চান্দগাঁওয়ে মা-ছেলে খুন
২৫আগস্ট,মঙ্গলবার,রাজিব দাশ,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরীর চান্দগাঁও থানাধীন পুরাতন চান্দগাঁও এলাকায় একসাথে খুন হয়েছেন মা ও ছেলে। সোমবার (২৪ আগস্ট) রাতে পুরাতন চান্দগাঁও রমজান আলী সেরেস্তাদারের বাড়ি এলাকায় জোড়া খুনের এ ঘটনা ঘটে। জোড়া খুনের শিকার দুইজন হলো- গুলনাহার বেগম (৩৩) ও তার ছেলে রিফাত (৯)। তবে কে বা কারা এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে তা নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। পুলিশ বলছে, তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। কে বা কারা হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে তা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে তা বের করার চেষ্টা চলছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চাঁন্দগাও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান খন্দকার। চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান খন্দকার বলেন বলেন, ঘটনা শুনেই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। কে বা কারা এমন নৃশংস হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে তা জানা যায়নি। তদন্ত চলছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান আতাউর রহমান খন্দকার।
মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধনে হামলা, সংসদ সদস্যের পিএসসহ গ্রেফতার ৪
২৪আগস্ট,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মুক্তিযোদ্ধা ডা. আলী আশরাফের মৃত্যুর পর বাঁশখালীতে মুক্তিযুদ্ধ হয়নি দাবি করে বক্তব্য দেওয়ায় তার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধনে হামলার ঘটনায় বাঁশখালীর সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীর পিএস একেএম মোস্তাফিজুর রহমান রাসেলসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (২৪ আগস্ট) হামলার ঘটনার পর প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে একজন ও পরে কোতোয়ালী মোড় থেকে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার চারজন হলো-বাঁশখালীর সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীর পিএস একেএম মোস্তাফিজুর রহমান রাসেল, এনামুল হক, আবুল কালাম ও মিজানুর রহমান। বাকি তিনজন বাঁশখালীর সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীর অনুসারী বলে জানা গেছে। কোতোয়ালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। সোমবার সকাল সাড়ে ১১টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ এ হামলা চালানো হয়। হামলায় মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিকসহ একাধিক ব্যক্তি আহত হয়। মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মোজাফফর আহমদ বলেন, মৌলভী সৈয়দকে মুক্তিযোদ্ধা বলে অস্বীকার করা এবং বাঁশখালীতে কোনো মুক্তিযুদ্ধ হয়নি বাঁশখালীর এমপির এমন বক্তব্যের প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধন চলাকালে কয়েকটি গাড়ি ভর্তি লোকজন এসে আমাদের ওপর হামলা চালায়। তারা সকলেই বাঁশখালীর এমপি মোস্তাফিজুর রহমানের অনুসারী। এতে ১০ জন মুক্তিযোদ্ধা আহত হয়েছেন বলেও জানান তিনি। আহতদের মধ্যে মোজাফফর আহমদ সহ বাঁশখালী থানা কমান্ডার আবুল হাশেম, সাতকানিয়া থানা কমান্ডার আবু তাহের, মুক্তিযোদ্ধা আজিমুল ইসলাম, আবদুর রাজ্জাক, মৌলভী সৈয়দের ভাতিজা জয়নাল আবেদীন, জহির উদ্দীন বাবর, ইমরানুল ইসলাম তুহিন, আবু সাদাত মো. সায়েম, মোবাশ্বের হোসেন সোহান, কামরুল হুদা পাভেলের নাম জানা গেছে। হামলার ঘটনায় জহির উদ্দিন বাবর বাদি হয়ে কোতোয়ালী থানায় মামলা করছেন বলে জানা গেছে।
অবৈধ সম্পদ: দুদকের মামলায় আসামি প্রদীপ-চুমকি দম্পত্তি
২৪আগস্ট,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে টেকনাফ থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (সাময়িক বরখাস্ত) প্রদীপ কুমার দাশ ও তার স্ত্রী চুমকীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। রোববার (২৩ আগস্ট) দুদকের সহকারী পরিচালক রিয়াজ উদ্দীন দুদকের চট্টগ্রামের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন দুদকের জনসংযোগ (পরিচালক) কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য। তিনি জানান, ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও তার স্ত্রী চুমকীর বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদকের চট্টগ্রামের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে একটি মামলা করা হয়েছে। মামলার এজাহারে ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও তার স্ত্রী চুমকীর বিরুদ্ধে ঘুষ ও দুর্নীতির মাধ্যমে ৩ কোটি ৯৫ লাখ ৫ হাজার ৬৩৫ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়েছে।
নাগরিক অধিকার পরিষদের জোয়ার জনিত জলাবদ্ধতা নিরসণে পদক্ষেপ গ্রহণের দাবী
২৩আগস্ট,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় সৃষ্ট জলাবদ্ধতা এবং জোয়ার জনিত জটিলতা নিরসণে কার্যকরি পদক্ষেপ গ্রহণের দাবীতে চট্টগ্রাম নাগরিক অধিকার বাস্তবায়ন সংগ্রাম পরিষদ, কেন্দ্রীয় কমিটির এক জরুরী সভা রোববার সকালে নগরীর অক্সিজেন সংলগ্ন সংগঠন কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মো. এনামুল হক লিটনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক সাহেনা আক্তারের সঞ্চালনায় সভায় কার্যকরি সভাপতি নুরুল কবির স্বপন, সহ-সভাপতি মো. আমিনুল হক জুয়েল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হামিদুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক মো.মাসুদ রানা, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক জাভেদ আলম টুকু, মো. ইকবাল হোসেন, ইমদাদুল হক ইমনসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। সভায় বক্তারা বলেন, বর্ষা মৌসুম ছাড়াও সুষ্ক মৌসুমেও জোয়ার জনিত জলাবদ্ধতার কারণে নগরবাসীকে সীমাহীন দূর্ভোগে পড়তে হচ্ছে। তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বাণিজ্যিক এলাকা আগ্রাবাদ, দেশের ভোগ্যপণ্যেও বড় পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জ ও চাক্তাই এবং হালিশহরসহ নগরীর গুরুত্বপূর্ণ বহু এলাকা বর্ষা মৌসুম ছাড়াও জোয়ারের পানিতে ডুবে থাকে। বক্তারা অবিলম্বে নগরীর বিভিন্নস্থানে সৃষ্ট জলাবদ্ধতা ও জোয়ার জনিত জটিলতা নিরসণে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোড় দাবী জানান।
গ্রেনেড হামলায় জড়িতদের ফাঁসির রায় দ্রুত কার্যকর করুন: জননেতা খোকন চৌধুরী
২৩আগস্ট,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: তৃণমূল জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন (তৃণমূল এনডিএম) এর চেয়ারম্যান জননেতা খোকন চৌধুরী বলেছেন, ২০০৪ সালের আগস্টের এই দিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার মধ্যদিয়ে দেশকে অন্ধকারে পতিত করার ষড়যন্ত্র চালানো হয়। কিন্তু শেখ হাসিনা অলৌকিকভাবে বেঁচে যান। তার জন্যেই আমরা আজ সমৃদ্ধ বাংলাদেশের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। সেদিনের ভয়াবহ ও নারকীয় হামলায় রক্তাক্ত হয়েছিল বাংলাদেশ। এই হামলার সঙ্গে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার জড়িত থাকলেও তখন তারা এটিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার হীন চেষ্টা চালায়। তাই এ হামলায় জড়িতদের দ্রুত দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করতে হবে। ২১ আগস্ট শুক্রবার সকাল ১১ টায় তৃণমূল জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন (তৃণমূল এনডিএম) এর উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাব চত্ত্বরে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, সেইদিন গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্বরণে শ্রদ্ধাঞ্জলী জানাচ্ছি এবং সাথে সাথে গ্রেনেড হামলাকারীদের রায় অতিসত্ত্বর কার্যকর করার জোর দাবী জানাচ্ছি। প্রধান বক্তার বক্তব্যে চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা কামরুল হুদা বলেন, বিচারহীনতার সংস্কৃতি বিএনপি-জামাত সৃষ্টি করেছেন। তারই ধাবাহিকতা আজ অবধি চলছে, এ থেকে বের হয়ে আমাদেরকে নীতি নৈতিকতার সংস্কৃতি চালু করতে হবে। এজন্য আমাদেরকে অনেক দূর যেতে হবে। বক্তব্য রাখেন স্থায়ী কমিটির সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মো. সিরাজুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলাম, মহিলা নেত্রী মোকলেছি আকতার, যুগ্ম সম্পাদক মো. উজ্জ্বল হোসেন, মো. সুজন হোসেন, মো. হিরুন মিয়া, রাবেয়া আকতার, মো. করিম হোসেন, মো. ফরহাদ হোসেন, মো. সোহান উদ্দিন, রুবি আকতার, মো. রুবেল হোসেন, মো. হাসান, রিনা আকতার, আরাফাত খান মহি, সিমা আকতার, ইয়াছমিন, মো. ছানাউল্লাহ, সারমিন আকতার, উছমান গণী, দিশা আকতার, কেয়া আকতার, অনিতা আকতার, সিখা ইসলাম, মিস ইসলাম, নিলা আকতার প্রমুখ।
চট্টগ্রামে পরিবেশের কোপ ও লাইসেন্স নবায়ন করা ছাড়াই চলছে স্বাস্থ্যসেবার কাজ
২৩আগস্ট,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের লাইসেন্স নবায়ন না করায় চট্টগ্রামের ২৬টি বেসরকারি হাসপাতাল ও ১২টি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিবেশগত ছাড়পত্র স্থগিত করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর। পরিবেশ অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী এই হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলো স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন ছাড়াই ৪ থেকে ৭ বছর পর্যন্ত তাদের কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম (মেট্রো) অঞ্চলের পরিচালক মোহাম্মদ নুরুল্লাহ নুরী বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের লাইসেন্সের মেয়াদ না থাকায় ২৬টি হাসপাতাল ও ১২টি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিবেশগত ছাড়পত্র স্থগিত করেছি আমরা। তাদের বলা হয়েছে লাইসেন্স নবায়ন করলে আবার এই ছাড়পত্র প্রদান করবো আমরা। তিনি বলেন, আমরা সম্প্রতি সকল হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে তাদের পরিবেশগত ছাড়পত্র নবায়নের জন্য চিঠি দিয়েছিলাম। এক্ষেত্রে তাদের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের লাইসেন্স নিয়ে আসতে বলা হয়েছিল। পরে দেখা গেল বেশিরভাগ হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারেরই লাইসেন্স নবায়ন করা নেই। যারা এটি দেখাতে পারেনি আমরা তাদের সবার পরিবেশগত ছাড়পত্র স্থগিত করেছি। তবে হাসপাতাল মালিকরা বলছেন, লাইসেন্স করা ও নবায়নের নতুন নিয়মে নানা ধরনের জটিলতা তৈরি হয়েছে। তাদের অনেকেই হাসপাতালের লাইসেন্স নবায়নের জন্য আবেদন করেছেন বলেও জানান। চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন বলেন, করোনার কারনে অনেকগুলো রুটিন ওয়ার্ক করা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেকগুলো হাসপাতালের লাইসেন্স নবায়নের প্রক্রিয়াও আটকে আছে। করোনার কারণে সরেজমিনে পরিদর্শন করার সুযোগ কমে যাওয়ায় এটা হয়েছে। তবে ২৩ আগস্ট পর্যন্ত একটা সময়সীমা আছে। এরপর থেকে আমরা এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেবো। তিনি আরও বলেন, ২৩ আগস্টের মধ্যে কারা আবেদন করেছে তার একটা তালিকা আমরা করবো। এরপর যেসব প্রতিষ্ঠানে এসব সংক্রান্ত ঝামেলা দেখা যাবে আমরা তাদের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করবো। সম্প্রতি কোভিড হাসপাতাল হিসেবে সরকারি তালিকাভুক্ত হওয়া বেসরকারি রিজেন্ট হাসপাতালে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। এর ভিত্তিতে অভিযান চালায় Rab। এরপর দেখা যায়, হাসপাতালটির অনুমোদনের মেয়াদ শেষ হয়েছে ২০১৪ সালে, তারপর সেটি আর নবায়ন করা হয়নি। পরে দেখা যায় দেশের অনেকগুলো বেসরকারি হাসপাতাল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের লাইসেন্স না নিয়ে কিংবা মেয়াদ শেষে নবায়ন না করেই কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে দীর্ঘদিন। এর পরই নড়েচড়ে বসে স্বাস্থ্য বিভাগ। বেসরকারি হাসপাতালগুলোর লাইসেন্স নবায়ন করার জন্য ২৩ আগস্ট পর্যন্ত সময়সীমা বেঁধে দেয় মন্ত্রণালয়। - চট্টগ্রাম প্রতিদিন
নাছিরকে প্রশংসায় ভাসালেন সুজন
২২আগস্ট,শনিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সদ্য সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনকে প্রশংসায় ভাসালেন চসিকের নবনিযুক্ত প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন। তিনি আ জ ম নাছিরকে সফল ও ক্রিয়েটিভ মেয়র বলেও মন্তব্য করেছেন। শনিবার (২২ আগস্ট) সকালে ইংরেজি দৈনিক দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড র প্রথম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে চট্টগ্রাম ব্যুরোর আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে সুজন এই মন্তব্য করেন। চসিক প্রশাসক বলেন, আ জ ম নাছির একজন সফল ও ক্রিয়েটিভ মেয়র। উনার হাত ধরে গত ৫ বছরে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে অনেক সফলতা এসেছে। এসময় চট্টগ্রামের প্রবীণ এই দুই নেতার উপস্থিতিতে হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টি হয়। সেখানে তারা একসাথে কেক কেটে একে অপরকে কেক খাইয়ে দেন। নানা হাস্যরসে মেতে ওঠেন। হাস্যমুখে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলাপ করেন। দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড র চট্টগ্রাম ব্যুরো চিফ সামশুদ্দিন ইলিয়াসের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে খোরশেদ আলম সুজন বলেন, পত্রিকার পেজ হচ্ছে বাজার। এই বাজারে যত বেশি ভাল পণ্য থাকবে তত বেশি সেই বাজারে মানুষের ভিড় থাকবে, বেচাকেনা বাড়বে। বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডকে পেশাদার পত্রিকা উল্লেখ সুজন বলেন, এই পত্রিকায় কনটেন্ট আছে, আছে পেশাদারিত্ব। এই পেশাদারিত্ব বজায় থাকলে পত্রিকাটি অনেকদূর যাবে বলেও মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ফেস ইনডেক্স দ্য মাইন্ড। মানুষের মুখচ্ছবি দেখলে বুঝা যায়, মানুষটির ভেতরে কী আছে। ঠিক একইভাবে বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড পত্রিকায় কী আছে তা প্রথম পৃষ্ঠা দেখলেই বুঝা যায়। সাবেক মেয়র আ জ নাছির উদ্দীন ছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পিএইচপি ফ্যামিলির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ মহসীন, রিজেন্ট এয়ারলাইন্সের ডিএমডি সালমান হাবিব, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব সভাপতি আলী আব্বাস, দেশ রূপান্তরের ব্যুরো প্রধান ফারুক ইকবাল, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক স ম ইব্রাহীম, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম মহাসচিব মহসীন কাজী, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, একুশে পত্রিকা সম্পাদক আজাদ তালুকদার, বাংলাভিশন ব্যুরো প্রধান নাসির উদ্দীন তোতা, দৈনিক আমাদের সময়ের ব্যুরো প্রধান হামিদ উল্লাহ, দীপ্ত টিভির ব্যুরো প্রধান লতিফা আনসারী রুনা, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের গ্রন্থাগার সম্পাদক রাশেদ মাহমুদ, জামালখান ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন প্রমুখ।- সিভয়েস
সাংবাদিকরা রাষ্ট্র ও সমাজের চোখ- পটিয়ার নবাগত ইউএনও ফয়সল
২১আগস্ট,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পটিয়ার নবাগত ইউএনও ফয়সল আহমদ জুয়েল বলেছেন, সততা,নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালনের অঙ্গীকার নিয়ে সিভিল সার্ভিসে যোগ দিয়েছি। পটিয়ায় দায়িত্ব পালন কালে তার ব্যত্যয় হবেনা। তিনি মঙ্গলবার তার অফিসে পটিয়ায় কর্মরত গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে এক সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখছিলেন। তিনি বলেন, সাংবাদিকরা রাষ্ট্র ও সমাজের চোখ। তাদের মাধ্যমে যুগে যুগে সমাজ পরিবর্তন হয়েছে। সমাজের অসঙ্গতি তুলে ধরে তারা সমাজকে সচেতন করেন। তিনি পটিয়ায় দায়িত্ব পালন কালে গণমাধ্যম কর্মীদের সহযোগিতা প্রত্যাশা করে বলেন, পটিয়ার ঐতিহ্য ও উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখা হবে। তিনি বৈশ্বিক দুর্যোগ করোনা মোকাবেলায় সচেতনভাবে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার আহবান জানান। মতবিনিময় সভায় পূর্বকোণ ও ইত্তেফাকের প্রতিনিধি হারুনুর রশিদ সিদ্দিকী, দ্যা ডেইলি অবজারভার ও পটিয়া নিউজ.নেট সাংবাদিক এ,টি,এম,তোহা, চট্টগ্রাম মঞ্চ ও ৭১ বাংলার সাংবাদিক আবদুল হাকিম রানা, ভোরের কাগজের এসএম জাহাঙ্গীর, ইনকিলাবের নুর হোসেন, জনকণ্ঠ ও সুপ্রভাত বাংলাদেশের বিকাশ চৌধুরী, নুরুল ইসলাম, আজাদীর শফিউল আজম, পূর্বদেশ ও যুগান্তরের আবেদুজ্জামান আমিরী, নয়া দিগন্তের এস এম রহমান, দৈনিক জনতার সেলিম চৌধুরী, বৈশাখী টিভির রবিউল আলম ছোটন, মানব কণ্ঠের মহিউদ্দিন, ভোরের ডাকের সঞ্জয় সেন প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। সাংবাদিকরা নবাগত ইউএনও ফয়সল আহমদ জুয়েলকে বলেন, যতদিন জনস্বার্থে কাজ করবেন ততদিন সার্বিক সহযোগিতা পাবেন। কেউ যাতে অযথা হয়রানি না হয়, দুর্নীতি না করে সে ব্যাপারে প্রশাসনকে সতর্ক থাকতে হবে। সাংবাদিকদের প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করার পরামর্শ দিয়ে তারা বলেন,পটিয়ার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে অতীতের মত নবাগত ইউএনওকেও সার্বিক সহযোগিতা করা হবে।- পটিয়া নিউজ
গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে আলোচনা সভা
২১আগস্ট,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ২১ আগস্ট নিহতদের স্মরণে বিনামূল্যে চিকিৎসা ক্যাম্প এবং আলোচনা সভা করেছে সরাইপাড়া ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ। শুক্রবার (২১ আগস্ট) অনুষ্ঠিত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন, ১২নং সরাইপাড়া ওয়ার্ডের কাউন্সিল পদপ্রার্থী নুরুল আমিন। প্রধান অতিথি ছিলেন, সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক জহর লাল হাজারী, শওকত আলী, এবিএম লুৎফুর হক খুশি, নুরুল ইসলাম, আমিনুল হক সওদাগর, বদিরুল হক কোম্পানি, আলমগীর আলম, মুজিবুর রহমান মুজিব, আলী হোসেন, আবু তৈয়ব খান, আলী আকবর, ফোরকান রানা, নোয়াব আলী, মো. ফারুক। এম শাহজাহান সাজু, মো. সাইফুল, নুরুল আলম, ইব্রাহীম রিফাত, আবদুল হালিম, মো. আশ্রাদ, মো. এমরান হোসেন, নুরুল আজিম, তাজুল ইসলাম, নুরুদ্দিন রাশেদ, হোসেন মারজুক জুয়েল, আব্দুল হান্নান ফরমান, আবদুল কাদের সূজন, মো. ইমন হোসেন, ইরফান কাদরী প্রমুখ কর্মসূচিতে অংশ নেন। চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন- ডা. সজীব তালুকদার, ডা. রায়হান, ডা. লাকী চৌধুরী, ডা. নিতু বনিক, ডা. বিদ্যুৎ ভূষণ দাশগুপ্ত, ডা. শ্যামল সেন, ডা. মো. জহির উদ্দিন।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর