শুক্রবার, এপ্রিল ১৬, ২০২১
কাপ্তাই হ্রদে দখল ও দূষণরোধে ব্যবস্থাপনা কমিটির সুপারিশ
১৬সেপ্টেম্বর,বুধবার,আব্দুল নাঈম,কাপ্তাই প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বৃহত্তম কৃত্রিম জলাধার রাঙ্গামাটির কাপ্তাই হ্রদে ড্রেজিংয়ের মাধ্যমে নাব্যতা ফেরানো, হ্রদে কার্পজাতীয় মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি, দখল ও দূষণ রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ উঠেছে জেলা নদী রক্ষা ও কাপ্তাই হ্রদ ব্যবস্থাপনা কমিটির পক্ষ থেকে। গতকাল সকালে জেলা নদী রক্ষা ও কাপ্তাই হ্রদ ব্যবস্থাপনা কমিটির এক সভায় সুপারিশ করা হয়। সম্প্রতি কাপ্তাই হ্রদে দখলের প্রবণতা বৃদ্ধি পাওয়ায় জরুরি ভিত্তিতে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা নদী রক্ষা ও কাপ্তাই হ্রদ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি এবং রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদের সভাপতিত্বে এতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন করপোরেশনের রাঙ্গামাটি কেন্দ্রের ব্যবস্থাপক লে. কমান্ডার মো. তৌহিদুল ইসলাম, জেলা অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট শিল্পী রানী রায়সহ কমিটির অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় এ বছর হ্রদের পানি কম হওয়ায় শুষ্ক মৌসুমে নৌযান চলাচল স্বাভাবিক রাখাসহ হ্রদের মৎস্যসম্পদ রক্ষা করা এবং একই সঙ্গে কাপ্তাইয়ে অবস্থিত কর্ণফুলী জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদন চলমান রাখার বিষয়েও গুরুত্বারোপ করা হয়। জেলা নদী রক্ষা ও কাপ্তাই হ্রদ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ বলেন, কাপ্তাই হ্রদে নাব্যতা ফেরাতে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করে দ্রুত কাজ শুরুর ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হবে। হ্রদের দখল বন্ধে সবার সহযোগিতা কামনা এবং অবৈধভাবে বালি উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইউএনওদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
সাংবাদিকদের দেখলেই তেড়ে আসেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, কিন্তু কেন!
১৫সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,কামরুজ্জামান মিন্টু,ময়মনসিংহ প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: সরকারি বরাদ্দের দেড় কোটি টাকা অনিয়ম করাসহ নানা অভিযোগে অভিযুক্ত ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সোহেলী শারমিন। তিনি চলতি বছরের ১২ মার্চ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন। যোগদানের পরপরই হাসপাতালের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সাথে অসদাচরণ করার অভিযোগ উঠে তার বিরুদ্ধে। তার অসদাচরণে অতিষ্ঠ হয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করাসহ লিখিত অভিযোগ করেন হাসপাতালের স্টাফরা। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এর কিছুদিন পর উপজেলা স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা কমিটি তার বিরুদ্ধে সরকারি বরাদ্দের দেড় কোটি টাকা অনিয়ম করার অভিযোগ তুলে। এই অনিয়ম খতিয়ে দেখতে গত জুলাই মাসে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কিন্তু দুমাস পেরিয়ে গেলেও আজো তদন্ত কমিটি তার কাছ থেকে দেড় কোটি টাকার হিসাব নিতে পারেনি। এছাড়া আর্থিক অনিয়মের পাশাপাশি হাসপাতালের প্রসূতি ও অন্যান্য রোগীদের প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। হাসপাতালে সিজারিয়ান অপারেশন বন্ধ রেখে প্রাইভেট হাসপাতালে সিজারিয়ান অপারেশন করে তিনি প্রতিদিন হাতিয়ে নিচ্ছেন মোটা অংকের টাকা। সরকারী গাড়ী ব্যবহার করে প্রতিদিন প্রাইভেট প্র্যাকটিস করেন তিনি। তিনি নিজের পছন্দের ঠিকাদার নিয়োগ করে নিম্ন মানের খাবার সরবরাহ করে কমিশন খায়, হাসপাতালের বাবুর্চিকে নিজের বাসায় ব্যবহার করেন ডা. সোহেলী শারমিন। কর্মচারীদেরকে নিজের ব্যক্তিগত কাজে লাগানো, ক্ষমতার অপব্যবহার করে ৩ জনের কোয়ার্টারের রুম একাই ব্যবহার করাসহ নানা অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। গোপন সূত্রে জানা যায়, হাসপাতালের কর্মকর্তা, কর্মচারীদের সাথে অসদাচরণ, বেতন আটকে রাখা, বদলি করা, কাজ বন্টনে স্বজনপ্রীতি, টিএ বিল প্রদানের ক্ষেত্রেও নানা অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এসব অনিয়মের ফলে হাসপাতালের স্টাফদের মাঝে একধরণের চাপা অসন্তোষ বিরাজ করছে। এভাবে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার সাথে স্টাফদের রেষারেষির কারণে হাসপাতালে ব্যাহত হচ্ছে স্বাস্থ্যসেবা। আরো জানা যায়, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী সবাই একত্রে ডা. সোহেলী শারমিনের অসদাচরণে অতিষ্ঠ হয়ে তার প্রত্যাহার চেয়ে মানববন্ধন করেছিলেন। এছাড়াও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বরাবর ভালুকার সংসদ সদস্য, স্বাস্থ্য বিভাগের বিভাগীয় পরিচালক, সিভিল সার্জন ও উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছে অনুলিপি পাঠানো হয়েছিল। সেই থেকেই এই ডাক্তারের ভয়ে এখনো অনেকের শরীর ঘামে। এত অভিযোগের পরেও এখনো বহাল তবিয়তেই আছেন এই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা। তার খুঁটির জোড় নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। এসব অভিযোগের সত্যতা যাচাই করতে গিয়ে অনুসন্ধান বেড়িয়ে এসেছে আরও অজানা অনেক তথ্য। রবিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২ টার দিকে গিয়ে দেখা যায়, এসএ টিভির সাংবাদিক আওলাদ হোসেন রুবেল ও সাথে ভালুকার স্থানীয় এক সহযোগী হাসপাতালে প্রবেশ করা মাত্রই অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। তখন ক্যামেরা বন্ধ ছিল, তবুও তিনি ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে ভেঙে ফেলার চেষ্টা করেন। একপর্যায়ে ডা. সোহেলী শারমিন স্থানীয় ঐ ব্যক্তির সাথে হাতাহাতি শুরু করেন। হাসপাতালে এমন ঘটনা দেখে সেবা নিতে আসা অনেকে নিরাশ হয়েছিলেন। স্থানীয় সাংবাদিক মহল এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন। এ বিষয়ে ডা. সোহেলী শারমিন বলেন, আমি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসার পর থেকেই একটি মহল আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। আমি কোনো দুর্নীতি করিনি। আমার বিরুদ্ধে যেই মানববন্ধন করা হয়েছে তারও কোনো ভিত্তি নেই। সাংবাদিকদের কেন লাঞ্ছিত করেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি প্রথমে চিনতে পারিনি। হাসপাতালের একজন আমাকে বলছে কে যেন ক্যামেরা নিয়ে আসছে। তাই ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। আপনার কক্ষে সাংবাদিক ডুকেনি, আপনার অনুমতি না নিয়ে ক্যামেরা চালু করা হয়নি তবুও ক্ষিপ্ত হয়েছিলেেন কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি দেখতে ভালোনা। তাই