ওয়ার্লেস ঝাউতলা কলোনী উচ্চ বিদ্যালয়ে বই বিতরণ
০১জানুয়ারী,বুধবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: ১৩নং পাহাড়তলী ওয়ার্ডস্থ ঐহিত্যবাহী ওয়ার্লেস ঝাউতলা কলোনী উচ্চ বিদ্যালয়ে অদ্য ১ জানুয়ারি ২০২০ইং সকাল ১০টায় বিনামূল্যে বই বিতরণ উৎসব বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ করেন বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও ১৩নং পাহাড়তলী ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন হীরন। এসময় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথি বলেন আগামী সোনার বাংলা গঠন করতে বর্তমান প্রজন্মের শিক্ষার্থীদেরকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে অভিভাবক, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদেরকে পড়ালেখায় মনোযোগী হতে হবে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মহসীনের সভাপতিত্বে ও সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ আমিনুল হকের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, মহানগর আওয়ামী যুবলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য মাসুদ রেজা, বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের অর্থ উপ-কমিটির আহ্বায়ক মোঃ নুরুল মোস্তফা, পরিচালনা পরিষদের সদস্য আব্দুল হক, এয়াকুব আলী, সহকারী প্রধান শিক্ষক বাবু প্রদীপ কানুনগো, কেজি শাখার রেক্টর শিরিন বারী, শিক্ষক প্রতীক ধর, রীনা চক্রবর্তী, সুফিয়া খাতুন, আশরাফ উদ্দিন, রোকেয়া বেগম, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ শরিফুল ইসলাম, সাহেদা মমতাজ, নিশাত জাহান নীলা প্রমুখ। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে জাতীয় সংগীত গেয়ে বই বিতরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন হীরন।
উত্তর কাট্টলী বিশ্বাসপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠ্যপুস্তক উৎসব অনুষ্ঠিত
০১জানুয়ারী,বুধবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সংরক্ষিত-৪ (৯, ১০ ও ১৩) নং ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর ও চট্টগ্রাম ওয়াসা পরিচালনা পরিষদের বোর্ড সদস্য এবং বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি আবিদা আজাদ বলেছেন কোমলমতি শিক্ষার্থীদেরকে পড়ালেখার পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাঙ্গালি সংস্কৃতি চর্চায় পারদর্শি করে তুলতে শিক্ষকদের সচেতনতার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে। অদ্য ১ জানুয়ারি ২০২০ইং মুজিব বর্ষের প্রথম দিনে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিলুফার জাহানর সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পরিচালনা পরিষদের সাবেক সভাপতি ও আমেরিকার প্রবাসী আকতারুল ইসলাম আপ্পি, সহ-সভাপতি ইমতিয়াজ চৌধুরী। শিক্ষকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শাহী আক্তার, মোঃ শোয়েব আলম চৌধুরী, শেখ শাখাওয়াত হোসেন, আনার ইয়াসমিন, রুবিনা পারভীন পীরজাদি, সেলিনা বেগম, দিলশাদ আরা তাজিন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের ৬৫০ জন শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ করা হয়।
কাট্টলী নূরুল হক চৌধুরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই উৎসব সম্পন্ন
০১জানুয়ারী,বুধবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ঘোষিত আজ ১ জানুয়ারি ২০২০ সারাদেশের সকল বিদ্যালয়ের ন্যায় চট্টগ্রাম জেলার পাহাড়তলী থানাধীন ১০নং উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডের কাট্টলী নূরুল হক চৌধুরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সকালে বই বিতরন উৎসব-২০২০ অনুষ্ঠিত হয়। স্কুলের সকল ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বছরের নতুন বই হাতে তুলে দেওয়া হয়। উক্ত বই বিতরণ উৎসবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র ড. নিছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, সমাজসেবক শেখ আমীর হোসেন হীরা, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা মনজুরা বেগম, বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মোহাম্মদ জাকির হোসেন, সহকারি শিক্ষক মো. ইমরান হোসেন, নাছিমা আকতার, শাহনাজ বেগম, শাকিলা সুলতানা, নিলুফার ইয়াছমিন, জেসমিন আকতার, জুলিয়া আকতার, নাহিদা আকতার চৌধুরী, রাবেয়া সুলতানা প্রমুখ।
দারিদ্রমুক্ত, মর্যাদাশীল ও মানবিক বাংলাদেশ গড়তে চাই:মোছলেম উদ্দীন আহমদ
০১জানুয়ারী,বুধবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোছলেম উদ্দীন আহমদ বলেছেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির স্বদেশভূমি দেখতে চাই। দারিদ্রমুক্ত, মর্যাদাশীল ও মানবিক বাংলাদেশ গড়তে চাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন হচ্ছে। বর্তমান সরকারের শাষণামলে বাংলাদেশ অপধারা হতে মুক্ত হয়ে সঠিক ধারায় আসতে পেরেছে। আজ স্বাক্ষরতার হার বেড়েছে, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি পেয়েছে, বিদ্যুৎ-এ বৈপ্লবিক পরিবর্তন হয়েছে, মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি পেয়েছে, বেতন বৃদ্ধি, বিভিন্ন ভাতা প্রদান, তথ্য প্রযুক্তি সুবিধা, দূর্নীতি হ্রাস, দ্বিগুণ খাদ্যশষ্য উৎপাদন, স্বাস্থ্য সেবা দোরগোরায় নিয়ে যাওয়া, মাদক, সন্ত্রাস বিরোধী কার্যক্রমে গতি আনা ও মেগাপ্রজেক্ট গুলোর সুফল পাওয়ায় দেশ অন্ধকার হতে আলোয় ফুটে উঠেছে। এসব কিছুই সম্ভব হয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সফল নেতৃত্বের কারনে। তিনি ১ জানুয়ারি বুধবার দুপুর ২টায় ৩ নং পাঁচলাইশ ওয়ার্ডে নৌকার পক্ষে গণ-সংযোগকালে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ উপ-নির্বাচনে নৌকার পক্ষে যে গণ-জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে তা কাজে লাগাতে হবে। নৌকা এদেশের প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রামে প্রেরণার উৎস। নৌকা মানে জনগনের কল্যাণ, অধিকার প্রতিষ্ঠা, দেশের মর্যাদা বৃদ্ধি, সাম্প্রদায়িক শক্তির পিছু হঠা। নৌকার বিজয় হলে দেশ ও জনগণের বিজয় হবে। কারণ নৌকা এ দেশের জনগণের সাথে কখনো বেঈমানি করেনি। মনে রাখতে হবে জনগণের প্রত্যাশা পূরনই রাজনীতি, জনগণের বিশ্বাসের সাথে একাত্মতা করে চলাই রাজনীতি। এই রাজনীতিকেই শেখ হাসিনা এগিয়ে নিতে কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তাঁর হাতকে শক্তিশালী করাই আওয়ামী রাজনীতি পরিবারের প্রতিটি সদস্যের প্রধান কর্তব্য। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ শ্রম সম্পাদক খোরশেদ আলম, কাউন্সিলর আলহাজ্ব কফিল উদ্দিন, পাঁচলাইশ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আবদুস শাকুর ফারুকী, শিল্পপতি মো: এমরান, আবদুল নবী লেদু, মো: রফিক, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতৃবৃন্দ।
বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে কাট্টলী পরিষদের উদ্যোগে বর্ণাঢ্য Rally
০১জানুয়ারী,বুধবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: ১ জানুয়ারি নগরীর ১০নং উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডস্থ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে মুজিব বর্ষকে স্বাগত জানিয়ে কাট্টলী পরিষদের উদ্যোগে বর্ণাঢ্য Rally কাট্টলীর বিভিন্ন সড়কে পদক্ষিণ করে কর্ণেলহাট মোড়ে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র ড. নিছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু। আরো উপস্থিত ছিলেন আকবরশাহ্ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতান আহমেদ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক কাজী আলতাফ, সহ-সভাপতি লোকমান আলী, আইন বিষয়ক সম্পাদক আবদুল কাদের, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবু সুফিয়ান, আওয়ামী লীগ নেতা নুর নবী চৌধুরী, লায়ন গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, হারুন অর রশীদ চৌধুরী, ফয়সাল বিন নিজাম, রোকন উদ্দিন চৌধুরী, মুনমুন চৌধুরী, সবিতা বিশ্বাস সহ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গণের ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
নতুন বই পড়ে আদর্শ মানুষ হতে হবে:এম মনজুর আলম
০১জানুয়ারী,বুধবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: উত্তর কাট্টলী আলহাজ্ব মোস্তফা-হাকিম কেজি এন্ড হাই স্কুল চত্বরে গতকাল সকাল ১০টায় স্কুল শিক্ষার্থীদের মাঝে ঝকঝকে পাতার রঙিন বোর্ড বই প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা এম মনজুর আলম। অনুষ্ঠানে মনজুর আলম বলেন, যাঁর মাধ্যমে প্রতি বছর রঙিন পাতার নতুন বই দেয়া হচ্ছে তিনি আমাদের সরকার প্রধান বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হসিনা। তাঁর শাসনামলে এখন বছরের প্রথম দিনে দেশের সকল শিক্ষার্থী নতুন বই পাচ্ছে। আগে নতুন বছরেও শিক্ষার্থীকে পুরাতন বই দেয়া হতো। এখন আমাদের দেশ অনেক সমৃদ্ধ। অনেক এগিয়ে। আমাদের বাংলাদেশ এখন উন্নয়নশীল দেশের কাতারে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর অধীনে আমাদের এই উন্নতি সম্ভব হয়েছে। এই জন্য ধন্যবাদ বঙ্গবন্ধু কন্যাকে। সাথে সাথে বিনম্্র শ্রদ্ধা জানাচ্ছি জন্ম শতবর্ষে পদার্পণ করা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। যাঁর কারণে আমরা পেলাম একটি স্বাধীন দেশ, একটি পতাকা আর একটি মানচিত্র। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মরিব্বুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, উত্তর কাট্টলী আলহাজ্ব মোস্তফা-হাকিম কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলমগীর, উপাধ্যক্ষ মাহফুজুল হক চৌধুরী, উত্তর কাট্টলী আলহাজ্ব মোস্তফা-হাকিম স্কুলের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য নেছার আহাম্মদ, শিক্ষক মোহাম্মদ আব্দুস সাত্তার প্রমুখ।
চরণদ্বীপ রজভীয়া ফাযিল মাদরাসায় বই উৎসব,শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ
০১জানুয়ারী,বুধবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: সরকার ঘোষিত ,বই উৎসব ২০২০, উপলক্ষে ১ জানুয়ারি বুধবার সকাল ১০টায় বোয়ালখালী উপজেলার প্রাচীনতম দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চরণদ্বীপ রজভীয়া ইসলামিয়া ফাযিল মাদরাসার শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ করা হয় মাদরাসা মিলনায়তনে। নতুন বই বিতরণ করেন চরণদ্বীপ রজভীয়া ইসলামিয়া ফাযিল মাদরাসার অধ্যক্ষ ও ৭নং চরণদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ শোয়াইব রেজা। মাওলানা জিল্লুর রহমান হাবিবীর পরিচালনায় নতুন বই বিতরণ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন উপাধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ ওবাইদুল্লাহ, অধ্যাপক শাব্বির আহমদ, অধ্যাপক দেলোয়ারুল ইসলাম, আরবী প্রভাষক মঈনুদ্দিন মোহাম্মদ ওসমান, অধ্যাপক এনামুল হক, অধ্যাপিকা মোরশেদা বেগম, মাওলানা ইসমাঈল কুতুবী, বিবি কুলসুম, মাওলানা আব্দুল মালেক, সহকারী শিক্ষক রিটু কুমার বড়ুয়া, আবুল কালাম আজাদ, জুলেখা বেগম, আব্দুল হালিম অহিদী, মাওলানা মোহাম্মদ শাহ আলম, মাওলানা আনিসুর রহমান, মাওলানা নুর মোহাম্মদ, ফারজানা সেহেলী, শারাবান তাহুরা প্রমুখ।
অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলমের জন্মদিন উদ্যাপন
