শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
চট্টগ্রাম নগরীর ফিশারিঘাট এলাকায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে গণধর্ষণের আসামী নিহত
২৯ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রামে গুলিতে গণধর্ষণ মামলার এক আসামি নিহত হয়েছেন। পুলিশ বলছে, বন্দুকযুদ্ধ এবং আরো একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং দুটি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, গত ২৭ জানুয়ারি কৌশলে প্রাইভেটকারে তুলে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে গণধর্ষণ করে চালক সাহাবুদ্দিন ও শ্যামলসহ ৩ জন। এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় অভিযোগ করেন নির্যাতিতা। সোমবার (২৮ জানুয়ারি) মধ্যরাতে নগরীর ফিশারিঘাট এলাকায় অভিযুক্ত সাহাবুদ্দিন অবস্থান করছে এমন খবরে অভিযান চালানো হয়। এ সময় উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে সাহাবুদ্দিন ও তার সহযোগীরা। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। পরে ঘটনাস্থল থেকে সাহাবুদ্দিনের লাশ উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেলের মর্গে পাঠায় পুলিশ। কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মহসিন জানান, বিগত এক সপ্তাহে দুটি মামলার তদন্ত করতে গিয়ে কিছু মিল পাওয়া যায়। সিএমপির উপ কমিশনার মেহেদী হাসান বলেন, ধর্ষণের কাজে ব্যবহৃত দুটি গাড়িই আমরা উদ্ধার করেছি। আরও কিছু আলামত উদ্ধার করা হয়েছে। বাকি যে অপরাধী পলাতক রয়েছেন আশা করি খুব দ্রুত তাকে আমরা ধরতে পারবো।
সহায়তার আশায় পরীক্ষার হলে না যাওয়ার পরামর্শ মেয়রের
২৯ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: শিক্ষার্থীরা কারও কাছ থেকে সহায়তা পাবে-এমন আশা নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। গতকাল সোমবার নগরের অপর্ণাচরণ সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ মিলনায়তনে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ পরামর্শ দেন মেয়র। স্থানীয় কাউন্সিলর মোহাম্মদ সলিম উল্লাহ বাচ্চুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে চসিকের শিক্ষা স্বাস্থ্য স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক, বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সদস্য এমএম সাইফুদ্দিন, ওমর আলী ফয়সল, শাহীন আকতার, প্রতিষ্ঠান প্রধান অধ্যক্ষ জারেকা বেগম, সহকারী প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ ইসমাইল, পলী রানী শীল, সংগীতা ব্যানার্জি ও কৃষ্ণকুমারী সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আহমদ হোসাইন বক্তব্য দেন। মেয়র বলেন, নিজের ওপর শতভাগ বিশ্বাস রাখাই শ্রেয়। এর আগে তোমরা পিইসি, জেএসসি ও নির্বাচনী পরীক্ষায় সফল হয়ে এ পর্যায়ে এসেছো। তাই এ চূড়ান্ত পরীক্ষায় তুমি পারবে এবং তোমাকে পারতেই হবে। তিনি বলেন, যেকোনো পরীক্ষা হচ্ছে মুল্যায়নের একমাত্র পদ্ধতি। শিক্ষাক্ষেত্রে একজন শিক্ষার্থীর জন্য এসএসসি পরীক্ষা হচ্ছে জীবনের প্রথম মাইলফলক। এ পরীক্ষার মাধ্যমে দীর্ঘ ১০ বছরের শিক্ষাজীবনের যাচাই-বাছাই হয়। এর মধ্য দিয়ে শুরু হয় উচ্চশিক্ষার প্রথম ধাপ। এমনকি এসএসসি পরীক্ষা জীবনের লক্ষ্য স্থির করার পথ। এদিকে কৃষ্ণকুমারী সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কাউন্সিলর মোহাম্মদ সলিম উল্লাহ বাচ্চুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সিটি কপোরেশনের প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া।
স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের বোর্ড সভা
২৯ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লিমিটেড এর পরিচালনা পর্ষদের ৩০৭তম বোর্ড সভা গতকাল ২৮ জানুয়ারি ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের বোর্ড রুমে ব্যাংকের চেয়ারম্যান কাজী আকরাম উদ্দিন আহ্‌মদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ শামসুল আলম, পরিচালক কামাল মোস্তফা চৌধুরী, ফিরোজুর রহমান, এস. এ. এম হোসাইন, মোহাম্মদ আবদুল আজিজ, মো. জাহেদুল হক, ফেরদৌস আলী খান, আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইউসুফ চৌধুরী, এস. এস নিজামুদ্দীন আহমেদ, নজমুল হক চৌধুরী ও মো. নাজমুস সালেহীন সভায় উপস্থিত ছিলেন। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মামুন-উর-রশিদ, অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. তারিকুল আজম এবং উপব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মোতালেব হোসেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
চবি প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের আদর্শ সমাজ বিনির্মাণে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে
২৯ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দীন চৌধুরী বলেছেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা আমাদের শুভেচ্ছা দূত। এ বিশ্ববিদ্যালয় আমাদের সবার জন্য গর্ব। চবি প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের দেশ গঠনে ও আদর্শ সমাজ বিনির্মাণে নিজ নিজ অবস্থান থেকে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে। উপাচার্য বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যারা উচ্চ শিক্ষা অর্জন করে বের হয় কর্মজীবনে তাদেরকে নৈতিকতা, সততা ও মানবিকতার চর্চা করে যেতে হবে। শুধু উচ্চ শিক্ষা অর্জন করলে হবে না, সবাইকে সৎ, আদর্শ ও কর্তব্যনিষ্ঠ মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে হবে। তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিকগুলোও এ বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা সফলতা তুলে ধরেন। গত ২৫ জানুয়ারি নগরীর জিইসি মোড়স্থ একটি রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত চবি ৩৫তম ব্যাচের ’৩৫-এর ঢেউ’ ম্যাগাজিনের মোড়ক উন্মোচন ও ফ্যামেলি গেট টুগেদার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য এসব কথা বলেন। উপাচার্য ৩৫তম ব্যাচকে আরো এগিয়ে নেয়ার প্রেরণা দেন ও এ ব্যাচের উত্তরোত্তর উন্নতি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন। চবি ৩৫তম ব্যাচের অর্থনীতি বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থী রুজিনা পারভীন রুজির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) সহসভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী ও চবি প্রক্টর প্রফেসর মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন চবি মেরিন সায়েন্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. এনামুল হক নীল, ব্যাংকার সাইফুল আবেদীন, সাংবাদিক এম এম মামুন প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
শিক্ষার্থীদের ওপর জাতির ভবিষ্যৎ নির্ভর করছে
২৯ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: দক্ষিণ পশ্চিম বাকলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা, নবীন বরণ ও বার্ষিক পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান গতকাল সোমবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকালে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম। তিনি বলেন, বাল্য বিবাহ, ইভটিজিং ও জঙ্গিবাদকে না বলুন, দেশ প্রেমের বলে বলীয়ান হয়ে সোনার বাংলা গঠনকে হ্যাঁ বলুন। তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষাবান্ধব সরকার। শিক্ষাকে বাদ দিয়ে দেশকে এগিয়ে নেয়া সম্ভব নয়। এজন্য সরকার শিক্ষাকে সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার দিয়েছে। পুরাতন বই দিয়ে বছরের অর্ধেক সময় পার করার দিন শেষ হয়ে গেছে। এখন বছরের প্রথম দিন সকল স্তরের শিক্ষার্থীর হাতে নতুন বই পৌঁছে যাচ্ছে। তোমাদের উপর জাতির ভবিষ্যৎ নির্ভর করছে। তোমরা সুশিক্ষিত হয়ে উঠলে জাতি উন্নত হবে। তোমরা যতবেশি শিক্ষিত হতে পারবে ততবেশি তোমরা সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে যাবে। শফিউল আজম হিরুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন স্কুলদাতা সদস্য হাজী বেলায়েত হোসেন, শিক্ষানুরাগী সদস্য মো. জসিম উদ্দিন, স্কুল কমিটির সদস্য তাহমিনা, প্রধান শিক্ষক হারুনুর রশীদ কুতুবী। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
ব্যবসায়ী জানে আলমের ইন্তেকাল
২৯ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রাইম ডিস্ট্রিবিউশান্স গ্রুপের চেয়ারম্যান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক আলহাজ্ব মোহাম্মদ জানে আলম গতকাল সোমবার ভোররাত ৩টা ৫ মিনিটে ব্যাংককের একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহিরাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, দুই মেয়েসহ অনেক আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আজ মঙ্গলবার রাত ১০টায় সিম্যান্স হোস্টেল মাঠে তাঁর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর মরহুমের নিজের প্রতিষ্ঠিত সেবামূলক প্রতিষ্ঠান আলহাজ্ব জানে আলম ফাউন্ডেশন সংলগ্ন পারিবারিক কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
৯ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা রাঙ্গুনিয়া ভূমি অফিসের
২৯ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাঙ্গুনিয়া উপজেলা ভূমি অফিসের কানুনগোসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল সোমবার রাঙ্গুনিয়া থানায় মামলাটি দায়ের করেন দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় (সজেকা) চট্টগ্রাম-২ এর উপ-সহকরী পরিচালক মো. শরীফ উদ্দিন। মামলার আসামিরা হলেন-চৌধুরী আবু বক্কর হোসেন ইবনে কাশেম, চৌধুরী মোহাম্মদ আবু নাসের ইবনে কাশেম, সুমন চৌধুরী, মো. আকরাম হোসেন, মংনি মার্মা, দীনেশ কান্তি চাকমা, বটন দাশ, সৈয়দুল আলম ও কাজী আতাউর রহমান। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ মোহাম্মদ আহসানুল কাদের ভুঁইয়া। খবর বাংলানিউজের। ওসি বলেন, ক্ষমতার অপব্যবহার করে প্রতারণার মাধ্যমে আবেদনের সাথে আবেদনকারীর ছবি ও স্বাক্ষর মিল না থাকা সত্ত্বেও নামজারি সম্পাদন অভিযোগ ও সহায়তার করার অভিযোগে ভূমি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় (সজেকা) চট্টগ্রাম-২ এর উপ-সহকরী পরিচালক মো. শরীফ উদ্দিন। মামলাটি দুদক তদন্ত করবে বলেও জানান ওসি ইমতিয়াজ মোহাম্মদ আহসানুল কাদের ভুঁইয়া।
শিপ ব্রেকিং শিল্প ঘুরে দাঁড়াচ্ছে সীতাকুণ্ডের
২৯ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশের শিপ ব্রেকিং শিল্পের ইতিহাসে এক মাসে সর্বোচ্চ স্ক্র্যাপ জাহাজ আমদানি হয়েছে। চলতি জানুয়ারি মাসে সীতাকুণ্ডের দক্ষিণাঞ্চলে গড়ে ওঠা শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডগুলোতে ২৭টি জাহাজ বিচিং করা হয়েছে। আমদানিকৃত আরো ছয়টি জাহাজ আগামী দিনকয়েকের মধ্যে বিচিং নেয়ার কথা রয়েছে। দেশে এর আগে কোনদিন এক মাসে ২৭টি জাহাজ বিচিং নেয়া বা একই মাসে ৩৩টি জাহাজ আমদানি করার কোন রেকর্ড নেই। দীর্ঘদিন ধরে নানা সংকটে থাকার পর সীতাকুণ্ডের শিপ ব্রেকিং শিল্প ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে। দেশের শিপ ব্রেকিং ব্যবসায়ীদের অনেকেই অপেক্ষাকৃত চড়াদামেও জাহাজ আনতে শুরু করেছেন। আন্তর্জাতিক বাজারে জাহাজের দর কম থাকলেও দেশে রডের চাহিদা বাড়তি থাকায় নির্বাচনের পর চড়া দামে জাহাজ কেনা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা বলেছেন, সীতাকুণ্ডের দক্ষিণাঞ্চলে গড়ে উঠা শিপ ব্রেকিং শিল্পের সমস্যার কোন অন্ত নেই। বিগত বছরের পর বছর ধরে এই শিল্পের বিকাশ যেমন হয়েছে তেমনি শত শত কোটি টাকা ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে অনেকেই দেউলিয়া হয়ে গেছেন। শিপ ব্রেকিং শিল্পের বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ী দেশ থেকে পালিয়ে যেতেও বাধ্য হয়েছেন। আরো কিছু ব্যবসায়ীর অবস্থাও নাজুক। বিভিন্ন ব্যাংকের কোটি কোটি টাকা বিনিয়োগে গড়ে ওঠা এই সেক্টরের প্রায় ১৩০টি ইয়ার্ড থাকলেও বর্তমানে জাহাজ ভাঙ্গা চলে ৫০/৫৫টি ইয়ার্ডে। সীতাকুণ্ডের সলিমপুর থেকে বাঁশবাড়িয়া পর্যন্ত বিশ কিলোমিটারেরও বেশি বিস্তৃত সাগর উপকুলে গড়ে উঠা এই শিল্পের সম্ভাবনা আবারো উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে। ব্যবসায়ীরা বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কি হয় সেদিকে সজাগ দৃষ্টি ছিল সকলের। নির্বাচনে সরকার পরিবর্তন হলে বিগত সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড বন্ধ হয়ে যাবে, কমে যাবে রডের চাহিদা এমন আশংকা থেকে জাহাজ কেনা বন্ধ করে রেখেছিলেন শিপ ব্রেকিং ব্যবসায়ীরা। নির্বাচনকে সামনে রেখে দেশে স্ক্র্যাপ জাহাজ আমদানি অনেকটা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। বিভিন্ন ইয়ার্ডে লোহার মজুদ কমে নেমে এসেছিল। সীতাকুণ্ডের শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডগুলোতে যেখানে সচরাচর ১২/১৩ লাখ টন লোহার মজুদ থাকে সেখানে গত পহেলা জানুয়ারি লোহার মজুদ ছিল ৭ লাখ ৭ হাজার ১শ টন। কিন্তু একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সরকার পরিবর্তন না হওয়া এবং দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকায় এ ব্যবসা আবারো চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। তাদের হিসেব মতে সরকার বহাল থাকায় দেশের কোন উন্নয়ন প্রকল্পই বন্ধ হবে না। সব প্রকল্পই চলবে। রডের চাহিদা বাড়বে। এই অবস্থায় দেশের শিপ ব্রেকিং ব্যবসায়ীরা অনেকটা উৎসাহী হয়ে স্ক্র্যাপ জাহাজ কেনা শুরু করেন। আন্তর্জাতিক বাজারে পাকিস্তান এবং ভারতের ব্যবসায়ীদের চেয়ে প্রতি টনে ত্রিশ/ চল্লিশ ডলার পর্যন্ত বাড়তি দিয়ে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা স্ক্র্যাপ জাহাজগুলো কিনে নেন। একমাসের মধ্যে ৩৩টি স্ক্র্যাপ জাহাজ আসে দেশে। এরমধ্যে ২৭টি বিচিং হয়েছে শুধুমাত্র জানুয়ারী মাসেই। ২৭টি জাহাজে ২ লাখ ৫৩ হাজার টন লোহা রয়েছে। এতে করে বর্তমানে শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডগুলোতে প্রায় ৯ লাখ টন লোহার মজুদ গড়ে উঠেছে। তবে স্বাভাবিক অবস্থার চেয়ে প্রায় তিন লাখ টন লোহা কম থাকায় বাজারে বিপুল পরিমাণ লোহা বিক্রি হচ্ছে। একই মাসে ৩৩টি জাহাজ কিনে ফেলায় নতুন করে বাংলাদেশমুখী এখন আর জাহাজ আসার সম্ভাবনা নেই। অপরদিকে ভারতের ব্যবসায়ীরাও জাহাজ কেনার ব্যাপারে গো স্লোতে রয়েছেন। ফেব্রুয়ারি মাসে ভারতের বাজেট ঘোষণা হচ্ছে। পাকিস্তানের অর্থনৈতিক অবস্থা খুব একটা ভালো নয়। বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরাও আন্তর্জাতিক বাজারে না থাকায় জাহাজের দাম কমতে শুরু করেছে বলেও সূত্র জানিয়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারে স্ক্র্যাপ জাহাজের দাম কমলেও দেশে তার কোন প্রভাব পড়বে না বলে মন্তব্য করেছেন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। তারা বলেছেন, দেশে লোহার প্রচুর চাহিদা রয়েছে। রডের চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় লোহার বাজার দর কমার কোন আশংকা নেই। গত কয়েকদিনে সেমি অটো রডের দাম টন প্রতি দুই হাজার টাকার মতো বৃদ্ধি পেয়েছে বলে উল্লেখ করে সূত্র বলেছে, ৫১ হাজার ৫০০ টাকা থেকে দর বেড়ে ৫৩ হাজার ৫০০ টাকায় উন্নীত হয়েছে। উল্লেখ্য, গত বছর দেশে ২৫ লাখ ৭৩ হাজার ১৯৮ টন ওজনের স্ক্র্যাপ জাহাজ আমদানি করা হয়েছে। এরমধ্যে সর্বোচ্চ সংখ্যক ২৫টি জাহাজ আমদানি করেছে কে আর গ্রুপ। ২৫টি স্ক্র্যাপ জাহাজে এই কোম্পানি সর্বমোট ২ লাখ ২২ হাজার ৫৫০ টন ওজনের স্ক্র্যাপ জাহাজ আমদানি করে। শীর্ষ দশ আমদানিকারকের মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মোহাম্মদ শওকত আলী চৌধুরীর এস.এন কর্পোরেশন। তারা আমদানি করেছে ১৬টি। তৃতীয় স্থানে আরেফিন এন্টারপ্রাইজ। তাদের আমদানি ১২টি। এরপরে ক্রমান্বয়ে রয়েছে গোল্ডেন ইস্পাত ৯টি, আছাদী ৭টি, প্রিমিয়াম ট্রেড ৭টি, জিরি ৭টি, কেএসবি ৫টি, জিরি ৬টি, তাহের এন্ড কোম্পানি ১০টি এবং পিএইচপি ৩টি স্ক্র্যাপ জাহাজ আমদানি করেছে। চলতি বছর জাহাজ আমদানির পরিমাণ আরো বাড়বে বলেও মনে করা হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে গতকাল একাধিক শিপ ব্রেকিং ব্যবসায়ীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, অনেক সংকট ছিল। অনেক সংকট রয়েছে। তবুও মোটামুটি ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে শিপ ব্রেকিং শিল্প। এই ধারা অব্যাহত থাকলে শিপ ব্রেকিং সেক্টরে বিরাজমান বিভিন্ন সংকটেরও অবসান হবে বলেও তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন। গত বছরের শীর্ষ আমদানিকারক কে.আর গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সেকান্দর হোসেন টিংকু বলেন, আসলে আমাদের দেশে লোহার চাহিদা প্রতিদিনই বাড়ছে। সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে প্রচুর লোহা লাগছে। আরো বহু লোহা লাগবে। লোহা ছাড়া আধুনিক বিশ্ব কল্পনাও করা যায় না। আমি ব্যবসার জন্য জাহাজ এনেছি। কেটেছি। বিক্রি করেছি। প্রথম হওয়ার জন্য জাহাজ কিনে আনিনি। ভবিষ্যতেও আমি স্বাভাবিক ধারায় ব্যবসা করবো। কারো সাথে কোনরূপ প্রতিযোগিতা করতে নয়, দেশের লোহার চাহিদা মেটাতে স্ক্র্যাপ জাহাজ আনতে হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। আন্তর্জাতিক বাজারে যখন যে অবস্থা তখন সেভাবে জাহাজ কিনতে হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
মেট্রোরেল নির্মাণের পরিকল্পনা চট্টগ্রামেও
২৯ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভবিষ্যৎ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা, দ্রুত ও উন্নত গণপরিবহন সেবার লক্ষ্যে চট্টগ্রামে মেট্রোরেল নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে সিডিএ। প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে চায়না রেলওয়ে কোম্পানির সাথে চুক্তি হবে এ সপ্তাহে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটি চালু হলে যানজট নিরসনের পাশাপাশি দ্রুত সময়ে এক সাথে হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করতে পারবে। মেট্রোরেল। উন্নত বিশ্বে নগরবাসীর দ্রুত যাতায়াতের জনপ্রিয় মাধ্যম। তাই চট্টগ্রামেও মেট্রোরেল নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে সিডিএ। সিডিএ বলছে, আগামীতে বন্দরের কর্মকাণ্ড বৃদ্ধি ও ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইস্পিড রেল চালু হবে। এ নেটওয়ার্কে যুক্ত এবং সময়ের গতিতে চলতে হলে নগরবাসীর প্রয়োজন মেট্রোরেল। প্রাথমিকভাবে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন এলাকা, পরে তা সম্প্রসারণ করা হবে অর্থনৈতিক অঞ্চল মীরসরাই ও সীতাকুন্ড পর্যন্ত। চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম বলেন, 'আমরা আপাতত সিটি করপোরেশনের এলাকাকেই পরিকল্পনায় রেখেছি। আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী কোন শহরের জনসংখ্যা ২০ লাখের বেশি হলে প্রয়োজন মেট্রেরেলের। সিডিএ এর নেয়া এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন নগরবাসী। তারা বলেন, 'মেট্রোরেল হলে যানজটও কমবে, যোগাযোগ ব্যবস্থাও ভালো হবে। বন্দর নগরী চট্টগ্রামে এখন ঘণ্টায় যানবাহনের গতি ১২-১৫ কিলোমিটার। গতি বাড়াতে হলে এখন থেকে নিতে হবে মেট্রোরেলের পরিকল্পনা। নইলে অচল হয়ে যাবে বন্দরনগরী এমন মন্তব্য বিশেষজ্ঞদের। নগর পরিকল্পনাবিদ স্থপতি আশিক ইমরান বলেন, আমরা যেই শহরকে বাণিজ্যিক শহর বলছি সেখানে যান চলাচলের এমন সমস্যা কাম্য নয়। সুতরাং এই শহরে মেট্রোরেল হলে মানুষের যাতায়াত সহজ, যানজটহীন ও আরামদায়ক হবে। নগর পরিকল্পনাবিদ প্রফেসর ইঞ্জিনিয়ার আলী আশরাফ বলেন, গণপরিবহনের সমস্যা কাটাতে হলে আমাদের বিকল্প ভাবতে হবে। সেক্ষেত্রে মেট্রোরেল একটা কার্যকর ব্যবস্থা হতে পারে। চট্টগ্রাম নগরীতে প্রায় ৬০ লাখ মানুষের বসবাস। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রতিদিন দুই লাখের বেশি মানুষ প্রবেশ করে নগরীতে। এদিকে, রাজধানীতে মেট্রোরেল নির্মাণের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর