আসন্ন নির্বাচনে ৩০০ আসনের প্রার্থী দেবে এন.পি.পি
মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, জাতীয়তাবাদ ও ধর্মীয় মূল্যবোধে বিশ্বাসী রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল পিপলস্ পার্টি (এনপিপি)র চট্টগ্রাম জেলার প্রতিনিধি সম্মেলন গত ৩০ জুলাই ২০১৮, সোমবার বিকাল ৪ ঘটিকায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের ইঞ্জিনিয়ার আবদুল খালেক মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দলের মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাই মন্ডল বলেন-এন.পি.পি একটি পরিচ্ছন্ন রাজনৈতিক দল। আমাদের নেতা- কর্মীরাও পরিচ্ছন্ন। আমরা দুর্নীতি করিনি, দুর্নীতি করি না; দুর্নীতি করব না। বিকল্প রাজনৈতিক শক্তি গড়ার লক্ষ্যে সারাদেশে এন.পি.পির যে জোয়ার শুরু হয়েছে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তার প্রতিফলন ঘটবেই ইনশাল্লাহ। সরকারের মাদক বিরোধী অভিযানের পাশাপাশি দুর্নীতির বিরুদ্ধেও অভিযান পরিচালনার জোর দাবি জানাচ্ছি। একটি অবাধ, সুষ্ঠু, প্রভাবমুক্ত ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চাই এন.পি.পি। তিনি জোর দিয়ে বলেন আসছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইনশাল্লাহ এন.পি.পি ৩০০ আসনে প্রার্থী দেবে। উক্ত প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন- প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা মহানগর সভপতি আনিসুর রহমান দেওয়ান। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য আলহাজ্ব এস এম জহিরুল হক, ইরফানুল হক ছিদ্দিকী, কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মুকতাদের আজাদ খান, অধ্যাপক আবুল মনসুর, কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব এমাদুল হক রানা, খোসাল খান। দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও চট্টগ্রাম জেলার আহ্বায়ক ড. জাহেদ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উপরোক্ত প্রতিনিধি সম্মেলন সঞ্চালনায় ছিলেন চট্টগ্রাম জেলার সদস্য সচিব মো: কামাল পাশা। অনুষ্ঠানে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোওয়াত করেন মো: আশরাফ উদ্দিন। প্রতিনিধি সম্মেলনে জেলা নেতৃবৃন্দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- নূর উদ্দিন, আশরাফ আলী, আবু জাহের, আবদুল হাই, আবদুল ওয়াহাব, নুর মোস্তফা, সাংবাদিক ফিরোজ প্রমুখ।প্রেস বিজ্ঞপ্তি
ফটিকছড়ি কাঞ্চননগর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের বেহাল দশাঃ ৫ বছর ধরে ডাক্তার নে
সজল চক্রবর্ত্তী, ফটিকছড়ি , চট্রগ্রাম :চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার কাঞ্চন নগর ইউনিয়নের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে বেহাল দশা। ৫ বছর ধরে কোন ডাক্তার আসে না বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ।কাঞ্চন নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রশিদ উদ্দিন চৌধুরী কাতেব জানায়,এ বিষয়ে উপজেলা সমন্বয় সভা ও আইন-শৃঙ্খলা সভায় এ বিষয়ে অনেকবার বলা হয়েছে কোন কাজ হয়নি। এলাকাবাসী তাদের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে বারবার আমাকে তাগিদ দিয়েছেন।সরেজমিনে গেলে দেখা যায়, স্বাস্থ্য কেন্দ্রে কোন ডাক্তার নাই। ডাক্তারের কক্ষ সহ অন্যান্য সব কক্ষ খালি, তিন থেকে চারটি কক্ষ তালাবদ্ধ অবস্থায় দেখা যায়। প্রবেশ করতে প্রথমে ডাক্তার রুমের পাশে কিছু নতুন ফার্নিচার রয়েছে। নেই কোন কর্মকর্তাও ডাক্তারের সহযোগিকে পাওয়া যায়নি। সংবাদকর্মীরা অাসার খবর পেয়ে প্রায় এক ঘন্টা পর ছুটে আসেন ডাক্তারের সহযোগী।এলাকাবাসীর অভিযোগ ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র প্রায় পাঁচ বছর ধরে কোন ডাক্তার আসে না মাঝেমধ্যে ফটিকছড়ি বিবিরহাট ২০ শয্যা হাসপাতালের দায়িত্বরত এক ডাক্তার সকাল ৯ টা বাজে আসেন ১০ টার মধ্যে আবার চলে যান। এলাকাবাসীরা অারো জানায়,একসময় ডাক্তার আসতেন তখন রোগীর উপস্থিতি খুব বেশি ছিল বর্তমানে ডাক্তার না আসার কারণে রোগী আসলেও ডাক্তার কে না পেয়ে তারা ফটিকছড়ি বাজার না হয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নাজিরহাট চলে যায় সেবা নিতে।তারা আরো জানায় ডাক্তার আসার অনেক সময় খবর শুনেছি কিন্তু গত পাঁচ বছর ধরে ডাক্তারকে আমরা কখনও দেখিনি। ফটিকছড়ি উপজেলার অন্যতম ইউনিয়ন কাঞ্চননগর। এ ইউনিয়নের অধিবাসীদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী। এ ব্যাপারে কাঞ্চন নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রশিদ উদ্দিন চৌধুরী কাতেব জানায়, এলাকাবাসীর স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে উপজেলা সমন্বয় সভায় জানানো হয়েছে এবং স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে আশা করছি খুব দ্রুত ইউনিয়নের জন্য একজন ডাক্তার। উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সাখাওয়াত হোসেন বলেন, ফটিকছড়ি উপজেলা কাঞ্চননগর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের ডাক্তার মহিউদ্দিন প্রেষণে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে ছিলেন। এখান থেকে ছাড়পত্র নিয়ে সদ্য তিনি অন্য জায়গায় বদলি হয়েছেন। এ ব্যাপারে ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপক কুমার রায় জানান শুধু কাঞ্চন নগর ইউনিয়নের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র নয় ফটিকছড়ি উপজেলার অধিকাংশ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের বেহাল দশা। আমি নিজেও অধিকাংশ ইউনিয়নের স্বাস্থ্য কেন্দ্রে গিয়ে ডাক্তারকে পায়নি, এ বিষয়ে একাধিকবার উপজেলা আইন শৃংখলা ও সমন্বয় সভায় জানানো হয়েছে এবং স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকেও বলেছি এবং জেলা সিভিল সার্জন কে জানানো হয়েছে। ফটিকছড়ি উপজেলাবাসীর স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা দ্রুত একটি ব্যবস্থা নেবেন বলে আশা করছি।
বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বিএফইউজে নেতৃবৃন্দরা
অনলাইন ডেস্ক :বাংলাদেশের সাংবাদিকদের সর্বোচ্চ এবং সর্ববৃহৎ সংগঠন বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ২০১৮ এর নব নির্বাচিত কমিটির পক্ষ থেকে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন নেতৃবৃন্দরা । বুধবার ১ আগস্ট বিকেলে সংগঠনের সভাপতি মোল্লা জালাল ও মহাসচিব শাবান মাহামুদের নেতৃত্বে নেতারা বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধের বেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে তারা বঙ্গবন্ধু ও ৭৫ এর ১৫ আগস্টের শহীদদের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মোনাজাত করেন। এ সময় সংগঠনের সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধূরী, মনতোষ বসু, যুগ্ম মহাসচিব মহসিন কাজী, আব্দুল মজিদ, কোষাধ্যক্ষ দীপ আজাদ, শাকিরুল কবির রিটন, দফতর সম্পাদক বরুন ভৌমিকসহ সিনিয়র সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাফর সূর্য্যের নেতৃত্বে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের নেতারা, বিএফইউজের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহসভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব মহসিন কাজী ও নির্বাহী সদস্য আজহার মাহমুদ, ঢাকা সাংবাদিক পরিবার বহুমুখী সমবায় সমিতির সভাপতি তরুন তপন চক্রবর্ত্তীর নেতৃত্বে নেতৃবৃন্দ, বাংলাদেশ সাবএডিটর কাউন্সিলের সভাপতি শহিদুল হক ও সাধারণ সম্পাদক শাহাদত রানার নেতৃত্বে নেতারা, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি এসএম জাহিদ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলমের নেতৃত্বে নেতারা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান। এছাড়া যশোর, কুষ্টিয়া সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়।
খোরশেদ আলম সুজনের শোক প্রকাশ
দৈনিক পূর্বদেশ এর সিনিয়র সহ-সম্পাদক সঞ্জয় মহাজন কল্লোল এর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন। এক শোক বার্তায় জনাব সুজন বলেন, একজন পরিচ্ছন্ন সাংবাদিক হিসেবে সঞ্জয় মহাজন কল্লোল বিভিন্ন সংবাদপত্রে সুনামের সাথে কাজ করেছেন। তার মৃত্যুতে একদিকে নিষ্টাবান ও পরিশ্রমী সাংবাদিক হারিয়েছে গণমাধ্যম এবং অন্যদিকে গণমাধ্যমকর্মীরা তাদের প্রিয় সহকর্মীকে হারিয়েছেন। জনাব সুজন প্রয়াতের আত্মার সদ্গতি কামনা করেন এবং তাঁর শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।প্রেস বিজ্ঞপ্তি
শোকাবহ আগস্টের প্রথম দিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মাসব্যাপী কর্মসূচী সূচনায় ধারাবাহিক কর্মসূচীর অংশ হিসেবে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে শোকাবহ আগস্টের প্রথমদিনে আজ সকাল ১০টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করা হয়। শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপনকালে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আ.ম.ম টিপু সুলতান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক পার্থ সারথী চৌধুরী, সহ-সভাপতি শহীদুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক মো: সোলায়মান, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আজম শেফী, সহ-দপ্তর সম্পাদক রাজু দাশ হিরু, সহ-সাংস্কৃতিক সম্পাদক বেলাল হোসেন মিঠু, সহ-তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আবিদ হোসেন, বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো: মাকসুদ মাসুদ, পটিয়া উপজেলা যুবলীগ সহ-সভাপতি মো: এহসানুল হক, বোয়ালখালী উপজেলা যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মো: সায়েম কবির, উত্তর সাতকানিয়া সাংগঠনিক থানা যুবলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. আবদুল্লাহ আল বেলাল, পটিয়া উপজেলা যুবলীগ সহ-সম্পাদক আবদুর রহমান জুনু, লোহাগাড়া উপজেলা যুবলীগের সদস্য জয়নাল আবেদীন, বাঁশখালী পৌরসভা যুবলীগের মো: আরিফ উদ্দিন, উত্তর সাতকানিয়া সাংগঠনিক থানা যুবলীগের জহিরুল ইসলাম, মনসুরুল ইসলাম মনসুর, রতন সেন ও মিল্টন ধর প্রমুখ। পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে ৭৫ এর আগস্টের কালো রাত্রিতে নিহত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ সকল শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় মোনাজাত করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
বঙ্গবন্ধুর খুনীদের পূর্ণ বিচার করতে হলে নৌকার বিজয়ের বিকল্প নাই : আবদুচ ছালাম
৪৩তম শোকাবহ আগস্টের প্রথমদিনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাকী খুনীদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর করার দাবীতে এবং ১৫ আগস্টের শহীদদের স্মৃতির স্মরণে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে প্রগতিশীল সচেতন ছাত্র-যুবসমাজের উদ্যোগে চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য পংকজ রায়ের সভাপতিত্বে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম উপরোক্ত মন্তব্য করেন। তিনি আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত শক্তিরা ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু সহ স্বপরিবারকে হত্যা করে মহান মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লক্ষ শহীদদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতাকে বিপন্ন করে পিতাহীন রাষ্ট্রে পরিণত করার যে ষড়যন্ত্রে জিয়াউর রহমান ইন্ডেমনীটি অধ্যাদেশ জারি করে বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার বন্ধ করার যে ষড়যন্ত্র করেছিলেন তার বিরুদ্ধে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাঙালি জাতি আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে আপামর বাঙালি জাতির ভোটে নির্বাচিত হয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠন করার মাধ্যমে একের পর এক বঙ্গবন্ধুর খুনীদের ফাঁসির রায় কার্যকর করে সকল যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের মাধ্যমে যে উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছেন তাকে কুলষিত করে বঙ্গবন্ধুর বাকী খুনীদের বাঁচিয়ে দেওয়ার অপচেষ্টায় বিএনপি-জামাত জোট যে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়ে পিছনের দরজায় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হওয়ার যে স্বপ্ন দেখছেন তাকে আগামী নির্বাচনে ইস্পাত কঠিন ঐক্যের মাধ্যমে নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করে শেখ হাসিনাকে আবারো ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত করার আহ্বান জানান এবং ৭৫ এর ১৫ আগস্ট কালো রাত্রিতে বঙ্গবন্ধু সহ স্বপরিবারের স্মৃতি প্রতির বিনম্র শ্রদ্ধা ও তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন। উক্ত প্রদীপ প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মনোয়ার জাহান মনি, সাধন দে, শামশেদ খোকন, নুর মোহাম্মদ, মো: সিরাজ, শাহেদুল আলম শাহেদ, আজগর আলী, ডা: জাহাঙ্গীর, মো: আবুল হোসেন, এম.এইচ. মানিক, তরিকুল বাহার, অপু দাশ, শাহজাহান রুবেল, মো: আমির, মহিউদ্দিন জনি, মো: সাদ্দাম, মো: আমিন, মো: আসিফ, আবদুস ছালাম বাবু, মো: সানি প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
চান্দগাঁও ছাত্রসেনার মতবিনিময় সভায় নগর ইসলামী ফ্রন্ট সভাপতি নঈম উল ইসলাম, বর্তমানে সড়ক যেন �
বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ নঈম উল ইসলাম বলেন, বর্তমানে সড়ক যেন মৃত্যুকূপ। মহাসড়কে ফিটনেসবিহীন গাড়ির সংখ্যাই বেশি। এ গাড়িগুলোর অধিকাংশ চালক ১৫-১৬ বছরের যুবক। তাদের পর্যাপ্ত অভিজ্ঞতা নেই, নেই ড্রাইভিং লাইসেন্স। এমন অবস্থায় তাদের বেপরোয়া গাড়ি চালানোর ফলে খালি হচ্ছে অনেক মায়ের কোল। বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর আওতাধীন চান্দগাঁও থানা শাখার মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ১ আগস্ট বিকেল এককিলোমিটারস্থ নাফিস ভবনে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মুহাম্মদ জিহাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ নঈম উল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ শফিউল আলম। প্রধান বক্তা ছিলেন ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর ছাত্রসেনার সভাপতি মুহাম্মদ মাছুমুর রশিদ কাদেরী। বিশেষ বক্তা ছিলেন মহানগর উত্তর ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ গোলাম মোস্তফা। মুহাম্মদ বেলাল রেজার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তারা , নিরাপদ সড়কের দাবির জানায়। হানিফ পরিবহনের বাস কর্মচারীদের দ্বারা ছাত্র সাইদুর রহমান (পায়েল) হত্যা এবং গত রবিবার ঢাকার বিমানবন্দর সড়কে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় জড়িত বাস চালকদের শাস্তি নিশ্চিত করতে সরকার ও প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানান বক্তারা। সভায় আলোচনায় অংশ নেয় মুহাম্মদ ইকবাল হোছাইন, আবদুল আলিম, নুরুল আমিন, নুরুল ইসলাম, আল আমিন রেযা, আবদুল কাইয়ুম প্রমুখ।প্রেস বিজ্ঞপ্তি
বর্ণাঢ্য আয়োজনে দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত
দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ১ আগস্ট চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়ন হলরুমে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সাংবাদিক বজলুল হকের সঞ্চালনায় উক্ত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের সম্পাদক ও প্রকাশক মিজানুর রহমান চৌধুরী। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সদস্য সাংবাদিক ইস্কান্দার আলী চৌধুরী। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন মেরন সান স্কুল এন্ড কলেজ এর অধ্যক্ষ লায়ন মোহাম্মদ সানাউল্লাহ। উক্ত অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য প্রদান করেন আনোয়ারা প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুল নুর চৌধুরী, দৈনিক দিনকালের চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান হাসান মুকুল, দৈনিক কর্ণফুলীর চীফ রিপোর্টার এয়াকুব আলী মনি, দৈনিক আজাদীর সহ সম্পাদক জসীম সিদ্দিকী, ন্যাপ চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি ওসমান গণি সিকদার, এ্যাডভোকেট মোহাম্মদ কায়সার, সাংবাদিক এস এম ইউসুফ, দৈনিক দিনকালের স্টাফ রিপোর্টার মোহাম্মদ আলী, দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের প্রতিনিধি রায়হান সিকদার, মোহাম্মদ কমরুদ্দিন, মীর মামুন, কাজী মামুনুর রশীদ, সাংবাদিক হুমায়ুন কবির, এনামুল হক নাবীদ, এম সাদ্দাম হোসাইন সাজ্জাদ, নোমান ফারুকী প্রমুখ। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সিটিজি পোষ্ট পরিবার, অনলাইন প্রেসক্লাব ও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের সম্পাদক ও প্রকাশক মিজানুর রহমান চৌধুরীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক আবুহেনা খোকন। আলোচনা সভায় সাংবাদিকতাসহ বিভিন্ন পেশায় অবদান রাখার জন্য ১৫ জনকে দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের পক্ষ থেকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কাটার মধ্যদিয়ে আলোচনা সভার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়। আলোচনা সভা শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।প্রেস বিজ্ঞপ্তি
দৈনিক আমাদের চট্টগ্রাম পত্রিকার ৭ম বর্ষপূর্তিতে শুভেচ্ছা
দৈনিক আমাদের চট্টগ্রাম পত্রিকার ৭ম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান আগষ্ট ২০১৮, বুধবার বিকেলে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্য্যালয়ে পত্রিকাটির সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী'র সভাপতিত্বে অনু্ষ্ঠিত হয়। বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- খ্যাতিমান সাংবাদিক ইসকান্দর আলী চৌধুরী। এদিকে পত্রিকাটির বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের এক প্রতিনিধিদল ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি ক্লাবের পক্ষে সভাপতি বক্তব্যও রাখেন। ফুল প্রদানকালে প্রতিনিধিদলে ছিলেন- ক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ মুকতাদের আজাদ খান, যুগ্ম সম্পাদক স.ম জিয়াউর রহমান, উপ-প্রচার সম্পাদক রাজিব চক্রবর্তী, সদস্য তরুন বিশ্বাস অরুন, কুতুব উদ্দিন রাজু প্রমুখ।প্রেস বিজ্ঞপ্তি

সারা দেশ পাতার আরো খবর