ক্যামেরার সামনে আসিনা। পরে সিভিল সার্জন স্যারের সাথে কথা বলে নিশ্চিত হয়েছি তারা গণমাধ্যম কর্মী ছিলেন। পরে ক্যামেরার সামনে সাক্ষাৎকারে বলেছি যে সকল বিরুদ্ধে সকল অভিযোগ মিথ্যা। স্বাস্থ্যখাতের নানা অনিয়ম ও দুর্নীতি বন্ধ করতে সরকারকে বিশেষ টাস্কফোর্স গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন ময়মনসিংহ জনউদ্যোগের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম চুন্নু। এ বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বলেন, বর্তমান সরকার উন্নয়নের সরকার। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুর্নীতির সাথে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জড়িত থাকলে অবশ্যই যথাযথ কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন। আমরাও কোনো অপরাধীকে ছাড় দেবোনা। তবে ময়মনসিংহের সিভিল সার্জন ডা. এবিএম মসিউল আলম উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগের ব্যাপারে ফোনে অথবা ক্যামেরার সামনে কোনো কথা বলতে রাজী হয়নি। স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সোহেলী শারমিনের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়গুলো খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন ভালুকার সংসদ সদস্য কাজিম উদ্দিন আহম্মেদ ধনু।
উখিয়ায় বেগুনের বস্তায় পৌনে ২ কোটি টাকার ইয়াবা, যুবক আটক
১৫সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,মো.জুনায়েদুল হক,কক্সবাজার প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: কক্সবাজারের উখিয়ায় বেগুনের বস্তা ভরে ইয়াবা পাচারকালে ইয়াবাসহ এক যুবককে আটক করেছে বিজিবি। আটককৃত যুবকের নাম মামুন। আজ মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের পূর্ব দরগারবিল বাগানপাড়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে ৬০ হাজার পিস উদ্ধার করা হয়। কক্সবাজার ৩৪ বিজিবির উপ-পরিচালক তাজমিলুর ইসলাম নিউজ একাত্তরকে জানান, বিজিবির নিজস্ব গোয়েন্দা সংবাদের মাধ্যমে কিছু লোক বিপুল পরিমাণ ইয়াবা নিয়ে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করার তথ্যে এ অভিযান চালানো হয়। এ সময় বেগুনের বস্তায় অভিনব কৌশলে লুকানো আনুমানিক এক কোটি ৭৮ লাখ ৫৭ হাজার ৫শ টাকার ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। আটককৃত যুবকের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান বিজিবির এই কর্মকর্তা।
শাহজাদপুরে হুইল চেয়ার ও নগদ অর্থ পেল দুই প্রতিবন্ধী
১৫সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,ইফতানা খানম,সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: মানবিক চিকিৎসকদের সহায়তা সংগঠন ডু স্যামথিং ফাউন্ডেশন ও একুশে টেলিভিশনের সেবা সংগঠন সিরাজগঞ্জ একুশে ফোরামের উদ্যোগে শাহজাদপুর উপজেলার দুই প্রতিবন্ধীকে হুইল চেয়ার ও নগদ অর্থ প্রদান করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকালে এনায়েতপুর থানার গোপিনাথপুরে একুশে ফোরামের নির্মিত গোপিনাথপুর শহীদ মিনার চত্বরে ফোরামের সভাপতি আখতারুজ্জামান তালুকদার হুইল চেয়ার ও আর্থিক সহায়তা তুলে দেন। এ সহায়তা পান খুকনী ঝাওপাড়ার প্রতিবন্ধী হাসমত আলী ও সোনাতনী চরের ছানোয়ার হোসেন। এ সময় ফোরামের সদস্য শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম সওদাগর, মারুফা মির্জা, আসাদুজ্জামান আসাদ, রায়হান আলী, প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সহযোগিতা পেয়ে কৃতজ্ঞতা জানান প্রতিবন্ধীরা। এদিকে চলমান করোনাকাল ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ডু স্যামথিং ফাউন্ডেশন সিরাজগঞ্জ, গাইবান্ধা, মানিকগঞ্জ ও ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকার প্রায় ২০ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে। এছাড়া বিভিন্ন স্থানে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প পরিচালনার পাশাপাশি সারা বছরই ফাউন্ডেশনটি অসহায় মানুষের মাঝে চিকিৎসা সহায়তা, পুঁজি, ঘর প্রদানসহ নানা সহযোগিতা দিয়ে থাকেন বলে জানিয়েছেন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ডা. কাজী আয়েশা সিদ্দিকা।
গ্রামীণ জনপদে দৃষ্টিনন্দন আয়রন ব্রিজ
১৪সেপ্টেম্বর,সোমবার,মো.ইশতিয়াক হোসেন,বরিশাল প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: পল্লী যোগাযোগ অবকাঠামো উন্নয়ন ও পুনর্বাসন করতে আয়রন ব্রিজ (লোহার পুল) পুনর্নির্মাণ ও পুনর্বাসন প্রকল্পের সুফল পেতে শুরু করেছে দক্ষিণাঞ্চলের ছয় জেলার মানুষ। সরকারের সময়োপযোগী পদক্ষেপ বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছেন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা। এ প্রকল্পের আওতায় জরাজীর্ণ আয়রন ব্রিজের স্থলে ৮৬৫টি আরসিসি গার্ডার ব্রিজ নির্মাণ এবং ইউনিয়নের গ্রামীণ সড়কে মোট ১ হাজার ৯৬টি আয়রন ব্রিজ পুনর্বাসনের মেরামতকাজসহ মোট ১ হাজার ৯৬১টি ব্রিজ নির্মাণের কাজ শুরু করা হয়েছে। ২০১৮ সালের জুলাই থেকে এলজিইডির এ প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। এরই মধ্যে এ প্রকল্পের মাধ্যমে বেশকিছু ব্রিজ নির্মাণ ও মেরামত করা হয়েছে, যার সুবিধা ভোগ করছে লক্ষাধিক মানুষ। ওই প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. আব্দুল হাই বলেন, সরকারি সব বিধি মেনেই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে বরিশাল অঞ্চলের প্রায় দুই কোটি জনগণ সুবিধা ভোগ করবে। তিনি আরো বলেন, একটি মহল সরকার তথা এলজিইডি বিভাগের সুনাম নষ্ট করতে দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকা পটুয়াখালী, বরগুনার আমতলীতে গায়েবি টেন্ডার আহ্বানের কথা বলে অপপ্রচার চালাচ্ছে। এলজিইডিতে গায়েবি টেন্ডার আহ্বান করে অর্থ আত্মসাতের কোনো সুযোগ নেই। এলজিইডি বিভাগ মানুষের কল্যাণে জনস্বার্থে কাজ করে থাকে। সরকারকে বিতর্কিত করতে ওই বিশেষ মহলের অপপ্রচারে কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।
চাঁদপুরসহ তিন জেলার নৌপথ পরিদর্শন করলেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী
১৩সেপ্টেম্বর,রবিবার,জিন্নাতুল আশফি,চাঁদপুর প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নারায়ণগঞ্জ, চাঁদপুর ও বরিশাল জেলার নৌপথ পরিদর্শন করেছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি। ১২ সেপ্টেম্বর শনিবার সকাল ৮টায় তিনি নৌপথে নারায়ণগঞ্জ নদীবন্দর উপস্থিত হয়ে চাঁদপুরের লক্ষ্মীরচরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। এরপর পর্যায়ক্রমে চাঁদপুর আলুর বাজার ফেরিঘাট, হাইমচর উপজেলার ঈশানবালা, বরিশাল জেলার হিজলা-উলানিয়া-মিয়ারচর নৌপথ পরিদর্শন করেন। সকাল ১০টায় প্রতিমন্ত্রী আলুর বাজার ফেরিঘাটে উপস্থিত হলে চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। পরে কিছুটা সময় প্রতিমন্ত্রী প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে নৌপথ সম্পর্কে আলোচনা করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বরিশাল-৪ আসনের এমপি পঙ্কজ দেবনাথ, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক, বন্দর ও পরিবহন বিভাগের পরিচালক ওয়াকিল নোয়াজ, বিআইডাবিস্নউটিএ'র প্রধান প্রকৌশলী (ড্রেজিং) আবদুল মতিন, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (প্রকৌশল বিভাগ) রফিকুল ইসলাম তালুকদার, যুগ্ম পরিচালক মাহমুদুল হাসান থান্ডাড, চাঁদপুর বন্দর ও পরিবহন কর্মকর্তা কাউছার আহমেদ, চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মেহেদী হাসান মানিক প্রমুখ। চাঁদপুর বন্দর ও পরিবহন কর্মকর্তা কাউছার আহমেদ জানান, তিন জেলার নৌপথ পরিদর্শনের পাশাপাশি প্রতীমন্ত্রী মূলত বরিশাল জেলার মিয়ারচর নামক স্থানটি দেখতে এসেছেন। কারণ ঢাকা থেকে দক্ষিণাঞ্চলের লঞ্চ চলাচল করতে মিয়ারচর অতিক্রম করতে হয়। সেখানে লঞ্চ চলাচলে সমস্যা হওয়ার কারণে বিকল্প নৌপথ অনুসন্ধানে প্রতিমন্ত্রীসহ অন্যান্য কর্মকর্তার এই পরিদর্শনে আসা। নৌপথ পরিদর্শন শেষে প্রতিমন্ত্রী দুপুর ২টায় হিজলা লঞ্চঘাটে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় করেন। বিকেল ৩টায় হিজলা থেকে নৌপথে কেবিন ক্রুজারযোগে নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন।
বেনাপোল-শার্শায় ১৮ কোটি টাকার অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার
১৩সেপ্টেম্বর,রবিবার,মো.আশিক বিল্লাহ,বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: যশোরের বেনাপোল-শার্শা সীমান্ত থেকে গত এক বছরে প্রায় ১৮ কোটি টাকার চোরাচালানানী পণ্য ও মাদকদ্রব্য জব্দ করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। এ সময় আটক করা হয় ২০১ জন চোরাচালানীকে। তবে, এখনও ধরাছোঁয়ার বাহিরে রাঘব বোয়ালরা। শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বেনাপোল সদর কোম্পানি ক্যাম্পে এক সংবাদ সম্মেলনে বিজিবির পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। যশোর ৪৯ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল সেলিম রেজা জানান, গত এক বছরে ১৩টি পিস্তল, ২৪টি ম্যাগজিন, ৫৮টি গুলি, ২৫ দশমিক ৪১ কেজি স্বর্ণেরবার, ২০ হাজার ৮২৭ বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল, ৫৪৭ কেজি গাঁজা, ৪০৬ বোতল মদ, ৫৬৭ পিস ইয়াবা ও ৪০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধারসহ সর্বমোট ২০১ জনকে আটক করেছে বিজিবি। এ সময়ে ১৭ কোটি ৭৫ লাখ ৪০ হাজার ৫শ টাকার মালামাল আটক করা হয়। তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে সীমান্তের কতিপয় মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ী বিভিন্ন কৌশলে ভারত থেকে মাদক এবং অস্ত্র এনে দেশের বিভিন্ন এলাকায় নিয়ে বিক্রি করছে। সেই সাথে স্বর্ণ ও হুন্ডির চালান পাচার করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে এ ধরণের মাদক, অস্ত্র, স্বর্ণ ও হুন্ডি পাচারকারীদের চিহ্নিত করে সীমান্ত এলাকায় গোয়েন্দা তৎপরতা বৃদ্ধি করা হয়। যার ধারাবাহিকতায় চোরাচালানী, অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য আটক করা সম্ভব হচ্ছে। সীমান্তের বড় বড় রাঘব বোয়ালরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ায় এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের টিকিটি পর্যন্ত স্পর্শ করতে না পারার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, রাঘব বোয়াল চোরাকারবারীরা সাধারণত নিজেরা মাদক, স্বর্ণ ও হুন্ডিসহ বিভিন্ন চোরাচালানী পণ্য বহন করে না। সে কারণে তাদেরকে হাতেনাতে আটক করা সম্ভব হয়না। প্রতিনিয়ত তাদের চোরাচালানী সামগ্রী আটক হলেও প্রমাণের অভাবে তাদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা সম্ভব হয়না।
মসজিদে বিস্ফোরণ: সর্বোচ্চ দক্ষতা দিয়ে তদন্ত করবে সিআইডি
১২সেপ্টেম্বর,শনিবার,নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার পশ্চিম তল্লা এলাকায় বায়তুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণ ঘটনা পেশাগত সর্বোচ্চ দক্ষতা দিয়ে পরিচালনা কার হবে বলে জানিয়েছেন সিআইডির ডিআইজি মাঈনুল হাসান। আজ শনিবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন। এ সময় তার সাথে ছিলেন, অতিরিক্ত ডিআইজি ইমাম হোসেন। সিআইডি কর্মকর্তা বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে গ্যাস থেকেই এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তবে আমরা অন্যান্য সবগুলো তদন্ত কমিটির রিপোর্ট হাতে নিয়ে চূড়ান্ত প্রতিবেদন তৈরি করা করব। প্রতিবেদনটি দ্রুত সম্পন্ন করে মামলা পরিচালনা করা হবে বলেও জানান তিনি। গত ৪ সেপ্টেম্বর এশার নামাজ পড়ার সময় ওই মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। যেখানে মারাত্মকভাবে দগ্ধ হন ৩৭ জন। তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে গতকাল পর্যন্ত ৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। বাকিদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক। বর্তমানে তারা আইসিইউতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বিস্ফোরণ ঘটনায় একদিন পর ফতুল্লা থানায় একটি মামলা হয়। গত বৃহস্পতিবার মামলাটি সিআইডির কাছে হস্তান্তর করা হয়।
লোহাগাড়ায় ১৫ হাজার ইয়াবাসহ ৪ মাদক কারবারি আটক
১১সেপ্টেম্বর,শুক্রবার,এম.ইহসানুল হক,লোহাগাড়া প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় পৃথক অভিযান চালিয়ে ১৫ হাজার ইয়াবাসহ চার মাদক কারবারিকে আটক করেছে লোহাগাড়া থানা পুলিশ। এই সময় তাদের ব্যবহৃত একটি প্রাইভেট কার সহ ২০ লিটার চোলাই মদ উদ্ধার করা হয়। আটককৃতরা হলেন কক্সবাজার জেলার টেকনাফ পৌরসভার ইসলামাবাদ এলাকার আলী আহম্মদের পুত্র ইব্রাহীম (২২), কক্সবাজার সদরের ইসলামপুর এলাকার রশিদ আহমদের পুত্র জাহেদ হোসেন (২২), ঢাকা গোলশান ছোলমাইদ পুর্ব পাড়ার মহির উদ্দিনের পুত্র মনির হোসেন (৩২) ও পশ্চিম কলাউজান করাইল্যা পুকুর পাড় চাচী রাম কান্তি নাথের পুত্র সজিব কান্তি নাথ (৩০)। থানা সুত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতরাতে একটি পুলিশি টিম উপজেলার চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চুনতি ফরেস্ট রেঞ্জ কার্যালয়ের সামনে হতে প্রাইভেট কারে তল্লাশী চালিয়ে ইব্রাহীম,জাহেদ, মনিরের কাছ থেকে ১৫হাজার পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট এবং উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের রাজঘাটা ০৯নং ওয়ার্ড গরম মসজিদ এর সামনে টংকাবতী সড়কে উপর অভিযান চালিয়ে ২০(বিশ) লিটার দেশীয় তৈরী চোলাইমদ সজীব কান্তি নাথকে আটক করে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক পৃথক ২টি মামলা রুজু করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে তাদেরকে চট্টগ্রাম আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে থানা সুত্রে জানা গেছে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর