ঠাকুরগাঁওয়ে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত
০৬জুন২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার ফকিরগঞ্জ সীমান্ত এলাকায় বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে ফকিরগঞ্জ এলাকার বঙ্গবন্ধু বাজারের পাশে একটি ফাঁকা ক্ষেতে এই কথিত বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। বিজিবির দাবি, নিহত ব্যক্তি মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন। নিহত ব্যক্তি দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার উত্তর সুজালপুর গ্রামের মৃত মাইদুল ইসলামের ছেলে মনিরুল ইসলাম বাবুল। নিশ্চিত করেন দিনাজপুর-৪২ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল গাজী নাহিদ উজ জামান। তিনি জানান, গত মঙ্গলবার ফকিরগঞ্জ সীমান্ত এলাকা থেকে ১১২টি ফেন্সিডিলের বোতল, ১ বোতল মদসহ মনিরুল ইসলাম বাবুল আটক হয়। তার স্বীকারোক্তি মতে গত রাতে বিজিবি অভিযান চালাতে গেলে ফকিরগঞ্জ বঙ্গবন্ধু বাজারের পাশে একটি ফাঁকা ক্ষেতের কাছে পৌছালে ওঁৎ পেতে থাকা মাদক ব্যবসায়ীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বিজিবিকে আক্রমণ করে। এ সময় বিজিবি পাল্টা গুলি করে। ঘটনাস্থলে মারা যায় মনিরুল ইসলাম বাবুল। এ সময় ৭৫ বোতল ফেন্সিডিল ও একটি দেশীয় দা উদ্ধার করা হয় বলে জানান বিজিবির এই অধিনায়ক। পরে পীরগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই মাদক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও মর্গে পাঠায়।
গাছের সঙ্গে বাসের ধাক্কা,নিহত ৬
৫জুন২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ফরিদপুর সদর উপজেলায় বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ছয়জন নিহত ও অন্তত ২০ জন হয়েছেন। বুধবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে উপজেলার ধুলদী রেলগেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হতাহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। ফরিদপুরের ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. নুরুল আলম দুলাল জানান, সকালে এ কে ট্রাভেলসের একটি বাস ঢাকা থেকে যাত্রীদের নিয়ে চুয়াডাঙ্গার দিকে যাচ্ছিল। ধুলদী রেলগেট এলাকায় পৌঁছালে চালক নিয়ন্ত্রণ হারায়। এতে বাসটি রাস্তার পাশের একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়। ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হন। আহতদের উদ্ধার করে ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরো দুজন মারা যান। আহতদের মধ্যে ১৩ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
সিরাজগঞ্জে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে,নিহত ৪
৪জুন২০১৯,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে চারজন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন। মঙ্গলবার ভোর ৪টার দিকে নগরবাড়ি-বগুড়া মহাসড়কে রায়গঞ্জ উপজেলার শিমলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঈদ উপলক্ষে বাড়ি ফিরছিলেন যাত্রীরা। তবে এখনও হতাহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি। রায়গঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার মো. সেরাজুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ঢাকা থেকে গাইবান্ধাগামী যাত্রীবাহী বাসটি রায়গঞ্জ উপজেলার শিমলা এলাকায় পৌঁছে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। খবর পেয় ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরা এসে উদ্ধার অভিযান চালিয়ে ৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করে। আহত ২০ জনকে উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাসটি খাদের পানিতে পড়ে গেছে। সেখানে উদ্ধার অভিযান এখনও চলেছ। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানান তিনি। এদিকে সোমবার রাত ৮টার দিকে ঢাকার ধামরাইয়ের কালামপুরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে বাসের ধাক্কায় পিকআপ ভ্যানের চার যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত পাঁচজন। ধামরাই ফায়ার স্টেশনের কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর জানান, আরিচামুখী একটি যাত্রীবাহী বাস ঈদ উপলক্ষে যাত্রী পরিবহন করা একইমুখী একটি পিকআপ ভ্যানকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে পিকআপ ভ্যান থেকে ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই চারজন (পুরুষ) নিহত হন। আহত হন আরও অন্তত পাঁচজন।
ফেনীতে পুলিশের গাড়িচাপায় ৩ নারী শ্রমিক নিহত
৩জুন২০১৯,সোমবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ফেনীর চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) গাড়িচাপায় তিনি নারী শ্রমিক নিহত ও আরও ছয় থেকে সাতজন শ্রমিক আহত হয়েছেন। এসময় গাড়িতে থাকা পিবিআই’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামান ও আরও দুই পুলিশ সদস্য আহত হন। আজ সোমবার বিকেল বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার মিয়াবাজার সংলগ্ন চানন্দুল এলাকার ড্রাগন সুয়েটার অ্যান্ড স্পিনিং মিলের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন-চৌদ্দগ্রাম উপজেলার সাতবাড়িয়া গ্রামের নাছিমা আক্তার (৩৬), সদর দক্ষিণ উপজেলার জগপুর গ্রামের তানজিনা আক্তার (২৮) ও কাজল বেগম (৩২)। নিহত তিনজনই ড্রাগন সুয়েটার অ্যান্ড স্পিনিং মিলের শ্রমিক ছিলেন বলে জানা গেছে। চৌদ্দগ্রাম মিয়া বাজার হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশের পরিদর্শক মঞ্জুরুল হক বলেন, বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে চানন্দুল এলাকায় তাকে বহনকারী গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে অপেক্ষমান শ্রমিকদের চাপা দিয়ে খাদে পড়ে যায়। এতে ৮ থেকে ৯ জন নারী শ্রমিক গুরুতর আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে আনার পর তিন নারী শ্রমিকের মৃত্যু হয়। আহত শ্রমিকরা জানান, কারখানা ছুটি শেষে তারা গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন। হঠাৎ পুলিশের গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাদের চাপা দিলে হতাহতের ঘটনা ঘটে।-আরটিভি অনলাইন
দুপুরের মধ্যেই সড়কে ঝরলো ১৪ প্রাণ
২জুন২০১৯,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঈদ যাত্রা শুরু হতেই সড়কে শুরু হয়েছে লাশের মিছিল। এর মধ্যে রোববার ( ২ জুন) দুই জেলায় ১৪ জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে সুনামগঞ্জে ছয় জন এবং সিরাজগঞ্জে আট জন। সুনামগঞ্জ: সুনামগঞ্জ-দিরাই সড়কের গণিগঞ্জ এলাকায় বাস-লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে ৬ লেগুনা যাত্রী নিহত হয়েছেন। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন আরও ৫ জন। রোববার সকাল ৭টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় বাস ও লেগুনা সড়কের দু পাশে ছিটকে পড়ে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার দুর্বাকান্দা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে আফজাল হোসেন (১৬), একই গ্রামের ফজল মিয়ার ছেলে মিলন (১৫), ওই গ্রামের ইস্তু মিয়ার ছেলে সাগর (১৬), গাগলি গ্রামের আব্দুলের ছেলে লেগুনা চালক নোমান (২২) ও শাল্লা উপজেলার নিয়ামতপুর গ্রামের মনীন্দ্র দাসের ছেলে নৃপ্রেশ দাস। নিহত অপর এক যুবকের পরিচয় পাওয়া যায়নি। ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় মরদেহ উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, দিরাই থেকে লিমন পরিবহনের একটি বাস ঢাকার উদ্দেশে যাচ্ছিল। বাসটি দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার গণিগঞ্জ এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি লেগুনার সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। গতি বেশি থাকায় গাড়ি দুটি রাস্তার দু’পাশে ছিটকে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলে ৬ লেগুনা যাত্রীর মৃত্যু হয়। গুরুতর আহত হন আরও ৫ যাত্রী। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম জানান, বাস-লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে ৬ জন ঘটনাস্থলে মারা গেছেন। তাদের মধ্যে ৫ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার বোয়ালিয়া বাজারের গরুহাটা এলাকায় বাস ও লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে ৮ জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আরও ১৫ জন। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় জানা যায়নি। রোববার দুপুর ১টার দিকে বগুড়া-নগরবাড়ী মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বর্তমানে ওই সড়কের উভয়পাশে যানচলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন ঈদে ঘরমুখো মানুষ। দুর্ঘটনায় হতাহতদের উদ্ধারে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় পুলিশ। হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানা পুলিশের ওসি আব্দুল কাদের জিলানী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এদিকে সুনামগঞ্জে রোববার সকাল ৭টার দিকে সুনামগঞ্জ-দিরাই সড়কের গণিগঞ্জ এলাকায় বাস-লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে ৬ লেগুনা যাত্রী নিহত হয়েছেন। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন আরও ৫ জন।-আলোকিত বাংলাদেশ
বাস-লেগুনা সংঘর্ষে ৬ জন নিহত
০২জুন২০১৯,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় বাস ও লেগুনার মধ্যে সংঘর্ষে ছয়জন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরো সাতজন। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত পাঁচজনকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন অর রশিদ বলেন, আজ রোববার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার পাথারিয়া বাজারে গনিগঞ্জ এলাকায় বাস ও লেগুনার মধ্যে সংঘর্ষে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে পাঁচজনের নাম জানা গেছে। এরা হলেন লেগুনাচালক দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার গাগলি গ্রামের মো. নোমান (২৪), একই উপজেলার দুর্বাকান্দা গ্রামের সাগর মিয়া (১৫), আফজাল মিয়া (১৬), মিলন মিয়া (১৮) ও শাল্লা উপজেলার মিকেশ চন্দ্র দাস (২২)। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলাম বলেন,লিমন পরিবহনের বাসটি গতকাল রাতে ঢাকা থেকে ঈদের যাত্রী নিয়ে আজ ভোরে দিরাই আসে। যাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে খালি বাসটি সকাল ৭টার দিকে আবার ঢাকার দিকে যাত্রা করে। অপরদিকে লেগুনাটি দিরাই-সুনামগঞ্জ সড়কের মদনপুর স্ট্যান্ড থেকে যাত্রী নিয়ে যাচ্ছিল। পথে উপজেলার পাথারিয়া বাজারের গনিগঞ্জ এলাকায় বাস ও লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে লেগুনা ও বাসটি উল্টে রাস্তার দুই পাশে ছিটকে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই ছয়জন মারা যান। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয় যোগ করেন এসআই। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে সুনামগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা এসে হতাহতদের উদ্ধার করেন বলে জানান জেলা স্টেশন অফিসার মিল্টন দাশ। তিনি আরো বলেন, ঘটনাস্থলে এসে লেগুনা থেকে ছয়টি লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে সেগুলো পুলিশে হস্তান্তর করা হয়। লাশগুলো ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী গনিগঞ্জ গ্রামের মো. আজাদ মিয়া (৫৫) গণমাধ্যমকে বলেন, দুর্ঘটনার পর বাসটি ছিটকে রাস্তার ডান পাশে এবং লেগুনাটি রাস্তার বামপাশে উল্টে পড়ে। লেগুনায় মোট ১৪ জন যাত্রী ছিলেন। তাদের বের করা হয়। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। স্থানীয়রাও হতাহতদের উদ্ধারে সহযোগিতা করেন।
অতিষ্ঠ জনজীবনে বৃষ্টিতে স্বস্তি
১জুন,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: কয়েক দিনের প্রচণ্ড দাবদাহে মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছিল। শনিবার সকালে চট্টগ্রামসহ দেশের বেশ কিছু জায়গায় বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টিতে জনমনে ফিরে এলো স্বস্তি। মানুষের কাজের কিছুটা বিঘ্ন ঘটলেও প্রচণ্ড দাবদাহের হাত থেকে রক্ষা পেয়ে খুশি সবাই। এই স্বস্তি থাকতে পারে ঈদযাত্রাতেও। কারণ, বৃষ্টি ঝরতে পারে ৫ জুন পর্যন্ত। তবে বেশি বৃষ্টি হলে তা আবার যাত্রীদের ভোগান্তিতেও ফেলতে পারে। বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের ৪৮ ঘণ্টার (গতকাল সন্ধ্যা থেকে পরবর্তী) পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া আজ ও আগামীকাল বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়তে পারে। আবহাওয়াবিদ আরিফ হোসেন বলেন, আগামী মাসের (জুন) এক তারিখ থেকে বৃষ্টি বাড়বে। ১ থেকে ৫ জুন পর্যন্ত সারাদেশে বৃষ্টি বেশি থাকবে।
টেকনাফে অভিযান চালিয়ে ৫ লাখ ৪০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার
১জুন,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: টেকনাফে বিজিবি অভিযান চালিয়ে ৫ লাখ ৪০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে । টেকনাফস্থ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লে. কর্ণেল ফায়সাল হাসান খান সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার (৩১ মে) দিবাগত রাত ১০ টার দিকে মিয়ানমার হতে ইয়াবার চালান আসার সংবাদে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানের এক পর্যায়ে হ্নীলা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের দমদমিয়া ওমর খাল এলাকা হতে ইয়াবার চালানটি উদ্ধার করা হয়। আজ শনিবার সকাল ১০টায় টেকনাফ বিজিবি সদর দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। এছাড়া বন্দুকযুদ্ধে ২ জন ইয়াবা পাচারকারী নিহত হয়েছেন বলেও নিশ্চিত করেছেন ২ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লে. কর্ণেল ফায়সাল হাসান খান।

সারা দেশ পাতার আরো খবর