০১জানুয়ারী,বুধবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এর মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলমের ৬২তম জন্মদিন উদ্যাপন করেছে চুয়েট পরিবার। ০১ জানুয়ারি (মঙ্গলবার), সকালে ভাইস চ্যান্সেলর কার্যালয়ে চুয়েট পরিবারের সদস্যদের সাথে নিয়ে জন্মদিনের কেক কাটেন। এ সময় রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অফিস ও সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। উল্লেখ্য, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম ১৯৫৮ সালের ১ জানুয়ারি চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার মরিয়মনগরে এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। তাঁর পিতার নাম মরহুম আবদুল হোসেন, মাতা মরহুমা খায়রুন্নেসা। অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম চট্টগ্রামের তৎকালীন ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের (বর্তমানে চুয়েট) ছাত্র হিসেবে ১৯৭৯ সালে ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ থেকে প্রথম শ্রেণীতে বি.এস.সি ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি সম্পন্ন করেন। পরবর্তীতে তিনি কৃতিত্বের সাথে এম.এসসি ইঞ্জিনিয়ারিং এবং পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি বিভিন্ন জাতীয় ও আর্ন্তজাতিক কনফারেন্সে ৫টি মূল্যবান প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। ১১টি জার্নালে তাঁর গুরুত্বপূর্ণ প্রবন্ধ প্রকাশ হয়। তাঁর প্রধান গবেষণা ক্ষেত্র হলো- Plasma Physics, Feedback System & Control Engineering, Modern Electronics প্রভৃতি। বর্তমান ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলমের গতিশীল নেতৃত্বে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের প্রকৌশল শিক্ষা ও গবেষণার অন্যতম শীর্ষ বিদ্যাপীঠ হিসেবে চুয়েট এগিয়ে যাচ্ছে। ২০১৬ সালের ২৭ এপ্রিল চুয়েটের ৫ম ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই তাঁর নিরন্তর প্রচেষ্টার ফলে ৩২০ কোটি টাকার একটি ডেভলপমেন্ট প্রজেক্ট প্ল্যান (ডিপিপি) একনেকে অনুমোদন হয়ে বর্তমানে পুরোদমে বাস্তবায়ন কাজ চলমান রয়েছে। এরফলে বর্তমানে চুয়েটে অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও গবেষণা ল্যাবরেটরি স্থাপনসহ নানা উন্নয়ন কর্মকা- ইতোমধ্যে দৃশ্যমান হয়েছে। অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলমের দৃঢতায় দেশের বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সর্বপ্রথম চুয়েটে নির্মিতব্য শেখ কামাল আইটি বিজনেস ইনকিউবেটর স্থাপন প্রকল্পের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। এছাড়া নতুন একটি একাডেমিক ভবন নির্মাণ, জাতির জনক বন্ধবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল নির্মাণ, স্বাধীনতা ভাস্কর্য নির্মাণ, তিনতলা বিশিষ্ট ছাত্রকল্যাণ কমপ্লেক্স ও আন্তর্জাতিক অফিস (টিএসসি) নির্মাণ, এ.কে. খান ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে ৬তলা বিশিষ্ট বেগম শামসুন্নাহার খান হল নির্মাণ এবং বেশকিছু আধুনিক ল্যাবরেটরি স্থাপনসহ বেশকিছু উল্লেখযোগ্য সফলতা রয়েছে। পাশাপাশি উচ্চতর গবেষণা সুবিধার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ল্যাবরেটরি নির্মাণ, নতুন ছাত্র হল ও একাডেমিক ভবন নির্মাণ, মেডিকেল সেন্টারের আধুনিকায়ন ও নতুন মেডিকেল সেন্টার ভবন নির্মাণসহ বিভিন্ন বিভাগে উন্নতমানের ল্যাবরেটরি স্থাপন ও যন্ত্রপাতি ক্রয়ের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। সম্প্রতি প্রায় এক হাজার কোটি টাকার আরো একটি ডিপিপি একনেকে পাঠানো হয়েছে। অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম ১৯৮২ সালের ১৯ আগস্ট প্রভাষক হিসেবে চট্টগ্রামের তৎকালীন ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে প্রভাষক হিসেবে যোগ দিয়ে কর্মজীবন শুরু করেন। পরে ১৯৮৬ সালের ২ মার্চ সহকারী অধ্যাপক পদে পদোন্নতি পান। ২০০৭ সালের ২৩ এপ্রিল সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতির পর ২০০৯ সালের ১৯ জুলাই থেকে একই বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করেন। ২০১৩ সালের ৬ মার্চ তিনি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে নিয়োগ পান। ১৫ এপ্রিল, ২০১৬ খ্রিঃ ভাইস চ্যান্সেলর পদে মেয়াদ পূর্ণ হওয়ায় উক্ত পদ থেকে পূর্বের ভাইস চ্যান্সেলর বিদায় নিলে অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম উক্ত দিন থেকে ভারপ্রাপ্ত ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করেন। এরপর ২৭ এপ্রিল, ২০১৬ খ্রিঃ চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এর পঞ্চম ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে নিয়োগ পান অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। মহামান্য রাষ্ট্রপতি তাঁকে ভাইস চ্যান্সেলর পদে পরবর্তী ৪ (চার) বছর মেয়াদের জন্য নিয়োগ প্রদান করেন। অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম বিভিন্ন সময় তড়িৎ ও কম্পিউটার কৌশল অনুষদের ডীন , ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, বিআইটি-এর বোর্ড অব গভর্ণরস মেম্বার, এডভাইজরি কমিটি মেম্বার, একাডেমিক কাউন্সিল মেম্বার, চুয়েটের ইনস্টিটিউট অব এনার্জি টেকনোলজি (আইইটি)-এর পরিচালক, ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি (আইআইসিটি)-এর পরিচালক, চুয়েটের সিন্ডিকেট মেম্বার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ইনস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স-এর চট্টগ্রাম কেন্দ্রের নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ইনস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স,বাংলাদেশ-এর ফেলো এবং লোকাল কাউন্সিল মেম্বার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী রাঙ্গুনিয়া কলেজের গর্ভনিং বডির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বর্ণাঢ্য কর্মজীবনে অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম যুক্তরাজ্য, দক্ষিণ কোরিয়া, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, সৌদিআরবসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ভ্রমন করেন।
চট্টগ্রাম নগরীর শেরশাহ এলাকায় ছুরিকাঘাতে যুবক খুন
০১জানুয়ারী,বুধবার,চট্টগ্রাম প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরীর বায়েজিদ বোস্তামি থানার শেরশাহ এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে মো. রিপন (২৮) নামে এক যুবক খুন হয়েছে। একই ঘটনায় আল আমিন (২৬) নামে আরও এক যুবক ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছে। আহত আল আমিন চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। ঘটনার পরপরই পুলিশ হত্যার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে দুইজনকে আটক করেছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে তাদের পরিচয় জানায়নি পুলিশ। বায়েজিদ বোস্তামি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রিটন সরকার বলেন, শেরশাহ এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে রিপন নামে এক যুবক খুন হয়েছে। আরও একজন আহত হয়েছে। দুইজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রিটন সরকার বলেন, শেরশাহ এলাকায় একটি মেজবানে গিয়েছিল রিপন ও তার বন্ধুরা। মেজবান থেকে ফেরার পথে তাদের ওপর হামলা করে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর