ময়মনসিংহে এসআইকে ছুরিকাঘাতকারী যুবক বন্দুকযুদ্ধে নিহত
ময়মনসিংহের গৌরীপুরে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক যুবক নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ সড়কের শম্ভুগঞ্জের শাইখসিরাজ আঞ্চলিক সড়কের পাশে একটি কাশবনে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশের ভাষ্য, নিহত যুবক গেীরিপুরের এসআই আসাদকে ছুরিকাঘাতের ঘটনার প্রধান আসামি উজ্জ্বল। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এ নেওয়াজী জানান, রাতে ডিবি পুলিশের একটি দল আসামি গ্রেফতারে অভিযান চালালে ময়মনসিংহ আঞ্চলিক সড়কের শম্ভুগঞ্জ এলাকায় উজ্জ্বলের উপস্থিতি টের পায়। এ সময় পুলিশ তাকে ধরতে গুলি চালায়। এ সময় উজ্জ্বল এবং তার সহযোগীরাও পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। এক পর্যায়ে অন্যরা পালিয়ে যান। পরে তারা উজ্জ্বলকে মৃত অবস্থায় পান।
জামায়াত বিএনপির ঘাঁটি যশোর-১ এখন আ.লীগের দখলে
ভারত সীমান্তবর্তী যশোরের শার্শা উপজেলা নিয়ে গঠিত যশোর-১ আসন বিএনপি জামায়াতের ঘাঁটি হলেও দীর্ঘসময় ধরে তা দখলে রয়েছে আওয়ামী লীগের। দলটির নেতারা মনে করেন, পরপর দুবার আসনটি জয় করতে পেরে আওয়ামী লীগের শক্তিবৃদ্ধি হয়েছে। তবে এ আসন পনুরুদ্ধারে আত্মবিশ্বাসী বিএনপি-জামায়াত জোট। তাদের মতে , জোটবদ্ধ নির্বাচন হলে এবং সাধারণ মানুষ ভোট দেয়ার সুযোগ পেলে বিজয় ছিনিয়ে আনা সম্ভব। শার্শা উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত যশোর-১ আসন। এখানকার মানুষের আর্থ-সামাজিক পরিবর্তনে বড় ভূমিকা রাখছে বেনাপোল স্থল বন্দর। ১৯৯১ থেকে অনুষ্ঠিত ৬টি নির্বাচনের মধ্যে চারবারই নৌকার বিজয় কেতন উড়েছে। বিএনপি জামায়াতের ঘাঁটি হিসেবে চিহ্নিত হলেও আসনটি ধরে রাখতে চায় আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ নেতারা মনে করেন, নবম ও দশম সংসদ নির্বাচনে জয়ের পর সকল ক্ষেত্রে যে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে তাতে দলগত শক্তি অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। যা আগামী সংসদ নির্বাচনের বৈতরণী পার হতে তাদের সাহায্য করবে। বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন বলেন, 'বিএনপি উন্নয়নেও নেই, রাজনীতিতেও নেই সুতরাং আওয়ামীলীগ এখানে অবশ্যই এগিয়ে আছে।' যশোর শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নুরুজ্জামান বলেন, 'তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা একাট্টা হয়ে নৌকা প্রতীককে বিজয় করবো।' এদিকে বিএনপির দাবি জোটগত নির্বাচনে এ আসন তাদের। জনগণ ভোট দেয়ার সুযোগ পেলে জয় পাবে বলে দাবি দলটির নেতাদের।
সাতক্ষীরার কালীগঞ্জে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ২
