জেএমবি'র ৩ সদস্য আটক
জিহাদি বইসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জের সদর ও শিবগঞ্জ থানা এলাকা থেকে জেএমবির তিন সক্রিয় সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব-৫) সদস্যরা। মঙ্গলবার (১৯ জুন) ভোরে আলাদা অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। আটকেরা হলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ থানার চাকলা মিয়াপাড়ার মো. রহমত আলী (৪৭), পারএকলামপুর বিশ্বাসপাড়ার মো. জাহাঙ্গীর আলম (৪৩) ও চাকলা কামারটেকপাড়ার মো. মোয়াজ্জেম হোসেন। র‌্যাব-৫ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আশরাফুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন দূর্গাপুর পূর্বপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি)-এর সক্রিয় সদস্য রহমত আলীকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে শিবগঞ্জ থানাধীন চাকলা এলাকা থেকে অভিযান চালিয়ে তার সহযোগী জেএমবির সক্রিয় সদস্য জাহাঙ্গীর ও মোয়াজ্জেমকে আটক করা হয়। র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও জানান, আটকদের কাছ থেকে জিহাদি বই, পাসপোর্ট, মোবাইল ও নগদ টাকা জব্দ করা হয়েছে। বর্তমানে তাদের র‌্যাব-৫ এর রাজশাহী সদর দফতরে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পরে তাদের ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।
কক্সবাজারে পুকুরে ডুবে তিন ভাই-বোন নিহত
কক্সবাজারের উখিয়ায় পুকুরের পানিতে ডুবে একই পরিবারের তিন শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (১৮ জুন) রাত সাড়ে ৯টায় উপজেলার রত্নাপালং ইউপির ৫নং ওয়ার্ডের চাকবৈঠা গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত শিশুরা হলো- রত্নাপালং ইউপির চাকবৈঠা গ্রামের আবদুল কাদেরের দুই মেয়ে মারাওয়া (৯) ও সাফা (৭) এবং কাদেরের ভাই আবু ছিদ্দিকের ছেলে ফাহিম (৮)। তারা তিনজনই চাকবৈঠা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয়, দ্বিতীয় ও প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলো। আবদুল কাদের বলেন, ঈদের তৃতীয় দিনে বাড়ি ভর্তি মেহমান ছিল। তাদের সঙ্গে আসা অন্য শিশুদের নিয়ে রাতে উঠানে খেলছিল আমার দুই মেয়ে ও আমার ভাইয়ের ছেলে। অপর ভাই আবু ছিদ্দিক বলেন, খেলতে গিয়ে মারাওয়া, সাফা ও ফাহিম উঠানের পাশে থাকা পুকুরে পড়ে যায়। পরে অনেক খোঁজাখুজির পর ওই পুকুর থেকে তিন ভাই-বোনের ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করা হয়। রত্নাপালং ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান খায়রুল আলম চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল খায়ের তিন শিশুর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
বঙ্গোপসাগরে ট্রলার ডুবি ২১ মাঝিমাল্লা নিখোঁজ
বঙ্গোপসাগরের বাঁশখালী-কুতুবদিয়া চ্যানেলের সোনারচরে একটি ট্রলার ডুবে ২১ মাঝিমাল্লা নিখোঁজ হয়েছেন। সপ্তাহখানেক আগে গভীর সাগরে মাছ ধরতে গিয়ে ‘এফবি সূর্যমুখী’ নামেট্রলারটি ঝড়ের কবলে পড়ে নিখোঁজ হন তারা। নিখোঁজ সবাই বাঁশখালী উপজেলার পুঁইছড়ি ইউনিয়নের বহদ্দারহাট জলদাস পাড়া ও কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার বাসিন্দা। নিখোঁজ ফিশিং ট্রলারের মালিক হরিধর জলদাস জানান, সপ্তাহখানেক আগে এসবি সূর্যমুখী নামে ফিশিং ট্রলার নিয়ে ২১ মাঝিমাল্লা গভীর সাগরে মাছ ধরতে যায়। পরে সোনারচরে ঘূর্ণিঝড়ের কবলে পড়ে ট্রলারটি। এতে ট্রলারে থাকা ২১ মাঝিমাল্লা নিখোঁজ রয়েছেন। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও এখনো তাদের সন্ধান পাওয়া যায়নি। বাঁশখালী থানার ওসি মো. সালাহউদ্দিন বলেন, সাগর ও আশপাশের উপকূলীয় এলাকায় ট্রলারটি উদ্ধারে যৌথভাবে আমাদের উদ্ধার কাজ চলমান রয়েছে। পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন, কোস্টগার্ড একযোগে কাজ করে যাচ্ছে।
ইয়াবাসহ গ্রেফতার দুই
চট্টগ্রাম মহানগরীর বায়োজিদ বোস্তামি থানাধীন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩৮ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং ০১ টি কাভার্ডভ্যানসহ ০২ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭।উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটের আনুমানিক মূল্য এক কোটি ৯০ লক্ষ টাকা এবং জব্দকৃত কার্ভাড ভ্যানের আনুমানিক মূল্য ৩০ লক্ষ টাকা সূত্র জানিয়েছে। রোববার র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী কক্সবাজার থেকে একটি কাভার্ড ভ্যান যোগে বিপুল পরিমাণ মাদক নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাচ্ছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে স্কোয়াড্রন লিডার শাফায়াত জামিল ফাহিম, পিপিএম এর নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল চট্টগ্রাম মহানগরীর বায়োজিদ বোস্তামি থানাধীন পশ্চিম শহীদ নগরে একটি বিশেষ চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশি করতে থাকে। এ সময় চট্টগ্রাম হতে ঢাকাগামী একটি কাভার্ড ভ্যানের গতিবিধি সন্দেহজনক হলে র‌্যাব সদস্যরা কাভার্ড ভ্যানটি থামিয়ে আসামী ১। মোঃ আবু তাহের (৪০), পিতা-হাসু মিয়া, গ্রাম-দক্ষিন দেশুওয়া পাড়া, থানা-রামু, জেলা-কক্সবাজার এবং ২। মোঃ আলম (২৪), পিতা-মৃত আবুল কাশেম, গ্রাম-পূর্ব মরিচা বাজার, থানা- উখিয়া, জেলা-কক্সবাজার’দেরকে আটক করে। পরবর্তীতে উপস্থিতি সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীদেরকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে তাদের দেখানো ও সনাক্ত মতে উক্ত কাভার্ড ভ্যানটি (চট্ট-মেট্রো-অ-১১-০৫৯৯) তল্লাশী করে কাভার্ড ভ্যানের ভিতরে সীটের পিছনে একটি কোঠরীতে সুকৌশলে লুকানো অবস্থায় ৩৮ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ উক্ত কাভার্ড ভ্যানটি জব্দ করা হয়। সূত্র আরো জানায়, গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত মালামাল সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে ১৯৯০ সনের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ১৯(১) টেবিল এর ৯(খ)/২১/২৫ ধারা মোতাবেক চট্টগ্রাম মহানগরীর বায়োজিদ বোস্তামি থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।
সাতকানিয়া ঢেমশা উচ্চ বিদালয় প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী পরিষদের পুর্ণমিলনী
সাতকানিয়া উপজেলা ঢেমশা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাক্তন ছাত্র ছাত্রী পরিষদের উদ্যোগে ঈদ পুর্ণমিলনী, সম্প্রতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সাথে অষ্ট্রেলিয়ার সিডনীতে অনুষ্ঠিত গ্লোবাল সামিট অব উইমেন' ২০১৮ ইং সম্মেলনে সফরসঙ্গী হওয়ায় বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাংবাদিক আবু সুফিয়ানের সংবর্ধনা এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠান পরিষদের সভাপতি শিক্ষাবিদ বাবু সুভাষ চন্দ্র দাশের সভাপতিত্বে গত ১৭ জুন দুপুর ১১টায় বিদ্যালয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। এতে সংবর্ধিত প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন রুপালী ব্যাংকের পরিচালক, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, ঢেমশা উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাংবাদিক আবু সুফিয়ান। ঢেমশা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মোর্শেদ আলম চৌধুরীর পরিচালনায় এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখছেন সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মাষ্টার ফরিদুল আলম, সহ সভাপতি মোজাম্মেল হক, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ প্রবীর কুমার দাশ, সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক জেলা পরিষদ সদস্য জসিম উদ্দীন, দক্ষিণজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি, জেলা পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য শাহিদা আকতার জাহান, এডভোকেট. ফরিদ উদ্দিন ,কেওঁচিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মনির আহমদ, সাতকানিয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সহ সভাপতি এস এম জাকারিয়া, ঢেমশা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দয়াল হরি মজুমদার, সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আসাদুজ্জান জনি, শিক্ষাবিদ শশীভুষণ বড়ুয়া, প্রবীণ শিক্ষাবিদ অমরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, ঢেমশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এস.এম.বাহার মিয়া, সাতকানিয়া মরফলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উত্তম কুমার চক্রবর্তী, ইউনিফিল গ্রুপের নির্বাহী প্রধান মোঃ রোকনুজ্জামান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আদিনাথ মজুমদার, বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সদস্য রতন দাশ, বাবু পলাশ সেন, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র শ্যামল দাশ, অরুণ কান্তি মল্লিক, ডাঃ শ্যামল দাশ, নারায়ন দাশ, আজিজুল হক, সুলতান আহমদ, রমজান আলী, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান জসিম উদ্দীন, সাতকানিয়া উপজেলা যুবলীগের সদস্য সাইফুল ইসলাম, বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক অমল কান্তি বড়ুয়া, ঢেমশা ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক ডাঃ বিপ্লব পালিত, আকতারুজ্জান দুলাল। এছাড়া বিদ্যালয়ের বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষক, শিক্ষিকা ,ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবক, স্থানীয় আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় সংবর্ধিত প্রধান অতিথি বলেন বর্তমান সরকার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সারাদেশে যে উন্নয়ন সাধন করেছে তা এখন শুধু বাংলাদেশের মানুষ সারাবিশ্বের মানুষ প্রশংসা করেছে। ছোট্ট একটি বাংলাদেশ যে দেশ জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ্বদরবারে একটি মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে এখন বিশ্ব উন্নয়নের রোল মডেল ও মানবতার মাতা হিসেবে জানে বিশ্ববাসী। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সাতকানিয়াসহ দেশের প্রতিটি অঞ্চলে শিক্ষা স্বাস্থ্য, যোগাযোগ, প্রযুক্তি, সামাজিক, বিদ্যুৎ, নারী উন্নয়নসহ সকল ক্ষেত্রে অতীতের সকল সরকারের তুলনায় অনেক বেশি উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিকতায় এই ঢেমশা উচ্চ বিদ্যালয়ে বহুতল ভবন নির্মাণ, শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার, বিশাল খেলার মাঠ নির্মাণ,অর্থবৎসরে ৭৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে বিদ্যালয়ের নতুন ৩য় ভবনের ৪র্থ তলা বৃদ্ধিকরণ, ঢেমশা ইউনিয়নে পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র নির্মাণ, ঢেমশা আধুনিক পোষ্ট অফিস, মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম সড়ক, ঢেমশা হইতে নলুয়া পর্যন্ত সড়ক নির্মাণসহ বহু সড়ক নির্মাণসহ ঢেমশা ইউনিয়নের আধুকায়নে মাননীয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমি এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। তিনি বর্তমান সরকারের শিক্ষাক্ষেত্রে অভাবনীয় সাফল্যকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বিদ্যালয়ের প্রাক্তণ ছাত্রছাত্রী, বর্তমান পরিচালনা কমিটি, শিক্ষক শিক্ষিকা, বর্তমান ছাত্রছাত্রী, অভিভাবকবৃন্দকে সম্মিলিত ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন সাতকানিয়ায় যে উন্নয়ন সাধিত হয়েছে তা অতীতের কোন সরকার করতে পারেনি । উন্নয়ন অগ্রযাত্রা আবারো বেগবান করার জন্য তিনি বর্তমান সরকারকে আবারো রায় দেওয়ার জন্য এলাকার প্রতিটি মানুষককে অনুরোধ জানান। সভায় বক্তারা বলেন, এই এলাকা তথা চট্টগ্রামের আলোকিত সন্তান রুপালী ব্যাংকের পরিচালক, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি সাংবাদিক আবু সুফিয়ান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বিশ্বস্তজন হিসেবে ৪র্থবারের মত অষ্ট্রেলিয়ায় রাষ্ট্রীয় সফরসঙ্গী হওয়ায় আমরা আনন্দিত ও গৌরাবন্বিত। বক্তারা বলেন ছাত্রজীবন থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন সৎ, দক্ষ, মেধাবী ছাত্রনেতা হিসেবে আজ পর্যন্ত সফলতার সাথে চট্টগ্রামের সাংবাদিক সমাজের নেতৃত্ব, রুপালী ব্যাংকের পরিচালকের দায়িত্ব, দক্ষিণজেলা আওয়ালীগের দীর্ঘদিন বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন, ঢেমশা উচ্চ বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব সফলতার সাথে পালনসহ সর্বোপরি সাতকানিয়া উন্নয়নে জননেতা আবু সুফিয়ান দিনরাত সর্বাতœক কাজ করে যাচ্ছে বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সর্বাত্মক সহযোগিতায়। বক্তারা বরেণ্য সাংবাদিক নেতা, চট্টগ্রামের আলোকিত সন্তান, ত্যাগী ও সৎ রাজনীতিবিদ জনমানুষের বিশ্বস্ত নেতা জননেতা আবু সুফিয়ানকে সাতকানিয়া লোহাগাড়ায় বৃহত্তর পরিসরে জনগণের প্রতিনিধি হয়ে কাজ করার জন্য মাননীয় প্রধাানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি বিনীত অনুরোধ জানান। সভাশেষে সংবর্ধিত অতিথি সাংবাদিক আবু সুফিয়ানকে বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী পরিষদের পক্ষ থেকে ক্রেস্ট ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানান পরিষদের নেতৃবৃন্দ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
ময়মনসিংহে নারী মাদক ব্যবসায়ীর গুলিবিদ্ধ লাশ
ময়মনসিংহ সদর উপজেলায় মাদক সম্রাজ্ঞী রেহেনার গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার (১৭ জুন) ভোরে সদর উপজেলার গন্দ্রপা এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানায়, রোববার ভোরে এক নারীর লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ওই নারীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে। পরে লাশ সনাক্ত করা হয়। স্থানীয় সূত্র জানায়, ময়মনসিংহ নগরীর ক্যান্টনমেন্টে সিনেমা হলের পেছনে জমজমাট মাদকের কারবার করতেন রেহেনা। তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি আশিকুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, বিষয়টির বিস্তারিত জানা নেই। তবে মাদকের টাকা ভাগাভাগি নিয়ে নিজেদের মধ্যকার দুপক্ষের সংঘর্ষে রেহেনার মৃত্যু হতে পারে।
মৌলভীবাজারে বন্যা মোকাবেলায় সেনাবাহিনী
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের বন্যার সার্বিক পরিস্থিতির ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। মনু নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে যেকোনো মুহূর্তে প্রতিরক্ষা বাঁধ (গাইড ওয়াল) উপচিয়ে বন্যার পানি প্রবেশ করতে পারে। বন্যায় তলিয়ে যাওয়া এলাকায় আটকা পড়া মানুষ উদ্ধারে কুলাউড়া, কমলগঞ্জ ও রাজনগরে সেনাবাহিনী কাজ করছে। গেলো কয়েকদিন থেকে ভারতের উত্তর ত্রিপুরা এলাকায় বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় মনু, কুশিয়ারা ও ধলাই নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। মনু ও ধলাই নদীর এ পর্যন্ত ২২টি স্থানে প্রতিরক্ষা বাঁধ ভেঙে বন্যার পানি প্রবেশ করে কুলাউড়া, কমলগঞ্জ, রাজনগর ও সদর উপজেলার বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত করেছে। তলিয়ে গেছে এসব এলাকার বাড়িঘরসহ রাস্তাঘাট। পানিবন্দী রয়েছে জেলায় প্রায় ৫শ’ গ্রামের ৩ লাখ মানুষ। শহরের বাসা বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে মালামাল নিরাপদ স্থানে অনেকেই সরিয়ে নিচ্ছেন। শহরের গুরুত্বপূর্ণ এম সাইফুর রহমান সড়ক দিয়ে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।
চট্টগ্রামের পটিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২
পটিয়া উপজেলার শাহগদি মার্কেট এলাকায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক এলাকায় যাত্রীবাহী বাস ও মিনিবাসের সংঘর্ষে এক নারীসহ ২ জন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (১৫ জুন) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার এ দুর্ঘটনা ঘটে। পটিয়া প্রতিনিধি :নিহত দুজনের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। নিহত নারীর বয়স আনুমানিক ৫০ ও পুরুষের বয়স ৪০ বছর। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ২৫ জন। হতাহতরা সবাই মিনিবাসের যাত্রী। আহত লোকজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে ১২ জনকে পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা আবু ইউসুফ ওহীদুল্লাহ জানান, হাসপাতালে আনার পর দুজনকে মৃত ঘোষণা করা হয়। আহত ২৫ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন। পরে ১২ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। পটিয়া ক্রসিং হাইওয়ের পুলিশ ফাঁড়ির ট্রাফিক ইন্সপেক্টর এ বি এম মিজানুর রহমান বলেন, বেলা ১১টার দিকে বান্দরবান থেকে ঢাকাগামী হানিফ চেয়ার কোচের সঙ্গে চট্টগ্রাম থেকে পটিয়াগামী একটি মিনিবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতরা সবাই মিনিবাসের যাত্রী।
আজ পহেলা আষাঢ়,বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে
গত কয়েকদিন ধরে সারাদেশে কমবেশি বৃষ্টি ছিল, এ যেন বর্ষা মৌসুমেরই আগমনী বার্তা। বর্ষার দুই মাস আষাঢ়-শ্রাবণ প্রকৃতির রূপও বদলে দেয়। তবে দিন তারিখ হিসেবে আজ পহেলা আষাঢ়। নদ-নদীতে যেমন নতুন করে প্রাণ আসে, তেমনি গাছে ফোটে কদম, বকুল নানা রকমের ফুল। কদমকে তো আষাঢ়ের প্রতীকই ভাবা হয়। বাঙালি সাহিত্যিকদের লেখায়ও বর্ষা যোগ করেছে ভিন্ন মাত্রা। রবী ঠাকুরের ভাষায়— ‘আবার এসেছে আষাঢ় আকাশও ছেয়ে… আসে বৃষ্টিরও সুবাসও বাতাসও বেয়ে…’ তবে হঠাৎ বর্ষা যেমন আনন্দের, বর্ষার নির্মম নৃত্য তেমনই হঠাৎ বিষাদে ভরিয়ে তোলে জনপদ। যেমন— হঠাৎ করে আসা বৃষ্টি যেমন নগরবাসীকে স্বস্তি এনে দেয়, আবার জলাবদ্ধতার কারণে সেই বৃষ্টিই হয়ে দাঁড়ায় দুর্ভোগের কারণ। তবুও বর্ষা বাঙালি জীবনে নতুনের আবাহন। সবুজের সমারোহে, মাটিতে নতুন পলির আস্তরণে আনে জীবনেরই বারতা। সুজলা, সুফলা, শস্য শ্যামলা বাঙলা মায়ের নবজন্ম এই বর্ষাতেই। সারাবছরের খাদ্য-শস্য-বীজের উন্মেষতো ঘটবে বর্ষার ফেলে যাওয়া অফুরন্ত সম্ভাবনার পলিমাটি থেকেই। আষাঢ় মাসের প্রথম দিনে দেশের বেশ কিছু স্থানে বৃষ্টি হতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। শুক্রবার (১৫ জুন) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে— রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়, ঢাকা ও বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়া ও বিজলী চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি, অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। দেশের অনত্র আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সেই সঙ্গে সিলেট বিভাগে মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপরে মোটামুটি সক্রিয় রয়েছে। বর্ষাকে নিয়ে নানা মিথ রয়েছে, বিশেষ করে দেশের নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠীর বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে। কক্সবাজারের রাখাইন সম্প্রদায় বর্ষাকে বরণ করে ভিন্ন রকমভাবে। প্রতিবছর তারা কক্সবাজরর সমুদ্র সৈকতে মাসব্যাপী বর্ষাবরণ উৎসবের আয়োজন করে থাকে। দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে রাখাইন সম্প্রদায়ের লোকেরা এ বর্ষাবরণ উৎসবে যোগ দেন। বর্ষা ঋতু তার বৈশিষ্ট্যের কারণে স্বতন্ত্র। বর্ষা ঋতু কাব্যময়, প্রেমময়। বর্ষার প্রবল বর্ষণে নির্জনে ভালোবাসার সাধ জাগে, চিত্তচাঞ্চল্য বেড়ে যায়। শত অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার ভিড়েও কোথায় যেন মেলে এক চিলতে বিশুদ্ধ সুখ। কদম ফুলের মতো তুলতুলে নরম, রঙিন স্বপ্ন দুই চোখের কোণে ভেসে ওঠে, ঠিক যেমন করে আকাশে সাদা মেঘ ভেসে বেড়ায়। পুষ্প-বৃক্ষে, পত্র-পল্লবে, নতুন প্রাণের সঞ্চার করে, নতুন সুরের বার্তা নিয়ে সবুজের সমারোহ নিয়ে এসেছে বর্ষা। গ্রীষ্মের ধুলোমলিন জীর্নতাকে ধুয়ে ফেলে গাঢ় সবুজের সমারোহে প্রকৃতি সাজবে পূর্ণতায়। আষাঢ়ের প্রথমদিনে আজও রয়েছে আকাশেও মেঘের ঘনঘটা। সূত্র-বাংলাট্রিবিউন

সারা দেশ পাতার আরো খবর