোর পরও মাদকের বিস্তার কমেনি বরং বেড়েছে। অভিযোগ রয়েছে, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কিছু সদস্যও মাদক কারবারে জড়িত। নেপথ্যে রাজনৈতিক শক্তিও জড়িত বলে অভিযোগ আছে। মাদক নির্মূলে রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে। অভিভাবকের নজরদারি ও জনসচেতনতা বাড়াতে হবে। সরকার ও প্রশাসনকে কঠোর হতে হবে। গড়ে তুলতে হবে সামাজিক প্রতিরোধ। মাদক মামলার বিচার দ্রুত সম্পন্ন করে অভিযুক্তদের কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। মহামারি প্রতিরোধে পর্যাপ্ত চিকিৎসা সেবা ও স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানিয়ে ভাড়াটিয়া, ভোক্তা ও নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ পরিষদর চেয়ারম্যান প্রবীণ সাংবাদিক কামরুল হুদা ও মহাসচিব সাংবাদিক নাছির উদ্দিন চৌধুরী এক যুক্ত বিবৃতি প্রদান করেন। বিবৃতিতে ভাড়াটিয়া, ভোক্তা ও নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, বাংলাদেশের প্রায় সর্বত্রই ধর্ষণ, গণধর্ষণের মতো অপরাধ প্রায় প্রতিদিনই সংঘটিত হচ্ছে। ধর্ষিতা হিসেবে যেমন শিশু, কিশোর, বয়েসী মহিলাকে ভিকটিম হতে দেখা যাচ্ছে, ধর্ষক হিসেবেও পাওয়া যাচ্ছে বিভিন্ন বয়স ও পেশার লোকজনকে। চাঞ্চল্যকর গণধর্ষণের অপরাধীচক্র কতো পাওয়ারফুল ছিল, সেটা তো ঘটনার ধারাক্রম থেকেই প্রমাণ হয়। প্রকাশ্যে গাড়ির ভেতরে গণধর্ষণ করলো তারা। এই প্রবল ক্ষমতাধর ধর্ষক কারা? ছাত্র। বয়সে তরুণ-যুবক। এখন বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার মধ্যে ২৫-৪০ বয়সের মানুষ সর্বাধিক। এই তরুণ-যুবকগণ, যতো না পড়াশোনা ও দক্ষতা অর্জনে ইচ্ছুক, তার চেয়ে বেশি বৈশ্বিক ঘটনাপ্রবাহ ও কনজিউমারিজম ভিত্তিক সংস্কৃতি দেখে দেখে ভোগপ্রবণ বিকৃত মানসিকতা সম্পন্ন হচ্ছে বেশী। তাদের যোগ্যতা থাক বা না থাক, তাদের মধ্যে প্রচণ্ডভাবে উচ্চাকাঙ্খা তৈরি হয়েছে। ফলে তারা রাজনীতির ছত্রছায়া গ্রহণ বা অপরাধ করে নিজেদের সুযোগ-সুবিধা হাসিলের জন্য। এই অপরাধীদের সঙ্গে রাজনীতি, আদর্শ, দর্শন, মূল্যবোধ, চেতনা ও কমিটমেন্টের কোনো সম্পর্ক নেই। এরাই সময়ে সময়ে ক্ষমতার পালাবদলের সঙ্গে সঙ্গে নিজের হীন স্বার্থে ও ব্যক্তিগত সুবিধার কারণে দল বদলায়। দলের অসৎ ও কুচক্রী রাজনীতিবিদগণ সংখ্যায় নগণ্য হলেও ক্ষমতাবান হয়ে উঠছেন। তারা নিজেদের ব্যক্তিগত বা দলগত স্বার্থে এই তরুণ-যুবকদের কাজে লাগান। এরাই তাদের পৃষ্ঠপোষক হয়ে তরুণ-যুবকদের বিপথগামী করেন। তরুণ-যুবকরাও ক্ষমতার স্বাদ পেয়ে মাদক, ধর্ষণ বা অর্থ উপার্জনে লিপ্ত হয়। ফলে ক্ষমতা ও রাজনীতির আড়ালে একটি অপরাধচক্র প্রতিষ্ঠা পায়। তারা নৃশংস অপকর্ম করতেও পিছপা হয় না। অবিলম্বে এই সমস্ত অপরাধ নির্মূলে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান ভাড়াটিয়া, ভোক্তা ও নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ নেতৃবৃন্দ।
কারাগারে পানির সমস্যা দ্রুত সমাধান করুন: ডা: শাহাদাত হোসেন
০৪,অক্টোবর,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ও চসিক মেয়র প্রার্থী ডাঃ শাহাদাত হোসেন বলেছেন, বিএনপি নেতাকর্মীদেরকে রাজনীতির মাঠ থেকে সরিয়ে দিতে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী অব্যাহত রেখেছে সরকার। মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত বন্দীরা কারাগারে বর্তমানে মানবেতর জীবনযাপন করছে। করোনার কারনে হাইকোর্টের নির্দেশে কারাবন্দীদের কোয়ারেন্টাইনে রাখার বিধান থাকলেও সেখানে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। একটি কামরায় ৬০/৭০ জন বন্দীকে গাদাগাদী করে রাখা হচ্ছে। কারাগারে পানির সমস্যা প্রকট আকার ধারন করেছে। পানির অভাবে বন্দীরা ঠিকমত গোসল করতে পারেনা। খাবার পানির সংকট ও তীব্র গরমে বন্দীরা অসুস্থ হয়ে পড়ছে। সকাল থেকে সারাদিন বিদ্যুৎ থাকেনা। তিনি বন্দীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় কারাগারের খাবারের মান বৃদ্ধি করে পানি ও বিদ্যুতের সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির আহবান জানান। তিনি রবিবার (৪ অক্টোবর) বিকালে প্রবর্তক মোড়স্থ ট্রিটমেন্ট হাসপাতালের সামনে কারামুক্ত বিএনপি নেতাকর্মীরা সাক্ষাত করতে গেলে এসব কথা বলেন। এসময় তিনি বলেন, বর্তমান অবৈধ সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে বিএনপি নেতকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে ক্ষমতার মসনদকে সুরক্ষিত করার চেষ্টা করছে। বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে হাজার হাজার মামলা হয়েছে, অসংখ্য নেতাকর্মী গুম ও খুনের শিকার হয়েছে। কিন্তু মিথ্যা মামলা ও কারাগারকে বিএনপির নেতারা এখন ভয় পায় না। তারা মাটি মানুষের অধিকার আদায় করতে একবার নয় শতবার কারাগারে যেতে প্রস্তুত আছে। এই সময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ কামরুল ইসলাম, সহ শ্রম সম্পাদক আবু মুছা, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউর রহমান জিয়া, কারামুক্ত নেতা চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সহ দপ্তর সম্পাদক মোঃ ইদ্রিস আলী, বায়েজিদ থানা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ডা.ফরহাদ মোঃ তালহা, পাঁচলাইশ থানা বিএনপি সহ সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন, মহানগর যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক এরশাদ হোসেন ও সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন, সহ-সাধারণ সম্পাদক জাফর আহমেদ খোকন, সহ-প্রচার সম্পাদক জিল্লুর রহমান জুয়েল, সহ-সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বাবু, আমিন শিল্পাঞ্চল ওয়ার্ড বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক হাসান সওদাগর, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রচার সম্পাদক আকবর হোসেন মানিক, মহানগর ছাত্রদল নেতা ফখরুল ইসলাম শাহীন, পাঁচলাইশ থানা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মনির হোসেন ভূট্টো ও হুমায়ুন কবীর, খাজা স্বপন, মোহাম্মদ নাছির প্রমূখ।
উঠতি কিশোরদের অপরাধে জড়িয়ে পড়া ঠেকাতে হবে
০৪,অক্টোবর,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে কিশোর গ্যাং ও মাদকের তথ্য দিয়ে উঠতি কিশোরদের অপরাধে জড়িয়ে পড়া ঠেকাতে হবে। তবে মিথ্যা তথ্য দিয়ে কাউকে যেন হয়রানি করা না হয়। আজ শনিবার নগরীর ১৪৫ পুলিশ বিটে একযোগে অনুষ্ঠিত সভায় এই আহ্বান জানানো হয়। বিট পুলিশিং কার্যক্রমের মাধ্যমে কোমলমতি শিশু কিশোরদের সঠিক ও আলোর পথে ফিরিয়ে আনতে নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সিএমপি। সভায় বিট অফিসারগণ নিজ বিট এলাকার স্থানীয় জনগণের সাথে কিশোর গ্যাং এর কার্যক্রম, স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসীদের তথ্য প্রদান সম্পর্কে মতবিনিময় করেন। এসময় কিশোর গ্যাং এর বাস্তব পরিনতি নিয়ে আলোচনা করেন। নগরজুড়ে অপরাধমূলক কার্যক্রমে দ্রুত কিশোরদের জড়িয়ে যাওয়া ঠেকাতেই চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। সভায় উপস্থিত লোকজন বিট পুলিশিং এর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানান। উপস্থিত বক্তব্যে তারা সমাজের নানা ধরনের অপরাধ মূলক কর্মকাণ্ড নিয়ন্ত্রণে বিট পুলিশিং কার্যক্রম কে আরও গতিশীল করার মতামত প্রদান করেন।
ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করলেন প্রশাসক সুজন
০৪,অক্টোবর,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরীর কোতোয়ালি থানাধীন সদরঘাট এলাকার মেমন হাসপাতাল ইউনিট ২ চসিক স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান কার্যালয়ে আগত শিশুকে ক্যাপসুল খাইয়ে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন এলাকায় জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করেছেন প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন। রবিবার (৪ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০ টার সময় তিনি এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এ সময় সুজন বলেন, ভিটামিনের অভাবে রাতকানা রোগ, শিশুদের পুষ্টিহীনতা দেখা দেয়। ভিটামিনের অভাবে কোন শিশু যাতে দৃষ্টি না হারায়, একটি শিশু যাতে পুষ্টি হীনতায় না ভোগে সে লক্ষ্যে সরকার দেশব্যাপী জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন কার্যক্রম পরিচালনা করছে। বছর জুন মাসে অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন শুরু হয়েছে আজ। করোনাভাইরাসের কারণে এ বছর বিলম্বিত হয়েছে এ ক্যাম্পেইন। এবার দুই সপ্তাহ ক্যাম্পেইন চলবে জেলা ও উপজেলাগুলোতে। দু'সপ্তাহের কার্যক্রম শেষে অতিরিক্ত চারদিন দেশের দুর্গম অঞ্চলে এ ক্যাম্পেইন চালানো হবে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চসিক প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আক্তার চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রধান নিবার্হী কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আলী। আরও উপস্থিত ছিলেন ডা. মো. নাছিম ভূঁইয়া, ডা. সুমন তালুকদার প্রমুুখ। জানা যায়-চট্টগ্রামের ১৩ লাখ ২০ হাজার ৭৮৫ শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এ ক্যাম্পেইন চলবে নগরের ৪১টি ওয়ার্ডের মোট ১ হাজার ৩০৮টি স্থায়ী ও অস্থায়ী ভ্রাম্যমাণ কেন্দ্রে। ক্যাম্পেইন শেষ হবে ১৭ অক্টোবর। ক্যাম্পেইনে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপনায় নগরের ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ৮১ হাজার ৫শ শিশুকে একটি নীল রঙের ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল ও ১২ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী ৪ লাখ ৫২ হাজার শিশুকে একটি লাল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত মোট ১ হাজার ২৮৮টি স্থায়ী ও ২০টি অস্থায়ী ভ্রাম্যমাণ কেন্দ্রের মাধ্যামে এ ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।
ফ্লাইওভারে দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু
০৪,অক্টোবর,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরের আখতারুজ্জামান ফ্লাইওভারে পিকআপ ভ্যান ও মোটরসাইকেল সংঘর্ষে মো. রায়হান (২৫) নামে এক যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (৩ অক্টোবর) বিকেল ৪টার এই দুর্ঘটনা ঘটে। খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহীনুজ্জামান জানান, লালখান বাজার থেকে মুরাদপুরের দিকে যাওয়ার পথে গরীবউল্লাহ শাহ মাজারের কাছে পিকআপ ভ্যানকে পেছন দিক থেকে ধাক্কা দেয় দ্রুত গতির মোটরসাইকেল। এতে পড়ে গিয়ে মোটরসাইকেল আরোহী রায়হান গুরুতর আহত হন। তিনি বলেন, পুলিশ মোটরসাইকেল আরোহী রায়হানকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মো. রায়হান বোয়ালখালী উপজেলার পূর্ব গোমদণ্ডী এলাকার বাসিন্দা আব্দুল মজিদের ছেলে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই শীলব্রত বড়ুয়া।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর