গ্লুকোজের নকল কারখানা, মালিক আটক
২০মে,সোমবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় নকল গ্লুকোজ কারখানায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নকল গ্লুকোজ ও এর উপাদানসহ কারখানা মালিক মফিজুর রহমানকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার বিকেলে দামুড়হুদা উপজেলার মোক্তারপুর গ্রামে নকল কারখানায় অভিযান চালিয়ে এসব মালামালসহ তাকে আটক করা হয়। কারখানা মালিক মফিজুর রহমান একই গ্রামের মৃত আব্দুল মণ্ডলের ছেলে। এদিকে, মাদকবিরোধী অপর এক অভিযানে মিনি ট্রাক তল্লাশি করে ২০০ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করে পুলিশ। সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা সার্কেল) আবু রাসেল জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মোক্তারপুর গ্রামের ওই কারখানায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নকল গ্লুকোজ ও এর উপাদান জব্দ করা হয়। আটক করা হয় কারখানা মালিককে। অন্যদিকে, দামুড়হুদা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে একটি মিনি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ১৫-৬১৪৮) তল্লাশি করে ২০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। গাড়ির মালিক পালিয়ে গেলেও গাড়িটি জব্দ করে থানায় নেওয়া হয়েছে।
পাবনায় শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় ছাত্রলীগের সভাপতি আটক
১৮মে,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: পাবনায় শিক্ষক মাসুদুর রহমানকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় সরকারী শহীদ বুলবুল কলেজের সভাপতি সামসুদ্দীন জুন্নুনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে পাবনা শহর থেকে তাকে আটক করা হয়। পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জুন্নুনকে শহর থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে পাবনা জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আটক সামসুদ্দীন জুন্নুন পাবনা পৌর এলাকার শালগাড়ীয়া মহল্লার মোহাম্মদ আলীর ছেলে ও পাবনা সরকারী শহীদ বুলবুল কলেজের সভাপতি। এর আগে শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৬ মে) ভোরে নিজ নিজ বাড়ি থেকে অভিযান চালিয়ে দুই শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তার করেছে সদর থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্র সজল ইসলাম ও দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র সাফিন। গেল বুধবার রাতে ওই কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল কুদ্দুস বাদী হয়ে সজল ইসলাম ও সাফিনসহ অজ্ঞাতনামা তিন থেকে চারজনকে আসামি করে মামলা করেন। উল্লেখ্য, ৬ মে সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের ১০৬ নম্বর কক্ষে এইচএসসি উচ্চতর গণিত পরীক্ষা চলাকালে সরকারি মহিলা কলেজের দু জন পরীক্ষার্থী খাতা দেখাদেখি করছিলেন। এসময় ওই কক্ষের পরিদর্শক সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের প্রভাষক মাকসুদুর রহমান তাদেরকে নিবৃত্ত করতে না পেরে একপর্যায়ে খাতা কেড়ে নেন। এ ঘটনার জের ধরে গত ১২ মে দুপুরে শিক্ষক মাকসুদুর রহমান কলেজ থেকে মোটরসাইকেল যোগে বেরিয়ে যাওয়ার সময় একদল ছেলে তার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। হামলাকারীরা তাকে কিল ঘুষি লাথিসহ বেদম মারপিট করে। মারধরের ভিডিওটি সিসি টিভির মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। পরে এটি ভাইরাল হয়।
গাছের সঙ্গে বাসের ধাক্কা, নিহত ৫
১৮মে,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলায় বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন। শনিবার সকাল ৯টার দিকে খুলনা-মাওয়া মহাসড়কের কাকডাঙ্গা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় জানা যায়নি। ফকিরহাট মডেল থানার ওসি মো. আবু জাহিদ জানান, সকাল ৯টার দিকে উপজেলার কাকডাঙ্গা এলাকায় যাত্রীবাহী বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে ঘটনাস্থলে তিনজন ও হাসপাতালে নেয়ার পথে আরও দুজনের মৃত্যু হয়। এসময় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২০ জন। আহতদের উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে আহতদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানান ওসি।
দেশের বিভিন্ন স্থানে হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড়ে ১০ জনের প্রাণহানি
১৮মে,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে হঠাৎ কালবৈশাখী তাণ্ডব চালায়। সেই সঙ্গে ছিল বজ্রপাত। আর এতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১০ জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে বায়তুল মোকাররম মসজিদের দক্ষিণ গেটের প্যান্ডেল ভেঙে একজন, বাড্ডায় পার্কিংয়ের দেয়াল ধসে দুজন, রাজশাহীতে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান, গাছ চাপা পড়ে বগুড়ায় যুবক এবং নওগাঁ ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে বজ্রপাতে পাঁচ কৃষক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে আরও অনেকেই। ঠাকুরগাঁওয়ে মাত্র ৫ মিনিটের ঝড়ের তাণ্ডবে বিধ্বস্ত হয়েছে শতাধিক ঘরবাড়ি। রাজধানীতে নিহত তিন : গতকাল শুক্রবার ইফতারির কিছুক্ষণ পরই রাজধানীতে হঠাৎ প্রচণ্ড বেগে ঝড় শুরু হয়। এতে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটের প্যান্ডেল ভেঙে শফিকুল ইসলাম নামে একজন নিহত হন। তিনি স্থানীয় একটি টায়ারের দোকানের কর্মচারী বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ চালায়। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া জানান, বায়তুল মোকাররমের ঘটনায় ১৬ জন আহত হয়ে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি হন। এদের মধ্যে শফিকুল (৩৮) নামে এক মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। বাকিরা এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালক (মসজিদ ও মার্কেট বিভাগ) মুহাম্মদ মহীউদ্দিন মজুমদার জানান, শুক্রবারের জুমায় বায়তুল মোকাররম মসজিদে প্রচুর মুসল্লির সমাগম হয়। তাই মসজিদের দক্ষিণ গেটে নামাজের জন্য একটি প্যান্ডেল করা হয়। মাগরিবের নামাজের সময় হঠাৎ প্রচণ্ড ঝড়ে সেটি ভেঙে পড়লে নামাজরত মুসল্লিরা আহত হন। পরে আহতদের হাসপাতালে পাঠানো হয়। ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষে দায়িত্বরত কর্মকর্তা রাসেল সিকদার জানান, সন্ধ্যার তীব্র কালবৈশাখী ঝড়ে বায়তুল মোকারম মসজিদ প্রাঙ্গণের দক্ষিণ অংশে স্থাপিত অস্থায়ী প্যান্ডেল ভেঙে হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। বাড্ডায় পার্কিংয়ের দেয়াল ধসে নিহত হয়েছেন দুজন। তাদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। এ ছাড়া রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে ঝড়ের কবলে পড়ে আরও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন, বেশিরভাগই গাছ পড়ে। আবহাওয়াবিদ শাহিনুল ইসলাম জানান, ইফতারের পরই রাজধানীতে ঘণ্টায় ৬৫ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যায়। এর সঙ্গে মুষলধারে বৃষ্টি হয়। সাবেক চেয়ারম্যান নিহত : রাজশাহীতে কালবৈশাখীর তাণ্ডবে পুটিয়া উপজেলার বানেশ্বর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নিহত হয়েছেন। তার নাম নাম আব্দুস সোবহান সরকার (৮০)। স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যায় রাজশাহীর ওপর দিয়ে। ওই সময় সোবহান সরকার পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বরে তার মুড়ির মিলে বসেছিলেন। ঝড়ের তাণ্ডবে ওই মিলের চালা উড়ে যায় এবং তার মাথায় এসে একটি ইট পড়ে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ দিকে ঝড়ের তাণ্ডবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডের অসংখ্য গাছপালা ভেঙে গেছে। নষ্ট হয়েছে বাগানের আম। গাছ চাপা পড়ে যুবকের মৃত্যু : বগুড়ায় ঝড়ে গাছ চাপা পড়ে শহীদুল ইসলাম (৩০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার বিকাল সোয়া ৫টার দিকে শহরতলীর শ্যামবাড়িয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত শহীদুল শহরের সাবগ্রাম এলাকার বাসিন্দা। তিনি পেশায় ট্রাকের হেলপার। বগুড়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার বজলুর রশিদ জানান, মহাস্থান থেকে ধানবোঝাই একটি ট্রাক বিকালে শেরপুরের দিকে রওনা হয়। ট্রাকটি ৫টার দিকে শ্যামবাড়িয়া এলাকায় পৌঁছার পর ঝড়ের কবলে পড়ে। এর পর একটি গাছ ভেঙে ট্রাকের ওপর পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই শহীদুলের মৃত্যু হয়। পরে তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। বজ্রপাতে ৫ কৃষকের মৃত্যু : পোরশা উপজেলায় বজ্রপাতে হাসান (৩০), শফিনূর (২৮) ও জাহাঙ্গীর আলম (২০) নামে তিন কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। বিকাল সোয়া ৫টার দিকে উপজেলার গানোইর বিলে ধান কাটার সময় এ ঘটনা ঘটে। নিহত হাসান গানোইর গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে, শফিনুর চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের বিটলীটোলা গ্রামের আজাদ হোসেনের ছেলে এবং জাহাঙ্গীর আত্রাইয়ের হাটকালুপাড়া এলাকার খোদাবক্সের ছেলে। অন্যদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সদর উপজেলায় বজ্রপাতে দুই কৃষকের মৃত্যু ও একজন আহত হয়েছেন। গতকাল বিকাল ৪টার দিকে উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নের শ্রীরামপুরে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, শ্রীরামপুর গ্রামের মোশাররফ হোসেন ও রেজাউল করিম। ৫ মিনিটেই বিধ্বস্ত শতাধিক ঘরবাড়ি : মাত্র চার থেকে পাঁচ মিনিটের কালবৈশাখীতে সদর উপজেলায় একটি গ্রামের শতাধিক কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার শুকানপুকুরী ইউনিয়নের বাংরোড গ্রামের ওপর দিয়ে এ ঝড় বয়ে যায়।
সেল বিস্ফোরণে বান্দরবানে এক সেনা সদস্য নিহত, আহত ৮
১৭মে,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বান্দরবানে সোয়ালোক ইউনিয়নের আমতলী এলাকায় সেনাবাহিনীর ভারি অস্ত্রের ফায়ারিং রেঞ্জে পরিত্যক্ত সেল (বোমা) বিস্ফোরণে এক সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো ৮ জন। আজ শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, হতাহত সেনা সদস্যরা কুমিল্লা সেনানিবাসের ১৬-প্যারা ব্যাটালিয়নের সদস্য। আাগামীকাল শনিবার বিকেলে ওই এলাকায় ফায়ারিং হওয়ার কথা ছিল। এ উপলক্ষে তারা ঝোপ-জঙ্গল পরিস্কার করছিলেন। এ সময় ওই বিস্ফোরণ ঘটে। নিহত সেনা সদস্যের নাম জাহিদুল ইসলাম (২৯)। আহতরা হলেন- সৈনিক আসাদ, নিপুন চাকমা, রাজু, হাসান, তারেকুল, মোস্তাফিজ ও আরিফ। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। হতাহতদের উদ্ধার করে তাৎক্ষণিকভাবে পার্শ্ববর্তী চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় বিজিবির বাইতুল ইজ্জত ট্রেনিং সেন্টারে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে চট্টগ্রামের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। ঘটনা পর ওই এলাকা সেনাবাহিনী ঘিরে রেখেছে। বান্দরবানের পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। স্থানীয় ইউপি সদস্য আছুমং জানিয়েছেন, তারা বড় ধরনের বিস্ফোণের শব্দ শুনেছেন। এর পর হতাহতদের নিয়ে যেতে দেখেছেন।
ঘণ্টাব্যাপী ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি মেহেরপুরে
১৬মে,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রায় ঘন্টাব্যাপী ঝড় বৃষ্টিতে মেহেরপুরের গাংনীতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বিভিন্ন গাছগাছালির, আম-লিচু ও বোরো ধানের। বুধবার (১৫ মে) রাত সাড়ে নয়টার দিকে উত্তর আকাশে কালো মেঘের পর এ দুর্যোগ শুরু হয়। জানা গেছে, সন্ধ্যা থেকে উত্তর আকাশে বজ্রপাত ও মেঘের গর্জন চলছিল। রাত সাড়ে নয়টার দিকে দমকা বাতাস ও বৃষ্টি শুরু হয়। এক পর্যায়ে প্রচণ্ড ঝড় ও বৃষ্টির তীব্রতা বাড়তে থাকে। জানা গেছে, ঝড়ে গাংনী উপজেলা পরিষদ চত্বরে একটি বড় সেগুন গাছ উপড়ে পড়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন সড়কের পাশের অনেক গাছগাছালির ডালপালা ভেঙে পড়েছে। উপড়ে পড়েছে ছোট বড় অনেক গাছ। ঝড়ের সময় থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিকভাবেই বন্ধ হয়ে পড়েছে। তবে কুষ্টিয়া থেকে আসা ৩৩ কেভি লাইনের উপর গাছপালা পড়ায় তা অপসারণ করে কখন বিদ্যুৎ চালু হবে তা বলতে পারছে না পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ। এদিকে বিভিন্ন এলাকা থেকে বোরো ধানের ক্ষেতে পানি জমার খবর পাওয় গেছে। অনেক ক্ষেতের ধান মাটির সঙ্গে নুইয়ে পড়েছে। আম লিচুর ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে। ঝড়ের আঘাতে অপরিপক্ব আম ও লিচু ঝরে পড়ায় লোকসানের মুখে পড়েছেন বাগান মালিক ও ব্যবসায়ীরা। গাংনী উপজেলা কৃষি অফিসার কেএম শাহাবুদ্দীন আহমেদ বলেন, ক্ষয়ক্ষতির খবর আমি পেয়েছি। সকালে মাঠ পরিদর্শন করে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণের জন্য উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
গৃহবধূকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ, আটক ২
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলায় এক গৃহবধূকে ধর্ষণ ও সে দৃশ্যের ভিডিওচিত্র ধারণের অভিযোগে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। শ্রীপুর থানার ওসি মাহবুবর রহমান জানান, গত মঙ্গলবার রাতে ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ নিজে বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। আসামিরা হলেন শ্রীপুরের বরিষাট গ্রামের আজিজুর রজমান ছেলে আনিসুর রহমান (৩২) ও সাজ্জাদ হোসেনের ছেলে রবিউল ইসলাম (২৭)। মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, ওই গৃহবধূ মঙ্গলবার সকালে শ্বশুরবাড়ি থেকে ফরিদপুরে বাবার বাড়ি যাচ্ছিলেন। শ্রীপুর উপজেলা শহরের অদূরে বরিষাট গ্রামে নির্জন স্থানে পৌঁছালে ওই দুইজন তার গলার চেইন ছিনিয়ে নেয়। তারপর তার মুখ চেপে ধরে আনিসুর তাকে ধর্ষণ করে আর রবিউল সে দৃশ্য মোবাইল ফোনে ভিডিও করে। এসময় গৃহবধূ চিৎকার করলে, আশেপাশের লোকজন গিয়ে দুইজনকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। লোকলজ্জার ভয়ে প্রথমে ধর্ষিতা গৃহবধূ থানায় অভিযোগ করেনি। পরে রাত ৮টার দিকে পুলিশ তাকে অভয় দিলে, মামলা করতে রাজি হয় সে। এবং মঙ্গলবার রাতেই শ্রীপুর থানায় এ ঘটনায় ধর্ষন ও পর্ণগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ সুপার খান মুহাম্মদ রেজোয়ান বলেন, মামলার পর বুধবার পুলিশ তার ডাক্তারি পরীক্ষার ব্যবস্থা করে। অন্যান্য আইনি প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।
অস্ত্রের মুখে কিশোরীকে গণধর্ষণ, চার যুবক গ্রেপ্তার
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কমবরিশালের মুলাদী উপজেলায় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এক কিশোরীকে(১৫) তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে অভিযান চালিয়ে চার যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- ঘোষেরচর এলাকার মো. আদারি খানের ছেলে নজরুল ইসলাম (৩১), জালালপুর গ্রামের দেলোয়ার খানের ছেলে ফয়সাল খান (১৮), হযরত আলী সরদারের ছেলে রনি সরদার (২৪) এবং পশ্চিম তেরচর গ্রামের বজলু সিকদারের ছেলে রাব্বী সিকদার (১৮)। গণধর্ষণের শিকার কিশোরীর স্বজনরা জানান, উপজেলার সদর ইউনিয়নের দড়িচর গ্রামের ওই কিশোরী সোমবার সকালে পাইতিখোলা এলাকায় মামা বাড়িতে বেড়াতে যায়। পূর্ব-পরিচয়ের সূত্র ধরে উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের ঘোষেরচর গ্রামের আদারি খানের ছেলে ইজিবাইক চালক নজরুল ইসলাম খান কথা আছে বলে ওই কিশোরীকে ইজিবাইকে ওঠায়। পরে সহযোগীদের নিয়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে কিশোরীকে পাশের ইউনিয়নের জালালপুর গ্রামের রহিম ক্বারীর কলাবাগানে নিয়ে যায়। সেখানে তার সহযোগী ফয়সাল খান, রাব্বী সিকদার, রনি সরদার ওই কিশোলীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে স্থানীয়রা ওই কিশোরীর চিৎকার শুনে তিন ধর্ষককে আটক করে। সেই সঙ্গে কিশোরীকে উদ্ধার করে স্থানীয় দফাদার আবু হানিফ ও চৌকিদার আমিনুল ইসলামের হাতে তুলে দেয়। দফাদার ও চৌকাদার ধর্ষকদের কাছ থেকে মুচলেকা রেখে তাদের ছেড়ে দেয় এবং কিশোরীকে তাদের জিম্মায় রেখে থানায় সংবাদ দেয়। মুলাদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়াউল আহসান বলেন, মঙ্গলবার সকালে খবর পেয়ে মুলাদী থানা পুলিশ জালালপুর গ্রামে পৌঁছে গণধর্ষণের শিকার কিশোরীকে উদ্ধার করে। এরপর সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত মুলাদী থানা পুলিশ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের অভিযান চালিয়ে গণধর্ষণের সঙ্গে জড়িত চার যুবককে গ্রেপ্তার করে। এদিকে, সংবাদ পেয়ে বরিশাল জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাইমুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং ধর্ষকদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন।
পাচারের সময় নারী ও শিশুসহ ৩৪ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:সাগরপথে মালয়েশিয়ায় পাচারের চেষ্টার সময় কক্সবাজার থেকে নারী ও শিশুসহ ৩৪ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার মধ্যরাতে কক্সবাজার শহরের দরিয়ানগর বড়ছড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের উদ্ধার করা হয় বলে সদর থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন খোন্দকার জানান।উদ্ধার রোহিঙ্গাদের মধ্যে ১১ জন পুরুষ, ১৫ জন নারী এবং আটজন শিশু বলে জানান ওসি। তিনি বলেন, সাগরপথে মালয়েশিয়া পাচারের উদ্দ্যেশ্যে একদল লোককে জড়ো করার খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল রাতে সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দালাল চক্রের লোকজন সটকে পড়ে বলে জানান ওসি।তিনি বলেন, সম্প্রতি সক্রিয় হয়ে উঠা সংঘবদ্ধ মানবপাচারকারী চক্র উখিয়া ও টেকনাফের বিভিন্ন শরণার্থী ক্যাম্প থেকে এই রোহিঙ্গাদের নিয়ে পাচারের উদ্দ্যেশ্যে জড়ো করছিল।উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গাদের আপাতত থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। পরে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে তাদের নিজ নিজ ক্যাম্পে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে বলে পুলিশ কর্মকর্তারা জানান।

সারা দেশ পাতার আরো খবর