সাতক্ষীরায় কালীগঞ্জ-শ্যামনগর মহাসড়কে দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন। এ সময় মোটরসাইকেলে থাকা আরও দুজন আহত হন। মঙ্গলবার কালীগঞ্জের পিরোজপুর কাটাখালী নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- কালীগঞ্জ উপজেলার নীজদেবপুর গ্রামের মফিজউদ্দিনের ছেলে আব্দুল মান্নান সরদার (৫০) ও সোনাতলা গ্রামের আজগর আলীর ছেলে নূর হোসেন (৩২)। স্থানীয়রা জানান, তুহিন, শান্ত ও নূর হোসেন মোটরসাইকেলযোগে সাতক্ষীরা যাচ্ছিলেন। এ সময় ঘটনাস্থলে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা আরেকটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই নূর হোসেন ও অপর মোটরসাইকেলে থাকা আব্দুল মান্নান সরদার নিহত হন। আহতদের উদ্ধার করে দেবহাটা থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়েছে। সাতক্ষীরা কালীগঞ্জ সার্কেলের এএসপি ইমরান মেহেদী সিদ্দিকী জানান, পুলিশ লাশ দুটি উদ্ধার করে দেবহাটা থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মর্গে প্রেরণ করেছে।
গোয়েন্দা পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে যুবক নিহত ঠাকুরগাঁওয়ে
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় গোয়েন্দা পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে অজ্ঞাত পরিচয়ের এক যুবক নিহত হয়েছেন। সোমবার দিনগত রাত চারটার দিকে ঠাকুরগাঁও-দিনাজপুর মহাসড়কে উপজেলার ২৯ মাইল নামক স্থানে এ বন্দুকযুদ্ধ হয়। পুলিশের দাবি, নিহত ব্যক্তি (আনুমানিক ৩২ বছর) আন্তঃজেলা ডাকাতদলের সদস্য। তবে বিস্তারিত নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি তারা। এ ঘটনায় পুলিশের চার সদস্য আহত হয়েছেন। জেলা ডিবি পুলিশের ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, মহাসড়কে ডাকাতির প্রস্তুতি চলছে- এমন গোপন খবরে ওই এলাকায় অভিযানে যায় পুলিশ। উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতেরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে ডাকাতেরা পিছু হটলে গুলিবিদ্ধ যুবককে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বন্দুকযুদ্ধে এসআই খোকন (৩৬), কনস্টেবল এনামুল হক (৪২), আব্দুল মমিন (৩৫) ও জামাল (২৮) আহত হয়েছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে রামদা, ছুরি, চাইনিজ কুড়ালসহ ডাকাতির বেশ কিছু সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান ওসি। জেলা সিভিল সার্জন ডা. আবু মো. খায়রুল কবির জানান, সোমবার গভীর রাতে পুলিশ একটি গুলিবিদ্ধ লাশ হাসপাতালে আনে। পরে সেটি হিমঘরে রাখা হয়। এখন পর্যন্ত তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। পুলিশ সুপার ফারহাত আহম্মদ জানিয়েছেন, সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে। সূত্র:পরিবর্তন ডটকম
৩০ মিটির পর প্রশ্নপত্র সরবরাহ, পরীক্ষার্থীদের ক্ষোভ ঝিকরগাছায়
এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রথমদিনে ঝিকরগাছা মহিলাকলেজ কেন্দ্রে ৫৮৯ জন পরীক্ষার্থী ৩০ মিটির পর প্রশ্নপত্র পেয়েছে। ফলে পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। পরীক্ষার্থীরা কেন্দ্রের বাইরে এসে হট্টগোল ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করে অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষকে তিরস্কার ও ভর্ৎসনা করে। কলেজের অধ্যক্ষ শাহানুর কবীর নিজেদের ভুলের কথা অকপটে স্বীকার করে দাবি করেছেন, অনিয়মিত (ক্যাজুয়াল) পরীক্ষার্থীদের প্রশ্ন সটিং ভুলের কারণে এই অনাকাঙ্খিত ঘটনাটি ঘটেছে। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি দাবি করেছেন,কোন প্রাকৃতিক দূর্যোগ কিম্বা এমনকোন অনিবার্য পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে পরীক্ষার সিডিউল পরিবর্তন করা যেতে পারে এমন নির্দেশনা রয়েছে। তিনি বলেন, প্রশ্নপত্র দিতে বিলম্বিত হলেও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে পরীক্ষার নির্দিষ্ট সময়ের পর ৩০ মিনিট বর্ধিত করা হয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জাহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, বিষয়টি আমি অবগত হবার পর কলেজ কর্তৃপক্ষকে পরীক্ষার পূর্ণমান সময় ঠিকরেখে পরীক্ষা গ্রহণের নির্দেশণা দিয়ে তাঁদের পরবর্তী সকল পরীক্ষা গ্রহণের ক্ষেত্রে কঠোর সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। এদিকে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীরা এ খবর পেয়ে ঝিকরগাছা মহিলা কলেজ কেন্দ্রে গেলে কর্তৃপক্ষ সাংবাদিকদের কেন্দ্রে প্রবেশাধীকার নেই বলে সাফ জানিয়ে দেন।
সিরাজগঞ্জে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ প্রত্যাহার: অভিযোগ নারীদের সঙ্গে অসদাচরণের
সিরাজগঞ্জ শহরের হোসেনপুর-জগন্নাথবাড়ী মহল্লায় বাড়িঘর ভাঙচুরের ঘটনায় নারীদের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগে ২নং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মুস্তাফিজ হাসানকে প্রত্যাহার করা হয়েছ। রোববার রাতে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মুস্তাফিজ হাসানকে প্রত্যাহার করে চৌহালী থানায় সংযুক্ত করা হয়েছে বলে জানান সিরাজগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইউসুফ আলী। এর আগে বৃহস্পতিবার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সিরাজগঞ্জ শহরের ধানবান্ধী মহল্লার মুক্তিযোদ্ধা মানিকের ছেলে শিহাব হোসেনের সঙ্গে পুঠিয়াবাড়ী মহল্লার কয়েক যুবকের কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে সোহাগ হোসেনকে মারধর করে ওই যুবকেরা। পরে সোহাগকে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনার জের ধরে বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার পর্যন্ত তিন দিন দুমহল্লাবাসীর মধ্যে থেমে থেমে সংঘর্ষ হয়। রোববার সকাল থেকে উভয়পক্ষ সংঘবদ্ধ হয়ে আবারও সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। দুপুর পর্যন্ত দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনায় অন্তত ১২ জন আহত হয়। এ সময় বেশ কয়েকটি বাড়িঘর ও দোকানপাটে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনায় এলাকার নারীদের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগ ওঠে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মুস্তাফিজ হাসানের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় সন্ধ্যায় তার বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর স্বাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাব বরাবর দাখিল করা হয়।
এইচএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা:বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ
আজ সোমবার এইসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার কথা ছিলো কিশোরগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজের বিজ্ঞান শাখার শিক্ষার্থী শান্তার। কিন্তু প্রতিবেশী মাইনুল হোসেনের লালসার শিকার হয়ে পরীক্ষার একদিন আগে রোববার প্রাণ হারাতে হলো এ শিক্ষার্থীর। কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার লতিবাবাদ ইউনিয়নের ব্রাহ্মনকচুরী গ্রামের বাসিন্দা ফিরোজ মিয়ার মেয়ে কলেজ পড়ুয়া শান্তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিলো প্রতিবেশী লাল মিয়ার মাস্টার্স পড়ুয়া ছেলে মাইনুল হোসেনের। গত ২৫ মার্চ প্রেমিকাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। পরে এক পর্যায়ে শান্তাকে বিয়ে করা সম্ভব নয় বলে ফোন করে জানায় মাইনুল। এইকথা শুনে ২৬ মার্চ সকাল ৯টার দিকে নিজ ঘরে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে শান্তা। পরে থাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে পরিবারের লোকজন। পরে সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকায় প্রেরণ করেন। কিন্তু; ঢাকা মেডিকেল কলেজে আইসিইউ বেড না পাওয়ায় তাকে ভর্তি করা হয় জাপান-বাংলাদেশ ফেন্ডশীপ হাসপাতালে। সেখানে দুই দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর ভর্তি করা হয় সেন্টাল হসপিটালে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় গত রোববার দুপুরে মৃত্যু হয় শান্তা আক্তারের। কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানায় শান্তার বাবা ফিরোজ মিয়া বাদী হয়ে মামলা দায়ের করবেন বলে জানিয়েছেন নিহত শান্তার ভাই মিজান মিয়া। এদিকে, ওই ছাত্রীর মৃত্যুর খবর গ্রামে পৌছার পর থেকে ঘরে তালা দিয়ে গা ঢাকা দিয়েছেন প্রেমিক মাইনুল ও তার পরিবারের সদস্যরা।
ঝিনাইদহের অর্ধকোটি টাকা ব্যায়ে তৈরি ব্রীজটি জনসাধারনের উপকারে আসেনি
রাস্তা থাকার পরও চলাচলের সুবিধার্তে ঝিনাইদহের মহাম্মদপুর গ্রামবাসি ফসলি জমির মাঝ দিয়ে আড়াআড়ি ভাবে রাস্তা তৈরির সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু বাঁধসাধে ফসলি জমির মালিকগণ। তারপরও থেমে থাকেনি তাদের প্রচেষ্টা। প্রায় অর্ধকোটি টাকা ব্যায়ে ৩৬ ফুট লম্বা এবং ১২ ফুট চওড়া ব্রীজ নিমার্ণ করা হয়েছে। তবে ব্রীজের দুই পাশে রাস্তার সংযোগ না থাকায় ব্রীজটি জনসাধারণের উকারেই আসেনি। bridgeজানা গেছে, ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের চড়িয়ারবিল গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে চড়িয়ার বিল। দ্রীর্ঘ প্রায় ২৮/২৯ বছর আগে মহাম্মদপুর গ্রামসহ কয়েকটি গ্রামবাসি বিলের মাঝদিয়ে চড়িয়ারবিল গ্রামের সাথে সহজে যোগাযোগের জন্য রাস্তা তৈরির সিদ্ধান্ত নেয়। ফসলি জমি নষ্ট করে বিলের মাঝ দিয়ে রাস্তা তৈরির বাঁধসাধে জমির মালিকগণ। শুরু হয় জমির মালিক রাস্তা তৈরি করতে চাওয়া লোকজনের সাথে বিরোধ। এক পর্যায়ে তারা রাস্তাবাদে বিলের মাঝে ব্রীজ তৈরি করে পরে জমির মালিকদের উপর চাপ সৃষ্টি করে রাস্তা তৈরির কৌশল আটে প্রভাবশালীরা। অর্ধকোটি টাকা ব্যায়ে এলজিডি’র অর্থে ব্রীজ তৈরি করতে সক্ষম হয়। তবে ব্রীজটির দুই পাশে রাস্তার সংযোগ না থাকায় ব্রীজটি জনসাধারনের কোন উপকারেই আসেনি। স্থানীয় বাসিন্দা নজরুল ইসলাম, আব্দুল খালেক জানান, মহাম্মদপুর গ্রামসহ কয়েকটি গ্রামের রোকজনের যোগাযোগের জন্য রাস্তা রয়েছে। কিন্তু দেড়/দুই কিলোমটিার ঘুরে চলতে হয়। সহজে যোগাযোগের জন্য মহাম্মদপুর গ্রামবাসিসহ কয়েকটি গ্রামের লোকজন চড়িয়ারবিল গ্রমের রাস্তা তৈরির উদ্যোগ নেয়। জমির মালিকগণ তখন বাঁধা দেয়। তারা বিলের মাঝদিয়ে রাস্তা তৈরি করতে পারেনি। পরে সরকারি ভাবে ব্রীজ তৈরি করে রাস্তা তৈরির জন্য চেষ্টা করেও রাস্তা নির্মাণ করতে পারেনি। যে কারনে প্রায় অর্ধকোটি টাকা ব্যায়ে তৈরি ব্রীজ জনসাধারনের উপকারে আসেনি। বিষয়টি ঝিনাইদহে এলজিডি অফিসে জানতে গেলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রকৌশলী জানান ব্রীজ সম্পর্কে আমরা অবগত নই।
মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে পাক বাহিনীর প্রথম সম্মুখ যুদ্ধ দিবস আজ:বিষয়খালীতে
আজ ১ এপ্রিল। ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকহানাদার বাহিনীদের সাথে ঝিনাইদহ জেলার বিষয়খালীতে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে বাংলাদেশের ইতিহাসের প্রথম সম্মুখ যুদ্ধ শুরু হয়। দখলদার বাহিনী সংবাদ পায় ঝিনাইদহের মুক্তিযোদ্ধারা তাদেরকে আক্রমন করার জন্য বিষয়খালী বাজারের বেগবতী নদীর তীরে সংগঠিত হচ্ছে। ১ এপ্রিলের এই দিনে পাকবাহিনী যশোর ক্যান্টমেন্ট থেকে ভারী অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ঝিনাইদহ দখলের উদ্দেশ্যে এগিয়ে আসতে থাকে। এ আক্রমণের খবর জেলার মুক্তিযোদ্ধারা পেয়ে যান। তারা যুদ্ধের অন্যতম স্থান হিসেবে বেছে নেন বিষয়খালীর বেগবতী নদীর তীরে তাদেরকে প্রবল বাঁধার সৃষ্টি করে। পাকবাহিনীকে রুখতে নদীর তীরের সেতু ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয় মুক্তিযোদ্ধারা। প্রায় ৮ ঘন্টা তুমুল যুদ্ধ হয়। নদীর তীরের সম্মুখ যুদ্ধে ব্যর্থ হয়ে পাকহানাদার বাহিনী ফিরে যায় যশোর ক্যান্টমেন্ট অভিমুখে। যাবার পথে পাকহানাদার বাহিনী চালালো বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম ভয়াবহ হত্যাযজ্ঞ। আর সেই হত্যাযজ্ঞে শহীদ হলেন বিষয়খালী হাইস্কুলের ৭ম শ্রেণীর তরুন ছাত্র গোলাম মোস্তফা। এছাড়াও যারা শহীদ হলেন সদর উদ্দীন, মুখী মাহমুদ, আব্দুল কুদ্দুস, খলিলুর রহমান, কাজী নজির উদ্দিন, শমসের আলী ও বিষয়খালী গ্রামের কৃতি সন্তান মাহাতাব মুনিরসহ অসংখ্যা মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযুদ্ধে তাদের প্রাণকে উৎসর্গ করলেন। আর তাইতো ঝিনাইদহের অমিততেজী দামাল তরুন দল বাংলাদেশের ইতিহাসের যুদ্ধ বিজয়ের গৌরবের প্রথম মাইল ফলক স্থাপন করলো এই বিষয়খালী যুদ্ধে। এই যুদ্ধের কাহিনী প্রথমে বিবিসি, ফরাসী বার্তা সংস্থা ও অষ্ট্রেলিয়া রেডিও এবিসিতে প্রচারিত হয়। এই সম্মুখ যুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলে ছিলেন যশোর সেনানিবাসের বেঙ্গল রেজিমেন্টের সৈনিক এবং ইপিআর এর জোয়ানরা, ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজের হাবিলদারাসহ স্থানীয় বিষয়খালী গ্রামের সংগ্রামী জনতা। এই দিনটি প্রতিবছর বিষয়খালী তথা ঝিনাইদহবাসী পালন করে আসছে। বিষয়খালী শহীদদের স্মরণে নির্মিত হয়েছে স্মৃতিসৌধ ও প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ নামের মুক্তিযুদ্ধ ভাস্কার্য।

সারা দেশ পাতার আরো খবর