একটি কিনলে আরেকটি ফ্রি মাস্টারকার্ডের বোগো ইফতারে
পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে মাস্টারকার্ড নতুন বোগো বাই-ওয়ান-গেট ওয়ান বা একটি কিনলে একটি ফ্রি ইফতার অফার চালু করেছে। মাস্টারকার্ডধারীদের প্রিয় ও পছন্দের জায়গাগুলোতে ইফতারের সময় খাবার কেনা কিংবা খাওয়ার ক্ষেত্রে বাড়তি সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে ক্যাশলেস পেমেন্ট অর্থাৎ প্রযুক্তিভিত্তিক কার্ড দিয়ে কেনাকাটা বাড়ানোর লক্ষ্যে এই অফার চালু করা হয়েছে; যা গোটা রমজান মাস জুড়ে চলবে। এই অফারের আওতায় মাস্টারকার্ডধারীরা মাস্টারকার্ডের পার্টনার রেস্টুরেন্টগুলোতে একটি ইফতার এবং নৈশভোজ (ডিনার) কিনলে আরেকটি বিনামূল্যে পাবেন। নতুন অফারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মাস্টারকার্ড বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল বলেন, পবিত্র রমজান মাসে মানুষের মধ্যে ইফতারের সময়ে রেস্টুরেন্টে গিয়ে ইফতার খাওয়ার প্রতি আগ্রহ থাকে। তাই আমরা মাস্টারকার্ডধারীদের বাড়তি সুবিধা দিতে নতুন অফারটি নিয়ে এসেছি। তাঁরা এই ক্যাম্পেইনের আওতায় আমাদের বিভিন্ন পার্টনার রেস্টুরেন্টে সপরিবারে ও সবান্ধব গিয়ে নিরাপদ ও সুবিধাজনক উপায়ে ইফতার ও নৈশভোজ খেতে অর্থ ব্যয় করতে পারবেন। পবিত্র রমজান মাসে বাসার বাইরে গিয়ে ইফতার খাওয়ার প্রবণতা দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। সে জন্য মাস্টারকার্ডধারীদের জন্য এই অফার ইফতার ও নৈশভোজ খাওয়ার দারুণ এক সুযোগ এনে দিয়েছে। মাস্টারকার্ডের বিভিন্ন পার্টনার হোটেলগুলোর মধ্যে রয়েছে এশিয়া হোটেল এন্ড রিসোর্ট, বেঙ্গল ইন, ক্যানারি পার্ক, ডেইজ হোটেল ঢাকা, ফার্স হোটেল, গ্যালেসিয়া হোটেল এন্ড রিসোর্ট লিমিটেড, গ্রেস ২১, গ্র্যান্ড ওরিয়েন্টাল হোটেল (সাওয়াদী), হানসা, হোটেল অ্যাসকট প্যালেস, হোটেল বেঙ্গল ব্লু-বেরি, হোটেল স্টার প্যাসিফিক সিলেট, হোটেল সুইস গার্ডেন, ইনোটেল, লেকশোর বনানী, লং বিচ হোটেল, মারিনো রয়্যাল হোটেল, নর্ডিক হোটেলস লিমিটেড, অর্চার্ড সুইট, প্লাটিনাম গ্র্যান্ড, প্লাটিনাম রেসিডেন্স, প্লাটিনাম স্যুইটস, দ্য ওলিভস, দ্য পেনিনস্যুলা চিটাগাং। অংশীদার রেস্টুরেন্টগুলির মধ্যে রয়েছে এবাকাস, হান্ডি ইন্ডিয়ান বিস্ট্রো, কিং ফিশার রেস্টুরেন্ট, পিকাসো, দ্য মিরাজ, দ্য প্রানডিয়াম।
২৭৬ মেধাবী শিক্ষার্থীকে সম্মাননা ভৈরবে
তোমার আলো ছড়িয়ে পড়ুক বিশ্বময়’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে কিশোরগঞ্জের ভৈরবে মেধাবী শিক্ষার্থীদের সম্মাননা দেয়া হয়েছে। শনিবার দুপুরে শহরের মেহেদী কমিউনিটি সেন্টারে এই সম্মাননা দেয় ভৈরব বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ। উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ২৭৬জন কৃতি শিক্ষার্থীকে এই সম্মাননা দেয়া হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বাদল। এসময় বিশেষে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য মো. সিরাজুল ইসলাম, শহরের রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদ ও ভৈরব প্রেসক্লাব সভাপতি মো. জাকির হোসেন কাজল প্রমুখ। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. তরিকুল ইসলাম রাহিমের সঞ্চালনায় সম্মাননা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ভৈরব বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের সভাপতি পাপিয়া ইসলাম রূপু। আলোচনা সভা শেষে মেধাবী শিক্ষার্থীদের হাতে ক্রেস্ট ও সনদপত্র তুলে দেয় অতিথিবৃন্দ।
সাতবাড়িয়ায় আবদুস সালাম-ছমুদা ট্রাস্টের ইফতার বিতরণ
আলহাজ্ব মাওলানা আবদুস সালাম-ছমুদা খাতুন ট্রাস্টের উদ্যোগে চন্দনাইশের সাতবাড়িয়ায় ডাঃ আলহাজ্ব কুতুব উদ্দিনের পৃষ্ঠপোষকতায় সম্প্রতি/ গত ১৬ মে ২০১৮ ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। বিশিষ্ট সমাজসেবক ও দানবীর আলহাজ্ব মহিউদ্দিন ও ডা: আলহাজ্ব কুতুব উদ্দিন’র পক্ষ থেকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির হাতে ইফতার সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়। এ সময় সাতবাড়িয়া বহরমপাড়া, আরিফশাহ পাড়া, পলিয়াপাড়া, হাজীপাড়া, জাফরাবাদ, বৈলতলী, বশরতনগর, বরমা, বাতাজুরী ইত্যাদি গ্রামের ২০টি মসজিদ, ২০টি মাদরাসা-এতিমখানা ও প্রায় ৪০০ শতাধিক পরিবারের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সৈয়দ শিবলী ছাদেক কফিল, আবদুর রহমান, মোখলেছুর রহমান, মাস্টার মো: ফারুক, একরাম হোসেন, মাওলানা সাইফুল্লাহ প্রমুখ। ডা: কুতুব উদ্দিন বলেন, রমজান ত্যাগ, ধৈর্য্য ও সংযম শিক্ষা দেয়। এছাড়া সাম্য ও ভ্রাতৃত্ব সুসংহত করে। মানুষকে ধর্মানুরাগী করে। তিনি বলেন, প্রতিবেশী গরীব ও অক্ষমদের প্রতি সকলের আন্তরিক হওয়া উচিৎ।প্রেস বিজ্ঞপ্তি
সদরঘাট থানা যুবদলের আলোচনা সভা ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ
বর্তমান অগণতান্ত্রিক সরকার দেশের মানুষের সকল গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নিয়েছে। শুধু তাই নয় রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের মাধ্যমে ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। আজ ১৯ মে শনিবার দুপরে নগরীর পূর্ব মাদারবাড়ি এলাকা সদরঘাট থানা যুবদলের উদ্যোগে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আলোচনা সভা ও গরীবদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসেম বক্কর এ কথা বলেন। এতে তিনি আরও বলেন, গণতান্ত্রিক অধিকার ও ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে শুধু নির্বাচন কমিশন এবং আইনশৃংখলা বাহিনীই জড়িত তা নয়, এর বাইরে বিচার বিভাগ, দুদকও জড়িত। কেউ প্রত্যক্ষভাবে আর কেউ পরোক্ষভাবে। খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দলীয় ও রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের মাধ্যমে দেশের মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। দেশের মানুষ ভোট ডাকাত ও রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস থেকে মুক্তি চায়। তিনি বলেন, দেশে আজ শান্তিপূর্ণ নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন করা যায় না। সব জায়গায় প্রশাসনের কঠোর নজরদারি। অবস্থাদৃষ্টে মনে হয় দেশটা কেউ দখল করে নিয়েছে। আমরা সবাই শত্রু পক্ষের মানুষ আর দখলদাররা আমাদের ওপর সার্বক্ষণিক নজর রাখছে। তাদের দখলদারিত্ব চলে যাওয়ার ভয়ে বিএনপিসহ সকল বিরোধী দল ও মতের নেতাকর্মীদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে ও গুম করছে। মিথ্যা ও সাজানো মামলায় সাজা দিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দি করে রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, গুম, খুন, করে ভয় দেখিয়ে অবৈধ ক্ষমতা ধরে রাখার যে নীল নকশা করছেন তা দেশের মানুষ কখনোই সফল হতে দিবে না। এই অবৈধ সরকারের সময় শেষ হয়ে গিয়েছে। সরকারের সকল অন্যায় অবিচারের জবাব দিতে দেশের সর্বস্তরের জনতা আজ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। আর জনতার ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে গণতন্ত্রের মা বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবো এবং দখলদার ফ্যাসিষ্ট অগণতান্ত্রিক সরকারের পতন ঘটিয়ে দেশের গণতান্ত্রিক সরকার পুনঃপ্রতিষ্ঠা করবো। সদরঘাটা থানা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ব মোঃ রাশেদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আলোচনা সভা ও গরীবদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ইয়াছিন চৌধুরী লিটন। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপিন সহ সাধারণ সম্পাদক ও সদরঘাট থানা বিএনপির সভাপতি হাজী সালাহ উদ্দিন, প্রচার সম্পাদক সিহাব উদ্দিন মবিন, অর্থনীতি বিষয়ক সম্পাদক মশিউল আলম স্বপন, সদরঘাট থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, চবি ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান চৌধুরী শপথ, ৩০ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি আবু মুছা বাবলু, সদরঘাট থানা বিএনপির সহসভাপতি ইমতিয়াজ আহমদ, মাহবুবুর রহমান মুকুল, কোতোয়ালী থানা যুবদলের আহবাক ইকবাল হোসেন সংগ্রাম, নগর যুবদল নেতা মো. সালাহউদ্দিন জুয়েল, নূর জাহেদ বাবলু, মো. আনোয়ার, মো. খোকন, ছাত্রদল নেতা মো. তৌওসিফ, মো. তানভীর, মো. শাকিব, মো. ইমন, মো. মারুফ প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
দুঃস্থদের মাঝে ইফতার ও সেহেরীর সামগ্রী বিতরণ
চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ, মহানগর কমিউনিটি পুলিশিং কমিটি ও চট্টগ্রাম চেম্বারের সহযোগিতায় বন্দর ও পশ্চিম জোনের দুঃস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে ইফতার ও সেহরীর সামগ্রী বিতরণ করা হয়। ইফতার ও সেহরীর সামগ্রী বিতরণকালে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপারেশন) জনাব আমেনা বেগম, বিপিএম-সেবা, উপ-পুলিশ কমিশনার (পশ্চিম) জনাব মোঃ ফারুক উল হক, উপ-পুলিশ কমিশনার (বন্দর) জনাব সৈয়দ আবু সায়েম, জনাব এম এ মালেক, আহ্বায়ক, চট্টগ্রাম মহানগর কমিউনিটি পুলিশিং কমিটি, জনাব অহিদ সিরাজ চৌধুরী স্বপন, সদস্য সচিব, চট্টগ্রাম মহানগর কমিউনিটি পুলিশিং কমিটি, জনাব মাহবুবুল আলম, সভাপতি, দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি, জনাব নিছার উদ্দিন আহম্মেদ মঞ্জু, প্যানেল মেয়র ও ১০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর, সিএমপির বন্দর ও পশ্চিম জোনের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, সহকারী পুলিশ কমিশনার ও স্ব-স্ব থানার অফিসার ইনচার্জগণ উপস্থিত ছিলেন।
বন্দুকযুদ্ধে চারজন নিহত ,মাদক অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার
যশোরের অভয়নগর ও ময়মনসিংহের নান্দাইলে কথিত বন্দুকযুদ্ধে চারজন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এতে আহত হয়েছেন আরও চারজন। শুক্রবার (১৮ মে) দিনগত রাত আড়াইটার দিকে ময়মনসিংহের নান্দাইলে ও শনিবার ভোরে যশোরের অভয়নগরে এ ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে হত্যা মামলার আসামিও রয়েছে বলে দাবি করছেন গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের খবরে। যশোর: জেলার অভয়নগরে র&যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ৩ মাদক চোরাকারবারী নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আরও দুজন। শনিবার (১৯ মে) ভোরে অভয়নগরের পায়রা নোয়াপাড়া সড়কে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে বিপুল পরিমাণ মাদক, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধারের দাবি করেছে র&যাব। র&যাব-৬ খুলনা কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার জাহিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ময়মনসিংহ: জেলার নান্দাইলে বন্দুকযুদ্ধে মো. ইমন (১৯) নামে একজন হত্যা মামলার আসামি নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (১৮ মে) দিনগত রাত আড়াইটার দিকে নান্দাইল চৌরাস্তা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তবে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) দাবি করেছে, নিহত ইমন অটোরিকশা চালক রানা (১৫) হত্যা মামলার অন্যতম প্রধান আসামি। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশিকুর রহমান জানান, গত ১৭ মে নান্দাইল উপজেলার বড়াইল এলাকার অটোরিকশা চালক রানাকে (১৫) হত্যা করে অটোরিকশা নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরদিন ১৮ মে এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয় এবং এ হত্যা মামলার এজাহারনামীয় আসামি মো. ইমনকে (১৯) গ্রেফতার করা হয়। পরবর্তীতে গ্রেফতার এ আসামিকে নিয়ে শুক্রবার (১৮ মে) দিনগত রাত আড়াইটার দিকে নান্দাইল চৌরাস্তা এলাকায় পলাতক আসামি প্রান্তকে (২২) গ্রেফতার করতে অভিযান চালায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। প্রান্ত ও তার সহযোগীরা আসামি ইমনকে ছিনিয়ে নিতে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ও গুলি ছোড়ে। এসময় পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়তে থাকলে এক পর্যায়ে ইমন পুলিশকে ধাক্কা মেরে পালিয়ে যেতে চাইলে গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তাকে দ্রুত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) দাবি, এ বন্দুকযুদ্ধে নান্দাইল মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাজিম উদ্দিন ও কনস্টেবল মোক্তার হোসেন আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে তিনটি গুলির খোসা, তিন বড় ছোরা ও ইট-পাটকেলের টুকরা উদ্ধার করা হয়। নিহত ইমনের বিরুদ্ধে একাধিক হত্যা মামলা রয়েছে।
একদিনের সরকারি সফরে রাজশাহীর সারদায় প্রধানমন্ত্রী
একদিনের সরকারি সফরে রাজশাহী পৌছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (১৬ মে) বেলা ১১টা ২০ মিনিটে বিমান বাহিনীর একটি বিশেষ হেলিকপ্টারে করে রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার সারদায় পৌঁছান তিনি। সফরসূচি অনুযায়ী এ দিন সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারদায় অবস্থিত বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে সহকারী পুলিশ সুপারদের (এএসপি) শিক্ষা সমপানী কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করবেন এবং অভিবাদন গ্রহণ করবেন। পরে প্রধানমন্ত্রী ৩৫তম বিসিএসসের এ নবীন পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেবেন। অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষত্ব অর্জন করায় নির্বাচিত সহকারী পুলিশ সুপারদের পুরস্কৃত করবেন। পরে প্রধানমন্ত্রী সকলের উদ্দেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন। অনুষ্ঠান শেষে বিকেলেই তিনি রাজশাহী থেকে ঢাকার ফিরবেন। সহকারী পুলিশ সুপারদের (এএসপি) শিক্ষা সমপানী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল ও পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, ও মন্ত্রী প্রতিমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগ নেতারাসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত রয়েছেন। আগে গত ২২ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী সফরে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই দিন তিনি রাজশাহীতে ৩৩ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তি স্থাপন করেন। পরে রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা ময়দানে আওয়ামী লীগের জনসভায় ভাষণ দেন। প্রায় সাত বছর আগে প্রধানমন্ত্রী এক জনসভায় এ মাঠ থেকেই রাজশাহীতে কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের ঘোষণা দিয়েছিলেন। গতবার এ মাঠ থেকেই ফলক উন্মোচন করে তার কয়েকটির উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন শেখ হাসিনা। চলতি মেয়াদে এটি প্রধানমন্ত্রীর তৃতীয়বারের মত রাজশাহী সফর। গত বছরের ১৪ সেপ্টেম্বর এক দিনের সরকারি সফরে রাজশাহী যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিন রাজশাহীর সারদায় থাকা বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে শিক্ষানবিশ সহকারী পুলিশ সুপারদের শিক্ষা সমপানী কুচকাওয়াজে তিনি প্রধান অতিথির ভাষণ দেন। একইদিন তিনি রাজশাহীর পবার হরিয়ান সুগার মিল মাঠে আওয়ামী লীগের জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ভাষণ দেন।

সারা দেশ পাতার আরো খবর