শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
শিশুদের সুস্থ মনন গঠনে সাংস্কৃতিক চর্চা প্রয়োজন
১৩জুন২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: রূপালী ব্যাংকের পরিচালক ও চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আবু সুফিয়ান বলেছেন, মনকে শুদ্ধ করে সঙ্গীত। সঙ্গীতচর্চা সুখের সন্ধান দেয়। অস্থির সময়ে শান্তির পরশ পেতে সুস্থ সাংস্কৃতিক চর্চার বিকল্প নেই। শিশুদের পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে যুক্ত রাখতে হবে। এতে শিশুরা নৈতিক অবক্ষয় থেকে মুক্ত থেকে সুন্দর ভবিষ্যত রচনা করতে পারবে। সাংস্কৃতিক চর্চা সমাজকে সুসংগঠিত করতে পারে। বর্ণ-পরিচয় সাংস্কৃতিক একাডেমির এই আয়োজন শিশুদের মেধা বিকাশে ভূমিকা রাখবে। তিনি গত ১০ জুন সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম থিয়েটার ইনস্টিটিউটে বর্ণ-পরিচয় সাংস্কৃতিক একাডেমি আয়োজিত সুরের রাজ্যে প্রতিভা অন্বেষণে সেরা স্বর্ণসুর ও ক্ষুদে স্বর্ণসুর সঙ্গীত প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। বর্ণ-পরিচয় সাংস্কৃতিক একাডেমির সভাপতি রনি বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ছিলেন বর্ণ-পরিচয় সাংস্কৃতিক একাডেমির পরিচালক উজ্জ্বল দত্ত। মহান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইউনুছ। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, বিশিষ্ট চক্ষু বিশেষজ্ঞ ও সার্জন ডা. কথক দাশ, মাসিক জ্যোতির্ময় প্রকাশক এস প্রকাশ পাল, সমাজসেবী স্মৃতি দত্ত, প্রতিযোগিতার বিচারক অজয় চক্রবর্ত্তী, সঞ্জয় চৌধুরী, আকলিমা মুক্তা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন একাডেমির সাধারণ সম্পাদক রানু মজুমদার। শিক্ষক প্রজীব কুমার বড়ুয়া ও ইসমাত ফারজানার সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন একাডেমির সহ-সভাপতি শ্রীকান্ত মজুমদার, যুগ্ম সম্পাদক সোমনাথ বিশ্বাস অন্তু, পূজা ভঞ্জ, সুনয়ন আচার্য্য, রাসেল দেব, জুঁই চক্রবর্ত্তী, নিতু চৌধুরী, অমিত দে, নোবেল আচার্য্য শাওন, জয়শ্রী চৌধুরী, রুমি চৌধুরী, পূজা রুদ্র, সুস্মিতা দাশ তুলি, ইতি দাশ, তন্নী চৌধুরী, সোমা চৌধুরী, স্মৃতি দাশ, ঋতু দে, অর্চি বিশ্বাস, ঋতু দাশ, রীমা চৌধুরী, সঞ্জয় ভক্ত, সেতু বৈদ্য, অমিত আচার্য্য, শিল্পী তানিশা ভঞ্জ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সেরা ও ক্ষুদে বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হয়ে স্বর্ণের গীটার ও শিক্ষাবৃত্তি ১৫ হাজার টাকা পুরস্কার পান বৃষ্টি দে ও প্রশান্ত দাশ রাহুল, ১ম রানার্সআপ হিসেবে স্বর্ণ ও রূপার তবলা ও শিক্ষাবৃত্তি ১০ হাজার টাকা পুরস্কার পান রক্তিম ধর ও রিমি সিনহা, ২য় রানার্সআপ হিসেবে স্বর্ণ ও রূপার বাঁশি ও শিক্ষাবৃত্তি ৫ হাজার টাকা পুরস্কার পান ইপা শীল ও উম্মে কাউসার নিঝুম। গত ২৬ মে চট্টগ্রাম শিশু একাডেমি মিলনায়তনে প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রতিযোগিতায় দুই ক্যাটাগরিতে ২০ জন প্রতিযোগিকে নির্বাচিত করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
আফসারুল আমীনের সাথে শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেলের ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়
১২জুন২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: সাবেক মন্ত্রী, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি, শিক্ষা মন্ত্রণালয় সংসদীয় কমিটির সভাপতি ডা: আফসারুল আমীন এমপির বাসভবনে তার সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এমপি। এসময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক আরশেদুল আলম বাচ্চু, মহানগর আওয়ামী যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী নোবেল, ১১নং দক্ষিণ কাট্টলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ ইসমাইল, সাধারণ সম্পাদক আসলাম সওদাগর, মহানগর ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম সামদানী জনি, সাবেক ছাত্রনেতা তানভীর আহমেদ সিদ্দিকী তসলিম, সাইমুন রিয়াদ সামি, মহানগর বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সাব্বির আহমেদ শামীম প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
হাজিরা দিতে চট্টগ্রাম আদালতে ১৮ জঙ্গি : নিরাপত্তা জোরদার
১১জুন২০১৯,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম আদালতে নিয়মিত হাজিরার জন্য আনা হয়েছে কারাগারে থাকা ১৮ জঙ্গিকে। জঙ্গিদের আদালতে আনাকে কেন্দ্র করে কোন ধারণের অপ্রিতিকর ঘটনাে এড়াতে চট্টগ্রাম আদালত ভবনে ও আশপাশের এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করেছে পুলিশ। চলছে তল্লাশি। শিথিল করা হয়েছে গাড়ি ও সাধারণ মানুষের চলাচল। মঙ্গলবার (১১ জুন) সকাল থেকে কোর্ট হিলের প্রবেশ মুখ ও পুরো আদালত পাড়ায় বিভিন্ন পয়েন্ট পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এই বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (কোতোয়ালী জোন) নোবেল চাকমা জানান, আদালতে ১৮ জঙ্গির হাজিরা দেয়াকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।
চট্টগ্রামের প্রবীন সংবাদপত্র এজেন্ট মোঃ ইব্রাহিমের ইন্তেকাল
৯জুন২০১৯,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম,চট্টগ্রাম:বৃহত্তর চট্টগ্রামের প্রবীন সংবাদপত্র এজেন্ট আলহাজ্ব মোঃ ইব্রাহিম(৮৬)গতকাল ভোর ৫ টায় ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বাদ জোহর মিমি আবাসিক এলাকায় তাঁর প্রথম জানাযা ও বাদ আছর রাঙ্গুনীয়ায় দ্বিতীয় জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্হানে তাঁকে করা হয় ।জানাযায় বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহসভাপতি ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের চট্টগ্রাম ব্যুরোপ্রধান রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, যুগ্নমহাসচিব কাজী মহসীনসহ অগুনতি স্বজন শুভার্থী মুসল্লিরা অংশ নেন ।সংবাদপত্র এজেন্ট আলহাজ্ব মোঃ ইব্রাহিম তিন ছেলে পাচঁ মেয়েসহ অসংখ্য আত্বীয় স্বজন রেখে যান ।
জেলেদের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ
৯জুন২০১৯,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:সাগরে মাছ ধরার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না করায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করেছেন চট্টগ্রামের ৩৮ জেলে পল্লীর বাসিন্দারা। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী রোববার সকাল ১০টা থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ড উপজেলার বাংলাবাজার বাইপাস এলাকায় মহাসড়কে অবস্থান নিয়েছেন তারা। বৈরি আবহাওয়া ও বৃষ্টি উপক্ষো করে নারী-শিশুসহ সড়কের ওপর অবস্থান করছেন হাজারের অধিক জেলে। এ অবস্থায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দেড় ঘণ্টা অবরোধের পর প্রত্যাহার করেছে তারা। জেলেদের অভিযোগ, প্রতিবছর ২৩ মে থেকে ২৩ জুলাই মোট ৬৫ দিন সাগরে মাছ ধরার সরকারি নিষেধাজ্ঞা থাকে। অন্যান্য বছর এই সময়টায় ছোট কাঠের নৌকার জেলেরা মাছ ধরতে পারতো। কিন্তু এ বছর এসব ছোট ছোট নৌকার ক্ষেত্রেও সরকার কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। যার কারণে দীর্ঘ দুই মাস জীবন-জীবিকার ওপর চরম প্রভাব পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।
সিএমপির মাষ্টার প্যারেড অনুষ্ঠিত
৯জুন২০১৯,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: আজ (০৯জুন) সকালে দামপাড়া পুলিশ লাইন্সস্থ প্যারেড মাঠে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ মাহাবুবর রহমান বিপিএম, পিপিএম নির্দেশে মাষ্টার প্যারেড অনুষ্টিত হয়। উক্ত প্যারেডে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপারেশন) আমেনা বেগম, বিপিএম-সেবা মহোদয় মাষ্টার প্যারেডের সালামী গ্রহণ করেন ও মাষ্টার প্যারেড পরিদর্শন করেন। তিনি পুলিশের শৃঙ্খলা ও দায়িত্ববোধ সম্পর্কে বিভিন্ন দিকনির্দেশনা প্রদান করেন। এসি (চকবাজার) নোবেল চাকমা প্যারেড কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এসময় সকল উপ-পুলিশ কমিশনার, অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার, সহকারী পুলিশ কমিশনার, অফিসার ইনচার্জ সহ সিএমপির বিভিন্ন স্তরের পুলিশ সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
চট্টগ্রামে কিশোরী খুন
৮জুন২০১৯,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:মায়ের পাশে ঘুমিয়ে ছিল লিমা আকতার (১৪)। কিন্তু গতকাল ভোর ৩টার দিকে মা ঘুম থেকে উঠে দেখে পাশে মেয়ে নেই। ঘরে-বাইরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর মেয়ের লাশ দেখতে পান পাশের ডোবায়। এ নিয়ে নানা মুনির নানা মত দিলেও মায়ের কাছে আজগুবিই মনে হচ্ছিল ঘটনাটি। পরে খবর পেয়ে ডোবা থেকে মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার জুঁইদন্ডী ইউনিয়নের খুরুশকুল গ্রামের ছকিনার বাপের বাড়িতে ঘটে এ ঘটনা। ঘটনা তদন্তে পুলিশ পার্শ্ববর্তী এলাকার বখাটে যুবক মো. জামাল (২২) কে গ্রেপ্তার করে। নিহত কিশোরী ওই গ্রামের মৃত আহমদ হোসেনের মেয়ে। তিনি কেইপিজেডে একটি গার্মেন্ট কারখানায় চাকরি করতেন। নিহত লিমার ভাই মো. হান্নান বলেন, লিমা বৃহস্পতিবার রাতে মায়ের সাথে ঘুমিয়েছিলো। কিন্তু কিভাবে সে খুন হলো জানি না। কিভাবেই বা তার মরদেহ ডোবায় গেলো তার জানা নেই। তবে এ ঘটনায় গ্রেপ্তার মো. জামাল লিমাকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতো। ঘটনার কয়েকদিন আগেও লিমাকে কু-প্রস্তাব দেয়। তাতে রাজি না হওয়ায় এ সময় জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে জামাল। আর ঘটনাটি বলে দেয়ায় বোনকে তার খেসারত দিতে হলো বলে মনে করছেন হান্নান। আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ বলেন, খবর পেয়ে খুরুশকুল এলাকায় বাড়ির পাশে ডোবা থেকে লিমা আক্তারের হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ওসি জানান, বৃহসপতিবার রাত ১১টার দিকে লিমা আক্তার তার মা খদিজা বেগমসহ একই রুমে ঘুমান। ভোর ৩টার দিকে খদিজা বেগম জেগে দেখেন পাশে লিমা নেই। পরে অনেকক্ষণ খোঁজাখুঁজি করে তারা বাড়ির পাশে ডোবায় লিমা আক্তারের হাত-পা বাঁধা মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। ডোবা থেকে তুলে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক লিমাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পর পরিবারের লোকজনের দেয়া তথ্যেও ভিত্তিতে রায়পুর ইউনিয়নের বাইন্না দীঘি এলাকার মৃত নুর আহমদের পুত্র ও মাদকাসক্ত মো. জামালকে গ্রেপ্তার করেছে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে স্বর্ণালংকার ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। এটি খুন নিশ্চিত হলেও কারা বা কী কারণে তাকে খুন করা হয়েছে তা উদঘাটনে পুলিশ কাজ করছে। থানায় মামলা হয়েছে।
চট্টগ্রামে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধের পর তিন ছিনতাইকারী গ্রেফতার
৮জুন২০১৯,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম নগরীর খুলশী থানার একটি পাহাড়ে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধের পর একজনকে গুলিবিদ্ধ এবং আরও দুজনকে অক্ষত অবস্থায় গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারা তিন জনই ছিনতাইকারী। গ্রেফতার তিন ছিনতাইকারী হলো- মো. রুবেল (২২), মো. জাহিদ (১৮) ও শান্ত (১৭)। এদের মধ্যে রুবেল পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়। শনিবার (৮ জুন) ভোররাতে পশ্চিম খুলশী জালালাবাদ নীলাচল হাউজিং সংলগ্ন পাহাড়ে এ ঘটনা ঘটে জানিয়ে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (বায়েজিদ জোন) পরিত্রাণ তালুকদার বলেন, নীলাচল হাউজিং সংলগ্ন পাহাড়ে ছিনতাইকারীদের গ্রেফতার করতে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে তারা। পু্লিশও পাল্টা গুলি চালায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে রুবেল নামে এক ছিনতাইকারীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। ওসি বলেন, ঘটনাস্থল থেকে জাহিদ ও শান্ত নামে আরও দুই ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। একটি এলজি, দুই রাউন্ড কার্তুজ ও দুইটি ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।
চট্টগ্রামে স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া,গৃহবধূর আত্মহত্যা
৭জুন২০১৯,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রামে স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া করে আত্মহত্যা করেছেন বিউটি আক্তার (২৬) নামে এক গৃহবধূ। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর গৃহবধূর স্বামী গোলাম কিবরিয়া রিপনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নগরীর চকবাজার থানাধীন ডিসি রোডের চাঁনমিয়া মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় বৃহস্পতিবার (০৬ জুন) দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। চকবাজার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া হয় বিউটি আক্তারের। পরে রাত ১০টার দিকে ফ্যানের সিলিংয়ের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করে বিউটি। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর বিউটির স্বামী গোলাম কিবরিয়া রিপনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেশিরা জানিয়েছে-বিউটির সঙ্গে তার স্বামীর প্রায় সময় ঝগড়া হতো। বেশ কিছুদিন বাসা থেকে চলেও গিয়েছিলেন বিউটির স্বামী গোলাম কিবরিয়া রিপন জানান, পুলিশ কর্মকর্তা রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর