শুক্রবার, জুলাই ১০, ২০২০
সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষিত করে তুলতে হবে
৩০সেপ্টেম্বর,সোমবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: রোটারী আন্তর্জাতিক জেলা ৩২৮২ এর কর্ণফুলী জোনের জোনাল ইন্ট্রাসিটি সেমিনার সবার জন্য শিক্ষা নগরীর ইউসেপ রিজিওনাল কার্যালয়ে রোটারি ক্লাব অব গ্রেটার চিটাগাংয়ের ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত হয়। ক্লাব সভাপতি আজিজুল গণি চৌধুরীর সভাপতিত্বে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সমুন বড়ুয়া। প্রধান অতিথি ছিলেন রোটারি জেলা গভর্ণর লে. কর্ণেল (অব.) এম আতাউর রহমান পীর। সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন লে. গভর্নর পিপি মাহফুজুল হক, এডিশনাল লে. গভর্নর সিপি মোহাম্মদ শাহজাহান, এসিসটেন্ট গভর্ণর পিপি এমদাদুল আজিজ চৌধুরী, গ্রেটার চিটাগাং রোটারী ক্লাবের সহ-সভাপতি ও চবি প্রফেসর ড. সৈয়দা খুরশীদা বেগম, ইউসেপ জোনাল ম্যানেজার জয় প্রকাশ বড়ুয়া প্রমুখ। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, সুশিক্ষা ও নৈতিক শিক্ষায় ছেলে মেয়েদের গড়ে তুলতে হবে যাতে তারা সমাজের জন্য বোঝা না হয়ে সম্পদে পরিনত হতে পারে। সমাজের সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের লেখাপড়ার প্রতি আমাদের বেশী মনোযোগী হতে হবে যাতে তারা সমাজ থেকে বিছিন্ন না হয় কারণ তারা সমাজেরই অংশ। সেমিনারের মূল বক্তা সমুন বড়ুয়া তার প্রবন্ধে বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থার বিশদ বিবরণ তুলে ধরেন। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি
পতেঙ্গা ও ইপিজেড থানা পূজা পরিষদের যৌথ বার্ষিকসভা
৩০সেপ্টেম্বর,সোমবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন পরিষদ চট্টগ্রাম মহানগর নিয়ন্ত্রণাধীন পতেঙ্গা ও ইপিজেড থানা পূজা উদ্যাপন পরিষদ এর যৌথ বার্ষিক সাধারণ সভা দীপিকা সংঘ মহাজন পাড়া উত্তর পতেঙ্গা শিব মন্দিরে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর পূজা পরিষদের সভাপতি এ্যাড. চন্দন তালুকদার। উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন থানা পূজা কমিটির উপদেষ্টা এড. মোহন লাল মহাজন। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক সাধারণ সম্পাদক লায়ন আশীষ ভট্টাচার্য, অধ্যাপক অর্পণ কান্তি ব্যানার্জী, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্রীপ্রকাশ দাশ অসিত, যুগ্ম সম্পাদক মিথুন মল্লিক, সাংগঠনিক সম্পাদক সজল দত্ত, সিনিয়র সদস্য বিপ্লব চৌধুরী, প্রদীপ শীল, দপ্তর সম্পাদক দোলন দেব, প্রচার সম্পাদক এড. টিপু শীল জয়দেব, শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক সুকান্ত মহাজন টুটুল, সদস্য সমীর মহাজন লিটন, উত্তম কুমার শীল, লিটন চৌধুরী। এতে সভাপতিত্বে করেন পূজা পরিষদের সভাপতি উত্তম মহাজন নব (ইপিজেড থানা) ও সৈকত মহাজন সাজু (পতেঙ্গা থানা)। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন থানা পূজা কমিটির অর্থ সম্পাদক কাজল চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক সুজন শীল(ইপিজেড থানা), সীতম শীল (পতেঙ্গা থানা), আঞ্চলিক কমিটির পক্ষে বক্তব্য রাখেন বিকাশ শীল, দেবব্রত সরকার, কাজল লোধ, সুজন মজুমদার মনি, বাসুদেব সেনগুপ্ত, যীশু দত্ত, স্বরূপ শীল, বাপ্পু দাশ, দোলন দাশ, রিপন দাশ, কৃষ্ণা দাশ, দেবী রানী, জেকি শীল, সুমন দাশ, শীতল দাশ, অন্তু মহাজন, উপদেষ্টা পতেঙ্গা থানা পূজা উদযাপন পরিষদের সুকুমার শীল। প্রধান অতিথি মহানগর পূজা পরিষদের সভাপতি এ্যাড. চন্দন তালুকদার বলেন, শারদীয়া দূর্গোৎসব বাঙালির প্রাণের উৎসব। নগরীর ১৬টি থানা আওতাধীন অধিকাংশ প্রতিমা নিরঞ্জনের স্থান পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত ইপিজেড এবং পতেঙ্গা থানা নেতৃবৃন্দের যে সহযোগিতা প্রদান করেন তার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং এই বছরও হাজার হাজার দর্শনার্থী যাতে সুস্থ সুন্দর পরিবেশে প্রতিমা নিরঞ্জন সমাপণ করতে পারে সকলের সহযোগিতা চেয়েছেন। বক্তব্য শেষে মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি পূজা কমিটির সকলকে অগ্রিম শারদীয়া শুভেচ্ছা জানান।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি
স্কুল পালিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা, অভিভাবকদের জানালো পুলিশ
২৯সেপ্টেম্বর,রবিবার,চট্টগ্রাম নিউজ,নিউজ একাত্তর ডট কম: দিনের ওই সময়টায় শিক্ষার্থীদের স্কুলে থাকার কথা ছিল। কিন্তু তারা স্কুল ফাঁকি দিয়ে কয়েক গ্রুপে বিভক্ত হয়ে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছিল নগরের সিআরবি এলাকায়। রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এমন ২৬ শিক্ষার্থীর অভিভাবকদের ডেকে এনে এ বিষয়ে অবহিত করেছে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসিন জানান, প্রায়শই দেখা যায় স্কুল চলাকালীন শিক্ষার্থীদের একটি অংশ নগরের বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে আড্ডা দেয়, ঘোরাফেরা করে। অথচ তাদের অভিভাবকরা জানেন তাদের সন্তান বিদ্যালয়ে বা কলেজে গেছে। এভাবে স্কুল/কলেজ ফাঁকি দেওয়া শিক্ষার্থীরাই পরে বিভিন্ন কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য হয়ে উঠছে। এভাবেই বিপৎগামী হচ্ছে তারা। তিনি বলেন, এসব শিক্ষার্থী আমাদেরই ভাই-বোন ও সন্তান। তাদের ভুল থেকে ফেরাতে উদ্যোগ নিয়েছে পুলিশ। ব্যস্ত নাগরিক জীবনে সন্তানদের খোঁজ রাখার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে অভিভাবকদেরও। ওসি মোহাম্মদ মহসিন বলেন, আজ স্কুল ফাঁকি দিয়ে সিআরবি এলাকায় আড্ডা দেওয়া ২৬ শিক্ষার্থীকে ডেকে নিয়ে তাদের অবস্থান সম্পর্কে নিজ নিজ পরিবারকে জানানো হয়েছে। এসময় তাদের স্কুল-কলেজ ফাঁকি না দিয়ে পড়ালেখায় মনোযোগী হওয়ার উপদেশ দেওয়া হয়েছে। শিক্ষার্থীরা তাদের ভুল বুঝতে পেরেছে। বিষয়টিকে অভিভাবকরাও ইতিবাচকভাবে নিয়েছেন। তারা জানিয়েছেন, বিষয়টি তাদের কল্পনারও বাইরে। পুলিশ না জানালে তাদের সন্তানদের এ অবস্থা সম্পর্কে তারা জানতেই পারতেন না।- সূত্র: জাগো নিউজ
মুরাদপুর ফ্রেন্ডস মোটর শো-রুমে বাজাজ পালসার ১৬০সিসি মোটরসাইকেল উদ্বোধন
২৭সেপ্টেম্বর,শুক্রবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাজাজ অটোলিমিটেড ভারতের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিষয়ক ভাইসপ্রেসিডেন্ট মি.মিলিন্ড বেড ৯দিনের সফরে বাংলাদেশে এসেছেন। বাজাজ মোটরসাইকেল ম্যানুফ্যাকচারিং প্লান্টের অগ্রগতি এবং এদেশে অথরাইজড ডিস্ট্রিবিউটর উত্তরা মোটরসহ বিভিন্ন শো-রুম পরিদর্শন করবেন তিনি। বাজাজ ভারতে কেটিএম পণ্য উৎপাদন ও বিতরণ করে এবং বিশ্বব্যাপী এই পণ্যগুলি রফতানি করে। চলতি বছর বাজাজ বাইকগুলি সাশ্রয়ী মূল্যে বাজারে দিচ্ছে এবং নতুনত্বকরণের মাধ্যমে বাজারজাত করছে। মি.মিলিন্ড বেড গতকাল চট্টগ্রামের ষোলশহর মুরাদপুরস্থ ফ্রেন্ডস মোটর শো-রুমে বাজাজ পালসার এনএস ১৬০সিসি (টুইন ডিস্ক) মডেলের মোটরসাইকেল উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, বাজাজ বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পণ্য রপ্তানি করছে। বিশ্বের অন্যান্য রপ্তানি কারক প্রতিষ্ঠানের ছেয়ে বাজাজ ৭২টি দেশে প্রথম এবং ৩২টি দেশের মধ্যে দ্বিতীয় সারিতে রয়েছে। তিনি বলেন, বাজাজ অটো লিমিটেড একটি উন্নত মানের পণ্য উৎপানদ কারী প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশের পরিবেশক এবং বিক্রেতাদের উদ্দেশে বলেন, উৎপাদিত পণ্যের গুণগত মানের কথা ক্রেতাদের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিন। ক্রেতাদের ক্রয়সীমার মধ্যেই মূল্য নির্ধারণ করে আমরা পণ্য বাজারজাত করছি। বাজারে বর্তমানে অ্যাভেঞ্জার, প্ল্যাটিনা, ডিসকভার, পালসার এবং সমপ্রতি চালু হওয়া ভি এর মতো বিভিন্ন ব্র্যান্ডের একাধিক বাইকের মডেল রয়েছে। পালসার এনএস ১৬০সিসি (টুইন ডিস্ক) উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন, ফ্রেন্ডস মোটর শো-রুমের সত্ত্বাধিকারী খোন্দকার শামিম আহাম্মদ, উত্তরা মোটরসর সিইও মি.দিলিপ বেনার্জীসহ ফ্রেন্ডস মোটর এবং উত্তরা মোটরসের কর্মকর্তাবৃন্দ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
গ্লোবাল ক্লাইমেট স্ট্রাইক উপলক্ষে উৎসের প্রতিবাদ কর্মসূচি
২৭সেপ্টেম্বর,শুক্রবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: জলবায়ু সুরক্ষার দাবিতে গ্লোবাল ক্লাইমেট স্ট্রাইক সপ্তাহ ২০১৯ এর সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে ডিয়াকোনিয়া বাংলাদেশের সহযোগী উন্নয়ন সংস্থা উৎসের উদ্যোগে প্রতিবাদ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল সকালে নগরীর ওয়ার্লেস ঝাউতলা কলোনী উচ্চ বিদ্যালয়ে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। উল্লেখ্য উৎস জলবায়ু ইস্যুতে নানামুখি কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল সকাল ৭ টায় বালিকাদের শিফটে এবং দুপুর ১২ টায় বালকদের শিফটে ভুক্তভোগী জনগোষ্ঠীর অভিমত প্রকাশ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। কর্মসূচিতে একটি প্রতিকী পৃথিবী তৈরী করে শিল্প-কলখানার সৃষ্ট কার্বন গ্যাস নিঃসরণ এর বিরূপ প্রভাবের নানান ক্ষতিকারক দিক অংকন করে ফুটিয়ে তুলা হয় এবং বাঁচাও পৃথিবী দূষিত বায়ু-কমাচ্ছে আয়ু কার্বন ডাই অঙাইড এ বসবাস আমাদের সর্বনাশ প্লাস্টিক এর ব্যবহার কমাও-মাটির শক্তি বাড়াও হাতে হাত ধরি-নতুন বিশ্ব গড়ি ইত্যাদি প্রতিবাদি শ্লোগান লিখা পোস্টার ফেস্টুন প্রদর্শন করে এবং শ্লোগান এর মাধ্যমে স্কুল প্রাঙ্গণ মুখরিত করে তোলে। এসময় বক্তব্য রাখেন উৎসের নির্বাহি পরিচালক মোস্তফা কামাল যাত্রা, ওয়ার্লেস ঝাউতলা কলোনী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মহসিন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ওয়াশ কার্যক্রমের স্থায়ীত্বকরণ বিষয়ক আলোচনা সভা
২৭সেপ্টেম্বর,শুক্রবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, নতুন প্রজন্মের ছেলে মেয়েরা আমাদের দেশের সম্পদ। তাদের সঠিকভাবে পরিচালনার মধ্য দিয়ে আলোকিত ও সুন্দর মনের মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। তিনি বলেন, সরকারি-বেসরকারি সংস্থা সমূহের যৌথ উন্নয়ন কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। ডিএসকে ও ওয়াটার এইড ওয়াশ ফর আরবান পুওর প্রকল্পের মাধ্যমে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এলাকায় বর্তমান সরকারের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহে পানি, পয়:নিস্কাশন ও স্বাস্থ্যাভ্যাস উন্নয়নের লক্ষ্যে যে কার্যক্রম পরিচালনা করছেন তা স্থায়িত্বকরণের জন্য চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদান করা হবে। তিনি বলেন, চট্টগ্রামের যে সকল স্কুলে পানিসুবিধা নাই কিংবা পানি সরবরাহ করা কঠিন সেখানে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এবং চট্টগ্রাম ওয়াসার সাথে সমন্বয়ের মাধ্যমে নিরবিচ্ছিন্ন পানি সুবিধা সরবরাহ করতে হবে। মোটিভেশন একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এই বিষয়ে স্কুলে প্রধান শিক্ষকদের আন্তরিকতা এবং শ্রেণি কক্ষের শিক্ষকরা পাঠদানের পূর্বে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা, পরিবেশ ইত্যাদি বিষয়ে শিক্ষার্থীদের কিছু সময় জ্ঞানদান করলে শিক্ষার্থীরা উপকৃত ও সচেতন হবে। গত বুধবার টাইগারপাস চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সম্মেলন কক্ষে ডিএসকে ও ওয়াটার এইড এর উদ্যোগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ওয়াশ কার্যক্রমের স্থায়ীত্বকরণ বিষয়ক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র একথা বলেন। ডিএসকের যুগ্ম পরিচালক এমএ হাকিমের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন চসিক প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা চট্টগ্রাম অঞ্চলের আঞ্চলিক পরিচালক হোসনে আরা বেগম, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জালাল উদ্দিন চৌধুরী, জেলা শিক্ষা অফিসার মো. জসিম উদ্দিন ও ওয়াটার এইড বাংলাদেশের হেড অব প্রোগ্রাম আফতাব ওপেল। কদম মোবারক স্কুলের প্রধান শিক্ষক এম এ জহুর, টাইগারপাস বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মোজ্জামেল হক এবং মুহাম্মদ নগর এইচ কে সি উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপা কমিটির সভপতি ডা.আবদুল মতিন। এছাড়াও সভায় মেয়রের একান্ত সচিব মো. আবুল হাশেম, থানা শিক্ষা অফিসারবৃন্দ, বিভিন্ন স্কুলের প্রধান শিক্ষকবৃন্দ ও ডিএসকের প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় বক্তরা বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ওয়াশ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সকলের উপযোগি স্থাপনা নির্মাণ, স্বাস্থ্যাভ্যাসের ইতিবাচক পরিবর্তন, স্থাপনা রক্ষনা-বেক্ষণ সকলের সর্বোচ্চ দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। তারা স্বাস্থ্যাভ্যাসে সচেতনতা বৃদ্ধি, স্থায়ীত্বশীল ওয়াশ উন্নয়ন এবং ওয়াশ স্থাপনার রক্ষনা-বেক্ষণের পরিবেশ সৃষ্ঠিকরার জন্য সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহন করার আহবান জানান। সভার শুরুতেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ওয়াশকার্যক্রম পরিচালনায় ওয়াটার এইড বাংলাদেশ কার্যক্রম এবং স্থাপনা কাজের স্থায়ীত্বকরণ বিষয়ক এক পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করা হয়।
দেশের সার্বিক উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন
২৭সেপ্টেম্বর,শুক্রবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক (স্থানীয় সরকার) ও সরকারের অতিরিক্ত সচিব দীপক চক্রবর্তী বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের সার্বিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। মানুষের জীবনমান উন্নয়ন কর্মকান্ড বেগবান করতে সরকারের পাশাপাশি দেশী-বিদেশী বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহন করেছেন। সরকারি বরাদ্ধের সাথে বিদেশী উন্নয়ন সংস্থা জাইকা দেশের উপজেলা পর্যায়ে ৫০ লাখ টাকা করে বরাদ্ধ দিয়ে যাচ্ছে। এর মাধ্যমে জনপ্রতিনিধিরা তাদের এলাকায় ছোট ছোট প্রকল্প নিয়ে কাজ করতে পারবে। জনপ্রতিনিধিরা কোন ধরণের দুর্নীাতর আশ্রয় না নিয়ে সততা, আন্তরিকতা ও দেশপ্রেম নিয়ে সরকারি-বেসরকারি প্রকল্পের কাজগুলো দৃশ্যমান করতে পারলে সরকার কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছতে পারবে। শুধু জাইকা নয়, সকল প্রকল্পের কাজ দুর্নীতিমুক্ত ও টেকসই করে সম্পন্ন করতে হবে। মান বজায় রেখে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হবে। চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে দুদিন ব্যাপী আয়োজিত উপজেলা পরিচালন ও উন্নয়ন প্রকল্প অবহিতকরণ প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জাপান ইন্টারন্যাশনাল কোঅপারেশন এজেন্সীর (জাইকা) সহায়তায় চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার অফিস প্রশিক্ষণের আয়োজন করেন। উপজেলা পরিচালন ও উন্নয়ন প্রকল্পের (ইউজিডিপি) ডেপুটি টিম লিডার মো. আজিজুর রহমান সিদ্দিকীর সঞ্চালনায় প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইউজিডিপি’র উপ-প্রকল্প পরিচালক মো. মোকতার হোসেন, ইউজিডিপি’র পরামর্শক ড. মোল্লা মাহমুদ হাসান (উপ-সচিব) ও বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) নুসরাত সুলতানা। দু’দিনব্যাপী প্রশিক্ষণে চট্টগ্রাম বিভাগের অধীন নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ, চাঁটখীল, ফেনী জেলার দাগন ভূঁইয়া এবং লক্ষীপুর জেলার সদর ও রায়পুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, ভাইস চেয়ারম্যান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা প্রকৌশলী, স্বাস্থ্য ও প. প. কর্মকর্তা, কৃষি কর্মকর্তা ও শিক্ষা কর্মকর্তাগণ অংশ নেন।- প্রেস বিজ্ঞপ্তি
বাংলাদেশ সামপ্রদায়িক সমপ্রীতির দেশ: আবদুচ ছালাম
২৬সেপ্টেম্বর,বৃহস্পতিবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: শারদীয় দুর্গা পূজা উপলক্ষে মহানগরীর ১৫ থানার ৪১টি ওয়ার্ডের পূজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে ধারাবাহিকভাবে মতবিনিময় করছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের কোষাধ্যক্ষ ও সাবেক সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম। তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল ওয়েল পার্কের হল রুমে চার থানার ৫০টি পূজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করেন তিনি । তিনি দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি অর্জনে দেশের বিদ্যমান সামপ্রদায়িক সমপ্রীতি কাজে লাগানোর জন্য সব ধর্মের অনুসারীদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশ একটি সামপ্রদায়িক সমপ্রীতির দেশ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে এ দেশের মানুষ, জাতি, ধর্ম, নারী, পুরুষ নির্বিশেষে মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সবাই এক সঙ্গে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল পরাধীনতার হাত থেকে বাংলাদেশকে মুক্ত করতে সেই মহান স্বাধীনতার যুদ্ধে। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশকে একটি সামপ্রদায়িক সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে স্বাধীন করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্ব আর অসামপ্রদায়িক চেতনার কারণেই বিশ্বে বাংলাদেশ সামপ্রদায়িক সমপ্রীতির দেশ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। আর তাই এ দেশে প্রতিটি উৎসবেই সকল ধর্মের মানুষ অংশ নিয়ে উৎসবে মেতে উঠেন। উল্লেখ্য এর আগের দিনও চার থানার ৫০টি পূজা মন্ডপের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন বায়েজিদ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সফিউল আলম ছগীর, আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ সফিউল আলম বি কম, ২৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম, মোহরা আওয়ামী লীগে নেতা মোহাম্মদ ফারুক, মুরাদ চৌধুরী, নগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সালাহ উদ্দিন আহমদ, এড. শিবু চন্দ্র মজুমদার, যুবলীগ নেতা সাইফুদ্দিন, বায়েজিদ থানা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি উজ্জ্বল দেওয়ানজিসহ বায়েজিদ, পাঁচলাইশ, ইপিজেড ও হালিশহর থানার ৫০টি পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকগণ । প্রেস বিজ্ঞপ্তি
কাপাসগোলায় সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ
২৬সেপ্টেম্বর,বৃহস্পতিবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরীর কাপাসগোলায় সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে চকবাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সংগঠন। সম্প্রতি কাপাসগোলা কমিশনার কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে বক্তারা প্রধানমন্ত্রীর শুদ্ধি অভিযানকে স্বাগত জানান। এতে বক্তব্য দেন চকবাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুর রহমান, সহ-সভাপতি আমিনুল হক রমজু, চকবাজার বৃহত্তর ব্যবসায়ী সমিতি সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক আবুল খায়ের বাচ্চু, কাপাসগোলা ইউনিট আওয়ামী লীগ সভাপতি মনজুরুল আলম মান্নান, সাধারণ সম্পাদক হাজী মো. সেলিম রহমান, মো. একরাম হোসেন, কাজল প্রিয় বড়ুয়া, মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগ সদস্য দেলোয়ার হোসেন ফরহাদ, মুজিব ইমরান বিপ্লব, চক সুপার ব্যবসায়ী সমিতি সভাপতি খোরশেদ আলম, শহীদুল ইসলাম মন্ডল, মো. গোলাম মোস্তফা, ইদ্রিস হোসেন সুমন ও ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি আমিনুল ইসলাম আমিন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মো. সালাউদ্দিন, মীর হোসেন, এস এম হীরু, ফরমান আহমেদ জনি, আরিফুর রহমান মাসুদ, সামির চৌধুরী, ইমরান খান ইমন, রুবায়েত হোসেন অনিক, জিকু দেবনাথ, মুজিবুর রহমান রাসেল, সাইফুল আলম মোরশেদ, সান্টু গুহ, এম রিদুয়ান রনি, ইমতিয়াজ তুষার, মো. বাদশা, অর্পণ বড়ুয়া, নেওয়াজ শরীফ অমি, আব্দুর রায়হান কিরণ, মো. তন্ময়, শাখাওয়াত হোসেন রাকিন, ফারদিন ইসলাম, সাকিব ইসলাম, মো. টিপু, আশরাফ উদ্দিন সাকিব, আরাফাত আব্দুল্লাহ, ফরহাদুর রহমান ফয়সাল প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর