শুক্রবার, এপ্রিল ১৬, ২০২১
রাজৈরে বই বিতরণ ২০২১
০১,জানুয়ারী,শুক্রবার,টুটুল বিশ্বাস,রাজৈর প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: শিক্ষা নিয়ে গড়বো দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ এই শ্লোগান সামনে রেখে শুক্রবার (১ জানুয়ারি) সারা দেশের ন্যায় মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলায় সকাল ১২টায় রাজৈর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বই বিতরণ ২০২১ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ইউ এন ও আনিসুজ্জামান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বজলুল হক,রাজৈর বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনীন্দ্রনাথ বাড়ৈ, সহকারী শিক্ষক নুর আলম, সাংবাদিক টুটুল বিশ্বাস,সাংবাদিক সজীব,শিক্ষকমন্ডলী,স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সদস্যবিন্দ,অভিভাবকমন্ডলী, ছাত্র-ছাত্রী প্রমূখ। দুর্যোগময় করুনা ভাইরাসের কারণে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বল্প সংখ্যক ছাত্রীদের মাঝে বই বিতরণ করেন। জানাযায়, রাজৈর উপজেলায় ১৪০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৩১ টি মাধ্যমিক মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৭টি মাধ্যমিক মাদ্রাসায় সরকারি বই বিতরণ করছেন।
নরসিংদীতে বাসের ধাক্কায় প্রাইভেটকারের ৪ যাত্রী নিহত
০১,জানুয়ারী,শুক্রবার,নরসিংদী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নরসিংদীর বেলাবোতে যাত্রীবাহী বাস ও প্রাইভেটকারের সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (১ জানুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নরসিংদী ও ভৈরবের সিমান্তবর্তী এলাকা দরিকান্দি নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। বেলাবো থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাফায়েত হোসেন পলাশ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ জানিয়েছে,ভৈরব থেকে যাত্রীবাহী একটি বাস ঢাকার দিকে যাচ্ছিল। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা প্রাইভেটকারের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে প্রাইভেটকারটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলেই চারজন মারা যান। এ সময় আরও একজন আহত হন। তকে উদ্ধার করে ভৈরব হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এখনো পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি নিয়ে ষড়যন্ত্র হয়: তথ্যমন্ত্রী
২৮ডিসেম্বর,সোমবার,রাঙামাটি প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, পুরো দেশের শান্তি বিনষ্ট করার জন্য যেমন ষড়যন্ত্র হয়, এখনো পার্বত্য চট্টগ্রাম ও এই এলাকার শান্তি নিয়ে ষড়যন্ত্র হয়। দেশের উন্নয়ন ও শান্তিতে যারা খুশি নয়, পার্বত্যাঞ্চলের উন্নয়ন, স্থিতি এবং শান্তিতেও তারা খুশি নয়। সেই কারণে তারা নানা ষড়যন্ত্র করেন এবং সেটির বহিঃপ্রকাশ আমরা মাঝেমধ্যে দেখতে পাই। এ ব্যাপারে আমাদের সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) সকালে রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক ভ্যালিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু ট্যুর ডি সিএইচটি মাউন্টেন বাইক প্রতিযোগীতার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তথ্যমন্ত্রী বলেন, এখানে পূর্ববর্তী সরকার বিশেষ করে যখন বিএনপি ও এরশাদ ক্ষমতায় ছিল প্রকৃতপক্ষে তখন শান্তিচুক্তি করা ও বাস্তবায়নের জন্য হাতও দেওয়া হয়নি। বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা শান্তিচুক্তি করেছেন এবং সেটি বাস্তবায়ন করে চলেছেন। বহু শরণার্থী যারা এখানে অশান্তির কারণে দেশত্যাগী হয়েছিল তাদেরকে ফিরিয়ে এনেছেন। যারা ভিন্নপথে গিয়েছিল তারা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসেছেন। এটি বঙ্গবন্ধু কন্যার কারণে সম্ভবপর হয়েছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব সফিকুল আহম্মদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি দীপংকর তালুকদার এমপি, শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি, বাসন্তি চাকমা এমপি, ব্রিগেড কমান্ডার ফয়েজুর রহমান, দিঘীনালা উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাশেম প্রমুখ। তথ্যমন্ত্রী বলেন, আজকে পুরো পার্বত্য চট্টগ্রাম বদলে গেছে, বাংলাদেশের অন্য এলাকার চেয়ে পার্বত্যাঞ্চলে উন্নয়নের ছোঁয়া প্রকৃতপক্ষে অনেক বেশি। কারণ এখানে সরকার অধিক মনযোগী। এর ফলে তিন পার্বত্য জেলার চিত্র বদলে গেছে। পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তিচুক্তি করা ও তার বাস্তবায়নের মাধ্যমে এখানে শান্তি স্থাপন করা হয়েছে। তিনি বলেন, পার্বত্যাঞ্চলসহ পুরো চট্টগ্রামে ট্যুরিজমের ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে। এই সাইক্লিং ট্যুরের মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রামের নাম এবং এখানকার ট্যুরিজমের যে সম্ভাবনা রয়েছে সেটা সমগ্র বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়বে। পৃথিবীর অনেক দেশ ট্যুরিজমকে কাজে লাগিয়ে তাদের উন্নয়ন ঘটিয়েছে। আমাদের দেশে ট্যুরিজমের যে ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে তা যদি আমরা কাজে লাগাতে পারি তাহলে অনেক বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে পারি। সেজন্য প্রয়োজন অবকাঠামোগত উন্নয়ন। সেটি আমাদের সরকার অনেক করেছেন। শান্তি স্থিতিও প্রয়োজন, সমস্ত কিছু মিলে এই সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে পারলে দেশ এগিয়ে যাবে। করোনা ভাইরাসের মধ্যেও যখন সমস্তকিছু স্তব্দ, তখন মুজিব শতবর্ষকে স্মরণীয় করে রাখতে মাউন্টেন বাইকিংয়ের আয়োজনের জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয়কে ধন্যবাদ জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, অপরূপ শোভায় শোভিত সাজেক ভ্যালি, পুরো পার্বত্য চট্টগ্রামসহ বাংলাদেশ অপরূপ শোভায় শোভিত। এখানে সাইক্লিং করার যে তৃপ্তি, যারা সাইক্লিং করেন তারা ছাড়া অন্য কেউ বলতে পারবে না। আমি ছাত্রজীবনে নিজেও সাইকেল চালিয়ে ইউনিভার্সিটি যাওয়া আসা করতাম। সে কারণে আমি নিজেও সাইক্লিংয়ের ভক্ত, ঢাকা শহরে নানা দাবিতে ও পরিবেশ সংরক্ষণসহ বিভিন্ন সাইকেল Raillyতে আমি নিয়মিত অংশগ্রহণ করি। তিনি বলেন, সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৮শ ফুট উপরের সাজেক থেকে রওনা দিয়ে পুরো উঁচু নিচু ৩শ কিলোমিটার পাহাড় পাড়ি দিয়ে তারা থানচি পৌঁছুবেন, এটি সহজ কথা নয়। মাউন্টেন সাইক্লিং যে কেউ পারে না। আমি আনন্দিত হয়েছি এই প্রতিযোগীতায় প্রায় ৭শ জন আবেদন করেছিল। এর মধ্যে ফাইনালি নেওয়া হয়েছে ৫৫ জনকে। ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আজকে বাংলাদেশের তরুণদের যদি আমরা গড়ে তুলতে চাই, তাহলে ক্রীড়া প্রতিযোগীতাসহ সাইক্লিংয়ের কোনও বিকল্প নেই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের আসক্তি ও মাদকের হিংস্র থাবা থেকে তরুণদের বের করে আনার জন্য ব্যাপক আকারে ক্রীড়া প্রতিযোগীতা, সাইক্লিং ট্যুরসহ সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড আয়োজন করার বিকল্প নেই।
পঞ্চগড়ে টানা ৯ দিন ধরে বইছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ
২৬ডিসেম্বর,শনিবার,পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: শীতের জেলা পঞ্চগড়ে টানা ৯ দিন ধরে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত রয়েছে। শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করেছে তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিস। শুক্রবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে টানা ৯ দিন ধরে মৃদু ও মাঝারি শৈত্যপ্রবাহে জনজীবনে দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে। সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে শিশু ও বয়স্কদের মধ্যে নিউমনিয়াসহ শীতজনিত রোগের প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। শীতের কারণে খেটে খাওয়া মানুষের দৈনন্দিন আয় কমে গেছে। তবে গত কয়েক দিনের মত শনিবারও সকালের পর ঝলমলে রোদ দেখা গেছে। দিনের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেলেও দুপুরের পর থেকে উত্তরের হিমেল বাতাসের কারণে কনকনে ঠাণ্ডা অনুভূত হচ্ছে। আর বিকেলের পর শুরু হচ্ছে শৈত্যপ্রবাহ। তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রাসেল শাহ বলেন, বর্তমানে পঞ্চগড় ও তেঁতুলিয়ায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহ চলেছে। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮-১০ এর মধ্যে অবস্থান করায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বলা হচ্ছে। শনিবার সকাল ৯টায় সর্বনিম্ন ৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। জেলা প্রশাসক ড. সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, শীত মোকাবিলায় সরকারি-বেসরকারিভাবে দুঃস্থ ও শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ ও শুকনো খাবার বিতরণ করা হচ্ছে। সরকারিভাবে এ পর্যন্ত প্রায় ২২ হাজার কম্বল ও শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি শীতবস্ত্র ক্রয়ের জন্য পাঁচ উপজেলায় ছয় লাখ টাকা করে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এই অর্থ শীতবস্ত্র ক্রয় ও বিতরণ কার্যক্রমে ব্যয় হচ্ছে।
কনকনে হিমেল বাতাসে কাবু পঞ্চগড়বাসী
২১ডিসেম্বর,সোমবার,পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: উত্তরের জনপদ পঞ্চগড়ে মাঝারি পর্যায়ের শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত রয়েছে। সোমবার (২১ ডিসেম্বর) সকালে সর্বনিম্ন ৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিস। রোববার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৭ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে সোমবারও সকাল থেকে কুয়াশা কমে সূর্যের আলো ছড়িয়ে পড়ে চারদিকে। কিন্তু উত্তরের হিমেল বাতাসের কারণে কনকনে ঠান্ডা অনুভূত হচ্ছে। চারদিন ধরে টানা শৈত্যপ্রবাহে বেড়েছে শীতজনিত রোগের প্রকোপ। বিশেষ করে বয়স্ক ও শিশুরা সর্দি, কাশি, ডায়রিয়াসহ নানান রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. সিরাজউদ্দৌলা পলিন বলেন, প্রতি বছর শীতকালে শিশু ও বয়স্কদের মধ্যে সর্দি, কাশি, নিউমনিয়া ও ডায়রিয়া রোগের প্রকোপ দেখা দেয়। এবারও এর ব্যতীক্রম ঘটেনি। এবার শীতজনিত নানা সমস্যায় রোগী ভর্তির সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছ। এছাড়া হাসপাতালের বহির্বিভাগে অসংখ্য শীতজনিত রোগী প্রতিদিন চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন।
নাটোরে আরও ১০ মাদকসেবী গ্রেফতার
২০ডিসেম্বর,রবিবার,নাটোর প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নাটোর শহরের মল্লিকহাটি এলাকা থেকে আবারও ১০ মাদকসেবীকে গ্রেফতার করেছে Rab। শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে Rab সদস্যরা অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মোঃ আঃ আউয়াল (৩৪), মোঃ আমির হোসেন (২৮), মোঃ জালাল উদ্দিন (৩০), মোঃ নুরুল ইসলাম (৪৫), মোঃ রতন মিয়া (২৯), আল মতাকাব্বির (২৫), মোঃ শাহ আলম (২৮), মোঃ চাঁন মিয়া (৩৬), ইমন টুডু (২১) ও মোঃ শহিদুল ইসলাম (৩১)। সিপিসি-২, Rab-5 নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানী কমাণ্ডার এএসপি মোঃ মাসুদ রানা ১০ জনকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শহর ও শহরতলীর বিভিন্ন এলাকা থেকে তারা মল্লিকহাটি এলাকায় জড়ো হয়ে মাদকসেবন করছিল। এ ব্যাপারে নাটোর সদর থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।
মহেশখালীতে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি: ৩ ব্যবসায়ীকে জরিমানা
১৯ডিসেম্বর,শনিবার,কক্সবাজার প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের নোনাছড়ি বাজারে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি, ভোগ্যপণ্যের সাথে কীটনাশক বিক্রি, লাইসেন্স ব্যতীত সার বিক্রিসহ বিভিন্ন অপরাধের দায়ে তিন ব্যবসায়ীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া একই দিন উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়ন ও কালারমারছড়া ইউনিয়নে অবৈধ ইজিবাইকের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) সকাল থেকে মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাহফুজুর রহমান এ অভিযানের নেতৃত্ব দেন। তিনি বলেন, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি, ভোগ্যপণ্যের সাথে কীটনাশক বিক্রি, লাইসেন্স ব্যতীত সার বিক্রির কারণে তিন ব্যবসায়ীকে ৫০ হাজার টাকার জরিমানা করেছি। ভবিষ্যতে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।
নোয়াখালীতে অস্ত্রসহ যুবক গ্রেপ্তার
১৯ডিসেম্বর,শনিবার,নোয়াখালী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরজব্বার থানার হারিছ চৌধুরী বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ এক সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে Rab-7। এসময় তার কাছ থেকে ১ টি ওয়ানশুটার গান উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তার মো. রিপন (২৭) নোয়াখালী জেলার চরজব্বার থানার দিঘী কলোনী এলাকার মো. বাহারের ছেলে। শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) Rab-7 এর সহকারী পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে নোয়াখালী জেলার সুবর্ণচর উপজেলার চরজব্বার থানার হারিছ চৌধুরী বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ মো. রিপনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে ১টি ওয়ানশুটার গান উদ্ধার করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, গ্রেপ্তার রিপনের বিরুদ্ধে নোয়াখালীর চরজব্বার থানায় ১ টি চুরির মামলা রয়েছে। এ ঘটনায় তাকে চরজব্বার থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।
শীতে বিপর্যস্ত উত্তরের জনজীবন
১৯ডিসেম্বর,শনিবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: শীতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে উত্তরের মানুষের জনজীবন। চলতি মাসের শেষে এ অঞ্চলের উপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহের সম্ভাবনা রয়েছে। শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) রাজশাহীর আবহাওয়া অফিস এ তথ্য জানিয়েছে। সরেজমিনে দেখা যায়, দিনের আলো ফুটলেও ঘন কুয়াশায় রাস্তাঘাট ঢাকা পড়ায় পঞ্চগড়ে হেডলাইট জালিয়ে যানবাহন চলাচল করছে। আর গরম কাপড়ে শীত নিবারণ না করতে পেরে একটু উষ্ণতার আশায় খড়কুটো জ্বালিয়ে আগুন পোহাচ্ছেন ছিন্নমূল মানুষ। এদিকে, সপ্তাহখানেক ধরে রাজশাহীতেও বাড়ছে শীতের তীব্রতা। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন দরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষেরা। চলতি মাসের শেষে তাপমাত্রা আরও নিচের দিকে নেমে আসার আভাস দিচ্ছেন আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তারা। এ বিষয়ে রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, এ মাসের শেষের দিকেও মৃদু শৈত্যপ্রবাহ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া, জানুয়ারি মাসে দুটি মৃদু শৈত্যপ্রবাহ হতে পারে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর